৭৫ কোটি টাকা মূল্যের বিষ্ণুমূর্তি পাহাড়পুর বৌদ্ধ বিহার এ হস্তান্তর


রহমতউল্লাহ আশিকুজ্জামান নুর বদলগাছী নওগাঁঃর‌্যাব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্প কর্তৃক ৭৫ কোটি টাকা মূল্যের হাজার বছরের প্রাচীন পাল আমলের অমূল্য প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন একটি  কষ্টিপাথরের বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার করা হয়েছে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৫ রাজশাহীর সিপিসি-৩ জয়পুরহাট ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম. এম. মোহাইমেনুর রশিদ পিপিএম-সেবা এর নেতৃত্বে অদ্য ০৮ নভেম্বর রবিবার বিকালে জেলার আক্কেলপুর  থানাধীন দেওড়া এলাকা হতে প্রত্নতাত্ত্বিক অধিদপ্তরের সহযোগিতায় ৩৮০ কেজি ওজনের বিষ্ণুমূর্তি উদ্ধার করেন। 

প্রত্নতাত্ত্বিক অধিদপ্তরের মতানুসারে পাল বংশীয় রাজা মহীপালের রাজত্বকাল (৯৯৫-১০৪৩ খ্রীঃ) আমলের বিষ্ণুমূর্তিটির গায়ে খোদাই করা শিল্পকর্ম হতে প্রতীয়মান হয় যে এটি কুষান সাম্রাজ্যের প্রাচীন মূর্তিশিল্পের আদলে তৈরীকৃত।ইতিপূর্বে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়া জেলা ও ভূতপূর্ব বৃহত্তর বগুড়া জেলার দেওড়া এলাকা হতে এই শিল্পকর্মের আদলে তৈরী প্রত্নসম্পদ উদ্ধার করা হলেও র‌্যাব কর্তৃক উদ্ধারকৃত প্রত্নসম্পদসমূহের মধ্যে এই ধরনের বিষ্ণুমূর্তি এটাই প্রথম।উক্ত প্রত্নসম্পদের প্রাক্কলিত মূল্য প্রায় ৭৫ কোটি টাকা। উদ্ধারকৃত মূর্তিটি রাষ্টীয় অমূল্য সম্পদ হওয়ায় তা নওগাঁ জেলার বদলগাছি উপজেলার পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার জাতীয় জাদুঘর কর্তৃপক্ষের নিকট হস্তান্তর করা হয়।

পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার জাদুঘরের কাস্টেডিয়ান ফজলুল করিম বলেন, দেওড়া গ্রামে ব্রজেন্দ্রনাথ সাহার বাড়িতে মুর্তিটি ছিল। সেটি র‌্যাব উদ্ধার করেছে এবং মূর্তিটি ঐতিহাসিক পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার জাদুঘরে হস্তান্তর করেছে।


শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট