তিনজন বিশিষ্ট ব্যাক্তি স্মরণে-সন্দ্বীপ অনলাইন প্রেস ক্লাবের শোকসভা ও দোয়া মাহফিল

তিনজন বিশিষ্ট ব্যাক্তি স্মরণে-সন্দ্বীপ অনলাইন প্রেস ক্লাবের শোকসভা ও দোয়া মাহফিল

 



রিয়াজুল করিম রিজভী

স্টাফ রিপোর্টার চট্টগ্রাম


স্বাস্থ্যবিধি মেনে সন্দ্বীপের তিনজন বিশিষ্ট ব্যাক্তি স্মরণে সন্দ্বীপ অনলাইন প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে এক শোকসভা ও দোয়া মাহফিল আজ ২৮ আগষ্ট শুক্রবার সকাল ১০ টায় অনু্ষ্ঠিত হয়। উক্ত তিনজন বিশিষ্ট ব্যাক্তি হচ্ছেন- সন্দ্বীপের সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার এ বি এম ছিদ্দিকুর রহমান, সন্দ্বীপের সাবেক তিনবারের শ্রেষ্ঠ প্রাথমিক প্রধান শিক্ষক জামাল উদ্দিন ও হালিশহর থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক জনতার খবর সম্পাদক এম. শামসুল হুদা।


সন্দ্বীপের এনাম নাহার হাই স্কুল মোড় সংলগ্ম মুছাপুর  জুনিয়র অসংলগ্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অনু্ষ্ঠিত উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করবেন-'সাপ্তাহিক আলোকিত সন্দ্বীপ' সম্পাদক ও সন্দ্বীপ অনলাইন প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি অধ্যক্ষ মুকতাদের আজাদ খান।


সন্দ্বীপ অনলাইন প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াছ সুমনের সঞ্চালনায় শোকসভায় সম্মানিত আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে আলোচনায় অংশ নেন- সন্দ্বীপ উপজেলা কমপ্লেক্স কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোঃ খবিরুল ইসলাম, সন্দ্বীপ শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক আবুল কাসেম শিল্পী, মগধরা স্কুল এন্ড কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি কারিমুল মাওলা লিটন, আজিমপুর হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক বিষ্ণু পদ রায়, মাইটভাঙ্গা দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মোঃ সাইফুল ইসলাম, উপজেলা ইন্সট্রাক্টর মোঃ রুহুল আমিন, মগধরা স্কুল এন্ড কলেজের প্রভাষক মহি উদ্দিন খান, পূর্ব সন্দ্বীপ বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক কবি নীলাঞ্জন বিদ্যুৎ, মুছাপুর জুনিয়র অসংলগ্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিঠু রানী রায় চৌধুরী, এনাম নাহার হাই স্কুল মোড় ব্যবসায়ী কল্যান সমিতির সাবেক সভাপতি আসিফ আকতার, অনলাইন সন্দ্বীপ টিভির নির্বাহী খোদাবক্স সাইফুল ও সাবেক ছাত্রনেতা রেজাউল করিম রিয়াদ।


উপস্থিত ছিলেন- লিও রিয়াদ রহমান, বেসরকারি সংস্থা নিজেরা করির সন্দ্বীপ অঞ্চল সভাপতি মতিয়ার রহমান, হাজী আবদুল বাতেন সওদাগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নূর নবী রিয়াদ, মগধরা স্কুল এন্ড কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মুসলিম উদ্দিন টিটু, দৈনিক সরেজমিন পত্রিকার হালিশহর প্রতিনিধি রিয়াজুল করিম রিজভী।


আরও উপস্থিত ছিলেন- সাপ্তাহিক আলোকিত সন্দ্বীপ-এর ষ্টাফ প্রতিনিধি নূর মোস্তফা আলী হাসান, 

সন্দ্বীপ অনলাইন প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি মাকছুদ আলম, যুগ্ম সম্পাদক ডা. পুষ্পেন্দু মজুমদার, আইটি সম্পাদক আরফিন তৈয়ব, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নাঈম সোহাগ, শিক্ষা সম্পাদক শরীফ উদ্দিন, সদস্য প্রলয় চন্দ্র দাশ, সবুজ চন্দ্র দাশ, সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির সন্দ্বীপ টাউন ইনচার্জ মোঃ মোবারক হোসাইন, অনলাইন সন্দ্বীপিয়ান টিভির নির্বাহী মাইন উদ্দিন আল আকাশ।


শোকসভায় পবিত্র কোরআন থেকে তিলোয়াত করেন-দৈনিক খবর পত্রিকার সাবেক সন্দ্বীপ প্রতিনিধি হাফেজ জামাল আবদুল নাছির শাহী।


দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন-সন্দ্বীপ উপজেলা কমপ্লেক্স কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোঃ খবিরুল ইসলাম।


প্রসঙ্গগত, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার এ বি এম ছিদ্দিকুর রহমান গত ১৮ আগষ্ট মঙ্গলবার নিজ বাসভবন জামান গেষ্ট হাউসে ষ্ট্রোকজনিত কারণে ইন্তেকাল করেন, সাবেক তিনবারের শ্রেষ্ঠ প্রাথমিক প্রধান শিক্ষক জামাল উদ্দিন স্যার গত ২৬ আগষ্ট বুধবার চট্টগ্রাম নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে করোনায় ইন্তেকাল করেন এবং হালিশহর থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক জনতার খবর সম্পাদক এম.শামসুল হুদা গত ১৪ আগষ্ট শুক্রবার চট্টগ্রাম নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ষ্ট্রোকজনিত কারনে ইন্তেকাল করেন।

মুরাদনগরে আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও সমাবেশ

 মুরাদনগরে আ’লীগ নেতার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও সমাবেশ


আলমগীর হোসাইন বাগমারা,কুমিল্লা:উদ্দেশ্য প্রনোদিত হয়ে আওয়ামীলীগ নেতা, তার ব্যবসায়ী ভাই ও মৎস্য খামার কর্মচারীকে মিথ্যা মামলা দিয়ে অহেতুক হয়রানি করার প্রতিবাদে এক মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়নের সুরানন্দি বাজারে ওই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।


পাহাড়পুর ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুস ছামাদ মাঝির সভাপতিত্বে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল আজিজের উপস্থাপনায় উক্ত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম সরকার, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক লিটন কুমার ভৌমিক, সমাজ সেবক ছিদ্দিক হোসেন মাস্টার, মঞ্জুরুল আলম সরকার, সাবেক মেম্বার কাজী সেলিম সরকার ও জোহর আহম্মেদ প্রমুখ।


মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন, নুরুল ইসলাম মেম্বার, ব্যবসায়ী রাসেল ভুইয়া, আবু ইউসুফ ওরফে মনির হোসেন, লিটন মিয়া, মাস্টার সঞ্জিত চন্দ্র বিশ্বাস, আবু ইউসুফ ওরফে জাকির হোসেন, সমাজ সেবক তফাজ্জল হোসেন, নুরুন নবী, হাজী জয়নাল আবেদীন ও নুরুল ইসলাম আমিন প্রমুখ।


ভূক্তভোগি ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম বলেন, আমি একজন মৎস্য চাষী। সুরানন্দি গ্রামের নবী নেওয়াজের ছেলে মাদক ব্যবসায়ী শাহপরান আমার কাছে ৫০ হাজার টাকা চাদঁা চায়। চাদঁা না দেওয়ায় তার স্ত্রী লাকি বেগমকে দিয়ে গত ২৫ জুন আমার ভাই আব্দুর রহিম ওরফে জুলু মিয়াসহ আমার বিরুদ্ধে মুরাদনগর থানায় একটি মিথ্যা মামলা করে। ওই মামলায় আমরা আদালত থেকে জামিনে আসি। এখানে সে ব্যর্থ হয়ে এলাকার কয়েকজন কুচক্রী মহলের প্ররোচনায় আবার ১৬ জুলাই কুমিল্লার বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনালের ৩নং আদালতে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে আরেকটি মিথ্যা মামলা করেন। এ মামলায় আমার ভাই আব্দুর রহিম ওরফে জুলু মিয়া ৫ দিন কারাভোগ করে জামিনে মুক্ত হন। এখন মামলার বাদী লাকি বেগম ও তার স্বামী শাহপরান লোক মারফত আমার কাছে খবর পাঠান মোটা অংকের টাকা দিলে মামলা তুলে নিবে।


মাদক মামলায় ৬ মাসের কারাভোগকারী শাহপরান ও তার স্ত্রী লাকি বেগম আমাদেরকে অহেতুক বার বার মিথ্যা মামলা দিয়ে পারিবারিক, সামাজিক ও আর্থিক ক্ষতিসাধন করছে। তাদেরকে আইনের আওতায় এনে আমাদের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি।


মানববন্ধনে অন্যান্য বক্তারা আরো বলেন, পাহাড়পুর ইউনিয়নে কোন সামাজিক দ্বন্দ নেই। শাহপরান শহর থেকে গ্রামে আসার পর মাদক, জুয়া ও মিথ্যা মামলা দিয়ে সমাজের গন্যমান্য ব্যক্তিদের হয়রানি করছেন। যাতে করে ভয়ে তার মাদক ব্যবসা বাধঁা হয়ে না দাড়ঁায়। এ পরিবারটিকে যেখানে আইনের হাতে তুলে দেওয়া দরকার, সেখানে কিছু কুচক্রী মহল বিভিন্ন ভাবে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিচ্ছে। যার ফলে সাধারণ মানুষ আতংকের মধ্যে আছে এবং গ্রামের শান্তি বিনষ্ট হচ্ছে।


মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশের সভাপতি পাহাড়পুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস ছামাদ মাঝি বলেন, আইন যদি আইনের গতিতে চলে তাহলে প্রত্যাশিত সুবিচার পাওয়া যায়। যখনি কচক্রী মহল উদ্দেশ্য প্রনোদিত হয়ে আইনকে ভিন্নখাতে প্রভাবিত করে তখনিই সম্মানী মানুষ হয়রানির শিকার হয়। আব্দুল করিম একজন পরিচ্ছন্ন আওয়ামীলীগ নেতা এবং সফল মৎস্য ব্যবসায়ী। তাকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা যেমন আইন লংঘন হয়েছে, তেমনি কাজটি হয়েছে ঘৃনীত ও নিন্দনীয়। ইতপূর্বে এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনা পাহাড়পুর ইউনিয়নে ঘটে নাই। আমি এ ইউনিয়নের সকলকে বিনয়ের সহিত বলতে চাই, যদি আর কোন মানুষকে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হয়, তাহলে সর্বস্তরের জনগণকে নিয়ে আমরা তা প্রতিহত করব।


মানববন্ধনে অভিযোগ আনা শাহপরানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও রিসিভ না করায় কথা বলা সম্ভব হয়নি।

হবিগঞ্জে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ২৫ আটক ১০

হবিগঞ্জে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ২৫ আটক ১০


লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:হবিগঞ্জ জেলার সদর উপজেলায় সাবেক ও বর্তমান দুই ইউপি চেয়ারম্যানের লোকদের মধ্যে দুদফা রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে পুলিশসহ অন্তত ২৫ জন আহত হয়। শুক্রবার (২৮-আগস্ট) দুপুরে সদর উপজেলার নিজামপুর ইউনিয়নের দরিয়াপুর গ্রামে এ সংঘর্ষ হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি এনেছে। এ সময় ১০ জনকে আটক করা হয়।


পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ওই গ্রামের বাসিন্দা বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান মো. তাজ উদ্দিন এবং সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মো. আব্দুল আওয়ালের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এর জের ধরে শুক্রবার জুমার নামাজের পূর্বে উভয়পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।


পরে জুমার নামাজের পর দুই পক্ষ আবার সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ আবারও ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় ১০ জনকে আটক করা হয়েছে। সংঘর্ষে ৫ পুলিশসহ অন্তত ২৫ জন আহত হয়। তারা সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছে।


সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মাসুক আলী জানান, দুই চেয়ারম্যানের বিরোধে সংঘর্ষ হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে।

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ফরিদপুরের নগরকান্দায় শোক র‍্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে

 জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ফরিদপুরের নগরকান্দায় শোক র‍্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে


মো: আ: কুদ্দুস নগরকান্দা প্রতিনিধিঃজাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ফরিদপুরের নগরকান্দায় শোক র‍্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে শোক র‍্যালীর নেতৃত্ব দেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী এমপির রাজনৈতিক প্রতিনিধি ও তার পুত্র শাহাদব আকবর লাবু চৌধুরী। র‍্যালীটি উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে শুরু করে পৌর শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে। এর আগে উপজেলায় ডাক বাংলো মাঠে এক সংক্ষিপ্ত শোকসভার আয়োজন করে। শাহাদব আকবর লাবু চৌধুরী ছাড়াও এ শোকসভায় আরো বক্তব্য রাখেন, সংসদ উপনেতার একান্ত সহকারী সচিব শফিউদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও নগরকান্দা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানপ্ত মনিরুজ্জামান সরদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বেলায়েত হোসেন মিয়া বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ,আওয়ামী ও তার অংগ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সিরাজগঞ্জে কামারখন্দে ভূটভুটির নিচে চাপা পড়ে কৃষকের মৃত্যু !

 সিরাজগঞ্জে কামারখন্দে ভূটভুটির নিচে চাপা পড়ে কৃষকের মৃত্যু !




মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের কামারখন্দে পাটের আঁশ ছাড়ানোর সময় ভুটভুটির নিচে চাপা পড়ে সামছু সরকার (৪৫) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে।

 সে উপজেলার চরকুড়া গ্রামের জহুরুল ইসলাম সরকারের ছেলে।

শুক্রবার (২৯ আগস্ট) উপজেলার চরকুড়া আঞ্চলিক সড়কে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় একই এলাকার নারী ও শিশু সহ আরো তিনজন আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন, মালেকা (৬০) নুর জাহান (১০) এবং ইয়াহিয়া (৪২)।


নিহতের ছোট ভাই আয়নাল সরকার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। এ ব্যাপারে কামারখন্দ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সাব অফিসার আফাজ উদ্দিন জানান, সকালে চরকুড়া গ্রামের আঞ্চলিক সড়ক দিয়ে একটি ভুটভুটি যাচ্ছিল। এমতাবস্থায় ভুটভুটিটি চড়কুড়া গ্রামের সামছু সরকারের বাড়ীর সামনে এসে পৌঁছালে ভুটভুটিটি রাস্তার বাম পাশে উল্টে যায়। সেখানে পাটের আঁশ ছাড়াতে ব্যস্ত থাকা কৃষক সামছু সরকার, মালেকা ও নুর জাহান এবং পথচারী ইয়াহিয়া ওই ভুটভুটির নিচে চাপা পড়ে।

পরে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পোঁছে তিনজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে। আহতদের মধ্যে সামছু সরকারের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নতি চিকিৎসার জন্য বগুড়ায় রেফার্ড করেন চিকিৎসক। বগুড়ায় যাওয়ার পথে জেলার রায়গঞ্জ উপজেলার চান্দাইকোনা এলাকায় পৌঁছালে বিকেলের দিকে মারা যান সামছু সরকার।

সিরাজগঞ্জে উল্লাপাড়ায় এক পুলিশ কনেস্টবলের স্ত্রী লাস ডোবা থেকে উদ্ধার

সিরাজগঞ্জে উল্লাপাড়ায় এক পুলিশ কনেস্টবলের স্ত্রী লাস ডোবা থেকে উদ্ধার




মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জে উল্লাপাড়ায় সুরভী (২০) নামের এক গৃহবধুর লাশ বাড়ির পার্শ্বের ডোবা থেকে উদ্ধার করেছে উল্লাপাড়া মডেল থানার পুলিশ । সে উপজেলার পঞ্চক্রোশী ইউনিয়নের চর-কালিগঞ্জ গ্রামের সাহেব আলীর ছেলে পুলিশ কনস্টেবল মনিরুল ইসলাম (২৬)এর স্ত্রী। একই ইউনিয়নের রামকান্তপুর গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে সুরভী ।


গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ শহীদ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হাসপাতালে পাঠিয়েছে।


এ বিষয়ে উল্লাপাড়া মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দীপক কুমার দাশ (পিপিএম) জানান এটা হত্যা নাকি আত্মহত্যা ঘটনাটি স্পষ্ট নয়। লাশ ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে। এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কেউ কোন অভিযোগ করেনি ।

রাজশাহীর বাগমারায় বিলসুতি বিল উন্মুক্তের দাবিতে এলাকাবাসীর মানবন্ধন

রাজশাহীর বাগমারায় বিলসুতি বিল উন্মুক্তের দাবিতে   এলাকাবাসীর মানবন্ধন




 

মোঃ ফিরোজ হোসাইন 

রাজশাহী ব্যিরো


 রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার বড়বিহানলী ইউনিয়নের বিলসুতি বিলে মৎজীবি সমিতির জন্য উন্মুক্তের দাবিতে মানববন্ধন করেন অত্র বিলের চারপাশের এলাকাবাসী।


শুক্রবার সকাল ১০টাই খালিসপুর বাজারে বিলধারের স্থানীয় ২৮০ কার্ডধারী মৎস্যজীবি ও এলাকাবাসী স্বতঃস্ফূর্তে মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করেন।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন মৎস্যজীবি সমিতির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ  এরশাদ আলী,সাধারন সম্পাদক ও ইউপি সদস্য মোঃ মোফাজ্জল হোসেন হীরু, রকিব উদ্দিন, শিশির আহম্মেদ, নিমাই সরকার প্রমুখ।

এসময় বক্তারা উপজেলার হাসানপুর গ্রামের প্রভাবশালী লবিন হাওয়ালাদার এর ছেলে অমূল্য হাওলাদারের মদদে খালিসপুর গ্রামের মৃত মীরজন এর ছেলে আঃ রশিদ প্রাং,বড়বিহানলী গ্রামের নাসির উদ্দীনের ছেলে রেজা মাহম্মুদ সহ অত্র এলাকার কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি বাঁধ দিয়ে জোর পূর্বক মৎস্য চাষ করার অভিযোগ করেন।

এসময় বক্তারা ধানী জমিতে দীর্ঘ দিন মৎস্য চাষের ফলে ভূমির আইল এবং সীমানা নির্ধারণ কঠিন হয়ে পড়া এবং সমতল জমি উঁচু-নিচু হয়ে চাষের অনুপযোগী হওয়ার কথা বলেন।

বিল উন্মুক্ত না থাকায় বিলের চারপাশের হাজার হাজার মৎস্যচাষী মানবেতর জীবনযাপন করছে।

এজন্য অতি দ্রুত বিলসুতি বিলটি উন্মুক্ত করে মৎস্যজীবিদের মাছ মেরে জীবিকা নির্বাহ করার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য অত্র ইউপি চেয়ারম্যান,উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মাননীয় জেলা প্রশাসক মহোদ্বয়ের জরুরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন বিলসুতি বিলের চারপাশের সচেতন মহল। তা না হলে যে কোন সময় অপৃতিকর ঘটনা ঘটার ও সম্ভাবনা করেন তারা।

সিরাজগঞ্জ বেলকুচিতে ৮ টি দেশীয় পাইপগানসহ ১ জন গ্রেফতার,

সিরাজগঞ্জ বেলকুচিতে ৮ টি দেশীয়  পাইপগানসহ ১ জন গ্রেফতার,


 


মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে অভিযান চালিয়ে দেশীয় ৮টি পাইপগান সহ গোপাল চন্দ্র সুত্রধর (৩২) নামের এক অস্ত্র ব্যবসায়ীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা। আটককৃত বেলকুচি উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের হরিপদ সুত্রধরের পুত্র।

শুক্রবার (২৮ আগষ্ট) সকালে সিরাজগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ডিবি ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি আরোও বলেন, সিরাজগঞ্জ পুলিশ সুপার হাসিবুর আলম বিপিএম এর দিকনিদের্শনায় গোয়েন্দা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুক্রবার ভোর রাতে দৌলতপুর ইউনিয়নের অভিযান চালিয়ে ৮টি পাইপগানসহ তাকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে অস্ত্রসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

মাগুরার শ্রীপুরে যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত আসামী যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

 মাগুরার শ্রীপুরে  যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত আসামী যুবলীগ নেতা গ্রেফতার

মো:রাসেল হোসেন, শ্রীপুর(মাগুরা) প্রতিনিধিঃমাগুরার শ্রীপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সহ সভাপতি সুমন মোল্লা  মাগুরার টুলু হত্যা মামলার যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্ত আসামী হয়ে ও আত্মগোপনে থাকা গ্রেফতার হয়েছেন।



মাগুরার শহরতলীর পারনান্দুয়ালীর আলোচিত টুলু হত্যা মামলার যাবজ্জীবন  সাজা প্রাপ্ত আসামী শ্রীপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সহ সভাপতি সুমন মোল্যা  শুক্রবার সন্ধ্যার পরে  শ্রীপুর উপজেলার সাচিলাপুর বাজার থেকে গ্রেপ্তার করেছে শ্রীপুর থানা পুলিশ।


শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আলী আহমেদ মাসুদ জানান, ২০০০ সালে মাগুরার পারনান্দুয়ালীর আলোচিত টুলু হত্যা কান্ডে জড়িত ৩২ বছরের সাজা প্রাপ্ত পলাতক আসামি সুমন মোল্যা ওরফে সুকমান, পিতা -আশরাফ মোল্যা, সাং- কচুয়া, উপজেলা- শ্রীপুর, জেলাঃ- মাগুরা। সে দীর্ঘ দিন যাবৎ আত্মগোপনে ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আমার নেতৃত্বে শ্রীপুর থানার চৌকস পুলিশ টিমের এ এস আই মুজাহিদ, এ এস আই আনারুল ইসলাম ও এ এস আই মনিরুল ইসলামের সহযোগিতায় অভিযান চালিয়ে ২৮ আগস্ট সন্ধ্যা ৭ টার সময় সাচিলাপুর বাজার থেকে সুমনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়।

ঝিনাইদহে বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা

ঝিনাইদহে বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভা





খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধানঃআগামী ১ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ৪২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। এই দিনটিকে সুন্দরভাবে উদযাপনের মাধ্যমে স্মরনীয়  করে রাখতে কেন্দ্রঘোষিত কর্মসূচি পালনের লক্ষ্যে আজ ২৮ আগষ্ট শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৩ টায় গীতান্জলী সড়কে ঝিনাইদহ জেলা বিএনপির প্রধান কার্যালয়ে এক প্রস্ততিমুলক সভা অনুষ্ঠিত হয়। জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক এম শাজাহান আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রস্ততিমুলক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চেয়ারপার্সোনের অন্যতম উপদেষ্টা জনাব আলহাজ্ব মোঃ মসিউর রহমান। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় জাসাস নেতা সাজেদুর রহমান, কেন্দ্রীয় মৎসজীবিদলের নেতা জাহিদুল ইসলাম মিলন, জেলা যুবদল সভাপতি আহসান হাবিব রওনক, জেলা শ্রমিকদল সভাপতি আবু বক্কর সিদ্দিকি, জেলা তাতীদলের আহ্বায়ক রোকোনুজ্জামান ও সদস্য সচিব  জাহিদুল ইসলাম, জেলা কৃষকদলের যুগ্ম আহ্বায়ক সামছুর রহমান ও সদস্য সচিব লাভলুর রহমান বাবলু, কাপাশহাটীয়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি শরিফুল ইসলাম খোকন, সদর থানা যুবদলের সভাপতি আশরাফ হোসেন, জেলা কোকো স্মৃতিসংসদের সভাপতি আতিয়ার রহমান ও সাধারন সম্পাদক মুস্তাফিজুর রহমান আলম,পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সা:সম্পাদক মুস্তাক আহম্মেদ,জেলা তারেক পরিষদের  সিনিয়র সহ-সভাপতি কামরুজ্জামান লিটন, যুবদলনেতা রাকিব হোসেন ও ফিরোজ আহম্মেদ, জেলা ছাত্রদল সভাপতি সমিনুজ্জামান সমিন ও ছাত্রদলনেতা মিরাজুল ইসলাম মিরাজ, আ:সালাম,মনিরুজ্জামান মনির,ইমরান আহম্মেদ ও সাগর আহম্মেদ প্রমুখ।

হাজিরবাগ ইউনিয়নে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা

হাজিরবাগ ইউনিয়নে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দোয়া ও আলোচনা

 




মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত, ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৫ তম শাহাদাত বা‌র্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে সকল শহীদ‌ স্মর‌ণে হাজিরবাগ ইউনিয়নের ইস্তা সরকারী প্রাথ‌মিক বিদ্যাল‌য় ম্যা‌নে‌জিং ক‌মি‌টির উদ্যোগে শুক্রবার (২৮আগস্ট) আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল এর আ‌য়োজন ক‌রা হয়।


ইস্তা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ম্যা‌নে‌জিং ক‌মি‌টির সভাপ‌তি মোঃ তাজ উ‌দ্দিন আহ‌মেদ এর সভাপ‌তিত্বে অনু‌ষ্ঠিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অ‌তি‌থি হিসা‌বে উপ‌স্থিত ছি‌লেন ঝিকরগাছা উপ‌জেলা চেয়ারম্যান ও উপ‌জেলা আওয়ামী লী‌গের বিপ্লবী যুগ্ম- সাধারন সম্পাদক মোঃ ম‌নিরুল ইসলাম।


বি‌শেষ অ‌তি‌থি হিসা‌বে উপ‌স্থিত ছি‌লেন ময়মন‌সিংহ কৃ‌ষি বিশ্ব‌বিদ্যাল‌য়ের সা‌বেক ভি‌পি ও কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছা‌সেবকলীগ নেতা আব্দুস সালাম। 

 

আমন্ত্রিত অতিথি হিসা‌বে উপ‌স্থিত ছি‌লেন য‌শোর জেলা যুবলীগ এর সহ-সভাপ‌তি মোঃ আজহার আলী, ঝিকরগাছা উপ‌জেলা ছাত্রলী‌গের সা‌বেক সভাপ‌তি ও উপজেলা যুবলী‌গ নেতা র‌ফিকুল ইসলাম বাপ্পী, ঝিকরগাছা উপ‌জেলা প‌রিষ‌দের ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগ নেতা সে‌লিম রেজা , ঝিকরগাছা  ইউ‌নিয়ন আওয়ামীলীগ এর যুগ্ম সম্পাদক খাইরুল হুদা রা‌সেল ও  ঝিকরগাছা প্রেসক্লা‌বের সাধারন সম্পাদক ইমরান রশীদ।


উপ‌স্থিত  ছি‌লেন হা‌জিরবাগ ইউ‌নিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা বীর মু‌ক্তি‌যোদ্ধা আব্দুল কা‌দের, বীর মু‌ক্তি‌যোদ্ধা আবু বক্কর সি‌দ্দিক, সৈয়দ আলী, মেম্বর গোলাম মোস্তফা, মেম্বর মোজা‌ম্মেল হক, জাহান আলী, আব্দুল কা‌দের ,ম‌মিনুর রহমান, হা‌জিরবাগ ইউ‌নিয়ন যুবলী‌গ সভাপ‌তি র‌বিউল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক সি‌দ্দিক হো‌সেন, যুবলীগ নেতা জা‌কির হো‌সেন, শা‌হিনুর রহমান, হা‌ফিজুর রহমান, আসাদুর রহমান, শংকরপুর ইউ‌নি‌য়ন যুবলীগ নেতা জা‌কিরুল ইসলাম মিন্টু, উপ‌জেলা যুবলীগ নেতা  ত‌রিকুল ইসলাম, ইব্রা‌হিম খলিল, র‌নি হো‌সেন, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা হান্নান হো‌সেন, মেরাজ হোসেন মিঠু প্রমূখ।

জাগ্রত ঝিনাইদহের পক্ষ থেকে অনাহারী অসহায়দের আহার কর্মসুচি

জাগ্রত ঝিনাইদহের পক্ষ থেকে অনাহারী অসহায়দের আহার কর্মসুচি





সম্রাট হোসেন, শৈলকুপা উপজেলা (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধিঃজাগ্রত ঝিনাইদহ নামক ফেসবুক ভিত্তিক একটি সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে অনাহারী অসহায়দের আহার কর্মসুচি অব্যাহত রয়েছে। সংগঠনটির ক্রিয়েটর আহসান হাবীব লিপ্টনের নেতৃত্বে বেশ কিছু উদ্দোমী যুবক ও যুবতির সেচ্ছায় সপ্তাহের প্রতি শুক্রবার এক বেলা আহারের কর্মসুচি পালিত হয়। 

এ কাজের সহযোগিতা করেছেন, তারা, হলেন, আবু মোসাহীদ, ব্যাংকার সেন্টু, নাসির উদ্দিন, সমাজ সেবক হাজী সাফায়েত উল্লাহ, প্রবাসী সুমন হোসেন, আতিক, আশরাফুল, পলাশ, সিরাজুল ইসলাম, সৌরভ, সাহানেওয়াজ উজ্জল, মাসুদ আশরাফুননেচা আশা, ময়না, সাজ্জাত, রাইহান, সরওয়ার সহ আরো অনেকে। সংগঠনটি আরো ভালো কিছু কাজ নিয়ে ঝিনাইদহের মানুষের পাশে দাড়াতে চাই।

সাংবাদিক মহল সহ পুরো এলাকাবাসী লেদুর কাছে জিম্মি

 সাংবাদিক মহল সহ পুরো এলাকাবাসী লেদুর কাছে জিম্মি





নিউজ ডেস্কঃ চট্টগ্রামের বায়েজিদ এলাকার আব্দুল নবী লেদুর বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন, "সিটিজি ক্রাইম টিভি"র বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি সাংবাদিক আব্দুল করিম।তিনি সাধারণ ডায়েরীতে উল্লেখ করেন,কসাই লেদু সিটিজি ক্রাইম টিভির অফিস ভাঙচুর করে এবং মোটা অংকের চাঁদা দাবী করলে,আমি নিজে বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম মেজিট্রেট কোর্টে একটি চাঁদাবাজি  মামলা দায়ের করি। এরপর থেকে সে বিভিন্ন ভাবে  আমাকে হুমকি দিয়ে আসছে। জানাযায়,আব্দুল নবী লেদু প্রকাশ কসাই লেদুর অত্যাচারের কাছে জিম্মি হয়ে আছে  সাংবাদিক আবদুল করিম বায়েজিদ এলাকার। তার এই কুকর্মের বিরুদ্ধে কেউ যদি প্রতিবাদ করে তাহলে তাকে হত্যার হুমকি দিতেও পিছপা হয় না এই কসাই লেদু। সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে হুমকি ধমকি এমন কি প্রাণনাশ করতেও কোনও প্রকার পিছপা হয় না । লেদুর নানান অপকর্মে  অতিষ্ট হয়ে একটি চাঁদাবাজির মামলাও করেন সিটিজি ক্রাইম টিভির বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি আব্দুল করিম। যার মামলা  নং-২৩০। এরপর তার উপর সন্ত্রাসী হামলা চালায় লেদু গ্রুপ। সন্ত্রাসী গ্রুপের মধ্যে রয়েছে লেদু বাহিনীর ১/আবদুর রহিম ২/এনামুল হক৩/মাজেদুল ইসলাম প্রকাশ মোবাইল চোর মাজেদ ৪/ এদের নেতৃত্বে জঙ্গলপাড়া যায়, সাংবাদিক আব্দুল করিমের  বাসভবনে।লেদুর সন্ত্রাসীরা ওনাকে ধরে নিয়ে যায় নিজের বাসভবন থেকে। পরে থানায় অবগত করলে,ওখান থেকে বায়েজিদ থানার   ওসি প্রিটন সরকার এস আই রুবেল তাকে ওখান থেকে উদ্ধার করে। এবিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানায়, সিটিজি ক্রাইম টিভির  চেয়ারম্যান আজগর আলী মানিক।  এ বিষয়ে আজগর আলী মানিক বায়েজিদ থানার ওসি প্রিল্টন সরকার ও এস আই রুবেল কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন।

ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুর সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রাচীর নির্মান হচ্ছে ৩ নাম্বার গ্রেডের ইট দিয়।

ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুর সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রাচীর নির্মান হচ্ছে ৩ নাম্বার গ্রেডের ইট দিয়।



তাহের খাঁন,  কোটচাঁদপুর(ঝিনাইদহ) উপজেলা প্রতিনিধিঃঝিনাইদহ কোটচাঁদপুর সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রাচীর নির্মান হচ্ছে ৩ নাম্বার গ্রেটের ইট দিয়।

ঝিনাইদহের নির্ধারিত এক ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান এই কাজটি করছে। জানা গেছে কিছুদিন আগে একটি মেইন গেট তৈরি করে, কিন্তু নিম্নমানের তৈরি সামগ্রী ব্যবহার করায় গেট তৈরির শুরুতেই সেটা ভেঙে পড়ে। এতে করে ভয়াবহ এক দূর্ঘটনার কবল থেকে রক্ষা হয়।

জনমতের প্রশ্ন উঠে কোন অদৃশ্যের শক্তিতে ওই ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান এত নিম্নমানের কাজ করছে। যেখানে সারাদেশে দূর্নীতি রুখতে সরকার নিরলসভাবে কাজ করছে আর সেই অবস্থায় এই ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান কোটচাঁদপুর সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এমন নিম্নমানের কাজ করার সাহস কোথা থেকে পাচ্ছে।


আরও জানা যায়, কোটচাঁদপুর সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দায়িত্বরত কর্মকর্তা, টি এস সি, এবং হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের কোন নজর এই কাজের দিকে নাই,তাহলে কি জনগণ ভাববে এই কাজের সাথে তাদেরও যোগসাজশ রয়েছে?

বর্তমান এই কাজের সর্বাক্ষনিক নজরদারি রাখার কথা হাসপাতালের কর্মকর্তাদের কিন্তু সেখানে তারা নিশ্চুপ মেরে রয়েছে।


এমতবস্থায় কোটচাঁদপুর উপজেলা প্রশাসন ও উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি অতি শিঘ্রই যেন এই কাজ বন্ধ করে, এবং সচ্ছলতা করে পুনরায় নির্মান কাজ শুরু করে।

টিম-তারুণ্যের সারা দিন ব্যাপি ফ্রি ক্যামপিন

টিম-তারুণ্যের সারা দিন ব্যাপি ফ্রি ক্যামপিন





মোঃইয়ামিন সরকার আকাশ।

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ

মহামারী কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) এর  প্রর্দুরভাব শুরুর দিকে যখন বেড়েই চলছে;  #টিম-তারুণ্য উদ্যাগ নিয়েছিল নিম্নবৃত্ত মানুষদের জন্য কিছু করার, তার তাগিদ থেকে  তারুন্য  ২০০ পরিবারে মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান করতে সক্ষম হয়েছে। 


এরই ধারা বাহিকতায় তারুণ্য এবার করোনা পরবর্তী  স্বাস্থ্যব্যবস্থা এবং প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা প্রদানের জন্য করোনা আপডেট কুড়িগ্রাম এর সহযোগিতায় টিম-তারুণ্য এবং অপ্রতিরোধ্য কুড়িগ্রাম এই উদ্যোগে আজ  নাককাটিরহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে  সারা দিন ফ্রি  মেডিকেল ক্যাম্পের আয়োজন করেছে । এতে প্রায় ৩০০ গরীব ,অসহায় এবং অসুস্থ মানুষের  মাঝে ফ্রি চিকিৎস্য সেবা , মাস্ক এবং ওষুধ বিতরণ করা হয়েছে ।


এই ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পে  স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার জন্য ৩ জন অভিজ্ঞ চিকিৎসক ডা পলাশ চন্দ্র (প্রাক্তন মেডিকেল অফিসার,গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতাল ঢাকা ), ডাঃ দেবজিত বকশি (মেডিকেল অফিসার- ইউনিসেফ, কুড়িগ্রাম সদর হাস্পাতাল  ), ডাঃ অমিত সরকার (এম বি বি এস) উপস্থিত থেকে জনগণের চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন। এছাড়াও তারা করোনা কালে ফ্রন্ট লাইনে থেকে জনগণের স্বাস্থ্য সেবা দিয়ে আসছেন ।


সংগঠন গুলোর মতে তারা  সম্মিলিত ভাবে কাজে বিশ্বাসী। আর তাই তারুণ্য-Tarunna এবং অপ্রতিরোধ্য কুড়িগ্রাম - Oprotiroddho Kurigram সম্মিলিত ভাবেই অসহায় মানুষের জন্যে এই মেডিকেল ক্যাম্প, ওষুধ এবং মাস্ক বিতরনের এই ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা।

কুড়িগ্রামের উলিপুরে ৯ হাজার গাছের চারা লাগানোর উদ্বোধন

কুড়িগ্রামের উলিপুরে ৯ হাজার গাছের চারা লাগানোর উদ্বোধন




 মোঃইয়ামিন সরকার আকাশ।

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের উদ্যোগে নয় হাজার বিভিন্ন প্রজাতির গাছের চারা লাগানো হবে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এ কর্মসূচি নিয়েছে তারা। বৃহস্পতিবার বিকেলে জেলার উলিপুরের ধামশ্রেনী ইউনিয়নের পূর্বদড়িচর সানেরপাড় এলাকায় বুড়িতিস্তা নদীর দু’পাড়ে এ কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম। অনুষ্ঠানের আয়োজন করে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়। 


উদ্বোধনী সভায় ধামশ্রেনী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রাকিবুল হাসান সরদারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) জিলুফার সুলতানা, কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুল ইসলাম, উলিপুর উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম হোসেন মন্টু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূরে-ই-জান্নাত রুমি,ধামশ্রেণী ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি এম শফিক পন্চু প্রমূখ।

পানি উন্নয়ন বোর্ড জানায়, জেলার বিভিন্ন উপজেলার পানি উন্নয়ন বোর্ডের বাঁধ নদীর পাড়সহ অধিগ্রহন জায়গায় ছয় হাজার ফলদ, দুই হাজার বনজ ও এক হাজার ভেষজ প্রজাতির গাছের চারা আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে লাগানো হবে।

আশাশুনিতে হাজরাখালি বেড়ীবাঁধ পরিদর্শন করলেন বিভাগীয় কমিশনার ডাঃ মোঃ আনোয়ার হোসেন হাওলাদার

আশাশুনিতে হাজরাখালি বেড়ীবাঁধ পরিদর্শন করলেন বিভাগীয় কমিশনার ডাঃ মোঃ আনোয়ার হোসেন হাওলাদার





আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা প্রতিনিধি: 

অতিবর্ষণ ও প্রবল জোয়ারে আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্থ হাজরাখালি বেড়ীবাঁধ এবং প্লাবিত এলাকা পরিদর্শন করে ত্রাণ বিতরণ করেছেন খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ডাঃ মোঃ আনোয়ার হোসেন হাওলাদার। শুক্রবার বিকালে ক্ষতিগ্রস্থ হাজরাখালি বেড়ীবাঁধ এবং প্লাবিত এলাকা পরিদর্শনকালে অবহেলিত মানুষের দুঃখের কথাগুলো তিনি শুনে বলেন, জোয়ারের পানি না কমলে ভেড়ীবাঁধের কাজ করার সম্ভব না। তবে দুই পাশদিয়ে জোয়ারের পানির চাপ কমলে সময়মত স্থায়ী ভেড়ীবাঁধের কাজ করা হবে। বতর্মান ক্লোজার-এর মুখে আগামী পরশু ইউপি চেয়ারম্যানসহ সবাইকে সঙ্গে নিয়ে রিংবাঁধের কাজ শুরুকরা হবে। সাধারণ মানুষ যাতে কষ্ট না পায় সবাইকে সাইক্লোন সেল্টার, স্কুল কলেজে আশ্রয়ন নেওয়ার জন্য বলেন। তিনি আরো বলেন, আমরা সবচেয়ে গুরুত্ব দিচ্ছি কেউ যেন খাদ্য-খাবার সংকটে না পড়ে। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল বলেন, ভাঙ্গন কবলিত এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের তালিকা করা হয়েছে। এছাড়া সবাইকে ঋণ দেওয়া হবে। এসময় পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী সুধাংশু শেখর সরকার, এসি আবুল হোসেন, শ্যামনগর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউল হক দোলন, আশাশুনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা, কয়রা উপজেলা নির্বাহী আফিসার অনিমেশ বিশ্বাস, সহকারী কমিশনার মোঃ নুরিআলম সিদ্দিকী, আশাশুনি থানার অফিসার ইনর্চাজ মোঃ গোলাম কবির, ভাইরাস চেয়ারম্যান অসিম বরন চক্রবর্তী, পিআইও সোহাগ খান, শ্রীউলা ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা সাকিল, আনুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর আলম লিটনসহ সরকারী কর্মকর্তাবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আশাশুনি সদর ইউনিয়নে বানভাসি মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

 আশাশুনি সদর ইউনিয়নে বানভাসি মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ



আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা প্রতিনিধিঃ আশাশুনি সদর ইউনিয়নের বানভাসি মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক স,ম সেলিম রেজা মিলন। শুক্রবার সকালে তিনি এ ত্রাণ বিতরণ করেন। আশাশুনি সদর ইউনিয়নের বিল নাটানা,খোলার নাটানা, হাসখালি, গাইয়াখালি ও ঠাকুরাবাদ গ্রামের বানভাসি ৩৫০ জনকে জনপ্রতি ১০ কেজি করে জি আর এর চাল বিতরণ করা হয়। ত্রাণ বিতরণ কালে ইউপি চেয়ারম্যান বলেন, বানভাসি সকল মানুষের কাছে পর্যায়ক্রমে ত্রাণ পৌঁছে দেওয়া হবে। কোথাও কোনো অনিয়ম হলে আপনারা আমাকে জানাবেন আমি তাৎক্ষণিক তার ব্যবস্থা নেব। এসময় উপস্থিত ছিলেন ইউপি সদস্য সন্তোষ কুমার,দিলীপ মন্ডল, ইন্দ্রাণী মণ্ডল প্রমুখ।

কোটচাঁদপুর মডেল থানা পুলিশের অভিযানে ৩৭২ পিছ ইয়াবা ও ৪ বোতল ফেন্সিডিল সহ গ্রেফতার - ১

 কোটচাঁদপুর মডেল থানা  পুলিশের অভিযানে ৩৭২ পিছ ইয়াবা ও ৪ বোতল ফেন্সিডিল সহ গ্রেফতার - ১




খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার। 

খুলনা ব্যুরো প্রধানঃ

কোটচাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মাহবুবুল আলম এর নেতৃত্বে এসআই মোঃ মনিরুজ্জামান, এসআই মোঃআব্দুল মান্নান, এসআই আব্দুল ওয়াহেদ সহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ২৮ আগষ্ট মধ্যে  রাতে বিশেষ অভিযান পরিচালনাকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোটচাঁদপুর থানাধীন কোটচাঁদপুর পৌরসভাস্থ বড়বামনদহ গ্রামে মোঃ ফারুক হোসেন(৩০), পিতা-মোঃ ইকবাল হোসেন এর বাড়ীতে অভিযানকালে ফারুক পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালানোর চেষ্টাকালে তার একতলা ভবনের ছাদের উপর ওঠে লাফ দিয়ে নিচে পড়ে যেয়ে তার বাম পায়ে আঘাত প্রাপ্ত হয়।  ফারুক এর বসত ঘর তল্লাশী করে ৩৭২(তিনশত বাহাত্তর) পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট এবং ০৪(চার) বতোল  ফেন্সিডিল করা হয়। বর্তমানে ফারুক হোসেন পুলিশ প্রহরায় কোটচাঁদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

ইপিজেড থানা পুলিশ কর্তৃক কিশোর গ্যাং এর সক্রিয় ০৩ জন সদস্য গ্রেফতার

 ইপিজেড থানা পুলিশ কর্তৃক কিশোর গ্যাং এর সক্রিয় ০৩ জন সদস্য গ্রেফতার





হাসান রিফাত 

চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃকয়েকদিন পূর্বে কিশোর গ্যাং কর্তৃক একজন মহিলাকে মারধরের একটি ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়। উক্ত ভিডিও ভাইরাল হওয়াতে ক্ষতিগ্রস্থ মোহনা আকতার (২২) ইপিজেড থানায় আসিয়া আসামী ১) সাখাওয়াত (২৪), ২) সিমি (১৮), ৩) শাওন (২২), ৪) তানিয়া (২২), ৫) আরফিন (২১)’দের বিরুদ্ধে অভিযোগ করিয়া জানান যে, তাহার ফেসবুক বন্ধু Md Nazim Uddin আইডিধারী আসামী সাখাওয়াত (২৪) গত সপ্তাহ খানেক যাবৎ ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে বিভিন্ন রকম মানহানীকর ও বিব্রতকর এবং অশ্লীল কথাবার্তা সম্বলিত ম্যাসেজ তাহাকে পাঠাইতে থাকে। তিনিও উক্ত ম্যাসেজের জবাব দিতে থাকেন। একপর্যায়ে আসামী সাখাওয়াত তাহাকে দেখে নিবে এবং মারধরসহ অপমান করিবে মর্মে হুমকি প্রদান করে। গত ২৪/০৮/২০২০ ইং তারিখ বিকাল অনুমান ০৪.০০ ঘটিকার সময় আসামী ১) সাখাওয়াত (২৪), ২) সিমি (১৮), ৩) শাওন (২২), ৪) তানিয়া (২২), ৫) আরফিন (২১)’গণ তাহার ইপিজেড থানাধীন কসাইগলিস্থ নুর আলম সওদাগর বিল্ডিং এর বাসায় গিয়া তাহাকে এলোপাথারি মারধর করিয়া মারধরের ভিডিও ধারণ করিয়া চলিয়া যাওয়ার সময় হুমকি দিয়া তাহাকে বলে যে, উক্ত ঘটনা বিষয়ে বাড়াবাড়ি করিলে মারধরের ভিডিওটি ফেসবুক-এ ভাইরাল করে দিবে। পরবর্তীতে আসামীগণ মারধরের ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরাল করে তাহার ও তাহার পরিবারের সদস্যদের মান-সম্মান ক্ষুন্ন করে। তাহার অভিযোগের ভিত্তিতে তাৎক্ষনিক ইপিজেড থানার মামলা নং-২১, তারিখ-২৬/০৮/২০২০ ইং, ধারা-ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, ২০১৮ এর ২৫/৩৫, তৎসহ ১৪৩/৪৪৮/৩২৩/৫০৬ পেনাল কোড রুজু করা হয়। মামলা রুজুর পর উপ-পুলিশ কমিশনার (বন্দর), সিএমপি, চট্টগ্রাম জনাব মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম মহোদয়ের দিকনির্দেশনায়, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (বন্দর), সিএমপি, চট্টগ্রাম জনাব পংকজ বড়–য়া মহোদয়ের তত্ত্বাবধানে, সহকারী পুলিশ কমিশনার (বন্দর), সিএমপি, চট্টগ্রাম জনাব মোঃ কামরুল হাসান মহোদয়ের তদারকিতে ইপিজেড থানার অফিসার ইনচার্জ জনাব উৎপল বড়–য়া ও পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জনাব মোহাম্মদ হোছাইন’দ্বয়ের নেতৃত্বে ইপিজেড থানার চৌকশ অফিসারদের সমন্বয়ে গঠিত টিম ইপিজেড সমস্ত ধরণের পুলিশিং কলাকৌশল অবলম্বন করিয়া সিএমপি’র বিভিন্ন থানা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করিয়া মামলার ঘটনার মূল হোতা এজাহারনামীয় আসামী ১। সাখাওয়াত (২৪), পিতা-মোঃ সিরাজুল ইসলাম, মাতা-খাদিজা বেগম, সাং-নয়া বাজার, থানা-হালিশহর, জেলা-চট্টগ্রাম, ২। মোঃ লামিম শাওন (২০), পিতা-মোঃ আজিবুর রহমান, মাতা-নাজমা আইরিন, সাং-উত্তর ফুলহাতা, জমাদ্দার বাড়ী, ডাকঘর-ফুলহাতা, থানা-মোড়লগঞ্জ, জেলা-বাগেরহাট, বর্তমান-ইস্ট কলোনী, ব্লক-ও, বাসা নং-ঙ, ৩য় তলা, থানা-বন্দর, জেলা-চট্টগ্রাম, ৩। তাহমিনা সিমি (১৮), পিতা-মোঃ কামাল হোসেন, মাতা-মোছাঃ সালেহা বেগম, সাং-ধনপতি, বোয়ালখালী, ডাকঘর-মুন্সিরহাট, থানা ও জেলা-চাঁদপুর, বর্তমান-সিমেন্ট ক্রসিং, গাউসিয়া ভবন, বড়বাড়ী, থানা-ইপিজেড, জেলা-চট্টগ্রামদেরকে গ্রেফতার পূর্বক ঘটনার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হইয়াছে। অপরাপর জড়িত আসামীদের গ্রেফতারের অভিযান চলমান রহিয়াছে। মামলা তদন্ত অব্যাহত আছে।

নওগাঁর আত্রাইয়ে করোনা জয় করে বাড়ি ফিরলেন শিক্ষক

নওগাঁর আত্রাইয়ে করোনা জয় করে বাড়ি ফিরলেন শিক্ষক

মোঃ ফিরোজ হোসাইন 

রাজশাহী ব্যুরো:নওগাঁর আত্রাইয়ে করোনা জয় করে বাড়ি ফিরলেন পার পাঁচুপুর গ্রামের মো. ইসমাইল হোসেন।


শুক্রবার সকালে সুস্থ ইসমাইল হোসেনকে ফুল ও ফল দিয়ে অভিনন্দন জানান উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রোকসানা হ্যাপি।


জানা গেছে, গত ১১ অগাষ্ট জ্বর, কাশি ও গলাব্যাথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। কর্তৃপক্ষ পর দিন আক্রান্তের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠালে ১৬ অগাষ্ট রিপোর্টে করোনা পজিটিভ আসে। আক্রান্তকে হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে বিশেষ ব্যবস্থায় রেখে চিকিৎসা এবং নিয়মিত ভাবে নমুনা পাঠালে সর্বশেষ বৃহস্পতিবার রাতে তার রিপোর্টে নেগেটিভ আসে।

সুস্থ ইসমাইল হোসেন জানান, রাজশাহীতে গিয়ে অসুস্থ হলে ৩ দিন প্রাথমিক চিকিৎসা নেওয়ার পর উন্নতি না হলে বাড়ি ফিরে আসি। দু’দিন বাদে অসুস্থতা বেড়ে গেলে ১১ অগাষ্ট হাসপাতালে ভর্তি হই। আমাকে বিশেষ ব্যবস্থায় রেখে চিকিৎসা এবং সেবা দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালের চিকিৎসক ও নার্স সার্বক্ষণিক আমার খোঁজখবর রাখতেন। সেবা এবং পরামর্শ দিয়ে মনোবল ঠিক রাখার জন্য কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানাই।


উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রোকসানা হ্যাপি জানান, আমি আশাবাদি ছিলাম তার সুস্থ্যতা নিয়ে। সমস্যা থাকা সত্ত্বেও কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে হাসপাতালে রেখে তার চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।এছাড়া এখন পর্যন্ত ৩১৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করে গত ২৬ অগাষ্ট পর্যন্ত ৩০৭ জনের রিপোর্ট হাতে পেয়েছি। প্রাপ্ত রিপোর্টে ২৫ জনের পজিটিভ এবং নমুনা দেওয়ার একদিন পর একজন মারা যান তার বয়স ৭০ ঊর্ধ্বে। বর্তমানে এ হাসপাতালের অফিস সহায়ক সুলতান মাহমুদ করোনা পজিটিভ হয়ে বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বাঁকিরা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

হবিগঞ্জে হাতাহাতি, সাংবাদিকের মোবাইল ছিনিয়ে নিলো পুলিশ ও টমটম বাড়চ্ছে যানজট

 হবিগঞ্জে হাতাহাতি, সাংবাদিকের মোবাইল ছিনিয়ে নিলো পুলিশ ও  টমটম বাড়চ্ছে যানজট





লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি

 

হবিগঞ্জের এক সাংবাদিকের মোবাইল ছিনিয়ে নিলো বাহুবল থানার এসআই। বাহুবল থানা থেকে পুলিশ ভ্যানে করে নিয়ে আসা চোখ বাধা দুই ব্যক্তির বিষয়ে জানতে চাইলে দৈনিক হবিগঞ্জ সমাচার পত্রিকার সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার এ কে কাওসারের সাথে অশোভন আচরণ করেন বাহুবল থানার এসআই মোঃশাহ্ আলী। এ সময় তিনি সাংবাদিক কাওসারের হাতে থাকা মোবাইল ফোনটি জোরপূর্বক ছিনিয়ে নিয়ে যান। প্রায় আধা ঘন্টা পর তিনি মোবাইল ফোনটি ফেরত দেন।


জানা যায়-বৃহস্পতিবার রাতে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে ভর্তি রোগীর কাছে চোখ বেঁধে দুই ব্যক্তিকে নিয়ে আসেন। এ সময় বিষয়টি সম্পর্কে জানতে সেখানে উপস্থিত হন দৈনিক হবিগঞ্জ সমাচার পত্রিকার সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার একে কাওসার। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে থাকা পুলিশের কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে সাদা পোষাকধারী এসআই মোঃ শাহ্ আলী সাংবাদিক পরিচয় পেয়েও এ কে কাওসারকে ধাক্কা মারেন।


এ সময় পাশে দাড়ানো স্থানীয় লোকজন ও দুই পুলিশ সদস্য একে কাওসার সাংবাদিক বিষয়টি নিশ্চিত করলেও এসআই শাহ আলী উত্তেজিত হয়ে উঠেন। এক পর্যায়ে তিনি সাংবাদিক কাওসারের হাত থেকে ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি ছিনিয়ে নিয়ে হাসপাতাল ত্যাগ করেন। প্রায় আধা ঘন্টা পর আবারও তিনি পুলিশ ভ্যানসহ হাসপাতালের সামনে ফিরে আসেন এ সময় তার সাথে থাকা সবুজ রানা নামে পুলিশ সদস্য মোবাইলটি ফেরত দেন।


তবে সাংবাদিক কাওসারের দাবি-তার মোবাইল থেকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ সংবাদের তথ্য-চিত্র ডিলেট করে দিয়েছে পুলিশ। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বাহুবল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান জানান-চোখ বেঁধে দুই ব্যক্তিকে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি সম্পর্কে আমি অবগত নই এছাড়া সাংবাদিকের সাথে অশোভন আচরণের বিষয়টিও আমি দেখছি।


হবিগঞ্জে অবৈধ টমটম চলাচল বাড়ার কারণে যানজট বেড়েছে। সেই সাথে বাড়ছে দুর্ঘটনা এর ফলে হবিগঞ্জ শহরবাসীর দুর্ভোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে এসব টমটম। প্রতিদিনই এসব টমটমের আনাড়ি চালকদের বেপরোয়া চালানোর কারণে, যাত্রীদের সাথে খারাপ ব্যবহার, নির্ধারিত ভাড়া চেয়ে অধিক ভাড়া দাবির অভিযোগ রয়েছে। ২৭-আগস্ট  রাতে হবিগঞ্জ পৌরসভা সড়কের আনাড়ি এক টমটমের ধাক্কায় দুই মোটর সাইকেল আরোহী আহত হয়েছে জানা যায় শাহজালাল এন্টার প্রাইজের ১ নম্বর গাড়ির চালক।


ওই সময় হঠাৎ মোটর সাইকেল আরোহীকে ধাক্কা দেয়। পরে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় বিষয়টি সমাধান হয়। জানা যায়, হবিগঞ্জ পৌরসভায় নম্বর প্লেট আছে এমন বৈধ ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা ( টমটম ) রয়েছে ১৩০০টি। অথচ অবৈধভাবে শহর দাপিয়ে বেড়াচ্ছে কয়েক হাজার টমটম। নতুন ও পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে চৌধুরীবাজার, মোতালিব চত্ত্বর থেকে চৌধুরীবাজার থেকে পোদ্দার বাড়ি পর্যন্ত ব্যাটারিচালিত অটোবাইক চলাচল করলেও কতিপয় প্রভাবশালীর ছত্রছায়ায় কাগজপত্র না থাকলেও এগুলো চলাচল করছে সরেজমিনে দেখা গেছে উল্লেখিত স্থানে।


টমটম গুলো এলোপাতাড়ি রেখে চালানো হচ্ছে ফলে যানজট লেগে থাকে সবসময়। অভিযোগ রয়েছে একই নম্বরে চলাচল করছে একাধিক টমটম তবে ঠিক কতগুলো অটোরিকশা (টমটম) হবিগঞ্জ শহরে চলাচল করছে তার নির্দিষ্ট কোনো তথ্য নেই জেলা ট্রাফিক বিভাগ বা পৌরসভার কাছে। মাঝে মাঝে ট্রাফিক পুলিশ কিংবা পৌরসভার লোকজন অবৈধ টমটম আটক করলেও রহস্যজনক কারণে তা ছেড়ে দেয়া হয়। আর চালকরা জানান যাদের কাগজ নেই তারা ২শ টাকায় রশিদ কিনে গাড়ি চালাচ্ছে।


হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে আবারও দালালদের উৎপাত বৃদ্ধি পেয়েছে। বার বার অভিযান চালিয়েও তাদেরকে দমন করা যাচ্ছে না। পুরান দালালদের পাশাপাশি নতুন দালালের আবির্ভাব ঘটেছে। এসব নিয়ে প্রায়ই দালালদের মাঝে হাতাহাতি ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে। বৃহস্পতিবার রাতে সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের সামনে এক রোগীর চিকিৎসাপত্র নিয়ে শাকিল মাসুম আহমেদ ও চয়ন দাস এর মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে উভয়ের মাঝে সংঘর্ষ বাঁধে এতে শাকিল আহত হয় তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।


পরে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি শান্ত করে। ভূক্তভোগী রোগীরা অভিযোগ করেন সম্প্রতি সদর হাসপাতালে দালাল নিমূল কমিটির তালিকা তৈরি করে পুলিশে দিলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে কয়েকজন দালালকে আটক করে জেল জরিমানা করে। কিন্তু আইনের ফাঁকফোকর দিয়ে তারা বেরিয়ে এসে পুনরায় এসব ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ে। আর গ্রামগঞ্জ থেকে আসা রোগীদেরকে প্রতারণার ফাঁদে পেলে ওষুধের দাম দিগুন আদায় করে।


নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক কয়েকজন দালাল জানান, আমরা পেটের দায়ে রোগী আসলে প্রেসক্রিপশন নিয়ে টানাহেছড়া করে জীবিকা নির্বাহ করি। এ ব্যাপারে সদর থানার ওসি মোঃ মাসুক আলী জানান, জরুরী বিভাগের সিটিজেন চার্টে সদর থানার মোবাইল দেয়া আছে ফোন পাওয়ার সাথে সাথে পুলিশ ব্যবস্থা নিবে।

ঝিনাইদহে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৪ জনের মৃত্যু, ৪৮ তম মৃত দেহের দাফন সম্পন্ন

ঝিনাইদহে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৪ জনের মৃত্যু, ৪৮ তম মৃত দেহের দাফন সম্পন্ন




খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার। 

খুলনা ব্যুরো প্রধান। 

ঝিনাইদহে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৪ জন মারা গেছেন। এদের মধ্যে ঝিনাইদহ কোভিড হাসপাতালে চিকিসাধীন অবস্থায় মো: জাহাঙ্গীর কবির (৪৫) ও বাবলুল করিম (৫২)। ঢাকা কুর্মিটোলা হাসপাতালে মোর্শেদ বিন মাসুদ (২৬) ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পান্টু বিশ্বাস (৫০)।

বাবলুল করিম কালীগঞ্জ উপজেলার আলাইপুর গ্রামের সলেমান মোল্লার ছেলে। তিনি কালীগঞ্জ নির্বাচন অফিসের অফিস সহায়ক ছিলেন এবং মহেশপুর উপজেলার হাবাসপুর গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে মো: জাহাঙ্গীর কবির। তারা দু’জনই ক’দিন আগে সর্দ্দি, কাশি, জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে ঝিনাইদহ কোভিড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। এছাড়া ঝিনাইদহ শহরের ব্যাপারীপাড়ার মাসুদুর রহমানের ছেলে মোর্শেদ বিন মাসুদ ঢাকা কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন। গত ২৫-০৮-২০২০ তাং তার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তাকে চিকিৎসার জন্য ওই দিনই ঢাকায় নেওয়া হয়। পরদিন মারা যান। তিনি পানি উন্নয়ন বোর্ড মাগুরা অফিস সহায়ক পদে কর্মরত ছিলেন। হরিণাকুন্ডু উপজেলার শড়াবাড়িয়া গ্রামের ফয়েজ উদ্দিনের ছেলে পান্টু বিশ্বাস ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। তিনি অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য ছিলেন।

ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথে নির্দেশনায় ঝিনাইদহ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপপরিচালক আব্দুল হামিদ খান মৃত ব্যক্তিদের দাফন কাফনের ব্যবস্থা করেন। 

ইসলামিক ফাউন্ডেশন ঝিনাইদহ গঠিত দাফন কমিটি এ পর্যন্ত ৪৮ জন করোনা আক্রান্ত ও করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত ব্যক্তিদের লাশ দাফন সম্পন্ন করলো। 

মহামালী করোনার মধ্যে নিজেদের জীবনের ভয়ভীত না করে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের দাফন কমিটি করোনা আক্রান্ত ও করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত ব্যক্তিদের দাফন কাফন এবং শেষকৃত্তানুষ্ঠান করে যাচ্ছেন।  

অসংখ্য ধন্যবান ও অভিনন্দন আপনাদের।

বগুড়ার নন্দীগ্রামে মাদক ও ওয়ারেন্ট মূলে গ্রেফতার ৬

বগুড়ার নন্দীগ্রামে মাদক ও ওয়ারেন্ট মূলে গ্রেফতার ৬




আব্দুল আহাদ,নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধিঃবগুড়ার নন্দীগ্রামে মাদক ও জি আর ওয়ারেন্ট মূলে ৬জন কে গ্রেফতার করেছে নন্দীগ্রাম থানা পুলিশ, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি শওকত কবিরের দিক নির্দেশনায়  এস আই মোঃ মিনার আলী, গেল ২৭শে আগস্ট বৃহস্পতিবার বিকেল সারে ৫টায়, উপজেলার রনবাঘা বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৬০গ্রাম গাঁজা সহ মাদক ব্যাবসায়ী মথুরাপুর গ্রামের মৃত মোঃ ময়েজ উদ্দিনের ছেলে মোঃ গোলাম মোস্তফা (৪৩)কে গ্রেফতার করে, এবং রাত্রী ১১টায় উপজেলার বাঁশবাড়িয়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে জিআর ওয়ারেন্ট মুলে ৫জন কে গ্রেফতার করে, গ্রেফতারকৃত রা হলেন, বাঁশবাড়িয়া গ্রামের মোঃ নজমল হোসেনের স্ত্রী মোছাঃ আকলিমা খাতুন(৪৫), মোঃ আঃ আলিমের স্ত্রী মোছাঃ ফাল্গুনী বিবি (২৫), মোঃ নজমলের ছেলে মোঃ আঃ আলীম (৩৫), মোঃ নজমলের ছেলে মোঃ আল আমিন (২৫), মোঃ নজরুলের ছেলে মোঃ মোস্তাকিন (৩৫), তাদের সবাইকে কোর্ট হাজতে প্রেরন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন, অভিযান পরিচালনা কারি নন্দীগ্রাম থানার এস আই মোঃ মিনার আলী।

নবীনগরে আওয়ামী নেতার চাকুরির প্রলোভনে অর্থ আত্মসাৎ ও গণমাধ্যম কর্মীকে হুমকির বিষয়ে থানায় পৃথক ২টি অভিযোগ

 নবীনগরে আওয়ামী নেতার চাকুরির প্রলোভনে অর্থ আত্মসাৎ ও গণমাধ্যম কর্মীকে হুমকির বিষয়ে থানায় পৃথক ২টি অভিযোগ


এস.এম অলিউল্লাহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধিঃব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগরের সলিমগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে দুটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরি/নৈশ প্রহরীর চাকুরী প্রলোভন দেখিয়ে যথাক্রমে ৪ লক্ষ ১০ হাজার ও ২ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ এবং এই বিষয়ে অনলাইন পোর্টালে সংবাদ লেখায়  গণমাধ্যম কর্মীকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকি ধমকি দেয়ায় আজ নবীনগর থানায়  পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগীরা।


তথ্য সূত্রে জানা যায়,এই আওয়ামী লীগ নেতা দলীয় প্রভাব খাটিয়ে বিভিন্ন সময়ে নানা ধরনের অপরাধ করে থাকেন।

বিগত ২০১৭ সালের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তর /নৈশ প্রহরী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হওয়ার পর এই পদে অন্যদের মত সলিমগঞ্জ ইউনিয়ন এর চর বাড্ডা গ্রামের আল-আমিন ও  বড়িকান্দি ইউনিয়ন এর  মুক্তারামপুর গ্রামের  সজিব মিয়া আবেদন করলে সলিমগঞ্জ  ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম তাদের প্রলোভন দেখিয়ে চাকুরী নিশ্চিত করে দিবে বলে হাতিয়ে নেয় ৬ লক্ষ ১০ হাজার টাকা। 


এই বিষয়ে চর বাড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরি পদে আবেদনকারী আল আমিন বলেন,আমি গ্রামের সহজ সরল মানুষ তাই এত কিছু বুজি না জাহাঙ্গীর আমার কাছ থেকে ২ লক্ষ টাকা নিয়ে চাকুরী দিবে বলে দীর্ঘদিন ধরে চাকুরী দিচ্ছে না আবার আমার দেয়া টাকাও ফেরত দিচ্ছে না।টাকা চাইতে গেলে উল্টো হুমকি ধমকি দিচ্ছে, তাই আমি বাধ্য হয়ে আজ আইনের আশ্রয়ে গিয়েছি ও আমাদের নিকটবর্তী বড়িকান্দি ইউনিয়নের সজিব মিয়া নামের আরেক জনের কাছ থেকে ৪ লক্ষ ১০ হাজার টাকা একই কায়দায় আত্মসাৎ করেছেন। 


এই বিষয়ে সরজমিনে জানতে গেলে ১২৪ নং  মুক্তারামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নৈশ প্রহরী  পদে আবেদনকারী সজিব মিয়া বলেন,কাদৈর গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম আমার দূর সম্পর্কের আত্মীয় সে আমাকে চাকুরি দিয়ে দিবে বলে  ৪ লক্ষ ১০ হাজার টাকা নিয়ে চাকুরি না দিতে পারার পর টাকা চাইতে গেলে আজ কাল বলে দেম দিচ্ছি করছে,শুধু তাই নয় আমাদের আকুতি মিনতির শুনে স্থানীয় সাংবাদিক নিউজ করলে তাকেও হুমকি ধমকি দেয়,তাই নিরুপায় হয়ে আজ বাদী হয়ে নবীনগর থানায় তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছি।


এই বিষয়ে হুমকি ধমকির স্বীকার সাংবাদিক আক্তারুজ্জামান বলেন,আমি সদা সত্য ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ সংগ্রহ করে থাকি,এই আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে লেখালিখি করায় সে আমাকে হুমকি ধমকি ও তার মেয়ে আমাকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো ভয় দেখায়,এমনি ইতিপূর্বে আমার নামে আদালতে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন যা ভিত্তিহীন। তিনি তা করে ক্ষ্যান্ত হননি আমাকে প্রাননাশের হুমকি ধমকি দেন, তাই আমি এই বিষয়ে নবীনগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি।


এই সম্পর্কে জানার জন্য আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীরের মুঠোফোনে বারবার ফোন করে পাওয়া যায়নি।


থানার অভিযোগের বিষয়টি জানতে চেয়ে নবীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ প্রভাষ চন্দ্র ধর জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন,অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

যশোর সদরে রেল রোড সংস্কার এবং নির্মাণ হচ্ছে আরেকটি পার্ক

 যশোর সদরে রেল রোড সংস্কার এবং নির্মাণ হচ্ছে আরেকটি পার্ক




 

মোরশেদ আলম

যশোর ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি

যশোর পৌরসভার মেয়র জহিরুল ইসলাম চাকলাদার রেন্টু বলেছেন, ২০১৬ সালের শুরুতে পৌরসভার দায়িত্ব নেয়ার পর এখন পর্যন্ত ১৩৪ কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণ ও সংস্কার করা হয়েছে। 

শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনের জন্য ১২-২৪ কিলোমিটার ড্রেন নির্মাণ করা হয়েছে। জলাবদ্ধতা নিরসনের জন্য হরিণার বিলে ৫ কিলোমিটার খাল খনন করা হয়েছে। যার ফলে শহরে জলাবদ্ধতা পূর্বের তুলনায় অনেক কমে গেছে। টিবি ক্লিনিক মোড় ও শংকরপুর এলাকার জলাবদ্ধতা নিয়ে কাজ করা হবে, আশা করি এর সমাধান হবে।


গতকাল বিকাল ৫ টায় অনলাইন জুম মিটিংয়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি)’র অনুপ্রেরণায় গঠিত সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) যশোরের সাথে ‘পৌরসভার সেবার মানোন্নয়নে করণীয়’ শার্ষক এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 


পৌর মেয়র বলেন, যশোর শহরের রেল রোড সংস্কারের জন্য ২ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। আগে এই রোডে সিল কোটের কাজ করা হয়েছিল, যার কারণে সেটি দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। এবার কর্পেটিং করা হবে। হোটেল ওরিয়নের সামনের রাস্তা সংস্কারের কাজ ৭-৮ দিনের মধ্যে শুরু হবে। শহরের আরো ৩০ কিলোমিটার রাস্তার কাজ আগামী সপ্তাহে শুরু হবে। শহর থেকে ক্যান্টনমেন্ট হয়ে বিমান বন্দর যাওয়ার রাস্তার পৌরসভার অংশ ডিভাইডার দিয়ে দৃষ্টিনন্দন করে সাজানো হবে। লালদীঘির এক ইঞ্চি জায়গাও ভরাট করা হবে না। সেখানকার স্থাপনা নির্মাণ শেষ হলে পুনরায় লালদীঘি সংস্কার করা হবে। পৌর পার্ক হতে চুরি যাওয়া ঝর্ণার নজেল আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহায়তায় উদ্ধার করা হয়েছে এবং সেগুলি আদালতের নির্দেশে হাতে পেলে পুনরায় সবার উপস্থিতিতে স্থাপন করা হবে। যশোরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের বিপরীত দিকে আরেকটি পার্ক নির্মান করা হচ্ছে। সেটিও দৃষ্টিনন্দন ও আধুনিক হবে। টাউন হল মাঠে স্বাধীনতা উন্মুক্ত মঞ্চ নতুনভাবে তৈরির জন্য যশোর জেলা পরিষদ ৫০ লক্ষ টাকা বরাদ্দ পেয়েছে, পৌরসভা আরো ৫০ লক্ষ টাকা দেয়া হবে। পৌরসভা স্বাধীনতা মঞ্চ তৈরির কাজ তত্ত্বাবধান করবে। বর্তমানে মঞ্চ নির্মাণের ডিজাইনের কাজ চলছে। করোনাকালীন সময়ে যশোর পৌরসভা ৬০ হাজার মানুষকে ১০ কেজি করে চাল দিয়েছে। এছাড়া ৯ হাজার ২০০ জনের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ পৌরসভার মাধ্যমে বিতরণ করা হয়েছে। শহর পরিচ্ছন্নতার জন্য শহরের সব স্থানেই ডাস্টবিন স্থাপন করা হয়েছে। পৌরসভার কাছে কেউ ডাস্টবিন চাইলে সেটি দেয়া হবে। শহর পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য সকল প্রকার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। যার কারণে যশোর পৌরসভা অন্যান্য আর দশটা পৌরসভা এমনকি সিটি কর্পোরেশনের থেকেও পরিচ্ছন্ন। 


যশোর পৌরসভার বাসিন্দাদের আধুনিক পৌরসভা উপহার দিতে পৌর প্রশাসনের কাজ আরো আন্তরিকতার সাথে করা হবে। শহরের দড়াটানায় ভৈরব নদের খনন কাজ শেষ হলে নদীর দুই পাড় দৃষ্টিনন্দন করে গড়ে তোলা হবে। সে উদ্দেশ্যেই পরিকল্পনা করা আছে। শহরের প্রবেশ মুখে চাঁচড়া চেকপোস্টে প্রবেশদ্বার নির্মাণের জন্য ডিজাইনের কাজ চলছে। যশোর পৌর এলাকা নিয়ে নতুন পরিকল্পনা করা হচ্ছে। নতুন পরিকল্পনা অনুযায়ী শহরের বাইরে দিয়ে বাইপাস রোড হবে শহরের মধ্যে কোন ভারী যানবাহন প্রবেশ করতে পারবে না। শহরের পরিচ্ছন্নতার জন্য নাগরিকদের সচেতনতার পাশাপাশি সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

পৌর সচিব আজমল হোসেন বলেন, লকডাউনে পৌরসভার নাগরিক সেবা কর্যক্রম একদিনের জন্যও বন্ধ হয়নি। জলাবদ্ধতা নিরসনে আরো কাজ করা হবে। তবে অন্যান্য পৌরসভা ও সিটি কর্পোরেশন থেকে যশোর পৌরসভা সফল। করোনাকালীন সময়ে যশোর পৌরসভা ২০৭ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করেছে।

টিআইবি’র সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার কাজী শফিকুর রহমান বলেন, যশোর পৌরসভার ২০২০-২০২১ অর্থবছরের বাজেট অনলাইন প্লাটফর্মে বা অন্য কোন উপায়ে জনগণের সামনে উন্মুক্ত করা যায় কিনা তার ভেবে দেখার অনুরোধ করছি। যশোর পৌর এলাকায় কত লোকের বসবাস এবং তারা কে কোন পেশার সাথে যুক্ত সে ধরনের তথ্য সম্বলিত তালিকা উন্মুক্ত করা দরকার। করোনাকালীন সময়ে যশোর পৌরসভার নিজস্ব তহবিল ও প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ত্রাণ কারা পেয়েছেন তাদের তালিকা উন্মুক্ত করার অনুরোধ করছি। যশোর পৌরসভার যে উন্নয়নমূলক কাজ হয়েছে তার বিস্তারিত বিবরণ জনগণের নিকট উন্মুক্তকরণের সুপারিশ করছি। পৌরসভার সকল প্রকার তথ্য উন্মুক্ত রাখা যাতে অবাধ তথ্য প্রবাহের সৃষ্টি হয়। পৌর কাউন্সিলন রাশেদ আব্বাস রাজ বলেন, ফুটপাত দখলমুক্ত করার জন্য মেয়র মহোদয়কে আবারো কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার অনুরোধ করছি।

সনাক সভাপতি অধ্যাপক সুকুমার দাস এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভা সঞ্চালনা করেন সনাক সদস্য এস এস তৌহিদুর রহমান। সভায় পৌর কাউন্সিলর, পৌর কর্মকর্তা, সনাক, স্বজন, ইয়েস, ইয়েস ফ্রেন্ডসসহ টিআইবি কর্মীবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

সাতক্ষীরায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হাজার অতিক্রম করলো

 সাতক্ষীরায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হাজার অতিক্রম করলো





আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃ অবশেষে সাতক্ষীরায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হাজার অতিক্রম করলো।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে দুই পুলিশ সদস্য ও এক স্বাস্থ্যকর্মীসহ ৬ জনের করোনা শনাক্ত হওয়ার মধ্যদিয়ে, সাতক্ষীরা জেলায় এ পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১ হাজার ২ জনে। 

আজ শুক্রবার (২৮ আগস্ট) দুপুরে সাতক্ষীরা স্বাস্থ্য বিভাগ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।


সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডাঃ জয়ন্ত সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আজ পর্যন্ত সাতক্ষীরা জেলায়, মোট ৪ হাজার ৮৪৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করে, করোনা পরীক্ষার জন্য পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়,

যার মধ্যে ৩ হাজার ৬২৩ জনের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট এসেছে।


এর মধ্যে ১ হাজার ২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বাকিদের রিপোর্ট এখনো পৌঁছায়নি।

ডাঃ জয়ন্ত সরকার আরো জানান, সাতক্ষীরা জেলায় আজ পর্যন্ত ১ হাজার ২ জন করোনা আক্রান্তের মধ্যে সুস্থ্যতা লাভ করেছেন ৮০৬ জন।

পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করায় দুবাইয়ে চার বাংলাদেশীর ৭বছরের কারাদন্ড

 পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করায় দুবাইয়ে চার বাংলাদেশীর ৭বছরের কারাদন্ড


নিউজ ডেস্কঃ গালফ নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৩৭ বছর বয়সী ইন্দোনেশিয়ান এক গৃহকর্মী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে চাকরির বিজ্ঞাপন দেখে ওই চক্রের সাথে যোগাযোগ করে।এরপর এক পাকিস্তানী যুবক ও দুই ইন্দোনেশিয়ান নারী তাকে দুবাইতে নিজেদের ফ্লাটে নিয়ে যান।

তবে, তাকে চাকরির পরিবর্তে ৮০ হাজার টাকায় বাংলাদেশিদের কাছে বিক্রি করে দেয় তারা। এরপর তারা ওই নারীকে এমন একটি বাড়িতে আটকে রাখেন, যে বাড়িটি পতিতালয় হিসেবে করা হয়।

ভুক্তভোগী ওই নারী বলেন, আমাকে কাজের কথা বলে এনে দেহ ব্যবসায় বাধ্য করা হয়। আসামিরা আমাকে একটি সিমকার্ড ছাড়া মোবাইল ফোন দেয়।আমি সেটাতে ওয়াইফাই সংযোগ দিয়ে নিজের বোনের সাথে যোগাযোগ করে ঘটনাটি খুলে বলি। এরপর পুলিশ আমাকে উদ্ধার করে।


এদিকে, পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘ভুক্তভোগী নারী আল মুরাক্বাবাতের আল হামরিয়ায় একটি কক্ষে বন্দি ছিলেন। সেখানে জোর করে তাকে দেহ ব্যবসায় নামানো হয়। বাড়িটিতে অভিযান চালিয়ে দু’জনকে গ্রেফতারের পাশাপাশি ওই নারীকে উদ্ধার করা হয়েছে।


ইন্দোনেশিয়ান ঐ নারীকে পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করার দায়ে চার বাংলাদেশিকে ৭ বছরের কারাদণ্ড সহ একই অভিযোগে আরও তিনজনকে দণ্ডাদেশ দিয়েছে দুবাইয়ের একটি আদালত।

পটুয়াখালী, কলাপাড়া উপজেলায় গ্রামব্যাপী তাল বীজ রোপন

পটুয়াখালী, কলাপাড়া উপজেলায়  গ্রামব্যাপী তাল বীজ রোপন





কলাপাড়া উপজেলা প্রতিনিধিঃইটবাড়িয়ান সোসাইটি থেকে জানান।

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব পরছে সারা বিশ্বে, ঝুঁকিতে আছে এশিয়ার সমুদ্র উপকূলবর্তী নিচু দেশগুলো।

তার মাঝে আমাদের বাংলাদেশ অন্যতম ঝুঁকিপূর্ন দেশ এবং উপকূলবর্তী উপজেলা কলাপাড়ার বাসিন্দা হিশেবে আমাদের কথা নাই বা বললাম।


এখানে স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৩ ফুট উচ্চতার পানিতেই ডুবে যায় গ্রামের পর গ্রাম, পানীবন্দী মানুষগুলোর দুর্ভোগ চলে মাসের পর মাস।

ইতিমধ্যে আপনারা বিভিন্ন খবরে দেখেছেন। তাই আমরা উদ্যোগ নিয়েছি পরিবেশ এর ভারসম্য রক্ষায় নিজের গ্রামকে সুসজ্জিত করার একইসাথে এগিয়ে আসতে হবে আপনাদের নিজ নিজ গ্রামের উন্নয়নে এগিয়ে আসলে বদলে যাবে পুরো বাংলাদেশের চিত্র।


উল্লেখ্য, ইটবাড়িয়ান সোসাইটি একটি অরাজনৈতিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন অংশগ্রহন করছে গ্রামের নানা উন্নয়নমূলক কাজে।বৃক্ষরোপন,  শিক্ষিত তরুনদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে নানা প্রশিক্ষণ এবং অসহায় পরিবারের সদস্যদের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহন করা।  ইতিমধ্যে পুরো গ্রামের সমস্ত মসজিদ এবং প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ফলজ বৃক্ষরোপন করা হয়েছে সেইসাথে উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বিরল রোগে আক্রান্ত এক অসহায় শিশুর চিকিৎসার।


আজ ২য় ধাপে মধ্য ইটবাড়িয়ার পক্ষ থেকে  ইটবাড়িয়া গ্রামের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সড়কের দুই পাশে প্রায় ২৫০ এর অধিক তালবীজ রোপন করা হয়।


পুরো গ্রামব্যাপী এই কার্যক্রম অব্যহত থাকবে এবং সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে আসার আহবান করেছেন উক্ত সংগঠন এর স্বেচ্ছাসেবীগন।


সবাই মিলে সুন্দর,  সুশিক্ষিত এবং বেকারমুক্ত গ্রাম গড়ে তুলতে আপনার সুচিন্তিত পরামর্শ,  সহায়তা এবং অংশগ্রহন একান্ত কাম্য।


বাস্তবায়নে: ইটবাড়িয়ান সোসাইটি।

মোংলায় জলবায়ু ফান্ডের প্রোজেক্ট শুরু,জানেনা স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিরা

 মোংলায় জলবায়ু ফান্ডের প্রোজেক্ট শুরু,জানেনা স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিরা


মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা।    

মোংলায় জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ডের অর্থায়নে সোলার ডিস্যালিনেশন প্রোজেক্ট বাস্তবায়নের কাজ শুরু হয়েছে। এ প্রকল্পের আওতায় ৮ কোটি টাকা ব্যয়ে মোংলা এবং রামপাল উপজেলায় ২০২টি সয়ংক্রিয় সৌরচালিত পানি বিশুদ্ধকরণ ইউনিট স্থাপন করা হবে। এক মাস আগে থেকে মোংলায় কাজ শুরু হলেও স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিরা  এ প্রকল্প সম্পর্কে কোন কিছুই জানেন না।


পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের জলবায়ু পরিবর্তন শাখা-২ এর উপসচিব মোঃ মিজানুর রহমান ২ অক্টোবর ২০১৯ স্বাক্ষরিত প্রশাসনিক আদেশথর ( স্মারক নং-২২.০০.০০০০.০৮৬.১৪.০৮৮.১৯.৪৩০ ) মাধ্যমে জানা যায় মোংলা-রামপাল উপজেলায় সোলার ডিস্যালিনেশন প্লান্ট স্থাপন প্রকল্প বাস্তবায়িত হবে। এ প্রকল্পের মাধ্যমে দুস্থ ও দরিদ্র জনগোষ্ঠির জন্য সুপেয় পানি সরবরাহ করা হবে। ৮ কোটি টাকা ব্যয়ে এই প্রকল্পের মাধ্যমে ২০২টি সয়ংক্রিয় সৌরচালিত পানি বিশুদ্ধকরণ ইউনিট স্থাপন করা হবে। প্রকল্পের মূল মেয়াদকাল হচ্ছে সেপ্টেম্বর ২০১৯ হতে ডিসেম্বর ২০২০। প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংস্থা হলো বাংলাদেশ  জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট। প্রশাসনিক আদেশে প্রকল্পের আওতায় প্রোজেক্ট  ইমপ্লিমেন্টেশন কমিটি এবং প্রযোজ্য ক্ষেত্রে প্রোজেক্ট  স্টিয়ারিং কমিটি গঠনের কথা বলা হয়েছে। এছাড়া প্রকল্প কার্যক্রম বাস্তবায়ন এলাকায় বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ডের অর্থায়নে কর্তৃক অনুমোদিত প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট তথ্য সম্বলিত দৃশ্যমান সাইনবোর্ড স্থাপন করার কথাও বলা আছে। প্রকল্পের কার্যক্রম বিষয়ে জানতে চাইলে  প্রোজেক্টএর ডিপিডি ইসকান্দার হোসেন বলেন এক মাস আগে মোংলা উপজেলায় কার্যক্রম শুরু হয়েছে এবং তা চলমান রয়েছে। পরবর্তীতে রামপাল উপজেলায় শুরু হবে। এটি মন্ত্রণালয়ের কাজ। এবিষয়ে বিস্তারিত জানতে চাইলে ঢাকায় আসতে হবে। প্রকল্পের কাজের বিষয়ে মোংলা উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার এবং বুড়িরডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান নিখিল চন্দ্র রায় বলেন কিসের প্রকল্প, কি কাজ, কোথায় হচ্ছে কিছুই জানি না। মোংলা উপজেলা নির্বাহি অফিসার কমলেশ মজুমদার বলেন প্রকল্পএর বিষয়ে কিছুই জানি না। তবে শুনেছি এবং এবিষয়ে খোঁজ-খবর নিচ্ছি। জানতে পারলে অবশ্যই জানাবো। প্রকল্পের কার্যক্রম বিষয়ে উপজেলা পাবলিক হেল্থ  ইঞ্জিনিয়ার সোহান আহমেদ বলেন প্রোজেক্টএর টেন্ডার জটিলতায় কাজ স্থগিত হয়ে আছে জানতাম। এছাড়া আর কিছুই জানি না। উপজেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অফিসও চলমান এই প্রকল্প বিষয়ে কিছু জানে না এসম্পর্কে জানতে ডেপুটি প্রোজেক্ট ডিরেক্টর ইসকান্দার হোসেন বলেন এটি পাবলিক হেলথ ইঞ্জিনিয়ারের কাজ না এবং তার এবিষয়ে জানার কথা না।

উলিপুরে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বয়স্ক ভাতার টাকা কেটে নেয়ার অভিযোগ

 উলিপুরে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বয়স্ক ভাতার টাকা কেটে নেয়ার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি: একজন ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বয়স্ক ভাতার টাকা ব্যাংক থেকে তুলে পাঁচ হাজার করে টাকা কেটে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। এছাড়াও ভিজিএফে'র চাল বিতরণে নজির বিহীন দুর্নীতির আশ্রয় নেয়ায় ওই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে স্থানীয় লোকজন জেলা প্রশাসকের দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছে। দুর্নীতির এ ঘটনাটি ঘটেছে, কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার পান্ডুল ইউনিয়নে। 


সরেজমিন খোঁজখবর নিয়ে জানা গেছে, ঐ ইউনিয়নের সাতঘড়িয়ার পাড় গ্রামের নছিয়তুল্ল্যার পুত্র আব্দুল আজিজ (৭০) যার বয়স্ক ভাতার বহি নং নং১৩৩৪৬, সঞ্চয়ী হিসাব নং ১৬২২ এবং একই গ্রামের হাজেরা বেগম বহি নং ৬১০৫, সঞ্চয়ী হিসাব নং ৭৯০ কে ভাতা প্রদানের জন্য নির্বাচিত করা হয়। তাঁরা জানান পান্ডুল ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার মঙ্গা গত ১২ আগস্ট লোক মারফরত খবর দিয়ে তাদেরকে উলিপুর কৃষি ব্যাংকে ডেকে নেন। ঐ দিনই তারা ব্যাংকে গেলে সেখানেই তাদের হাতে বয়স্ক ভাতার বই তুলে দেন চেয়ারম্যানের গাড়িচালক রকেট মিয়া। বই পেয়ে তারা ব্যাংকে টাকার জন্য দীর্ঘক্ষন লাইন ধরে অপেক্ষা করছিলেন। কিছুক্ষণের মধ্যে চেয়ারম্যান ঐ ব্যাংকে পৌঁছান বলে ভুক্তভোগীরা জানান।


দীর্ঘ অপেক্ষার পর কার্ডধারী দুইজন ব্যাংক থেকে ৬ হাজার করে টাকা পান। কার্ডধারী আব্দুল আজিজ ও হাজেরা জানান, তারা টাকা তোলার কিছুক্ষণের মধ্যে চেয়ারম্যান তাদের সামনে এসে ৫ হাজার করে টাকা কেটে নিয়ে মাত্র এক হাজার করে টাকা হাতে ধরিয়ে দিয়ে বাড়ি যেতে বলেন। এসময় তার গাড়িচালক রকেট মিয়া সেখানে উপস্থিত ছিলেন। এ অবস্থায় তারা অসহায়ের মতো ভাতার সিংহভাগ টাকা চেয়ারম্যানের হাতে দিয়ে অসহায় এর মত বাড়িতে ফিরে আসেন।


সংশ্লিষ্ট ইউপির জনৈক একজন ইউপি সদস্য নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, এবারে নতুন বয়স্ক ভাতার তালিকায় থাকা বেশিরভাগ উপকারভোগীর কাছ থেকেই এভাবে পাঁচ হাজার করে টাকা কেটে নেয়া হয়েছে।


সরকার ঘোষিত নীতিমালা অনুযায়ী ৬০ বছরের নীচে কাউকে বয়স্ক ভাতা প্রদান করা যাবে না উল্লেখ থাকলেও হাজেরা বেগম এর ক্ষেত্রে তা একেবারেই অনুসরণ করা হয়নি। হাজেরা বেগম এর বয়স ষাট পূর্ণ হওয়ার আগেই তাকে বয়স্ক ভাতার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এভাবে বয়স্ক ভাতার উপকারভোগী নির্বাচনে সীমাহীন দুর্নীতির আশ্রয় নেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। জনপ্রতিনিধিদের লাগামহীন দুর্নীতির কারণে সরকারের এই প্রকল্পটি প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে।


অন্যদিকে একই ইউনিয়নের বৈরাগী পাড়া গ্রামের প্রশান্ত চন্দ্র মহন্তের প্রতিবন্ধি কন্যা প্রিয়াংকা রাণীর ভাতার ৯ হাজার টাকা তুলে ৮ হাজার টাকাই কেটে নিয়েছেন ওই ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু মিয়া। একই ভাবে অধিকাংশ প্রতিবন্ধী কার্ডধারীদের কাছ থেকে আট হাজার করে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে চেয়ারম্যান ও তার দলবলের  বিরুদ্ধে। 


সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের আব্দুল জলিল মাস্টারের অসহায় পুত্র শারীরিক প্রতিবন্ধীর স্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, ওই ইউনিয়নের ১.২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত ইউপি সদস্য আকতারা বেগম ৬ মাস আগে তার প্রতিবন্ধী স্বামীকে ভাতা কার্ড করে দেয়ার কথা বলে ৫ হাজার টাকা নেন। কিন্তু দীর্ঘদিনেও  তার ভাগ্যে কার্ড জোটেনি। এখন টাকা চাইতে গেলেও টাকা দিচ্ছে না। অথচ  ইউনিয়নে প্রতিবন্ধী নয় এমন অনেকের ভাগ্যে প্রতিবন্ধী ভাতা জুটছে, প্রকৃত প্রতিবন্ধীরা ভাতা পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ রয়েছে।


ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার মঙ্গা ইউনিয়ন বিএনপি নেতা হলেও বর্তমানে খোলস পাল্টিয়ে উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কতিপয় নেতার সাথে সক্ষ্যতা গড়ে তুলে ভিজিএফ'র চাল বিতরণে নজিরবিহীন দুর্নীতির আশ্রয় নেন। অভিযোগ রয়েছে অনুমোদনহীন তালিকা দিয়ে মনগড়া ভাবে ভিজিএফ'র চাল বিতরণ করায় সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের অসংখ্য মানুষ প্রধানমন্ত্রীর ঈদের পূর্ব মুহূর্তে দেয়া উপহার ভিজিএফে'র চাল থেকে বঞ্চিত থাকেন। চাল বিতরণের ঘরে বসে তৈরি করা মাস্টাররোল অনুসন্ধান করে মৃত ব্যক্তিদের নামে ভিজিএফে'র চাল বিতরণের নজিরবিহীন ঘটনা ধরা পড়ে। ৫ হাজার ৫৩ জনের মধ্যে একটি ওয়ার্ড এর তালিকা যাচাই করলে দুর্নীতির এই চিত্র ফুটে ওঠে। এদের মধ্যে সচ্ছল পরিবার, মৃত ব্যক্তি ও ভুয়া ন্যাশনাল আইডি কার্ড ব্যবহার করে ভিজিএফের চাল আত্মসাৎ করা হয়েছে। 


ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি আবু মিয়া প্রতিবন্ধি প্রিয়াংকা রাণীর ভাতার টাকা আত্মসাতের বিষয়টি অস্বীকার করে কার্ড করে দেয়ার দাবি করেছেন।


ইউপি সদস্য আকতারা বেগম, কার্ড করে দেয়ার জন্য ৫ হাজার টাকা নেয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, সমাজসেবা অফিসে গেলেই টাকা লাগে তাই টাকা নিয়েছিলাম তবে টাকা ফেরত দিব।


ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল জব্বার মঙ্গা বলেন, তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা বানোয়াট ও ভিত্তিহীন । কেউ যদি দুস্থ্য ভাতাভোগীদের টাকা আত্মসাৎ করে থাকে তদন্ত করে তাদের বিরুদ্বে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবিতে দারুল আরকাম মাদরাসা শিক্ষকদের মানবন্ধন

 বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবিতে দারুল আরকাম মাদরাসা শিক্ষকদের মানবন্ধন





নিউজ ডেস্কঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিষ্ঠিত ও ইসলামিক ফাউন্ডেশন পরিচালিত দারুল আরকাম ইবতেদায়ী মাদরাসার ২ হাজার ২০ জন শিক্ষক-শিক্ষিকার আট মাসের বকেয়া বেতন দেওয়া এবং প্রকল্পটি দ্রুত পাস করার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে বাংলাদেশ দারুল আরকাম শিক্ষক কল্যাণ সমিতি।


বৃহস্পতিবার (২৭ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।




সংগঠনের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক আনোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ দারুল আরকাম শিক্ষক কল্যাণ সমিতির কেন্দ্রীয় সভাপতি জয়নুল আবেদীন, মহাসচিব জাকির হোসেন, কেন্দ্রীয় নেতা মাসুম বিল্লাহ, তাজুল ইসলাম, শায়খুল ইসলাম, সালাউদ্দিন আহমেদ, আলাউদ্দিন মিয়া ও আব্দুল জব্বার মোল্লা প্রমুখ।


মানববন্ধনে কেন্দ্রীয় সভাপতি জয়নুল আবেদীন বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একজন খোদাভিরু মানুষ। তিনি নিয়মিত তাহাজ্জুদ নামাজ পড়েন। ফজরের নামাজ আদায় করে তার দিন শুরু হয় পবিত্র কোরআন তেলওয়াতের মাধ্যমে। তাই আশা করছি, তিনি ইবতেদায়ী -মাদরাসার শিক্ষকদের চাকরি স্থায়ী করবেন। তাদের বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধ করবেন। আমরা এটা বিশ্বাস করি। ’


তিনি বলেন, ‘দারুল আরকাম -মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার প্রতিষ্ঠিত -মাদরাসার শিক্ষকরা এভাবে মানবেতর জীবনযাপন করতে পারে না। ’ তিনি সমস্যা সমাধানে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

রফিজের মুখে হাসি ফোটালো যশোরের ডিবি পুলিশ

 রফিজের মুখে হাসি ফোটালো যশোরের ডিবি পুলিশ




সুমন হোসেন, যশোর জেলা প্রতিনিধি:নড়াইলের চাকরি গ্রামের রফিজ গাজী। তার জীবিকা নির্বাহের একমাত্র উপকরণ ছিল একটি ইজিবাইক। গত ২৮ জুলাই যাত্রী সেজে এক ব্যক্তি যশোরের অভয়নগরের দেয়াপাড়া ব্রিজের সামনে নিয়ে যায় তাকে। সেখান থেকে যায় বসুন্দিয়ায়। এরপর এক বাড়িতে দুপুরে খাবার খায় তারা। এর কিছু সময় পর সে অচেতন হয়ে পড়েন রফিজ। ৫ দিন পর জ্ঞান ফিরে দেখেন তার ইজিবাইক নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন নেই গত বুধবার কোনোটায় নেই। পরে পুলিশের আশ্রয় নেন তিনি। বুধবার পুলিশের সহযোগিতায় তার ইজি বাইকটি ফিরে পেয়েছেন। এ বিষয়ে যশোর জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি সুমন দাস জানান, পুলিশের কাছে অভিযোগ করলে তদন্তের দায়িত্ব পায় ডিবি। এরপর তার নেতৃত্বে একটি টিম গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার গোলাবাড়ীয়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে চক্রের মূল হোতা আলম ফারাজী ও  রবিউল ইসলাম নামে দুই জনকে আটক করা হয়।এরপর তাদের দেয়া তথ্য মতে কুষ্টিয়া জেলায় অভিযানে নামে। এরপর কুষ্টিয়া  সদর উপজেলার চোরহাস ফুলতলা এলাকার মিজানুর রহমানের গ্যারেজ থেকে ১৮ টি ইজি বাইক উদ্ধার করা হয়। তার মধ্যে রফিজের ইজিবাইকও ছিলো। গত বুধবার আদালতের নির্দেশে তার একমাত্র অবলম্বন হস্তান্তর করেন তারা। এ বিষয়ে রফিজ বলেন, ইজিবাইকটি তার শেষ সম্বল ছিলো। পুলিশের সহযোগিতায় ইজিবাইক ফিরে পেয়ে যেন নতুন জীবন ফিরে পেয়েছেন তিনি। সাথে খুশি পরিবারের লোকজনও। তিনি পুলিশ প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানান।

মহেশপুরে মধ্যেরাতে ৪৯ বতোল ফেন্সিডিল সহ আটক-১

মহেশপুরে মধ্যেরাতে ৪৯ বতোল ফেন্সিডিল সহ  আটক-১





খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার। 

খুলনা ব্যুরো প্রধানঃঝিনাইদহের মহেশপুরে ফেন্সিডিলসহ এক জন কে আটক করেছে মহেশপুর থানা পুলিশ।

২৭ আগস্ট মধ্যরাতে মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ সাইফুল ইসলাম এর দিকনির্দেশনায় থানাধীন ভৈরবা ফাঁড়ী পুলিশের এস আই শরিফুল ইসলাম ও এ এস আই হুমায়ুন কবির গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সঙ্গীয় ফোর্স সাথে নিয়ে মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান পরিচালনা কালে উপজেলার বাঁশবাড়ীয়া ইউপির সাতপোতা টু ভোলাডাংগা রাস্তার উপর হইতে হালিমের বাড়ীর কাছ থেকে রাজ্জাক হোসেন (৫৫) নামের এক মাদক ব্যবসায়ীকে ৪৯ বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল সহ হাতেনাতে আটক করেন।

আটককৃত মাদক ব্যবসায়ী রাজ্জাক উপজেলার বাঁশবাড়ীয়া ইউপির সাতপোতা গ্রামের মৃত ইউসুফ আলীর পুত্র।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আসামীর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মহেশপুর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

স্মৃতির পাতায় নজরুল,৪৪ তম মৃত্যু বার্ষিক

 স্মৃতির পাতায় নজরুল,৪৪ তম মৃত্যু বার্ষিক

এইচ এম জহিরুল ইসলাম মারুফ,জেলা প্রতিনিধিঃবাংলাদেশী ও বাঙালি চেতনার প্রিয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম ইন্তেকাল করেছেন আজ থেকে চুয়াল্লিশ বছর আগে। শোকাবহ ২৭ আগষ্ট তার ৪৪তম মৃত্যুবার্ষিকী। 


১৯৭৬ সালের শোকের মাসেই এদিনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (সাবেক পিজি হাসপাতাল) শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। কবিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদের পাশে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাহিত করা হয়। মসজিদের পাশে কবর দেয়ার আকুতি জানিয়ে কবিতা লিখেছিলেন এই কবি।

এখানেই তিনি চিরনিদ্রায় শায়িত আছেন।


জাতীয় কবির মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও পেশাজীবী সংগঠন বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। বাংলাদেশ বেতার, বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বিভিন্ন বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এ উপলক্ষে বিশেষ অনুষ্ঠানমালা প্রচার করেছে। 


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মসূচির মধ্যে ছিলো সকালে শোভাযাত্রা সহকারে কবির সমাধি প্রাঙ্গণে গমন, পুষ্পার্ঘ অর্পণ এবং ফাতেহা পাঠ ও পরে কবির মাজার প্রাঙ্গণে আলোচনা সভা। সকাল সাড়ে ১০টায় প্রশাসনিক ভবনে অধ্যাপক আব্দুল মতিন চৌধুরী ভার্চুয়াল ক্লাস রুমে ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহারের মাধ্যমে আলোচনা সভা।


বাংলা একাডেমি কবির মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিস্তারিত কর্মসূচির আয়োজন করেছে। সকালে একাডেমির পক্ষ থেকে জাতীয় কবির সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হবে। বেলা ১১টায় একাডেমির কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে একক বক্তৃতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এতে স্বাগত বক্তৃতা রেখেছিলেন একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী। এতে সভাপতিত্ব করেছেন বাংলা একাডেমির সভাপতি অধ্যাপক শামসুজ্জামান খান। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে রয়েছিলো নজরুলের কবিতা থেকে আবৃত্তি এবং নজরুলগীতি পরিবেশনা।


জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম ১৩০৬ সালের ১১ জ্যৈষ্ঠ পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার চুরুলিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর ডাক নাম ‘দুখু মিয়া’। পিতার নাম কাজী ফকির আহমেদ ও মাতা জাহেদা খাতুন।


বাংলা সাহিত্যে বিদ্রোহী কবি হিসেবে পরিচিত হলেও তিনি ছিলেন একাধারে কবি, সঙ্গীতজ্ঞ, ঔপন্যাসিক, গল্পকার, নাট্যকার, প্রাবন্ধিক, সাংবাদিক, চলচ্চিত্রকার, গায়ক ও অভিনেতা। তিনি বৈচিত্র্যময় অসংখ্য রাগ-রাগিনী সৃষ্টি করে বাংলা সঙ্গীতজগৎকে মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত করেছেন।


প্রেম, দ্রোহ, সাম্যবাদ ও জাগরণের কবি কাজী নজরুল ইসলামের কবিতা ও গান শোষণ-বঞ্চনার বিরুদ্ধে সংগ্রামে জাতিকে উদ্বুদ্ধ করেছে। মুক্তিযুদ্ধে তাঁর গান ও কবিতা ছিল প্রেরণার উৎস। তিনি ছিলেন অসাম্প্রদায়িক চেতনার পথিকৃৎ লেখক। তাঁর লেখনি জাতীয় জীবনে অসাম্প্রদায়িক চেতনা বিকাশে ব্যাপক ভূমিকা পালন করে।


বাংলাদেশের স্বাধীনতার পরপরই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামকে সপরিবারে সদ্যস্বাধীন বাংলাদেশে নিয়ে আসেন। রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বাংলাদেশে তাঁর বসবাসের ব্যবস্থা করেন এবং ধানমন্ডিতে কবিকে একটি বাড়ি দেন।

কিতাব বিভাগ চালুর অনুমোদন দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে আল্লামা মাসঊদের অভিনন্দন

কিতাব বিভাগ চালুর অনুমোদন দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে আল্লামা মাসঊদের অভিনন্দন




এইচ এম জহিরুল ইসলাম মারুফঃজাতীয় দ্বীনী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড বেফাকুল মাদারিসিদ্দীনিয়া বাংলাদেশের আবেদনের প্রেক্ষিতে দেশের কওমী মাদরাসার কিতাব বিভাগের শিক্ষা কার্যক্রম শুরু ও পরীক্ষা গ্রহণের অনুমোদন দেয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন জাতীয় দ্বীনী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান শাইখুল হাদিস আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ। তিনি বলেন, করোনা ভাইরাস যুগে একটি ভয়াল মহামারিকাল আমরা অতিক্রম করছি। সবধরনের রোগ বালা মসিবত থেকে মহান আল্লাহই আমাদের রক্ষা করতে পারেন। দেশের কওমী মাদরাসাগুলো অন্যান্য সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। হিফজ বিভাগের পর ইলমে নববীর চর্চা কেন্দ্র কিতাব বিভাগও খোলে দেয়ায় আমরা কৃতজ্ঞচিত্তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অশেষ শুকরিয়া জানাচ্ছি। দেশের মন্ত্রণালয়, সচিলবালয়সহ সংশ্লিষ্ট যারাই কওমী মাদরাসা চালু হওয়ার ক্ষেত্রে অবদান রেখেছেন সবারই শুকরিয়া জানাই।


আল্লামা মাসঊদ বলেন, দেশের অন্যান্য সব কিছুই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চালু হয়ে গেছে। সুতরাং কওমী মাদরাসাও স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুলতে কোনো বাধা ছিলো না। দেশের কওমী অঙ্গন একটি মাইলফলক অতিক্রম করেছে এবার। শত কষ্ট সত্ত্বেও কওমী মাদরাসা শিক্ষক ও শিক্ষার্থীগণ সহনশীলনতার পরিচয় দিয়েছেন। দেশে স্বাস্থ্যবিধি মানতে, করোনাকালে অভাবগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে যে সাক্ষর রেখেছেন, করোনায় মৃত ব্যক্তির লাশ দাফন যে অবদান রেখেছেন তা এ দেশের মানুষ কোনো দিন ভুলতে পারবে না। করোনাযোদ্ধা, বিপদের বন্ধু এই লড়াকু আলেমশ্রেণিকে আমি অভিনন্দন জানাই। আসুন, আমরা আবারও ইলমে নূরের বাগানে ফিরে যাই। নবীজী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের হাদিসের চর্চার মোহনায় মিশে যাই। আল্লাহ তাআলা আমাদের কবূল করুন।


ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ জাতীয় বেফাক নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, সব কাজ তো একমাত্র আল্লাহর জন্য। দ্বীনী কাজের জাযা দেবেন একমাত্র আল্লাহ তাআলা। আমরাও তাদের ধন্যবাদ জানাতে চাই। আল্লাহ তাআলা তাদের মেহনতকে কবুল করুন।


গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে জাতীয় দ্বীনী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান শাইখুল হাদিস আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ এসব কথা বলেন।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোক্তা হবার আহ্বানের বিপরীতে e-commerce উদ্যোক্তাদের টুঁটি চেপে ধরার প্রয়াস

 মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোক্তা হবার আহ্বানের বিপরীতে e-commerce উদ্যোক্তাদের টুঁটি চেপে ধরার প্রয়াস




যুবকদের চাকরির পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।একই সঙ্গে উদ্যোক্তা হতে যুবকদের সহযোগিতা ও উৎসাহিত করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি।


গত বৃহস্পতিবার (২০ আগষ্ট) বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ বেজা-এর গভর্নিং বডির ৭তম সভায় ভার্চুয়াল মাধ্যমে গণভবন থেকে সূচনা বক্তব্যে একথা বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।


যুব সমাজকে উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের যুব সমাজকে যেন আকৃষ্ট করতে পারি, তাদের যেন উৎসাহিত করতে পারি। শুধু চাকরির পেছনে ছোটা না, ডিজিটাল প্লাটফর্মে নিজেরা কিছু করে দেখানো, কাজ করা। সেদিকে আমাদের দৃষ্টি দিয়ে কাজ করতে হবে। এবং যুবকদের উদ্যোক্তা হবার মাধ্যমেই ডিজিটাল বাংলাদেশ বির্নিমানের লক্ষ্য আমরা সহসাই পৌছাতে পারব।


দেশের অর্থনীতিকে শক্তিশালী করতে ও কর্মসংস্থান বাড়াতে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ বাড়াতে তাগিদ দেন তিনি।


প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের লক্ষ্য বিনিয়োগ আকৃষ্ট করা। এখন অনেক বিনিয়োগ- এটা সব সময় এদেশ থেকে ওদেশে ঘুরতে থাকে। আমরা যত বেশি আনতে পারি আমাদের জন্য ভালো। কাজেই বিদেশি বিনিয়োগ যেমন আসবে, দেশেও আমাদের যাদের বিনিয়োগ করার সক্ষমতা আছে তারাও যেন বিনিয়োগ করতে পারে।


আর ঠিক সে সময় যখন বর্তমান সরকারের ভিশন ২১ ও ৪১ নিয়ে কিছু দেশীয় যুবক উদ্যোক্তা হবার স্বপ্নে বিভোর হয়ে রাত দিন তাদের মেধা-শ্রম-বিজ্ঞান মনস্ক জ্ঞান বুদ্ধি ও মুক্ত চিন্তা কাজে লাগিয়ে দেশের e-commerce ব্যবসাকে একটু একটু করে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে তখন সে সব ষড়যন্ত্রকারীদের এটা ভাল লাগছে না। তাদের একমাত্র টার্গেট বাংলাদেশ থাকবে তলা বিহীন ঝুঁড়ি হয়ে কেন বাংলাদেশের সন্তানরা Alibaba,Amazon, flipkart দের মত বড় e-commerce প্রতিষ্ঠানের হয়ে এদেশের অর্থনীতিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। কেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আহ্বানে তারা সাড়া দিয়ে উদ্যোক্তা হবার স্বপ্ন দেখে এ দেশকে মধ্যম আয়ের দেশ থেকে উন্নত আয়ের দেশে রুপান্তর করতে সাহায্য করবে।

যখন কিছু কিছু start-up ও প্রযুক্তিগত প্লাটফর্ম ছোট ছোট মূলধন খাটিয়ে এদেশের অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখতে চলছে ঠিক সে সময় -ই তারা ১/২/৪/৫ বছরের উদীয়মান উদ্যোক্তাদের ভূলভ্রান্তি না ধরিয়ে দিয়ে সোজা কোমর ভেঙে বাংলাদেশের অর্থনীতির পথকে রুদ্ধ করতে দৃশ্যমান ষড়যন্ত্রে লেখনীর মাধ্যমে অবতীর্ণ হয়েছে।


দেশি-বিদেশি বিনিয়োগের জন্য বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের যারা ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীর তাদেরও আমরা যেন উৎসাহিত করতে পারি।

তাহলে আমার প্রশ্ন তাদের কাছে আপনার কেন ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের টুঁটি চেপে ধরে দেশীয় উদ্যোক্তাদের মেরে ফেলার ঘৃণ ষড়যন্ত্র করছেন। তার একমাত্র কারন কি তাহলে বর্তমান আওয়ামী সরকার তথা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে লক্ষ্যে বাংলাদেশকে উন্নত ও সম্মৃদ্ধির পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে তাতে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা।


নতুন প্লাটফর্মের কাজে কিছু কিছু ভূলভ্রান্তি থাকবে, সমাজের যারা দর্পন হিসেবে কাজ করেন কিংবা মহান মুক্তিযুদ্ধের বিনিময়ে অর্জিত এ স্বাধীন বাংলাদেশের অগ্রযাত্রীকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে নিশ্চয়ই নতুন উদ্যোক্তাদের পাশে থেকে উৎসাহ ও ভূলত্রুটি ধরিয়ে দিয়ে স্বাধীন বাংলাদেশের অর্থনীতিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য ও বেকারত্বের হ্রাস করার লক্ষ্যে উদীয় মান সকল উদ্যোক্তাদের প্রোমোট করা আমাদের সকলের নৈতিক দায়িত্ব। সাথে সাথে ডিজিটাল বাংলাদেশ বির্নিমানের সুযোগ নিয়ে কেউ যাতে ১৮ কোটি মানুষের সাথে প্রতারনা না করতে পারে সে জন্য সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষকেই সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।

পরিশেষে আমি একজন যুবক উদ্যোক্তা হিসেবে বলতে চাই, বর্তমান ডিজিটাল প্লাটফর্মে শিল্পের বিকাশ ছাড়া কোনো দেশ অগ্রগতি অর্জন করতে পারে না।

তাই আসুন দেশীয় উদ্যোক্তাদের পাশে থেকে তাদের মেধাকে সৎ পথে কাজে লাগাতে সাহায্য করি আর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কাজে অর্থনীতিকে সম্মৃদ্ধ করতে সকল সেক্টর কে পজিটিভ প্রোমোট করি।


- হাসান মাহমুদ

উদ্যোক্তা

রেফারেন্স- মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য (বাংলাদেশ প্রতিদিন)।

চট্টগ্রাম ইপিজেড চত্বরে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

 চট্টগ্রাম  ইপিজেড চত্বরে বিক্ষোভ ও  মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

মোঃ হাসান  রিফাত চট্টগ্রাম, প্রতিনিধিঃবাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের প্রেসিডিয়াম সদস্য মিডিয়া ব্যক্তিত্ব শহীদ আল্লামা নূরুল ইসলাম ফারুকী (রহ.)’র ৬ষ্ঠ শাহাদাত বার্ষিকীতে খুনীদের শাস্তির দাবিতে চট্টগ্রাম মহানগর দক্ষিণ ইসলামী ফ্রন্ট, যুবসেনা ও ছাত্রসেনার যৌথ ব্যবস্থাপনায় আজ ২৭ আগস্ট বৃহষ্পতিবার বিকাল ৩ ঘটিকায় চট্টগ্রাম ইপিজেড চত্ত্বরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল ছাত্রসেনা মহানগর দক্ষিণ'র সভাপতি মুহাম্মদ রেজাউল করিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ ইসলমী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম মহানগর দক্ষিণ'র সহ-সভাপতি মাওলানা ইউনুছ তৈয়্যবী যুক্তিবাদী। উদ্বোধক ছিলেন ইসলামী ফ্রন্ট মহানগর দক্ষিণ যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা নুরুল কবির রিজভী। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন ইসলামী যুবসেনা চট্টগ্রাম মহানগর দক্ষিণ'র সভাপতি মাওলানা মোহাম্মদ নাজিম উদ্দীন, বিশেষ বক্তা ছিলেন মহানগর দক্ষিণ যুবসেনার সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ এনামুল হক। মুহাম্মদ জহির উদ্দিন ও ইয়ার আহমদ জামশেদের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সিমেন্ট ক্রসিং জামে মসজিদের ইমাম  মাওলানা মোহাম্মদ আনোয়ারুল ইসলাম আনোয়ারী, মুহাম্মদ জসিম উদ্দিন, মুহাম্মদ আব্দুর রহিম,সৈয়দ মুহাম্মদ ইয়াছির,মুহাম্মদ মুন্না,ইয়াকুব আলি শোয়েব, শামীমুল ইসলাম, হাসানুর রহমান আপন,মিরাজ, আলমগীর, জুবায়ের,ওয়াহিদ,শাহীন, তানজিল প্রমূখ।


বক্তারা -ফারুকী হত্যার ৬বছর অতিক্রান্ত হওয়া সত্ত্বেও এখনো বিচার না পাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন এবং ফারুকী হত্যার বিচার না হওয়া পর্যন্ত ইসলামী ফ্রন্ট, যুবসেনা ও ছাত্রসেনা মাঠে থাকবে বলে অঙ্গিকার ব্যক্ত করেন। একই দাবীতে আগামীকাল ২৮ আগস্ট বিকেল ৩ টায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব চত্তরে অবস্থান কর্মসূচি ও কর্ণেলহাট চত্তরে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল সফল করার উদাত্ত আহবান জানান।

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন

 কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন




শাহ আলম জাহাঙ্গীর

ব্যুরো চিফ, কুমিল্লাঃকুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলাসহ শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় এলো আরও ৩১টি উপজেলা। বৃহস্পতিবার (২৭ আগস্ট) দেশের ১৮ জেলার ৩১টি উপজেলার শতভাগ বিদ্যুতায়নের উদ্বোধন করেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের সুযোগ্য কণ্যা দেশরত্ন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।


পাশাপাশি দুটি পাওয়ার প্ল্যান্ট, ১১টি গ্রিড সাব-স্টেশন, ছয়টি নতুন সঞ্চালন লাইনও উদ্বোধন করেছেন তিনি। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে গণভবন থেকে ভার্চুয়াল কনফারেন্সের মাধ্যমে এগুলো উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এসময় বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ তার মন্ত্রণালয়ের কার্যালয় থেকে অনুষ্ঠানে সংযুক্ত হন। মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং ২৭টি জেলার জনপ্রতিনিধিরাও ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত ছিলেন। এসময় মুরাদনগর উপজেলা পরিষদের কবি নজরুল মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রীর ভার্চুয়াল কনফারেন্সের মাধ্যমে মুরাদনগর উপজেলাসহ ৩১টি উপজেলার শতভাগ উদ্বোধন অনুষ্ঠান উপভোগ করতে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার অভিষেক দাশ, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) সাইফুল ইসলাম কমল, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাঈন উদ্দিন সোহাগ, উপজেলা প্রকৌশলী জাহাঙ্গীর কবির, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা কবির আহম্মেদ, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা রমেন কুমার সাহা, মুরাদনগর পল্লিবিদ্যুৎ অফিসের এজিএম মোঃ ফরিদ উদ্দিন,উপজেলা ডেভলপমেন্ট ফ্যাসিলিটেটর সোহেল রানা, উপজেলা পল্লী সঞ্চয় ব্যাংকের সমন্বয়ক আফজালের রহমান, উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা সুফি আহম্মেদ প্রমুখ। প্রধানমন্ত্রী এর আগে দেশের ২৫৭টি উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন উদ্বোধন করেছেন। এই ৩১টি উপজেলা উদ্বোধনের পর মোট ২৮৮টি উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়নের আওতায় এলো। এর ফলে দেশের ৯৭ শতাংশ মানুষ বিদ্যুৎ সুবিধা ভোগ করবে।


শতভাগ বিদ্যুতায়িত উপজেলাগুলো হচ্ছে, কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর ও বরুড়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর, সরাইল, আশুগঞ্জ, চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ ও কচুয়া, ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা ও বোয়ালমারী, গাইবান্ধা জেলার সাদুল্লাপুর, ঝিনাইদাহ জেলার সদর উপজেলা, মানিকগঞ্জ জেলার মানিকগঞ্জ সদর, দৌলতপুর, সিঙ্গাইর ও শিবালয়, মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর, নওগাঁ জেলার মান্দা, ধামরহাট, সাপাহার, নীলফামারি জেলার ডোমার, নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ, পটুয়াখালী জেলার মির্জাগঞ্জ, রাজবাড়ী জেলার রাজবাড়ী সদর ও বালিয়াকান্দি, রাজশাহী জেলার বাঘমারা, সাতক্ষীরা জেলার সাতক্ষীরা সদর, সিলেট জেলার জকিগঞ্জ ও মাদারীপুর জেলার কালকিনি উপজেলা।