প্রতিপক্ষের হামলায় ভাংচুর মারপিটে স্বামী স্ত্রী গুরুতর জখম



আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: আশাশুনি সদরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ নিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায়  আসবাব পত্র ভাংচুর বেপোরোয়া ও মারপিটে স্বামী স্ত্রী আহত করা হয়েছে। আশাংকা জনক অবস্থায় আহতদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বিকালে আশাশুনি উপজেলা সদরে। এ ব্যাপারে থানায় লিখিত অভিযোগে  জানা গেছে আশাশুনি সদরের মৃত জালাল উদ্দীন সানার পুত্র জসিম উদ্দীনের সাথে তার ভাই নুজিব সানা, নাসির সানা ভিটা বাড়ীর জমি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ সৃষ্টি করে আসছে। তারা ভাই জসিমকে ওই ভিটা থেকে উচ্ছেদ করার জন্য গভীর ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত বিভিন্নভাবে জুলুম নির্যাতন করাসহ হয়রানী ও ক্ষতি করে আসছে। যড়যন্ত্র অনুযায়ী ভাই নুজিব সানা, নাসির সানা ভিটাবাড়ি ভাগাভাগি নিয়ে গোলজোগ করে ভাই জসিম সহ তার পরিবারের সদস্যদের মারপিট করার জন্য উদ্বত্য হয়। গোলযোগ এড়াতে শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য অপর ভাই জসিম থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। থানা পুলিশ অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উভয় পক্ষকে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার নির্দেশ প্রদান করেন ও থানায় আসার কথা বলে আসেন। কিন্তু অত্যান্ত দুর্দান্ত প্রকৃতির এলাকার মানুষকে মানুষ বলে মনে করেন না নুজিব সানা ও নাসির সানা থানা পুলিশের কাছে সময় নিয়ে এক সাবেক ইউপি সদস্যের নির্দেশে আদালতে মামলা দায়ের করে। আদালতে মামলা করায় থানা পুলিশের কার্যক্রম স্থগিত হয়। এরপর নুজিব সানা ও নাসির সানা লোকজন নিয়ে ভিটাবাড়ীতে গায়ের জোরে জোর পূর্বক পাকা প্রাচীর নির্মান করতে থাকে। এতে বঁাধা দেওয়ায় তারা চরম ক্ষিপ্ত হয়ে জসিম উদ্দীনকে বলে তোর এতবড় সাহস তুই আমাদের কাজে বঁাধা দিস। তোকে আজ পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেব আমাদের হাত থেকে কেউ বঁাচাতে পারবে না বলে তাদের হাতে থাকা লোহার রড ও বাশের লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ীভাবে পিটিয়ে মারাত্বক জখম করায় সে জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে পড়ে যায়। খবর পেয়ে জসিমের স্ত্রী সেলিনা খাতুন ঘটনাস্থলে এসে তার স্বামীকে মেরে ফেললো আমাদেরকে বঁাচাও  বলে চিৎকার করে। এ সময় তারা জসিমের স্ত্রীকেও এলোপাতাড়ীভাবে পিটাতে থাকে ও পরনে থাকা কাপড় চোপড় ছিড়ে ফেলে শ্লীলতাহানী ঘটায়। তাছাড়া স্ত্রীর গলায় থাকা ৩৫ হাজার টাকা মূল্যের আটআনা ওজনের একটি স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়। পরবর্তিতে বাড়ীতে হামলা চালিয়ে প্রয়োজনীয় আসবাব পত্র ভেঙ্গে ১০হাজার টাকা ক্ষতি সাধন করে। এলাকার লোকজন খবর পেয়ে স্থলে আসতে থাকলে মারপিটকারীরা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। আশপাশের লোকজন গুরুতর আহত স্বামী-স্ত্রীকে উদ্ধার করে আশাশুনি হাসপাতালে ভর্তি করে। আহত জসিমের অবস্থা আশাংকা জনক। এব্যাপারে মারপিটকারীদের নাম উল্লেখ করে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।  এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলার প্রস্তুতি চলছিলো । তবে মামলা না করতে আহত পরিবারের উপর ভয়ঙ্কার চাপ সৃষ্টি করে যাচ্ছে। মারপিট কারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন পূর্বক ন্যায় বিচারের দাবী জানিয়েছেন আহত পরিবারটি।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট