অফিসের লাইনম্যানের মেয়ের মৃত্যু, অবহেলার অভিযোগ এজিএম কমের বিরুদ্ধে

তানভীর আহমেদ, মেহেরপুর জেলা প্রতিনিধিঃ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার পল্লী বিদ্যুতের বামন্দি সাব জোনাল অফিসের লাইনম্যান আমজাদ হোসেনের মেয়ে আখি খাতুন (২৮) এর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে কুষ্টিয়া সরকারী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। আমজাদ হোসেন কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর উপজেলার বারইপাড়া ইউনিয়নের বাসিন্দা। 
এঘটনায় পল্লী বিদ্যুতের বামন্দি সাব জোনাল অফিসের এজিএম কমের কাছে বার ছুটির আবেদন করলেও ছুটি না পাওয়ার অভিযোগ তুলেছে লাইনম্যান আমজাদ হোসেন।

লাইনম্যান আমজাদ হোসেন জানান, আমার মেয়ে বেশ কিছুদিন যাবৎ পেটের অসুখে ভুগছিল। কম স্যারের কাছে বার বার ছুটির আবেদন করলেও তিনি ছুটি দিতে চান না। এর আগে জিএম স্যারকে বলে ছুটি নিয়েছিলাম। তিনি খুব ভাল মানুষ। আমার মেয়ের শারিরীক অবস্থার অবনতির দিকে গেলে সপ্তাহ খানেক আগে রাজশাহী মেডিকেলে ভর্তি করানো হয়। এবারও বার বার ছুটির কথা বললে কম স্যার ছুটি দিতে চায় না। পরে বুধবার রাত ৮ টা থেকে বৃহস্পতিবার বেলা ১২টা পর্যন্ত ডিউটি করিয়ে নিয়ে ছুটি দেয়। এরই মধ্যে আমার মেয়েকে রাজশাহী থেকে নিয়ে এসে কুষ্টিয়ায় ভর্তি করানো হয়। আমি বুধবার বেলা ১২টার দিকে ডিউটি শেষ করে কুষ্টিয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দিই। সন্ধ্যা ৬টার দিকে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আমার মেয়ের মৃত্যু হয়। 
পল্লী বিদ্যুতের বামন্দি সাব জোনাল অফিসের এজিএম কম শামীম রেজা জানান, করনা কালীন সময়ে স্টাফদের ছুটির বিষয়ে সরকারী নিষেধাজ্ঞা ছিল। তারপরেও জিএম স্যারের সাথে কথা বলে তাকে ছুটি দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন

প্রকাশকঃ

অফিসঃ হাজী সিরাজুল ইসলাম সুপার মার্কেট, মোহাম্মদপুর মোড়, ছুটিপুর রোড, ঝিকরগাছা, যশোর।

পূর্ববর্তী প্রকাশনা
পরবর্তী প্রকাশনা