লালমনিহাটে পৌঁছেছে করোনার ৩৬ হাজার টিকা

রশিদুল ইসলাম রিপন, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাট জেলার জন্য ৩৬হাজার ডোজ করোনা ভ্যাকসিন এসে পৌঁছেছে। গতকাল রবিবার (৩১ জানুয়ারি) দুপুর ১টা ৩০মিনিটের দিকে কড়া পুলিশ প্রহরায় করোনা ভ্যাকসিন বহনকারী বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের একটি ফ্রিজার ভ্যান লালমনিরহাট সিভিল সার্জন কার্যালয়ে এসে পৌঁছায়। এখানে সিভিল সার্জন ডাঃ নির্মলেন্দু রায় ভ্যাকসিন বুঝে নেন। এ সময় লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ সিরাজুল ইসলামসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ভ্যাকসিন কারা পাবেন, যেভাবে পাবেন: লালমনিরহাট সিভিল সার্জন ডাঃ নির্মলেন্দু রায় সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, সরকার ঘোষিত নীতিমালা অনুযায়ী মহামারি করোনার প্রতিষেধক কাঙ্ক্ষিত ভ্যাকসিন ধাপে ধাপে অনেকেই পাবেন। তবে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সম্মুখ সারির স্বাস্থ্যকর্মীরা আগে পাবেন। এরপর সম্মুখ সারির করোনা যোদ্ধা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য, গণমাধ্যমকর্মী, জনপ্রতিনিধি, সরকারি-বেসরকারিকর্মী, ব্যবসায়ী, ধর্মীয় প্রতিনিধি, রাজনীতিকসহ সকল শ্রেণি পেশার মানুষ এ ভ্যাকসিন গ্রহণ করতে পারবেন। তবে যিনি ভ্যাকসিন নিতে আগ্রহী তাকে অবশ্যই সরকারি ওয়েব পোর্টাল সুরক্ষা অ্যাপে-এ আবেদন করার পরই নিতে হবে। তবে আবেদন ফরম পূরণ করতে জাতীয় পরিচয়পত্র, মোবাইল নম্বর ও ব্যক্তিগত তথ্যাদি দিতে হবে। যদি কেউ আবেদন না করেন, তাহলে কাঙ্ক্ষিত এ ভ্যাকসিন নিতে পারবেন না।

 

লালমনিরহাট জেলার কোথায় কোথায় পাওয়া যাবে করোনা ভ্যাকসিন: লালমনিরহাট জেলার পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২টি, হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২টি, কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২টি, আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২টি, লালমনিরহাট পুলিশ হাসপাতালে ১টি, লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ৮টি ও সিভিল সার্জন কার্যালয়ে ২টি করোনা ভ্যাকসিন টিকা প্রদানকারী টিমসহ মোট ১৯টি কেন্দ্রে টিকা প্রদানের জন্য টিম গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন লালমনিরহাট সিভিল সার্জন ডাঃ নির্মলেন্দু রায়।

 

লালমনিরহাট সিভিল সার্জন ডাঃ নির্মলেন্দু রায় জানান, টিকা গ্রহণকারীদের পছন্দের টিকা নিতে পারবেন। প্রত্যেক টিমে দক্ষ টিকাদান কর্মী ২জন ও ৪জন করে স্বেচ্ছাসেবক থাকবেন। জেলায় ৩৮জন টিকাদানকারী ও ৭৬জন স্বেচ্ছাসেবককে প্রস্তুত করা হয়েছে।

লালমনিরহাট সিভিল সার্জন ডাঃ নির্মলেন্দু রায় আরও জানান, ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু করা হবে। লালমনিরহাট জেলায় নিবন্ধিত ব্যক্তিদের মধ্য থেকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে জেলার ১৯টি কেন্দ্র থেকে এ টিকা প্রদান করা হবে। টিকাদান পরবর্তীতে সময়ের জন্য চিকিৎসা প্রদানের জন্যও আমাদের প্রস্তুতি রয়েছে।

 লালমনিরহাটে করোনা সংক্রমণ, সুস্থতা, মৃত্যু ও পরীক্ষার হালচাল: লালমনিরহাট সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সহকারী প্রধান পরিসংখ্যান কর্মকর্তা আব্দুল মান্নান সাংবাদিকদের জানান, ২০২১ সালের ৩১ জানুয়ারি রবিবার পর্যন্ত লালমনিরহাটের ৪৫টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভায় ৫হাজার ২২৬জন ব্যক্তির শরীর থেকে করোনা ভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত পরীক্ষার ফলাফল পাওয়া গেছে ৫হাজার ১শত ৮৫জনের। এর মধ্যে করোনা সংক্রমিত হয়ে ১০জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনা রোগী শনাক্ত ৯শত ৬৩জনের মধ্যে ৯শত ৪৫জন সুস্থ হয়ে কাজে ফিরেছেন। অবশিষ্ট ১৮জনের মধ্যে ২জন হাসপাতালে এবং ১৬জন নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে রয়েছেন।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট