আশাশুনিতে দপ্তরির চাকুরি পেতে ছোট ভাই ও স্ত্রীর চেয়েও কম বয়স দেখানোর অভিযোগ

 আশাশুনিতে দপ্তরির চাকুরি পেতে  ছোট ভাই ও স্ত্রীর চেয়েও কম বয়স দেখানোর অভিযোগ





আহসান  উল্লাহ  বাবলু  উপজেলা প্রতিনিধি ঃ আশাশুনিতে দপ্তরী কাম প্রহরী পদে চাকুরি পেতে নিজের বয়স ছোট ভাই ও স্ত্রীর বয়সের চেয়ে কমিয়ে সনদ নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটিয়েছেন উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের কুঁন্দুড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দপ্তরী কাম প্রহরী পদে নিয়োগ প্রাপ্ত শিব প্রসাদ সরকার। 

লিখিত অভিযোগ ও কাগজপত্র দৃষ্টে জানাগেছে, স্কুলটিতে দপ্তরী কাম প্রহরী নিয়োগের জন্য আউট সোর্সিংয়ের মাধ্যমে জনবল নিয়োগের নীতিমালা ২০১২ অনুযায়ী কুঁন্দুড়িয়া গ্রামের মৃত সুধাংশু শেখর সরকারের পুত্র শিব প্রসাদ সরকারকে ২৮/০৩/১৩ তাং নিয়োগ প্রদান করা হয়। প্রার্থীর বয়স ০১/১২/২০১২ তাং ১৮ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে থাকার কথা থাকলেও শিব প্রসাদ তার জন্ম তারিখ ৩০ বছরের কমে রাখতে নানা ভাবে ছলচাতুরি করেছেন মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে। কাগজপত্রে দেখাগেছে শিব প্রসাদ তার জন্ম তাং ৪ বার পরিবর্তন করেছেন। আইডি বা ভোটার তালিকা অনুযায়ী ১৯৯১ সালে ভোটার নং ০১৭৫, জন্ম তাং ১৫/০২/১৯৬৮, ১৯৯৬ সালে আইডি নং ২২৬০১০৮০৩০১১০১৭৫, জন্ম তাং ১৬/০৭/১৯৭১, ২০০৮ সালে আইডি নং ৮৭০৭৫৫৮০৭২০০, জন্ম তাং ১৫/০২/১৯৬৮, ২০১৩ সালে আইডি নং ৮৭০৭৫৫৮০৭২০০, জন্ম তাং ০৫/০১/১৯৮৩ এবং একই বছর খসড়া ভোটার তালিকায় জন্ম তাং ১৬/০৭/১৯৭৯ দেখানো হয়েছে। তাহলে আসলে তার জন্ম তারিখ কত? এমন প্রশ্ন এলাকাবাসীর মধ্যে ঘুরপাক খাচ্ছে। ইউনিয়ন পরিষদে জন্ম নিবন্ধন ভলুমে তার জন্ম তারিখের স্থানে ফ্লুইড দিয়ে মুছে ওভার রাইট করা আছে বলে অভিযোগ পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে। যেখানে সংশ্লিষ্ট চেয়ারম্যানের প্রত্যায়িত স্বাক্ষর বা অনুস্বাক্ষর করা হয়নি। তবে শিবপদ সরকার চাকুরী পেতে তার জন্ম তারিখ দেখিয়েছেন ০৫/০১/১৯৮৩। যাতে তার বয়স ৩০ পুরতে মাত্র ৪ দিন বাকী ছিল। অথচ উপরোক্ত ভোটার তালিকাগুলোতে তার ছোট ভাই উত্তম কুমার সরকারের জন্ম তারিখ রয়েছে ১৯/১১/১৯৭৫। অর্থাৎ তার ছোট ভাইয়ের থেকে তিনি প্রায় ৭ বছর বয়সে ছোট। যা রীতিমত হাস্যকর। অপরদিকে একই ভোটার তালিকায় তার স্ত্রী চায়না রানীর জন্ম তারিখ ১২/০২/১৯৮০। অর্থাৎ তার স্ত্রী তার থেকে বয়সে প্রায় ৩ বছরের বড়। আবার তার পুত্র লিটন সরকারের জন্ম তাং ১৮/১১/৯৯। অর্থাৎ ১৬ বছর বয়সে তার সন্তানের জন্ম, তখন তাদের বিয়ে হয়েছে কিনা তা জানা সম্ভব হয়নি। এমন তঞ্চকীকতায় ভরা জন্ম তারিখ সম্বলিত কাগজ দাখিল করে ০৪/০৪/২০১৩ তারিখ হতে শিব প্রসাদ বহাল তবিয়তে কুঁন্দুড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দপ্তরী কাম প্রহরী পদে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পেয়ে চাকরি করে আসছেন। ছোট ভাইয়ের চেয়ে বয়সে ছোট হওয়ার অসম্ভব কাজটি কিভাবে করা হলো, কেন তঞ্চকী পূর্ণ জন্ম সনদ দেখিয়ে চাকুরী পেয়ে গেলো? এমন অভিযোগ এনে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়ে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। 

এব্যাপারে স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি গণেশ চন্দ্র মন্ডল বলেন, মৃত সুধাংশু শেকর সরকারের দু’পুত্রের মধ্যে শিব প্রসাদ সরকার বড় পুত্র এবং ছোট পুত্র উত্তম কুমার সরকার। কিন্তু শিব বড় হয়েও চাকুরিতে বয়স কম প্রয়োজন হওয়ায় নিজের জন্ম তারিখ ছোট ভাইয়ের জন্ম তারিখের থেকে কম দেখিয়ে জাল জন্ম সনদ তৈরি করেছে। এটি আমরা তখন জানতে পারিনি। এখন গ্রামের সকল মানুষ জন্ম সনদ জালের বিষয়টি জেনে গেছে। বিষয়টি তদন্ত হলে সব বেরিয়ে আসবে। এব্যাপারে অভিযুক্ত শিব প্রসাদের সাথে মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও সম্ভব হয়নি।

গণধোলাইয়ের নামে চোর কে হত্যা!

গণধোলাইয়ের নামে চোর কে হত্যা!




নন্দীগ্রাম বগুড়া প্রতিনিধিঃ---বগুড়ার নন্দীগ্রামে গরু চোর কে বৈদ্যুতিক খুঁটির সাথে বেঁধে মারতে মারতে মেরে ফেললো গ্রামবাসী, ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ৩নং ভাটরা ইউনিয়নের অন্তর্গত শেখের মারিয়া গ্রামে, আর নিহত গরু চোর উজ্জল হোসেন রায়পাড়া গ্রামের বাসিন্দা, উক্ত গ্রামবাসীর বক্তব্যে জানা যায়, শেখের মারিয়া গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে গরু চুরি, ওটো ভ্যান চুরি, দোকান চুরির ঘটনা ঘটে চলেছে, গত ১০সেপ্টেম্বার রাত আনুমানিক সারে ১২টায় শেখের মারিয়া গ্রামের কৃষক বেলাল হোসেনের বাড়ির গোয়াল ঘরে ঢুকে গরু চুরি করছিলো ৪জন গরু চোর, বাড়ির মালিক টের পেয়ে চারিদিকে মোবাইল ফোনে সবাইকে বিষয়টি জানালে গ্রামের সবাই একত্রিত হয়ে চোরদের ধাওয়া করে, ৪জন চোরের মধ্যে ৩জন পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও রায়পাড়া গ্রামের কুখ্যাত গরু চোর মোঃ উজ্জল হোসেন (৩৫) কে গ্রাম থেকে হাফ কিলোমিটার দুরে ধরতে সক্ষম হয়, এর পর তাকে ধরে এনে বেলাল হোসেনের বাড়ির সামনে বৈদ্যুতিক খুঁটির সাথে বেঁধে মারধর শুরু করে গ্রামবাসী এবং জানতে চায় এর আগে এই গ্রাম থেকে গরু চুরি কে করেছিল, গ্রামবাসীর অতিরিক্ত মারধরে ৩টি গরু চুরির কথা শিকার করে গরু চোর উজ্জল হোসেন, সেসব গরু এখন কোথায় আছে জানতে চাইলে সে জানায়, গরু ৩টি সিংড়া থানার মালকুর গ্রামের মোঃ হামিদুর রহমানের বাড়িতে আছে, তার কথা মতো রাত্রি ৩টায় কয়েকজনের এক টিম মালকুর গ্রামে গিয়ে দুটি গরুর সন্ধান পায়, যে ২টি গরু বর্তমানে মালকুর গ্রামের কেসিয়ার ও স্থানীয় ইউপি সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ এর সভাপতির হেফাজতে রয়েছে, এর পর গরু চোর কে বলে শেখের মারিয়া গ্রামের কেউ এই চুরির সাথে যুক্ত আছে কিনা এই শিকারোক্তি নিতে মারধরের এক পর্যায়ে ভোর বেলায় গরু চোর উজ্জল হোসেন মৃত্যুর কোলে ঢোলে পরে, সঙ্গে সঙ্গে কয়েকজন গ্রামবাসী স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে ডেকে ঘটনাস্থলে আনে, এরপর থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে গরু চোর উজ্জল এর মরদেহ দেখতে পায়, কিভাবে মারা গেলো পুলিশ গ্রামবাসীর কাছে জানতে চাইলে গ্রামের সবাই ও চেয়ারম্যান সাক্ষীদেয় গণধুলাইয়ে মারা গেছে, সারারাত এতো বড় ঘটনা ঘটে গেলেও গ্রামের কেউ পুলিশে খবর দিল না কেন এ বিষয়ে জানতে চাইলে কেউ কোন সদউত্তর দিতে পারেনি, পরে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়ে দেন থানা পুলিশ, উক্ত বিষয়ে নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি শওকত কবির বলেন, আমরা মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়ে দিয়েছি, এ ঘটনায় শেখের মারিয়া গ্রামের কৃষক বেলাল হোসেন বাদী হয়ে মামলা করেছেন এবং অন্য দিকে নিহত গরু চোর উজ্জল এর মা বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন, বিষয়টি নিয়ে থানা পুলিশ কাজ করছে।

নন কোভিড রোগীদের জন্য রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের মাসব্যাপী বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা চলমান

নন কোভিড রোগীদের জন্য রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রামের মাসব্যাপী বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা চলমান




রিয়াজুল করিম রিজভী

চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি চট্টগ্রাম জেলা ও সিটি ইউনিটের উদ্যোগে যুব রেড ক্রিসেন্ট, চট্টগ্রামের বাস্তবায়নে নগরীর মির্জাপুলস্থ ডাঃ শেখ শফিউল আজমের বাসভবনে গত ১লা সেপ্টেম্বর থেকে মাসব্যাপী বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ক্যাম্প শুরু করা হয়েছে। নগরীর পাচঁলাইশ থানাধীন শুলকবহর ওয়ার্ডের মুরাদপুর এলাকার মির্জাপুল ডেকোরেশন গলিসহ আশেপাশের এলাকার নন কোভিড রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা পৌছেঁ দেওয়ার লক্ষ্যে ‘ফ্লু কর্ণার ও ইনভেস্টিগেশন সেল’ এর কার্যক্রম শুরু করেছে রেড ক্রিসেন্ট চট্টগ্রাম।এ কার্যক্রমে মেডিসিন বিশেষজ্ঞ, শিশু ও গাইনী চিকিৎসা সেবা এবং সেবাপ্রাপ্তিদের মাঝে বিনামূল্যে ঔষধ বিতরণ করা হচ্ছে। ‘ফ্লু কর্ণার ও ইনভেস্টিগেশন সেল’ কার্যক্রমে বিভিন্ন রোগীদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ম্যানেজিং বোর্ড সদস্য ও বাংলাদেশ মেডিক্যাল এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি ডা. শেখ শফিউল আজম ও ডাঃ শেখ সানজানা শারমিন। 

উল্লেখ্য যে, পুরো সেপ্টেম্বর মাসব্যাপী মির্জাপুলস্থ ডাঃ শেখ শফিউল আজম এর বাসভবনে নন কোভিড রোগীদের সকাল ১০ ঘটিকা হতে দুপুর ১ ঘটিকা পর্যন্ত চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হবে। প্রয়োজনে যোগাযোগ ০১৫৩৭৩০৬৩৬০।

নাটোর লালপুর বিষধর সাপের কামড়ে এক শিশুর মৃত্যু

নাটোর লালপুর বিষধর  সাপের কামড়ে এক শিশুর মৃত্যু




রাজশাহী ব্যুরো

নাটোর লালপুর বিষধর সাপের কামড়ে মুনিয়া (৪) নামের এক শিশুর মৃত্যু  হয়েছে। উপজেলার মনিহারপুর গ্রামের মোঃ আব্দুল আলিমের মেয়ে। গতকাল শুক্রবার ১১ সেপ্টন্বর দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার ১০ সেপ্টন্বর মুনিয়া তার মায়ের সাথে পার্শ্বেবর্তী থানা বাঘা, আড়পাড়া গ্রামে ফুপাতো ভাইয়ের সুন্নাতে খাৎনার দাওয়াত খেতেগিয়ে মধ্যরাতে ঘুমের ঘরে মুনিয়াকে বিষধর সাপ কামড় দেয়। পরিবারের লোকজন তাকে রাতেই রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতালে নেয়ার পথে  মারা য়ায়। এ ব্যাপারে দুড়দুড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে এবং শোকহত পরিবারে সমবেদনা জানান।

হবিগঞ্জে বন্ধুর স্ত্রী কে ধর্ষণ করেছে বন্ধু

হবিগঞ্জে বন্ধুর স্ত্রী কে ধর্ষণ করেছে বন্ধু




লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে মহসিন মিয়া (২২) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে আজমিরীগঞ্জ থানা পুলিশ।

১১-সেপ্টেম্বর শুক্রবার রাত ১০ টায় উপজেলার ৩ নং জলসুখা ইউনিয়নের পাঠুলীপাড়া (ড্রেনের হাটী) এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে গত শুক্রবার (১১-সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে উপজেলার জলসুখা ইউনিয়নের পাটুলীপাড়া ড্রেনের হাটী এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।


পরে এ ঘটনায় শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) ধর্ষণের স্বীকার ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ধর্ষণের স্বীকার ওই গৃহবধূ বর্তমানে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে রয়েছেন। গ্রেপ্তারকৃত মহসিন মিয়া উপজেলার জলসুখা ইউনিয়নের মধ্যপাড়ার এলাকার আজমান মিয়ার পুত্র জানা যায়, জলসুখা ইউনিয়নের মধ্যপাড়া গ্রামের আজমান মিয়ার পুত্র মহসিন একই এলাকার পাঠুলীপাড়া গ্রামে বিয়ে করে।


বিয়ের পর থেকেই শশুর বাড়িতেই বসবাস করে আসছেন মহসিন। শ্বশুর বাড়িতে থাকার সুবাদে ধর্ষিতা গৃহবধূর স্বামীর সাথে বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে তোলে মহসিন। বন্ধুত্বের সুবাদে প্রায় সময়ই ধর্ষিতার বাড়িতে যাওয়া আসা করতেন ওই যুবক। বিগত কিছুদিন পূর্বে গৃহবধূর স্বামী জীবিকার তাগিদে ঢাকা চলে যান। এই সুযোগে ধর্ষক মহসিন শুক্রবার ( ১১ সেপ্টেম্বর ) রাত ৯ টায় গৃহবধূর বসত ঘরে প্রবেশ করে, ঘর খালি থাকায় মুখে গামছা পেঁচিয়ে গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন।


বিষয়টি জানাজানি হলে প্রথমে ধামা চাপা দেয়ার চেষ্টা চালায় মহসিনের শ্বশুরবাড়ির লোকজন। পরে বিষয়টি নিয়ে পাটুলীপাড়ায় দুই গ্রুপে বিভক্ত হয়ে পড়ে। এসময় স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে এস আই জয়ন্ত তালুকদারের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল পাঠুলী পাড়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে মহসিন কে আটক করে থানায় নিয়ে আসে এ বিষয়ে আজমিরীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোশারফ হোসেন তরফদার। 


ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন এ বিষয়ে ধর্ষণের স্বীকার গৃহবধূ বাদী হয়ে একটি মামলা ধায়ের করেছেন।

ধর্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং গৃহবধূকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

নাটোর লালপুর মাহফুজা বেগম (৫৫) বিষপানে আত্মহত্যা

 নাটোর লালপুর মাহফুজা বেগম (৫৫) বিষপানে আত্মহত্যা


রাজশাহী ব্যুরো

নাটোর লালপুর বিষপানে মাহাফুজা বেগম (৫৫) নামের এক পাঁচ সন্তানের মা আত্মহত্যা করেছে। মাহাফুজা বেগম উপজেলার ফতেপুর গ্রামের ময়েন উদ্দিন শেখের স্ত্রী । 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মাহাফুজা বেগম তার নিজ বাড়ীতে ১১ সেপ্টন্বর  বিকেলে বিষ পান করে বিষয়টা জানাজানি হলে মাহাফুজা বেগম উদ্ধার করে স্থানীয়রা তাকে দ্রত উদ্ধার করে লালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে রেফার্ড করেন     রাজশাহী নিয়ে যাওয়ার পথে তাহার অবস্থা অবনতি দেখে বাঘা উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত্যু নিশ্চিত করার জন্য  ইসিজি পরীক্ষা করে এবং তাহার মৃত্যু নিশ্চিত করে লাশ মহারাজপুর ফতেপুর তার নিজ বাড়িতে নেয় 

এ সময় লালপুর থানা পুলিশ খবর পেয়ে মৃত্যুর কারন উদঘাটনের জন্য  রিপোর্ট করে ১২ সেপ্টন্বর শনিবার সকালে নাটোর মর্গে প্রেরণ করেছেন এ ব্যাপারে তদন্ত কর্মকর্তা এস আই জামাল আহমেদ জানান রাতেই এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আশাশুনির হাজরাখালি টু কোলা রিং বাঁধের ৯৫ ভাগ কাজ সম্পন্ন

আশাশুনির হাজরাখালি টু কোলা রিং বাঁধের ৯৫ ভাগ কাজ সম্পন্ন

আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা প্রতিনিধি:আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের হাজরাখালি টু কোলা রিং বাঁধের ৯৫ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার সকালে ভাঙ্গন কবলিত এলাকার রিংবাঁধের কাজ করার সময় আশাশুনি সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক স,ম সেলিম রেজা মিলন বলেন,জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল, আশাশুনি উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মোস্তাকিম এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজার   দিকনির্দেশনায় আমরা রিং বাঁধের কাজ করে চলেছি। শ্রীউলা ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবু হেনা সাকিলের নেতৃত্বে শ্রীউলা ইউনিয়নের কয়েক হাজার লোক এবং আমার নেতৃত্বে আশাশুনি সদর ইউনিয়নের সহস্রাধিক লোক সরকারি সহযোগিতা ও স্বেচ্ছাশ্রমের মধ্য দিয়ে বিগত কয়েক দিন যাবত রিং বাঁধ  সম্পন্ন করার লক্ষ্যে কাজ করে চলেছি। ইতিমধ্যে রিং বাঁধের ৯৫ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে।আমরা আশা করছি আগামী এক থেকে দুই দিনের মধ্যে সম্পূর্ণ রিং বাঁধটির কাজ সম্পন্ন হবে। তিনি এ কাজে অংশগ্রহণ এর জন্য আশাশুনি সদর ইউনিয়নের মানুষকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানান।


উল্লেখ্য বিগত মহাপ্রলয়ংকারি ঘূর্ণিঝড় আম্পানে শ্রীউলা ইউনিয়নের হাজরাখালি ও প্রতাপনগর ইউনিয়নের হিজলিয়া বেড়িবাঁধ ভেঙে শ্রীউলা ইউনিয়নের অধিকাংশ এলাকা ও প্রতাপনগরের কোলা, হিজলিয়া প্লাবিত হয়।পরবর্তীতে অতি বর্ষণ ও প্রবল জোয়ারের কারণে ভাঙ্গন কবলিত শ্রীউলা ইউনিয়নের পানিতে আশাশুনি সদর ইউনিয়নের অধিকাংশ গ্রাম প্লাবিত হয়। হাজরাখালি টু কোলা এই রিং বাঁধের কাজ সম্পন্ন হলে  আশাশুনি সদর ইউনিয়নের ১৪টি গ্রাম এবং শ্রীউলা উনিয়নের ২০টি গ্রাম জোয়ার ভাটার পানির হাত থেকে রক্ষা পাবে। সাধারণ মানুষ আবার তাদের  বাড়ি ঘরে ফিরে এসে স্বাভাবিক জীবন যাপন করতে পারবে।

আশাশুনিতে সেচ্ছাসেবকলীগের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

 আশাশুনিতে সেচ্ছাসেবকলীগের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত

আহসান উল্লাহ বাবলু , উপজেলা  প্রতিনিধি:আশাশুনি উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নের আগরদাড়ীতে বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত বাংলাদেশ আওয়ামী সেচ্ছাসেবকলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সাধারণ সম্পাদক একেএম আফজালুর রহমান বাবু ও তার সহধর্মিনীর শারীরিক সুস্থতা কামনায় আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় কুল্যা ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবকলীগের আয়োজনে আগরদাড়ী ইসলামী সমাজ কল্যান পরিষদ কার্যালয়ের পাশে এ আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আব্দুল মোমিনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি এসএম সাহেব আলী। ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক মইনুল ইসলামের পরিচালনায় এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক বিকাশ চন্দ্র মন্ডল, সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম। এসময় উপজেলা ও ইউনিয়ন সেচ্ছাসেবকলীগের নেতৃবৃন্দ, গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভা শেষে সেচ্ছাসেবকলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সাধারণ সম্পাদক একেএম আফজালুর রহমান বাবু ও তার সহধর্মিনীর শারীরিক সুস্থতা কামনায় দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করা হয়। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন, আগরদাড়ী বাইতুল মামুর জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা সুলাইমান আজিজী এবং আগরদাড়ী পশ্চিমপাড়া জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা আরিফুল ইসলাম।

আশাশুনিতে ইসলামী ব্যাংকের আউটলেট শাখার উদ্বোধন

 আশাশুনিতে ইসলামী ব্যাংকের আউটলেট শাখার উদ্বোধন




আহসান উল্লাহ বাবলু , উপজেলা  প্রতিনিধি:


আশাশুনিতে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড এর এজেন্ট ব্যাংকিং কার্যক্রমের অংশ হিসেবে কাদাকাটি বাজার আউটলেট শাখার উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় কাদাকাটি বাজারের কচুয়া অংশে অবস্থিত কাদের সুপার মার্কেটের ২য় তলায় এ শাখার উদ্বোধন করা হয়। ইসলামী ব্যাংক সাতক্ষীরা শাখার ব্যবস্থাপক হাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে আউটলেট শাখার উদ্বোধনী উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ গোলাম কবির। ইসলামী ব্যাংক কলারোয়া শাখার অফিসার হাবীব বিল্লাহ ও সাংবাদিক মাসুম বিল্লাহ এর পরিচালনায় এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন, কুল্যা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বাছেত আল হারুন চৌধুরী, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাহফুজুর রহমান, কাদাকাটি ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মফিজুল হক মোড়ল, কুল্যা ইউপির সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী এসএম ওমর ছাকী পলাশ। কাদাকাটি বাজার আউটলেট শাখার ব্যবস্থাপক ও মাইশা এন্টারপ্রাইজ এর স্বত্বাধিকারী মেজবাউল আলম এর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এসময় ইসলামী ব্যাংকের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ, শিক্ষক, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও স্থানীয় ব্যবসায়ীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভা শেষে অতিথিবৃন্দ আনুষ্ঠানিকভাবে ফিতা কেটে কাদাকাটি বাজার আউটলেট শাখার শুভ উদ্বোধন করেন। সবশেষে বাংলাদেশের সার্বিক মঙ্গল কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করা হয়। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন কচুয়া বাইতুন নূর জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা মাহবুবুর রহমান।

আশাশুনিতে সিএইচসিপিদের সমন্বয় সভা ও ল্যাপটপ বিতরণ

আশাশুনিতে সিএইচসিপিদের সমন্বয় সভা ও ল্যাপটপ বিতরণ



আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা  প্রতিনিধি:আ


শাশুনিতে সিএইচসিপিদের মাসিক সমন্বয় সভা ও ল্যাপটপ বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স মিলনায়তনে সিএইচসিপিদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন আশাশুনি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ সুদেষ্ণা সরকার।সভাপতির বক্তব্যে ডাঃসুদেষ্ণা সরকার বলেন, স্বাস্থ্য সেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছায়ে দিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করেন। আজ কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে তৃণমূলপর্যায়ের জনগণের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত হয়েছে। মহামারি করোনার মধ্যে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে স্বাস্থ্য সেবা প্রদান করায় তিনি কমিউনিটি ক্লিনিকে কর্মরত সিএইচসিপিদের অভিনন্দন জানান।সভা শেষে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অধীনস্থ মাঠ পর্যায়ে কমিউনিটি ক্লিনিকে কর্মরত ৩১ জন সিএইচসিপি, পরিসংখ্যান, ভায়া কর্ণার সহ অফিসে মোট ৩৪ টি ল্যাপটপ প্রদান করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ শহীদুল্লাহ্, সিনিয়র স্টাফ নার্স কল্পনা রাণী মন্ডল, স্বাস্থ্য পরিদর্শক ইনচার্জ মাহবুবুর রহমান, পরিসংখ্যানবিদ আঃ খালেক, স্টোর কিপার এনামুল হক প্রমুখ।

চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গায় অজ্ঞাত যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গায় অজ্ঞাত যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার




খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার, খুলনা ব্যুরো প্রধান:চুয়াডাঙ্গার জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার আটকপাট নামক স্থানে অজ্ঞাত যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ। শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে একজন অজ্ঞাত যুবকের বয়স আনুমানিক ৩০ বছর।আটকপাটের অদূরর্বর্তী বাদেমাজুর মুনতাজ ফকিরের জমিতে একটি গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় একটি লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয় কৃষকরা থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।অজ্ঞাত যুবকের মাথার পিছনে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে কে বা কারা হত্যা করে গাছের সাথে ঝুলিয়ে রাখে।

আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ আলমগীর কবির বলেন,অজ্ঞাত যুবকের এখনো কোনো পরিচয় পাওয়া যায় নি।তবে এটা আমাদের কাছে মনে হয়েছে এটা  হত্যাকান্ড।যুবকের মাথায় ভারি আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।লাশের পরিচয় পাওয়া গেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরী করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

কালীগঞ্জে মোচিক শ্রমিক কর্মচারীদের উদ্যোগে ফটক সভা অনুষ্ঠিত

কালীগঞ্জে মোচিক শ্রমিক কর্মচারীদের উদ্যোগে  ফটক সভা অনুষ্ঠিত


খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার। 

খুলনা ব্যুরো প্রধান। 

দেশের দক্ষিণাঞ্চালের একমাত্র ভারী শিল্প প্রতিষ্ঠান ঝিনাইদহ কালীগঞ্জের মোবারকগঞ্জ চিনিকলের শ্রমিক কর্মচারীদের উদ্যোগে ফটকসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষে শনিবার সকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অভ্যন্তরিন ফটকে মোচিক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি গোলাম রসুলের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। শ্রমিক কর্মচারীদের বকেয়া পাওনা, অবসরকালীন সুযোগ সুবিধা প্রদান, আখচাষীদের পাওনা পরিশোধসহ চিনিকলটির সার্বিক উন্নয়নে করনীয় বিষয় নিয়ে দিক নির্দেশনামুলক বক্তব্য রাখেন ঝিনাইদহ ৪ আসনের মাননীয় জাতীয় সাংসদ সদস্য জনাব মোঃ  আনোয়ারুল আজিম আনার। আরও বক্তব্য রাখেন মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আনোয়ারুল কবির, মহাব্যবস্থাপক সুমন কুমার সাহা, আনোয়ার হোসেন, কারখানা বিভাগের ডিসি এম,ই বিধান কুমার বিশ্বাস, কালীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক সাবজাল হোসেন, মিলের সিডিএ সাজেদুল হক লিটন,শ্রমিক নেতা রফিকুল ইসলাম,ফিরোজ হোসেন. মিথুন পারভেজ, সাইদুর রহমান পিকুল, নজরুল ইসলাম, বাবুল হোসেন, সদর আলী, সাহাদ আলী, আবু তাহের প্রমুখ।

দিনাজপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে নতুন অধ্যক্ষ কে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

 দিনাজপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে নতুন অধ্যক্ষ কে  শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন




মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ দিনাজপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে নতুন অধ্যক্ষকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন  এক্স স্টুডেন্ট ফোরাম (দিপই)।

১২ সেপ্টেম্বর শনিবার বিকেলে দিনাজপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে অধ্যক্ষ পদে পদন্নোতী হওয়ায় প্রকৌশলী আব্দুল ওয়াদুদ মন্ডল কে এক্স স্টুডেন্ট ফোরাম এর  সভাপতি প্রকৌশলী মোঃ নুরুল হুদা ও সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মোঃ শহিদুল ইসলাম এর নেতৃত্বে ফুলেল তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান এক্স স্টুডেন্ট ফোরাম (দিপই)। এসময় উপস্থিত ছিলেন এক্স স্টুডেন্ট ফোরাম এর সহ-সভাপতি প্রকৌশলী মোঃ মতিউর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল আউয়াল, অর্থ সম্পাদক প্রকৌশলী মোঃ  সিদ্দিকুর জামান নয়ন,ষুগ্ন সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মোঃ সাজিউল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক প্রকৌশলী মোঃ মোজাফফর হোসেন তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী  মোঃ মোতাহার আলী, প্রকৌশলী মোঃ মঈনুল হোসেন মামুন, প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল কাসম, প্রকৌশলী মোঃ মাসুদ রানা প্রমুখ।

শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন এক্স স্টুডেন্ট ফোরাম (দিপই)  এর  সদস্যরা বলেন, দিনাজপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর প্রাক্তন ছাত্র এবং দিনাজপুরের কৃতি সন্তান আমাদের গর্ব শ্রদ্ধেয় স্যার  প্রকৌশলী আব্দুল ওয়াদুদ মন্ডল। স্যার দিনাজপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর অধ্যক্ষ পদে পদোন্নতি হওয়ায় আমরা খুবই আনন্দিত । আমরা বিশ্বাস করি স্যারের সুযোগ্য নের্তৃত্বে দিনাজপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট আরও এগিয়ে যাবে,দেশের সেরা প্রতিষ্ঠানে পরিনত হবে। স্যার ইতিমধ্যে সততা ও যোগ্যতার সাথে কাজ করে পলিটেকনিকের দৃশ্যমান উন্নয়ন করেছেন। আমরা সবাই স্যারের সুস্বাস্থ্য, মঙ্গল এবং সফলতা কামনা করেন।

হবিগঞ্জে রাতের আঁধরে গৃহবধুকে ধর্ষণ আটক বাদশা মিয়া

 হবিগঞ্জে রাতের আঁধরে গৃহবধুকে ধর্ষণ আটক বাদশা মিয়া





লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃহবিগঞ্জ জেলার লাখাই উপজেলার পূর্ব সিংহগ্রামে রাতের আঁধারে ঘরে ঢুকে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযুক্ত সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী বাদশা মিয়াকে ঘটনাস্থলে আটক করেছে স্থানীয় জনতা। তারপর তাকে উত্তম-মধ্যম দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। অন্য অভিযুক্ত ইউপি মেম্বার ভিংরাজ মিয়া এসময় পালিয়ে যায়। এদিকে অভিযোগকারী গৃহবধূকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


একই সাথে লাখাই থানায় করাব ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য ভিংরাজ মিয়া ও বাদশা মিয়াকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়। লাখাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) অজয় চন্দ দেব ধর্ষণের অভিযোগে মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বাদশা মিয়া ও ভিংরাজ নামে দুইজনকে আসামী করে একটি মামলা হয়েছে। এর মধ্যে বাদশা মিয়া নামে এক অভিযুক্তকে আটক করার পর আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

অন্য আসামীকে গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে অভিযোগকারী নারী জানান, গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ওই গৃহবধূ প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের পেছনে যান। এই সুযোগে একই গ্রামের বাদশা মিয়া ও ভিংরাজ মিয়া মেম্বার গৃহবধূর ঘরে প্রবেশ করে খাটের নিচে লুকিয়ে থাকে। তারপর গৃহবধু ঘরে ফিরে দরজা বন্ধ করে ঘুমিয়ে পড়ে। কিছুক্ষণ পর বাদশা ও ভিংরাজ গৃহবধুকে প্রাণে হত্যার ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে গৃহবধুর শোর চিৎকারে 

আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসে। এসময় লোকজন বাদশা মিয়াকে ধরতে পারলেও ভিংরাজ মিয়া পালিয়ে যান পরে বাদশাকে উত্তম-মধ্যম দিয়ে লাখাই থানার পুলিশের কাছে সোপর্দ করে।

তিনি আরো জানান, তারা দুজনে বিভিন্ন অজুহাতে ঘরে আসেতেন। তাকে সরকারি সাহায্য দেয়ার প্রলোভন দেখায় তারা এতে তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সন্দেহের সৃষ্টি হয় এর কিছুদিন পর তার 

স্বামীর ঠিকানা ব্যবহার করে ৭ জানুয়ারি ১৩নং এফিডেভিটে একটি ভুয়া তালাকনামা দেখায় তারা। কিন্তু ওই গৃহবধু বাদশা ও ভিংরাজের কুপরিকল্পনা বুঝতে পারেননি। যে কারণে তিনি তার স্বামীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। ফলে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিরোধ বেড়ে যায়। এই সুযোগে মেম্বার ভিংরাজ মিয়া ওই গৃহবধুকে সিলেটের ইবনে সিনা মেডিক্যাল কলেজে ভাল বেতনের চাকরির প্রলোভন দেখান।


গত ৩১ আগস্ট ভিংরাজ মিয়া তাকে নিয়ে সিলেটে ঘুরাফেরার পর পশ্চিম দরগা গেটের কাছে অবস্থিত হোটেল হলিল্যান্ডের একটি কামরায় তুলেন। এসময় ভিংরাজ মিয়া ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। কিন্তু ওই গৃহবধুর চিৎকারে আশপাশের রুম থেকে মানুষ এসে ভিংরাজ মিয়াকে আটক করে সিলেটের কোতয়ালী থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন পরে পুলিশ লিখিত রেখে তাকে ছেড়ে দেয়।

নাগরপুরে খেলা করতে গিয়ে পানিতে ডুবে ৩ বছরের ১ কন্যা শিশুর মৃত্যু

 নাগরপুরে খেলা করতে গিয়ে পানিতে ডুবে ৩ বছরের ১ কন্যা শিশুর মৃত্যু




ডা.এম.এ.মান্নান,টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধিঃটাঙ্গাইলের নাগরপুর সদর ইউনিয়নের কাঠুরি গ্রামের আজিজ মিয়ার মেয়ে মাফিয়া আক্তার (৩) খেলার সময় পানিতে পরে মৃত্যুবরণ করেছে।


আজ শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর দুপুর প্রায় ২ টায় সময় খেলা করতে গিয়ে বাড়ির কাছের ডোবার পানিতে পড়ে যায় মাফিয়া নামে তিন বছরের কন্যা শিশু। 


নিহতের মা ও প্রতিবেশীরা শিশু মাফিয়াকে  উদ্ধার করে নাগরপুর  সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে, কর্তব্যরত মেডিকেল অফিসার ডা. শাহেদ আল ইমরান মৃত ঘোষণা করেন।


এদিকে পানিতে ডুবে শিশু মাফিয়ার  মৃত্যুর সংবাদ শুনে গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

মাধবপুর থানা কমপ্লেক্সের গোল ঘর দোলনচাঁপা উদ্বোধন।

মাধবপুর থানা কমপ্লেক্সের গোল ঘর  দোলনচাঁপা উদ্বোধন।




লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:হবিগঞ্জের মাধবপুর থানা কমপ্লেক্সের নান্দনিক গোল ঘর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লাহ বিপিএম,পিপিএম বলেছেন,গোল ঘরটি হবে সামাজিক বিরোধ নিস্পত্তির একটি অন্যতম স্থান। ছোটকাট ঝগড়া বিবাদ জনপ্রতিনিধি ও পুলিশের সমন্বয়ে এখানে ছোট পরিসরে নিষ্পত্তি করা হবে।


তিনি (১২-সেপ্টেম্বর) শনিবার সকাল ১১ টার দিকে মাধবপুর থানা পুলিশের তত্ত্বাধানে নব নির্মিত নান্দনিক গোল ঘর দোলন চাঁপা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে  প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। এ সময় মাধবপুর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার নাজিম উদ্দীন, মাধবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইকবাল হোসেন


মাধবপুর ট্রাফিক জোনের ইন্সপেক্টর ফারুক আল মামুন ভুইয়া, মাধবপুর থানার সেকেন্ড অফিসার মোসলেহ উদ্দিন, হবিগঞ্জ ডিএসবির এসআই সাইকুল ইসলাম সুজন, চুনারুঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ নাজমুল হক,  চেয়ারম্যান ফারুখ পাঠান ও আপন মিয়া ইন্সপেক্টর গোলাম দস্তগীর আহমেদ।


ইন্সপেক্টর কামরুল হাসান ও ইন্সপেক্টর গোলাম মোস্তফা, এসআই-এনামুল এসআই আহাদ এসআই বিলাল, আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক তাজুল ইসলাম,আওয়ামীলীগে নেতা বেনু রঞ্জন রায়, মাধবপুর প্রেসক্লাবের সেক্রেটারি সাব্বির হাসান,প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি রোকন উদ্দিন লস্কর, সিনিয়র সাংবাদিক আইয়ুব খান, সাংবাদিক লিটন পাঠান। আরো উপস্থিত ছিলেন থানার অফিসারবৃন্দ।

আত্রাইয়ে নবগঠিত যুবদলের পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত

 আত্রাইয়ে নবগঠিত যুবদলের পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত



মোঃ ফিরোজ হোসাইন 

রাজশাহী ব্যুরো

নওগাঁর আত্রাইয়ে উপজেলার যুবদলের নবগঠিত আহবায়ক কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার সকাল ১০টায় আত্রাই সাব-রেজিষ্টি অফিসের পাশে রেজুর মিল চত্বরের বিএনপি'র অস্থায়ী কার্যালয়ে বাংলাদেশ বিএনপির যুবদল আত্রাই উপজেলা শাখার আয়োজনে পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়।  

আত্রাই উপজেলা  যুবদলের আহবায়ক মোঃ একরামুল বারী রঞ্জু'র সভাপতিত্বে ও  উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ খোরশেদ আলমের সংঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসাব উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন- নওগাঁ জেলা যুবদলের সহ -সভাপতি মোঃ ইমতিয়াজ রাব্বি রাজা।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক রাশিকুজ্জামান উজ্জল ও সিনিয়র সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ রুহুল ইসলাম শ্যামল, সহ-সাধারণ সম্পাদক এস এম আব্দুল হাই লুটু। উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুল জলিল চকলেট, মোঃ তছলিম উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান, আব্দুল মান্নান সরদার, মোঃ আব্দুল হাকিম বক্তব্য রাখেন । এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ পারভেজ ইকবাল, আইনুল হক বাবু, আসাদুজ্জামান বুলেট, আশরাফুল ইসলাম লিটন,জাহাঙ্গীর আলম মিঠু, মোহাদ্দেস হোসেন টুটুল, কামরুল হাসান সাগর, রায়হান রায়হান কবির রতন। উপজেলা যুবদল সদস্য মোঃ তাজমিলুর রহমান পাথিন, আয়ূব আলী, হাবিবুর রহমান হবি, একরামূল হক, রফিকুল ইসলাম, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক আব্দুল মতিন, যুগ্ম আহ্বায়ক আলমগীর হোসেন, আজাদ, ছাত্রদলের আহ্বায়ক মোঃ শাকিল, যুগ্ম আহ্বায়ক পলাশসহ উপজেলা বিএনপি যুবদল, ছাত্রদলসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

আউটার স্টেডিয়ামে ভিবিডি চট্টগ্রামের সংস্কার ও পরিচ্ছন্ন অভিযান

আউটার স্টেডিয়ামে ভিবিডি চট্টগ্রামের সংস্কার ও পরিচ্ছন্ন অভিযান


স্টাফ রিপোর্টারঃ চট্টগ্রামের এম এ আজিজ আউটার স্টেডিয়াম মাঠ থেকেই বাংলাদেশ 

ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান থেকে র্বতমান অধিনায়ক 

তামিম ইকবালসহ অনেক কিংবদন্তি খেলোয়াড় উঠে এসেছে। ঐতিহ্যবাহী 

মাঠটি এখন ময়লা-আর্বজনার ভাগাড়ে পরিণত হয়ে খেলার অনুপযোগী হয়ে 

পড়েছে।

এ অবস্থায় মাঠটিকে আগের রূপে ফিরিয়ে আনতে এবং মানুষকে পরিচ্ছন্ন 

পরিবেশের জন্য উ সাহ যোগাতে শুক্রবার (১১সেপ্টেম্বর) ভলান্টিয়ার 

ফর বাংলাদেশ (ভিবিডি) - চট্টগ্রাম জেলা, চট্টগ্রাম সিটি র্কপোরেশন 

এবং চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহযোগিতায় ২০০জন স্বেচ্ছাসেবক 

নিয়ে "ঞবধস টঢ় ঃড় ঈষবধহ টঢ়" নামে পরিচ্ছন্নতা প্রকল্পের ২য় র্পব 

সম্পন্ন করেছে। এর আগে গত ২৫শে আগষ্ট প্রথমবারের মতো তারা 

মাঠটি পরিষ্কার করে।

এই র্পবে ভিবিডি'র সাথে ঐঁষঃ চৎরুব ধঃ ঈঠঅঝট ও ডব নামে একটি 

পরিবেশবাদী সংগঠনও অংশগ্রহণ করেছে। 

এদিন তারা সিটি র্কপোরেশনের পরিচ্ছন্ন র্কমীদের সহায়তায় মাঠ থেকে 

পানি নিষ্কাশন, ময়লা-আর্বজনা পরিস্কার, মাঠের উঁচুনিচু জায়গাগুলো 

সমান করে, আশেপাশের আগাছা কেটে মাঠটিকে খেলার উপযোগী করে 

তোলার চেষ্টা করেন। র্সবশেষ মাঠটি পরিষ্কার রাখতে জনসাধারনকে 

সচেতন করার লক্ষ্যে স্বেচ্ছাসেবকরা বিভিন্ন স্লোগান সম্বলিত 

প্লের্কাড প্রর্দশন করেন।

প্রকল্প সম্মন্ধে ভিবিডি চট্টগ্রামের সভাপতি মোঃ কাউসার হোসেন 

বলেন, "এই মাঠ চট্টগ্রামের গৌরব, এটিকে বাঁচিয়ে রাখা আমাদের 

নাগরিক দায়িত্ব। আমাদের দায়িত্ববোধ থেকেই মাঠটিকে খেলার উপযোগী  করে তুলতে ও আগামী ডিসেম্বর র্পযন্ত রক্ষনাবেক্ষণ করতে আমাদের 

এই উদ্যোগ। যাতে করে জনসাধারনের মাঝে একটি র্দীঘমেয়াদী 

পরির্বতন আসে। আশা করি চট্টগ্রামের নাগরিক সমাজ ও র্কতৃপক্ষ 

মাঠটির দিকে সদয় দৃষ্টি দিয়ে মাঠটিকে সংস্কার করবেন এবং 

তরুণদেরকে খেলাধুলায় উদ্ভুদ্ধ করে দেশের জন্য গৌরব বয়ে আনার 

সুযোগ করে দিবেন।"

এ সর্ম্পকে চট্টগ্রাম সিটি র্কপোরেশন প্রশাসক জনাব খোরশেদ আলম 

সুজন বলেন, "এটি ভলান্টিয়ার ফর বাংলাদেশের অত্যন্ত ভালো একটি 

উদ্যোগ। তরুণদের এই র্কাযক্রমগুলো আমার কাজে উ সাহ জোগায়। 

সিটি র্কপোরেশন থেকে যা যা লাগবে, আমরা তা দিয়ে তাদেরকে সাহায্য 

করবো।"

নতুনধারা কুমিল্লা জেলা আহবায়ক হলেন -প্রকৌশলী লিলি

নতুনধারা কুমিল্লা জেলা আহবায়ক হলেন -প্রকৌশলী লিলি





প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ প্রকৌশলী লিলি চক্রবর্তীকে আহবায়ক ও আ হ ম সাঈদ কামালকে সদস্য সচিব করে নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবি কুমিল্লা জেলা আহবায়ক অনুমোদন দিয়েছেন চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা এবং মহাসচিব নিপুন মিস্ত্রী। ১২ সেপ্টেম্বর দুপুরে অনুমদিত ১১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির অন্যান্যরা হলেন- যুগ্ম আহবায়ক জারিন চৌধুরী, কায়সার আহমেদ, সদস্য- সুশান্ত হাজরা, রহিম মো. আজাদ, শেখ মুজিবুর রহমান নান্টু, সাকিল হাসান, বিমল চন্দ্র কর্মকার, আবিদুর রহিম এবং ডা. জীবন চৌধুরী (এমবিবিএস-অব.) 

নভেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির জাতীয় সম্মিলনকে কেন্দ্র করে সকল শাখার কার্যকরি কমিটি বিলুপ্ত করে আহবায়ক কমিটি গঠনের সূত্রতায় ‘রি-অরাগানাইজিং টিম’-এর তত্বাবধায়নে দেশের ৪৪ টি জেলা ও ১০৪ টি উপজেলার কার্যকরি কমিটি বিলুপ্ত করার ধারাবাহিকতায় আহবায়ক কমিটি অনুমোদনের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। এই কর্মসূচী চলাকালে বায়ান্নকে প্রেরণা-একাত্তরকে চেতনা এবং সকল বীরের প্রতি যথাযথ সম্মান প্রদর্শনের মধ্য দিয়ে দারিদ্র-দুর্নীতি-সন্ত্রাস-খুন-গুমমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে আগ্রহী যে কেউ চাইলেই ০১৯৭২-৭৪০০১৫ নাম-ঠিকানা-জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর লিখে এসএমএস করলেই প্রাথমিক সদস্য করে রিপ্লাই ম্যাসেজ এবং কল করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রেসিডিয়াম মেম্বার রাজেন্দ্র দাস মন্টু।


পটিয়ার ভান্ডারগাঁও এক ব্যাক্তির পুকুরের মাছ লুটপাট হত্যার হুমকির অভিযোগ

পটিয়ার ভান্ডারগাঁও এক ব্যাক্তির পুকুরের মাছ লুটপাট হত্যার হুমকির অভিযোগ

পটিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ- চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলা কাশিয়াইশ ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডে রঞ্জন বডুয়ার বাড়িতে গৌতম বড়ুয়া নামে এক ব্যাক্তির মৌরশী পুকুরের মেশিন দিয়ে পানি সেচন করে মাছ লুটপাট করেছে মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ৩ সেপ্টেম্বর রাত অনুমান ১১টায়। এঘটনায় মৃত রস হরি বড়ুয়ার ছেলে গৌতম বড়ুয়া ৪ সেপ্টেম্বর  বাদী হয়ে একই এলাকার বিধান চন্দ্র 


বড়ুয়া, মিল্টন বড়ুয়া  সরেশ বড়ুয়া, সাগর বড়ুয়ার বিরুদ্ধে পটিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। থানার দায়েরকৃত অভিযোগ সুএে জানাযায়, গৌতম বড়ুয়ার পিতার সাথে প্রতিপক্ষ বিধান চন্দ্র বড়ুয়া গং এর মধ্যে ভান্ডারগাঁও মৌজার আর এস ৬৯৫ নং খতিয়ানের আর এস দাগ নং ৩১২/৩৬৪, বিএস দাগ নং ১৪১২/১৪৫২ পুকুর নিয়ে বিরোধ দেখা দিলে গৌতম বডুয়া পিতা  রস হরি বড়ুয়া বাদী হয়ে ঘোষণা মুলক প্রতিকার পাওয়ার আবেদন জানিয়ে বিধান চন্দ্র বড়ুয়া সহ ১০ জনের বিরুদ্ধে  পটিয়া সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে অপর মিচ মামলা নং ৩৩৪/১৩ ইং দায়ের করে। বর্তমানে মামলাটি আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। কিন্তু প্রতিপক্ষরা তা না মেনে গায়ের জোরে গত ৩ সেপ্টেম্বর রাতে   পুকুর সেচন করে মাছ লুটপাট করছে বলে থানার দায়েরকৃত অভিযোগ সুএে জানাযায়। প্রতিপক্ষদের পুকুর সেচ ও মাছ লুটপাট করার কাজে গৌতম বডুয়াসহ পুকুরের  অন্যন্য শরীকগণ  বাঁধা দিলে তাদেরকে নানান ধরনের হত্যার হুমকি ধামকি ভয়ভীতি প্রদর্শন করেন বলে গৌতম বডুয়ার অভিযোগ করেন । সে এ ব্যাপারে পটিয়া থানার পুলিশ  প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে। অভিযোগ পরিপ্রেক্ষিতে ঘটনাটি তদন্ত করছেন এস আই  নাজমুল কবীর। 

শৈলকুপা এখন সাপের রাজ্য!

শৈলকুপা এখন সাপের রাজ্য!

সম্রাট হোসেন, শৈলকুপা (ঝিনাইদহ)প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহের শৈলকুপায় সাপেড় কামড়ে ইজাহিদ (৭) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ঘুমন্ত অবস্থায় বিষধর সাপে তাকে দংশন করলে শনিবার সকাল ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়। শিশু ইজাহিদ উপজেলার বাগুটিয়া গ্রামের মনোয়ার হোসেনের ছেলে।


বাগুটিয়া গ্রামের সাহেব আলী জানান, প্রতিদিনের ন্যায় শিশু ইজাহিদ তার পিতার সাথে ঘুমিয়ে ছিল। রাত সাড়ে ১০টার দিকে তাকে একটি বিষধর সাপে দংশন করে। সাথে সাথে পরিবারের সদস্যরা তাকে গ্রামের এক কবিরাজের নিকট নিয়ে চিকিৎসা শুরু করে। কবিরাজের ঝাড়ফুক চলাকালিন শনিবার সকাল ৮টার দিকে তার মৃত্যু হয়।একের পর এক সাপে কেটে মারা যাচ্ছে মানুষ যা দেখে মনে হচ্ছে শৈলকুপা এখন সাপের রাজ্য!     

যশোরের বর্ষিয়ান আইনজীবী সালাহউদ্দিন স্বপন আর নেই, শোক

 যশোরের বর্ষিয়ান আইনজীবী সালাহউদ্দিন স্বপন আর নেই, শোক


সুমন হোসেন, যশোর জেলা প্রতিনিধিঃযশোরের বর্ষিয়ান আইনজীবী সালাহউদ্দিন স্বপন আর নেই। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন।শুক্রবার রাত ১১ টা ৫৫ মিনিটে তিনি ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায়  মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। নিহতের ভাইপো সিরাজুস সালেকিন জানান, শনিবার ভোরে নিহতের লাশ নিয়ে তারা ঢাকা থেকে যশোরের উদ্দেশ্যে রওনা দেবেন। আসর বাদ জেলা স্কুল প্রাঙ্গনে জানাজা শেষে কারবালা কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।


উল্লেখ্য, যশোর জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন স্বপন কিডনি  জনিত রোগ সহ বিভিন্ন রোগে দীর্ঘদিন ধরে ভুগছিলেন। এর মাঝে তার অবস্থার অবনতি হয়।পরে তাকে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।  ১৫ দিনের মাথায় সেখানেই তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।


এদিকে বর্ষিয়ান এ আইনজীবীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন যশোর জেলা আইনজীবী সমিতির নেতৃবৃন্দ। যশোর জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এম ইদ্রিস আলী জানান, আগামী রোববার জজ আদালতে ফুলকোর্ট রেফারেন্স অনুষ্ঠিত হবে। পরে দুপুর ১২ টায় যশোরজেলা আইনজীবী সমিতির এক নম্বর ভবনের মিলনায়তনে  নিহতের রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া ও স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হবে।


উল্লেখ্য,সালাহউদ্দিন স্বপন ১৯৭৮ সালের ২৫ অক্টোবর আইনজীবী সমিতিতে যোগদান করেন। তিনি যশোর শহরের খড়কি এলাকার মৃত আলাউদ্দিন আহম্মেদের ছেলে।

আশাশুনিতে কূকীর্তি প্রকাশ করায় সাংবাদিককে পিটিয়ে জখম

আশাশুনিতে কূকীর্তি প্রকাশ করায় সাংবাদিককে পিটিয়ে জখম



আহসান উল্লাহ বানলু, উপজেলা  প্রতিনিধিঃআশাশুনিতে জন প্রতিনিধি ও তার সাঙ্গপাঙ্গদের হাতে একের পর এক নির্মমভাবে মারধরের শিকার হয়েছেন সাংবাদিক সাইদুল ইসলাম, স্থানীয় শুকুর আলীসহ তার পরিবারের সদস্যরা। মামলা করলেও এখনো কোন আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় একের পর এক হুমকীধামকী ও হামলার শিকার পরিবারগুলো প্রশাসনের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। 


থানায় দায়েরকৃত মামলা, অভিযোগ ও জিডি সূত্রে প্রকাশ, দরগাহপুর ইউপি মেম্বার রামনগর গ্রামের মৃত স্বরূপ গাজীরপুত্র মুজিবর এবং তার সহযোগিরা এলাকায় দীর্ঘদিন নিরীহ মানুষদেরকে মিথ্যা মামলা ও ভয়ভীতি দেখিয়ে হয়রানী করে আসছেন। জমিজমার বিরোধের শত্রুতায় তারা মৃত নছিমুদ্দীন গাজীর পুত্র শুকুর আলী দিংকে হয়রানী ও জীবন নাশের হুমকী দিয়ে আসছিল। ১০ মে তারা দেশীয় অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে শুকুরদের বাড়িতে অনধিকার প্রবেশ করে হত্যার উদ্দেশ্যে শুকরকে বেদম মারপিট করে। ঠেকাতে গেলে তার বোন নাছিমা, চাচাত ভাই লিয়াকত ও ভাগ্নে রুবেলকেও বিদম মারপিট, হত্যার চেষ্টা, শ্লীলতাহানি, ভাংচুর, স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা লুটপাট করে। তাদেরকে গুরুতর আহত অবস্থায় আশাশুনি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। থানায় ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে ২৩ মে মামলা (নং ১০) রুজু করা হয়। এরপর থেকে তারা দায়েরকৃত মামলা উঠিয়ে নিতে হুমকীধামকী ও ক্ষয়ক্ষতি করতে থাকে। মামলা তুলে না নেওয়ায় ৭ জুন তারা শুকুরের মৎস্য ঘেরের বাঁধ কেটে দিয়ে অনুঃ লক্ষ টাকার মাছ ভাসিয়ে দেয়। বাধা দিতে গেলে তাকে আবারও মারপিট করে জখম করা হয়। এব্যাপারে ১০ জুন ইউপি সদস্য মুজিবরসহ ৪ জনের নামে থানায় সাধারণ ডায়রী (নং ৩৯৭) করা হয়। আসামীরা গ্রেফতার এড়িয়ে বহাল তবিয়তে এলাকায় থেকে দাপটের সাথে বাদী পক্ষ ও স্বাক্ষীদের উপর খুনজখমের হুমকী অব্যাহত রাখে। এমনকি মেম্বার মুজিবুরের কূকীর্তি পত্রপত্রিকায় প্রকাশের অপরাধে স্থানীয় সাংবাদিক সাইদুল ইসলামকে গত ৭ সেপ্টেম্বর বিকাল ৫ টার দিকে আসামীরা রামনগর বাজারে ফিল্টারের পাশে আটকে লোহার রড ও জিআই পাইপ দিয়ে নাকে, মাথায়, হাতে মারপিট করে হাড়ভাঙ্গা জখম করে। তার হাতের আঙ্গুল ও মুখের দাঁত ভেঙ্গে যায়। গলায় গামছা দিয়ে ফাঁস আটকে হত্যার চেষ্টা করে। তার কাছে থাকা অপো টার্চ মোবাইল, নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়। জামাকাপড় ছিড়ে ফেলে। স্বাক্ষীরা উপস্থিত হলে খবর প্রকাশের মজা দেখান হবে বলে জীবন নাশের হুমকী দিয়ে কেটে পড়ে। তাকে আশাশুনি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এব্যাপারে ৭ সেপ্টেম্বর থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। এছাড়া গ্রামের কামাল হুসাইন, স্বপন কুমার ঘোষাল তাদের বিরুদ্ধে থানায় জিডি ও অভিযোগ করেছেন। বহু নির্যাতিত মানুষ তাদের দুর্দান্ত বাহিনীর ভয়ে মুখ খুলতে শাহস পাচ্ছেনা। এব্যাপারে আসামী ও অপরাধী চক্রের বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহন ও আসামীদের গ্রেফতারের জন্য বাদীপক্ষ ও এলাকার ভুক্তভোগিরা জোর দাবী জানিয়েছেন। সাথে সাথে অসহায় মানুষদের নিরাপত্তার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়েছে।

রূপসা সেতু এলাকায় বাস-প্রাইভেটকার মুখোমুখি সংঘর্ষ

 রূপসা সেতু এলাকায় বাস-প্রাইভেটকার মুখোমুখি সংঘর্ষ



তুহিন রানা (আব্রাহাম) খুলনা নগর প্রতিনিধিঃখুলনা মহানগরীর রূপসা সেতুর লবনচরা এলাকায় প্রাইভেটকারের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে ওহাব জুটমিলের একটি স্টাফ বাস উল্টে গেছে।

শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।এতে প্রাইভেটকারের যাত্রীদের আহতাবস্থায় উদ্ধার করে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওহাব জুটমিলের স্টাফ বাস (পিরোজপুর মেট্রো জ ০৫-০০২৮) রূপসা সেতু থেকে নেমে লবণচরা এলাকায় ইউটার্ন নেওয়ার সময় প্রাইভেটকারের (ঢাকা মেট্রো ক ১১-৩৮২৫) সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে বাসটি উল্টে গেলেও কেউ হতাহত হননি। তবে প্রাইভেটকারের আরোহীরা আহত হয়েছেন

তাদের উদ্ধার করে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রূপসা সেতুতে টোল আদায়কারী প্রতিষ্ঠান ইউডিসি-জিআইইটিসি জেভী-এর প্রকল্প ব্যবস্থাপক সৈয়দ মাহফুজ পারভেজ বাংলানিউজকে বলেন, রূপসা সেতুর লবণচরা এলাকায় প্রাইভেটকারের সঙ্গে ওহাব জুটমিলের বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়েছে।

খবরটি পেয়েছি। সেখানে সেতু কর্তৃপক্ষের একটি প্রতিনিধি দল পরিদর্শনে যাবো।

মোংলায় ১০ কেজি হরিণের মাংসসহ পাচারকারী আটক

মোংলায় ১০ কেজি হরিণের মাংসসহ পাচারকারী আটক

মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা: মোংলায় ১০ কেজি হরিণের মাংসসহ এক পাচারকারীকে আটক করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে পৌর শহরের শেহালাবুনিয়া এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। 


মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: ইকবাল বাহার চৌধুরী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই মো: জাহাঙ্গীর হোসেনসহ সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যরা শুক্রবার রাতে শেহলাবুনিয়া এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় শেহালাবুনিয়ার রামপাল ষ্টোরের সামনে থেকে ১০ কেজি হরিণের মাংসসহ পাচারকারী বাচ্চু হাওলাদার (৪০) কে হাতেনাতে আটক করে অভিযানকারীরা। বাচ্চুর কাছে পাওয়া ব্যাগের মধ্যে হরিণের মাংস ছাড়াও মাথা এবং পা রয়েছে। বাচ্চু পৌর শহরের কুমারখালী এলাকার জনৈক দেলোয়ার হোসেনের বাড়ীর ভাড়াটিয়া বাসিন্দা। বাচ্চু বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলার তেলিখালী গ্রামের মো: মজনু হাওলাদারের ছেলে। 


এসআই জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, বাচ্চু সুন্দরবনের সংঘবদ্ধ হরিণ শিকারী চক্রের অন্যতম সদস্য। সে দীর্ঘদিন ধরে হরিণ শিকারসহ হরিণের মাংস মোংলা ছাড়াও আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় চড়া দামে সরবরাহ করে আসছিল। 

ছুটিপুর বাজারে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান,জরিমানা আদায়

ছুটিপুর বাজারে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান,জরিমানা আদায়


জামাল হোসেন জয় ॥   ছুটিপুর বাজারে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান,জরিমানা আদায়।জানা যায় যশোরের ঝিকরগাছার ছুটিপুর বাজারে বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর)   অভিযান চালিয়ে অপরিষ্কার পরিবেশে খাবার ও বাশি খাবার পরিবেশন করায় ১ হোটেল ব্যবসায়ী ও মুদিখানা, ফার্মেসীতে মেয়াদ উর্ত্তীর্ণ ঔষধ, মালামাল বিক্রয় করায় ২ ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। উক্ত আদালতের নেতৃত্ব দেন  নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাহমুদুল হাসান।বুধবার দুপুরে ছুটিপুর কাচা বাজার  রোডের কহিনুর ফার্মেসীর সামনে এ অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় কাঁচামাল ব্যবসায়ীরা ১২০ টাকা কেজি দরে কেনা কাঁচা মরিচ ২শ’ টাকা বিক্রি করা এবং অতিরুক্ত দামে পেয়াজ বিক্রি করার অপরাধে  ২ কাচা মাল ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেন। অভিযানকালে ভ্রাম্যমাণ আদালতের সাথে আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের সহকারী পরিচালক মো. ওয়ালিদ বিন হাবিব, বাজার কর্মকর্তা প্রমুখ 

কোটচাঁদপুরে জমি সংক্রান্ত বিষয়ে সাংবাদিক সহ পরিবারে সবাই হামলার শিকার, থানায় অভিযোগ

 কোটচাঁদপুরে জমি সংক্রান্ত বিষয়ে সাংবাদিক সহ পরিবারে সবাই  হামলার শিকার, থানায় অভিযোগ

খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধান:ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর মেইন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় জমিজমা সংক্রান্তের জের ধরে প্রতিবেশী আনোয়ার হোসেন এর হামলায় মারধরে আহত হন সাংবাদিক শহিদুল ইসলাম ও তার পিতা আব্দুল আজিজ ও মাতা হাজেরা খাতুনসহ শহিদুল এর ছোট ভাই সাহিদ।


নিজ বসতভিটায় বাড়ি করার লক্ষে প্রতিবেশীদের সাথে সীমানা ঠিক করার জন্য সামাজিক ভাবে স্থানীয় সুধীজনদের সাথে মতবিনিময় করার এক মূহুর্তে পূর্বপরিকল্পিত ভাবে আনোয়ার হোসেন (৩৫) অতর্কিত হামলা চালায়, সাংবাদিক শহিদুল ইসলাম ওপর। এসময় তার পিতা আব্দুল আজিজ ঠেকাতে গেলে তার ওপরও হামলা চালায় আনোয়ার হোসেন। এতে গুরুতর জখম হয় শহিদুল ইসলাম, শহিদুল এর মা হাজেরা খাতুন ঠেকাতে আসলে তার মাকে বাঁশ দিয়ে আঘাত করে এবং গায়ের ম্যাকসি ছিঁড়ে দেয় এই আনোয়ার এ সময় সাহিদ কেউ আঘাত করে এই আনোয়ার। 


(১১ই সেপ্টেম্বর) শুক্রবার রাত ৯ টার দিকে কোটচাঁদপুর সরকারি বনবিভাগ এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে।


এ বিষয়ে কোটচাঁদপুর মডেল থানায় একটি অভিযোগ হয়েছে বলে জানাযায় ।

২ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকা-কাতার ফ্লাইটে যাত্রীরা গিয়েছিলেন বিশেষ অনুমতি নিয়ে!

 ২ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকা-কাতার ফ্লাইটে যাত্রীরা গিয়েছিলেন বিশেষ অনুমতি নিয়ে!

মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার :গত ৭ সেপ্টেম্বর বিমান বাংলাদেশ এর একটি ফ্লাইট মাত্র ২ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকা থেকে কাতার এর উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। এ ব্যাপারে অনেক সংবাদমাধ্যমেই সংবাদ করা হয়েছে এবং আলোচনা হয়েছে সর্বত্র, এবং এই বিষয়ে নিজেদের অফিশিয়াল বক্তব্য প্রকাশ করেছে বিমান বাংলাদেশ! বিমান কর্তৃপক্ষ জানায়, এই ফ্লাইটে যাত্রী দুজন গিয়েছেন বিশেষ অনুমতি নিয়ে!


বিগত ১০ সেপ্টেম্বর বিমান বাংলাদেশ এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত একটি প্রেস রিলিজে বিমান বাংলাদেশ এর জনসংযোগ বিভাগের উপ মহাব্যবস্থাপন তাহেরা খন্দকার জানান, বিমান বাংলাদেশ এর যেই ফ্লাইটটিতে করে ২ জন যাত্রী ঢাকা থেকে কাতারের দোহায় যান, সেই ফ্লাইটটি মূলত লেবাননের বৈরুত থেকে ঢাকায় প্রবাসীদের ফিরিয়ে আনার জন্য ব্যবহার করা হচ্ছিলো। ফ্লাইটটির রুট হচ্ছে ঢাকা – দোহা – বৈরুত, এবং এর মাঝে ঢাকা থেকে দোহা রুটে ফ্লাইটটি কার্গো ফ্লাইট হিসেবে পরিচালনা করা হয়, এবং দোহা থেকে বৈরুতে গিয়ে বৈরুত থেকে ঢাকায় প্রবাসী বাঙালীদের দেশে ফিরিয়ে আনা হয়।



এই প্রেস রিলিজে আরো বলা হয়, ফ্লাইট বিজি-৪০২৫ বিগত ৭ সেপ্টেম্বর ৩১ হাজার ১৩৬ কেজি কার্গো নিয়ে ঢাকা থেকে কাতারের দোহা রুটে যাত্রা শুরু করে, এবং এই ফ্লাইটে বিশেষ অনুমতি নিয়ে ২ জন যাত্রী ভ্রমন করে, এই ফ্লাইটটি দোহা থেকে বৈরুত পৌঁছে বৈরুত থেকে ৪০৮ জন প্রবাসী যাত্রীসহ ঢাকায় পৌছায়। করোনা পরবর্তী পরিস্থিতিতে বৈরুত থেকে ঢাকায় প্রবাসী যাত্রীদের ফিরিয়ে আনার জন্য এটা ছিলো বিমান বাংলাদেশ এর ৬ষ্ঠ ফ্লাইট।

সিরাজগঞ্জে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বাল্যবিবাহ বন্ধ

সিরাজগঞ্জে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বাল্যবিবাহ বন্ধ

 

মাসুদ রানা  সিরাজগঞ্জ  জেলা প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জ  সদর উপজেলার শিয়ালকোল ইউনিয়নের চন্ডিদাসগাতি গ্রামে শুক্রবার  দিনে বেল্লাল হোসেন   মেয়ে ৮ম শ্রেনীতে পড়–য়া স্কুল ছাত্রীর বাল্য বিবাহ বন্ধ করলেন জেলা প্রশাসন।জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে,শুক্রবার  দুপুরে  গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা প্রশাসন বাল্য বিবাহের সংবাদ জানতে পেরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফয়সাল  আহমেদ  এর নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিবারকে বুঝিয়ে লিখিত নিয়ে বাল্য বিবাহ বন্ধ করা হয়। এসময় বিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭ এর ৮ ধারা অনুযায়ী কনে পক্ষের অভিবাবক এবং বরপক্ষের অভিভাবক কে অর্থদন্ড প্রদান করা হয়।নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফয়সাল  আহমেদ বলেন,কনে ক্লাস ৮ম শ্রেনীতে  পরে আর তার বয়স ১৪ বছর ৫ মাস।কনে পক্ষের অভিবাবক অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়ে অন্তরাকে বিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেন যা দন্ডনীয় অপরাধ। বাল্য বিবাহের সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে বাল্য বিবাহ বন্ধ করি এবং প্রাপ্ত বয়স না হওয়া পর্যন্ত মেয়ে বিবাহ দিবে না এই বলে মেয়ের বাবার কাছ থেকে  এই মর্মে মুচলেকা নেয়া হয়।