পটিয়ায় প্রবাসীর স্ত্রীকে মারধর ঘর ভাংচুর ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ

পটিয়া ( চট্টগ্রাম)  প্রতিনিধিঃ- চট্টগ্রামের পটিয়া পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ড কাগজী পাড়ার সালমান ফকির বাড়িতে ভাসুরের কু- প্রস্তাবে  রাজি না হওয়ায় প্রবাসী মোহাম্মদ জুয়েল এর স্ত্রী খায়রুন্নেছা ( ২৫) কে  ভাসুর  কতৃক মারধর ও  বাড়িঘর ভাংচুর লুটপাট তান্ডব চালিয়েছে মর্মে  অভিযোগ  পাওয়া গেছে। আহতকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে পটিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করে। ঘটনাটি ঘটেছে  গত ৭ এপ্রিল ২০২১ ইং  বুধবার সকাল সাড়ে ১০ টায়। এঘটনায় প্রবাসীর স্ত্রী   খায়রুন্নেছা  বাদী হয়ে ভাসুর মোঃ রুবেল এবং তার স্ত্রী এ্যানি আকতার বিরুদ্ধে পটিয়া থানায় একটি  অভিযোগ দায়ের  করেছে।  থানার দায়েরকৃত অভিযোগ সুএে জানাযায়, দীর্ঘদিন যাবত মোহাম্মদ রুবেল তার  প্রবাসী ভাই বিদেশ থাকার সুবাদে    জুয়েল এর স্ত্রী খায়রুনন্নেছাকে পুর্বের কু-প্রস্তাবে রাজি  না হওয়ায় উদ্যেশ্যমুলকভাবে  গত ৭ এপ্রিল  গালিগালাজ করে  খায়রুন্নেছাকে। সে এর কারণ জানতে চাইলে রুবেল উক্তেজিত হয়ে খায়রুন্নেছা কে এলোপাতাড়ি  কিল, ঘুষি, লাথি মেরে রক্তাক্ত জখম করে এবং টানাহেঁচড়া করে পরনের কাপড় ছিড়ে শ্লীলতাহানি করে। এর একপর্যায়ে   রুবেল ও তার স্ত্রী  ঘরে অনাধিকার প্রবেশ করে ঘরের  আসবাবপত্র ভাংচুর তান্ডব লুটপাট চালিয়ে আনুমানিক ৫০ হাজার টাকার ক্ষতিসাদন করে বলে থানার দায়েরকৃত অভিযোগ সুএে জানাযায়। খায়রুন্নেছা জানান, পারিবারিক বিরোধ আমার ভাসুরের কু- প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায়  হামলা ভাংচুর লুটপাট তান্ডব চালিয়েছে।সে এব্যাপারে  পটিয়া থানার ওসি রেজাউল করিম মজুমদার  ও জাতীয় সংসদের হুইপ আলহাজ্ব শামসুল হক চৌধুরীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট