কৃষি মন্ত্রী হিসেবে একটু মনে ব্যাথা পাই :কৃষিমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক

মো. মিজানুর রহমান (মিজান),  দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কৃষিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. মোঃ আবদুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, ধানের দাম বেড়ে গেছে চালের দাম বেশি। রিক্সা চালক, ভ্যান চালক স্বপ্ন আয়ের মানুষ তাদের একটু কষ্ট হচ্ছে। তবে খাবার নিয়ে হাহাকার নেই। কিন্তু আপনারদের একটু কষ্ট হচ্ছে। এজন্য কৃষি মন্ত্রী হিসেবে একটু মনে ব্যাথা পাই।
উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে সোমবার বিকেল ৫টায় দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার সুজালপুর ইউনিয়নের শীতলাই গ্রামে ২০২০-২০২১অর্থ বছরে কৃষিপ্রণোদনা কর্মসূচীর আওতায় বাস্তবায়িত ৫০একর জমিতে সমলয় ব্লকের হাইব্রীড জাতের বোরো ধান চাষীদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে একথা বলেন।
তিনি বলেন, ধানের দাম যদি খুব বেশি হয় তাহলে গরীব মানুষ কষ্ট করে। আবার দাম যদি কমে যায় তাহলে কৃষকেরা আমাদের গালিগালি করে। তাই কৃষিকে আমরা বহুমুখী করণ করে কিভাবে লাভজনক করা যায় এটি আমাদের লক্ষ্য। আমাদের দেশে নানা মুখী ফসল উৎপাদন হয়। আমাদের দেশের উৎপাদিত ফসল যদি রপ্তানী করা যায় তাহলে আমাদের আর অভাব থাকবে না। 
মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মন অনেক উদার। বঙ্গবন্ধুর হৃদয় ছিল আকাশের মতো উদার, সমুদ্রের মতো বিশাল। জননেত্রী তেমন উদার। কৃষকের জন্য তিনি প্রাণান্ত।
ড. আবদুর রাজ্জাক বলেন,বেশির ভাগ মানুষ গ্রামে বাস করে। তাই গ্রামকে উন্নত করতে হবে। গ্রাম যদি উন্নত হবে বাংলাদেশ তত উন্নত হবে।গ্রামীণ মানুষের জীবন যাত্রার মানকে উন্নত করতে হবে। সেই লক্ষ্য নিয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। তার কৌশল তার প্রজ্ঞা দেশের প্রতি তার দেশপ্রেম এটি হলো আমাদের চালিকা শক্তি। প্রধানমন্ত্রী নির্দেশিকায় আমরা চলি বলেই বঙ্গবন্ধুর ক্ষুধা মুক্ত, দারিদ্র মুক্ত একটি সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ে তোলা হবে।
কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, খামার বাড়ী, ঢাকা মহাপরিচালক মোঃ আসাদুল্লাহ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর সদর আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য মাননীয় হুইপ মোঃ ইকবালুর রহিম, দিনাজপুর-০১ (বীরগঞ্জ-কাহারোল) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল,কৃষি মন্ত্রাণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ মেসবাহুল ইসলাম, দিনাজপুর জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকী, দিনাজপুর পুলিশ সুপার মোঃ আনোয়ার হোসেন বিপিএম, পিপিএম (বার), অতিরিক্ত পরিচালক খামার বাড়ী দিনাজপুর তৌহিদুল ইসলাম, বীরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ আমিনুল ইসলাম, সুজালপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মহেশ চন্দ্র রায়, সমলয় উপকার ভোগী কৃষক মোঃ হাবিবুর রহমান প্রমুখ।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ আজিজুল ইমাম চৌধুরী, বীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবদুল কাদের, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আবু রেজা মোঃ আসাদুজ্জামান, বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান, আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক ও কৃষকগণ উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে মন্ত্রী জমিতে সমলয় ব্লকের হাইব্রীড জাতের বোরো ধানের প্রকল্প পরিদর্শন করেন।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট