আদিবাসী মৃত ঝুঁকু সাঁওতাল এর সম্পদকে ঘিরে ভূমিদস্যুদের অপতৎপরতা প্রতিহত করার দাবীতে মানব বন্ধন

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ-দিনাজপুর সদর উপজেলার ১নং চেহেলগাজী ইউনিয়নের কর্ণাই মৌজায় আদিবাসী মৃত ঝুঁকু সঁাঁওতালের সম্পদকে ঘিরে কতিপয় ভূমিদস্যুর অপতৎপরতা প্রতিহত করার দাবীতে ১৭ ফেব্রুয়ারি সকাল ১১টায় দিনাজপুর জেলা প্রশাসক চত্ত্বরে আদিবাসী মৃত ঝুঁকু সাঁওতাল এর ওয়ারিশগণ মানব বন্ধন করেন এবং জেলা প্রশাসক মাহামুদুল আলম এর সাথে সাক্ষাৎ করে এই জটিলতা থেকে নিরসনে তাঁর দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করেন।দিনাজপুর সদর উপজেলাধীন কর্ণাই কাটাপাড়া গ্রামস্থ মৃত ঝুঁকু সাঁওতাল এর ওয়ারিশ মৃত শিমন মুরমুর পুত্র মজেস মুরমু বাদী হয়ে দিনাজপুর জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সহ বিভিন্ন দপ্তরে একাধিক অভিযোগ সূত্রে জানা যায় যে, কর্ণাই মৌজার ৪নং জে.এল এর সি.এস-৩৭৩ এবং এস.এ-৭৯৫ নং খতিয়ানভূক্ত ২৪২৪ দাগের ১৪.০০ একরের প্রকৃত মালিক ঝুঁকু সাঁওতাল। ঝুঁকু সাঁওতাল মৃত্যুবরণ করলে তার প্রকৃত উত্তরাধিকারী হন মজেস মুরমু সহ তার ওয়ারিশগণ। কিন্তু আদিবাসী গোষ্ঠীর বড়ফুল মুরমুকে ঝুঁকু সাঁওতাল এর মিথ্যা ওয়ারিশ বানিয়ে কতিপয় ভূমিদস্যু ঝুঁকু সাঁওতাল এর সম্পত্তি আত্মসাৎ করার অভিপ্রায়ে উক্ত সম্পত্তি দখল করার বিভিন্ন অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই গত ২০২০ সালে উক্ত জমিকে জবরদখলের চেষ্টায় বাধা প্রদান করতে গিয়ে আফছার আলী নামে এক বৃদ্ধের ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত প্রশাসনের পক্ষ থেকে উক্ত জমিতে প্রবেশের নিষেধাজ্ঞা থাকলেও সেটাকে তোয়াক্কা না করেই গত ১১ ফেব্রুয়ারি ভূমিদস্যু মৃত মনসুর আলীর পুত্র মোঃ নুহু, মৃত ওমর আলীর পুত্র মোঃ উজ্জ্বল হোসেন, মোঃ এরফান আলীর পুত্র মোঃ করিম, মহবুল, রসদুল, রবু ও মোঃ জিয়া সহ কতিপয় ভূমিদস্যুর সহযোগিতায় এবং শিক্ষানবিস অ্যাডভোকেট এর দায়িত্বে থাকা রানু বেগম এর নেতৃত্বে বাবুরাম এর স্ত্রী এবং বুধরাই মুরমুর কন্যা বড়ফুল মুরমু, মৃত চন্ডা মুরমুর পুত্র বিশু ওরফে কাঠি মুরমু সহ কতিপয় নিরীহ আদিবাসীকে সঙ্গে নিয়ে জমিতে অনুপ্রবেশ করে চাষাবাদ আরম্ভ করে; যাহা সম্পূর্ণভাবে আইন পরিপন্থী। তাই আদিবাসী মজেস মুরমু সহ অন্যান্য ওয়ারিশগণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের নিকট তাদের পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত সম্পদকে ফিরিয়ে দেওয়ার আকুল আবেদন জানায় এবং এই জটিলতা থেকে পরিত্রান চান।

শেয়ার করুন

প্রকাশকঃ

অফিসঃ হাজী সিরাজুল ইসলাম সুপার মার্কেট, মোহাম্মদপুর মোড়, ছুটিপুর রোড, ঝিকরগাছা, যশোর।

পূর্ববর্তী প্রকাশনা
পরবর্তী প্রকাশনা