হবিগঞ্জে সদর হাসপাতালে ছদ্মবেশে ডিসির অভিযান দুই দালাল আটক

 হবিগঞ্জে সদর হাসপাতালে ছদ্মবেশে ডিসির অভিযান দুই দালাল আটক


.


লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃহবিগঞ্জের সদর আধুনিক হাসপাতালে ভোগান্তির অপর নাম দালাল চক্র দালালদের খপ্পরে পড়ছেন না এমন কোন রোগী ও তার স্বজন হয়তো খুঁজে পাওয়া যাবে না। দিন রাত ২৪ ঘন্টাই দালালদের উৎপাতে মুখরিত সদর হাসপাতাল এলাকা। যে কোন রোগী হাসপাতাল গেইটের সামনে গেলেই স্লিপ ধরতে দালালদের মধ্যে শুরু হয় টানা হেঁচড়ার প্রতিযোগীতা। আর এ প্রতিযোগীতার ফাঁদে পড়ে নিশ্বঃ হচ্ছেন গ্রামগঞ্চ থেকে আসা সাধারণ রোগীরা। 


মাঝে মধ্যে পুলিশ অভিযান চালিয়ে দু’একজনকে আটক করলেও মূল হোতারা থেকে যায় ধরা ছোয়ার বাইরে। পুলিশের এমন ভূমিকায় হতাশা প্রকাশ করেছেন স্থানীয় লোকজন। যদিও হাসপাতাল পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে অর্ধশতাধিক দালালের। এর মধ্যে এ পর্যন্ত আটক হয়েছে মাত্র হাতেগোণা কয়েকজন, বিষয়টি নজরে আসলে শুক্রবার (২-অক্টোবর) দুপুরে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে।


দালাল ধরতে সাধারণ মানুষের বেশে সেখানে অবস্থান নেন জেলা প্রশাসক মোঃ কামরুল হাসান এসময় তিনি চারপাশ পর্যবেক্ষণের পাশাপাশি হাতে-নাতে আটক করেন দুই দালালকে। তারা হল তালিকাভূক্ত দালাল সেলিম মিয়া ও বিলাল মিয়া। পরে তাদেরকে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে টাউট আইন ১৮৭৯ আওতায় ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাহ জহুরুল হোসেন জানান বেশ কিছুদিন যাবত সদর হাসপাতালে।


দালালদের দৌরাত্ম বৃদ্ধি পেয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় সেখানে জেলা প্রশাসক কামরুল হাসানের উপস্থিতিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় সদর হাসপাতালে তালিকাভূক্ত দালাল সেলিম ও বিলালকে আটক ৩ মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়ে কারাগারে প্রেরণ করা হয় তিনি আরো জানান দালালদের ধরতে জেলা প্রশাসনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

বালাদেশ কওমী ছাত্র পরিষদের উদ্যোগে আহমদ শফি (রহ.) এর স্বরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

বালাদেশ কওমী ছাত্র পরিষদের উদ্যোগে আহমদ শফি (রহ.) এর স্বরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল



ডা.এম.এ.মান্নান,টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:দেশের শীর্ষ আলেমে দ্বীন, হেফাজত ইসলাম বাংলাদেশ এর আমির, বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ এর সভাপতি ও চট্টগ্রাম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসার সম্মানিত  মুহতামিম আল্লামা শাহ আহমদ শফী (রহ.) এর জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল করেন বাংলাদেশ কওমী ছাত্রপরিষদ। 


আজ শুক্রবার, ২ অক্টোবর ২০২০ খ্রি.ঢাকার এক মিলনায়তনে আল্লামা শাহ আহমদ শফী (রহ.) এর জীবন ও কর্ম নিয়ে প্রধান অতিথির আলোচনা পেশ করেন বাংলাদেশ কওমী ছাত্রপরিষদের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক মাওলানা রিদ্ওয়ানুর রহমান হেলালী।    


বক্তারা বলেন, আল্লামা শাহ আহমদ শফী (রহ.) ছিলেন, ইসলাম বিরোধী সকল প্রকার ষড়যন্ত্র ও ষড়যন্ত্রকারীর বিরুদ্ধে লড়াকু সৈনিক। তিনি জীবন বাজি রেখে ইসলামের জন্য নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছেন। তিনি ছিলেন বাঙ্গালী জাতীর জন্য একজন দক্ষ রাহবার। তাকে হারিয়ে আমরা আজ গভীরভাবে শোকাহত।


দোয়া মাহফিল ও আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন পরিষদের কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব মুফতি মিয়া মুহাম্মদ ওমর কাজী, মুফতি মুহাম্মদ  আব্দুর রউফসহ কেন্দ্রীয় ও মহানগরীর দায়িত্বশীলবৃন্দ।             


আলোচনা সভা শেষে দোয়া মোনাজাতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

আশাশুনির শ্রীউলায় স্বেচ্ছাসেবীদের ওয়ারিয়েন্টেশন সভা অনুষ্ঠিত

 আশাশুনির শ্রীউলায় স্বেচ্ছাসেবীদের ওয়ারিয়েন্টেশন সভা অনুষ্ঠিত




আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধি:আগামী ৪-১৭ অক্টোবর সারাদেশে জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন পরিচালনার লক্ষে আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলায় স্বেচ্ছাসেবীদের অংশগ্রহনে জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন ওয়ারিয়েন্টেশন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় শ্রীউলা ইউনিয়ন পরিষদের অস্থায়ী কার্যালয়ে এ ওয়ারিয়েন্টেশন সভা অনুষ্ঠিত হয়। স্বাস্থ্য সহকারী সঞ্জয় কুমার মন্ডলের পরিচালনায় ওয়ারিয়েন্টেশন সভায় ইউপি সদস্যা তহমিনা জোয়ার্দার, ইউপি সদস্য ইয়াছিন আলী, আব্দুল হান্নান, পরিবার কল্যান পরিদর্শিকা কোহিনুর আক্তার বানু, স্বাস্থ্য সহকারী রাফেজা খানম, আবু জামান, আব্দুল মান্নান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আশাশুনির দাদপুর জামিআ দারুসসুন্নাহ মাদরাসার ছাদ ঢালাই সম্পন্ন

 আশাশুনির দাদপুর জামিআ দারুসসুন্নাহ মাদরাসার ছাদ ঢালাই সম্পন্ন


আহসান উল্লাহ  বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধি:আশাশুনি উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নের দাদপুর জামিআ দারুসসুন্নাহ মাদরাসার ছাদ ঢালাই সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে অত্র মাদরাসার ছাদ ঢালাই কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন, কুল্যা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বাছেত আল হারুন চৌধুরী। এসময় কুল্যা ইউপির সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী এসএম ওমর ছাকী পলাশ, মসজিদ কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব কামাল উদ্দিন বিশ্বাস, সাবেক মেম্বার নুর ইসলামসহ মাদরাসা ও মসজিদ কমিটির সদস্যবৃন্দ, এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মুসল্লীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। ছাদ ঢালাই কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন, মাদরাসার মুহতামিম হাফেজ আব্দুল হান্নান।

আশাশুনিতে হিন্দু মহাজোটের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

 আশাশুনিতে হিন্দু মহাজোটের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত



আহসান উল্লাহ  বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধি:আশাশুনিতে শারদীয় দূর্গোৎসব উদযাপনে ৩দিনের সরকারি ছুটি ঘোষণা, পূজাকালীন মন্ডপগুলোর পর্যাপ্ত নিরাপত্তা, সংখ্যালঘু মন্ত্রণালয় ও কমিশন গঠন সহ সারাদেশে অব্যাহত ধর্ষণের প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সকালে আশাশুনি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনের সড়কে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট আশাশুনি উপজেলা শাখার আয়োজনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। যুব মহাজোটের সমন্বয়কারী বিকাশ মন্ডলের পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন উপজেলা হিন্দু মহাজোটের সভাপতি ডাঃ আশুতোষ রায়, সিনিয়র সহ-সভাপতি বিধান চন্দ্র মন্ডল, তারাপদ হালদার, সাধারণ সম্পাদক মতিলাল সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক মধুসুধন রায়, কোষাধ্যক্ষ সুভাষ মন্ডল, আইন সম্পাদক ভোলানাথ মল্লিক, মহাজোট নেতা তৃপ্তি রঞ্জন সাহা প্রমুখ।

আশাশুনিতে আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস পালিত

আশাশুনিতে আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস পালিত



আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ   "সংঘাত নয়, সম্প্রীতি" এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আশাশুনিতে আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস পালিত হয়েছে। 


শুক্রবার সকালে জনতা ব্যাংক মোড়ে পিস ফ্যাসিলিটেটর গ্রুপ ( পি,এফ,জির) এর আয়োজনে  মানববন্ধনে অনুষ্ঠিত হয়। পিস ফ্যাসিলিটেটর গ্রুপ আশাশুনি উপজেলা কো-অর্ডিনেটর আব্দুস সামাদ বাচ্চুর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন হিন্দু মহাজোটের আশাশুনি উপজেলা সভাপতি গ্রাম ডা: আশুতোষ রায়, আশাশুনি প্রেসক্লাব সভাপতি জি,এম, আল-ফারুক,পিএফজি'র এম্বাসেডর আশাশুনি প্রেসক্লাব সাংগঠনিক সম্পাদক এস,কে হাসান, সদস্য গোলাম মোস্তফা, এম এম সাহেব আলী,জগদিশ চন্দ্র সানা, উপজেলা কৃষক লীগ সাধারণ সম্পাদক মতিলাল সরকার, কৃষকলীগ সদর ইউনিয়ন সভাপতি মধুসূদন রায়, সাবেক প্রধান শিক্ষক তারাপদ হাওলাদার, সহকারি শিক্ষক মানস সরকার, বিধান চন্দ্র সরকার, শরিফুল ইসলাম, তানভির রহমান রাজ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

আশাশুনিতে আরসিসি রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন

আশাশুনিতে আরসিসি রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন

আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় আশাশুনিতে আরসিসি রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে আশাশুনি পূর্বপাড়া আবুল বাড়ির সামনে হতে মুক্তিযোদ্ধা হাফিজুল ইসলামের বাড়ি পর্যন্ত ১৭০ ফুট রাস্তা ও ১৫০ ফুট ট্রেনের ঢালাই কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন, জেলা পরিষদ সদস্য ও উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মহিতুর রহমান। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নজরুল ইসলামের দিকনির্দেশনায় রাস্তাটি নির্মাণ করার জন্য জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে চার লক্ষ টাকা বরাদ্ধ দেওয়া হয়েছে।

আশাশুনিতে জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস পালিত

আশাশুনিতে জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস পালিত

আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধি:“জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে উৎপাদনশীলতা” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আশাশুনিতে জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস-২০২০ পালিত হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টায় উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে দিবসটি উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহীন সুলতানা, কৃষি অফিসার রাজিবুল হাসান, প্রাণিসম্পদ অফিসার ডাঃ মিজানুর রহমান, সহকারী মৎস্য অফিসার মোস্তাফিজুর রহমানসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর( অবঃ) অধ্যাঃ ডাক্তার মোঃ নাসির উদ্দিন এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর মাদক ও সন্ত্রাস নির্মূল হয়েছে-আমিনুর রহমান

বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর( অবঃ) অধ্যাঃ ডাক্তার মোঃ  নাসির উদ্দিন এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর মাদক ও সন্ত্রাস নির্মূল হয়েছে-আমিনুর রহমান

 



