নাচনমহল ইউনিয়নবাসী আবারও নৌকার কান্ডারী হিসাবে সেলিম মোল্লাকে চেয়ারম্যান দেখতে চায়

নাচনমহল ইউনিয়নবাসী আবারও নৌকার কান্ডারী হিসাবে সেলিম মোল্লাকে চেয়ারম্যান দেখতে চায়

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ
ঝালকাঠি নলছিটির প্রতিটি ইউনিয়নে বইছে নির্বাচনী হাওয়া। তবে ব্যতিক্রম রয়েছে নাচনমহলে। এখানে অন্যান্য ইউনিয়নেরমত হাঁকডাক দিচ্ছে না আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশিরা। কিছুটা কৌশল করে নিরবে গোল দিতে চান। এদের মধ্যে নাচনমহল ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ সেরাজুল ইসলাম সেলিম মোল্লা অন্যতম। যিনি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র থাকাকালীন অবস্থা থেকেই আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত হন। এরশাদ সরকারের আমলে মোস্ট পাওয়ারফুল লিডার মরহুম জুলফিকার আলী ভুট্টো বিভিন্ন নির্বাচনে অপজিশন পার্টি হিসাবে আওয়ামীলীগের যারা দুঃসাহসী মনোবল এবং দলের প্রতি অবিচল আস্থা রেখে মিছিল, মাইকিং করেছেন তাদের মধ্যে সেলিম মোল্লা ছিলেন অন্যতম একজন। যে কারণে তাদের বিভিন্ন সময়ে হুমকি, ডিটেনশন, হামলা,শারীরিক নির্যাতন ইত্যাদি উপেক্ষা করে পথ চলতে হয়েছে। সময়ের পরিবর্তনে ততকালীন ক্ষমতাশীনরা চলেযান অন্ধকারে। আবার কেউ কেউ মুখোশ পরিবর্তন করে হয়েছেন দল ত্যাগী হইব্রিড নেতা। ২০০১ সালে সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ২৯ সেপ্টেম্বর নাচনমহল বাজারে যে অপ্রত্যাশিত এবং বিএনপি- জামাতের পূর্ব পরিকল্পিত হামলা, গণগ্রেফতার এবং মামলার শিকার যারা হন তাদের মধ্যে তিনি অন্যতম। ঐ দিন সেই হামলা থেকে রেহাই পাননি বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমান এর বড় ভাই আহম্মদ আলী সাহেব এবং সেলিম মোল্লার বৃদ্ব বাবা মরহুম মুনসুর আলী মোল্লা। তিনি ২০০৪ সাল থেকে বর্তমান সময়কাল পর্যন্ত রাজনৈতিক অভিভাবক আলহাজ্ব আমির হোসেন আমুর নির্দেশে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ নলছিটি উপজেলার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব আর্দশ এবং অত্যান্ত নিষ্ঠার সাথে পালন করছেন। তিনি এ পর্যন্ত দলীয় প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহনকারী সকল নির্বাচনে প্রত্যক্ষভাবে আমু ভাইয়ের নির্দেশনা পালন করেছেন। যার স্বীকৃতি হিসেবে আলহাজ্ব আমির হোসেন আমু গত উপ নির্বাচনে তাকে নাচনমহল ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রতীক নৌকার কান্ডারী  হিসাবে দায়িত্ব দেন এবং তিনি ২৫ জুলাই ২০১৯ তারিখ বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে অল্প সময়ের মধ্যে ইউনিয়নের সকলের কাছে আরও জনপ্রিয় হয়ে উঠেন এবং সকলে পরামর্শ ও সহযোগিতা নিয়ে সুপরিকল্পিতভাবে ব্যাপক উন্নয়ন মূলক কাজ করেন যা চোখে পড়ারমত। এলাকায় সরজমিনে ঘুরে বয়ঃ-বৃদ্ধ, যুবক,শিক্ষিত ও সাধারণ মানুষের কাছে তার ব্যাপক জনসমর্থন লক্ষ্য করা যায়। এ কারণে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নাচনমহল ইউনিয়নের মানুষ তাকে আবারও নৌকার কান্ডারী হয়ে চেয়ারম্যান হিসাবে দেখতে চায়। এ ব্যাপারে মোঃ সেরাজুল ইসলাম সেলিম মোল্লা জানান এলাকার মানুষের পাশে থেকে তাদের সেবক হিসেবে কাজ করতে পেরে আমি নিজেও আনন্দিত এবং তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। ভবিষ্যতে আমাদের রাজনৈতিক অভিভাবক, আস্থার আশ্রায় স্থল আলহাজ্ব আমির হোসেন আমুর যে কোন দায়িত্ব এবং নির্দেশনা আওয়ামীলীগের একজন নিবেদিত কর্মী হিসেবে পালন করবো ইনশাল্লাহ। তিনি নাচনমহল ইউনিয়নবাসীর কাছে দোয়া ও সমর্থন কামনা করেছেন।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট