বিলুপ্তির পথে দিনাজপুর সদর চুনিয়াপাড়া চুন শিল্প

চুনা শিল্প
মামুনুর রশিদ, দিনাজপুর প্রতিনিধি: বিলুপ্তির পথে চুনিয়াপাড়া ঐতিহ্যবাহী চুন শিল্প। চুন তৈরির শামুক ও ঝিনুকের সংকট ও দাম বেড়ে যাওয়ায়, চুন তৈরির আগ্রহ হারাচ্ছেন এখানকার কারিগররা। টিকে থাকতে ঋণসহ সরকারি সহায়তা ও চুন তৈরীর মিশিনসহ দাবি করেছেন তারা। অনেকের কাছে পান একটি অতি প্রিয় খাবার। যাতে স্বাদ জোগায় চুন। কিন্তু এই চুন তৈরির প্রধান উপাদান শামুক ও ঝিনুকের সংকট দেখা দিয়েছে। দিনাজপুর সদর ৫নং শশরা চুনিয়া পাড়া। চুনিয়াপাড়ার কারিগর শী বাবু চন্দ্র রায় বলছেন জলবায়ূর পরিবর্তন ও নদি, নালা, খাল,বিল বড় পুকুরে,শামুক-ঝিনুক কমে গেছে। ফলে অনেক দুর দুরান্তে ঝিনুক বেশি দরে কিনে আন্তে হয়। আবার ঝিনুক পুড়াইতে খড়ি লাগে খড়ির দাম বেড়েছে । কিন্তু বাড়েনি চুনের দাম। প্রতি কেজী চুন ১৫ থেকে ২০ টাকা কেজি। দিনাজপুর জেলা থেকে অনেক উপজেলায় গিয়ে চুন বিক্রি করি সারাদিন চুন বিক্রি করে লাভ হয় ২০০ থেকে ২৫০ টাকা তাতে সংসার চলেনা কান্না কন্ঠে কথা গলি বললেন চুন তৈরীর এক কারীগর শী লাল চন্দ্র রায় । চুনের দাম না পাওয়ায় চুন তৈরী করা ছেড়ে দিয়েছি বললেন আরেক চুন কারিগর শী গংগা রায়। গেল কয়েকবছরে লোকসানের মুখে চুন তৈরির পেশা ছেড়েছেন অনেকে। তবে যেটুকু আছে, তা ধরে রাখতে সহজ শর্তে ঋণসহ সরকারি সহায়তা ও চুন তৈরীর মিশিন চেয়েছেন কারিগররা। দিনাজপুর সদর ৫নং শশরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম বলেছেন। সরকারি সহায়তা ও চুন তৈরীর মিশিন পাইলে চুনিয়াপাড়া চুন উৎপাদনে মন্দা কাটবে বলে মনে করেন।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট