প্রতিষ্ঠান এমপিও ভুক্তির দাবিতে দ্রুত রাজপথে নামবে ননএমপিও শিক্ষক সমাজ

নিউজ ডেস্কঃ  স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তিতে সকল পর্যায়ে সহনীয় করে দ্রুত আবেদন না নিলে আবারও রাজপথে নামবে শিক্ষক-কর্মচারীরা। এমন মনোভাব তৈরি হচ্ছে মাঠ পর্যায়ের শিক্ষক-কর্মচারীদের মধ্যে। শিক্ষক নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দেরিতে হলেও ২০২১ সালে নীতিমালা প্রকাশ হয়েছে।  সেখানে স্কুল পর্যায়ে সহনীয় হলেও কলেজ পর্যায়ে হয়েছে অধিকতর কঠিন।  যার কারণে কলেজগুলো থেকে এমপিওভুক্ত হতে পারে হাতে গোনা কিছু প্রতিষ্ঠান।
শিক্ষামন্ত্রী বিভিন্ন সময়ের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী এমপিওভুক্তির জন্য আবেদন নেওয়ার কথা।  কিন্তু আদৌ আবেদন নেবেন কিনা বা কবে নিতে পারেন এ নিয়ে সাধারণ শিক্ষকরা ও সংগঠনের নেতৃবৃন্দ হতাশ।শিক্ষামন্ত্রী নীতিমালা সহনীয় করা ছাড়াও স্বল্প সময়ের মধ্যে শিক্ষক নেতাদেরকে প্রধানমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাত করিয়ে দিতে চেয়েছিলেন। দীর্ঘ্ ১৪ মাস পর অসামঞ্জস্যক নীতিমালা প্রকাশ হলেও,আজও অজ্ঞাত কারণে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাত মিলেনি।

এমনকি এমপিওভুক্তিও নিয়ে চলছে সাপ-নেউলের খেলা।এদিকে শিক্ষকদের জীবন অতিষ্ট হয়ে উঠেছে। এমনিতে ১৫/২০ বছর ধরে বিনাবেতনে শিক্ষকতা তার উপর ২০২০ ও ২০২১ সাল করোনার কারণে সবকিছু স্থবির হয়ে পড়েছে। নন এমপিও শিক্ষকদের অনেকে,মিস্ত্রিগিরি, কুলি, দিনমুজুরি করে জীবিকা নির্বাহ করছেন। যা জাতির জন্য লজ্জা জনক।এমন পরিস্থিতিতে গভীর ভাবে লক্ষ করা যাচ্ছে যে,
শিক্ষক কর্মচারীরা জীবন জীবিকার তাগিদে যৌক্তিক অধিকার আদায়ের জন্য আবারও রাজপথে নেমে আসবে। শুধু তাই নয়, তারা প্রয়োজনে জীবনটাও দিতে সদা প্রস্তুত থাকবে।এ রকম কিছু ঘটলে তার দায়দায়িত্ব সরকার কোনোভাবেই এড়াতে পারবে না। সে কারণে সরকারের প্রতি সবিনয় অনুরোধ নন এমপিওদের আর রাজপথে ঠেলে দিবেন না।

তাদের যৌক্তিক দাবী সকলক্ষেত্রে নীতিমালা সহনীয় রেখে দ্রুত আবেদন গ্রহণ করেন।  দীর্ঘদিন বিনা পারিশ্রমিকে জাতির একটা অংশকে শিক্ষা দানে রত থাকা শিক্ষকদের এমপিওভুক্ত করে জাতিকে কলংকমুক্ত করে নতুন দিগন্তের সূচনা করেন।


যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক
নন এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শিক্ষক কর্মচারী ফেডারেশন
কেন্দ্রীয় কমিটি ঢাকা।

তথ্যের উৎসঃ ডেল্টা টাইমস  

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট