টাংগাইলে নৌকা প্রতিকের নির্বাচনী গণসংযোগ করলেন নাগরপুর আওয়ামীলীগ নেতা

টাংগাইলে নৌকা প্রতিকের নির্বাচনী গণসংযোগ করলেন নাগরপুর আওয়ামীলীগ নেতা

ডা.এম.এ.মান্নান, টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:আসন্ন টাংগাইল পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনিত মেয়র পদপ্রার্থী এস.এম সিরাজুল হক(আলমগীর)এর নৌকা প্রতিকের পক্ষে ব্যাপক নির্বাচনী প্রচারণা ও গণসংযোগ করলেন নাগরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ এর বিপ্লবী সাংগঠনিক সম্পাদক, সাবেক তুখোর ছাত্রনেতা, বিশিষ্ট সমাজসেবক জননেতা মো.জাহিদুল হাসান জাহিদ।
আজ বৃহস্পতিবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রি.সারাদিন ব্যাপি টাংগাইল পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে আওয়ামীলীগ নেতা মো.জাহিদুল হাসান জাহিদের নেত্বত্বে বিপুল সংখ্যক নেতা কর্মী নিয়ে মেয়র পদপ্রার্থী এস.এম সিরাজুল হক(আলমগীর)এর নৌকা প্রতিকের সমর্থনে নৌকা প্রতিকের হ্যান্ডবিল নিয়ে প্রচারণা ও গণসংযোগ করেন।

নির্বাচনী প্রচারণা ও গণসংযোগে আরও উপস্হিতি ছিলেন নাগরপুর উপজেলা শাখার বিভিন্ন ইউনিটের  আওয়ামীলীগ,ছাত্রলীগ,যুবলীগ ও শ্রমিক লীগের নেত্ববৃন্দ।

আশ্রয়ণ প্রকল্পের কাজের মান নিয়ে সংবাদ সংগ্রহে গিয়ে চেয়ারম্যান কর্তৃক সাংবাদিক লাঞ্ছিত

আশ্রয়ণ প্রকল্পের কাজের মান নিয়ে সংবাদ সংগ্রহে গিয়ে চেয়ারম্যান কর্তৃক সাংবাদিক লাঞ্ছিত

এস.এম অলিউল্লাহ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃমুজিব বর্ষে প্রধানমন্ত্রী দেয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের মাধ্যমে দেশব্যাপী ৭০ হাজার পরিবারের জমিসহ ঘর তৈরি করে দিচ্ছেন সরকার।

তারই অংশ হিসেবে নবীনগর উপজেলার বড়িকান্দি ইউনিয়নে ৯০ পরিবারের জন্য ইউনিয়নের নুরজাহান পুর গ্রামে গৃহ নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস ও উপজেলা প্রশাসন।

এ সংক্রান্ত সরেজমিনে কাজের গুনগত মান তুলে ধরতে বার্তা বাজার ডটকম প্রতিনিধি আক্তারোজ্জান প্রকল্পের স্থানে গিয়ে অনিয়ম দুর্নীতি পরিলক্ষিত হলে সে তার মোবাইলে তা ধারণ করেন।

পরের দিন ঘটনাস্থলে আরো কিছু তথ্য সংগ্রহ করতে  তিনি পৌঁছানো মাত্রই ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার পারভেজ হারুত ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা চড়াও হয়   সাংবাদিকের উপর।
তাকে শারীরিক ভাবে লাঞ্ছিত করেন চেয়ারম্যান সহ তার সাঙ্গপাঙ্গরা।
পরে স্থানীয়দের সহায়তায় কোন রকম প্রাণ নিয়ে ফিরে আসেন আক্তারুজ্জামান।

এ বিষয়ে প্রকল্পের সুপার ভিশন কর্মকর্তা ইঞ্জিনিয়ার মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,আগের দিন অনিয়মের বিষয়টি শুনে তা ভেঙে পূনরায় কাজ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ একরামুল ছিদ্দিক বলেন,চেয়ারম্যান একজন সাংবাদিক এর গায়ে হাত দিতে পারে না।
মাননীয় সংসদ সদস্য বিষয়টি শুনেছেন।
আমরা দ্রুত এই বিষয়ে কার্যকরী একটা ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মাদক মুক্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া চাই'র উদ্যোগে কান টুপি বিতরণ

মাদক মুক্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া চাই'র উদ্যোগে  কান টুপি বিতরণ

এস.এম অলিউল্লাহ স্টাফ রিপোর্টারঃমানুষ মানুষের জন্য " এই প্রতিবাদ্যকে সামনে নিয়ে আজ ২৮ শে জানুয়ারি বৃহস্পতিবার বিকালে মাদক বিরুধী  সামাজিক সংগঠন"
 মাদক মুক্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া চাই'র উদ্যোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কাউতলি ও পৌর মুক্ত মঞ্চের সামনে শীতের তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় অটোবাইক চালক পথচারী ও রিস্কাচালকদের মাঝে ২৫০ পিছ কান টুপি  বিতরণ করেন সংগঠনের সদস্যরা ।  

উক্ত সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও  সভাপতি -মোঃ মাহফুজুর রহমান পুষ্পের নেতৃত্বে সংগঠনের সদস্যরা এই মানবিক কার্যক্রমে অংশ নেয়।  এই সময় উপস্থিত ছিলেন এডভোকেট রানা, সংগঠনের সহ সভাপতি মাওঃ মোঃ ফরহাদ হোসাইন,  সাধারণ সম্পাদক - মোঃ শাহ আলম, সহ সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল হাসান তপু, দপ্তর সম্পাদক- মোঃ রফিকুল ইসলাম, কোষাদক্ষ জুনাঈদ মুহাম্মদ, ক্রীড়া সম্পাদক- এইচ এ এরশাদ, সদস্য - জান্নাতুল ফেরদৌস জুথি, নিয়ামত রহমান, মাসউদ রহমান, প্রমুখ।

এ সময় সংগঠনের সভাপতি  -মোঃ মাহফুজুর রহমান পুষ্প  বলেন  মাদক মুক্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া চাই সংগঠন মাদকের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি স্থানীয় ও জাতীয় যে কোন দূর্যোগ মোকাবিলায় দেশ ও মানুষের পাশে সব সময় ছিল আগামীতে ও থাকবে।
যেখানই দুর্যোগ-দুর্ভোগ আসবে, মাদক মুক্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া চাই'র সদস্যরা সেখানেই মানুষের পাশে থাকবে। এ সময় সমাজের বিভিন্ন স্থরের মানুষের সাথে  মাদকের ক্ষতিকর দিক নিয়ে আলোচনা করেন ।  
এবং মাদক থেকে দূরে থাকার আহবান জানান 
 পরে ব্রেন ষ্ট্রোকে আক্রান্ত যতীন্দ্র সূত্রধর এর শারীরিক খোজ খবর নিতে সংগঠনের সদস্যরা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে যান, এবং তার ছেলে রাজীব সূত্রধর এর কথা বলে চিকিৎসা জন্য আর্থিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

সাতক্ষীরা সদরের শাল্যে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে সুরক্ষা কমিটি গঠন

সাতক্ষীরা সদরের শাল্যে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে সুরক্ষা কমিটি গঠন

আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃনারী ও শিশুর প্রতি সকল প্রকার নির্যাতন প্রতিরোধে পুরুষ এবং কিশোরদের অংশ গ্রহণে ইউনিয়ন পর্যায়ে সুরক্ষা কমিটি গঠন করা হয়েছে। 

বুধবার ব্র্যাক এর আয়োজনে, সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ব্রক্ষরাজপুর ইউনিয়ন এর ১ নং ওয়ার্ডের শাল্যে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে আলমগীর হোসেন এর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অথিতি হিসেবে উপস্থিত  ছিলেন ড. উজ্জল কুবি, বিভাগীয় কর্মকর্তা (ব্রাক,) আরো উপস্থিত ছিলেন মোঃ শরিফুল ইসলাম, (ব্রেকিং দ্যা সাইল্যান্স,) আঃ মান্নান, সংবাদিক রেজাউল ইসলামসহ ইউনিয়ানের গন্য-মান্য ব্যক্তি-বর্গ।

চসিক নির্বাচনে কাউন্সিলর হলেন যারা

চসিক নির্বাচনে কাউন্সিলর হলেন যারা

হাসান রিফাত চট্টগ্রামপ্রতিনিধিঃ ১নং দক্ষিণ পাহাড়তলী: আওয়ামী লীগের গাজী মো. শফিউল আজিম (ঘুড়ি)
২নং জালালাবাদ ওয়ার্ড: বিদ্রোহী মো. সাহেদ ইকবাল বাবু (ঝুড়ি)
৩নং পাঁচলাইশ: বিদ্রোহী প্রার্থী মো. শফিকুল ইসলাম (মিষ্টি কুমড়া)
৪নং চান্দগাঁও: বিদ্রোহী প্রার্থী মো. এসরারুল হক (ঘুড়ি)
৫নং মোহরা: আওয়ামী লীগের মোহাম্মদ কাজী নুরুল আমিন মামুন (ঘুড়ি)
৬নং পূর্ব ষোলশহর: আওয়ামী লীগের এম আশরাফুল আলম (ঘুড়ি)
৭নং পশ্চিম ষোলশহর: আওয়ামী লীগের মো. মোবারক আলী (টিফিন ক্যারিয়ার)
৮নং শুলকবহর: আওয়ামী লীগের মো. মোরশেদ আলম (লাটিম)
৯নং পাহাড়তলী: বিদ্রোহী প্রার্থী মোহাম্মদ জহুরুল আলম জসিম (মিষ্টি কুমড়া)
১০নং উত্তর কাট্টলী: আওয়ামী লীগের নিছার উদ্দিন আহমেদ (মিষ্টি কুমড়া)
১১নং দক্ষিণ কাট্টলী: আওয়ামী লীগের মো. ইসমাইল (টিফিন ক্যারিয়ার)
১২নং সরাইপাড়া: আওয়ামী লীগের মো. নুরুল আমিন (রেডিও)
১৩নং পাহাড়তলী: আওয়ামী লীগের মো. ওয়াসিম উদ্দিন চৌধুরী (লাটিম)
১৪নং লালখান বাজার: আওয়ামী লীগের আবুল হাসনাত মো. বেলাল (ঘুড়ি)
১৫নং বাগমনিরাম: আওয়ামী লীগের মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দীন (ঘুড়ি)
১৬নং চকবাজার: আওয়ামী লীগের সাইয়েদ গোলাম হায়দার মিন্টু(ব্যাডমিন্টন র‌্যাকেট)
১৭নং পশ্চিম বাকলিয়া: আওয়ামী লীগের এ মোহাম্মদ শহিদুল আলম (ঘুড়ি)
১৮নং পূর্ব বাকলিয়া: বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন মোহাম্মদ হারুন অর রশিদ।
১৯নং দক্ষিণ বাকলিয়া: আওয়ামী লীগের মো. নুরুল আলম (মিষ্টি কুমড়া)
২০নং দেওয়ান বাজার: আওয়ামী লীগের চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী (ঠেলাগাড়ি)
২১নং জামালখান: আওয়ামী লীগের শৈবাল দাশ সুমন (ঠেলাগাড়ি)
২২নং এনায়েত বাজার: আওয়ামী লীগের মোহাম্মদ সলিম উল্লাহ বাচ্চু(ঘুড়ি)
২৩নং উত্তর পাঠানটুলী: আওয়ামী লীগের মোহাম্মদ জাবেদ (মিষ্টি কুমড়া)
২৪নং উত্তর আগ্রাবাদ: আওয়ামী লীগের নাজমুল হক ডিউক (ঠেলাগাড়ি)
২৫নং রামপুরা: আওয়ামী লীগ সমর্থিত আব্দুস সবুর লিটন(টিফিন ক্যারিয়ার)
২৬নং উত্তর হালিশহর: আওয়ামী লীগের মোহাম্মদ হোসেন (ঠেলাগাড়ি)
২৭নং দক্ষিণ আগ্রাবাদ: মো. শেখ জাফরুল হায়দার চৌধুরী(লাটিম)
২৮নং পাঠানটুলী: আওয়ামী লীগের নজরুল ইসলাম বাহাদুর (রেডিও)
২৯নং পশ্চিম মাদারবাড়ি: আওয়ামী লীগের গোলাম মোহাম্মদ জোবায়ের (রেডিও)
৩০নং পূর্ব মাদারবাড়ি: আওয়ামী লীগের আতাউল্লাহ চৌধুরী(ঘুড়ি)
৩১নং আলকরণ: কাউন্সিলর প্রার্থী তারেক সোলেমান সেলিমের মৃত্যুতে নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। নতুন তফসিল অনুযায়ী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি।
৩২নং আন্দরকিল্লা: আওয়ামী লীগ সমর্থিত জহর লাল হাজারী (মিষ্টি কুমড়া)
৩৩নং ফিরিঙ্গি বাজার: বিদ্রোহী প্রার্থী হাসান মুরাদ বিপ্লব (মিষ্টি কুমড়া)
৩৪নং পাথরঘাটা: আওয়ামী লীগের পুলক খাস্তগীর (ঠেলাগাড়ি)
৩৫নং বক্সিরহাট: আওয়ামী লীগের হাজী নুরুল হক (ঘুড়ি)
৩৬নং গোসাইলডাঙ্গা: বিদ্রোহী প্রার্থী মো. মোর্শেদ আলী।
৩৭নং মুনিররগর: আওয়ামী লীগের মোহাম্মদ আবদুল মান্নান (ঠেলাগাড়ি)
৩৮নং দক্ষিণ মধ্যম হালিশহর: আওয়ামী লীগের গোলাম মো. চৌধুরী (ঠেলাগাড়ি)
৩৯নং দক্ষিণ হালিশহর: আওয়ামী লীগের জিয়াউল হক সুমন(লাটিম)
৪০নং উত্তর পতেঙ্গা: আওয়ামী লীগের আবদুল বারেক(ঠেলাগাড়ি)
৪১নং দক্ষিণ পতেঙ্গা: আওয়ামী লীগের ছালেহ আহম্মেদ চৌধুরী (ঘুড়ি)।

র‍্যাব- ৬ এর অভিযানে লোহাগড়ায় গাজা ও ইয়াবা সহ আটক এক

র‍্যাব- ৬ এর অভিযানে লোহাগড়ায় গাজা ও ইয়াবা সহ আটক এক

মো: আজিজুর বিশ্বাস,স্টাফ রিপোর্টার নড়াইল।।      র‌্যাব-৬,(স্পেশাল কোম্পানী)খুলনার একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারেন যে, নড়াইল জেলার লোহাগড়া থানাধীন আলামুন্সির মোড় আগমনী ট্রান্সপোর্ট এন্ড কার্গো সার্ভিস লিঃ অফিস কক্ষের সামনে কতিপয় ব্যক্তি মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশ্য অবস্থান করছে। এরুপ প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে আভিযানিক দলটি গত ২৭ জানুয়ারী ২০২১ খ্রিঃ রাতে উক্ত স্থানে অভিযান পরিচালানা করে নাজমুল হোসেন(২৫),পিতা-মোঃ ছবোর ফকির, মাতা-মোছাঃ ঝর্ণা বেগম, সাং-তামারহাজী, থানা-বোয়ালমারী, জেলা-ফরিদপুরকে ৪.২০০ কেজি,৮০পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করে।   গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে নড়াইল জেলার লোহাগড়া থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা রুজু প্রক্রিয়াধীন।

আশাশুনিতে কোষ্টগার্ডের অভিযানে অবৈধ ৪৪ জাল আটক করে আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট

আশাশুনিতে কোষ্টগার্ডের অভিযানে অবৈধ ৪৪ জাল আটক করে আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট

আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধিঃ আশাশুনিতে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর কোষ্টগার্ড ও উপজেলা মৎস্য দপ্তরের যৌথ উদ্দ্যোগে নদীতে অভিযান চালিয়ে অবৈধ ছোট মাছ ধরা জাল আটক করে আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট কার হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা সদর থেকে প্রতাপনগর ইউনিয়ন এলাকায় খোলপেটুয়া নদীতে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ওয়ারেন্ট অফিসার হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্সসহ উপজেলা মৎস্য অফিসের সহযোগীতায় মৎস্য সংরক্ষনে বিশেষ কাম্বিক অভিযান ২০২১ পরিচালনা করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সিনিয়র মৎস্য অফিসার সৈকত মল্লিক, সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমানসহ কোষ্টগার্ডের সদস্যবৃন্দ। অভিযানে খোলপেটুয়া নদী থেকে অবৈধভাবে বিভিন্ন প্রজাতীর সামদ্রিক মাছের পোনা ধরা ১২টি বেহুন্দি জাল, ৩০টি নেট জাল ও ২টি জগত বেড় জাল আটক করে মানিকখালী ব্রীজ সংলগ্ন পুরাতন খেয়াঘাটে নেয়া হয়। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা ভ্রাম্যমান আদালত পরচালনা করে বিভিন্ন প্রকারের মোট ৪৪টি জাল আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়। উল্লেখ্য, ইতোপূর্বে কয়েকবার অবৈধভাবে মাছ ধরা জাল নদীতে না ধরার জন্য সরকারি বিধিনিষেধ মোতাবেক মাইকিং ও ভ্রাম্যমান আদালতে আটক করা হলে গোপনে কোরনা কালিন কোন ব্যবসা বা কর্ম না থাকায় জেলেরা অভাবের তাড়নায় জাল ধরা বন্ধ করছেন না। এ ব্যাপরে ভূক্তভোগী জেলেরা প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।

কালীগঞ্জ উপজেলার রাখালগাছী ইউনিয়নে ভিজিডি কার্ড ও সঞ্চয় ফেরত অনুষ্ঠান

কালীগঞ্জ উপজেলার রাখালগাছী ইউনিয়নে ভিজিডি কার্ড ও সঞ্চয় ফেরত অনুষ্ঠান

খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধানঃআজ কালীগঞ্জের  রাখালগাছি ইউনিয়ন পরিষদে দুঃস্থ মহিলা উন্নয়ন (ভিজিডি) কর্মসূচির আওতায় ২০২১-২০২২ চক্রের উপকারভোগীদের মাঝে ভিজিডি কার্ড বিতরণ এবং ২০১৯-২০২০ চক্রের উপকারভোগীদের সঞ্চয় ফেরত প্রদান অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করা হয়। এসময় নতুন ভিজিডি উপকারভোগীদের মাঝে খাদ্যশস্য বিতরণ করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে জনাব সূবর্ণা রাণী সাহা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, কালীগঞ্জ, ঝিনাইদহ, উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মুন্সী ফিরোজা আক্তার, রাখালগাছি ইউপি চেয়ারম্যান জনাব মোঃ মহিদুল ইসলাম মন্টু এবং বিভিন্ন ওয়ার্ডের সদস্যবৃন্দ ও উপকারভোগীগণ উপস্থিত ছিলেন।

আশাশুনির সাতক্ষীরা-চাপড়া সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত-১ ও আহত-২

আশাশুনির সাতক্ষীরা-চাপড়া সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত-১ ও আহত-২

আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃসাতক্ষীরা টু চাপড়া সড়কে মটর সাইকেল দূর্ঘটনায় একজন নিহত ও দু'জন গুরুতর আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার ভোরে উপজেলা কুল্যা ইউনিয়নের সিমান্তবর্তী কুলতিয়া মোড়ে এলাকায়। প্রতক্ষদর্শী সূত্রে জানাগেছে, তালা উপজেলার হরিহরনগর গ্রামের তাজ উদ্দীনের যোমজ দু'পুত্র রাজা (১৮) ও রাজ (১৮) কুল্যার কুলতিয়া মামা ফিরোজ আহম্মেদ জজের বাড়ীতে অবস্থান করে একাদশ শ্রেনীতে লেখা পড়া করে আসছে। ঘটনার সময় দু'ভাই ও তাদের বন্ধু বুধহাটা ইউনিয়নের শ্বেতপুর গ্রামের এশার আলীর পুত্র ইদ্রিসকে সাথে নিয়ে পিকনিকে যাওয়ার উদ্দেশ্যে মোটর সাইকেল যোগে চঁাদপুর দুরপাল্লার বাসে উঠার জন্য রওনা হয়। পথিমধ্যে সাতক্ষীরা-চাপড়া মেইন সড়কের কুলতিয়া-চাঁদপুরের মধ্যবর্তী সিমান্ত এলাকায় মোটর সাইকেলের নিয়ন্ত্রন হারিয়ে পাশে গাছের সাথে ধাক্কা খায়। এতে বড় ভাই মটর সাইকেল আরোহী রাজা ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। ছোট ভাই রাজ ও তার বন্ধু ইদ্রিস গুরুতর আহত হয়। পার্শ্ববর্তী লোকজন তাদের উদ্ধার করে আহত দ্বয়কে মুমুর্ষ অবস্থায় দ্রুত সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। উল্লেখ্য, নিহত রাজার পিতা-মাতা দু'জনই এ রিপোর্ট লেখার সময় চিকিৎসার জন্য ভারতে রয়েছেন। রাজার মামার বাড়ী জানাযা শেষে তার গ্রামের বাড়ী নিয়েছে বলে নিহতের পরিবার সূত্রে জানাগেছে। 

আশাশুনিতে আওয়ামীলীগ অফিস উদ্বোধন ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান

আশাশুনিতে আওয়ামীলীগ অফিস উদ্বোধন ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান

আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি  প্রতিনিধিঃ   আশাশুনিতে আওয়ামীলীগ অফিস উদ্বোধন ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার কাদাকাটি ইউনিয়নের ব্রাহ্মণ তেঁতুলিয়া আশ্রয়ণ প্রকল্পের পাশে ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ অফিস উদ্বোধন ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি  উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম সদ্য ঘোষিত জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মনোনীত হযওয়ায় সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। সংবর্ধিত প্রধান অতিথির বক্তব্যে এবিএম মোস্তাকিম বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ক্ষুধামুক্ত দারিদ্র্যমুক্ত অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনির্মাণে, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার গৃহীত পদক্ষেপ ভিশন ২০২১ ও রূপকল্প ২০৪১ সালে বাংলাদেশে উন্নত সমৃদ্ধশালি দেশে পরিণত হবে।সেই ভিশন বাস্তবায়ন করার লক্ষ্যে তৃণমূলের নেতাকর্মীদেট ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। তিনি আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে উপজেলার ১১ টি ইউনিয়নের নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে বিজয়ী করার লক্ষ্যে ঐক্যবদ্ধভাবে নেতাকর্মীদের কাজ করার আহ্বান জানান। ইউপি সদস্য আইয়ুব হোসেন এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, কাদাকাটি ইউপি চেয়ারম্যান দীপঙ্কর দ্বীপ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সামাদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক জগদীশ চন্দ্র সানা, কাটাকাটি ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি এফ আর এম আসিফ ইকবাল রিপোন, বড়দল ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি সোহরাব হোসেন মোড়ল। তালবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অরবিন্দ কুমার, ইউপি সদস্য রমজান আলী মোড়ল সহ ইউপি সদস্য বৃন্দ, ইউপি সদস্য প্রার্থী মোঃ জাহাঙ্গীর মোড়ল প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন সাংবাদিক এম এম সাহেব আলী।

করোনা দুর্যোগে শিক্ষার্থীদের আংশিক মেস ভাড়া দিল নোবিপ্রবি

করোনা দুর্যোগে শিক্ষার্থীদের আংশিক মেস ভাড়া দিল নোবিপ্রবি

নোবিপ্রবি প্রতিনিধিঃকরোনা ভাইরাস(কভিড-১৯) দুর্যোগে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়া (আংশিক)সমস্যার সমাধান করে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রদত্ত ভাড়া বাসা মালিকের নিকট হস্তান্তর ও সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষর অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

আজ বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের  উপাচার্যের দপ্তরে  অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের  উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো.দিদার-উল-আলম, বিশেষ অতিথি ছিলেন কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ফারুক উদ্দিন।  অন্যদের মাঝে আরো উপস্থিত ছিলেন প্রক্টর অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর, মেস ভাড়া সমস্যার সমাধানের লক্ষ্যে গঠিত কমিটির আহ্বায়ক ও কৃষি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মেহেদি হাসান রুবেল,  সদস্য ও আইন বিভাগের চেয়ারম্যান বাদশা মিয়া, আরেক সদস্য ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. আল-আমিন প্রমুখ। 

সমঝোতা স্মারকে (এমওইউ) নোবিপ্রবির পক্ষে স্বাক্ষর করেন রেজিস্ট্রার  অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেন। নোয়াখালী জেলা প্রশাসক পক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( শিক্ষা ও আইসিটি) মো. নোমান হোসেন, বাসা মালিক প্রতিনিধির পক্ষে আশরাফুল আলম সোহেল এবং শিক্ষার্থীদের পক্ষে জাহাঙ্গীর আলম স্বাক্ষর করেন।

কর্মচারীদের ৪০ মাসের বেতন বকেয়া রেখে নির্বাচনে কোটচাঁদপুর পৌরসভার বর্তমান মেয়র

কর্মচারীদের ৪০ মাসের বেতন বকেয়া রেখে নির্বাচনে কোটচাঁদপুর পৌরসভার  বর্তমান মেয়র


সম্রাট হোসেন,ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃকর্মচারীদের ৪০ মাসের বেতন বকেয়া রেখে নির্বাচনে বর্তমান মেয়র
চরম আর্থিক সঙ্কটে পড়েছে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। পৌরসভার কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বেতন ভাতা বকেয়া রয়েছে ২৫ থেকে ৪০ মাসের বেতন। এমন অবস্থায় কিছু ফান্ড থাকা সত্ত্বেও কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কোটি কোটি টাকা বেতন ভাতা বাকি রেখে নির্বাচন করছেন বর্তমান মেয়র জাহিদুল ইসলাম জিরে। ফলে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে পৌরসভার ৬৫ জন স্থায়ী ও অস্থায়ী কর্মকর্তা-কর্মচারী।

১৮৮৩ সালে প্রতিষ্ঠিত এক সময়ের ছোট কলকাতা খ্যাত এ পৌরসভায় স্থায়ী ৩৩ জন ও অস্থায়ী ৩২ জন কর্মকর্তা কর্মচারী রয়েছেন। এদের প্রতিমাসে বেতন ভাতা বাবদ ব্যয় হয় ১৩ লক্ষাধীক টাকার মতো। কিন্তু প্রতিমাসে এর থেকে বেশি বা সমপরিমাণ আয় করে প্রাচীন এ পৌরসভাটি।

আগামী ৩০ জানুয়ারি তৃতীয় ধাপে পৌরসভাটির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে নারিকেল গাছ প্রতীক নিয়ে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে লড়ছেন বর্তমান মেয়র জাহিদুল ইসলাম জাহিদ ওরফে জিরে।

পৌরসভাটিতে মোট ভোটার সংখ্যা ২৭ হাজার ৪৯৩। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ১৩ হাজার ৪৮৫ জন এবং মহিলা ভোটার ১৪ হাজার আটজন। নয়টি ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্র রয়েছে ১৪টি।
সরেজমিন দেখা গেছে, পৌরসভায় সেবার মান নেই। রাস্তার দুরাবস্থা চরমে। বেশির ভাগ পাড়ায় পানি সরবরাহ নেই। রাতে অধিকাংশ সড়কে বাতি জ্বলে না। নেই উন্নতমানের ড্রেনেজ ব্যবস্থা। তারপরও নাগরিকরা নিয়মিতই ট্যাক্স দিচ্ছেন, যা থেকে পৌরসভাটির মাসিক আয় হচ্ছে অন্তত ১৫ লাখ টাকার মতো। সাথে সরকারি বিভিন্ন অনুদান তো রয়েছেই। ফলে চরম অস্থির অবস্থায় বিরাজ করছে। বেতন না পেয়ে মানবেতন জীবন যাপন করছেন কর্মচারীরা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কোটচাদপুর পৌরসভার এক কর্মকর্তা জানান, আমাদের মাসিক আয় ১৫ লক্ষাধীন টাকা, সাথে সরকারি অনুদান আসে বিভিন্ন সময়। আর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন বাবদ লাগে প্রায় ১৩ লাখ টাকা। এমন অবস্থায় আমাদের বেতন বকেয়া থাকার কথা নয়। কিন্তু মেয়র সাহেব এমন কেন করছেন জানি না। ইতোপূর্বের কোনো মেয়রের সময় এত খারাপ পরিবেশ হয়নি।

পৌরসভার প্যানেল মেয়র আনোয়ারুল ইসলাম সেন্টু জানান, বেতন বকেয়া অনেক আছে। আসলে মেয়র আর সচিবের কাছে আমরা অসহায়। ওয়ার্ডের কাজের জন্য টাকা চাইতে গেলেও দিনের পর দিন ঘুরতে হয়। মাঝে মাঝে মাসও কেটে যায়। যা করেন মেয়র জাহিদ সাহেব ও সচিব মিলেই করেন। কেন তারা বেতন-ভাতা বকেয়া রেখেছেন তা বলার সাধ্য আমার নেই।

মেয়র প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র জাহিদুল ইসলাম কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা বকেয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে জাগো নিউজকে জানান, এরকম বেতন ভাতা বাকি দেশের প্রায় সব পৌরসভায় রয়েছে। দু'দিন পরেই ভোট এখন এমন তথ্য প্রকাশ না করাই ভালো।
এদিকে ধানের শীষ প্রতীকের মেয়র প্রার্থী ও সাবেক মেয়র সালাউদ্দিন বুলবুল সিডল জানান, আমি যখন ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে কোটচাদপুর পৌরসভার দায়িত্ব হস্তান্তর করি তখন ফান্ড ছিল সব মিলিয়ে ১ কোটি টাকার মতো। সে অবস্থা থেকে কেন এমনটি হলো তা আমি বলতে পারব না।

কিশোরগঞ্জ মহিলা সংরক্ষিত আসন বিন্ন্যাস না করার প্রতিবাদে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

কিশোরগঞ্জ মহিলা সংরক্ষিত আসন বিন্ন্যাস  না করার প্রতিবাদে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

মোঃ লাতিফুল আজম,নীলফামারী  প্রতিনিধিঃ নীলফামারী কিশোরগঞ্জ উপজেলাধীন ৮নং গাড়াগ্রাম ইউনিয়নের সাবেক ৩ নং ওয়ার্ড যা বর্তমান ৬ ,৮ ও ৯  ন়ং ওয়ার্ড নিয়ে সংরক্ষিত মহিলা আসন নতুন করে সাবেক ৩  নং ওয়ার্ড (৬,৮ ও ৯) কে বিন্যাস না করার প্রতিবাদে  বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন এলাকাবাসি ।  এ ব্যাপারে এলাকাবাসী একটি যৌথ স্বাক্ষরিত লিখিত অভিযোগ, প্রধান নির্বাচন কমিশনার ,সচিবালয় বরাবর প্রেরণ করেছেন। বৃহস্পতিবার সকালে গাড়াগ্রাম ইউনিয়নের পুরাতন টেপার হাট ও গণেশের বাজারে সাবেক ৩ নং ওয়ার্ডের জনগণ এ বিক্ষোভ করেন ।  এ সময় বিক্ষোভে অংশগ্রহণকারী সামাদ মহব্বত, শেফালী বলেন ,সংরক্ষিত মহিলা আসন ৬,৮ ও ৯নং ওয়ার্ড ঠিক রেখে পূর্বের ন্যায় ইউপি নির্বাচন করার জন্য জোড় দাবি জানাচ্ছি। ওই সংরক্ষিত মহিলা  ওয়ার্ডের  সদস্যা হাসিনা বেগম  জানান ,সরকারি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে নিকটবর্তী ওয়ার্ড নিয়ে সংরক্ষিত মহিলা আসন  গঠন করা হয , ইতোমধ্যে  দূরবর্তী  ওয়ার্ড নিয়ে নতুন করে ওয়ার্ড বিন্যাসের নামে কতিপয় লোক স্বার্থসিদ্ধি হাসিলের জন্য  এলাকায় বৈষম্য সৃষ্টি করার জন্য পাঁয়তারা করতেছে ।অপর দিকে  ওয়ার্ড বিভক্ত করা হলে এ এলাকার সাধারণ মানুষ সরকারি নানা সেবা থেকে বঞ্চিত হবে। ইউনিয়ন পর্যায়ের সেবা পেতে হয়রানি হবে।  ওয়ার্ড বিভক্তির নামে বৈষম্য সৃষ্টি  না করে বর্তমানে ৬,৮ ও ৯ সংরক্ষিত মহিলা আসন পূর্বের ন্যায় ঠিক রেখে ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হোক এ মর্মে আমি জোর দাবি জানাচ্ছি । গাড়াগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান মারুফ হোসেন অন্তিক জানান, ওয়ার্ড বিন্যাস করলে জনগণের ভোগান্তি বাড়বে । এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রোকসানা বেগম জানান, উক্ত অভিযোগ তদন্ত করে, তদন্ত প্রতিবেদন জেলা প্রশাসক বরাবর পাঠানো হয়েছে।

কাঠালিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের নামে চারলাখ টাকা জরিমানা, ২লাখ টাকা লোপাট

কাঠালিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের নামে চারলাখ টাকা জরিমানা, ২লাখ টাকা লোপাট

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন স্টাফ রিপোর্টারঃঝালকাঠির কাঠালিয়ার সহকারী কমিশনার ভূমি সুমিত সাহা মেসার্স ত্বহা ব্রিকস ফিল্ডে 'নানা অনিয়মের অজুহাত' ভ্রম্যমান আদালতের ভয় দেখিয়ে চারলাখ টাকা জড়িমানা আদায় করে দুই লাখ টাকার রশিদ দিয়েছে বাকী ২লাখ টাকা লোপাট করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ২৫ জানুয়ারী সোমবার দুপুরে চারলাখ নিয়েও সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমিত সাহার স্বাক্ষরিত মামলার (নম্বর ০৫/২০২১ইং) মাধ্যমে (যার ক্রমিক নং ৪৮০৮২৩) ইট ভাটা মালিককে দুই লক্ষ টাকার রশিদ প্রদান করে বলে অভিযোগে জানাগেছে। 

অন্যদিকে বিষয়টি জেলা প্রশাসকসহ কাঠালিয়ার বিভিন্ন মহলে জানাজানি হলে এলাকায় জুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। এঅবস্থায় এসিল্যান্ডের পক্ষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুফল চন্দ্র গোলদার কয়েক সাংবাদিকসহ প্রভাবশালীর মাধ্যমে বিষয়টি আপোশরফা ও আত্মসাতকৃত টাকা ফেরত দেয়্রা ব্যবস্থা করার অনুরোধ করায় তার ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন সৃষ্টি হয়েছে।

ইট ভাটার পার্টনার মালিক মোঃ শাহিন আকন জানান, ২৫ জানুয়ারি সোমবার সকালে এসিল্যান্ড সুমিত সাহা, তার অফিসের নাজির মাঈনুল, কয়েকজন পুলিশ ও দমকল বাহিনীর সদস্য নিয়ে আমাদের ফিল্ডে উপস্থিত হয়। এ সময় নানা অভিযোগ তুলে ফায়ার সার্ভিসের লোকদের নাজির মাঈনুল ভাটার চুলায় পানি দিয়ে নিভিয়ে ফেলতে বললে। অনেক অনুনয়-বিনয়ের পর নগদ দশ লাখ টাকা দাবি করলে নগদ এত টাকা তাদের কাছে নেই বলে জানালে ক্ষুদ্বু হয়ে ইট ভাটার অপর মালিক মোঃ এনামুল হকের শ্বশুর হাবিবুর রহমান ও কর্মচারী মফিজুলকে আটক করে কাঠালিয়া সদরে এসিল্যান্ড কার্যালয়ে নিয়ে আসে।

এ অবস্থায় শাহিন আকন তার আত্মীয়সহ বিভিন্ন লোকজনের কাছ থেকে ধার-দেনা করে ৪ লক্ষ টাকা নিয়ে উপজেলা ভূমি অফিসে গিয়ে নাজির মাঈনুলের হাতে পৌছে দিলে এসিল্যান্ড সাক্ষরিত একটি রশিদ দেয় যাতে দু'লক্ষ টাকা লেখা দেখে। সে দুই লক্ষ টাকার রশিদ কেনো  জানতে চাইলে তাকে ধমকিয়ে পাঠিয়ে দেয়া হয়"। 

ভাটার অপর মালিক মোঃ এনামুল হক জানায়, সে ঢাকা অবস্থান করায় তার পার্টনার মোঃ শাহিনের কাছে  ভ্রম্যমান আদালতের নামে ৪ লক্ষ টাকা নেয়া ও দু'লাখ টাকার রশিদ দেয়ার বিষয়টি জানতে পান। তিনি এসিল্যান্ড সুমিত সাহার সাথে যোগাযোগ করে বিষয়টি জানতে চাইলে ৪ লক্ষ টাকা নেয়ার কথা অস্বীকার করেন, ২ দুই লক্ষ টাকা জরিমানা করেছেন  বলে দাবী করেন। 
এদিকে স্থানীয় সাংবাদিকদের একটি সূত্র জানায়, অভিযানের পর এসিল্যান্ড সুমিত সাহা কয়েক সাংবাদিকের ম্যাসেঞ্জারে দু'লাখ টাকা জড়িমানার তথ্য প্রদান করেন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশনায় অভিযান চালান বলে দাবী করেন। একই তথ্য উল্লেখ করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুফল চন্দ্র গোলদারও এটি ফেসবুকে পোষ্ট দেন কিন্তু অর্থলোপাটের তথ্য ফাঁস হওয়ার পর সেই পোষ্টটি আর নেই বলে জানান।
 
 এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুফল চন্দ্র গোলদার সাংবাদিকদের জানান, মেসার্স ত্বহা ব্রিকস ফিল্ডে একটি অভিযান করা হয়েছে এবং সেখানে ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনা করে দুই লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে বলে তিনি জানেন। এর বাহিরে তিনি কিছু জানেন না বলে দাবী করেন।

সিরাজগঞ্জ রতনকান্দি সড়াতৈলে দোকান ও বাড়ী ঘরে হামলার সন্ত্রাসী হামলা এবং লুটের অভিযোগ

সিরাজগঞ্জ রতনকান্দি সড়াতৈলে দোকান ও বাড়ী ঘরে হামলার সন্ত্রাসী হামলা এবং লুটের অভিযোগ

মাসুদ রানা  সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধঃ  সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার রতনকান্দি ইউনিয়নে সড়াতৈল গ্রামে দোকান ও বাড়ী ঘরে সন্ত্রাসী হামলা এবং লুটের অভিযোগ উঠেছে। গত ২৬ শে জানুয়ারী মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় এই সন্ত্রাসী হামলা ও বাড়ী ঘর লুটের ঘটনা ঘটে। অভিযোগ ও এজাহার সূত্রে জানা যায়, সড়াতৈল গ্রামের মৃত কলিমুদ্দির ছেলে মোঃ রফিকুল ইসলাম (৫০) দীর্ঘ দিন ধরে সড়াতৈল বাজারে মুদির দোকানের ব্যবসা করে আসছে। খোলাবাড়ী গ্রামের মোক্তাল আকন্দের ছেলে মোঃ হবি (৫০), সড়াতৈল গ্রমের জলি মন্ডলের ছেলে শহিদ (৪০), মোঃ মকবুল (৪৮), শহিদের ছেলে মামুন (১৯), ফজেলের ছেলে আনন্দ (৪২) ও মারুফ (১৯), শুকদেবপুর গ্রামের কোরবানের ছেলে মোঃ শহিদুল ইসলাম (৩৫) সহ আর অজ্ঞাতনামা ৪/৫জন কে আসামী করে সিরাজগঞ্জ সদর থানায় পৃথক ০২টি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন রফিকুলের ভাই শফিকুল ইসলাম। স্থানীয় সূত্রে জানা যায় উক্ত আসামীরা রফিকুলের দোকান থেকে দীর্ঘ দিন ধরে বাকী খায়। কিন্তু ঐ দিন ও আবার বাকি চাওয়ার পরে রফিকুল বাকি না দেওয়াতে আসামীরা দল বল নিয়ে এসে দাকানে হামলা চালায় ও রফিকুলকে গরু জবাই করা ছোরা দিয়ে এলোপাতারি কোপ শুরু করে। রফিকুলের চিৎকারে পাশে থাকা তার ছেলে সিরাজগঞ্জ বিএল স্কুলের এস.এস.সি পরীক্ষার্থী সাকিবাল হাসান আসলে তাকেও ক্রিকেট খেলার স্ট্যাম্প দিয়ে এলোপাতারি পিটুনি শুরু করে। তাদের আত্মচিৎকারে আশে পাশের দোকানদার সহ এলাকারবাসী ছুটে আসলে আসামীরা লুট করে পালিয়ে যায়। মূমুর্ষ অবস্থায় স্থানীয় লোকজন ভাই ও ভাতিজাকে সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। তারা এখন সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। সংঙ্গে সংঙ্গে ৯৯৯ ফোন করলে সিরাজগঞ্জ সদর থানা থেকে এসআই মাহমুদ হাসান তার সঙ্গে ফোর্স নিয়ে এসে সরে জমিনে গিয়ে ঘটনাস্থল দেখে যান।  রফিকুল ইসলামের ভাই শফিকুল ইসলাম তিনি বলেন দোকান লুট সহ আমাদের আত্মীয় আজাহার আলীর (মাধু শেখ) এর ছেলে মোঃ রফিকুল ইসলাম ইট ব্যবসায়ী আমার ভাইয়ের নাম ও তার নাম একই হওয়ায় তাদের সাথে সম্পর্ক ভালো থাকায় প্রথমত অবস্থায় আমার ভাইয়ের মিতার বাড়ীতে হামলা করে ঘরের ঘাট, বাক্স, ছোকেচ, আলমারী সহ যাবতীয় আসবাবপত্র ভাংচুর করে এবং বাক্স ভেঙ্গে তার ঘরে থাকা জমির সকল দলিল পত্র, স্বর্ণ অলংকার ও নগদ সাড়ে ১০ লক্ষ টাকা সহ লুট করে। রফিকুল ইসলামের ছেলে বকুল হোসেন জানান, দীর্ঘ দিন ধরে আমার বাবার কাছ থেকে এরা চাঁদা দাবী করতো, মাঝে মাঝে অল্প কিছু টাকা বাধ্য করে নিতো। কিন্ত মোটা অংকের টাকা দাবী করাতে আমার বাবা টাকা দিতে অস্বীকার করলে আমাদের বাড়ীর ওপর হামলা করে। সেখান থেকে এসে আমার ভাইয়ের দোকানে হামলা করে। এ ব্যাপারে পাশের দোকানদার মৃত মজিবর রহমানের ছেলে চা ব্যবসায়ী কোরবান আলী, আবুল কাশেম, শাহীনুর, সিয়াম উদ্দিন তারা বলেন বাদ মাগরিব আমারা চা খাওয়ার জন্য দোকানে বসে আছি হঠাৎ দেখি এই সন্ত্রাসী বাহিনী দোকানদার রফিকুলের মিতার বাড়ী ভেঙ্গে রফিকুলের দোকানে হামলা করে। তাদের হাতে ছিল ছুটি, হকিস্টিক, লোহার রড, ক্রিকেট খেলার স্ট্যাম্প, একজনের হাতে গরু জবাই করা ছুরি। আমাদের দোকান রক্ষার্তে দোকান বন্ধ করে চিৎকার শুরু করলে গ্রামের লোকজন আসা দেখলে তারা পালিয়ে যায়। কোরবান আলী আরও বলেন এই আসামীরা গ্রামে ত্রাশ হিসাবে পরিচিত। এরা যে কোন দোকান থেকে বাকী না দিলে বিভিন্ন রকমের ভয় ভীতি ও হামকি দামকী করে বেড়ায়। তাই এদের ভয়ে মুখ খুলতে কেউ সাহস পায় না। এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জ সদর থানার তদন্ত ওসি গোলাম মোস্তফা জানান, ৯৯৯ ফোন করলে আমরা ফোর্স প্রেরণ করে ছিলাম। এখন এজাহার পেয়েছি, ঘটনা তদন্তপূর্বক আসামীদের আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করব।

সাবেক মন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ এর সহধর্মীনির মৃত্যুতে এমপি নাসির উদ্দিন এর শোক প্রকাশ

সাবেক মন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ এর সহধর্মীনির মৃত্যুতে এমপি নাসির উদ্দিন এর শোক প্রকাশ

স্টাফ রিপোর্টারঃ সাবেক মন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ এর সহধর্মীনি ও মমতাজ ফাউন্ডেশনের চেয়ারপার্সন মিসেস মমতাজ ফারুকের মৃত্যুতে এমপি নাসির উদ্দিন  শোক প্রকাশ করেছেন। আজ (২৮ শে জানুয়ারি)  বৃহস্পতিবার সকাল ৭.৩০ মিনিটে ঢাকা সিএমএইচএ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্না লিল্লাহি  ---------রাজীউন)। তার অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ সহ তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা  জ্ঞাপন করে তার বিদ্বেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেছেন  যশোর -২, (চৌগাছা - ঝিকরগাছা)  আসনের মাননীয় সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল অবঃ অধ্যাপক ডাক্তার মোঃ নাসির উদ্দিন।

নওগাঁর ভাইয়ের নিষ্ঠুরতার শিকার ছেলেটির দায়ীত্ব নিলেন ইউপি চেয়ারম্যান

নওগাঁর ভাইয়ের  নিষ্ঠুরতার শিকার  ছেলেটির দায়ীত্ব  নিলেন  ইউপি চেয়ারম্যান

রহমতউল্লাহ  আশিকুর  জামান নুর,নওগাঁ জেলাপ্রতিনিধিঃনওগাঁর  আলোচিত মা-বাবা হারা অনাথ ১০ বছরের সেই শিশু রফিকুল ইসলামকে লালন-পালন করার জন্য দায়িত্বভার নিলেন নওগাঁর রাণীনগরের গোনা ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসনাত খাঁন হাসান।

২৭ জানুয়ারি,বুধবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে এবং স্বপরিবারের  উপস্থিতিতে সম্মতিতে গোনা ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসনাত খাঁন হাসান শিশুটির দায়িত্বভার গ্রহন করেন।
শিশু রফিকুল ইসলাম নওগাঁর রাণীনগর উপজেলার গোনা ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রামের মৃত বাদেশ মন্ডলের ছোট ছেলে। সে দ্বিতীয় শ্রেণীতে লেখা-পড়া করেন।

রাণীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আল মামুন জানান, গোনা ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসনাত খাঁন হাসান শিশুটিকে লালন-পালন করার জন্য ইচ্ছে পোষন করেন। পরে শিশু রফিকুলের পরিবারের লোকজনের উপস্থিতিতে ও সকলের সম্মতিতে রফিকুলকে লালন-পালন করার জন্য সাময়িকভাবে ইউপি চেয়ারম্যান হাসানকে দায়িত্বভার দেওয়া হয়েছে। শিশুটিকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগীতা করাসহ তার খোঁজ খবর নেওয়া হবে।

ইউএনও আরো জানান, গত শনিবার রাতে রাজবাড়ির বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর রেলওয়ে স্টেশনে শিশু রফিকুলকে পাওয়া যায়। রোববার দুপুরে সেখানকার স্থানীয় সোনার বাংলা সমাজ কল্যাণ ও ক্রীড়া সংসদের আহ্বায়ক এসএম হেলাল খন্দকার শিশুটিকে বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে নিয়ে যান। পরে বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আমাদের বিষয়টি অবগত করেন। তারপর বুধবার শিশু রফিকুলকে রাণীনগরে নিয়ে আসা হয়।

রাণীনগর উপজেলার গোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল হাসনাত খাঁন হাসান বলেন, শিশুটির মা-বাবা কেউ বেঁচে নেই। বড় ভাই ও ভাবির কাছে থাকতো। তাদের অভাবের সংসার বড় ভাইটিও শারীরিকভাবে অক্ষম। তাই শিশু রফিকুলকে লালন-পালন করার দায়িত্বভার আমি নিয়েছি

৩৯নং ওয়ার্ডে নির্বাচনী সহিংসতায় ৩ বিএনপি নেতার উপর হামলার প্রতিবাদ

৩৯নং ওয়ার্ডে নির্বাচনী সহিংসতায় ৩ বিএনপি নেতার উপর হামলার প্রতিবাদ

হাসান রিফাত,চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:২৭জানুয়ারী চসিক নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীক- ৩৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী সরফরাজ কাদের রাসেলের সমর্থক ,ইপিজেড থানা বিএনপি সহ-সভাপতি মোঃ শাহজাহান ,৩৯ নং ওয়ার্ড বিএনপি'র যুগ্ন সম্পাদক মিজানুর রহমান পারুল ও মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি রাশেদুজ্জামান রাসেলের উপর কিছু চিহৃদ সন্ত্রাসীরা হক সাহেব রোডস্থ উদয়ন কেজি স্কুলে কেন্দ্রের দখলে নিতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে । 

এতে পারুল কে উন্নত চিকিৎসার জন্য হসপিটালে পাঠানো হয় বলে দলীয় সূত্রে জানাই।আহতরা সবাই কাউন্সিলর প্রার্থী রাসেল(রেডিও),ধানের শীষ প্রতীকের নির্বাচনী কমিটির দায়িত্ব ছিলেন। 

এই ঘটনায় ইপিজেড থানা বিএনপির নেতৃবৃন্দ তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, দ্রুত এই চিহিৃত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে নির্বাচনী ট্রাইবুনালে/হত্যা চেষ্টা দায়ে মামলা হবে বলে ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি মোঃ আশ্রাফ উদ্দিন সংবাদ মাধ্যম কে জানান। 
 প্রত্যক্ষদর্শীসূত্রে জানা গেছে, রেডিও'র এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দিলে পারুল সঙ্গীয় সদস্যদের ভোটদান ও এজেন্ট  নিয়োগদিতে গেলে নৌকার সমর্থকও চিহিৃত দূষ্কৃতরা পিছন থেকে ধারালো চায়নিচ দিয়ে তাদের কোপান। এতে তারা মারাত্মক আহত হয়।

প্রতিবাদ জানিয়েছেন কাউন্সিলর প্রার্থী রাসেল, নগর নেতা হাজী নুরুজ্জামান, মুজাদ বারেক, জাবেদ আনসারী,ইমরান, মোঃআলী, মুজিবুর রহমান,আলমগীর সহ বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল,স্বেচ্ছাসেবক দল, মহিলা দল সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। 
এদিকে এই ঘটনা প্রতিবাদ জানিয়েছেন মেয়র প্রার্থী ও নগর বিএনপির সভাপতি ডাঃশাহাদাৎ হোসেন,সাঃসম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর সহ নির্বাচনী কমিটির নেতৃবৃন্দ।

ঐক্যের আহ্বান আকরাম হোসাইন

ঐক্যের আহ্বান আকরাম হোসাইন

কত শত লেকচার চলে
কবিরা কবিতা লিখে,
গায়করা গান গায়
সবার শ্লোগান একটাই ঐক্য চাই।

শ্লোগানের বজ্র হুংকার
মাঠে ময়দানে কাজ কর,
কাফের কাফের ফতোয়া ছাড়
মুসলিম উম্মাহকে নিয়ে ঐক্য গড়।

কাফের কিংবা দালাল ফতোয়া দিয়ে
জনতা বিভ্রান্তি করে,
ঐক্যের শ্লোগান ওরা ও দিচ্ছে
কাফের ফতোয়া নাহি ছাড়ছে।

সমাজে কিংবা দেশে বল
ঐক্যের আহ্বান সবাই কর,
নিজেকে বদলে ফেল
কুরআন হাদীস মেনে চল।

ঝিকরগাছায় ড্রাগন ফ্রুট ও মালটা চাষীদের সাথে কৃষি উৎপাদন বাড়াতে মতবিনিময় সভা

ঝিকরগাছায় ড্রাগন ফ্রুট ও মালটা চাষীদের সাথে কৃষি উৎপাদন বাড়াতে মতবিনিময় সভা

আব্দুল জব্বার, স্টাফ রিপোর্টার।।যশোরের ঝিকরগাছায় ড্রাগন ফ্রুট ও মালটা চাষীদের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। কৃষিই সমৃদ্ধি এই স্লোগানকে সামনে রেখে 
বুধবার দুপুর ১২ টার সময়, ঝিকরগাছা উপজেলার সদর ইউনিয়নের লক্ষিপুর গ্রামের সাইফুল ইসলামের, মেসার্স পিয়াল ড্রাগন উৎপাদন খামারের আয়োজনে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,
যশোরের কৃষি সম্প্রসারণ আধিদপ্তরের উপ পরিচালক কৃষিবিদ বাদল চন্দ্র বিশ্বাস।

তিনি তার বক্তব্যে বলেন, করোনাকালীন সময়ের  মধ্যেও কৃষিতে উৎপাদন বাড়িয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে কৃষকের অভাবনীয় সাফল্য দেখিয়েছেন। কৃষিতে এই সাফল্যের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতেও উৎপাদন বাড়াতে কৃষকেরা  সর্বত্তোম প্রযুক্তি ব্যবহার করে তারা অনেক ভালো ফসল তৈরি করতে পেরেছে। এতে কৃষকরা খুবই আনন্দিত হয়েছে।

 উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ মাসুদ হোসেন পলাশ এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ডিএই যশোরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক (শস্য) দীপঙ্কর দাস, কালিগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ জাহিদুল করিম সুমন, এগ্রিটসার্স লিমিটেডের যশোর এরিয়া ম্যানেজার বাসুদেব ঘোষ।

আরো উপস্থিত ছিলেন, সাংবাদিক রফিকুল ইসলাম, সাংবাদিক আফজাল হোসেন চাঁদ, টেরিটোরি অফিসার আতিক ইসলাম, উপজেলা অফিসার ফয়সাল হোসেন, পিয়াল ড্রাগন উৎপাদন খামারের প্রোপাইটার সাইফুল ইসলাম।

কলারোয়ায় শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলা মামলায় সাবেক বিএনপির এমপি হাবিবসহ ৩৪ আসামী কারাগারে

কলারোয়ায় শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলা মামলায়  সাবেক বিএনপির এমপি হাবিবসহ ৩৪ আসামী কারাগারে

আব্দুল জব্বার, স্টাফ রিপোর্টার।।সাতক্ষীরার কলারোয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলা মামলার ৩৪ আসামি জেল হাজতে প্রেরণ করেছে আদালত। ২০০২ সালের ৩০ আগস্ট তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলার মামলায় সাবেক এমপি ও বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুল ইসলাম হাবিবসহ ৩৪ আসামীর জামিন না মঞ্জুর করে আদালত জেল হাজতে প্রেরন করে।
বুধবার (২৭ জানুয়ারি) রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামীপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের শেষ দিনে সাতক্ষীরার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ হুমায়ুন কবির বিকালে আসামীদের পূর্বের জামিন বাতিল করে, জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন।আগামী ৪ ফেব্রুয়ারী এ মামলার রায় প্রদানের দিন ধার্য করা হয়েছে।জামিন বাতিল হওয়া অন্যদের মধ্যে রয়েছেন, কলারোয়ার দুইবারের সাবেক মেয়র বিএনপি নেতা আক্তারুল ইসলাম, সাতক্ষীরা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারন সম্পাদক অ্যাড আব্দুস সাত্তার, সুপ্রিম কোর্টের অ্যাড আব্দুস সামাদ, তিনজন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফ হোসেন, রকিবুল ইসলাম ও রবিউল ইসলাম এবং বিএনপি ও অঙ্গসংগঠন সমূহের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী।

এ মামলায় অভিযুক্ত ৫০ জন আসামীর একজন টাইগার খোকন অন্য মামলায় জেলহাজতে আটক রয়েছে। পলাতক রয়েছে সাবেক কাউন্সিলর আব্দুল কাদের বাচ্চুসহ ১৫ জন।

রাষ্ট্রপক্ষে শুনানীতে এ সময় অংশ নেন, অতিরিক্ত এটর্নি জেনারেল এসএম মুনীর, ডেপুটি এটর্নি জেনারেল শাহীন মৃধা, সাতক্ষীরা জজ কোর্টের পিপি অ্যাড আব্দুল লতিফ, সিনিয়র আ্যাড হায়দার আলী, অতিরিক্ত পিপি অ্যাড আব্দুস সামাদ, অ্যাড নিজামউদ্দিন।

আসামীপক্ষে শুনানীতে অংশ নেন, বাংলাদেশ হাইকোর্টের অ্যাড শাহানারা আক্তার বকুল, অ্যাড আব্দুল মজিদ(২), অ্যাড শফিকুল ইসলাম, অ্যাড তোজাম্মেল হোসেন তোজাম, অ্যাড মিজানুর রহমান পিন্টু, অ্যাড অসীম কুমার মন্ডল, আ্যাড কামরুজ্জামান ভুট্টো।

রাষ্ট্রপক্ষের এসএম মুনীর আদালতে ২০ জন সাক্ষীর জবানবন্দি তুলে ধরে বলেন, সাক্ষীদের বক্তব্যে সকল আসামী দোষী প্রমানিত হয়েছে। ন্যায়বিচার হলে সকল আসামী সর্বোচ্চ শাস্তি পাবেন।

অপরদিকে বিবাদীপক্ষের আইনজীবী এ্যাড শাহানারা আক্তার বকুল ও এ্যাড আব্দুল মজিদ বলেন, মামলার এজাহার, পুলিশের অভিযোগপত্র এবং সাক্ষীদের জবানবন্দির মধ্যে তথ্যগত ব্যাপক গড়মিল ও অসংলগ্নতা রয়েছে।

সাক্ষীরা কোনভাবেই আসামীদের দোষী প্রমান করতে পারেননি। তারা আরও বলেন, ঘটনার দিন সাবেক বিএনপির দুইবারের সংসদ সদস্য হাবিবুল ইসলাম হাবিব কলারোয়ায় উপস্থিত ছিলেন, এমন কোন প্রমানও তারা খাড়া করতে পারেননি।

তারা আরও বলেন, ন্যায়বিচার হলে সকল আসামী খালাস পাবেন।

উল্লেখ্য ২০০২ সালের ৩০ আগস্ট তৎকালিন বিরোধী দলীয় নেতা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সাতক্ষীরায় মুক্তিযোদ্ধার ধর্ষিতা স্ত্রীকে হাসপাতালে দেখে মাগুরা ফিরে যাবার পথে কলারোয়ায় সন্ত্রাসীদের হামলা শিকার হন। এতে শেখ হাসিনা অক্ষত থাকলেও তার সফরসঙ্গী ফাতেমা জাহান সাথী, জোবায়দুল হক রাসেল, ইঞ্জিনিয়ার শেখ মুজিবর রহমান, শহিদুল হক জীবন, আবদুল মতিনসহ অনেকেই আহত হন।