আশাশুনিতে কু-প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় গৃহবধুকে পিটিয়ে জখম

আহসান উল্লাহ বাবলু  আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধি: আশাশুনির পল্লীতে কু-প্রস্তাবে রাজী না  হওয়ায় এক গৃহবধুকে পিটিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। আহত গৃহবধু গোয়ালডাঙ্গা গ্রামের ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী আব্দুল হাই-এর স্ত্রী (৩২)। তাকে গুরুতর জখম অবস্থায় উদ্ধার করে আশাশুনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। 

আহত ওই বধু সাংবাদিকদের জানান- আমার স্বামী ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী হওয়ায় বেশির ভাগ সময় তিনি বাড়ীর বাইরে থাকেন। স্বামী বাড়ীতে না থাকার সুযোগে গোয়ালডাঙ্গা গ্রামের মৃত জমায়েত আলী গাজীর ছেলে লম্পট রবিউল ইসলাম (৪৫) দীর্ঘদিন যাবত আমাকে উত্যক্ত ও নানাভাবে কুস্তাব দিয়ে আসছিল। 

রবিবার (২৯ নভেম্বর) দুপুরে বাড়ীতে কেউ না থাকার সুযোগে রবিউল চুপিসারে আমার ঘরের ভেতরে ঢুকে আমাকে জাপটে ধরে। আমি চিৎকার দিলে সে বাইরে এসে ঘটনাটা ভিন্নখাতে নিতে তার লোকজনকে ডেকে আমাকে বে-আব্রু করে পিটিয়ে রক্তাত্ব জখম করে। এতে আমার ডান চোখ মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এরপর তারা আমার বাড়ী-ঘর ভাংচুর করে মামলা করলে দেখে সেব বলে হুমকি দিয়ে চলে যায়। স্থানীয় লোকজন আমাকে হাসপাতালে নিয়ে এসেছে। 

এ ঘটনায় গৃহবধুর স্বামী বাদী হয়ে দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে আশাশুনি থানায় এজাহার দাখিল করেছেন। ##

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট