করোনার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে আ.ফ.ম বাহাউদ্দীন নাসিম

করোনার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে আ.ফ.ম বাহাউদ্দীন নাসিম





ইকরাম শরীফ মাদারীপুর জেলা প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর যুগ্ম সাধারন সম্পাদক, স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, মাদারীপুর  কালকিনির সাবেক এমপি  কৃষিবিদ আ. ফ. ম. বাহাউদ্দীন নাসিমের করোনা পজেটিভ। তিনি রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

তার পারিবারিক সুত্রে জানা যায়,,বাহাউদ্দীন নাসিম গত কয়েকদিন পর্যন্ত তিনি প্রচন্ড জ্বরে ভুগছিলেন। জ্বরের তিব্রতা বৃদ্ধি পাওয়ায় তিনি করোনা পরীক্ষা করালে পজিটিভ রিপোর্ট দেওয়া হয়। বর্তমানে তিনি রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। 

বাহাউদ্দীন নাসিমের ছোটো ভাই মাদারীপুর সদরের পৌর মেয়র জনাব খালিদ হোসেন ইয়াদ দেশবাসীর কাছে তার ভাইয়ের দ্রুত সুস্থতার জন্য দেশবাসি সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।

মাদক চোরাচালানী পক্ষে সুপারিশকারী কে বদলগাছী থানা পুলিশের কঠোর হুঁশিয়ারি

 মাদক চোরাচালানী পক্ষে সুপারিশকারী কে বদলগাছী থানা পুলিশের কঠোর হুঁশিয়ারি


রহমতউল্লাহ বদলগাছী নওগাঁঃবদলগাছী থানা পুলিশের কঠোর হুঁশিয়ারি। মাদক চোরাচালানী  এর  পক্ষে  সুপারিশ কারীকে ও অপরাধী  এর আওতায় আনার হুঁ

বদলগাছী থানা পুলিশের কঠোর হুঁশিয়ারিঃ মাদক ও চোরাচালানীর পক্ষের সুপারিশ করলে তাকেও আসামি দাবি করে আইন এর আওতায় আনার  হুঁশিয়ারি দেন বদলগাছী থানা পুলিশ এর ওসি তদন্ত।

নওগাঁ জেলা বদলগাছী উপজেলা মিঠাপুর ইউনিয়নের বিট পুলিশিং কমিটির উদ্যোগে ১৬ ই সেপ্টেম্বর বেলা ১১ টায় ইউনিয়ন পরিষদ এর হলরুমে  ইউনিয়ন পরিষদের সকল সদস্য বৃন্দ মেম্বারও এলাকার সচেতন মহলের নেতাকর্মীদের নিয়ে এক জরুরী সভার আয়োজন করেন থানা পুলিশের নির্ভীক সৈনিক এস আই গৌরাঙ্গ চন্দ্র রায় এর আহবানে।

পর পর মিঠাপুর ইউনিয়নের গ্রামের চুরি বৃদ্ধি পাওয়া ও মাদকদ্রব্যের দ্রব্য বৃদ্ধি হাওয়ায়

 এলাকার চুরি-ডাকাতি মাদক নির্মূলে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য আলোচনা করা হয়।

উক্ত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন মিঠাপুর ইউনিয়ন এর সুযোগ্য চেয়ারম্যান ফিরোজ হোসেন।

প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বদলগাছী থানার ওসি তদন্ত মোঃ রফিকুল ইসলাম তিনি বলেন মাদক ব্যেবসায়ীর পক্ষে কেন জন প্রতিনিধি মেম্বার বা কোন নেতাকর্মী সুপারিশ করতে গেলে তাকে আসামী বানিয়ে আইনের আওতায় আনা হবে

তিনি আর বলেন মাদক নিরমূলে এলাকা বাসীর সকলের সহযোগী তা কামনা করছি।

বিশেষ  অতিথি  হিসাবে  উপস্থিত    ছিলেন এস আই গৌরাঙ্গ চন্দ রায় এস আই আবু বক্কর সিদ্দিক   সহ ইউপি মেম্বার  বর্গ ও এলাকার গন্যমান্ন নেতাকর্মী

তারা বলেন স স ওয়াডের মেম্বার দের সহায়তায় কমেটি গঠনের মাধ্যমে বিট পুলিশিং সেবা  প্রসারিত ও চুরি  ডাকাতি মাদক নিমূলে মহাপরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা সম্ভব।

চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের জন্য রেজাউল করিমের সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ

 চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের জন্য রেজাউল করিমের সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ



কাজী মোঃ  সাজ্জাদ  হাসান :চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে কয়েদীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা চিন্তা করে হাই ফ্লো অক্সিজেন, ২০০০ পিস মাস্ক সহ বিভিন্ন সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম. রেজাউল করিম চৌধুরী।


বুধবার ১৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ কালে তিনি বলেন, মহামারী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কারাগারে বন্দীদের জন্য সুরক্ষা সামগ্রী দেয়া হয়েছে। মানুষের জন্য আমরা সব সময় সহায়তা করছি । করোনা দূর্যোগ মোকাবেলায় কারাবন্দীদের ও সুরক্ষা সামগ্রী প্রয়োজন। বন্দীদের মধ্যে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়া রোধ করতে এমন উদ্যোগ নিয়েছেন এবং এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে বলেও জানান রেজাউল করিম চৌধুরী। 


এতে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডি আই জি প্রিজন ফজলুল হক চৌধুরী, জেলার রফিকুল ইসলাম,ডেপুটি জেলার মাজহারুল, ডাঃ শামীম, বেসরকারি কারা পরিদর্শক আজিজুর রহমান আজিজ, আব্দুল হান্নান লিটন, জিন্নাত সোহানা চৌধুরী, নুরুল আলম, ইয়াসিন আরাফাত কচি, মোঃ ইলিয়াস, রাজ্জাক, নাসির, সাইমন প্রমুখ।

মাধবপুরে পরিবহন সেক্টরের মালিক শ্রমিক ও লাইনম্যানদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা

 মাধবপুরে পরিবহন সেক্টরের মালিক শ্রমিক ও লাইনম্যানদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা




লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:সাবধানে চালাবো গাড়ী নিরাপদে ফিরবো বাড়ী আইন অমান্য করবো না জরিমানা দেব না” এই প্রতিপাদ্য শ্লোগানকে সামনে রেখে হবিগঞ্জের মাধবপুরে পরিবহন সেক্টরের মালিক শ্রমিক ও লাইনম্যানদের প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে আজ বুধবার দুপুরে মাধবপুর থানার হলরুমে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।


মাধবপুর ট্রাফিক জোনের ইন্সপেক্টর ফারুক আল মামুন ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাধবপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি রোকন উদ্দিন লস্কর, সিনিয়র সাংবাদিক মোঃ আইয়ুব খান, মাধবপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি মহিউদ্দিন আহম্মেদ, বর্তমান সেক্রেটারী সাব্বির হাসান আকাশ, সাংবাদিক লিটন পাঠান, পরিবহন সেক্টরের মালিক বাদল, শ্রমিক নেতা হামিদ আলী, আব্দুল আউয়াল, লাইনম্যান মাতু মিয়া প্রমুখ।


অনুষ্ঠানে সভাপতি ফারুক আল মামুন ভূঁইয়া বলেন, গাড়ী পার্কিং, যানজট নিরসন ও নিরাপদ রাস্তার স্বার্থে ট্রাফিক পুলিশ নিরলসভাবে কাজ করে আসছে

এছাড়াও জরুরী কাগজপত্র, লাইসেন্স সাথে নিয়ে গাড়ী চালানোর পরামর্শ জ্ঞাপন করেন। অপ্রাপ্ত বয়স্ক কেউ যাতে গাড়ী চালাতে না দেওয়া হয় সেজন্য মালিকপক্ষকে সর্তক করে দেওয়া হয়।

আত্রাইয়ে পেঁয়াজের বাজার অস্থির: প্রশাসনের পদক্ষেপে দাম নেমে আসলো অর্ধেকে!

আত্রাইয়ে পেঁয়াজের বাজার অস্থির: প্রশাসনের পদক্ষেপে দাম নেমে আসলো অর্ধেকে!



মোঃ ফিরোজ হোসাইন 

রাজশাহী ব্যুরো


 নওগাঁর আত্রাইয়ে হঠাৎ করে পেঁয়াজের বাজার অস্থিতিশীল হয়ে পড়ায় বাজার নিয়ন্ত্রণে উপজেলা প্রশাসন দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করার ফলে একলাফে দামে নেমে আসলো অর্ধেকে।

জানা গেছে, বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকালে আত্রাই উপজেলার বিভিন্ন কাঁচা বাজারে নিত্যপণ্য পেঁয়াজ ৮০ টাকা থেকে ১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করতে থাকে কিছু অসাধু ব্যবসায়ীরা।

বুধবার পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ছানাউল ইসলাম অভিযান পরিচালনা করেন উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারে। এ সময় ভবানীপুর বাজারের এক দোকানে মুল্য তালিকা না থাকায় ও বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করার দায়ে চয়েন আলী নামের এক ব্যবসায়ীকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করেন। উপজেলা প্রশাসনের এ অভিযানের পর উপজেলার হাট-বাজার গুলোতে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৫০-৫৫ টাকা দরে বিক্রয় হচ্ছে।

উপজেলা নির্বাহী মো. ছানাউল ইসলাম বলেন, সিন্ডিকেটের মাধ্যমে পেঁয়াজের বাজারে কৃত্তিম সংকট তৈরী করে বাজার অস্থির করেছে একটি অসধু ব্যবসায়ী চক্র, এমন অভিযোগের ভিত্তিতে বাজারে ভ্রাম্যান আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। বাজার নিয়ন্ত্রণে এই অভিযান অব্যহত থাকবে।

নাটোর বাগাতিপাড়ায় একসাথে ২ জন কে সাপের দংশন ১ জনের মৃত্যু

নাটোর বাগাতিপাড়ায় একসাথে  ২ জন কে সাপের দংশন ১ জনের মৃত্যু



মোঃ ফিরোজ হোসাইন 

রাজশাহী ব্যুরো 


নাটোরের বাগাতিপাড়ায় একসঙ্গে ননদ ও ভাবি দুজনকে সাপে দংশন করেছে । দুজনের মধ্যে বিলকিস (৪২) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। খাদেজা (৩২) নামে অপর  এক জনের অবস্থাও আশংকাজনক। বর্তমানে সে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন আছেন।

মৃত বিলকিস উপজেলার জামনগর ইউনিয়নের বজ্রাপুড় গ্রামের আবুল হোসেনের মেয়ে ও চিকিৎসাধীন খাদেজা ঐ আবুল হোসেনের পুত্রবধূ এবং মৃত বিলকিসের ভাই ইউনুস আলীর স্ত্রী।   


পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার ১৫ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে খাওয়া দাওয়া ও প্রয়োজনীয় কাজ শেষ করে নিজেদের শোবার ঘরে ননদ ও ভাবি (বিলকিস ও খাদেজা) ঘুমিয়ে পরেন। হঠাৎ রাত আনুমানিক ১টার দিকে তাদের চিৎকারে পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা ও এলাকাবাসী এসে বুঝতে পারে তাদের সাপে কেটেছে। সেসময় এলাকাবাসীর সহযোগিতার বিলকিস এবং খাদেজাকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।


রামেকে হাসপাতালে তাদেরকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রেখে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার ১৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে বিলকিস মৃত্যু বরণ করেন। এবং খাদেজার শারীরিক অবস্থা আশংকাজনক বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়।

বাগাতিপাড়ায় একসঙ্গে ননদ ও ভাবি দুজনকে সাপে কাটার ঘটনা এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিলকিসের মৃত্যু খবর নিশ্চিত করে জামনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস বলেন,  রাতেই তার দাফন সম্পূর্ণ করা হয়েছে ৷

খুলনায় হতদরিদ্র ১২৫০ শিক্ষার্থীকে মোবাইল ফোনসেট প্রদান

খুলনায় হতদরিদ্র ১২৫০ শিক্ষার্থীকে মোবাইল ফোনসেট প্রদান



তুহিন রানা (আব্রাহাম) খুলনা নগর প্রতিনিধিঃলেখাপড়া নিরবিচ্ছিন্ন রাখতে খুলনার হতদরিদ্র ১২৫০ শিক্ষার্থীর হাতে আজ বিনামূল্যে মোবাইল ফোনসেট তুলে দেওয়া হয়। করোনাকালে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া বন্ধের উপক্রম হয়েছিল। লেখাপড়ার এই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পর্যায়ক্রমে টিভি, ইউটিউব ও ফেসবুকভিত্তিক অনলাইন ক্লাস এবং সর্বশেষে রেডিওর মাধ্যমে পাঠদান অব্যাহত রাখা হয়। পাশাপাশি মোবাইল ফোনের মাধ্যমে শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার খোঁজও রেখে চলেছেন। কিন্তু দরিদ্র পরিবারে মোবাইল ফোন না থাকায় অনলাইন ক্লাস থেকে প্রাথমিকের অনেক শিশু শিক্ষালাভ থেকে বঞ্চিত হচ্ছিল। এই বঞ্চিত শিশুদের কথা ভেবে খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের উদ্যোগে আজ থেকে দরিদ্র শিশুদের মাঝে মোবাইল ফোনসেট বিতরণ শুরু হলো। এনার্জিপ্যাক এবং জি-গ্যাস এই উদ্যোগে আর্থিক সহযোগিতা করছে। এ ধরণের কার্যক্রম দেশের মধ্যে খুলনাতেই প্রথম।



 

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন আজ দুপুরে সচিবালয় থেকে অনলাইনে যুক্ত হয়ে খুলনার জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে মোবাইল ফোনসেট বিতরণের উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনকালে প্রতিমন্ত্রী বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলে শিশুদের লেখাপড়ার ক্ষতির পাশাপাশি ঝরেপড়া, বাল্যবিয়ে, শিশুশ্রমের ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়। করোনাভাইরাসের কারণে শিশুদের নিরাপত্তার স্বার্থে ১৮ মার্চ হতে দেশে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। বিদ্যালয় বন্ধ থাকার প্রভাব যাতে শিশুদের ওপর না পড়ে সেজন্য সংসদ টিভি, বেতার ও অনলাইন পাঠদান অব্যাহত আছে। সকল শিক্ষার্থীর মোবাইলফোন না থাকা আমাদের একটি সীমাবদ্ধতা। প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ধনিদের চেয়ে দরিদ্র পরিবারের শিশুর সংখ্যা বেশি। প্রাথমিক শিক্ষা পর্যায়ে করোনাকালে শিক্ষা কার্যক্রম যাতে বন্ধ না হয় তার জন্য খুলনা জেলা প্রশাসনের গ্রহণ করা এমন উদ্যোগ নি:সন্দেহে বিরাট ভূমিকা রাখবে। তিনি সকল জেলায় এমন কার্যক্রম চালু করতে জেলা প্রশাসকদের আহ্বান জানান।


অনলাইনে জুম প্রযুক্তিতে অনুষ্ঠিত এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোঃ আকরাম-আল-হোসেন, খুলনার বিভাগীয় কমিশনার ড. মু: আনোয়ার হোসেন হাওলাদার এবং প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) সোহেল আহমেদ।

আশাশুনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মাসিক সমন্বয় সভা

 আশাশুনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মাসিক সমন্বয় সভা

 



 আহসান উল্লাহ বাবলু, উপজেলা  প্রতিনিধি: আশাশুনি উপজেলার মাঠ পর্যায়ে কর্মরত স্বাস্থ্য সহকারী, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য পরিদর্শকদের মাসিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বেলা ১১টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হলরুমে এ সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ সুদেষ্ণা সরকার এর সভাপতিত্বে সভায় এসময় আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ দীপন বিশ্বাস, স্বাস্থ্য পরিদর্শক (ইনচার্জ) মাহবুবুর রহমানসহ ৬টি ইউনিয়নের সহকারি স্বাস্থ্য পরিদর্শক ও স্বাস্থ্য সহকারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় অনলাইন রিপোর্ট সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করতে প্রথম ধাপে ২৭ জনের মাঝে ট্যাব বিতরণ করা হয়। এছাড়াও আগামী ২৬শে সেপ্টেম্বর জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন সফল করতে নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

আশাশুনির বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বেঞ্চ বিতরণ

 আশাশুনির বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বেঞ্চ বিতরণ




আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা  প্রতিনিধিঃআশাশুনি সদর ইউনিয়নের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বেঞ্চ বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার সকাল ১০টায় আশাশুনি ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে ইউনিয়ন পরিষদ ও এলজিএসপির সহযোগিতায় সদর ইউনিয়নের ৬ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ বেঞ্চ বিতরণ করা হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বেঞ্চ বিতরণ কার্যক্রম এর উদ্বোধন করেন। বেঞ্চ বিতরণকালে এসময় সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান স ম সেলিম রেজা মিলনসহ শিক্ষকবৃন্দ, ইউপি সচিব, ইউপি সদস্যবৃন্দ ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

আশাশুনিতে প্রকল্প সমাপনী বিষয়ক ওয়ার্কসপ অনুষ্ঠিত

আশাশুনিতে প্রকল্প সমাপনী বিষয়ক ওয়ার্কসপ অনুষ্ঠিত




আহসান উল্লাহ বাবলু   উপজেলা  প্রতিনিধি:আশাশুনিতে ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ এর ইনহেল্ডার প্রজেক্টের সমাপনী বিষয়ক ওয়ার্কসপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বেলা ১১টায় উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে এ ওয়ার্কসপ অনুষ্ঠিত হয়। ইনহেল্ডার প্রজেক্ট, আশাশুনি এপি, ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের আয়োজনে প্রকল্প সমাপনী বিষয়ক ওয়ার্কসপে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, আশাশুনি এপির স্পন্সরশীপ এন্ড সিস্টেম অফিসার উজ্জল চিছাম। ওয়ার্কসপে গত ১লা আগস্ট’১৭ থেকে ৩ শে সেপ্টেম্বর’২০ পর্যন্ত ইনহেল্ডার প্রকল্পের সার্বিক কর্মকান্ড প্রজেক্টরের মাধ্যমে ও বক্তব্য প্রদানের মাধ্যমে তুলে ধরেন, প্রোগ্রাম অফিসার মিলিতা সরকার। তিনি বলেন, ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের ইনহেল্ডার প্রকল্প গত ৩ বছর আশাশুনি উপজেলার কুল্যা, আশাশুনি সদর ও বড়দল ইউনিয়নের অপেক্ষাকৃত হতদরিদ্র পরিবারবর্গকে নিয়ে কাজ করেছে। এ প্রকল্পের আওতায় গত ৩ বছরে সর্বমোট ২৯৭৮জন গর্ভবতী ও দুগ্ধদানকারী মায়েদেরকে পুষ্টি, স্বাস্থ্য, ব্যক্তিগত পরিষ্কার পরিছন্নতা, বিশুদ্ধ পানি ও উন্নত স্যানিটেশন বিষয়ে সচেতন করা হয়েছে, ২১০জন দুগ্ধদানকারী মায়েদের মাঝে বালতি বিতরণ করা হয়েছে, ৩০০জন শিশুর মাঝে মাইক্রো নিউট্রিয়েন্ট পাউডার বিতরণ করা হয়েছে এবং ৫০০জন শিশুকে প্রতিমাসে জিএমপি করা হয়েছে। এসময় তিনি বলেন, মোট ৩৮টি হতদরিদ্র পরিবারকে রেইন ওয়াটার হারভেষ্ট সিস্টেম তৈরী করে দেওয়া হয়েছে এবং ৭২টি পরিবারের মাঝে স্বাস্থ্য সম্মত ল্যাট্রিন তৈরী করে দেওয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, এ প্রকল্পের আওতায় ৭৯টি পরিবারকে ১টি করে বকনা বাছুর প্রদান করা হয়েছে, ৫০টি পরিবারকে ৯টি করে উন্নতজাতের হঁাস প্রদান করা হয়েছে এবং ৫৬২টি পরিবারের মাঝে সবজির বীজ বিতরণ করা হয়েছে। অপরদিকে, কোভিড-১৯ প্রতিরোধে এ প্রকল্পের আওতায় ১৬৮টি পরিবারকে ৩ হাজার টাকা করে প্রদান করা হয়েছে, ১০২টি পরিবারকে স্বাস্থ্য সরঞ্জাম বিতরণ করা হয়েছে এবং ১০৮টি পরিবারকে হাত ধোয়ার ডিভাইস প্রদান করা হয়েছে। এছাড়াও গত ৩ বছরে প্রকল্পটি ৩ ইউনিয়নের পিছিয়ে পড়া পরিবারগুলোকে নিয়ে নানাবিধ কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। এসময় তিনি এসকল কাজে সহযোগিতা করার জন্য প্রশাসনের কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি ও সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানান। প্রকল্প সমাপনী বিষয়ক ওয়ার্কসপে এসময় কৃষি অফিসার রাজিবুল হাসান, প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ মিজানুর রহমান, সমবায় কর্মকর্তা কারিমুল হক, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা সাইদুর রহমান, সদর ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম রেজা মিলন, কুল্যা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বাছেত আল হারুন চৌধুরী, আশাশুনি প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি জিএম মুজিবুর রহমান, সদস্য এম এম নুর আলম, ইনহেল্ডার প্রকল্পের জুনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার মৌসুমী মজুমদারসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ ও কমিউনিটি ফ্যাসিলিটেটরবৃন্দ ও উপকারভোগীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বশেমুরবিপ্রবিঃসাংবাদিকের উপর হামলা, বিচার মেলেনি এক বছরেও

বশেমুরবিপ্রবিঃসাংবাদিকের উপর হামলা, বিচার মেলেনি এক বছরেও






বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধিঃগতবছরের (২০১৯) ১৬ সেপ্টেম্বর গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) ক্যাম্পাস অভ্যন্তরেই  হামলার শিকার হয়েছিলেন দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশের তৎকালীন বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি শামস জেবিন। কিন্তু সেই হামলার এক বছর পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় জড়িতদের কাউকেই বিচারের আওতায় আনা হয় নি।


হামলার শিকার হওয়া শামস জেবিন বলেন, বশেমুরবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতির অপর এক সদস্যের বহিষ্কারের প্রতিবাদ জানানোর জেরে পরীক্ষার হল থেকে ডেকে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়েরই কয়েকজন শিক্ষার্থী তার ওপর হামলা করেছিলো। ওইসময় হামলাকারীরা বলেছিলো, তৎকালীন উপাচার্য প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিন তাদেরকে নির্দেশ দিয়েছে শামস জেবিনকে তুলে নিয়ে যেতে। পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের  সাধারণ শিক্ষার্থীরা আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।


ঘটনা ঘটার পর ওই দিনই পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদের ডিন আব্দুর রহিম খানকে প্রধান করে গঠিত তদন্ত কমিটিকে পাঁচ দিনের মধ্যে রিপোর্ট প্রদানের নির্দেশ দেয়া হয়। কিন্তু একমাস পেরিয়ে গেলেও উক্ত তদন্ত কমিটি  রিপোর্ট প্রদান করতে ব্যর্থ হয়।এরপর ২০ অক্টোবর পুনরায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট উক্ত তদন্ত কমিটির প্রধান ছিলেন সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডিন রফিকুন্নেসা আলী এবং সদস্য সচিব ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ড. নূরউদ্দিন আহমেদ।


তবে দ্বিতীয়বার তদন্ত কমিটি গঠনের  পরও এক বছর পার বিচারের বিষয়টি তদন্ত কমিটিতেই আটকে আছে।


 হামলার শিকার শামস জেবিন  আরো জানান, তিনি তদন্ত কমিটির নিকট তার বক্তব্য প্রদান করেছেন এবং মূল হামলাকারীদের পরিচয়ও জানিয়েছেন।


এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. নূরউদ্দিন আহমেদ জানিয়েছেন, “এ ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন অফিসে রয়েছে। শৃঙ্খলা বোর্ডের পক্ষ থেকে প্রতিবেদন চাওয়া হলেই আমি প্রতিবেদনটি উপাচার্যের নিকট প্রদান করবো এবং শৃঙ্খলা বোর্ড প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।”


অবশ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান সমস্যাকে ইঙ্গিত করে  বশেমুরবিপ্রবির  সাবেক উপাচার্য (রুটিন দায়িত্ব) প্রফেসর ড. মোঃ শাহজাহান বলেন, “রুটিন দায়িত্ব গ্রহণের পর বিশ্ববিদ্যালয়ের একের পর এক সমস্যা সামনে আসায় এবং এরপরই ছুটি শুরু হওয়ায় বিষয়টি নিয়ে কাজ করা হয় নি।"

দীর্ঘ একবছরেও কেন মেলেনি বিচার,কেনই বা হামলাকারীদের ব্যাপারে কোনো বিচার আজও নয় সে বিষয়ে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বশেমুরবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতির সদস্যরা। ঘটনাকে ন্যাক্কারজনক উল্লেখ করে একুশে টিভি অনলাইনের বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি মাইনউদ্দিন পরান বলেন, “সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন অভিযোগে  বিশ্ববিদ্যালয় থেকে যখন ফাতেমা-তুজ-জিনিয়া কে বহিষ্কার করা হলো, তখন বশেমুরবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতির বেশ কয়েকজন সদস্য তার পাশে দাড়িয়েছিলো যাদের মধ্যে শামস জেবিন ছিলেন অন্যতম। আর এ কারণেই তার ওপর ন্যাক্কারজনক হামলা চালায় তৎকালীন ভিসির লালিত বাহিনী। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয় হলো হামলার ১ বছর পার হলেও এখনও সেই চিহ্নিত অপরাধীদের বিরুদ্ধে কোন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি, যা বিচারহীনতার সংস্কৃতিরই নামান্তর।"

পরান আরো বলেন," আমরা চাই  হামলাকারীদের শাস্তির আওতায় আনা হোক এবং ক্যাম্পাসে স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিবেশ নিশ্চিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করুক।”


উল্লেখ্য,  স্বৈরাচারী আচরণ এবং দুর্নীতির অভিযোগে প্রবল ছাত্র আন্দোলনের পর ২০১৯ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর পদত্যাগ করেন বশেমুরবিপ্রবির সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিন।

ফের কম্পিউটার চুরির শিকার বশেমুরবিপ্রবি

ফের কম্পিউটার চুরির শিকার বশেমুরবিপ্রবি




বশেমুরবিপ্রবি সংবাদদাতাঃ  গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) আবারো ঘটলো কম্পিউটার চুরির এক নতুন ঘটনা। কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির৪৯টি কম্পিউটার চুরির পর  এবারে চুরির শিকার হয়েছে ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ২টি কম্পিউটার।


চুরির বিষয়ে জানতে চাইলে উক্ত বিভাগের সভাপতি তসলিম আহমেদ  বলেন, চুরির ঘটনাটি ঠিক কবে বা কীভাবে ঘটেছে এ বিষয়ে তারা  নিশ্চিত নন।তবে রেজাল্ট সংক্রান্ত কাজে গতকাল (১৫সেপ্টেম্বর) বিভাগ খুললে ছাউনি ভাঙাসহ ২টি কম্পিউটার নিখোঁজ দেখতে  

পান এবং ঘটনাটি  বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে অবহিত করেন।


 মিঃ আহমেদ আরো বলেন, "আমাদের বিভাগটি মূলত বিশ্ববিদ্যালয়ের পেছনের দিকে অবস্থিত তাছাড়া ঝোপঝাড় হবার কারণে অনেকবার সাপের উপদ্রব এবং স্বাস্থ্য সমস্যা লক্ষ করেছি। পূর্বে নিরাপত্তা সমস্যাজনিত বিষয় নিয়ে ৩মার্চ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নিকট আবেদনপত্র প্রদান করি।"


তবে চুরির খবরটি এখনো অবগত নন জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় নিরাপত্তা কর্মকর্তা তরিকুল ইসলাম জানান , কম্পিউটার চুরির এই বিষয়ে তারা এখনো অবগত নয়। তাছাড়া সকল বিভাগ তালাবন্ধই লক্ষ করেছেন।

উল্লেখ্য, ঈদ- উল- আযহার ছুটি চলাকালীন বশেমুরবিপ্রবির কেন্দ্রীয় লাইব্রেরিতে ৪৯ টি কম্পিউটার চুরির ঘটনা ঘটে।সেই ঘটনার পুরোপুরি সমাধান না হবার পূর্বেই নতুন করে ঘটলো এই চুরির ঘটনা।

আশাশুনিতে থানা পুলিশের অভিযানে আটক- ৫

 আশাশুনিতে থানা পুলিশের অভিযানে আটক- ৫

 



আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা  প্রতিনিধিঃ      আশাশুনিতে থানা পুলিশের অভিযানে গাঁজা সহ বিভিন্ন মামলার পাঁচ আসামিকে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ গোলাম কবির এর নেতৃত্বে আশাশুনি থানা এলাকায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা, গ্রেফতারী পরোয়ানা তামিল ও বিশেষ অভিযান পরিচালনা এএসআই (নিঃ) মোঃ মিলন হোসেন সঙ্গীয় অফিসার এসআই (নিঃ) গাজী নূর নবী, এএআই (নিঃ) মোঃ সাইফুল ইসলাম এর সহায়তায় ৫০ গ্রাম গাঁজা সহ আসামী ১.  গোলাম বিশ্বাস, পিং-কেনাপদ বিশ্বাস, সাং-বেউলা, থানা-আশাশুনি, জেলা-সাতক্ষীরাকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাহার বাড়ীর সামনে উঠান হইতে হাতেনাতে গ্রেফতার করেন। এসংক্রান্তে থানায় মাদক আইনের ১২(৯)২০২০ মামলাটি রুজু করা হয়েছে। অপরদিকে এএসআই (নিঃ) দেবাশিষ মন্ডল সঙ্গীয় ফোর্স এর সহায়তায় জিআর-১৩/১৫(ওয়ারেন্ট) মূলে আসামী  আঃ রশিদ মোল্যা, পিং-মোস্ত মোল্যা, ইদ্রিস পাড়, পিং-রসুল পাড়, উভয় সাং-গোদাড়া, থানা-আশাশুনি, জেলা-সাতক্ষীরাদ্বয়কে তাহার নিজ বাড়ী হইতে গ্রেফতার করেন। এএসআই (নিঃ) মোঃ নজিম উদ্দীন সঙ্গীয় ফোর্স এর সহায়তায় জিআর-৩২২/১৯ (ওয়ারেন্ট) মূলে আসামী  মনি গাজী, পিং-মৃত মোহর গাজী, সাং-ঢেমসাখালী, থানা-পাইকগাছা, জেলা-খুলনা বর্তমান শ্বশুর রাফি সানা, সাং-খালিয়া, এবং ফরিদুল সরদার, পিং-মোমিন সরদার, সাং-জামালনগর, উভয় থানা-আশাশুনি, জেলা-সাতক্ষীরাদ্বয়কে তাহাদের নিজ নিজ বাড়ী হইতে  গ্রেফতার করেন। আসামীদেরকে বিচারার্থে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

গ্রিসে নবীগঞ্জের দুই যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

 গ্রিসে নবীগঞ্জের দুই যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার




লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:গ্রিসের এথেন্সের আসপেরগো এলাকায় দুই বাংলাদেশির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে দেশটির পুলিশ। নিহতরা হলেন- হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার কামড়াখাই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে আব্দুল মমিন (৩০) ও একই গ্রামের নুর হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ শাহীন (২৮)। তাদের মৃত্যুর সংবাদ গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাদের বাড়িতে পৌঁছে। এরপর থেকে নিহতদের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম।


গ্রিসের পুলিশ সে দেশের সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছে কে বা কারা এই দুই বাংলাদেশিকে হত্যা করে পরিত্যক্ত দুটি কনটেইনারের পৃথক পৃথক রুমে রেখে যায়। তাদের একজন মাথায় ও আরেকজন গলায় গুলিবিদ্ধ ছিলেন। গ্রিসে দুই যুবকের লাশ উদ্ধারের খবরে তাদের স্বজদের মধ্যে চলছে শোকের মাতম। গ্রিসের প্রচলিত আইনে এই হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচারের জন্য বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন গ্রিসের সভাপতি হাজী আব্দুল কুদ্দুস।


গ্রিস আওয়ামী লীগের সভাপতি মান্নান মাতুব্বর জোর দাবি জানিয়েছেন, নিহত আব্দুল মমিনের চাচা মিজানুর রহমান জানান, ১৪ বছর ধরে মমিন বিদেশে অবস্থান করছেন। এর মধ্যে গ্রিসে ১০ বছর ধরে বৈধভাবে বসবাস করছিলেন। কী কারণে তার ভাতিজাকে খুন করা হয়েছে তিনি কিছুই জানেন না। তার ভাতিজাকে হত্যার বিচার চেয়ে দ্রুত সরকারি ব্যবস্থাপনায় লাশ দেশে আনার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানান তিনি। 


নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ মহি উদ্দিন বলেন বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক তবে পরিবারের পক্ষ থেকে লাশ দেশে আনার জন্য সহযোগিতা চাইলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে। হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা জানান বিষয়টি শুনেছি নবীগঞ্জ পুলিশ নিহতদের বাড়িতে গিয়ে বিস্তারিত খোঁজখবর নিচ্ছেন।

মাধবপুরে গাঁজাসহ ১ মাদক কারবারি আটক

মাধবপুরে গাঁজাসহ ১ মাদক কারবারি আটক


লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার ধর্মঘর স'মিল এলাকায় অভিযান চালিয়ে গাঁজাসহ মোঃ মোরশেদ মিয়া(২৫) নামে ১ মাদক কারবারিকে আটক করেছে কাশিমনগর পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশরা।

(১৬ই সেপ্টেম্বর) বুধবার সকাল ১০ দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাধবপুর থানার কাশিম নগর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মোরশেদ আলমের নেতৃত্বে এ এস আই মোস্তফা সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ১ কেজি ভারতীয় গাঁজাসহ  মাদক কারবারিকে আটক করা হয়।


আটককৃত মাদক কারবারি মাধবপুর উপজেলার ধর্মঘর ইউনিয়নের আয়লাবই গ্রামের মৃত মস্তু মিয়ার ছেলে মোঃ মোরশেদ মিয়া (২৫) পরে একই দিন দুপুরে মাধবপুর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) আয়েশা আক্তার এক্সক্লুসিভ ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে আটককৃত মাদক কারবারিকে ৬ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করে জেল হাজতে পাঠান।

হবিগঞ্জে একাদশে ভর্তিতে অতিরিক্ত ফি আদায়

হবিগঞ্জে একাদশে ভর্তিতে অতিরিক্ত ফি আদায়




লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃহবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ উপজেলার সদরের সরকারি ডিগ্রি কলেজে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণির ভর্তি বাবদ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ফি আদায় করা হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা গেছে, কলেজ কর্তৃপক্ষ ভর্তি ফি আদায়ে শিক্ষাবোর্ডের নির্দেশনা না মেনে ২ হাজার ৭৪০ টাকা পর্যন্ত আদায় করছে।

শিক্ষাবোর্ডের নির্দশনা অনুযায়ী একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে উপজেলা সদরে ১০০০, জেলা সদরে ২০০০ ও বিভাগীয় শহরে ৩০০০ টাকা নেওয়ার নির্দেশনা রয়েছে এর বেশি নিলে কেন বেশি নেওয়া হলো তা ব্যাখ্যা করতে হবে। 


অথচ আজমিরীগঞ্জ সরকারি ডিগ্রি কলেজে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি বাবদ মানবিক ও বাণিজ্য শাখায় ভর্তি ফি ২ হাজার ৫৪০ টাকা ও বিজ্ঞানে ২ হাজার ৭৪০ টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে । এতে আজমিরীগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের সুনাম নষ্ট হচ্ছে বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী। ১৯৯৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় আজমিরীগঞ্জ সরকারি ডিগ্রি কলেজ। গত ২০১৮ সালের ৮ আগস্ট জাতীয়করণ হয় কলেজটি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন শিক্ষার্থীর অভিবাবকরা জানান আবুল এন্টারপ্রাইজ এবং নিতাই টেলিকম। 


নামের দুইটি বিকাশ এবং শিউর ক্যাশ এজেন্টের মাধ্যমে ভর্তি ফি ২৫০০ এবং ২৭০০ টাকা জমা দিয়েছেন তারা। সঙ্গে বিকাশ ও শিউর ক্যাশ ফি বাবদ এজেন্টদের দিয়েছেন আরও ৪০ টাকা করে। এ ব্যাপারে জানার জন্য আজমিরীগঞ্জ সরকারি ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ শামসুল আলমের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, মানবিক ও বাণিজ্য শাখায় ২৫০০ এবং বিজ্ঞান শাখায় ২৭০০ টাকা করে সরকারি নিয়ম মেনেই ফি নেওয়া হচ্ছে তবে প্রতিষ্ঠানটিতে সরকারি শিক্ষক কর্মচারী ছাড়াও অনেক। 


বেসরকারি শিক্ষক ও কর্মচারী থাকায় তাদের বেতনের জন্য আমরা এই টাকা নিচ্ছি। জানা গেছে জাতীয়করণের পরে পূর্বের কলেজ কমিটি বিলুপ্তির পর এখন পর্যন্ত নেই কোনো কলেজ পরিচালনা কমিটি। কেন এখন পর্যন্ত কলেজ পরিচালনা কমিটি হচ্ছে না তাও জানেন না কেউ এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) উত্তম কুমার দাশ জানান, সরকারি পরিপত্র মোতাবেক একাদশে ভর্তি ফি নিতে হবে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী, উক্ত ভর্তি ফি’র বেশি নিলে কেন বেশি নেওয়া হচ্ছে তা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে।

পটিয়া পৌর ১ ও ২ ৩ নং ওয়ার্ডে বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত

পটিয়া পৌর ১ ও ২ ৩ নং ওয়ার্ডে বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত


সেলিম চৌধুরী, পটিয়া প্রতিনিধিঃপটিয়া পৌরসভা সুচক্রদন্ডী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১- ২-৩ নং ওয়ার্ডের বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত হয়।  এতে প্রধান অতিথি হিসেবে   ছিলেন পটিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ বোরহানউদ্দিন । বিশেষ অতিথি ছিলেন  পটিয়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র চার চার বারের কাউন্সিলর  ইন্জিনিয়ার  রুপক কুমার সেন। ৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোঃ আবু ছৈয়দ,  প্রধান বক্তা ছিলেন   ১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোঃ আবদুল খালেক,মহিলা কাউন্সিলর ১ ২ ৩ মোছাম্মাদ জনাবা বুলবুল আখতার এবং পটিয়া থানার এস আই মোঃ নাছির উদ্দীন, পটিয়া পৌরসভা আওয়ামী যুবলীগ সভাপতি নুরুল আলম সিদ্দিকী  সহ আরো অনেক নেতা কর্মী উপস্থিত ছিলেন এই সময় বক্তৃরা বলেন, পটিয়ার অবিভাবক  মাননীয় হুইপ আলহাজ্ব শামসুল হক চৌধুরীর নির্দেশ পটিয়ায় কোনো মাদক ও ভূমিদস্যু ও সন্তাস মুক্ত পটিয়া চাই। তাই আমরা এই ধারাবাহিকতায় আমরা এই পটিয়াকে  মাদক মুক্ত সমাজ গড়তে সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান। মাদক যেখানে প্রতিবাদ হবে  সেখানে। পটিয়া থানার ওসি মোঃ বোরহান উদ্দীন বলেন, মাদক মুক্ত সমাজ গড়ে তুলতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। আপনার সন্তান কোথায় যায় অভিভাবকদের খোঁজ খবর রাখতে হবে এলাকার জনপ্রতিনিধি সহ সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জনগণের সাথে মিলেমিশে কাজ করলে পটিয়াকে মাদকমুক্ত করার সম্ভব ।

নওগাঁর আত্রাইয়ে ট্রাক্টরের চাকায় পিষ্ট হয়ে গৃহবধূ নিহত

 নওগাঁর আত্রাইয়ে ট্রাক্টরের চাকায় পিষ্ট হয়ে গৃহবধূ নিহত


মোঃ ফিরোজ হোসাইন 

রাজশাহী ব্যুরো


 নওগাঁর আত্রাইয়ে উপজেলার রসুলপুর এলাকায় ট্রাক্টরের চাকায় পিষ্ট হয়ে মটরসাইকেল যাত্রী গৃহবধূ রুপালী বেগম (৩৫) নিহত হয়েছেন।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। তবে দুর্ঘটনা পর পর ট্রাক্টর চালক পালিয়ে যায়।

নিহত রুপালী বেগম উপজেলার আহসানগঞ্জ ইউনিয়নের চৌরবাড়ি গ্রামের খলিল হোসেনের স্ত্রী।

জানা যায়, বুধবার দুপুরে রুপালি বেগম তার আত্মীয়র সাথে মটরসাইকেল যোগে বাড়ি থেকে ভবানীপুর বাজারে কেনাকাটার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। পথের মধ্যে উপজেলার ছোট রসুলপুর এলাকায় পৌচ্ছালে পেছন থেকে একটি ট্রাক্টর মটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। সাথে সাথে রুপালী বেগম ছিটকে পড়ে মাথায় গুরুত্বর আঘাত পায় এবং ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।

এ ব্যাপারে আত্রাই থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোসলেম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।

মহম্মদপুরে প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু!

মহম্মদপুরে প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু!

মোঃকুতুবুল আলম,মহম্মদপুর(মাগুরা)প্রতিনিধিঃমাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার আওনাড়া গ্রামে কেয়া খাতুন (২২) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। আজ বুধবার (১৬ ই সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে তিনটার দিকে খবর পেয়ে তাঁর লাশ হাসপাতাল থেকে  মর্গে পাঠায় মহম্মদপুর থানা পুলিশ।


স্থানীয় বাসিন্দাদের সূত্রে জানা যায়, কেয়া খাতুন উপজেলার দীঘা ইউনিয়নের আওনাড়া গ্রামের দুবাই প্রবাসী সজিব শেখের স্ত্রী। 


শ্বশুরবাড়ির স্বজনেরা কেয়ার লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে গেছেন বলে অবিযোগ উঠেছে।


 এক বছর আগে উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের চৌবাড়য়িা গ্রামের ফসিয়ার রহমান মোল্যার মেয়ের সাথে একই উপজেলার দীঘা ইউনিয়নের আওনাড়া গ্রামের আবুল শেখের ছেলে সজিব শেখের বিয়ে হয়। বিয়ের তিন মাস পর স্বামী সজিব দুবাই চলে যান। তার কোন সন্তান নেই। 

প্রতিবেশীরা বলেন, আজ বেলা পৌনে একটার দিকে গলায় ওরনা প্যাঁচানো ঝুলন্ত অবস্থায় ঘরে কেয়ার লাশ পাওয়া যায়।

ফলোআপঃ আশাশুনিতে সাবেক ভারপ্রাপ্ত উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের নিউজ প্রকাশ, মুখ খুলছে নির্যাতিত শিক্ষকরা

 ফলোআপঃ আশাশুনিতে সাবেক ভারপ্রাপ্ত উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের নিউজ প্রকাশ, মুখ খুলছে নির্যাতিত শিক্ষকরা


উপজেলা প্রতিনিধি: আশাশুনিতে সাবেক ভারপ্রাপ্ত উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও অনিয়মের নিউজ প্রকাশ হওয়ায় পর মুখ খুলতে শুরু করেছেন নির্যাতিত প্রধান শিক্ষকরা। অন্যদিকে জানাগেছে, দূর্নীতি, অনিয়ম ও অর্থ আত্মসাতের প্রমাণ লোপাটের জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছেন উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার রবিউল ইসলাম। ২০১৯-২০ অর্থবছরে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য অটিস্টিট ডিভাইস ক্রয় বাবদ বরাদ্ধকৃত (ভ্যাটসহ) ৯৫ হাজার টাকার ক্রয়কৃত মালামাল ও বিতরণের তালিকার অফিস কপি দেখতে চাইলে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার গাজী ছাইফুল ইসলাম বলেন, যেহেতু আমার আশাশুনিতে যোগদানের আগের বিষয় এটি। তারপরও এ সংক্রান্ত কাগজপত্র অফিসের প্রধান সহকারীর কাছে থাকার কথা।


উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের প্রধান সহকারী সিরাজুল ইসলামের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি প্রতিবেদককে বলেন, আমার কাছে এ সংক্রান্ত কাগজপত্রের এক কপি থাকার কথা। আমি রবিউল ইসলাম স্যারের কাছে চেয়েছিলাম কিন্তু তিনি আমাকে অটিস্টিট ডিভাইস ক্রয় বা বিতরণের কাগজপত্রের কোন কপি দেননি।


রবিউল ইসলামের ভারপ্রাপ্ত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের দায়িত্ব পালন কালে তার নির্দেশে পরপর দুটি মডেল টেস্টে শিক্ষার্থীদের থেকে প্রশ্ন ফি বাবদ বেশি অর্থ আদাইয়ের প্রতিবাদ করায় উপজেলার ১৬নং শীতলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল কালামের বিরুদ্ধে অসদাচরন ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ এনে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট বিভাগীয় মামলার সুপারিশ করেন তিনি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম প্রতিবেদককে বলেন, রবিউল ইসলাম স্যারের ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব পালনকালে মডেল টেস্ট মিটিংয়ে শিক্ষার্থীদের থেকে অতিরিক্ত ফি আদায়ের প্রতিবাদ করলে এখানে উপস্থিত প্রধান শিক্ষকদের মধ্যে পক্ষ-বিপক্ষ নিয়ে বাক-বিতন্ডা শুরু হয়। এসময় রবিউল ইসলাম স্যার শিক্ষকদের একপক্ষের সমর্থন করে বাকবিতণ্ডা আরেকটু বেগবান করতে সহযোগিতা করেন। পরবর্তীতে বিনা নোটিশে বিনা তদন্তে আমার বিরুদ্ধে অসদাচরন ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ এনে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে বিভাগীয় মামলার সুপারিশ করেন। আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগে উল্লেখ আছে আমি অসদাচরণ করি। এখন আমার প্রশ্ন হলো, গরীব এলাকার অসহায় অভিভাবকের বাচ্চাদের থেকে প্রশ্ন ফি বাবদ অতিরিক্ত অর্থ আদায়ে ভ্যাটো দেওয়া কি অসদাচরণের আওতায় পড়ে ? আমি শীতলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যোগদান করি ১৭ সেপ্টেম্বর-২০১৭ কিন্তু আমার বিরুদ্ধে ২০১৫-১৬, ২০১৬-১৭ ও ২০১৭-১৮ অর্থ বছরের স্লিপেরসহ অন্যান্য আর্থিক খাতের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে যেটা সম্পূর্ণ অযৌক্তিক ও হয়রানিমূলক। আমার বিরুদ্ধে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে থাই গ্লাসের বরাদ্ধকৃত টাকার অধ্যেক কাজ করা হয়েছে। কিন্তু ভ্যাটসহ দেড় লক্ষ টাকা ব্যায়ে ৩৬০ বর্গফুট, ১০জোড়া অর্থাৎ ২০ পিচ থাইগ্লাস লাগানো হয়েছে যেটা এখনও দৃশ্যমান। আমি যোগদানের পর থেকে যাবতীয় অর্থনৈতিক বিষয় তৎকালীন সহকারী শিক্ষা অফিসার মনির আহমেদ ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মাহাতাব উদ্দিনের উপস্থিতে হয়েছে। এমনকি উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার আক্তার হোসেন, উপজেলা সহকারী ইঞ্জিনিয়ার ও তৎকালিন সহকারী শিক্ষা অফিসার শাহাজান আলীর প্রত্যায়নের মাধ্যমে থাইগ্লাসের অর্থনৈতিক কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়েছে। 


এছাড়া কুল্যা ইউনিয়নের আগড়দাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এস এম আলাউদ্দিনের বিরুদ্ধে বেনামী অভিযোগের তদন্ত সম্পন্ন করার উদ্দেশ্যে সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম সেখানে যান। অভিযোগকারী এবং অভিযোগকারীর সঠিক কোন ঠিকানায় উপনীত হতে না পেরেও তিনি তদন্ত কাজ অব্যাহত রাখেন। সে সময়  উপস্থিত ম্যানেজিং কমিটির সদস্য, এসএমসি'র সদস্য, শিক্ষক ও অভিভাবকরা অভিযোগকারী ব্যক্তি এবং প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে সহকারি শিক্ষক কর্মকর্তা রবিউল ইসলাম সে সময় উপস্থিত সকলেরের সাথে ঢ়ূড় এবং অসদাচরণ করেন। অভিযোগ কারী ব্যক্তির কোন সঠিক ঠিকানা না পাওয়া এবং প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে কোন বিষয়ে অভিযোগ আনা হয়েছে সে বিষয়ে উল্লেখ না করে একজন শিক্ষকদের বিরুদ্ধে কিভাবে তদন্ত সম্পন্ন করতে আগ্রহী হতে পারেন একজন সহকারী শিক্ষা অফিসার। বিষয়টি নিয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। পরবর্তীতে উপস্থিত ম্যানেজিং কমিটি, এসএমসি ও অভিভাবকদের সমন্বয় ৭০ জন একত্রিত হয়ে সহকারী শিক্ষা অফিসারের এহেন কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে সিগ্নেসার করতে বাধ্য হন। বিষয়টি নিয়ে কিছু বলতে অস্বীকৃতি জানালেও বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে প্রধান শিক্ষক এস এম আলাউদ্দিন।


উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের কালকি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ ও শিক্ষকদের এরিয়া বেতন ছাড় পাওয়ায় বড়দল ক্লাস্টারে দায়িত্বে থাকা সহকারী শিক্ষা অফিসার রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে খরজ বাবদ বড় অংকের অর্থ নেওয়ার অভিযোগ আসে। এবিষয়ে জানতে চাইলে কালকি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জয় প্রকাশ প্রতিবেদককে জানান, বড় অংকের নয় তবে ৪ লক্ষ ২৫ হাজারের মত টাকা খরজ বাবদ দেয়া হয়েছিলো। এর মধ্যে উপজেলা উপজেলা হিসাব রক্ষণ অফিস এবং প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের খরজ ও দেখানো হয়েছে। এসবের মাধ্যম ছিলেন, রবিউল ইসলাম স্যার।


তৎকালীন সময়ে প্রতিবন্ধীদের জন্য অটিস্টিক ডিভাইস ক্রয় ও বিতরনে অনিয়মের বিষয়ে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের সাথে কথা বললে তিনি প্রতিবেদককে বলেন, স্থানীয় উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার লিখিত ভাবে জানালে আমরা ব্যবস্থা নেব। আমি প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার গাজী ছাইফুল সাহেবকে লিখিত ভাবে দিতে বলে দেব।


উল্লেখ্য, কিছু দিন পূর্বে আশাশুনিতে ভারপ্রাপ্ত উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের দায়িত্ব পালনকালে উপজেলা সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে নানাবিধ অনিয়ম, দুর্নীতি, অর্থ আত্মসাতসহ ক্ষমতার অপব্যবহা

দৌলতপুরে বাড়ীর মালামাল লুটের চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

দৌলতপুরে বাড়ীর মালামাল লুটের চেষ্টা, থানায় অভিযোগ

কুষ্টিয়া জেলা  প্রতিনিধিঃকুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার আদাবাড়ীয়া ইউনিয়নে তেকালা গ্রামের মৃত রেজাউলের ছেলে জিয়াউর রহমান টিপুর বাড়ীর মালামাল লুট হয়েছে বলে জানান টিপু ও এলাকাবাসী। 


এলাকাবাসী জানান, টিপু ও তার মা বাড়ীতে না থাকার কারনে ঘরের তালা ভেংগে মালামাল লুটের চেষ্টা হয়েছে বলে আমরা শুনেছি। আমরা টিপুর মায়ের ডাক চিৎকারে তাদের বাড়িতে এসে দেখি ঘরের তালা ভাংগা ও আসরাব পত্র এলোমেলো ভাবে ছড়ানো ছিটানো। 


এ বিষয়ে টিপু জানান,  আমি এ বিষয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছি।


টিপু লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেন, ১ নং বিবাদী শাহানাজ আমার স্ত্রী হয়। ২ নং বিবাদী আমার আপন চাচা হয়।


আমার স্ত্রী আমাকে প্রতিনিয়ত মিথ্যা সন্দেহ করে আমার সাথে ঝগড়াঝাটি করিয়া অশান্তি করে। ইং ৭/৯/২০ তারিখ বেলা অনুমানিক ১২ ঘটিকার সময় আমার স্ত্রীর সাথে পারিবারিক বিষয় নিয়ে কলহ সৃষ্টি কোরিয়া আমার চাচা মোতালেব হোসেন  সহ অন্যান্য বিভাগের যোগসাজশ কোরিয়া আমার ঘরে রক্ষিত নগদ ৪০ হাজার টাকা নিয়ে আমার স্ত্রী আমার চাচা মোতালেবের বাড়িতে চলে যায়। 


এরপর থেকে সে আমার বাড়িতে আসে না। পরবর্তীতে ১৫/৯/২০ তারিখ বেলা অনুমান ৩ ঘটিকার সময় আমি এবং আমার মা প্রয়োজনীয় কাজে বাড়ির বাহিরে গিয়েছিলাম । এই সুযোগে বিবাদী গন পরস্পর যোগসাজশে কোরিয়া আমার বাড়ির ভিতরে অনধিকার প্রবেশ করিয়া আমার ঘরে তালা ভাঙ্গা জিনিসপত্র তছনছ করিয়া জিনিসপত্র বাহির করার চেষ্টা করে। এ সময় আমার মা বাড়ির ভেতর প্রবেশ করলে আমার মায়ের ডাক চিৎকারে তারা পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশ জানায়, এ বিষয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ হয়েছে।

ফলোআপঃ যুদ্ধকালীন সময়ের ডাকাত দেলোয়ার এখন ভাতাপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা!

ফলোআপঃ যুদ্ধকালীন সময়ের ডাকাত দেলোয়ার এখন ভাতাপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা!

মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা: যুদ্ধকালীন সময়ে বাগেরহাটের বিভিন্ন এলাকায় ডাকাতির সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে মোংলার বুড়িরডাঙ্গা এলাকার বাসিন্দা মোঃ দেলোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে। তবে তিনি এখন ভাতাপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা। স্থানীয় প্রশাসনের তদন্তে ডাকাতির সাথে জড়িত থাকার সত্যতাও মিলেছে। এরপরও তিনি পাচ্ছেন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে সরকারী সকল সুযোগ সুবিধা। মুক্তিযোদ্ধার কোটায় এক সন্তানকে পুলিশে চাকুরীও দিয়েছেন তিনি। মুক্তিযুদ্ধের কয়েক যুগ অতিবাহিত হলেও মুক্তিযোদ্ধা সেজে থাকা ডাকাত দেলোয়ারের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় চরম ক্ষুদ্ধ বাগেরহাট জেলার মুক্তিযোদ্ধারা।


মোংলার বুড়িরডাঙ্গার বাসিন্দা সুদীপ সরকারের মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রনালয়ের সচিব বরাবর গত বছরের ৩০ অক্টোবর প্রেরিত একটি অভিযোগে জানা যায়, যুদ্ধকালীন সময়ে সুন্দরবনে অবস্থান করে বাগেরহাটের রাধাবল্লবসহ আশপাশের এলাকার ডাকাতি করতেন মোংলায় মুক্তিযোদ্ধা সেজে থাকা মো: দেলোয়ার হোসেন। লিখিত ওই আবেদনে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের প্রকাশিত মুক্তিভাতা তালিকায় বাগেরহাট জেলায় কোথায়ও দেলোয়ার হোসেনের নাম অন্তর্ভুক্ত  নাই। অথচ নিজ জন্মস্থান গোপন করে ভূয়া কাগজপত্র তৈরী করে নানা কুট কৌশলে মোংলায় মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্ত  করেন দেলোয়ার হোসেন। এরপর অর্থ ও কায়িক শক্তি ব্যবহার করে দালাল চক্রের মাধ্যমে বেআইনীভাবে মুক্তিযোদ্ধা গেজেটে তার নাম অন্তর্ভুক্ত  করান। যার গেজেট নম্বর ২৭৮৪।


এরপর ওই লিখিত অভিযোগের তদন্ত করে জানানোর জন্য বাগেরহাট জেলা প্রশাসকের নিকট প্রেরণ করা হয়। জেলা প্রশাসকের নির্দেশে মোংলা উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) নয়ন কুমার রাজবংশী বিষয়টি তদন্ত করেন। এরপর তিনি ২০১৯ সালের ১১ ডিসেম্বর একটি শুনানী করেন। শুনানীকালে ৩২ জন স্বাক্ষী ও ৮ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং স্থানীয় শতাধিত ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন। তদন্ত ও শুনানী শেষে চলতি বছরের ১১ মার্চ জেলা প্রশাসক বরাবর তদন্ত প্রতিবেদন পাঠান সহকারী কমিশনার (ভূমি) নয়ন কুমার রাজবংশী। জেলা প্রশাসকের নিকট প্রেরিত তদন্ত প্রতিবেদনে তদন্ত কর্মকর্তা উল্লেখ করেন, মোংলা উপজেলার বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নিখিল চন্দ্র রায় ও বাগেরহাট জেলা পরিষদের সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আঃ রহমানসহ উপস্থিত সকল মুক্তিযোদ্ধারা দেলোয়ার হোসেনকে একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে অস্বীকার করেন। 


মুুক্তিযোদ্ধা সেজে সরকারী সুযোগ সুবিধা আদায় আর সন্তানকে পুলিশে চাকুরী দেয়ার বিষয়ে দেলোয়ার হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বাগেরহাটের রাধাবল্লব এলাকার বাসিন্দা তিনি। ১৯৭১ সালে ভারতে ট্রেনিং নিয়ে নিজ এলাকায় পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধে অংশ নেন অন্য সবার সাথে এক হয়ে। মুক্তিযোদ্ধার কোটায় এক সন্তানকে পুলিশে চাকুরী দেয়ার বিষয়টি স্বীকারও করেন তিনি।


তবে বাগেরহাট জেলার কচুয়া উপজেলার রাধাবল্লব এলাকার বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের গ্রুপ কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা জিতেন্দ্রনাথ পাল জানান, ১৯৭১ সালে ৭ মার্চের পরে ভারত থেকে  ট্রেনিং নিয়ে এসে তিনিসহ ৬৫ জন কচুয়া এলাকায় যুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেন।  যুদ্ধ চলাকালীন কোন সময় দেলোয়ার হোসেন মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেননি। জিতেন্দ্রনাথ দাবী করেন, যুদ্ধকালীন সময়ে দেলোয়ার হোসেন সুন্দরবনের ডাকাত সর্দার নুর ইসলামের সাথে বনে ডাকাতির সাথে জড়িত ছিলেন।  জেলায় বিভিন্ন এলাকায় মানুষের বাড়ী ঘরে হামলা আর লুটপাট করেছেন তিনি। দেশ স্বাধীনের পর ডাকাত সর্দার নুর ইসলামের মূত্যুর পর দেলোয়ার তার (নুর ইসলামের) স্ত্রীকে বিয়ে করেন। এবং নানা বির্তকিত কর্মকান্ডের সাথে জড়িত থাকায় দেলোয়ার কখনো তার জন্মস্থান কচুয়া উপজেলায় আসতে পারেনি। মোংলাতে স্থায়ী বসবাস করতে থাকেন। এরপর সে ভূয়া কাগজপত্র বানিয়ে কোন এক সময়ে মুক্তিযোদ্ধা সেজে গেছেন। এক সন্তানকে মুক্তিযোদ্ধার কোটায় পুলিশে চাকুরী দিয়েছেন। দীর্ঘদিন প্রতারণার মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধা সেজে থাকা দেলোয়ার হোসেনকে মুক্তিযোদ্ধার তালিকা থেকে বাদ না দেয়ায় চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা জিতেন্দ্রনাথ পাল। 


এ বিষয়ে মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কমলেশ মজুমদার বলেন, একটি লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বাগেরহাট জেলা প্রশাসকের দপ্তরে চিঠি পাঠানো হয়েছে। নিয়মনুযায়ী দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য তদারকি করবেন তিনি।


এদিকে অভিযোগকারী সুদীপ সরকার বলেন, ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দেয়ার পর থেকে তাকে বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি দিচ্ছেন দেলোয়ার ও তার সহযোগীরা। একই সাথে ঢাকায় একটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় তার এক আত্মীয় কাজ করেন, তাকে দিয়েই বাগেরহাট জেলা প্রশাসককে ম্যানেজ করেছেন আর ওইসব অভিযোগ ঘায়েব করার কথা প্রচার করে বেড়াচ্ছেন দেলোয়ার। #

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারকে বদলি

 খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারকে বদলি




তুহিন রানা (আব্রাহাম) খুলনা নগর প্রতিনিধিঃখুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ (কেএমপি) কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবিরকে বদলি করা হয়েছে।


বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।


প্রজ্ঞাপন, খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবিরকে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার এবং পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) উপ-মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মো. মাসুদুর রহমানকে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার হিসেবে বদলি করা হয়েছে।

অন্যদিকে কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এ বি এম মাসুদ হোসেনকে রাজশাহী জেলার পুলিশ সুপার হিসেবে বদলি করা হয়েছে। এছাড়া ডিএমপির উপ-কমিশনার (ডিসি) মুনতাসিরুল ইসলামকে ঝিনাইদহ জেলার এসপি, ঝিনাইদহ জেলার এসপি মো. হাসানুজ্জামানকে কক্সবাজার জেলার এসপি এবং রাজশাহী জেলার এসপি মো. শহিদুল্লাহকে ডিএমপি সদর দফতরে ডিসি হিসেবে পাঠানো হয়েছে।


জনস্বার্থে এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর করা হবে বলে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে।

ঝিকরগাছার রেলওয়ে স্টেশনের পরিত্যক্ত স্থানে একক ভাবে লীজ ও বন্দোবস্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন

ঝিকরগাছার রেলওয়ে স্টেশনের পরিত্যক্ত স্থানে একক ভাবে লীজ ও বন্দোবস্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন

মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত, ঝিকরগাছা প্রতিনিধিঃযশোরের ঝিকরগাছা রেলওয়ে স্টেশনের পরিত্যক্ত স্থানে একক ভাবে লীজ ও বন্দোবস্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ এবং উক্ত পরিতাক্ত স্থানটি ৬নং ওয়ার্ড মুক্তিযোদ্ধাদের স্বপক্ষে দাবীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টার সময় রেলওয়ে স্টেশনের পরিত্যক্ত স্থানের সামনে পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের মুক্তিযোদ্ধাগন , স্থানীয় ব্যবসায়ী ও সাধারণ জনতা এই আয়োজন করেছেন। রেলওয়ে স্টেশনের পরিতাক্ত স্থানে একক ভাবে লীজ ও বন্দোবস্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধনে প্রধান আলোচক ছিলেন প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন আহবায়ক ও পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: ইদ্রিস আলী। 


এসময় উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই, বীর মুক্তিযোদ্ধা আনিসুর কাদির, বীর মুক্তিযোদ্ধা কবির হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ওমর আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা হানিফ সর্দার, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক, যশোর জেলা ট্রাক ও ট্যাংকলরী শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক সাধরণ সম্পাদক শওকত আলী সহ স্থানীয় ব্যবসায়ী ও সাধারণ জনতাবৃন্দ।

নোবিপ্রবি'র বঙ্গবন্ধু হলের নতুন প্রভোস্ট মজনুর রহমান

 নোবিপ্রবি'র বঙ্গবন্ধু হলের নতুন প্রভোস্ট মজনুর রহমান





নোবিপ্রবি প্রতিনিধিঃনোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের নতুন প্রভোস্ট হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়টির অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মজনুর রহমান সবুজ।


মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মো. জসিম উদ্দীন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।


বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নিজ দায়িত্বের অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে তার এই নিয়োগ বিবেচিত হবে। এই নিয়োগ যোগদানের তারিখ থেকে কার্যকর হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি মোতাবেক ভাতা ও সুযোগ সুবিধা পাবেন তিনি। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এই নিয়োগ কার্যকর থাকবে।'


এ ব্যাপারে মজনুর রহমান সবুজ বলেন, 'আমি আমার দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের জন্য সর্বোচ্চটুকু করব। বঙ্গবন্ধুর নামে হল এখানে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে চর্চার পাশাপাশি  শিক্ষার্থীরা নির্বিঘ্নে পড়াশোনা করে দেশ ও জাতির উন্নয়নে ভূমিকা রাখবে, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে কাজ করবে। আমি সবার দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করি। 


 উল্লেখ্য, মজনুর রহমান সবুজ নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির বর্তমান সাধারণ সম্পাদক। কর্মক্ষেত্রে অত্যন্ত দক্ষতা ও সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন তিনি।

শৈলকুপায় বিষপানে গৃহবধূর আত্মহত্যা

শৈলকুপায় বিষপানে গৃহবধূর আত্মহত্যা




সম্রাট হোসেন শৈলকুপা (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি:ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সালেহা খাতুন (৪২) নামে এক গৃহবধূ বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। বুধবার(১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে পৌর এলাকার ফাজিলপুর গ্রামে এঘটনা ঘটে। নিহত গৃহবধূ ওই গ্রামের সোহরাব আলীর স্ত্রী।


পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, সাংসারিক বিষয় নিয়ে স্বামীর সাথে মনোমালিন্য হয় গৃহবধূ সালেহার। বাড়ির লোকজনের চক্ষু আড়াল করে বিষপান করেন তিনি। মুমূর্ষু অবস্থায় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে শৈলকুপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।


শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ঝিনাইদহে ভ্রাম্যমাণ আদালতে বিভিন্ন ব্যক্তিকে জরিমানা

ঝিনাইদহে ভ্রাম্যমাণ আদালতে বিভিন্ন ব্যক্তিকে জরিমানা





খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধানঃকরোনার সংক্রমন রোধে সামাজিক দুরত্ব না মানা ও মাস্ক না পরার অপরাধে ঝিনাইদহে বেশ কয়েকজনকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।১৬ সেপ্টেম্বর বুধবার  সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শহরের পায়রা চত্বর, আরাপপুর, চুয়াডাঙ্গা স্ট্যান্ডসহ বিভিন্ন স্থানে এ অভিযান চালায় জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইরফানুল হক চৌধুরী।

এসময় মাস্ক না পরার অপরাধে ৯ জনকে ২২’শ টাকা জরিমানা করা হয়।

ঝালকাঠীতে দুরন্ত ফাউন্ডেশনের রাজাপুর শাখার নতুন আহবায়ক কমিটি গঠন

 ঝালকাঠীতে দুরন্ত ফাউন্ডেশনের রাজাপুর শাখার নতুন আহবায়ক কমিটি গঠন




এইচ এম জহিরুল ইসলাম মারুফ,ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃঝালকাঠী জেলার স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান

 "দুরন্ত ফাউন্ডেশন "একটি বিশ্বাস,একটি প্রত্যাশা, একটি প্রতিশ্রুতি। বাংলাদেশের জন্য সম্ভাবনাময় ভবিষ্যতে একটি বিশ্বাসী স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান। 

ছাত্র ও ছাত্রীদের নেতৃত্বেই এ সংঘঠন পরিচালিত হয়। এ সংঘঠনের প্রতিটি সদস্য নিজের ভবিষ্যত ও নিজে গড়তে ও অন্যকে সহায়তা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। সমাজ তথা সমাজের বসবাসকারী পিছিয়ে থাকা মানুষের পাশে দাড়ানোর প্রত্যয় নিয়ে১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ সালে একদল উদ্দ্যমী তরুনদের সমন্বয়ে "দুরন্ত ফাউন্ডেশন"এর প্রতিষ্ঠা।

বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ড সহ বিভিন্ন ক্রীড়া ও স্কুল শিক্ষা উপকরনের বিতরনের মধ্য দিয়ে এর যাত্রা শুরু হয়। আজকে এই প্রতিষ্ঠানটি ৩য় বছরে পদার্পণ করেছে এবং ন্যায় ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করে চলছে। আর ভবিষ্যতেও কাজ করার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।


এই সমাজসেবা মুলক কাজকে আরো সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য ঝালকাঠির রাজাপুরে নতুন  ১৯ সদস্য বিশিষ্ট ৩ মাসের জন্য আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আহবায়ক মিঠুন চক্রবর্তী ও ৬ জয় যুগ্ম আহবায়ক যথাক্রমে মোঃ নাঈম হোসেন,তরিকুল ইসলাম রবিউল,শেখর দাস,আসলাম হোসেন,আক্তারুজ্জামান আতিক ,রেজভী হাওলাদার, সদস্য সচিব মেহেদী হাসান নয়ন সহ ১১ জন সদস্য আতিকুল ইসলাম হৃদয়,হৃদয় বিশ্বাস,খাইরুল ইসলাম,নাঈম ফকির,এস এম নাফিউল ইসলাম জিহাদ,রাজু সিকদার,এইচ এম জহিরুল ইসলাম মারুফ,মেহেদী হাসান অভি,নাদিম হোসেন,এস এম জামিল হোসেন,তাওহীদ সিদ্দিক।


গত ১৫ ই জানুয়ারি সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষরিত প্যাডে প্রেসের মাধ্যমে এই কমিটি ঘোষণা করা হয়।

নবনির্বাচিত আহবায়ক কমিটি অংগীকারবদ্ধ হয় সকল সামাজিক কর্মকাণ্ডে তারা সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করবে ও সমাজের আর্থিক অস্বচ্ছল মানুষের সেবায় পাশে দাড়াবে।

খুব শিঘ্রই বিরল স্থলবন্দরের কার্যক্রম শুরু হবে - কে এম তরিকুল ইসলাম

 খুব শিঘ্রই বিরল স্থলবন্দরের কার্যক্রম শুরু হবে              - কে এম তরিকুল ইসলাম


মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ বাংলাদেশ স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কে এম তরিকুল ইসলাম বলেছেন, খুব শিঘ্রই দিনাজপুরের বিরল স্থলবন্দরের কার্যক্রম শুরু হবে। এই বন্দরের জন্য ১৭ একর জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে। ইতিমধ্যে বন্দরের অবকাঠামো নির্মান শুরু করা হয়েছে। সরকার এই বন্দরটি চালুর ব্যাপারে অনেক সজাগ রয়েছে। বর্তমানে দেশের ৮টি স্থলবন্দরের প্রস্তাবনা সরকারের হাতে রয়েছে। এর মধ্যে বিরল স্থলবন্দরে বেশি করে প্রাধান্য দেয়া হচ্ছে।১৬ সেপ্টেম্বর বুধবার দুপুর ১২টায় দিনাজপুরের বিরল উপজেলার পাকুড়া সীমান্তে বিরল স্থলবন্দরের জায়গা পরিদর্শন শেষে এক সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা গুলো বলেন।বিরল ল্যান্ড পোর্ট লিমিটেডের পরিচালক ও বিরল পৌরসভার মেয়র সবুজার সিদ্দিক সাগরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কাষ্টমস এন্ড ভ্যাট এক্সাইজের রংপুরের কমিশনার শওকত আলী সাদী, রেলের পশ্চিমাঞ্চলীয় জোনের অতিরিক্ত চীফ ইঁিঞ্জনিয়ার আসাদুল হক, দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক মোঃ মাহমুদুল আলম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রমা কান্ত রায়।অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিরল ল্যান্ড পোর্ট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সহিদুর রহমান পাটোয়ারী মোহন।প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, চীর সবুজ এই দিনাজপুর জেলা। এই জেলা মানুষ সাওতাল বিদ্রোহ, ইয়াসমিন ট্রাজেডিতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রেখেছে। এই জেলার প্রাচীন ঐতিহ্যকে শুধু দেশ নয় দেশের বাইরের মানুষদের জানাতে হবে। এর জন্য বিরল স্থলবন্দর গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখবে। অচীরেই এই বন্দরটি পূর্ণাঙ্গতা লাভ করবে। দেশের একমাত্র এই বন্দরেই রেল এবং সড়ক পথ স্থলবন্দর রয়েছে। এই বন্দর দিয়ে শুধুমাত্র ভারতে নয়, পাশাপাশি নেপালে যোগাযোগ করা সহজ হবে। ইতিমধ্যে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর সড়ক পথের নির্মান কাজ শেষ করেছে, রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ এগিয়ে এসেছে। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ এই স্থলবন্দরে একটি ষ্টেশন নির্মানের চিন্তা করছে।

শিবগঞ্জে সমাজসেবা ও শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন কেন্দ্র"র হস্তক্ষেপে বন্ধ হলো বাল্যবিবাহ

 শিবগঞ্জে সমাজসেবা ও শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন কেন্দ্র"র হস্তক্ষেপে বন্ধ হলো বাল্যবিবাহ



রাজশাহী ব্যুরো

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ  শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের হস্তক্ষেপে বন্ধ হয়েছে অত্র স্কুলের ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী  শিবগঞ্জ  উপজেলার মোবারকপুর ইউনিয়নে দাইপুকুরিয়া গ্রামে মৃত আবু বাক্কার সিদ্দিকের মেয়ে শাবনাজ। 


শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের সোস্যালওয়ার্কার,আরফাতুন নেসা জানান, শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পূনর্বাসন কেন্দ্রের ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী মোসাঃশাবনাজ খাতুন(১৩) কে গত ১০তারিখ সকালে তার মা  তার খালার অসুন্থতা কথা বলে বাড়ি নিয়ে যাই কিন্ত কৌশলে নিয়ে গিয়ে গোপনে শাবনাজ"র (১৩) সোমবার রাতে বিয়ের ব্যবস্থা করেন দাইপুরিয়া ইউনিয়নে বাগবাড়ি মিয়াপুর গ্রামের বাবর আলির ছেলে জসিম এর সাথে । গোপন সুত্রে জানতে পেরে  সমাজসেবা অফিসার এর হস্তক্ষেপে ইউনিয়ন সমাজকর্মী রাহাতজ্জামান ও দাইপুকুরিয়া ,মোবারকপুর ইউনিয়ন এর গ্রাম পুলিশ, স্থানীয় জনসাধারণের সহযোগিতায় বন্ধ করাে হয়  বাল্যবিবাহ। বাল্য বিবাহ বন্ধ করে মেয়েটিকে  শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে পাঠানো হয়। 


শিবগঞ্জ উপজেলা সমাজসেবা অফিসার কাঞ্চন কুমার দাস এর কাছে  মেয়েটির  বাল্যবিয়ের বিষয়টি যানতে চাইলে তিনি বলেন,শাবনাজ খাতুন দির্ঘদিন থেকে শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পুনর্বাসন কেন্দ্রের ভর্তি রয়েছে। আমরা তার সব রকম দেখাশুনা করছি।কিন্তু শাবনাজ"র মা কৌশলে বাড়িতে নিয়ে বাল্যবিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছিলো।আমরা খবর পেয়ে বাল্যবিবাহ বন্ধ করে তাকে শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে নিয়ে এসেছি।যতদিন সে ১৮+বয়স না হবে সে শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষন ও পুনর্বাসন কেন্দ্রেই থাকবে আমরা তার সব রকম  দেখাশুনা করবো।

দেলদুয়ার উপজেলা শাখা জাতাীয়তাবাদী যুবদলের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত

 দেলদুয়ার উপজেলা শাখা জাতাীয়তাবাদী যুবদলের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত



ডা.এম.এ.মান্নান,টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলে দেলদুয়ার  উপজেলা জাতাীয়তাবাদী যুবদলের কর্মী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।


 আজ বুধবার,১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রি. সকালে দেলদুয়ার  উপজেলা যুবদল আয়োজিত কর্মী সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, কেন্দ্রীয় যুবদলের সহসভাপতি জাকির হোসেন নান্নু।


জেলা যুবদলের আহবায়ক আশরাফ পাহেলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয়, জেলা ও উপজেলা যুবদলের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।


এতে আরও  বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় যুবদল ঢাকা বিভাগের সহ-সভাপতি মজিবুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন আনু, সি: যুগ্ম আহবায়ক, টাঙ্গাইল জেলা যুবদল খন্দকার রাশেদুল আলম রাসেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মহসিন হোসেন বিদ্যুৎসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ

ছাত্র অধিকার পরিষদের সরকারি বিএম কলেজ শাখার কমিটি গঠন সম্পন্ন

ছাত্র অধিকার পরিষদের সরকারি বিএম কলেজ শাখার কমিটি গঠন সম্পন্ন

স্টাফ রিপোর্টার,ভোলা দৌলতখানঃসরকারি বিএম কলেজে(বরিশাল) শান্তি পূর্ণ ভাবে আজ মজ্ঞল বার বিকাল পাঁচঘটিকার সময় অনুষ্ঠিত হলো ছাত্র  অধিকার পরিষদের আংশিক কলেজ কমিটি। বাংলাদেশে গনতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য ভিপি নুরুল হক নুরের নেতৃত্বে সারা দেশে ছাত্র অধিকার,যুব অধিকার,শ্রমিক অধিকার,পেশাজীবী নারী অধিকার ,প্রবাসী অধিকার পরিষদ সহ বেশ কতগুলো লিয়াজু কমিটি  ইতোপূর্বে  স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে গঠন করা হয়েছে। এই সংগঠনটি সামাজিক অধিকার সহ সব ধরনের গঠনমূলক সমালোচনায় মাঠে ছিল বরাবরের মতো সক্রিয়। কোটা সংস্কারের মত গুরুত্বপূর্ণ আইনটি একমাত্র এই সংগঠনটিই গঠনমূলক আন্দোলন করে নিশ্চিত করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় ছাত্র অধিকার পরিষদ সরকারি বিএম কলেজ (বরিশাল) কমিটি গঠন সভার আয়োজন করেন। উক্ত সভায় বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ "সরকারি বি. এম কলেজ বরিশাল" শাখার আংশিক কমিটি আগামী ১ (এক) বছরের জন্য অনুমোদন দেওয়া হয়। এই আংশিক কমিটি বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের আহবায়ক জনাব,হাসান আল মাহমুদের স্বাক্ষরিত চিঠির মাধ্যমে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন। 

কমিটিতে বিভিন্ন পদে দায়িত্বপ্রাপ্তরা হলেনঃ সভাপতি,মোঃ জিয়াউল হাসান,সহসভাপতি সোয়াইব হোসেন, অর্ন খন্দকার ও মোঃ ইলিয়াস খান,সাধারণ সম্পাদক নাজিউর রহমান নাজিম,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বনি ইয়ামিন ও পারভেজ ফকির,সাংগঠনিক সম্পাদক  সৈয়দা নাজিয়া অাফরিন,প্রচার সম্পাদক আবু বকর,দপ্তর সম্পাদক অবনী দাস,অর্থ সম্পাদক মোঃ ইসমাইল, শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক আলী আহসান ঈমান,মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক নাইমুর রহমান, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মুনতাহিরা ইসলাম আসমা,ক্রীড়াবিষয়ক সম্পাদক মোঃ ইমন হাওলাদার, বিজ্ঞান ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক মোঃ আশিকুর রহমান, সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক রাশেদ হাসান অন্তর,ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক নুরন্নাহার সুমা,তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মোঃ নাজমুল,ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মোঃ জাহিদুল ইসলাম, পরিবেশ ও জলবায়ু বিষয়ক সম্পাদক সেলিম রেজা, আইন বিষয়ক সম্পাদক আবু বকর আদনান,সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক লাইজু আক্তার।

ঝালকাঠির রাজাপুরে বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি,মোটা অংকের জরিমানা

ঝালকাঠির রাজাপুরে বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি,মোটা অংকের জরিমানা


এইচ এম জহিরুল ইসলাম মারুফ,ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধি:ঝালকাঠির রাজাপুরে বেশি দামে পেয়াঁজ বিক্রয় করার অপরাধে তিন ব্যবসায়ীকে ২৮ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।


মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলা সদরের বাগড়ি বাজার ও বাইপাস বাজারে অভিযান চালিয়ে এ জমিরানা করা হয়।


দন্ডপ্রাপ্তরা হলো উপজেলা সদরের মৃত মঈনউদ্দিন মোড়ল এর পুত্র মোঃ চুন্নু মোড়ল (৫৮), মৃত আনন্দ মন্ডল এর পুত্র অরুন মন্ডল (৬৫), মোঃ জালাল উদ্দিন হাওলাদার এর পুত্র আব্দুল লতিফ হাওলাদার (৫৩)।


জানাগেছে, ভারত পেয়াঁজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়ার সংবাদ বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রচার হওয়ায় পরে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী বেশি মুনাফা লাভের আশায় পেয়াঁজের বাজার মূল্যের চেয়ে বেশি দামে পেয়াঁজ বিক্রয় ও মজুদ করছিল। খবর পেয়ে ভ্রাম্যমান আদালত পেয়াঁজের বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখতে এ অভিযান পরিচালনা করেন।


উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক অনুজা মণ্ডল বলেন, এ অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

পাশাপোল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ইমামুল হাসান টুটুলের ১১ তম মৃত্যু বার্ষিক আজ

পাশাপোল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ইমামুল হাসান টুটুলের ১১ তম মৃত্যু বার্ষিক আজ





স্টাফ রিপোর্টারঃ  পাশাপোল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ইমামুল হাসান টুটুলের ১১ তম মৃত্যু বার্ষিক আজ।  পাশাপোল ইউনিয়নের আওয়ামী যুবলীগ ও ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে প্রভাষক মোঃ সবুজ হোসেনের গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি


১৬ সেপ্টেম্বর চৌগাছা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও চৌগাছা উপজেলা শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি পাশাপোল ইউনিয়নের জনপ্রিয় সাবেক চেয়ারম্যান শহীদ ইমামুল হাসান টুটুল ভাইয়ের ১১তম মৃত্যবার্ষিকীতে তার বিদেহী আত্মার প্রতি জানায় বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলি। 


শহীদ ইমামুল হাসান টুটুল ভাই চৌগাছা উপজেলা আওয়ামীলীগের ইতিহাসে সবচেয়ে মেধাবী ও দক্ষ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব যিনি ছাত্রজীবন থেকে শুরু করে রাজনীতির প্রতিটি পদক্ষেপে নিজের প্রতিভার স্বাক্ষর রেখেছেন। 

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ছিলো যার মৌল চেতনা, মাটি মানুষের ভালোবাসা ছিলো যার নিরন্তর ছুটে চলার প্রেরণা মানুষের ভালোবাসায় সিক্তপ্রাণ চৌগাছা উপজেলা আওয়ামীলীগ রাজনীতির অন্যতম দিকপাল ইমামুল হাসান টুটুল ভাই। 

রাজপথের বলিষ্ঠ নেতৃত্ব বজ্রকন্ঠের সুবক্তা ইমামুল হাসান টুটুল ভাই চারদলীয় জোট সরকারের আমলে আওয়ামী রাজনীতিতে -রাজপথে বলিষ্ঠ ভুমিকা রাখার কারণে  একাধিকবার তার উপর হত্যাচেষ্টা চালানো হয়।  বারবার ব্যর্থ হলে তাকে ট্রাক চাপা দিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়, মারাত্মক জখম হন মৃত্যুর সাথে লড়াই করে বাচলেও পঙ্গু হয়ে যান। পঙ্গুত্বের জীবন নিয়ে তিনি আবারো মাটি মানুষের টানে চৌগাছার আওয়ামীলীগ রাজনীতিতে সক্রিয় হন, বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সংগঠন ও জনগণের জন্যে নিবেদিতপ্রাণ থাকতেন। 

বড়ই নিদারুণ দুঃখ বেদনার বিষয় জামায়াত বিএনপির অপশক্তির চক্রান্ত আর হত্যা প্রচেষ্টা থেকে রক্ষা পেলেও সর্বজনপ্রিয় টুটুল ভাই নিজ সংগঠনের রক্তখেকো জান্তবদের হাত থেকে বাঁচতে পারেননি। নোংরা ব্যক্তিস্বার্থের অন্তরায় হয়ে ওঠায় বড্ড অকালে ঝরে গেল পরিচ্ছন্ন রাজনীতির প্রতিচ্ছবি নিপাট রাজনীতিক তৃণমূলের প্রাণ টুটুল ভাই। 

চৌগাছা উপজেলা আওয়ামীলীগ রাজনীতিতে মানবপ্রেমী আদর্শবান সৎ যোগ্য নিষ্ঠাবান প্রতিবাদীকন্ঠ নেতৃত্বের জন্য এমন নির্মম পরিহাস যেন নির্ধারিত! হায় রাজনীতি -হায় রাজপথ! এখানে এভাবে -এভাবেই এখানে রক্তের পিয়াস মেটায় ওরা... 

২০০৯ সালের ১৬ই সেপ্টেম্বর কালোরাতে নির্মমভাবে বুলেটের আঘাতে ক্ষতবিক্ষত হয়ে শেষ নিশ্বাঃস ত্যাগ করেন চৌগাছা উপজেলার রাজনৈতিক ইতিহাসের সবচেয়ে দক্ষ সংগ্রামী নেতা আমাদের সকলের প্রিয় শহীদ ইমামুল হাসান টুটুল ভাই। 

১১বছর অতিবাহিত হল ক্ষমতার প্রবল প্রতাপের কাছে আজও বিচারের বাণী নিভৃতে কেঁদে ফেরে। বিচারের প্রতিক্ষায় সন্তান হারা মা, স্বামীহারা বিধবা স্ত্রী, পিতৃহারা এতিম সন্তান,  ভাই হারানো ভাইবোন আর সহযোদ্ধা হারানো চৌগাছা উপজেলা আওয়ামীলীগ পরিবার....

পটিয়া খরনা ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি বাপ্পি চৌধুরীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার এর তীব্র নিন্দা

 পটিয়া খরনা ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি বাপ্পি চৌধুরীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার এর তীব্র নিন্দা

 


আরিফুল ইসলাম পটিয়াঃপটিয়া খরনা ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি মোহাম্মদ বাপ্পি চৌধুরীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মুহাম্মদ গোলাম সরোয়ার চৌধুরী মুরাদ,খরনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান ,খরনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ শামসুল আলম, সাধারণ সম্পাদক বাবু জয় প্রকাশ দত্ত, খরনা ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আবছার, সহ সভাপতি আবুল বশর, যুগ্ম সম্পাদক ডাঃ রাজীব চৌধুরী।সাংগঠনিক সম্পাদক আলী আজগর প্রমূখ। নেতৃবৃন্দ বলেন খরানা ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি মোহাম্মদ বাপ্পি চৌধুরী একজন পরিচ্ছন্ন রাজনীতিবীদ ও বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী গত ২রা সেপ্টেম্বর খরনা ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি বিলুপ্ত ও গঠন নিয়ে উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক হাসান উল্লার সাথে সাময়িক মতবিরোধ হওয়ায় বিশেষ কিছু মহল ষড়যন্ত্র মূলক ভাবে বিভিন্ন অপপ্রচার চালাচ্ছেন অপজিশন গ্রুপগুলো রাজনৈতিক ভাবে বাপ্পি চৌধুরী কে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং উভয় পক্ষকে বসে সকল সমস্যার সমাধান করে সুন্দর সুশৃঙ্খল রাজনীতি উপহার দেয়ার অনুরোধ জানান।

দেশের চার পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের বাজেট ঘোষণা, শীর্ষে ঢাবি পিছিয়ে জবি

 দেশের চার পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের বাজেট ঘোষণা, শীর্ষে ঢাবি পিছিয়ে জবি


ডেস্ক রিপোর্টঃকরোনাকালীন সংকটময় এই সময়ে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। দেশের সনামধন্য ৪টি বিশ্ববিদ্যালয় ঢাবি, রাবি, চবি এবং জবি এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বাজেট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং কম জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে। চলুন জেনে নেয়া যাক ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে কোন বিশ্ববিদ্যালয়ের বাজেট কত:


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ঃ ৮৬৯.৫৬ কোটি টাকার বাজেট পাস করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। খাত-অনুযায়ী বরাদ্দের মধ্যে থাকছে- বেতন বাবদ ৩০.৭১ শতাংশ, ভাতা বাবদ ২২.৭৭ শতাংশ, সরবরাহ ও সেবা বাবদ ১৪.৩৮ শতাংশ, অবসর ও অবসরকালীন সুযোগ-সুবিধা বাবদ ৩.৫২ শতাংশ এবং অন্যান্য খাতে ২.৭২ শতাংশ।

বাজেটের ৮৬.০৩ শতাংশ যা প্রায় ৭৪৮.৫৬ কোটি টাকা আসবে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) থেকে। অপরদিকে ৮.১৭ শতাংশ অর্থাৎ ৭১.৩৮ কোটি টাকা আসবে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীণ উৎস থেকে এবং বাকি ৫.৮১ শতাংশ বা ৫০ কোটি টাকার বাজেট ঘাটতি দেখানো হয়েছে।


রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ঃ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের জন্য প্রায় ৪৩৩ কোটি টাকার বাজেট পাস হয়েছে। এ বছর গবেষণা খাতে বাজেট বরাদ্দ হয়েছে ৫ কোটি টাকা। যা মোট বাজেটের মাত্র ১.১৫৪ শতাংশ। যার মধ্যে ৬০ লাখ টাকা বিশেষ বরাদ্দ পেয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়টির গবেষণা খাত।


চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ঃ ২০২০-২১ অর্থবছরে চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় চবির বাজেট ৩৫১ কোটি টাকা। পণ্য ও সেবা বাবদ সহায়তা হিসেবে ৬০ কোটি ৯০ লাখ ও পেনশন ও অবসর সুবিধা হিসেবে ৫০ লাখ টাকার বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এদিকে পরিবহন খাতে ৩ কোটি ৫০ লাখ টাকা ও ইনস্টিটিউট অব মেরিন সায়েন্স অ্যান্ড ফিশারিজ এর গবেষণা ও সক্ষমতা বৃদ্ধির খাতে ২ কোটি ৪১ লাখ ২০ হাজার টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। 


জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ঃ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় জবিতে ২০২০-২১ অর্থ বছরের ১৫৭ কোটি ৮০ লক্ষ টাকার মূল (রাজস্ব) বাজেট পাস হয়েছে। শিক্ষার্থীদের সহায়তার জন্য (দুপুরের খাবার প্রদানসহ) ১ কোটি টাকা, ছাত্র-ছাত্রীদের বৃত্তির জন্য ২ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা (যা বিগত বছরের ১০গুণ বেশি) বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। চিকিৎসা সেবা উন্নত করার লক্ষে পিসিআর ল্যাব স্থাপন বাবদ ৩ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা, জিনোম ল্যাব স্থাপন বাবদ ১ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা, চিকিৎসা সংক্রান্ত ঔষধপত্র/ব্যয় বাবদ ৩০ লক্ষ (যা বিগত বছরের দশগুণ বেশি), রোগ নির্ণায়ক যন্ত্রপাতি ও ল্যাবরেটরি স্থাপন বাবদ ২ কোটি টাকা বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। তাছাড়াও গবেষণা খাতে ২ কোটি টাকা, শিক্ষা উপকরণ ও যন্ত্রপাতি ক্রয়ে ৯ কোটি ৭ লক্ষ টাকা বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। এছাড়াও যানবাহন খাতে ৭ কোটি ৯৯ লক্ষ টাকা এবং তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে ১ কোটি ৭ লক্ষ টাকা রবাদ্দ রাখা হয়েছে।

হবিগঞ্জে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে হচ্ছে করোনা সময়ের হিসেব

 হবিগঞ্জে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে হচ্ছে করোনা সময়ের হিসেব



লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃহবিগঞ্জ জেলা পজেলায় আগামী মার্চে শেষ হতে যাচ্ছে ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদের পাঁচ বছর মেয়াদ। এ মাসেই নির্বাচনের তোড়জোড় শুরু করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ। ইতোমধ্যে নির্বাচন উপযোগী ইউনিয়ন পরিষদের তালিকাও চাওয়া হয়েছে জেলা প্রশাসকের নিকট।

এমন খবরে হবিগঞ্জ জেলাজুড়ে নড়েচড়ে বসেছেন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ইচ্ছুক প্রার্থীরা। নিরবে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন অনেকে। শোনা যাচ্ছে এবার স্থানীয় সরকার নির্বাচনে দলীয় প্রতীক না রাখার পরিকল্পনা চলছে।


তবে এ বিষয়ে এখনও চূড়ান্ত কোন সিদ্ধান্ত না হওয়ায় দলীয় মনোনয়নের দিকেই নজর দিচ্ছেন প্রার্থীরা। তারা হাট-বাজার আর দোকান পাটে কৌশলে কথা বলে যাচ্ছেন ভোটারদের সাথে।

এদিকে, করোনাকালে অনেকে গিয়েছেন কর্মহীনদের পাশে। বিপরীতে ঘরে থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রেখেছেন অনেক প্রার্থী। আবার অস্বচ্ছলদের জন্য আসা সরকারি ত্রাণ আত্মসাতের অভিযোগও রয়েছে অনেকের বিরুদ্ধে। এবারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটাররা এমন হিসেব গুণবেন বলেও ধারণা করছেন অভিজ্ঞ মহল।


খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দেশে করোনা সংক্রমন শুরুর পর থেকে অনেক বর্তমান চেয়ারম্যান দিনরাত কর্মহীনদের পাশে থেকেছেন। ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন সরকারি সহায়তা। নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি না হয়েও অনেকে চালিয়ে গেছেন সচেতনতামূলক প্রচারণা। বিতরণ করেছেন সামর্থ অনুযায়ী খাদ্য সামগ্রী। অন্যদিকে, করোনার সময়কালে জনগণের সরকারি ত্রাণ আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে অসংখ্য ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বিরুদ্ধে।


অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সাময়িকভাবে বরখাস্তও হন বেশ কয়েকজন চেয়ারম্যান এবং সদস্য। আবার চেয়ারম্যান হওয়া সত্ত্বেও ঘরে বসে থেকেছেন অনেক জনপ্রতিনিধি না পারতিমান’ ঘর থেকে বের হয়েছেন গোটা কয়েকদিন। এবারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোটাররা এসব কিছুই হিসেব করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক প্রবীণ কয়েকজন রাজনৈতিক নেতা বলেন, অনেক জনপ্রতিনিধিই করোনাকালে নানা ধরণের অনিয়ম করেছেন।


আবার দলের অনেক নিবেদিত প্রাণ জনগণের পাশে থেকেছেন নিঃস্বার্থভাবে। এমন বিষয়গুলো বিবেচনা করেই আগামীতে প্রার্থী নির্বাচন করা প্রয়োজন।

আজমিরীগঞ্জ উপজেলার বদলপুর ইউনিয়ন পরিষদের ভোটার তুহেল মিয়াকে বলেন, শুনেছি করোনার সময় অনেক সরকারি সহায়তা বিতরণ করা হয়েছে। খাবার পাওয়া তো দূরের কথা একজন জনপ্রতিনিধি আমাকে এসে কেমন আছি তাও জিজ্ঞেস করেননি। কিন্তু নির্বাচনের সময় আসছে শুনেই অনেকে ভোট চাওয়া শুরু করে দিয়েছেন


এমন বক্তব্য দিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি। বানিয়াচং উপজেলার জাতুকর্ণপাড়া এলাকার আফছার আহমেদও জানিয়েছেন একই কথা তিনিসহ তার, কয়েকজন অস্বচ্ছল আত্মীয়-স্বজন কোন সহায়তাই পাননি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং সদস্যরা নিজেদের লোক দেখেই সরকারি সহায়তা বিতরণ করেছেন বলেও অভিযোগ জানান আফছার।


হবিগঞ্জ স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক মোঃ নূরুল ইসলাম জানিয়েছেন হবিগঞ্জ জেলায় ৭৮টি ইউনিয়ন রয়েছে। সম্প্রতি জেলার ইউনিয়ন পরিষদগুলোর তথ্য চেয়ে চিঠি দিয়েছে মন্ত্রণালয় ১০ কার্যদিবসের মধ্যেই তথ্য প্রেরণ করা হবে।

লাকসামে পিয়াজ মজুত ও বেশি দামে বিক্রি করায় ভ্রাম্যমান আদালতে ৯০ হাজার টাকা জরিমানা

 লাকসামে  পিয়াজ  মজুত ও বেশি দামে বিক্রি করায় ভ্রাম্যমান আদালতে ৯০ হাজার টাকা জরিমানা

 



লাকসাম, কুমিল্লা জেলা প্রতিনিধিঃ-কুমিল্লার লাকসামে পাইকারি পিয়াজের ৭ ব্যাবসায়ীকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ৯০,০০০ টাকা নগদ অর্থ জরিমানা আদায় করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার  বিকেলে শহরের দৌলতগঞ্জ বাজারের ব্যাংক রোডে পিয়াজের পাইকারি দোকানে অধিকতর পিয়াজ মজুত ও বেশি দামে বিক্রি করার দায়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন  ৩৮/৪০ ধারায় লাকসাম উপজেলা সহকারি কমিশনার ভূমি উজালা রানী চাকমা এ অর্থ দন্ড প্রদান করেন। 

ভ্রাম্যমান আদালতে সার্বক্ষনিক মনিটরিং করেন লাকসাম পৌরসভার মেয়র অধ্যাপক মো: আবুল খায়েরসহ লাকসাম উপজেলা ও পুুলিশ প্রশাসন এবং সাংবাদিকগন।


ভ্রাম্যমানের আদালতে জরিমানা আদায়ের পিয়াজের প্রতিষ্ঠান গুলো হলো ব্যাংক রোডের মেসার্স মা ট্রেডার্সে ৩০,০০০ টাকা, সৈয়দ ষ্টোর ২০,০০০ টাকা, রহমান এন্ড সন্স  ২০,০০০ টাকা, মেসার্স বারেক ষ্টোর ৫,০০০ টাকা, কামরুল ষ্টোর ৫,০০০ টাকা, সজল ষ্টোর ৫,০০০ টাকা, মেসার্স সুশীল ষ্টোর ৫,০০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। 


এ দিকে ভ্রাম্যমান আদালতে ম্যাজিস্ট্রেটের কথা শুনে ব্যাংক রোডের রেদোয়ান এন্ড ব্রাদার্স সহ আরও কয়েকটি পিয়াজের বড় বড় পাইকারি দোকান বন্ধ করে চলে যায়।

লাকসাম আলম টাওয়ারে ইসলামী ব্যাংকের এটিএম বুথ উদ্ভোধন

 লাকসাম আলম টাওয়ারে ইসলামী ব্যাংকের এটিএম বুথ উদ্ভোধন




লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:  মঙ্গলবার কুমিল্লার লাকসামে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড এর উদ্যোগে বিকেলে  লাকসাম সরকারি হাসপাতাল রোডে অবস্থিত আলম টাওয়ারে ইসলামী ব্যাংকের এটিএম বুথ উদ্ভোধন করা হয়েছে।


ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট ও লাকসাম শাখার ব্যাবস্থাপক মো: আবুল খায়েরের সভাপতিত্বে ফিতা কেটে এটিএম বুথ শুভ উদ্ভোধন করেন লাকসাম পৌরসভার প্যানেল মেয়র-২ মো: আব্দুল আলিম দিদার।


এ সময় উপস্থিত ছিলেন লাকসাম শাখার ম্যানেজার (অপারেশন) মোস্তাফিজুর রহমান, ব্যাংক কর্মকর্তা মো: আব্দুল বাতেন, মো: আবদুল আলী, বিশিষ্ট সমাজ সেবক মো: নুরুল ইসলাম নুরু, ইঞ্জিনিয়ার মো: আবু তাহের, মো: সানাউল্লাহ, মীর হোসেন প্রমুখ।


উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে ইসলামী ব্যাংকের লাকসাম শাখার ব্যাপস্থাপক মো: আবুল খায়ের বলেন- সারা দেশের ন্যায় লাকসামে আমরা পর্যাপ্ত পরিমান এটিএম বুথ স্থাপন করেছি। গ্রাহকরা  ২৪ ঘন্টা এ সেবা গ্রহন করতে পারবেন। তিনি সর্বসাধারণকে এ সেবা গ্রহণ করার আহবান জানান। এখন থেকে ইসলামী ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে এটিএম কার্ডধারী ব্যক্তি  টাকা উত্তোলন করতে পারবেন বলে তিনি জানান। এটিএম বুথে সার্বক্ষনিক নিরাপত্তা সহ পুরো বুথ সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে নিয়ন্ত্রিত হবে।

১৬ ই সেপ্টেম্বর স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুলছে পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার।

১৬ ই সেপ্টেম্বর স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুলছে পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার।


রহমত উল্লাহ বদলগাছী নওগাঁ:সরকারি নিয়ম অনুসারে নওগাঁ জেলার বদলগাছী পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার খোলার ঘোষণা।

করনা ভাইরাসের মহামারীর প্রকোপ থেকে নিরসনে দীর্ঘদিন যাবৎ বন্ধ রাখা হয় বাংলাদেশের প্রত্নতাত্বিক অধিদপ্তর ও পর্যটন কেন্দ্র গুলি যা স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্বল্প পরিসরে ১৬ ই সেপ্টেম্বর হতে খোলার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন প্রত্নতাত্ত্বিক  অধিদপ্তর এর কর্তৃপক্ষ । 

এপরিকল্পনাকে বাস্তবে রুপ দিতে করণা মহামারীর কারণে বন্ধ থাকা বাংলাদেশের  ৫১৮ টি প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন ও ২১ প্রত্নতাত্ত্বিক জাদুঘর খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন প্রত্নতান্ত্রিক  অধিদপ্তর। 



একই সাথে বাংলাদেশের নিরূপণ নিদর্শনের চেষ্ট আতিথিয়তা ধরে রাখার একটি প্রাচীন সভ্যতার উন্মোচিত  নিদর্শন বহিবিশ্বে পরিচিত বিহার পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহার তথা সোমপুর মহাবিহার দীর্ঘদিন যাবৎ করোনা মহামারীর কারণে বন্ধ থাকলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভ্রমণ প্রেমী মানুষ দের  নিরসন ঘটিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন।

১৬ ই সেপ্টেম্বর বুধবার হতে পরিপূর্ণ ভাবে  অল্প পরিসরে বিহার  খোলার ঘোষণা দিয়েছে  প্রত্নতাত্ত্বিক  অধিদপ্তর।

ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় বিতর্ক প্রতিযোগিতায় সেরা দল

ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় বিতর্ক প্রতিযোগিতায় সেরা দল

খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার। 

খুলনা ব্যুরো প্রধান।  

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মু‌জিবুর রহমান-এঁর জন্ম শতবা‌র্ষি‌কী উপল‌ক্ষে উপ‌জেলা পর্যা‌য়ে বিতর্ক প্র‌তি‌যো‌গিতায় ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর মাধ্য‌মিক বা‌লিকা বিদ্যালয় চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন ক‌রে‌ছে। বিতার্কিকরা হল :

১. নোশিন নাওয়ার ঐশ্বর্য্য (দলনেতা), ১০ম বিজ্ঞান।

২. সায়মা আজগর সামিয়া ( ৯ম বিজ্ঞান)।

৩. তাসকিয়া তাহসিন মৌমি ( ৯ম বিজ্ঞান)।

সহযোগী হিসেবে ছিল

১. সানজিদা ইসলাম ( ৯ম বিজ্ঞান)।

২. নুসরাত জাহান (৯ম বিজ্ঞান)।

সেরা বিতার্কীক এর সম্মান পেয়েছে অত্র বিদ্যালয়ের দলনেতা নোশিন নাওয়ার ঐশ্বর্য্য। বিদ্যালয়ের জন্য এ অনন্য গৌরব বয়ে আনার জন্য বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে পুরো টিমসহ সহযোগী শিক্ষকবৃন্দকে আন্তরিক অভিনন্দন ও ধন্যবাদ। এবার জেলার প্রতিযোগিতায় জয়ের জন্য সবার কাছে দোয়া প্রার্থী। অনলাইন ভিত্তিক এ প্রতিযোগিতার সম্পূর্ণ আয়োজনে কুশীলবের দায়িত্ব পালনকারী বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক এসএম হুমায়ুন কবীরকে প্রধান শিক্ষক মহোদয় বিশেষভাবে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

সন্ধান মেলেনি কেন্দ্রীয় লাইব্রেরিতে চুরি হওয়া ১৫ কম্পিউটারের

 সন্ধান মেলেনি কেন্দ্রীয় লাইব্রেরিতে চুরি হওয়া ১৫ কম্পিউটারের


বশেমুরবিপ্রবি সংবাদদাতাঃ গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি থেকে গভীর রাতে ৪৯ কম্পিউটার চুরির ৩৪ টি উদ্ধার হলেও ১৫ টি কম্পিউটারের খোঁজ মেলেনি। চুরির ঘটনায় রাঘববোয়ালরা জড়িত কিনা সেটিও জানা যায়নি।


তবে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস.আই মিজানের ভাষ্যমতে , “অবশিষ্ট ১৫ টি কম্পিউটার উদ্ধার করা সম্ভব হয় নি। তবে আমাদের তদন্ত কাজ অব্যাহত রয়েছে।”


 গত ১৬ আগস্ট গোপালগঞ্জ জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে অ‌তি‌রিক্ত পু‌লিশ সুপার (সা‌র্কেল) মো: ছা‌নোয়ার হো‌সেন জানিয়েছিলেন আটককৃত সাত  আসামীরা জবানবন্দি দিয়ে নির্দেশদাতাদের  নাম জানিয়েছে।   তদন্তের স্বার্থে ওই সময়ে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে তখন প্রকাশ করা হয় নি।কিন্তু একমাসের অধিক সময় পরও কোথায় সেই গুপ্ত নির্দেশদাতাদের তালিকা?


বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে চুরির ঘটনায় গঠিত সাত সদস্যের তদন্ত কমিটি গত ৬ সেপ্টেম্বর তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিলেও এখন পর্যন্ত প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয় নি। এ বিষয়ে বশেমুরবিপ্রবির রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. নূরউদ্দিন আহমেদ জানান, “শৃঙ্খলা বোর্ডকে আমরা তদন্ত প্রতিবেদনের বিষয়ে অবহিত করেছি। কিন্তু শৃঙ্খলা বোর্ডের পক্ষ থেকে এখনও তদন্ত প্রতিবেদন চাওয়া হয় নি।”


উল্লেখ্য , ঈদ-উল- আযহার ছুটি চলাকালীন  বশেমুরবিপ্রবির কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি থেকে ৪৯ টি কম্পিউটার চুরি হয়ে যায়।পুলিশের অভিযানে ১৪ আগস্ট ঢাকার একটি আবাসিক হোটেল থেকে ৩৪ টি কম্পিউটার উদ্ধার করা হয়।কিন্তু বাকি ১৫ টি কম্পিউটারের হদিস আজও মেলেনি,মূলহোতারাও ধরা ছোঁয়ার বাইরে।

নোবিপ্রবিতে সুবর্ণচর স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন এর নতুন কমিটি

 নোবিপ্রবিতে সুবর্ণচর স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন এর নতুন কমিটি



নোবিপ্রবি প্রতিনিধি:নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে(নোবিপ্রবি) আগামী ১ বছরের জন্য সুবর্ণচর স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের কমিটি গঠন করা হয়েছে। এতে সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন ফলিত গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী সাজ্জাদ যোবায়ের এবং সাধারণ সম্পাদক বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন বিভাগের শিক্ষার্থী মোহাইমিনুল ইসলাম রাকিব। 


কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, সহ-সভাপতি নাজমুন তামান্না, আরাফাত তারেক, মিজবাহ উদ্দিন জিসান ও জহিরুল ইসলাম আরিফ। যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা, হান্নানুর রশিদ, আবরার হাসান, মো. আজগর হোসেন, ফানা উল্ল্যাহ রকি।  সাংগঠনিক সম্পাদক সাইয়্যেদুল আবরার। সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অজয় মজুমদার। অর্থ সম্পাদক সাদিয়া আফরিন, প্রচার সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, দপ্তর সম্পাদক আজগর হোসেন,  শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ফাতেমা আক্তার মিতু, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাাক আজিজুল হক মধু, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আরিফ উল্ল্যাহ। এছাড়াও সদস্য হিসেবে ওমর ফারুক, আজহারুল ইসলাম সজীব, জহিরুল ইসলাম রুবেল, দিদার হোসাইন মামুন নির্বাচিত হয়েছেন।


জানা যায়, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে সুবর্ণচরের শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন অধিকার আদায়ের সবচেয়ে বড় এবং একমাত্র  প্ল্যাটফর্ম  হিসেবে কাজ করে আসছে এ সংগঠনটি। 


সংগঠনটির নবনির্বাচিত সভাপতি সাজ্জাদ যোবায়ের বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি-ইচ্ছুক সুবর্ণচরের শিক্ষার্থীদের ফ্রি কোচিং(সেতুবন্ধন)  সেবা প্রদানে অংশগ্রহণ,   নোবিপ্রবির প্রতি সেশনের ভর্তি পরীক্ষায় সুবর্ণচরের শিক্ষার্থীদের জন্য ভলেন্টিয়ারিং, অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের ভর্তি কার্যক্রমে সহায়তা, ইফতার অনুষ্ঠান, খেলাধুলার আয়োজনসহ অতীতের ন্যায় আগামীতে অ্যাসোসিয়েশন এসব কার্যক্রম অব্যাহত রাখবে। তিনি আরো বলেন, সুবর্ণ সন্তান নোবিপ্রবি ১৩ ব্যাচের মেধাবী শিক্ষার্থী প্রয়াত সাইফ উদ্দিনের চিকিৎসা সহায়তা তহবিল গঠনে  "সুবর্ণচর স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন " এর ব্যানারে আমাদের  প্রত্যক্ষ অংশগ্রহণ ছিল। শেষ চেষ্টায়ও সাইফকে আমাদের মাঝে আনতে পারিনি। তিনি সাইফের বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেছেন। একইসাথে তিনি আশাবাদ রাখেন যে, আগামী দিনে নোবিপ্রবিতে সুবর্ণচরের  শিক্ষার্থীদের যেকোন প্রয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার এবং সুবর্ণচরের সর্বস্তরের নেতৃবৃন্দের সংঘবদ্ধ করে এসোসিয়েশনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়াবেন। একইসাথে নতুন কমিটির সবাইকে নিয়ে  নতুন প্রচেষ্টায় ঐক্যবদ্ধ থেকে সংগঠনকে এগিয়ে নেয়ার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন তিনি।

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের তত্ত্বাবধানে পতেঙ্গা থানা সী বিচ বৃক্ষ চারা বিতরণ

 চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের তত্ত্বাবধানে  পতেঙ্গা থানা সী বিচ  বৃক্ষ চারা  বিতরণ

 



 মোঃসাদ্দাম হোসেন রনি চট্টগ্রাম প্রতিনিধি :বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার

নির্দেশে,মুজিব বর্ষ  পালনের অংশ হিসেবে সারাদেশে ১কোটি গাছে লাগাবার নির্দেশনা মোতাবেক 

চট্টগ্রাম  মহানগর আওয়ামী লীগের  তত্ত্বাবধানে, ৪১ নম্বর ওয়ার্ড দক্ষিণ পতেঙ্গা সী বিচ 

গাছের চারা বিতরণ,

 

আজ ১৫ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার দক্ষিন পতেঙ্গা ওয়ার্ডের  সী বীচে  চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ৪৩ টি সাংগঠনিক ওয়ার্ড জুড়ে বাস্তবায়িত বৃক্ষ চারা বিতরণ কর্মসূচির সমাপনী  অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির  বক্তব্যে সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির   তিনি এই নির্দেশনা দেন। 

তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী স্মরণে সারাদেশে এক কোটি গাছের চারা রোপণ করার নির্দেশনা দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু করোনা কাল ও ৩৪ জেলায় বন্যার কারণে আমাদের কর্মসূচি বাস্তবায়নে সাময়িক সমস্যা হয়েছে। তবে সারাদেশে এককোটি নয় এই কর্মসূচির আওতায় আমাদের প্রায় পাঁচ থেকে সাত কোটি  গাছের চারা লাগানোর সক্ষমতা  রয়েছে।  

তিনি আরো বলেন, সমুদ্র, পাহাড় পরিবেষ্টিত এই চট্টগ্রামের মানুষ যেকোন প্রাকৃতিক দুর্যোগের পূর্বাভাস পেলে আতংকে থাকেন। জীবনের ঝুঁকিতে অনিদ্রায় রাত কাটান। প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে এই চট্টগ্রামকে বাঁচাতে হলে বৃক্ষ রোপনই একমাত্র উপায়। 


অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, বৃক্ষ চারা রোপণ কর্মসুচির আওতায় এবার নতুন উদ্যোগ বাস্তবায়ন করা হবে। নগরের পাহাড় ধস, সিলট্রেশন রোধ করার জন্য সকল পাহাড়ে বৃক্ষ রোপন করা হবে। প্রতি বর্ষা মৌসুমে এই চট্টগ্রাম মহানগরে পাহাড় ধসে নিরীহ লোকের প্রানহানি ঘটে। আবার ভূমি দস্যুরা পাহাড় দখল করে রাতের আঁধারে মাটি  কেটে পাহাড়গুলো নিশ্চিহ্ন করে ফেলছে। তাই পাহাড় বাঁচাতে হলে বৃক্ষ রোপনের বিকল্প নেই।   মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে এবার পাহাড়গুলোতে গাছ রোপন করা হবে। একই সাথে উপকূলীয় অঞ্চলে ও নদী অববাহিকায় গাছের চারা রোপণ করবে নগর আওয়ামী লীগ। 

তিনি আরো বলেন, কাগজে কলমে কমিটিতে অনেকেই পদে আছেন। কিন্তু সাংগঠনিক কোন কর্মকান্ডে তাদের দেখা যাচ্ছে না।  বাহ্য দৃষ্টিতে দলের সাংগঠনিক শক্তি দৃশ্যমান হলেও বাস্তবতা ভিন্ন। ৪৩ ওয়ার্ড ও ১২৯ টি ইউনিট কমিটি রয়েছে। একেকটা কমিটির বয়স ১৫-৩০ বছর পর্যন্ত হয়েছে। নেতাদের অনেকেই পদে থেকে মৃত্যু বরণ করেছেন। আবার বয়সের ভারে অনেকেই বর্তমানে নিস্ক্রিয়। এতে করে প্রত্যেকটি কমিটির অনেক পদে শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে। কেন্দ্রের নির্দেশনা মোতাবেক ইউনিট,ওয়ার্ড এবং থানা কমিটিগুলোতে  শূণ্যপদ পূরণের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সাংগঠনিক রীতি অনুযায়ী  চেইন অব কমান্ডের ভিত্তিতে  শূণ্য পদে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করা হবে। এ ব্যাপারে আগামীকাল ১৬ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত বর্ধিত সভায় চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। 


 উপস্থিত ছিলেন 

দক্ষিণ পতেঙ্গা ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি সালেহ  আহমদ চৌধুরী সভাপতিত্ব  ও  সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন নগর আওয়ামীলীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, সহসভাপতি চসিক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন, যুগ্ম সম্পাদক মেয়র প্রার্থী রেজাউল করিম চৌধুরী, এম এ রশিদ,  উপদেষ্টা শফর আলী , সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, বন ও পরিবেশ সম্পাদক মসিউর রহমান চৌধুরী, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক দিদারুল আলম চৌধুরী,তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর , আইন সম্পাদক এড শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরীসহ মহানগর

যুবলীগ নেতা ওয়াহেদ চৌধুরী ছাত্রলীগ সভাপতি আহসান হাবিব সেতু  ,আরো সম্মানিত ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন  ৩৯ নং  ও  ৪০ নং ৪১ নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ যুবলীগ ছাত্রলীগ মহিলা যুব লীগ কৃষকলীগের   নেতৃবৃন্দ সদস্যবৃন্দ  বক্তব্য রাখেন

করোনায় মারা গেলেম পটিয়ার সৌদি প্রবাসী ওমর ফারুক

 করোনায় মারা গেলেম পটিয়ার সৌদি প্রবাসী ওমর ফারুক




 সেলিম চৌধুরী স্টাফ রিপোর্টারঃ- করোনায় আক্রান্ত হয়ে সৌদি আরবে মারা গেলেন চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার কাশিয়াইশ ইউনিয়নের ভান্ডারগাঁও এলাকার বাসিন্দা   ওমর ফারুক (৪০) নামের এক ব্যক্তি।১৫ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার  সৌদি আরবের জেদ্দার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। ওমর ফারুক ভান্ডারগাঁও গ্রামের মৃত ইছহাকের পুএ। সে  ২ সন্তানের জনক।বিষয়টি চ নিশ্চিত করেছেন তার প্রবাসী  বন্ধু হাজী দিদারুল আলম। মদিনার হাজ্বী দিদারুল জানান,গত ২৮ আগস্ট করোনা উপসর্গ নিয়ে সৌদিআরবের জেদ্দার একটি হাসপাতালে ভর্তি হন আমার বন্ধু  ওমর ফারুক। সেখানে ১৮ দিন ধরে ফারুকের   চিকিৎসা চলছিল। ১৫ সেপ্টেম্বর  মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় দুপুর একটার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। পটিয়ার কাশিয়াইশ ইউনিয়নের ভান্ডারগাঁও গ্রামের মোঃ ইছাক এর পুএ     ওমর ফারুক ১৫ বছর ধরে প্রবাসে রয়েছেন। তিনি সৌদি আরবের জেদ্দা নগরে নিজের ব্যবসা পরিচালনা করতেন। সৌদি সরকারের নিয়ম অনুযায়ী নিহতের লাশ সেখানেই দাফন করা হবে বলে জানা গেছে তার বন্ধু দিদারুল আলম(মদিনা)।  



গরীবে নেওয়াজ এর ডায়েরি, সিলেবাস ও ব্যাচের টাকা এতবছর ধরে কোথায় যেত?

গরীবে নেওয়াজ এর ডায়েরি, সিলেবাস ও ব্যাচের টাকা এতবছর ধরে কোথায় যেত?





নিউজ ডেস্কঃ চট্টগ্রাম মহানগরীর হালিশহরে অবস্থিত গরীবে নেওয়াজ উচ্চ বিদ্যালয়ে নানা অভিযোগ ও পাল্টা অভিযোগ চলে আসছে কয়েকমাস ধরে। এবার সামনে এসেছে ডায়েরি, সিলেবাস ও ব্যাচের টাকা তসরুপ নিয়ে অভিযোগ। 


বর্তমানে প্রায় ৩ হাজার শিক্ষার্থীদের পাঠদান করে যাচ্ছে গরীবে নেওয়াজ উচ্চ বিদ্যালয়। তারই ধারাবাহিকতায় প্রতিবছর এরই সমপরিমাণ ডায়েরি, সিলেবাস ও ব্যাচ বিক্রি করা হয়। 

২০১৬,১৭ ও ১৮ সালে ওডিট রিপোর্ট অনুযায়ী ডায়েরি,সিলেবাস ও ব্যাচ এর জন্য প্রতি শিক্ষার্থী থেকে ১৭০ টাকা করে নেয়া হয়। কিন্তু এ বিশাল পরিমাণ অর্থ স্কুলের ফান্ডে জমা করা হয়নি। খবর পাওয়া গেছে, ২০১২ সাল থেকেই এ টাকাগুলো স্কুল ফান্ডে জমা না হয়ে শিক্ষকদের কল্যান ফান্ডে জমা হত। কিন্তু বর্তমানে স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি ২০১৯ ও ২০ সালে এগুলোর মান একই রেখে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ১২০ টাকা করে নিচ্ছে এবং টাকাগুলো স্কুল ফান্ডে জমা হচ্ছে। 


এবিষয়ে বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের কাছে জানতে চাওয়া হলে তারা বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য প্রধান শিক্ষক কে নোটিশ করা হয়েছিল। কিন্তু সে নোটিশ সময় মোতাবেক আমাদের সামনে হাজির হন নি। তাই আমরা এবার পরবর্তী করনীয় পালন করব।


একইবিষয় নিয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম এর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও তা সম্ভব হয়নি।


একেকটা অভিযোগ সামনে আসার পর বেড়েই চলেছে অভিভাবকদের ক্ষোভ। নতুন করে যুক্ত হয়েছে, এটা। 


সাধারণ শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের এখন এটাই প্রশ্ন, প্রধান শিক্ষক কি পারবেন এ প্রশ্নের জবাব দিতে?

সিরাজগঞ্জ কাজিপুরে ৩ গরু চোর আটক

 সিরাজগঞ্জ কাজিপুরে ৩ গরু চোর আটক




মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃসিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার গান্ধাইল ইউনিয়নের পশ্চিম দুবলাই গ্রামে তিন গরুচোরকে আটক করেছে গ্রামবাসী। স্থানীয় গ্রামবাসী ও থানাসূত্রে জানা গেছে, আজ মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টম্বর) রাত্রী সারে ৩টায় চোরের দল উপজেলার পশ্চিম দুবলাই গ্রামের মৃত- আব্দুর রহমানের পুত্র আব্দুল হাইয়ের গোয়াল ঢোকে।

একপর্যায়ে তারা গরু বের করে পূর্বে থেকে প্রস্তুত রাখা মিনি পিকআপে উঠানোর চেষ্টা করে। এসময় গ্রামের লোকজন ও গরুর মালিক টের পেয়ে চোরদের ধাওয়া দিয়ে ধরে ফেলে। খবর পেয়ে কাজিপুর থানা পুলিশ আটককৃদের থানায় নিয়ে আসে।

আটককৃতরা হলো- উপজেলার চালিতাডাঙ্গা গ্রামের ইদ্রিস আলীর পুত্র শফিকুল ইসলাম (৩৪), মাথাইলচাপড় গ্রামের হাছান আলীর পুত্র শরিফ উদ্দিন (২৭) ও বরর্শীভাঙ্গা গ্রামের আব্দুল খালেকের পুত্র গোলাম মোস্তফা (২৮)। কাজিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ পঞ্চনন্দ সরকার জানান, রাত্রীতে চোরদের ধরার জন্য আমাদের টহল পুলিশ জোরদার করা হয়েছে। চোরদের ধরতে আমাদের অভিযান চলমান থাকবে।

তিনি আরো বলেন, ‘আটককৃতদের বিরুদ্ধে নিয়মিত চুরির মামলা দায়ের করা হয়েছে। উল্লেখ্য যে, গত মাসেও এই গ্রাম থেকে ৮ টি গরু চুরি হয়েছে।

সিরাজগঞ্জে অরুণ এর ৬ষ্ঠ মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে স্মরণ সভা মাসুদ রানা

সিরাজগঞ্জে অরুণ এর ৬ষ্ঠ মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে স্মরণ সভা মাসুদ রানা




সিরাজগ ঞ্জজেলা প্রতিনিধিঃ 

সিরাজগঞ্জে গণহত্যা  গণহত্যা অনুসন্ধান কমিটি ও অরুণ ফাউন্ডেশন আয়োজনে  পলাশডাঙ্গা যুবশিবির এর ব্যাটেলিয়ান কমান্ডার মরহুম গাজী লুৎফর রহমান অরুণ এর ৬ষ্ঠ মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত  হয়েছে । 


গতকাল মঙ্গলবার বাদ আছর  উপজেলা মুক্তিযােদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে বীর মুক্তিযােদ্ধা সাইফুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে প্রয়াত  গাজী লুৎফর  রহমান  অরুণ  কর্মময় জীবন   সম্পর্কে

আলোকপাত  করেন সি ইন,সি পলাশডাঙ্গ যুব শিবির'৭১  বীর মুক্তিযােদ্ধা সোহরাব আলী সরকার,বীর মুক্তিযােদ্ধা এ্যাডঃ বিমল কুমার দাস,বীর মুক্তিযােদ্ধা ম.ম. আমজাদ হােসেন মিলন,বীর মুক্তিযােদ্ধা লুৎফর রহমান মাখন,বীর মুক্তিযােদ্ধা আশরাফুল ইসলাম চৌধুরী জগলু,

সাবেক উপজেলা মুক্তিযােদ্ধা কমান্ডার

বীর মুক্তিযােদ্ধা গাজী ফজলুর রহমান খান সহ অন্যান্যরা। বক্তরা বলেন, বঙ্গবন্ধু  শেখ  মুজিবুর  রহমান  এর কণ্যা জননেত্রী  শেখ  হাসিনা  জীবন বাজি রেখে দেশকে এগিয়ে  নিয়ে  যাচ্ছে । মুক্তি যোদ্ধার  কিংবদন্তি  ছিলেন প্রয়াত গাজী লুৎফর রহমান অরুণ। যুবকদের প্রশিক্ষণ পর্ব। ধীরে ধীরে গ্রামগঞ্জের শত শত মুক্তিকামী ছাত্র-জনতা, কৃষক, শ্রমিক এ ক্যাম্পে এসে যোগ দেন।  এখন যারা  জীবিত  রয়েছেন  তারা নতুন প্রজন্মের মাঝে  মুক্তিযোদ্ধার সঠিক  ইতিহাস  তুলে ধরতে হবে। 

অনুষ্ঠানে  পরিচালনা  করেন  সংগঠন গণহত্যা  অনুসন্ধান কমিটির নব কুমার কর্মকার।

মধুপুরে রাইস ট্রান্স প্লান্টার যন্ত্রের মাধ্যমে চারা রোপণ কার্যক্রম ও চারা বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

 মধুপুরে রাইস ট্রান্স প্লান্টার যন্ত্রের মাধ্যমে চারা রোপণ কার্যক্রম ও চারা বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত




মো: আ: হামিদ মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃটাঙ্গাইলের মধুপুরে কৃষিসম্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে মঙ্গলবার(১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে কাকরাইদ এলাকায়  রাইস ট্রান্স প্লান্টার যন্ত্রের মাধ্যমে চারা রোপণ কার্যক্রম ও চারা বিতরণ কার্যক্রম অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

খরিপ-২/২০২০-২১ মৌসুমে রোপা আমন ধান চাষে প্রণোদনা কর্মসুচীর আওতায় ট্রেতে উৎপাদিত নাবী জাতের ( বি আর-২৩)রোপা আমন ধানের চারা কৃষকদের মাঝে বিতরণ ও কুবোতা রাইস ট্রান্স প্লান্টার যন্ত্রের মাধ্যমে রোপন কর্মসুচী সম্পর্ন হয়েছে। মধুপুর উপজেলা কৃষিকর্মকর্তা কৃষিবিদ মাহমুদুল হাসান এর সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্টানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন অরণখোলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো: আ: রহিম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো: আব্দুর রাশেদ, অরণখোলা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের  সদস্য মো: আবুল কালাম আজাদ, কাকরাইদ ব্লকের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো: শাহিনুর ইসলাম , ভূটিয়া ব্লকের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো: সেলিম ও আবেদিন ইকুইপমেন্ট লিমিটেডে এর সহকারী ব্যাবস্হাপক মো: রিজওয়ানুর রহমান সহ এলাকার কৃষক কৃষাণীগন  উপস্হিত ছিলেন। এসময় কৃষক কৃষাণীদের মাঝে উৎসাহ বৃদ্ধির লক্ষে জাপানি প্রযুক্তির কুবোতা ব্রান্ডের ধানের চারা রোপণের যন্ত্রের সাহায্যে চারা রোপণ কার্যক্রম প্রদর্শন করা হয়। কৃষি কর্মকর্তা মাহমুদুল হাসান জানান, এ যন্ত্রের মাধ্যমে চারা রোপণ করলে কৃষকদের চারা রোপণ করতে সময় কম লাগবে এবং খরচও কম হবে।