বেনাপোলে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ চেষ্টা, অভিযুক্ত পলাতক

জাকির হোসেন, (যশোর) সিমান্ত প্রতিনিধিঃ
যশোরের বেনাপোলে প্রতিবন্ধী সপ্তম শ্রেণীর এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে (১৩) ধর্ষণ চেষ্টায় মান্না (২০) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ধর্ষণ চেষ্টাকারী মান্না পলাতক রয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

রবিবার (০৬ জুন) নির্যাতিত কিশোরীর মা বাদী হয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায়  অভিযোগ দায়ের করেছেন। এর আগে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় ওই কিশোরীকে মান্না তার ফুপুর বাড়িতে নিয়ে গিয়ে মুখ চেপে ধর্ষন চেষ্টা করে।অভিযুক্ত ধর্ষণ চেষ্টাকারী মান্না বেনাপোল পৌরসভার ভবারবেড় গ্রামের সোহারাব গাজীর ছেলে।

নির্যাতিত কিশোরী জানান, ঐদিন আমি পাশের বাড়ির টিউবওয়েলে পানি আনতে গিয়েছিলাম। এসময় প্রতিবেশি মান্না আমাকে কথা আছে বলে ডাক দিয়ে মুখ চেপে ধরে তার ফুফুর ঘরের মধ্যে নিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করে।  এসময় আমি চিৎকার করলে প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসে। এতে মান্না আমাকে  হত্যার হুমকি দিয়ে, কাউকে না বলার জন্য  ভয় দেখিয়ে পালিয়ে যায়। পরে আমি বাড়ি ফিরে মাকে ঘটনা খুলে বললে, মা পুলিশে অভিযোগ দায়ের করে।

ভুক্তভোগী কিশোরীর মা বলেন, আমরা দিন মজুর পরিবার। অনেক কষ্টে প্রতিবন্ধী  মেয়েকে লেখাপড়া করাচ্ছি। আর মান্না আমার মেয়েকে জোর পূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করেছে। এখন হুমকি ধামকি দিচ্ছে। এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিরা বিচারের আশ্বাস দিয়েও বিচার না করায় থানায় অভিযোগ করেছি। 

বেনাপোল পোর্টথানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) সোহেল হোসেন জানান, এঘটনায় থানায় ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ দায়ের হয়েছে।  লিখিত অভিযোগ পেয়ে রবিবার দুপুরে  অভিযুক্ত ছেলে ও ভুক্তভোগী মেয়ের বাড়িতে গিয়েছিলাম। কিন্তু ছেলেটি ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে।

শেয়ার করুন

প্রকাশকঃ

অফিসঃ হাজী সিরাজুল ইসলাম সুপার মার্কেট, মোহাম্মদপুর মোড়, ছুটিপুর রোড, ঝিকরগাছা, যশোর।

পূর্ববর্তী প্রকাশনা
পরবর্তী প্রকাশনা