সাতক্ষীরা সদরে অন্তঃসত্ত্বা নারীর মৃত্যু দেহ উদ্ধার স্বামী আটক


আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃসাতক্ষীরা সদরে অন্তঃসত্ত্বা এক নারীর মৃত্যু দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।স্বামী নির্যাতনের শিকার হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করে পুলিশ ওই নারীর স্বামীকে আটক করেছে। 

জানা গেছে, বুধবার (২৫ নভেম্বর) সকালে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার রাজনগর গ্রামের আব্দুল খালেক এর স্ত্রী পারভীন বেগম (২৪) এর মৃত্যু দেহ দেখে এলাকাবসী পুলিশে খবর দেয়।  সাতক্ষীরা সদর থানার পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শনে দেখতে পান, ঘরের ভিতরে গৃহবধূর পারভীন বেগম এর কাঁথা মুড়ি দেয়া মৃত্যু দেহ পড়ে রয়েছে। প্রাথমীক ভাবে পুলিশ ধারনা করেছে স্বামী আব্দুল খালেক তার স্ত্রীকে হত্যা করেছে।

মৃত্যু পারভীন বেগমের ভাই জানান, গত ৮ বছর পুর্বে তার বোনের সাথে হাজিপুর গ্রামের মোজাম্মেল হক এর ছেলে আব্দুল খালেক এর বিবাহ হয় তাদের দাম্পত্য জীবনে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়।বোন জামাইয়ের পরিবারে অভাবের কারণে ৩ বছর যাবৎ তারা রাজনগর গ্রামের নদীর পাড়ে চরে ঘর বেঁধে বসবাস করতে থাকে।

এরই মধ্যে তার বোন জামাই পার্শ্ববর্তী একটি নারীর সাথে প্রেমে জড়িয়ে পড়ে, বিষয়টি নিয়ে তাদের সংসারে কলহ লেগে ছিলো।এরই এক পর্যায়ে আজ সকালে সংবাদ পাই আমার বোন ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা পারভীন বেগম।মারা গেছেন। 

স্থানীয়রা জানান, রাতে তাদের স্বামী স্ত্রীর কলহের এক পর্যায়ে শ্বাসরোধ করে স্ত্রী কে হত্যা করে আব্দুল খালেক প্রতিদিনের ন্যায় পার্শ্ববর্তী হাবিবুর চেয়ারম্যান এর ভাটপাড়া ভাটায় কাজ করতে যায়।

স্থানীয় রা পারভীন বেগমের মৃত্যুর সংবাদে স্বামী আব্দুল খালেককে সেখান থেকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)  আসাদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান মৃত্যু গৃহ বধুর লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানে হয়েছে।


শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট