পতেঙ্গায় যা কিছু হলে ভালো হয়

বেললা উদ্দিনঃ

> কাটগড় মোড়, পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত এরিয়া,  বিমানবন্দর মোড়, কেইপিজেড মোড় ও সিমেন্ট ক্রসিং মোড়ে একটি করে গণসৌচাগার।
 
> স্থান নির্ধারিত হওয়া ফায়ার স্টেশনটির দ্রুত বাস্তবায়ন। 

> সকলের চাওয়া একটি সরকারি জেনারেল  হাসপাতাল। 

> পতেঙ্গার মুক্তিযুদ্ধের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস ও মুক্তি যোদ্ধাদের নাম ও বীর শহীদদের নাম ফলক। ( এটি পতেঙ্গা সৈকতের পর্যটনী এরিয়াতে হলে ভালো হয়)

>জাতীয় কবি কাজী নজরুলের স্মৃতি স্তম্ভ (সিন্ধু হিন্দুল স্কয়ার টা পতেঙ্গা সৈকত এলাকায় তৈরী করা, পতেঙ্গায় কবির রচিত কবিতা ও সংক্ষিপ্ত ইতিহাস)

>পতেঙ্গার নামকরণের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস, পতেঙ্গার ভূগোলিক বর্ননা (এটিও সৈকত এরিয়াতে হলে ভালো হয়) 

>পতেঙ্গার বিখ্যাত তরমুজের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস ও প্রতিকৃতি। 

>কাটগড় হতে ৯ নং অভ্যন্তরীণ সড়কে টমটম বা অন্যকোন লোকাল যানবাহন সরাসরি চালু।

>বিমানবন্দর ও পতেঙ্গা সৈকতের দোকানগুলোর প্রতিটি পণ্য ন্যায্য মূল্যে গ্রাহকরা ক্রয়ের সুবিধা নিশ্চিত করা। 

>পতেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়কে বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে রূপান্তর করা।

>সমগ্র পতেঙ্গাকে সিসিটিভি দ্বারা নিয়ন্ত্রণ করা। 

>ভাড়াটিয়াদেরকে ওয়ার্ড কার্যালয় বা স্থানীয় থানা থেকে উক্ত এলাকায় বসবাসের অনুমতি পত্রের ব্যবস্থা করা। যার এক কপি বাড়িওয়ালা ও এক কপি থানা বা ওয়ার্ড অফিসে রাখা। 

>সমগ্র পতেঙ্গায় ওয়াশার পানির ব্যবস্থা করা। 

>আউটার রিং রোডের চরপাড়া, মুসলিমাবাদ, খেজুর তলা ও আকমল আলী রোড অঞ্চলে জনসাধারণের নিরাপদ পারাপারের সুবিধার্থে ফুটওভার ব্রিজ তৈরী করা। 

(ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা হিসেবে এগুলো দ্রুত বাস্তবায়ন করলে ইনশাআল্লাহ আমরা একটি সুন্দর পতেঙ্গা পাবো )
আমাদের পতেঙ্গা, চট্টগ্রাম।সাংবাদিক বেলাল উদ্দিন

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট