আমি ব্যথিত হই অরুণ বর্মন

আমি ব্যথিত হই, আমি বিস্মিত হই,
যখন দেখি-
স্বার্থের দ্বন্দে অন্ধ বিবেক মানবিকতা ভুলে যায়।
মহামারীর মহা প্রলয় সবেগে ধাবমান।
ঘাড়ে মৃত্যুর তপ্ত নিঃশ্বাস।
তবুও অপরাধের মহাযজ্ঞে স্নান করে মনুষ্যত্ব ।
সম্পদের স্তুপের নীচে মুখ গুঁজে সুখ খুঁজতে চায় সে।
আমি ঘৃণা ভরে ধিক্কার জানাই,
এইসব ধনলিপ্সু ধুরন্ধর নিমকহারাম ব্যক্তিসত্বাকে।

আমি ঘৃণা ভরে ধিক্কার জানাই,
সেইসব বর্বর কুফরি ইহুদি জাতিকে,
যারা এক টুকরো ভূখন্ড দখলের নেশায় উন্মত্ত হয়। 
যারা প্যলেষ্টাইন নিরীহ মুসলিম জাতির উপর
সশস্ত্র হামলা চালাতে হুমড়ি খেয়ে পড়ে।

আমি ঘৃণাভরে ধিক্কার জানাই,
সেইসব হিংস্র নফরমান ইহুদিদের-
যারা ফিলিস্তিন নিরপরাধ শিশু, বৃদ্ধ, যুবাদের 
বেয়ানটের খোঁচায় প্রত্যহ বিক্ষত করে চলে।
যারা পবিত্র শহর জেরুজালেম থেকে ফিলিস্তিনিদের উচ্ছেদের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়।
যারা ফিলিস্তিনিদের জমি দখল করে 
অবৈধ বসতি স্থাপন করে।
তাদের ঘৃণাভরে ধিক্কার জানাই।

যখন দেখি ইহুদি সৈনিকের উন্মত্ত তান্ডব নৃত্যে
মধ্যপ্রাচ্যের আকাশ প্রকম্পিত।
গাজা, ফিলিস্তিনের অসহায় মুসলিম সন্তানের কান্নায় যখন খোদার আরশ পর্যন্ত কেঁপে ওঠে।
তখন আমি ব্যথিত হই, শোকে মূহ্যমান হই।
তখন আমি সেই অন্ধ জাতি, বর্বর মানুষগুলোকে
ঘৃণাভরে ধিক্কার জানাই।

আমি তখনও ব্যথিত হই, তখনও বিস্মিত হই
যখন দেখি একদল উগ্র মুসলিম সত্ত্বা
ধর্মের জিহাদের দোহাই দিয়ে 
হিন্দু জনগোষ্ঠীর ওপর অত্যাচারে উন্মত্ত হয়।
নির্মম অত্যাচারে তাদের করে গৃহছাড়া।
যখন তাদের ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেয়।
যখন সনাতন ধর্মের পবিত্রতা সম্পর্কে 
গ্লানিকর ভাষ্য দেয়।
তখন আমার অশ্রু নীরবে গড়াগড়ি খায়।
নিঃশব্দ প্রতিবাদ জানায় আমার অসহায় আত্মা। 
আমার হৃদয় কেঁদে ওঠে।
আমি ঘৃণাভরে ধিক্কার জানাই সেইসব ধর্মান্ধদের।

আমি তখনও ব্যথিত হই, বিস্মিত হই
যখন দেখি একদল ঝান্ডাধারী উগ্র হিন্দু
মুসলিম উম্মাহর উপর হামলা চালায়।
তাদের নির্যাতিত করে, নিষ্পেষিত করে।
তাদের হাজার বছরের সংস্কৃতিকে ধুলিষ্যাৎ 
করার অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়।
স্রষ্টার দেওয়া পবিত্র বানীকে পরিবর্তনের 
অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়।
তখনও আমি লজ্জিত হই, মুর্ছিত হই।
আমার হৃদয় কেঁদে ওঠে।
আমি ঘৃণাভরে ধিক্কার জানাই সেইসব ধর্মান্ধদের।

আমি সকল ধর্মীয় নোংরা গোড়ামিত্বকে
ঘৃণাভরে প্রত্যাখান করি।
আত্মোপলব্ধি, আত্মধ্যানের উপাদানকে যখন 
ক্ষমতা বিস্তারের হাতিয়ার করা হয়।
মানবতাকে যখন অচ্ছুত, অস্পৃশ্য করা হয়,
তখন সমুদ্রের ফেনিল ঢেউ হৃদয়ে অবস্থান নেয়।
ব্যথিত হয় আমার প্রতিটি লোমকূপ।
আমি ব্যথিত হই, ব্যথিত হই ব্যথিত হই।।

শেয়ার করুন

প্রকাশকঃ

অফিসঃ হাজী সিরাজুল ইসলাম সুপার মার্কেট, মোহাম্মদপুর মোড়, ছুটিপুর রোড, ঝিকরগাছা, যশোর।

পূর্ববর্তী প্রকাশনা
পরবর্তী প্রকাশনা