মোংলা বন্দরে পৌঁছেছে ভারতীয় যুদ্ধ জাহাজ কুলিশ ও সুমেদা

মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে ভারতীয় নৌবাহিনীর দুইটি যুদ্ধ জাহাজ 'কুলিশথ ও 'সুমেদাথ তিন দিনের সফরে সোমবার মোংলা বন্দরে এসে পৌঁছেছে। এ সময় বাংলাদেশ নৌবাহিনীর সুসজ্জিত বাদক দল ঐতিহ্যবাহী রীতিতে ব্যান্ড পরিবেশন করে জাহাজ দুথটিকে অভিবাদন জানায়। বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর মোংলার দিগরাজ নৌঘাঁটির অধিনায়ক ভারতীয় জাহাজ দুথটির অধিনায়কদের স্বাগত জানান। এ সময় বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনের প্রতিনিধিসহ বাংলাদেশ নৌবাহিনীর উচ্চপদস্থ কর্মকতার্রা উপস্থিত ছিলেন। তিন দিনের এ সফরকালে ভারতীয় নৌবাহিনীর উচ্চপদস্থ কর্মকতার্ কমডোর মহাদেভু গোভেরধান রাজু ও জাহাজ দুইটির অধিনায়ক টুঙ্গিপাড়াস্থ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধি সৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন ও বীর শ্রেষ্ঠ শহীদ রুহুল আমিনের সমাধিস্থলে পুষ্পস্তবক অপর্ণ করবেন। পাশাপাশি তারা খুলনা নেভাল এরিয়া এবং কমান্ডার ফ্লোটিলা ওয়েস্টথর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন। 

বাংলাদেশে অবস্থানকালে জাহাজ দুইটি ভারতীয় নৌবাহিনীর পক্ষ হতে ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে বানৌজা পদ্মা ও পলাশে ব্যবহৃত ৪১/৬০ মি:মি: গান এবং এ্যাকুয়াসটিক এমকে-০৭ মাইন শুভেচ্ছা উপহার হিসেবে প্রদাণ করবেন। এ সব গান ও মাইন যুদ্ধকালীন সময়ে মোংলা ও পশুর নদীতে পাকিস্তানী বাহিনীর বিরুদ্ধে আক্রমণ পরিচালনায় ব্যবহৃত হয়েছিল। সামরিক জাদুঘরে প্রদর্শণের জন্য ভারতীয় নৌবাহিনীর পক্ষ থেকে এসব সরঞ্জামাদি প্রদাণ করা হবে। 

১৮ জন কর্মকতার্ ও ১৬০ জন নাবিকসহ কুলিশ জাহাজের নেতৃত্বে রয়েছেন কমান্ডার সঞ্জীব অগ্নিহোত্রি এবং ২০ জন কর্মকতার্ ও ১৩০ জন নাবিকসহ সুমেদা জাহাজের নেতৃত্বে আছেন কমান্ডার গৌরব দুগার্পাল। আগামী ১০ মার্চ জাহাজ দুইটি বাংলাদেশ ত্যাগ করবেন। 

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট