মোঃ জলিল উদ্দিন হাওলাদার (জলিল শাহ)কে ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী হিসেবে দেখতে চায়

রাজাপুর উপজেলা প্রতিনিধিঃ-ইসমাইল হোসেন ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার ৩নং রাজাপুর  ইউনিয়নের আসন্ন (ইউপি) নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী হিসেবে মোঃ জলিল উদ্দিন হাওলাদার (জলিল শাহ) কে দেখতে চায় এলাকার জনগণ। বারবাকপুর ও রোলা এলাকার ৮নং ওয়ার্ডে নির্বাচনী আমেজ জমে উঠেছে। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে পাড়া মহল্লার সব যায়গায় নির্বাচনী আমেজ দেখা যায়। এবারেরে নির্বাচন অনেকেই ব্যাতির্কম মনে করেন। বএলাকায় দলমত নির্বিশেষে ৮নং ওয়ার্ডের সাধারণ ভোটারদের মুখে এখন পর্যন্ত সমাজ সেবক মোঃ জলিল উদ্দিন হাওলাদার(জলিল শাহ)  নাম উল্লেখযোগ্য ভাবে সকলের মুখে শোনা যায়। এবারের নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ডে বারবাকপুর ও রোলা এলাকায় একাধিক প্রার্থী হবার সম্ভাবনা আছে। তার মধ্যে একজন সৎ যোগ্য মোঃ জলিল উদ্দিন হাওলাদার (জলিল শাহ) কে ৮নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য নির্বাচনে প্রার্থী হিসাবে দেখতে চায় এলাকার জনগণ। গরীব দুঃখী মানুষের বন্ধু,স্থানীয় সমাজ সেবক সৎ যোগ্য ও ত্যাগী এই নেতা কে বারবাকপুর ও রোলা  এলাকার ৮নং ওয়ার্ডের ভোটার সহ এলাকাবাসী জানান এই ৮নং ওয়ার্ডে নির্বাচনে ইউপি সদস্য হিসাবে মোঃ জলিল উদ্দিন হাওলাদার (জলিল শাহ) নির্বাচিত হলে রাস্তাঘাটের উন্নয়ন, কর্মসংস্থান বৃদ্ধি ও মাদক মুক্ত সমাজ গড়ে তুলতে পারবে। এলাকার জনগণ আরও বলেন একজন সৎ, যোগ্য, ত্যাগী, গ্রহণযোগ্য ও দুর্নীতিমুক্ত ব্যক্তিকে ইউপি সদস্য প্রার্থী হিসাবে দেখতে চাই। তাহলেই ৮নং ওয়ার্ডে উন্নয়ন বাস্তবায়িত হবে। এমন আশা প্রকাশ করছেন এলাকার সচেতন জনসাধারণ। তারা বলেন এক কথায় রাজাপুর উপজেলার ঐতিয্যবাহী পরিবারের সন্তান তিনি। তাই আসন্ন ৮নং ওয়ার্ড নির্বাচনে আমাদের প্রাণ প্রিয় নেতা মোঃ জলিল  উদ্দিন হাওলাদার (জলিল শাহ) কে ইউপি সদস্য পদপ্রার্থী হিসেবে দেখতে চাই ৮নং ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনগণ। মো জলিল উদ্দিন হাওলাদার (জলিল শাহ) বলেন আমাকে যদি এলাকাবাসী আসন্ন নির্বাচনে ইউপি সদস্য হিসাবে নির্বাচিত করে তাহলে এলাকার যে সকল অসম্পূর্ণ কাজ বাকি আছে, সেই সকল কাজ আমি সম্পূর্ণ করবো ইনশাআল্লাহ, এবং এই ৮নং ওয়ার্ডের কর্মসংস্থান বৃদ্ধি ও মাদক মুক্ত সমাজ গড়ে তুলবো। আমি চাই আমার ৮নং ওয়ার্ড মানুষের খেদমত করতে বাকিটা আল্লাহ ভারসা

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট