সিরাজগঞ্জে ভিজিডির ৬৯ বস্তা চাল জব্দ

সিরাজগঞ্জে ভিজিডির ৬৯ বস্তা চাল জব্দ

মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জে জেলাপ্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার সয়দাবাদ ইউপিতে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচি ও ভিজিডির ৬৯ বস্তা চাল জব্দ করেছে প্রশাসন। জব্দকৃত চাউলগুলো ইউনিয়ন পরিষদে সংরক্ষনে রাখা হয়েছে।

যাদের বাড়ি থেকে চাউলগুলো জব্দকরা হয়েছে রমজান আলী ওরফে ভাষার বাড়িতে ২৬ বস্তা, শ্রী মানিক চন্দ্রের বাড়িতে ২৩ বস্তা ও আমজাদ হোসেনের বাড়ীতে ২০ বস্তা। এতে প্রায় ২১০৫ কেজি চাউল জব্দ করা হয়েছে।

সোমবার (২৩ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলার সয়দাবাদ ইউনিয়নের পাশে ও দুখিয়াবাড়ী পুর্বপাড়ায় অভিযান চালিয়ে এ চালগুলো উদ্ধার করে প্রশাসন।শেখ হাসনিার বাংলাদেশ ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ এই শ্লোগান কে সামনে রেখে সরকার যখন অতিদরিদ্র মাঝে ১০ টাকা কেজি চাল বিতরণ করেন। ঠিক সেই চাল অতিদরিদ্রদের মাঝে না গিয়ে যাচ্ছে চাল চোরদের পেটে। এমই দৃশ্য চোখে পড়ে ১০ নং সয়দাবাদ ইউনিয়নে।

সরেজমিনের গিয়ে দেখা যায়, সয়দাবাদ ইউপির পাশে মানিক নাপিত নামের এক ব্যবসায়ীর বাড়ীতে ২৩ বস্তা, দুখিয়াবাড়ী পুর্বপাড়া রমজান আলী ভাষার বাড়ীতে ২৬ বস্তা ও আমজাতের বাড়ীতে ২০ বস্তা চাল দেখা যায়।সয়দাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান মো. নবীদুল ইসলাম জানান, বিষয়টি আমি অবগত হয়েছি। এদের বিরুদ্ধে যথাযত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আনোয়ার পারভেজ জানান, ঘটনাটি শুনে ঘটনাস্থলে ভুমি কর্মকর্তাকে পাঠিয়ে চাউলগুলো জব্দ করেছেন। জব্দকৃত চাউলগুলো ইউনিয়ন পরিষদে সংরক্ষনে রেখে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অধিদপ্তর ও স্থানীয় ইউপি সদস্যকে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

পলুয়া সর্বজনীন শ্রী শ্রী রাধা গোবিন্দ মন্দিরে কাত্যায়নী পূজা,চেয়ারম্যান প্রার্থীর পুরস্কার বিতরণ

 পলুয়া সর্বজনীন  শ্রী শ্রী  রাধা  গোবিন্দ মন্দিরে কাত্যায়নী পূজা,চেয়ারম্যান প্রার্থীর পুরস্কার বিতরণ

স্টাফ রিপোর্টারঃ চৌগাছা উপজেলার ২ নং পাশাপোল ইউনিয়নের পলুয়া গ্রামে আজ রাতে  যথাযত ধর্মীয় উৎসাহ উদ্দিপনায় সনাতোন ধর্মের কাত্যায়নী পূজা উৎযাপন করা হয়।এ সময় পূজার আরতি ও নৃত্য পরিবেশনের আযোজন করেন পূজা মন্দির কমিটি এবং আরতি ও নৃত্য শিল্পীদের মাঝে পুরষ্কার বিতারন করেন ২ নং পাশাপোল ইউনিয়ন চেয়ারম্যান প্রার্থী,  ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সসম্পাদক  ও বাংলাদেশ আওয়ামী আইন ছাত্র পরিষদের যশোর জেলা কমিটির সভাপতি প্রভাষক সবুজ হোসেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন পলুয়া সর্বজনীন শ্রী শ্রী রাধা গোবিন্দ মন্দিরের ও পাশাপোল ইউনিয়ন পূজা পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক সরজিত বিশ্বাস,  ছাত্রলীগ নেতা  হৃদায় হোসেন, ইমরান,  মাহামুদুল, বিপুল , শুকুর আলী, ভিম বিশ্বাস,হরিদাস কুমার, শ্যামল বিশ্বাস,ও পাশাপোল ইউনিয়ন ছাত্রলীগ ও যুবলীগের নেতা কর্মী।

আরও পড়ুনঃ  আশাশুনির দাশেরহাটি ইউপি চেয়ারম্যান মিলনের উঠান বৈঠক

অপহরণ -মো ফিরোজ খান

অপহরণ   -মো ফিরোজ খান

আমি বাইরে গেলাম, দোয়া করো সবাই আমাকে
বিপদে না পরি ভালো ভাবে ফিরে আসি ঘরে
হঠাৎ করে একদল দুষ্টু ছেলে তাড়া করে আমায়
ভয়ে দু পা এক পা করে সামনে এগিয়ে যাই।

যেনো পা চলছে না বুক কাপছে আমার ভয়ে
হঠাৎ  চারদিক থেকে ঘিরে ধরে আমায় ওরা
চোখ বেঁধে গাড়িতে তুলে নিলো তাড়া সহজে
হঠাৎ দেখি অন্ধকার ঘরে বন্দী আছি আমি।

ভয় নেই আমরা তোমার কোনো ক্ষতি করবোনা
তুমি শুধু তোমার বাবার মোবাইল নাম্বার দাও
আমরা তোমাকে ছেড়ে দেবো মুক্তিপণ নিয়ে
ঘরের মেয়ে ঘরে যাবে মান সন্মানের সাথে।

মায়ের অপেক্ষা মেয়ে কেনো আসেনা ফিরে?
হঠাৎ করে মোবাইল ফোন বেজে উঠলো বাবার!
কে বলছেন ? মেয়ের কি খবর আছে আমার?
আপনার মেয়েকে রেখেছি স্ব সন্মানে বন্দী করে।

মেয়েকে ভালো ভাবে ফিরে পেতে যান আপনি
পাঁচ লক্ষ টাকা নিয়ে জঙ্গল বাড়ি আসেন
ঠিক আছে! ঠিক আছে! আমরা এখনই আসছি
কোনো ক্ষতি যেনো ন করেন আদরের মেয়েকে।

আমাদের দেশের মধ্যে এভাবে চলছে অপহরণ
অপহরণকারীরা পার পেয়ে যাচ্ছে হেসে খেলে
এদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন
সরকারের কাছে আমাদের এটাই শুধু আবেদন।

জেঁকে বসছে শীত, আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘নিভার’

জেঁকে বসছে শীত, আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘নিভার’


তুহিন রানা (আব্রাহাম) ; খুলনা নগর প্রতিনিধিঃ
অগ্রহায়ণের শুরুতেই জেঁকে বসছে শীত। হটাৎ করেই দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে শীতের প্রকোপ বাড়ছে। দেশের উত্তর জনপদের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমে এসেছে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ঘরে। আজ সোমবার (২৩ নভেম্বর) দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রের্কড হয়েছে- রাজশাহীর বদলগাছিতে ১০ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের সূত্রমতে, আজ খুলনা বিভাগের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল চুয়াডাঙ্গায় ১১ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর খুলনাতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৫, মংলায় ১৫ দশমিক ৯, সাতক্ষীরায় ১৪ দশমিক ৮, যশোরে ১২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অধিদফতরের সিনিয়র আবহাওয়াবীদ আব্দুর রহমান জানান, রংপুরের তেতুঁলিয়ায় ১০ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং রাজশাহী, ঈশ্বরদী, দিনাজপুর, চুয়াডাঙ্গা, শ্রীমঙ্গল ও রাজারহাটে ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। ঢাকায় থার্মোমিটারের পারদ নেমেছিল ১৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত। আর দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে চট্টগ্রাম ও সন্দ্বীপে, ২৯ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
তিনি আরও বলেন, রাতের তাপমাত্রা আজ আরও কমতে পারে কোথাও কোথাও।  বুধবার থেকে রোদেলা আবহাওয়ায় দিন-রাতের তাপমাত্রা বাড়তে পারে।

 
আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, অস্থায়ীভাবে আকাশ আংশিক মেঘলাসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা থাকতে পারে। দিনের তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে।

 
আসছে ঘূর্ণিঝড় 'নিভার' : বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট সুস্পষ্ট লঘুচাপটি নিম্নচাপের রূপ নিয়ে দক্ষিণ পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থান করছে।  এটি আরও ঘনীভূত হতে পারে, ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিতে পারে।  ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিলে এর নাম হবে 'নিভার'। ওই নামটি ইরানের দেয়া। তবে তিনি ওই ঘূর্ণিঝড়ে বাংলাদেশের তেমন কোনো সমস্যা হবে না বলে আশাবাদী।

আবহাওয়াবীদরা বলছেন, ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিলেও এর প্রভাব বাংলাদেশে প্রড়বে না; ভারত-শ্রীলঙ্কার দিকে যাবে।  নিম্নচাপটি বাংলাদেশ থেকে অনেক দূরে। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে এখানে ঝড়-বৃষ্টি সেভাবে হবে বলে আমরা মনে করছেন না। অগ্রহায়ণের প্রথম ভাগেই হিমেল হাওয়ায় দেশের উত্তর জনপদের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমে এসেছে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ঘরে।

 
এদিকে দক্ষিণে, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি পরিণত হয়েছে নিম্নচাপে। সেটি আরও ঘনীভূত হয়ে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার শঙ্কা থাকলেও বাংলাদেশের দিকে আসার সম্ভাবনা কম বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

আশাশুনির দাশেরহাটি ইউপি চেয়ারম্যান মিলনের উঠান বৈঠক

আশাশুনির দাশেরহাটি ইউপি চেয়ারম্যান মিলনের উঠান বৈঠক


আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
আশাশুনি সদর ইউনিয়নের নয় নম্বর ওয়ার্ডে উঠান বৈঠক করেন সদর ইউপি চেয়ারম্যান  উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক স ম সেলিম রেজা মিলন। সোমবার বিকালে দাশেরহাটি গ্রামে শ্রীকলস গ্রামে কৃষ্ণপদ মন্ডলের সভাপতিত্বে এ উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। উঠান বৈঠকে ইউপি চেয়ারম্যান স ম সেলিম রেজা মিলন বলেন, আমি ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এই এলাকার উন্নয়নে কাজ করে চলেছি। সরকারের যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা প্রকৃত সুবিধাভোগীদের মাঝে আমি বন্টন করেছি। তিনি আরও বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের ঘোষণা আমার গ্রাম আমার শহর এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে  আমি কাজ করে চলেছি। সরকারের উন্নয়নের পাশাপাশি এই জনপদের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হলে তাকে পুনরায় নির্বাচিত করার আহ্বান জানান। এসময় ইউপি সদস্য শাহিনুর আলম,সন্তোষ কুমার মন্ডল, ইন্দ্রাণী মণ্ডল, উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান বিপুল, আব্দুল মজিদ, ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক গোপাল চন্দ্র মন্ডল,মৃনাল, সঞ্জীব, এনামুল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অপমান ও কটুক্তি করার প্রতিকারে অশ্রুসজল কন্ঠে মুক্তিযোদ্ধা দীনেশ মন্ডলের আত্নহত্যার ঘোষনা

 অপমান ও কটুক্তি করার প্রতিকারে অশ্রুসজল কন্ঠে মুক্তিযোদ্ধা দীনেশ মন্ডলের আত্নহত্যার ঘোষনা

আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধি : আশাশুনিতে পুলিশ কর্তৃক দীনেশ চন্দ্র সরকার সহ দু'মুক্তিযোদ্ধার সাথে অসাদাচারণ ও কটুক্তি করায় আত্মহত্যার ঘোষনা দিয়েছেন সংবাদ সন্মেলনে। সোমবার দুপুরে আশাশুনি প্রেসক্লাবে সংবাদ সন্মেলনে অশ্রুকন্ঠে বীর মুক্তিযোদ্ধা উপজেলার খাজরা ইউনিয়নের দূর্গাপুর গ্রামের মৃত. মানিক চন্দ্র মন্ডলের পুত্র দীনেশ চন্দ্র মন্ডল লিখিত ও মৌখিকভাবে জানান, রোববার সকাল আনুমানিক সাড়ে ১১টার সময় আমি আমার ডায়াং চায়না মটর সাইকেল যোগে বাড়ী থেকে আশাশুনিতে আসার সময় আশাশুনি বাইপাস হাইওয়ে ৩ রাস্তার পাশের্ব (দক্ষিণে) এসআই জুয়েল আমাকে গাড়ী থামাতে বলে। তার নির্দেশমত গাড়ী থামাই। পরে এক কনস্টেবল সোহাগ আমাকে বলে এই গাড়ী রাস্তার পাশের্ব আন। আমি বলি কাকা কি হয়েছে বলেন ? তিনি বলেন রাস্তার উপরে কথা বলবো না। গাড়ী রাস্তার পাশে আন। এরপর তিনি রুক্ষ মেজাজে বলেন এই বালের লাইট লাগাইছ কেন ? তখন আমি বলি কাকা আমি একজন মুক্তিযোদ্ধা। তাছাড়া আমি একজন অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা। আমার ছেলে পুলিশে চাকরি করে। ভদ্রভাবে কথা বলেন! তখন সে বলে ওই বালের পরিচয় বাদ দে!!! বুকের মধ্যে ওই সব বাল-ছাল (মুক্তিযোদ্ধার  মনোগ্রাম) গালাইছ কেন। ও সব খুলে ফেলো। এই বলে গাড়ীর লাইটটা প্লাস দিয়ে কেটে নেয়। পরে হরেন কাটার জন্য প্লাস বাহির করে একটি হর্ণ কাটতে যায়। আমি তখন বঁাধা দেই। সে বলে দুটি হরেন রাখা যাবে না। আমি বলি ৮০ সিসি চায়না গাড়ীতে কোম্পানী ২টি হর্ণ লাগাইয়া দিয়েছে। এটা আপনি কাটবেন কেন ? সে বঁাধা না মানলে, আমি বলি ঘটনাটি আমি এসপিকে বলব। সে তার পরিহিত পান্টের চেইন খুলে দিয়ে আমাকে বলে আমার বাল ছিড়ে নিশ। এ সময় সেখানে শতাধিক পথচারী উপস্থিত ছিল। আশপাশের্বর দোকানদারও আমার সঙ্গে কি ব্যবহার হয়েছে, তা দেখেছে। ঘটনাটি শুধু আমার সঙ্গে ঘটে নাই। আমার আগে অপর এক মুক্তিযোদ্ধা আফসার গাজীকেও একইভাবে অপমান করা হয়েছে বলে ওই সময় জেনেছি। এছাড়া মুক্তিযোদ্ধা আফসার গাজীর গাড়ীর সামনে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি সম্বলিত স্টিকার ছিড়ে ফেলে দিতে উদ্দাত হয় ওই পুলিশ কনস্টেবল সোহাগ। তিনি বক্তব্যের এক পর্যয়ে অশ্রুকন্ঠে বিষের বোতল এক হাতে নিয়ে বলেন, মহাত্মন এহেন অপমান জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানের জন্যে অতীব দুঃখজনক আত্মহত্যার শামিল। ওই পুলিশ কনস্টেবল কোন পরিবার থেকে এসেছে, কার ইন্ধনে এ সব কথা বলেছে, বিষয়টি সরেজমিনে তদন্ত করার জন্য এবং ন্যায় বিচার পাইবার জন্য প্রধানমন্ত্রী, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রীসহ প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি। সঠিক বিচার যদি না পায় অন্যথায় আমি আত্মহত্যা করতে বাধ্য হবো। এ ঘটনায় তিনিসহ মুক্তিযোদ্ধা আফছার গাজী বিষয়টি লিখিতভাবে ওই দিন সন্ধ্যায় লিখিতভাবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও মৌখিকভাবে থানা অফিসার ইনচার্জকে অবহিত করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আফছার আলী গাজী, আব্দুর করিম, কাত্তিক চন্দ্র মন্ডল, মাষ্টার আকবর আলীসহ প্রায় ডজ্জনাধিক মুক্তিযোদ্ধা। #

বদলগাছী মথুরাপুরে পুকুর হতে মরদেহ উদ্ধার

 বদলগাছী মথুরাপুরে পুকুর হতে  মরদেহ উদ্ধার

 



 রহমতউল্লাহ আশিকুর জামান নুর, বদলগাছী নওগাঁঃবদলগাছীতে পুকুর হতে অমল তিগ্যা নামে একজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। অমল তিগ্যা উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের পরশুরামপুর গ্রামের মৃত নিতাই তিগ্যার ছেলে। ২৩ নভেম্বর সোমবার দুপুর ১২টায় তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের পরশুরামপুর একটি পুকুরে অমল তিগ্যার মরদেহ পুকুরে ভাসতে দেখে থানায় খবর দিলে ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ। পরিবারের লোকজন জানান, অমল তিগ্যা গত ২২ নভেম্বর সকাল ১০টার সময় বাড়ি থেকে বের হয়ে রাত পর্যন্ত বাড়িতে আর ফিরে আসেনি। ২৩ নভেম্বর দুপুর ১২টায় প্রতিবেশীর এক পুকুরে তার মরদেহ ভেসে উঠে।

ওসি চৌধুরী জোবায়ের আহাম্মদ জানান, অমল তিগ্যা নেশা করতো। মদ্যপ অবস্থায় পুকুরে পড়ে গিয়ে সাঁতার কাটতে না পারায় তার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে

প্রতিপক্ষের হামলায় ভাংচুর মারপিটে স্বামী স্ত্রী গুরুতর জখম

 প্রতিপক্ষের হামলায় ভাংচুর মারপিটে স্বামী স্ত্রী গুরুতর জখম



আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: আশাশুনি সদরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায়  আসবাব পত্র ভাংচুর বেপোরোয়া ও মারপিটে স্বামী স্ত্রী আহত করা হয়েছে। আশাংকা জনক অবস্থায় আহতদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বিকালে আশাশুনি উপজেলা সদরে। এ ব্যাপারে থানায় লিখিত অভিযোগে  জানা গেছে আশাশুনি সদরের মৃত জালাল উদ্দীন সানার পুত্র জসিম উদ্দীনের সাথে তার ভাই নুজিব সানা, নাসির সানা ভিটা বাড়ীর জমি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ সৃষ্টি করে আসছে। তারা ভাই জসিমকে ওই ভিটা থেকে উচ্ছেদ করার জন্য গভীর ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত বিভিন্নভাবে জুলুম নির্যাতন করাসহ হয়রানী ও ক্ষতি করে আসছে। যড়যন্ত্র অনুযায়ী ভাই নুজিব সানা, নাসির সানা ভিটাবাড়ি ভাগাভাগি নিয়ে গোলজোগ করে ভাই জসিম সহ তার পরিবারের সদস্যদের মারপিট করার জন্য উদ্বত্য হয়। গোলযোগ এড়াতে শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য অপর ভাই জসিম থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। থানা পুলিশ অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উভয় পক্ষকে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার নির্দেশ প্রদান করেন ও থানায় আসার কথা বলে আসেন। কিন্তু অত্যান্ত দুর্দান্ত প্রকৃতির এলাকার মানুষকে মানুষ বলে মনে করেন না নুজিব সানা ও নাসির সানা থানা পুলিশের কাছে সময় নিয়ে এক সাবেক ইউপি সদস্যের নির্দেশে আদালতে মামলা দায়ের করে। আদালতে মামলা করায় থানা পুলিশের কার্যক্রম স্থগিত হয়। এরপর নুজিব সানা ও নাসির সানা লোকজন নিয়ে ভিটাবাড়ীতে গায়ের জোরে জোর পূর্বক পাকা প্রাচীর নির্মান করতে থাকে। এতে বঁাধা দেওয়ায় তারা চরম ক্ষিপ্ত হয়ে জসিম উদ্দীনকে বলে তোর এতবড় সাহস তুই আমাদের কাজে বঁাধা দিস। তোকে আজ পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেব আমাদের হাত থেকে কেউ বঁাচাতে পারবে না বলে তাদের হাতে থাকা লোহার রড ও বাশের লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ীভাবে পিটিয়ে মারাত্বক জখম করায় সে জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে পড়ে যায়। খবর পেয়ে জসিমের স্ত্রী সেলিনা খাতুন ঘটনাস্থলে এসে তার স্বামীকে মেরে ফেললো আমাদেরকে বঁাচাও  বলে চিৎকার করে। এ সময় তারা জসিমের স্ত্রীকেও এলোপাতাড়ীভাবে পিটাতে থাকে ও পরনে থাকা কাপড় চোপড় ছিড়ে ফেলে শ্লীলতাহানী ঘটায়। তাছাড়া স্ত্রীর গলায় থাকা ৩৫ হাজার টাকা মূল্যের আটআনা ওজনের একটি স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়। পরবর্তিতে বাড়ীতে হামলা চালিয়ে প্রয়োজনীয় আসবাব পত্র ভেঙ্গে ১০হাজার টাকা ক্ষতি সাধন করে। এলাকার লোকজন খবর পেয়ে স্থলে আসতে থাকলে মারপিটকারীরা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। আশপাশের লোকজন গুরুতর আহত স্বামী-স্ত্রীকে উদ্ধার করে আশাশুনি হাসপাতালে ভর্তি করে। আহত জসিমের অবস্থা আশাংকা জনক। এব্যাপারে মারপিটকারীদের নাম উল্লেখ করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।  এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিলো । তবে মামলা না করতে আহত পরিবারের উপর ভয়ঙ্কার চাপ সৃষ্টি করে যাচ্ছে। মারপিট কারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন পূর্বক ন্যায় বিচারের দাবী জানিয়েছেন আহত পরিবারটি।

মধুপুরে পদবি পরিবর্তন ও বেতন গ্রেড উন্নীতকরণের দাবীতে পালিত হচ্ছে পূর্নদিবস কর্মবিরতি

মধুপুরে পদবি পরিবর্তন ও বেতন গ্রেড        উন্নীতকরণের দাবীতে পালিত হচ্ছে পূর্নদিবস কর্মবিরতি



মোঃ আ: হামিদ মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃসারাদেশের ন্যায় টাঙ্গাইলের মধুপুরে পদবি পরিবর্তন ও বেতন গ্রেড উন্নীতকরণের দাবীতে পালিত হচ্ছে পুর্নদিবস কর্মবিরতি। বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়,জেলা প্রশাসকের কার্যালয়,উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় ও সহকারী কমিশনার(ভূমি) এর কার্যালয়ে কর্মরত কর্মচারীদের পদবী পরিবর্তন ও বেতন গ্রেড উন্নীত করণের দাবীতে বাকাসস কেন্দীয় কমিটি কর্তৃক ঘোষিত ১৫ নভেম্বর হতে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত সকাল ৯ টা হতে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত পূর্ন দিবস কর্মবিরতি পালিত হ্চ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় টাঙ্গাইলের মধুপুরে সোমবার(২৩ নভেম্বর) উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে পালিত হচ্ছে পূর্নদিবস কর্মবিরতি। এসময় উপস্হিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সার্টিফিকেট সহকারী খন্দকার মোকাদ্দেছ আলী, শিউলি খাতুন, আমিনুল ইসলাম অফিস-সহকারী কাম-কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক, সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয়ের ছরোযার হোসেন নাজির- কাম ক্যাশিয়ার, সূজিৎ চন্দ্র বিশ্বাস সার্টিফিকেট সহকারী, আশরাফুল ইসলাম সার্টিফিকেট সহকারী।

কুলাউড়ায় করোনাভাইরাস মোকাবিলায় পুলিশের মাস্ক বিতরণ

 কুলাউড়ায় করোনাভাইরাস মোকাবিলায় পুলিশের মাস্ক বিতরণ


মোঃরেজাউল ইসলাম শাফি, কুলাউড়া উপজেলা প্রতিনিধিঃমৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় জনসচেতনতার পাশাপাশি মাস্ক বিতরণ করেছে কুলাউড়া থানা পুলিশ।

২৩ নভেম্বর সোমবার  কুলাউড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাদেক কাওসার দস্তগীর ও কুলাউড়া থানার ওসি বিনয় ভূষণ রায় এর নেতৃত্বে কুলাউড়া পৌরশহর এলাকায় সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত মাস্ক বিহীন পথচারীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করা হয়। মাস্ক বিতরণ কার্যক্রমে কুলাউড়া থানার এসআই সনক কান্তি দাস, এসআই কানাই লাল চক্রবর্তীসহ থানার অন্যান্য অফিসাররা অংশগ্রহণ করেন।

কুলাউড়া থানার ওসি বিনয় ভূষণ রায় জানান, করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ রোধে নিজেকে এবং পরিবারকে সুরক্ষিত রাখতে জনসাধারণকে সরকারি  নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানানো হয়। এছাড়া তিনি করোনার সংক্রমণ  এড়াতে কাজ শেষে সাবান দিয়ে হাতধোয়া, হ্যান্ডশেক -কোলাকুলি বন্ধ রাখা ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিষয়ে পরামর্শ দেন।

লালমনিরহাটে ১৩টি দোকান আগুনে পুড়ে ২০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি

লালমনিরহাটে ১৩টি দোকান আগুনে পুড়ে ২০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি

মোঃ রশিদুল ইসলাম রিপন, লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি,আজ সোমবার (২৩ নভেম্বর) সকালে মহেন্দ্রনগরের বুড়িরবাজারে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।লালমনিরহাটের সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগরে হক মার্কেটে আগুন লেগে ১৩ টি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে প্রায় ২০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দোকান ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন।

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা জানান, বুড়িরবাজারের হক মার্কেটে সকালে আগুন দেখার সাথে সাথে স্থানীয়রা ফায়ার সার্ভিসে খবর দেন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনা স্থলে এসে স্থানীয়দের সহযোগিতায় ১ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। আগুন নিভাতে সক্ষম হলেও ততক্ষনে মার্কেটের সবগুলো দোকানের মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

হক  মার্কেটের সাগরিকা টেলিকম এর মালিক চঞ্চল বলেন সকালে আগুন লাগার খবর পেয়ে দোকানে ছুটে আসি কিন্তু ততক্ষণে আমার সব শেষ হয়ে গেছে। এই মার্কেটে তার দুটো দোকান ছিলো দুটোই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। তার সব শেষ হয়ে গেছে, সংসার চালানো জন্য তার আর কিছুই রইলো না।

স্বর্ণকার বানী বলেন, সংসারের সদস্যদের জীবিকা নির্বাহের জন্য তার আয়ের উৎস ছিলো এই ব্যবসা। সেটিও আগুনে পুড়ে গেলো এখন কি করে সংসার চলবে। এতে সব গুলো দোকান মিলে প্রায় ২০লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানান তিনি।

দুপুরে আগুনে পুড়ে যাওয়া দোকান গুলো পরিদর্শনে আসে জেলা প্রশাসক আবু জাফর , সদর উপজেলা চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান সুজন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার উত্তম কুমার রায়, মহেন্দ্রনগর ইউপি চেয়ারম্যান স্বপন।জেলা প্রশাসক আবু জাফর বলেন, এখানে বেশকিছু দোকান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত দোকানদারদের তালিকা করে আর্থিক সহযোগীতা করা হবে।

এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান সুজন বলেন, অগ্ননিকান্ডের খবর শোনার পরপরই জেলা প্রশাসক ও ইউএনও সহ আমরা ঘটনাস্থলে এসেছি। ক্ষতিগ্রস্ত দের বিষয়ে জেলা প্রশাকের সাথে কথা বলেছি যত দ্রুত সম্ভম তালিকা করে ক্ষতিগ্রস্থদের সহযোগীতা করা হবে।

রতনকান্দি ইউনিয়ন বাসীর সেবা করে যেতে চাই -বিপ্লব

রতনকান্দি ইউনিয়ন বাসীর সেবা করে যেতে চাই -বিপ্লব

মাসুদ রানা  সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃসিরাজগঞ্জের প্রস্তাবিত মনসুর নগর থানার ১নং রতনকান্দি ইউনিয়ন বাসীর জীবনমান উন্নয়ন ও আধুনিক রতনকান্দি ইউনিয়ন পরিষদ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে তাদের পাশে থেকে সেবা করে যেতে চান ১নং রতনকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান বিপ্লব।

তিনি রতনকান্দি ইউনিয়ন বাসীর পাশে থেকে কাজ করার প্রত্যাশা নিয়ে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে নির্বাচন করতে রতনকান্দি ইউনিয়নের জনসাধারণের মাঝে প্রচার ও প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে এলাকা বাসি যানান।

বিভিন্ন চায়ের দোকান ওবাজার ঘাটে বিপ্লবকে নিয়ে অনেক কথা শোনা যাচ্ছে যে এ রকম একটা জনপ্রতিনিধি দরকার রতন কান্দি ইউ নিয়নে।যেন

ইউনিয়নের সর্বত্র আলোচনার শীর্ষেও উঠে এসেছেন তিনি। 

আওয়ামী লীগের সংগ্রামী নেতাকে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হিসেবে দেখতে চায় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, যুবলীগ,সেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ, নেতাকর্মী ও জনসাধারণ তারা আর ও বলেন সইরাচার বি এন পির আমলে  এমন কোন মামলা নেই যে তাকে দেয় নাই এমন কি জেল খাটিয়েছেন তিনি এক জন রাজ পথের লরাকু সৈইনিক।

 রতনকান্দি ইউনিয়ন বাসীর পাশে থেকে দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষা,সাংস্কৃতি ও অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে থেকে সমাজসেবা মূলক কার্যক্রমে বিশেষ অবদান রাখায় বিশেষ করে প্রাণঘাতী করোনা কালীন সময়ে ইউনিয়নের কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায় মানুষের পাশে থেকে ব্যক্তিগতভাবে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করে নজির সৃষ্টি করে অনেক আগেই, রতনকান্দি ইউনিয়ন বাসীর মনে জায়গা করে নিয়েছেন বিপ্লব।

যার ফলে নৌকা প্রতিক নিয়ে নির্বাচনে অংশ গ্রহণের কথা শুনে ইতিমধ্যে ডিজিটাল ইউনিয়ন পরিষদের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছে রতনকান্দি ইউনিয়ন বাসী।

অন্যায়ের বিরুদ্ধে তিনি ছিলেন আপোসহীন,এ রকম একজন প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর ও পরোপকারী সৎ ব্যক্তি নির্বাচনে জয়ী হলে ইউনিয়ন বাসী উপকৃত হবে বলে মনে করছেন ইউনিয়নের সাধারণ জনগন।

দক্ষ নেতৃত্ব ও যোগ্যতা দিয়ে ইউনিয়ন বাসীর সেবা করে যাবে বলেও বিশ্বাস করেন সাধারণ মানুষ।

ইউপি চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান বিপ্লব বলেন, আমি জনগণের শাসক হতে চাইনা আমি জনগণের সেবক হতে চাই।

আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যাশা নিয়ে রতনকান্দি ইউনিয়নকে আধুনিক ডিজিটাল ইউনিয়ন পরিষদে রূপ দিতে সকলকে সঙ্গে নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই।

এবং সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত যুব সমাজ গড়ার প্রত্যাশা ব্যাক্ত করেন।

এজন্য ইউনিয়ন বাসীর নিকট দোয়া ও সবাইকে পাশে থাকার আহবানও জানিয়েছেন মোস্তাফিজুর রহমান বিপ্লব।

আরও পড়ুনঃ  লালমনিরহাটে ১৩টি দোকান আগুনে পুড়ে ২০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি

পটিয়া পৌর নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে চমক দেখাতে চান আরমান হাবীব

 পটিয়া  পৌর নির্বাচনে  কাউন্সিলর পদে চমক দেখাতে চান আরমান হাবীব

সেলিম  চৌধুরী,  স্টাফ  রিপোর্টারঃআসন্ন পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে   মনোনয়ন প্রত্যাশী ৭ নং ওয়ার্ড   আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিশিষ্ট  ব্যাবসায়ি  মোঃ আরমান হাবীব। 

তরুণ এই উদীয়মান  রাজনৈতিক নেতা  আওয়ামী লীগের বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত। তার পরিচ্ছন্ন রাজনীতি, মানুষের প্রতি সহানুভূতি, বিপদে আপদে সামাজিক দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে এলাকার নবীন-প্রবীণ সবার মধ্যমনি হয়ে উঠেছেন অল্প সময়ের মধ্যে ।পটিয়া পৌর সদরের ৭নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবদুর শুক্কুর ও মাতা খাইরুন নেছার দ্বিতীয় সন্তান মোঃ আরমান হাবীব।মোঃ  আরমান হাবীব ১৯৯৫ সালে গাছবাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক, ১৯৯৭ সালে সিটি কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক, ২০০১ সালে মহসীন কলেজ থেকে স্নাতক, ২০০২ সালে প্রিমিয়ার ইউনিভার্সিটি থেকে মাস্টার্স, ২০০৩ সালে এমবিএ এবং ২০০৪ সালে চার্টার্ড একাউন্টিং(সিএ) ডিগ্রি অর্জন করেন।

আরমান হাবীব একাধারে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, বাহুলী স্কুলের জয়েন সেক্রেটারী, বাহুলী প্রগতি সংঘের কার্যনির্বাহী সদস্য, বাহুলী কাজী রিয়াজউদ্দীন শাহ মসজিদের কার্যনির্বাহী সদস্যের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে যুক্ত থেকে মানব সেবায় নিজেকে উজাড় করেছন।আরমান হাবীব তার একান্ত সাক্ষাতকারে বলেন, কাউন্সিলর হিসেবে যদি তিনি নির্বাচিত হয়ে নবীন-প্রবীণদের সমন্বয়ে ৭নং ওয়ার্ডকে একটি আদর্শ ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তুলবেন। ৭নং ওয়ার্ডকে সম্পূর্ণ ডিজিটালাইজড ওয়ার্ড হিসেবে রূপান্তর করার দৃড় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। ওয়ার্ডের সব মানুষের তথ্য একটি সার্ভারে নিয়ে এসে ধনী, মধ্যবিত্ত, গরীব তিন ক্যাটাগরীতে ভাগ করে গরীব ও মধ্যবিত্তদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে উপর্যোপরি পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন। তার ওয়ার্ডকে সম্পূর্ণ সিসি ক্যামেরা দ্বারা নিয়ন্ত্রণের আওতায় নিয়ে আসা হবে এবং তা মনিটরিং করার জন্য সর্বক্ষণ দু’জন দায়িত্ব পালন করবেন। এলাকায় কোন আঞ্চলিকতা থাকবেনা। সবাই মিলেমিশে থাকবেন এবং তার সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে বাহুলীতে বেড়ে যাওয়া কিশোর গ্যাং অপরাধীসহ মাদক কারবারীদের অপরাধ সম্পূর্ণ নির্মূল করা।

উল্লেখ্য সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশী ৭নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর কামাল উদ্দীন বেলাল,  সাবেক  দুইবারের  নির্বাচিত  কাউন্সিলর হাসান মুরাদ, সাবেক ছাএলীগ নেতা  কাজী লুৎফর কবির, ৭নং ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি নাজিম উদ্দীন(নাজু) নির্বাচন করার লোক মুখে শুনা যাচ্ছে । কে হবে আগামী  দিনের পটিয়া  পৌরসভার  ৭ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর  দেখার অপেক্ষাই এলাকাবাসী। তবে আরমান  হাবীব নির্বাচন  করার ঘোষণা  এলাকায় নতুন মেরুকরণ  সৃষ্টি  হয়েছে। এমনকি পরিবর্তনের আবাস মিলছে? 

সিংড়ায় অপপ্রচারের বিরুদ্ধে এলাকাবাসির মানববন্ধন

 সিংড়ায় অপপ্রচারের বিরুদ্ধে এলাকাবাসির মানববন্ধন



রাজু আহমেদ, সিংড়া: নাটোরের সিংড়ায় চামারী ইউপি মেম্বার আরিফুল ইসলাম আরিফ  বিরুদ্ধে ফেসবুকে মিথ্যা অপপ্রচারের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসি। সোমবার দুপুর ১২ টার সময় সামারকোল গ্রামের শত শত নারী পুরুষ মানববন্ধনে অংশ নেয়।  

স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘদিন থেকে জলা ডেকে স্থানীয় মসজিদ, মাদ্রাসার উন্নয়ন করা হয়। কিন্তু একটি কুচক্রি মহল মিথ্যা, বিভান্তিকর অপপ্রচারে চালিয়ে যাচ্ছে। সামারকোল, চকলংকা, সোনাপুর, ছোট চককালিকাপুর গ্রামের মসজিদ, মাদ্রাসা, ইদগাহ ও কবরস্থানের উন্নয়নসহ করোনাকালিন এবং বন্যায় ইউপি মেম্বার আরিফ বাড়ি বাড়ি চাল,ডালসহ খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়েছেন। তাঁর বিরুদ্ধে কোনো দুর্নীতি প্রমান দিতে পারবেনা বলে তারা জানান। মিথ্যা অপপ্রচারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান তারা।

ভোলার দৌলতখানে মাস্ক না পরায় ৫ জনকে জরিমানা

ভোলার দৌলতখানে মাস্ক না পরায় ৫ জনকে জরিমানা

মোঃ আওলাদ হোসেন, জেলা প্রতিনিধি ভোলা (দৌলতখান) দৌলতখানে মাস্ক না পরায় দোকানি ও পথচারীসহ ৫ জনকে  ২ হাজার দুইশত টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় সরকারি কাজে বাধা দেওয়ায় আরসাদ নামে এক যুবককে ১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। আজ সোমবার সকাল ১০টায় দৌলতখান পৌর শহরের উত্তর ও দক্ষিন  মাথায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাওছার হোসেন এই জরিমানা করেন।  দৌলতখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ কাওছার হোসেন বলেন, 'করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কমাতে জনগনকে মাস্ক পরায় অভ্যস্ত করতে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচল করতে দৌলতখান পৌর শহরে অভিযান চালানো হয়। এসময় মাস্ক পরিহিত ছাড়া দোকানে পণ্য বিক্রি করায় ও মাস্ক ছাড়া চলাচল করায় দোকানি ও পথচারীসহ ৫ জনকে ২  হাজার দুইশত টাকা  জরিমানা করা হয়। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ কমাতে এধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।'

ঝিনাইদহে আবাদী জমিতে খাল খননের প্রতিবাদে মানববন্ধন

ঝিনাইদহে আবাদী জমিতে খাল খননের প্রতিবাদে মানববন্ধন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃঝিনাইদহ সদর উপজেলার ৫ টি গ্রামে আবাদী জমিতে খাল খননের সিদ্ধােেন্তর প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়েছে।সোমবার সকালে সদর উপজেলার হামদরডাঙ্গা গ্রামের মাঠে এ কর্মসূচীর আয়োজন করে স্থানীয় কৃষকরা। 

এতে ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে বাগডাঙ্গা, নাচনা, সুরাট, বদনপুর ও হামদরডাঙ্গা গ্রামের শত শত কৃষক-কৃষাণীরা অংশ নেয়। পরে তারা সেখান থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে।মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তব্য দেন কৃষক নজরুল ইসলাম, মাহবুবুর রহমান, আমিরুল ইসলাম, আব্দুল আজিজ মন্ডল, জামির হোসেন, উজ্জল মেম্বার. গোবিন্দ দাস, খোকন মিত্র, খাইরুল ইসলামসহ অনেকেই।এসময় তারা বলেন, ওই ৫ গ্রামের মাঝে অবস্থিত মাঠে বিএডিসি খাল খননের সিন্ধান্ত নিয়েছে। খাল খনন করা হলে আবাদী জমি নষ্ট হবে। জমি হারিয়ে নিঃস্ব হবে গরিব কৃষক। তাই খাল খনন না করার দাবি জানান তারা। অবিলম্বে এই সিদ্ধান্ত বাতিল না হলে পরবর্তীতে বৃহত্তর আন্দোলন কর্মসূচি গড়ে তোলা হবে বলে জানান তারা।

সাতক্ষীরা জজ কোটের পিপি এড. আব্দুল লতিফের বিরুদ্ধে পৃথক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

 সাতক্ষীরা জজ কোটের  পিপি এড. আব্দুল লতিফের বিরুদ্ধে পৃথক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত


আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃসাতক্ষীরা জজ কোর্টের পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট আব্দুল লতিফ এর অনিয়ম দূর্ণীতি ও সরকারি আইন কর্মকর্তা নিয়োগের নামে ঘুষ গ্রহণ, প্রধানমন্ত্রি শেখ হাসিনার গাড়ি বহরে হামলা মামলার আসামী পক্ষের আইনজীবীকে পুরস্কৃত করে পূণরায় অতিরিক্ত পিপি নিয়োগ, পরীক্ষীত নেতা কর্মীদের বঞ্চিত করে স্বাধীনতা বিরোধীদের সরকারি আইন কর্মকর্তা নিয়োগের প্রতিবাদে আইনজীবী ও গ্রামবাসিরা মারপিটের ঘটনায় পৃথক মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে।

সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের ব্যানারে ও কামারবায়সা গ্রামবাসির ব্যানারে সোমবার (২৩ নভেম্বর) সকাল ১০টায় জজ কোর্টের শহীদ মিনার পাদদেশে পৃথক কর্মসুচি পালিত হয়।

সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক এবং সাবেক অতিরিক্ত পিপি এডভোকেট আজহারুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সাবেক পিপি এডভোকেট ওসমান গণি, এডভোকেট আবু রায়হান, এডভোকেট সাহেদুজ্জামান সাহেদ, সাবেক অতিরিক্ত জিপি এডভোকেট  নওশের আলী প্রমুখ।গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে  মানববন্ধনে বক্তব্য দেন আব্দুল লতিফের ভাইপো মোজাম্মেল হক, আকবর আলী, নজরুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা রওশান আলী, মুক্তিযোদ্ধা রুস্তুম আলীর স্ত্রী রাজেয়া বেগম প্রমুখ।

আইনজীবী বক্তারা বলেন, বর্তমান জজ কোর্টের পিপি এডভোকেট  আব্দুল লতিফ ওরফে খাটাল লতিফ পিপিশিপ দেওয়ার নাম করে ১৫ জন আইনজীবীর কাছ থেকে মাথাপিছু ৭০ হাজার টাকা করে ঘুষ নিয়েছেন। পিপিশিপ দেওয়ার নাম করে অহেতুক কালক্ষেপণ করায় টাকা ফেরৎ চাইলে তাদেরকে হেঁকে বের করে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় আব্দুল্লাহ আল মামুন সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন। টাকা ফেরৎ না পাওয়ায় এডভোকেট সায়েদুজ্জামান বাদি হয়ে আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ওই মামলায় প্রতারিত অপর দু’ আইনজীবী সাক্ষী হয়েছেন। 

৮৪ হাজার টাকা প্রতাররণা ও দু’ লাখ টাকা প্রতারণার পৃথক অভিযোগে আব্দুল লতিফের নিজ গ্রাম দক্ষিন কামার বায়সার নজরুল ইসলাম ও আকবর আলী বাদি হয়ে লতিফের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। আকবর আলী জেলা আইনজীবী সমিতি বরাবর অভিযোগ করেছেন। বিডিআর এ চাকুরি করাকালিন তিনি দূর্ণীতির দায়ে বহিস্কৃত হন । বিডিআর এ চাকুরি করা কালিন যে স্নাতক সনদ সংগ্রহ করেছেন তা যথাযথ নয়। ওই সনদ যাঁচাই এর জন্য কয়েকজন আইনজীবী আইন মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন করেছেন। ২০০২ সালে কলারোয়ায় বর্তমান প্রধানমন্ত্রি শেখ হাসিনার গাড়ি বহরে হামলা মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আইনজীবী এডভোকেট জিল্লুর রহমান আসামীপক্ষে অবস্থান নেওয়ার তৎকালিন পিপি এডভোকেট  ওসমান গণি তাকে বহিষ্কার করলেও বর্তমান পিপি তাকে পিপিশিপ দিয়ে পুরস্কৃত করেছেন। তার বিরুদ্ধে বহু নারী কেলেঙ্কারীর অভিযোগ রয়েছে। এটা মেনে নেওয়া যায় না। এ ছাড়া ঘুষ দূর্ণীতির বিনিময়ে তিনি স্বাধীনতা বিরোধী আইনজীবীদের পিপিশিপ দিয়েছেন। এসব নিয়ে আইনজীবীরা প্রতিবাদ ও প্রধানমন্ত্রি বরাবর স্মারকলিপি দিলে তাদেরকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। গত বছরে তিন কেজি সোনা পাচার মামলায় এক আসামীকে জামিন করতে বিচারকের স্বাক্ষর জাল করার অভিযোগ উঠলে আইনজীবীদের হস্তক্ষেপে তাকে বিচারক ক্ষমা করে দেন।শহরের রসুলপুরের জেলা যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক হাসানুজ্জামান ডাবলুর স্ত্রী বিপাশার পক্ষে আইনজীবী হওয়ার সুবাদে তাকে ফুসলিয়ে নিয়ে নিজ বাড়ির পাশে ব্যাংক কর্মকর্তা মারুফ হোসেনের বাড়ির তিনতলায় ভাড়া রেখে তার সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তোলার প্রতিবাদ করায় ডাবলুকে কুপিয়ে জখম করে লতিফ। 

এ ঘটনায় ডাবলু বাদি হয়ে শুক্রবার থানায় এজাহার দিয়েছেন। জমি নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে লতিফের নির্দেশে তার ছেলে রাসেল এর নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা রোববার দুপুরে বড় ভাই আহাদ, ভাবী সেলিনা, ভাইপো তোফাজেজ্ল, মজনু ও মোজাম্মেলকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করেছে। তারা বর্তমানে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।মানববন্ধন চলাকালে দক্ষিণ কামার বায়সা গ্রামের নজরুল ইসলাম ও মোজাম্মেলসহ কয়েকজন বলেন, বিয়ের পর মুক্তিযোদ্ধা সোহরাব হোসেনের ছেলে জাহাঙ্গীর অন্যত্র থাকেন। ছোট ভাই আলমগীর হোসেন মালয়েশিয়ায় থাকে। আলমগীরের মা জরিনা খাতুন বাড়িতে একা থাকার সুবাদে লতিফ ও তার ছেলে রাসেল রেউই গ্রামের রেক্সোনা খাতুনকে মোবাইলে বিয়ের নাটক সাজিয়ে রেক্সোনাকে মায়ের ঘরে তুলে দেয়। এ নিয়ে প্রতিবাদ করায় লতিফ ও রাসেল রেক্সোনার সহযোগিতায় মারপিট করে মা জরিনাকে বাড়ি ছাড়া করেছে। 

বিষয়টি নিয়ে থানায় অভিযোগ করলে আলমগীরের সঙ্গে পুলিশ কথা বললে পুলিশ নিশ্চিত হয় যে আলমগীরকে ব্লাক মেইল করে তার বিদেশী টাকা আত্মসাতের লক্ষ্যে লতিফ ও রাসেল এ নাটক সাজিয়েছেন।

জরিনাকে বাড়িতে তুলে দেওয়ার চেষ্টা করলে চাচা আকবর আলীর নামে রেক্সোনাকে দিয়ে থানায় মিথ্যা ধর্ষণ মামলা(জিআর-৮০০/১৯ সদর) করায় লতিফ ও রাসেল। যদিও মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ ঘটনা সঠিক নয় বলে আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেছেন।

মুক্তিযোদ্ধা রুস্তুম আলীর ছেলে আরিজুল ইসলাম পিপি আব্দুল লতিফের ছেলে রাসেলের কথামত গাঁজার ব্যবসা করতে রাজী না হওয়ায় তার বাড়ি থেকে ২০০ গজ দূরে ১০০ গ্রাম গাঁজা রেখে পুলিশ দিয়ে ধরিয়ে দেওয়া হয়। পরে তাকে সীমান্তে তিন কেজি গাঁজাসহ দু’জন আটক হওয়া মামলায় আরিজুলকেও আসামী করিয়ে দিয়েছে লতিফ ও তার ছেলে রাসেল।

এ হেন দূর্ণীতিবাজ ও জাল সনদে পিপি থাকা আব্দুল লতিফ অবিলম্বে পিপিশিপ থেকে পদত্যাগ না করলে বা সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষ তাকে বহিষ্কার না করলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরাজয় হবে।তবে এ ব্যাপারে জজ কোর্টের পিপি এডভোকেট আব্দুল লতিফ নিজেকে নির্দোষ দাবী করে গত ২৬ অক্টোবর শহীদ মিনার পাদদেশে আয়োজিত এক সমাবেশে বলেন তার ভাল কাজে ঈর্ষান্বিত হয়ে ওসমান গণি ও সাহেদুজ্জামানসহ একটি মহল তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার করছে।

দিনাজপুরে আধুনিক ঔষধের দোকান উদ্বোধন করলেন ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক

দিনাজপুরে আধুনিক ঔষধের দোকান উদ্বোধন করলেন ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক


মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ মুজিববর্ষ উপলক্ষে দিনাজপুরে মডেল ফার্মেসী ও মডেল মেডিসিন শপের উদ্বোধন ও ঔষধ ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 
আজ সোমবার সকালে দিনাজপুর মেডিকেল হাসপাতালের সামনে ও শহরের চারুবাবুর মোড়ে মোট ১১টি মডেল ফার্মেসী এবং মডেল মেডিসিন শপের উদ্বোধন করা হয়। এসময় বেলুন উড়িয়ে ও ফিতাকেটে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে আধুনিক এইসব ঔষধের দোকান উদ্বোধন করেন ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান। পরে তিনি ঐসব ফার্মেসীর দোকান পরিদর্শন করেন। এছাড়াও দুপুরে বাংলাদেশ কেমিষ্টস্ এন্ড ড্রাগিষ্টস্ সমিতি জেলা শাখার সহযোগিতায় আধুনিক ঔষধ দোকানের প্রয়োজনীয়তা ও সম্ভাবনা এবং নকল, ভেজাল, আনরেজিস্টার, মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ প্রতিরোধ শীর্ষক একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সিভিল সার্জন আব্দুল কুদ্দুছ, বিসিডিএস জেলা শাখার সভাপতি মমিনুল ইসলামসহ সংস্লিষ্ট অন্যান্য গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

আত্রাইয়ে রবিশস্য চাষে কৃষকদের ব্যস্ত সময়

আত্রাইয়ে রবিশস্য চাষে কৃষকদের ব্যস্ত সময়

 
রাজশাহী ব্যুরোঃনওগাঁর আত্রাইয়ে বন্যায় এলাকার কৃষকদের আমন চাষের স্বপ্ন তছনছ করে দিয়েছে। 
এলাকার কৃষকরা আমন হারিয়ে এবার ঝুঁকে পরেছেন রবিশস্য চাষে। অন্যান্য বারের চেয়ে  এবার রেকর্ড পরিমান জমিতে রবিশস্যচাষ করা হচ্ছে।
 উপজেলার ৮ টি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার মাঠে চলছে রবিশস্য চাষের প্রস্তুতি। ইতিমধ্যে  বিভিন্ন মাঠে শরিষা,গম, আলু, ভূট্টাসহ বিভিন্ন রবিসশ্য রোপন সম্পন্ন করেছে কৃষকরা৷ গতবারের চেয়ে এবারে বেশি জমিতে রবিশস্যচাষ করা হবে বলে কৃষকরা ধারণা করেন।
আত্রাই উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, এবারে রবি মৌসুমে উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে ১০ হাজার হেক্টর জমিতে রবিশস্য উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। উপজেলার বিভিন্ন মাঠ থেকে বন্যার পানি নেমে যাওয়ার সাথে সাথে কৃষকরা রবিশস্য চাষ শুরু  করছেন। আগাম জাতের শরিষা,গম, আলু ও ভূট্টা উৎপাদন করে বাজারজাত করলে কৃষকরা ব্যাপক লাভবান হবে বলে ধারনা করেন । রবিশস্যের দাম বাজারে ভাল থাকায়  রবিশস্যচাষে কৃষকদের মাঝে যথেষ্ট অগ্রহ দেখা যাচ্ছে। রবিসশ্য উৎপাদনে খরচ টা অনেক কম হয় কিন্তু লাভ বেশি হওয়ায় কৃষকরা অনেক আগ্রহী।নন্দনালী গ্রামের আফজাল হোসেন বলেন, অন্যান্যবারের তুলনায় আমরা অধিকহারে আলু শরিষা, গম,ও ভূট্টাচাষ করছি। যেহেতু এগুলো  উৎপাদনে খরচ অনেক কম অথচ লাভ বেশি তাই আমরা ঝুঁকে পড়েছি। উপজেলার হাটুরিয়া  গ্রামের আবু তাহের ও আজাদ হোসেন  বলেন, গতবার আলুচাষ করে আমরা ভাল লাভবান হয়েছি। এ জন্য এবার আগাম আলুচাষ করছি। এবারে বিলম্বিত বন্যা হওয়ায় আমাদের রবিসশ্যচাষে কিছুটা প্রভাব ফেলেছে। 
আত্রাই উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ কেএম কাউছার হোসেন বলেন, কৃষকরা আলু,শরিষা, গম,ভূট্টা, সরিষাসহ বিভিন্ন ফসলের বীজ ক্রয় করে যেন প্রতারিত না হয় এ জন্য উপজেলা পর্যায় থেকে সার্বক্ষণিক মনিটরিং করা হয়তেছে। 
এ ছাড়াও অল্প খরচ করে কৃষকরা যেন রবিসশ্য উৎপাদন করতে পারে এ জন্য বিভিন্নভাবে আমরা তাদেরকে পরামর্শ প্রদান করতেছি এবং সরকারী ভাবে বীজ ও সার দিয়ে প্রান্তিক ও বর্গাচাষী কৃষকদের কে আমরা সার্বিক  সহযোগিতা করতেছি।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন দের বাড়ি নির্মাণ কাজের শুভ সূচনা

বঙ্গবন্ধুর  জন্মশত বর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন দের বাড়ি নির্মাণ কাজের শুভ সূচনা


মোঃ রশিদুল ইসলাম রিপন, লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ
আজ  দুপুর ১২টায় সোমবার (২৩ নভেম্বর) লামনিরহাট উপজেলার মহেন্দ্রনগরে  ঢঢ গাছ গ্রামে বঙ্গবন্ধু'র জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীনদের জমি দান ও বাড়ি নির্মাণ কাজের শুভ সূচনা অনুষ্ঠিত হয়।

 সেই কাজের শুভ সূচনা করেন লালমনিরহাট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান সুজন, লালমনিরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার উত্তম কুমার রায়, জমির পূর্বের মালিক আইমন বেওয়ার নাতী পল্লী প্রাণী চিকিৎসক আনোয়ার হোসেন, সাপ্তাহিক আলোর মনি পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক হেলাল হোসেন কবির। এ সময় লালমনিরহাট সদর উপজেলা পিআইও মশিউর রহমান, লালমনিরহাট সদর উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী শাহ মোঃ ওবাইদুর রহমান, মহেন্দ্রনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মশিউর রহমান বসুনিয়া স্বপন, ইউপি সদস্য আব্দুর রহমান, কিসামত ঢঢ গাছ দ্রাখিল মাদ্রাসার সহকারি শিক্ষক খলিলুর রহমানসহ অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় বঙ্গবন্ধু'র জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীনদের জমি ও বাড়ি প্রদান করা হবে। সেই প্রকল্পের আওতায় কিশামত ঢঢ গাছ এলাকায় ১একর ৪০শতক জমিতে ৫০টি বাড়ি নির্মাণ করতে যাচ্ছে সরকার।

খুলনায় মাস্ক পরিধান ও স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণে কঠোর প্রশাসন

খুলনায় মাস্ক পরিধান ও স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণে কঠোর প্রশাসন

তুহিন রানা (আব্রাহাম) ; খুলনা নগর প্রতিনিধিঃ
করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সম্ভাব্য দ্বিতীয় ওয়েভ মোকাবেলার প্রস্তুতি হিসেবে গতকাল ২২ নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ তারিখে খুলনা জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট, মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের নির্দেশে এবং অতিরিক্ত জেলা ম্যজিস্ট্রেট, খুলনা মোঃ ইউসুপ আলীর তত্ত্বাবধানে নগরীর কেসিসি মার্কেট মোড়, ডাক বাংলা, রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন আপার যশোর রোডসহ বিভিন্ন স্থানে মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালিত হয়। মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ রাকিবুল হাসান এবং জনাব দেবাশীষ বসাক। এছাড়া উপজেলা সমূহে উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণ এবং সহকারী কমিশনার (ভূমি)-গণ নিজ নিজ অধিক্ষেত্রে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন। 

মূলতঃ আজকের মোবাইল কোর্টের অভিযানে যানবাহনসমূহে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালিত হচ্ছে কিনা এবং যাত্রীসাধারণ যথাযথভাবে মাস্ক পরিধান করছে কিনা তা মনিটরিং করেন কর্তব্যরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনাকালে মাস্ক সাথে না থাকায় ১৮ (আঠারো) জনকে আটক করা হয় এবং যথাযথভাবে মাস্ক পরিধান না করায় ১৯ (ঊনিশ) জনকে মোট ১৪,১০০/- (চৌদ্দ হাজার একশত) টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। 'সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন, ২০১৮' এর সংশ্লিষ্ট ধারার বিধান মোতাবেক এসব জরিমানা করা হয়। 

সম্প্রতি করোনা ভাইরাস সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ায় গত ০৮ নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ তারিখের জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভার সর্বসম্মত সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে ০৯ নভেম্বর, ২০২০ তারিখ থেকে জেলা প্রশাসন কঠোর অবস্থা গ্রহণ করে। 

মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় সহযোগিতা করেন খুলনা সদর থানা পুলিশ এবং উপজেলাসমূহে স্ব-স্ব থানা পুলিশের সদস্যগণ। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণে জেলা প্রশাসনের এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে।

মিরসরাইয়ে মাস্ক বিতরণ ও সচেতনতামূলক আলোচনা সভা

 মিরসরাইয়ে মাস্ক বিতরণ ও সচেতনতামূলক আলোচনা সভা


মিরসরাই প্রতিনিধিঃকরোনাভাইরাস সংক্রমন মোকাবেলায় মিরসরাই উপজেলার ১১নং মঘাদিয়ায় জনসাধারণের মাঝে ১১ হাজার মাস্ক বিতরণের উদ্বোধন ও সচেতনতামূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (২৩ নভেম্বর) সকালে মঘাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট আইটি বিশেষজ্ঞ মাহবুব রহমান রুহেল। মঘাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসাইন মাষ্টারের সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আব্দুল হালিম মাষ্টার, ইউপি সদস্য নাসির উদ্দিন মিলনের যৌথ সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন মঘাদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি তোফায়েল উল্ল্যা চৌধুরী নাজমুল, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুর হোসেন, মাওলানা অলি উল্লাহ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বারইয়ারহাট পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম খোকন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য নুরুল গনি, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মফিজ মাষ্টার, গোলাম ফারুক, আলা উদ্দিন, ডাঃ তমাল, আলামগীর হুজুর, সাংগঠনিক সম্পাদক শরীফ ইকবাল, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মাহফুজ আলম, মঘাদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আবছার প্রমুখ।

প্রধান অতিথি মাহবুব রহমান রুহেল তার বক্তব্যে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, জননেত্রী শেখ হাসিনার দুরদর্শী প্রদক্ষেপের কারণে বিশ্বের অনেক উন্নত দেশের তুলনায় আমাদের দেশে করোনা পরিস্থিতি অনেক ভালো। মৃত্যু ও আক্রান্তের হার অনেক কম। তবে শীত সৌসুম শুরু হওয়ায় প্রকোপ বৃদ্ধি হতে পারে। তাই সবার সচেতনতার বিকল্প নেই। তিনি সকলকে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার ও শারীরিক দুরত্ব বজায় রাখার অনুরোধ করেন।

মঘাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসাইন মাষ্টার বলেন, করোনা ভাইরাস শুরু থেকে আমার ইউনিয়নে মানুষের মধ্যে সচেতনতার লক্ষ্যে বিভিন্ন উদ্যোগে গ্রহণ করেছি। তারই ফলশ্রুতিতে আমার ইউনিয়নে আক্রান্তের হার অন্য জায়গার তুলনায় একেবারে কম। যেহেতু শীত মৌসুম শুরু হয়েছে সংক্রমন বাড়তে পারে, তাই আমার পক্ষ থেকে ইউনিয়নের ৩১টি মসজিদ, মন্দির, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন, হাটবাজারে প্রায় ১১ হাজার মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে।

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ১ হাজার পরিবারকে রেড ক্রিসেন্টের নগদ অর্থ সহায়তা

 বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ১ হাজার পরিবারকে রেড ক্রিসেন্টের নগদ অর্থ সহায়তা



রিয়াজুল করিম রিজভী,চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধানঃসোমবার (২২ নভেম্বর) সকাল ১০টার দিকে শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া বিহারীলাল বিদ্যালয় এবং জাজিরা বিলাসপুুর কাজীর মোড় সংলগ্ন মাঠে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির তত্ত্বাবধানে সুইস রেড ক্রসের অর্থায়নে নড়িয়া,ভেদরগন্জ্ঞ ও জাজিরা উপজেলার ১০০০ জনের মাঝে নগদ টাকা বিতরণের মাধ্যমে এই কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়।   

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির এসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর মোহাম্মদ সেলিম আহমেদ এর সভাপতিত্বে নগদ অর্থ বিতরণের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান ভূইয়া। 

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির এসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর সেলিম আহমেদ জানান, শরীয়তপুর জেলার নড়ীয়া,ভেদরগন্জ্ঞ ও জাজিরা উপজেলার কাচিকাটার ৩৩১ জন,চরআত্রার ২৭৯ জন ও কুন্ডেরচর ৪০০ জন করে এই ৩টি ইউনিয়নের মোট ১ হাজার পরিবারের প্রত্যেককে সাড়ে ৪ হাজার করে টাকা দেওয়া হচ্ছে। 

এ প্রসঙ্গে জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশরাফুজ্জামান ভূইয়া বক্তব্যে বলেন , এবারের বন্যায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এতে একেক জনের একেক ধরনের ক্ষতি হয়েছে। সরকারের পাশাপাশি রেড ক্রিসেন্ট তাদের সহযোগীতা নিয়ে সবসময় মানুষের পাশে আছে।গত কিছুদিন আগে রেড ক্রিসেন্ট বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত জনসাধারণের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে গেছেন। বন্যাদুর্গতদের বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দূর করতে রেড ক্রিসেন্টের নগদ অর্থ সহায়তা নিঃসন্দেহে ভালো উদ্যেগ।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পোস্ট অফিস ফরিদপুর বিভাগের ডিপিএমজি মোহাম্মদ মহসীন উদ্দীন,সুইস রেড ক্রসের প্রতিনিধি মোহাম্মদ খুরশীদ আলম প্রমুখ। 

এই কার্যক্রমে শরীয়তপুর জেলার স্হানীয় জনপ্রতিনিধি,প্রশাসন,রেড ক্রিসেন্ট জাতীয় সদর দপ্তরের প্রতিনিধিগণ,শরীয়তপুর জেলা রেড ক্রিসেন্ট ও যুব সেচ্ছাসেবকরা সার্বিক সহযোগিতা করায় ইউনিটের সেক্রেটারি এ্যাডভোকেট আলমগীর মুন্সী সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

নড়াইলে এক ভ্যান চালককে ছুরি মেরে ভ্যান ছিনতাই

নড়াইলে এক ভ্যান চালককে ছুরি মেরে ভ্যান ছিনতাই


মো: আজিজুর বিশ্বাস স্টাফ রিপোর্টার নড়াইল
নড়াইল শহরে এক ভ্যান চালককে ছুরি মেরে ভ্যান ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার (২২ নভেম্বর) রাত সাড়ে নয়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। 

আহত ভ্যান চালককে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
আহত চালক জামির শেখ (৩৭) নড়াইল শহরের দুর্গাপুর এলাকার জলিল শেখের ছেলে।

পুলিশসূত্রে জানা যায় যাত্রী সেজে শহরের রুপগঞ্জ থেকে ভ্যানটি ভাড়া করে কয়েকজন দুর্বৃত্ত শহর থেকে প্রায় ৮ কিলোমিটার দুরে মুলিয়া এলাকার হিজলডাঙ্গা সুইচ গেটের কাছে পৌঁছালে তারা জামিরের গলায় ছুরি মেরে ভ্যান নিয়ে পালিয়ে যায়। 

পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নড়াইল আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।জরুরী বিভাগের ডা: সুব্রত নাগ জানান, জামিরের প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

নড়াইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শেখ ইমরান, এই প্রতিবেদক কে   জানান, দুর্বত্তরা পরিকল্পিতভাবে যাত্রী বেশে ভ্যানটি ছিনতাই করেছে। তাদের ধরতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

কুলাউড়া বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নির্বাচনে সজল সভাপতি, আখই সম্পাদক

 কুলাউড়া বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নির্বাচনে সজল সভাপতি, আখই সম্পাদক


মোঃরেজাউল ইসলাম শাফি, কুলাউড়া উপজেলা প্রতিনিধিঃকুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির ৬ষ্ট নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে। ২১ নভেম্বর শনিবার কুলাউড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ছবিযুক্ত ভোটার কার্ডের মাধ্যমে সমিতির ২৭২০ জন ব্যবসায়ী সদস্য ভোট দেন। সকাল ৯ ঘটিকা থেকে বিকাল ৪ ঘটিকা পর্যন্ত উৎসব মূখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এবারের নির্বাচনে ৭৭ জন প্রার্থী অংশ নেন। 

সভাপতি পদে পুনরায় নির্বাচিত হন বদরুজ্জামান সজল, সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হন বর্তমান সহ-সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান আখই। সহ সভাপতি পদে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন রফিক মিয়া ফাতু ও মাওলানা আব্দুল ওয়াহিদ, সহ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হন নতুন দুই মুখ শফিকুল ইসলাম জাহেদ ও এম ফয়েজ উদ্দিন,  কোষাধ্যক্ষ পদে পুনরায় নির্বাচিত হন হাফিজ বদরুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক ডা. কুতুব উদ্দিন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক পদে এইচ ডি রুবেল, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক খন্দকার সাইফুর রহমান আফজল, নারী উদ্যোক্তা বিষয়ক সম্পাদক সুফিয়া রহমান ইতি। 

এছাড়াও সমিতির ৮টি ওয়ার্ড থেকে ৮ জন ওয়ার্ড সম্পাদক ও প্রতি ওয়ার্ডে ২ জন করে সদস্য নির্বাচিত হন। সব মিলিয়ে ৩৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি নির্বাচনের মাধ্যমে গঠন করা হয়।

পটিয়ায় তারেক রহমানের ৫৬ তম জন্মদিন উপলক্ষে দোয়া মাহফিল

 পটিয়ায়  তারেক রহমানের ৫৬ তম জন্মদিন উপলক্ষে  দোয়া মাহফিল



সেলিম  চৌধুরী,  স্টাফ  রিপোর্টারঃ- চট্টগ্রামে  পটিয়া উপজেলা  পৌরসভা যৌথ  উদ্যােগে বিএনপি'র ভারপ্রাপ্ত  চেয়ারম্যান  তারেক রহমানের ৫৬ তম জন্মদিন  উপলক্ষে  পটিয়া  দলীয়  কার্য়ালয়ে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  হয়। এতে প্রধান অতিথির  বক্তব্য রাখেন দক্ষিণ  জেলা  যুবদলের  সিনিয়র  সহ-সভাপতি সাবেক  পটিয়া  পৌরসভা যুবদলের সফল সভাপতি আসন্ন  পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি  দলীয় মেয়র প্রার্থী মনোনয়ন  প্রত্যাশী মোহাম্মদ  শাহাজাহান  চৌধুরী । বিশেষ  অতিথি  ছিলেন  দক্ষিণ  জেলা  যুবদলের আনোয়ার  হোসেন  মিয়া, দক্ষিণ  জেলা যুবদলের  সহ সভাপতি  উদীয়মান  যুবনেতা রবিউল  হোসেন বাদশা,বিএনপি  নেতা মোসলেম উদ্দীন , মফিজুর  রহমান, দক্ষিণ জেলা  যুবদলের  যুগ্ম  সাধারণ  সম্পাদক আল রায়হান  সোহেল, মোঃ জাহাঙ্গীর  আলম, আলী আকবর, সহ সাংগঠনিক  সম্পাদক  শহীদুল  ইসলাম পটল, ক্রিড়া সম্পাদক  আবদুস সালাম (আবদুল) আবু বক্কর, সুজন মেম্বার, মোঃ মামুন,দক্ষিণ  জেলা ছাএদলের সাবেক  সাংগঠনিক  সম্পাদক  গাজী মনির,সাবেক ছাএনেতা এস. এম. রেজা রিপন,সাজ্জাদুল আলম আলভী,রাকিব  হাসান, মোঃ নাছির উদ্দীন , মোঃ হানিফ, মোঃ মুছা সুমন,মোঃ মহিউদ্দিন  চৌধুরী,আসাদুজ্জামান সোহেল, জমির  উদ্দীন , এনাম উল্লাহ এনাম,কাজী মোজ্জাম্মেল হক, রমজান  আলী, পৌর যুবদল নেতা জসিম  উদ্দিন  তালুকদার , আনোয়ার  হোসেন সুমন, জালাল উদ্দীন , মোঃ আলমগীর , করিম, মামুন,খালেক, আজিজ , মোঃ ওসমান , রফিক, মোঃ মহিম,আশরাফ, মহরম,ইছহাক রিমন, হেলাল প্রমুখ। সভায়  কেক কেটে বিএনপি'র ভারপ্রাপ্ত  চেয়ারম্যান  তারেক  রহমান  জন্মদিনের কেক কেটে  উদযাপন  করা হয়।সভায় প্রধান অতিথি  শাহজাহান  চৌধুরী  দলের নেতা কর্মীদের  ঐক্যবদ্ধ  হয়ে  কাজ করে আগামী পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে  ধানের শীষ প্রতীকের  ভোঠ দিয়ে  বিজয়ী  করার আহবান  জানান।বিশেষ  অতিথি  আনোয়ার  হোসেন  মিয়া  বলেন, আর বেশি দিন নেই তারেক রহমান  বাংলাদেশে বীরের  বেশে আসবে তাই  সকল গনতান্ত্রিক  আন্দোলন সংগ্রামে সকলকে  রাজপথে অগ্রণী ভুমিকা  রাখার আহবান  জানান । প্রধান বক্তা দক্ষিণ  জেলা  যুবদলের  সহ -সভাপতি রবিউল  হোসেন  বাদশা  বলেন, মামলা হামলা  নির্যাতন চালিয়ে বিএনপি  নেতা কর্মীদের  দমিয়ে  রাখা যাবেনা যতোই  হামলা  মামলা  নির্যাতন চলবে আন্দোলনের তাপমাত্রা  আরো বেশি বৃদ্ধি পাবে। তিনি  সরকারকে হুশিয়ারী  উচ্চারণ  করে বলেন মানুষের  মৌলিক  অধিকার ভোট অবাধ সুষ্ট করার দাবি  জানান অন্যাতাই বিএনপি'র নেতা কর্মীদের  রাজপথে নামতে বাধ্য করবেননা তিনি  দিনের ভোঠ রাতে না হয় সে ব্যাবস্হা করার দাবি  জানান। রবিউল  হোসেন  বাদশা  দক্ষিণ  জেলা  যুবদলের  সিনিয়র  সহসভাপতি  শাহজাহান  চৌধুরী'কে পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে  বিএনপি'র মেয়র প্রার্থী ঘোষণা  করতে দলের হাইকমান্ডের হস্তক্ষেপ  কামনা  করেন।সভার শেষে বিএনপি'র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান  তারেক  রহমান  দীর্ঘ আয়ু কামনা করে দোয়া ও বিশেষ  মোনাজাত করা হয়। 

সিটিজি ক্রাইম টিভির বাশখালী প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেলেন মোহাম্মদ ওয়াজেদ

 সিটিজি ক্রাইম টিভির বাশখালী প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেলেন মোহাম্মদ ওয়াজেদ



বেলাল উদ্দিন সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার :সিটিজি ক্রাইম টিভির বাশখালী প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ পেলেন মোহাম্মদ ওয়াজেদ, বহুল আলোচিত স্বনামধন্য আইপি টিভি চ্যানেল সিটিজি ক্রাইম টিভির বাশখালী প্রতিনিধি হিসেবে মোহাম্মদ ওয়াজেদ কে নিয়োগ প্রধান করা হলো। রবিবার সকাল ১০ টায় সিটিজি ক্রাইম টিভির চেয়ারম্যানের সাক্ষরিত নিয়োগ পত্র তুলে দেন সিটিজি ক্রাইম টিভির চট্টগ্রাম বিভাগীয় প্রধান আনিছুর রহমান হীরু। এসময় সংশ্লিষ্ট সকল স্তরের মানুষকে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ সংগ্রহে উৎসাহিত করার জন্য আহবান জানান এবং তার ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল কামনা করেন। সাক্ষর চেয়ারম্যান সাক্ষর বিভাগীয় প্রধান।