স্টাফ রিপোর্টারঃ যশোর - ২( চৌগাছা ঝিকরগাছা)আসনে বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল ( অবঃ) অধ্যাপক ডাক্তার মোঃ নাসির উদ্দিন এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর ১ নং গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়ন থেকে  মাদক ও সন্ত্রাস নির্মূল হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন অত্র ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও  এমপি প্রতিনিধি মোঃ আমিনুর রহমান। আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে সামনে রেখে আজ ( ২ রা অক্টোবর) শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটায় ব্যাংদাহ বাজারে   ১নং ওয়ার্ডের নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় কালে এমপি প্রতিনিধি ও আসন্ন ইউনিয়ন নির্বাচনে চেয়ারম্যান মনোনয়ন প্রত্যাশী মোঃ আমিনুর রহমান এ মন্তব্য করেন।

 

উক্ত আলোচনা ও মতবিনিময় অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা  মোঃ জয়নুর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এমপি প্রতিনিধি আশরাফুল ইসলাম,  ব্যাংদাহ সম্মিলিত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি মোঃ মিলন হোসেন, ১নং গঙ্গানন্দরপুর  ইউনিয়ন আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরামের সভাপতি প্রভাষক মোঃ মহসীন আলী,  আ'লীগ নেতা আন্জুর রহমান, সাবেক ইউপি সদস্য সামসুর রহমান, আ' নেতা দিয়ানত আলী, সোনা মিয়া, মুরাদ আলী,শহীদ হোসেন, ইউনুস আলী,আহসান আলী,আতাউল হক ( আতাল),তরিকুল ইসলাম, ছাত্র লীগ নেতা শামিম হোসেন,আরিজুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা সামাউল ইসলাম,উসমান হোসেন, মজনু হোসেন প্রমুখ।এছাড়াও অত্র ওয়ার্ডের নেতাকর্মী  সাধারণ ভোটার উপস্থিত ছিলেন। 

নন্দীগ্রামে আ’লীগ নেতা রানা’র বিরুদ্ধে অপপ্রচারের নিন্দা ও প্রতিবাদ

নন্দীগ্রামে আ’লীগ নেতা রানা’র বিরুদ্ধে অপপ্রচারের নিন্দা ও প্রতিবাদ




প্রেস বিজ্ঞপ্তি :নন্দীগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ও বগুড়া জেলা পরিষদের সদস্য আনোয়ার হোসেন রানার বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দায়েরের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন নন্দীগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রফিকুল ইসলাম রফিক, সহ-সভাপতি শফি উদ্দিন, পৌর আ’লীগের সভাপতি ও প্যানেল মেয়র আনিছুর রহমান, সাধারন সম্পাদক মুকুল হোসেন, আ’লীগ নেতা মখলেছুর রহমান মিন্টু, জুলফিকার আলী, একরাম হোসেন, মোরশেদুল বারী, কালিপদ রায়, মোতাহার আলী, নিকুঞ্জু চন্দ্র, আনিছুর রহমান আলো, হাফিজুর রহমান নান্টু, তীর্থ সলিল রুদ্র, মোজাম্মেল হক, মোফাজ্জল হোসেন, উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারন সম্পাদক সরফুল হক উজ্জল, স্বে”ছা সেবক লীগের সাধারন সম্পাদক কামরুল হাসান সবুজ, পৌর শ্রমিক লীগের সভাপতি এনামুল হক, সাধারন সম্পাদক সানোয়ার হোসেন মিলন, যুবলীগ নেতা সুজন প্রমানিক, আকবর আলী, তাতী লীগের সভাপতি আবু নোমান, সাধারন সম্পাদক তারেক মাহমুদ ডিউ, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মশিউর রহমান, ছাত্রলীগ নেতা আবু নোমান নাদিম, আবু তৌহিদ রাজীব, আল-জাহিদসহ নেতৃবৃন্দ। নেতৃবৃন্দ বিবৃতিতে উল্লেখ করেন পারিবারিক বিষয় নিয়ে রাজনৈতিকভাবে হেয় করার অপচেষ্টার অংশ হিসেবে বিএনপি-জামায়াত ও তাদের এজেন্টরা ষড়যন্ত্রমূলকভাবে তার নামে মিথ্যা মামলা দিতে উস্কানী অব্যাহত রেখেছে। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে এসব অপতৎপরতা বন্ধের আহ্বান জানান। নতুবা নন্দীগ্রামের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবে।

সিরাজগঞ্জে যমুনার পানি ১৬ সেন্টিমিটার বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে

 সিরাজগঞ্জে যমুনার পানি ১৬ সেন্টিমিটার   বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত  হচ্ছে


মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃপাহাড়ি ঢল ও টানা বর্ষণের কারণে যমুনা নদীর পানি বেড়ে বর্তমানে সিরাজগঞ্জ ও কাজিপুরে বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। 

গত ২৪ ঘন্টায় ১১ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে কাজিপুর পয়েন্টে বিপদসীমার ১৬ সেন্টিমিটার ও সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা হার্ট পয়েন্ট এলাকায় বিপদসীমার ৬ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। 

আজ শুক্রবার (২ অক্টোবর) সকালে সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগী প্রকৌশলী এ কে এম রফিকুল ইসলাম পানি বৃদ্ধির বিষয়টি নিশ্চত করেন।

যমুনার পানি দ্রুত বৃদ্ধি পাওয়ায় জেলার কাজিপুর, সদর, বেলকুচি, চৌহালী, শাহজাদপুর ও তাড়াশ উপজেলার নিম্ন এলাকা এবং বিস্তীর্ণ চরাঞ্চল তলিয়ে গেছে। সেই সাথে ডুবে গেছে ফসল, ঘর-বাড়ি ও গ্রামীন সড়ক। এতে চরম দুর্ভোগের মধ্যে রয়েছেন বন্যা কবলিত মানুষ। 

সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের সুত্রে জানা যায়, চলতি বছরের জুনের প্রথম থেকেই যমুনা নদীর পানি সিরাজগঞ্জ ও কাজিপুর পয়েন্টে বাড়তে শুরু করে। গত ২৮ জুন উভয় পয়েন্টেই বিপদসীমা অতিক্রম করে। এরপর ৪ জুলাই থেকে আবার কমতে শুরু করে এবং ৬ জুলাই বিপদসীমার নিচে নেমে যায় যমুনার পানি। ৯ জুলাইয়ের পর ফের বাড়তে থাকে এবং ১৩ জুলাই দ্বিতীয় দফায় বিপদসীমা অতিক্রম করে কাজিপুর ও সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে।

টানা ২৫ দিন দীর্ঘস্থায়ী বন্যা হওয়ার পর ৭ আগস্ট যমুনার পানি উভয় পয়েন্টেই বিপদসীমার নিচে নেমে যায়। এর মধ্যে কয়েক দফায় যমুনার পানি কমতে ও বাড়তে থাকলেও বিপদসীমা অতিক্রম করেনি। ১৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় কাজিপুর পয়েন্টে আবার বিপদসীমা অতিক্রম করেছে যমুনার পানি। এরপর থেকে যমুনার পানি দু’টি পয়েন্টেই হ্রাস-বৃদ্ধি হতে থাকে। ১ অক্টোবর কাজিপুর পয়েন্টে ও (২ অক্টোবর) আবার বিপদসীমা অতিক্রম করলো।

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার মেছড়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ জানান, পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় আমার ইউনিয়নের ৬টি ওয়ার্ডের মানুষের বাড়ি-ঘরে পানি ঢুকে পড়েছে। তাদের জন্য জরুরি খাদ্য সহায়তা চেয়ে তালিকা পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী একেএম রফিকুল ইসলাম বলেন, টানা বর্ষণের কারণে যমুনায় পানি বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় কাজিপুর পয়েন্টে ৫ সেন্টিমিটার ও সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে ৬ সেন্টিমিটার বেড়েছে। তবে পানি বৃদ্ধিতে আতঙ্কের কোনো কারণ নেই। বৃষ্টিপাতের কারণেই যমুনাসহ অভ্যন্তরীণ নদ-নদীগুলোর পানি বাড়ছে। আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে পানি স্থিতিশীল হতে পারে বলে তিনি জানান।

সিরাজগঞ্জ জেলা ত্রাণ ও পুর্ণবাসন কর্মকর্তা আব্দুর রহিম জানান, চলতি বন্যায় জেলার ৬টি উপজেলার বন্যা কবলিত মানুষদের মাঝে কাজিপুর-৪৫০, বেলকুচি-২৫০, তাড়াশ-২৫০, সদর-২৫০, শাহজাদপুর-৩০০ ও চৌহালী-১৭০০ শুকনো খাবার প্যাকেট দেওয়া হয়েছে। বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকারী বরাদ্দের ত্রাণ ও নগদ টাকা মজুদ রয়েছে। পরিস্থিতি অনুযায়ী ত্রাণ ও টাকা বিতরণ করা হবে। 




সিরাজগঞ্জে যমুনার পানি ১৬ সেন্টিমিটার   বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত  হচ্ছে মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃপাহাড়ি ঢল ও টানা বর্ষণের কারণে যমুনা নদীর পানি বেড়ে বর্তমানে সিরাজগঞ্জ ও কাজিপুরে বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। 

গত ২৪ ঘন্টায় ১১ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে কাজিপুর পয়েন্টে বিপদসীমার ১৬ সেন্টিমিটার ও সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা হার্ট পয়েন্ট এলাকায় বিপদসীমার ৬ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। 

আজ শুক্রবার (২ অক্টোবর) সকালে সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগী প্রকৌশলী এ কে এম রফিকুল ইসলাম পানি বৃদ্ধির বিষয়টি নিশ্চত করেন।

যমুনার পানি দ্রুত বৃদ্ধি পাওয়ায় জেলার কাজিপুর, সদর, বেলকুচি, চৌহালী, শাহজাদপুর ও তাড়াশ উপজেলার নিম্ন এলাকা এবং বিস্তীর্ণ চরাঞ্চল তলিয়ে গেছে। সেই সাথে ডুবে গেছে ফসল, ঘর-বাড়ি ও গ্রামীন সড়ক। এতে চরম দুর্ভোগের মধ্যে রয়েছেন বন্যা কবলিত মানুষ। 

সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের সুত্রে জানা যায়, চলতি বছরের জুনের প্রথম থেকেই যমুনা নদীর পানি সিরাজগঞ্জ ও কাজিপুর পয়েন্টে বাড়তে শুরু করে। গত ২৮ জুন উভয় পয়েন্টেই বিপদসীমা অতিক্রম করে। এরপর ৪ জুলাই থেকে আবার কমতে শুরু করে এবং ৬ জুলাই বিপদসীমার নিচে নেমে যায় যমুনার পানি। ৯ জুলাইয়ের পর ফের বাড়তে থাকে এবং ১৩ জুলাই দ্বিতীয় দফায় বিপদসীমা অতিক্রম করে কাজিপুর ও সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে।

টানা ২৫ দিন দীর্ঘস্থায়ী বন্যা হওয়ার পর ৭ আগস্ট যমুনার পানি উভয় পয়েন্টেই বিপদসীমার নিচে নেমে যায়। এর মধ্যে কয়েক দফায় যমুনার পানি কমতে ও বাড়তে থাকলেও বিপদসীমা অতিক্রম করেনি। ১৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় কাজিপুর পয়েন্টে আবার বিপদসীমা অতিক্রম করেছে যমুনার পানি। এরপর থেকে যমুনার পানি দু’টি পয়েন্টেই হ্রাস-বৃদ্ধি হতে থাকে। ১ অক্টোবর কাজিপুর পয়েন্টে ও (২ অক্টোবর) আবার বিপদসীমা অতিক্রম করলো।

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার মেছড়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ জানান, পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় আমার ইউনিয়নের ৬টি ওয়ার্ডের মানুষের বাড়ি-ঘরে পানি ঢুকে পড়েছে। তাদের জন্য জরুরি খাদ্য সহায়তা চেয়ে তালিকা পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী একেএম রফিকুল ইসলাম বলেন, টানা বর্ষণের কারণে যমুনায় পানি বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় কাজিপুর পয়েন্টে ৫ সেন্টিমিটার ও সিরাজগঞ্জ পয়েন্টে ৬ সেন্টিমিটার বেড়েছে। তবে পানি বৃদ্ধিতে আতঙ্কের কোনো কারণ নেই। বৃষ্টিপাতের কারণেই যমুনাসহ অভ্যন্তরীণ নদ-নদীগুলোর পানি বাড়ছে। আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে পানি স্থিতিশীল হতে পারে বলে তিনি জানান।

সিরাজগঞ্জ জেলা ত্রাণ ও পুর্ণবাসন কর্মকর্তা আব্দুর রহিম জানান, চলতি বন্যায় জেলার ৬টি উপজেলার বন্যা কবলিত মানুষদের মাঝে কাজিপুর-৪৫০, বেলকুচি-২৫০, তাড়াশ-২৫০, সদর-২৫০, শাহজাদপুর-৩০০ ও চৌহালী-১৭০০ শুকনো খাবার প্যাকেট দেওয়া হয়েছে। বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকারী বরাদ্দের ত্রাণ ও নগদ টাকা মজুদ রয়েছে। পরিস্থিতি অনুযায়ী ত্রাণ ও টাকা বিতরণ করা হবে।

আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী রহ.ও আল্লামা শাহ্ মোহাম্মদ তৈয়ব রহ.এর স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী রহ.ও আল্লামা শাহ্ মোহাম্মদ তৈয়ব রহ.এর স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল

ডা.এম.এ.মান্নান,টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:উপমহাদেশের বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ, ধর্মীয় পন্ডিত, হেফাজতে ইসলামের প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক আমীর আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী (রহ.) ও জামেয়া জিরির সাবেক মহাপরিচালক আল্লামা শাহ্ মোহাম্মদ তৈয়ব (রহ.) এর স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে কর্ণফুলীতে। 


গতকাল ০১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার  বিকেলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কর্ণফুলী উপজেলা শাখার আয়োজনে কর্ণফুলী উপজেলা দৌলতপুর নাছির কনভেনশন হলে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।


 আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক ও চট্টগ্রাম মহানগরের বিপ্লবী সভাপতি আলহাজ্ব জান্নাতুল ইসলাম। প্রধান আকর্ষণ ছিলেন, জামেয়া জিরির সম্মানিত পরিচালক জনাব মাওলানা খোবাইব সাহেব। প্রধান আলোচক ছিলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ প্রচার সম্পাদক মুফতী দেলাওয়ার হোসাইন সাকী। বিশেষ অতিথি ছিলেন, দৌলতপুর দারুল উলুম দেয়াং পাহাড় মাদরাসার পরিচালক মাওলানা আবুল হাশেম সাহেব। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কর্ণফুলী উপজেলা শাখার সভাপতি মাওলানা সাইফুদ্দীন দৌলতপুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মাওঃ হাবিব উল্লাহ্ এর পরিচালনায় সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন, ইসলামী ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন কর্ণফুলী উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ নোমান। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, জামেয়া হেমায়েতুল ইসলাম কৈয়গ্ৰাম মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা আতাউল্লাহ হোসাইনি, দৌলতপুর আশরাফুল উলুম মাদ্রাসার পরিচালক হাফেজ মাওলানা মাহবুবুর রহমান হানিফ, জামেয়া জিরির সম্মানিত মুহাদ্দিস আল্লামা শাহাদাত হোসেন আরমানী, বামুক চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সদর মাওলানা মোজাম্মেল হক, জামেয়া হেমায়েতুল ইসলাম কৈয়গ্ৰাম মাদ্রাসার মুহাদ্দিস মাওলানা জুবায়ের, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সদস্য সচিব হাফেজ মাওলানা রুহুল্লাহ্ সাহেব,ইশা ছাত্র আন্দোলন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সভাপতি শরিফুল ইসলাম আজিজিসহ বিভিন্ন মাদ্রাসার শিক্ষক ও ইসলামী আন্দোলন, ইশা ছাত্র আন্দোলন,যুব আন্দোলন‌ও শ্রমিক আন্দোলনের জেলা ও উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ। 


আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, শুধু দারুল উলুম হাটহাজারী নয়, দেশের কওমি শিক্ষা ব্যবস্থায় আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী (রহ.) উল্লেখযোগ্য অবদান রেখে গেছেন। ২০১৮ সালে জাতীয় সংসদে বিল পাশের মাধ্যমে কওমি মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিসের সনদে রাষ্ট্রীয় যে স্বীকৃতি আসে, তা তারই হাত ধরেই। ২০০৯ সালে তিনি দেশের সিনিয়র ইসলামি ব্যক্তিবর্গের সঙ্গে একটি যৌথ বিবৃতি প্রদান করেন, যেখানে ইসলামের নামে সন্ত্রাস ও জঙ্গি কার্যক্রমের নিন্দা জানানো হয়। ২০১০ সালে তিনি অরাজনৈতিক ইসলামি সংগঠন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেন। সেই থেকে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তিনি ব্যাপকভাবে সমাদৃত হন।

বক্তারা আরো বলেন, ওয়াজ নসিহত বক্তৃতার মাধ্যমে আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী (রহ.)  ও আল্লামা শাহ্ মোহাম্মদ তৈয়ব (রহ.)মানুষকে ইসলামি শিষ্টাচার ও আত্মশুদ্ধির শিক্ষা দিয়েছেন। লেখালেখিতেও তাদের বিশেষ অবদান রয়েছে। বাংলা ও উর্দু ভাষায় শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী (রহ.) রচিত গ্রন্থের সংখ্যা ২৫টি। আল্লামা শাহ মোহাম্মদ তৈয়ব (রহ.) রচিত বেশ কয়েকটি গ্ৰন্থ রয়েছে।


শেষে দেশ ও জাতির মঙ্গল এবং আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী (রহ) এর রুহের মাগফেরাত কামনায় দোয়া করা হয়।

মধুপুরে ৭ মাসের শিশু সন্তান রেখে গৃহ বধুর পলায়ন

 মধুপুরে ৭ মাসের শিশু সন্তান রেখে গৃহ বধুর পলায়ন

 



মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃটাঙ্গাইলের মধুপুরে ৭ মাসের শিশু পুত্র সন্তান রেখে পালিয়েছে এক গৃহ বধু। সম্প্রতি ঘটনাটি ঘটেছে মধুপুর উপজেলার পিরোজপুর গ্রামে। জানা যায় পিরোজপুর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে মো: আবু জাফরের মেয়ে জাহানারা বেগমের(২৫) গোপালপুর উপজেলার মিশ্রপট্রি গ্রামের সেকান্দর আলীর ছেলে মো: খলিলুর রহমানের সাথে বিগত ৫ বৎসর পূর্বে তাদের বিবাহ হয়। বিবাহিত জীবনে তাদের ঘরে জোনায়েত নামে ৭ মাস বয়সী একটি পত্র সন্তান রয়েছে। গৃহ বধু জাহানারা তার শিশু সন্তানকে নিয়ে তার পিতার বাড়ীতে বেড়াতে আসে। স্বামী খলিলুর রহমান জানান, আমার স্ত্রী পিরোজপুর তার বাপের বাড়ীতে বেড়াতে গেলে একই এলাকার মো: ইদ্রিছ আলীর ছেলে মো: সোলাইমান ( সোলাই) তাকে নানা ভাবে ফুসলিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দিতে থাকে। এক পর্যায়ে সুপরিকল্পিত ভাবে আমার স্ত্রী জাহানারাকে নিয়ে রাতের আধারে আমার শিশু সন্তানকে ঘুমন্ত অবস্হায় রেখে সোলাইমানের সাথে পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়ার সময় আমার স্ত্রীকে দেওয়া চার ভরি ওজনের স্বর্ণ অলংকার নিয়ে যায়। যার আনুমানিক মূল্য দুই লক্ষ টাকা। 

এ দিকে মেয়ের পিতা আবুজাফর জানান, আমার মেয়ে  রাতের আধারে পালিয়ে যাওয়ার সময় আমার আনারস বিক্রির ঘরে রাখা তিন লক্ষ টাকা সু-কৌশলে নিয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে এলাকার মাতাব্বরদেরকে ঘটনাটি জানালে সোলাইমান এলাকায় প্রভাবশালী থাকার দরুন আমার পক্ষে কেহ কোন কথা বলতে নারাজ।

এব্যাপারে আমার জামাতা খলিলুর রহমান টাঙ্গাইল কোর্টে একটি মামলা করেছেন। খলিলুর রহমান জানান আমি এলাকায় কোন বিচার না পেয়ে টাঙ্গাইল আদালতে একটি মামলা দায়ের করেছি।  মোকদ্দমা নং সি,আর-১৯৭/২০২০।

আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের দারোরা বাজার এজেন্ট ব্যাংকের টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় যুবক গ্রেফতার!

 আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংকের দারোরা বাজার এজেন্ট ব্যাংকের  টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় যুবক গ্রেফতার!



শাহ আলম জাহাঙ্গীর,ব্যুরো চিফ, কুমিল্লাঃকুমিল্লার মুরাদনগরে আল আরাফাহ ইসলামি ব্যাংকের  দারোরা বাজার এজেন্ট ব্যাংকের ম্যনেজারের কাছ থেকে ৭লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় এক যুবককে গ্রেফতার করেছে মুরাদনগর থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃত যুবক উপজেলার লক্ষ্মীপুর গ্রামের আবুল হাশেমের ছেলে সাগর হোসেন। জানা যায়, মামলার বাদী আল-আরাফাহ ইসলামি ব্যাংক এজেন্ট ব্যাংকিং দারোরা বাজার শাখার ম্যানেজার ইব্রাহীম খলিল গত ২২ সেপ্টেম্বর কোম্পানীগঞ্জ শাখা হতে ৭লাখ টাকা উত্তোলন করে উপজেলার দারোরা শাখায় যাওয়ার পথে দারোরা-রায়তলা রোডের পদুয়া এলাকায় ছিনতাইয়ের শিকার হন। এসময় ছিনতাইকারীরা রাম দা, চাপাতি সহ ধারালো অস্ত্র নিয়া ইব্রাহিম খলিলের উপর হামলা করে। এবং তার সাথে থাকা ৭লাখ টাকা ও দুটি চেক বই ছিনিয়ে নিয়ে যায়। ঘটনার দিন ইব্রহিম খলিল বাদী হয়ে মুরাদনগর থানায় অজ্ঞাতদের আসামী করে মামলা দায়ের করেন। এরপরই ছিনতাইকারীদের ধরতে মাঠে নামেন পুলিশ। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ছিনতাইকারী সাগরহোসেনকে নারায়ণগঞ্জ জেলার নারায়ণগঞ্জ সদর থানাধীন উকিলপাড়া থেকে গ্রেফতার করে 

মুরাদনগর থানা পুলিশ। গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিঙ্গাসাবাদে সে ছিনতাইয়ের ঘটনা স্বীকার করে। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক তার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত সিএনজি ও ১০হাজার টাকা উদ্ধার করে পুলিশ। মুরাদনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাহিদ আহাম্মেদ বলেন, ৭লাখ টাকা 

ছিনতাইয়ের ঘটনায় তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় বুধবার রাতে আমরা নারায়নগঞ্জ সদর থানাধীন উকিল পাড়া থেকে এক আসামীকে গ্রেফতার করি।গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে আসামীকে কারাগারে প্রেরন করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতার করতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।

পটিয়ায় পৌরসভা ইসলামী ছাত্রসেনা প্রথম সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

 পটিয়ায়  পৌরসভা ইসলামী ছাত্রসেনা প্রথম  সাধারণ   সভা অনুষ্ঠিত


সেলিম চৌধুরী,স্টাফ রিপোর্টারঃ-  বাংলাদেশ ইসলামী ছাএসেনা পটিয়া পৌরসভা শাখার সাধারণ সভা ২ অক্টোবর সকালে দলীয় কার্য়লয়ে অনুষ্ঠিত।হয়।এতে            সভাপতিত্ব করেন পটিয়া পৌরসভা ইসলামী ছাএসেনা সভাপতি  ছাত্রনেতা মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম শওকত।


সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা পটিয়া পৌরসভার সাধারণ সম্পাদক ছাত্রনেতা মোঃ হেলাল উদ্দীন। বক্তব্য রাখেন সহ সভাপতি মেরাজ রেজা, সহ সভাপতি সাইফু সাংগঠনিক সম্পাদক এস,এম,ফরিদ,অর্থ সম্পাদক মীর সোলতান জিসানসহ আরো অনেকে   বক্তব্য রাখেন। সভায় সাংগঠনিক কার্যক্রম বৃদ্ধি করার জন্য ছাএসপনার সকল নেতা কর্মীদের প্রতি আহবান জানান।          


মোংলা পোর্ট পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আঃ রহমানকে দেখতে চায় দলীয় সমর্থকরা

মোংলা পোর্ট পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসেবে বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আঃ রহমানকে দেখতে চায় দলীয় সমর্থকরা


মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃ সীমানা সংক্রান্ত মামলা জটিলতায় নিধার্রিত সময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়নি মোংলা পোর্ট পৌরসভার। নিবার্চিত মেয়র-কাউন্সিলদের নিধার্রিত ৫ বছরের পরও পেরিয়ে গেছে আরো ৫টি বছর। আর এত দীর্ঘক্ষণ দায়িত্বে থাকার কারণেই পৌরসভা জুড়ে ব্যাপক দৃশ্যমান উন্নয়ন ঘটিয়েছেন বর্তমান মেয়র আলহাজ্ব মো: জুলফিকার আলী। সম্প্রতি আদালতের সেই সীমানা সংক্রান্ত মামলা নিস্পত্তি হওয়ায় পৌরসভার নির্বাচন আসন্ন এমন খবর সর্বত্র আলোচনার ঝড় বইছে। দলীয় মেয়র আর কাউন্সিলর প্রার্থী নিয়ে স্থানীয়রা করছেন চুলচেরা বিশ্লেষণ। বিএনপি নেতা বর্তমান পৌর মেয়র মো: জুলফিকার আলীকে পরাজিত করতে একজন ক্লিন ইমেজের যোগ্য আর প্রবীণ নেতাকে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী করতে দাবী তুলছেন আওয়ামী লীগের মাঠ পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা। 


মোংলা পোর্ট পৌরসভা সৃষ্টির পর থেকে অধিকাংশ সময়ই পৌরসভার চেয়ারম্যান আর মেয়র পদে নির্বাচিত হয়ে আসছেন বিএনপির সমর্থিত প্রার্থীরা । তবে দলীয় মতাদর্শের উর্ধ্বে উঠে মোংলার উন্নয়নে নির্বাচিত মেয়র জুলফিকার আলীকে সকল ধরণের সহযোগীতা করেছেন খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আঃ খালেক ও স্থানীয় সাংসদ এবং পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রনালয়ের উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুনজর থাকায় ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ড চলছে মোংলাসহ দক্ষিণাঞ্চলে। সরকারের ওইসব উন্নয়নমুলক কর্মকান্ড দলীয় (আওয়ামী) মেয়রের মাধ্যমে হলে আরো বেশি ভালো হতো বলে মনে করছেন আওয়ামী লীগের তৃণমুলের নেতা-কর্মীরা।


পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ দুলাল হাওলাদার বলেন, বর্তমান পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বাগেরহাট জেলা পরিষদের সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আঃ রহমান মেয়র প্রার্থী হিসেবে একজন যোগ্য ব্যক্তি। বর্তমান পৌর মেয়র জুলফিকার আলীকে নির্বাচনে পরাজিত করতে হলে অবশ্যই মুক্তিযোদ্ধা শেখ আঃ রহমানের বিকল্প নেই।


পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক মো: কামরুল ইসলাম বলেন, পৌর নির্বাচনের আভাসে অনেক ব্যক্তি মাঠ গরম করছেন। কিন্তু প্রবীণ নেতা  শেখ আঃ রহমান দলীয় মনোনয়ন পেলে সকল নেতা-কর্মীকে একত্রিত করে তিনিই মোংলা পোর্ট পৌরসভা মেয়র পদটি আমাদের উপহার দিতে পারবেন।


পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান ওরপে মোশারফ বলেন, ইতিমধ্যে অনেক নেতার নাম শোনা যাচ্ছে মেয়র পদে নির্বাচন করার জন্য। তাদের মধ্যে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ইদ্রিস আলী ইজারাদার, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান মরহুম শেখ আঃ হাই সাহেবের  সন্তান পৌর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক শেখ কামরুজামান জসিম, বর্তমান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন। তবে পৌরসভার মাঠ পর্যায়ের নেতা-কমর্ীরা বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আঃ রহমানকে দলীয় প্রাথর্ী হিসেবে দেখতে চায়। 


পৌর শহরের শেখ আঃ সড়কে ব্যবসায়ী সত্তর বছর বয়সী বৃদ্ধ না প্রকাশ না করা শর্তে বলেন, দীর্ঘদিন বসবাস করছি মোংলায়। বাবা মোংলায় থাকতেন চাকুরী করতেন জাহাজে। এজন্য নিজ জন্মস্থান চট্রগ্রাম থেকে এখানে এসে আমরা বসবাস শুরু করি। আমিও এক সময়ে জাহাজে চাকুরী করতাম। এখন আর শরীরে খাটেনা, তাই ছোট ব্যবসা নিয়ে পড়ি থাকি। তবে আমার দেখা মতে বর্তমান মোংলায় অনেক শান্তি আছে। অতীতে আঞ্চলিকতা নিয়ে মারধর চলতো। আমরা অনেক নির্যাতিত হয়েছি। এখন আর হতে চাইনা। তাই সবার কাছে অনুরোধ আঞ্চলিকতার দোহাই দিয়ে কেউ নির্বাচনে সুযোগ নিতে চাইলে তাকে সবাই পরিহার করুন। তবে এই বৃদ্ধ প্রবীণ নেতা হিসেবে বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আঃ রহমান আর উদীয়মান যুবক ক্লিন ইমেজের মানুষ হিসেবে মরহুম শেখ আঃ হাইয়ের সন্তান পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ কামরুজামান জসিমকে মেয়র পদে যোগ্য মনে করেন। 


তবে পৌর নিবার্চনের বিষয়ে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শেখ আঃ রহমান বলেন, এখানে আমার ব্যক্তিগত কোন চাওয়া পাওয়া নাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা আর দক্ষিণাঞ্চলের উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করেন খুলনা সিটি মেয়র আমাদের প্রিয় নেতা আলহাজ্ব তালুকদার আঃ খালেক ও মোংলা-রামপালের সংসদ সদস্য উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার। তাই নির্বাচন করা বা না করা সবকিছু নির্ভর করবে তাদের মতামতের উপর। আর তাদের নির্দেশ পেলেই কেবল চিন্তা ভাবনা করবো নির্বাচন নিয়ে। তবে তিনি দলীয় নেতা-কমর্ীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন তাকে ভালবাসার জন্য। একই সাথে তিনি প্রিয় নেতা তালুকদার আব্দুল খালেকের উপর আস্থা রাখার জন্য সবাইকে অনুরোধ করেন। 

শৈলকুপায় কবি গোলাম মোস্তফা ব্লাড ব্যাংকের পক্ষ হতে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং নির্ণয়

শৈলকুপায় কবি গোলাম মোস্তফা ব্লাড ব্যাংকের পক্ষ হতে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং নির্ণয়

 


সম্রাট হোসেন, শৈলকুপা (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উপজেলায়

"ন্যাশনাল ক্লাব কাজিপাড়া" বাজার এর আয়োজনে  "কবি গোলাম মোস্তফা ব্লাড ব্যাংকের " পক্ষ হতে ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং করা হয় ক্যাম্পেইনে উপস্থিত ছিলেন ব্লাড ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মোঃ পলাশ হোসেন ও হোসাইন আহাম্মেদ আরো উপস্থিত ছিলো ব্লাড ব্যাংকের সদস্য রিয়াদ, মাহাবুব, রিতু,সুমি, সব আরো অনেক এবং ন্যাশনাল ক্লাবের সভাপতি পিকুল মাধরি ও সাধারণ সম্পাদক ইয়ারুল উপস্থিত ছিলেন।  ব্লাড ব্যাংকের পক্ষ হতে আজ ফ্রি ২০৯ জন কে ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পেইন করা হয়।

করোনামুক্ত হয়ে মোংলায় ফিরে এলেন তারুণ্যের অহংকার, মানবতার সেবক শেখ জসিম

করোনামুক্ত হয়ে মোংলায় ফিরে এলেন তারুণ্যের অহংকার, মানবতার সেবক শেখ জসিম




মোঃএরশাদ হোসেন রনি,মোংলাঃদীর্ঘ দুই  সপ্তাহের বেশি সময় ধরে খুলনায় চিকিৎসা শেষে মোংলায় পৌঁছেছেন মানবতার মহান সেবক, তারুণ্যের অহংকার, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব শেখ কামরুজ্জামান জসিম।


শুক্রবার (২ অক্টোবর)  বিকাল সাড়ে ৪ টায় তিনি মোংলায় পৌঁছলে দলীয় নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সংগঠনের নেতৃবৃন্দ তাকে স্বাগত জানান। পরে তাকে ফুল দিয়ে বরণ করেন আওয়ামীলীগের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতারা।



শেখ কামরুজ্জামান জসিম দুই সপ্তাহ আগে তীব্র জ্বর-সর্দি-কাঁশিতে আক্রান্ত হয়ে খুলনার ডক্টরস পয়েন্টে ভর্তি হন।

গত ২৪ সেপ্টেম্বর সিটি স্ক্যান’র মাধ্যমে তার করোনা পজেটিভ আসে। তারপর থেকে তিনি নিবিড় পর্যবেক্ষণে ছিলেন।


সারাদেশে করোনা সংক্রমন যখন দ্রুত চড়িয়ে পড়ে ঠিক সেই মুহূর্তে পরিবেশ, বন ও উলবায়ু উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহারের নির্দেশক্রমে শেখ কামরুজ্জামান জসিম মোংলা পৌর এলাকার অসহায় কর্মহীন পরিবারের কাছে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রী বাড়ি বাড়ি গিয়ে পৌঁছে দেন।


করোনা পরিস্থিতির একজন সম্মুখ সারির যোদ্ধা হিসেবে মোংলা সরকারি হাসপাতালের ডাক্তার, নার্স এবং  স্বাস্থ্য বিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তাদের মাঝে পিপিই, ফেসশিল্ড, হ্যান্ড স্যানিটাইজারসহ বিভিন্ন স্বাস্থ্য উপকরন বিতরন করেন তিনি।



মোংলায় শুরু থেকেই যারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তাদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে পৌঁছে দিয়েছেন উন্নত মানের ফল সামগ্রী। মোংলার সাংবাদিকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় হোমিও ঔষুধ ও পিপিই বিতরণ করেছেন তিনি। পৌর শহরের কিছু মধ্যবিত্ত পরিবার আছে তারা চাইলেও কারো কাছে হাত পাততে পারেনা  গোপনে তাদের নাম ঠিকানা সংগ্রহ করে রাতের আঁধারে তাদের বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়েছেন। করোনাকালীন সময়ে বিভিন্ন মসজিদ, মাদ্রাসা ও এতিমখানার ইমাম, মুয়াজিনদের খোঁজ খবর রাখার পাশাপাশি তাদের করোনা প্রতিষেধক ঔষুধ বিতরন করা হয়েছে। মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জন্ম নেওয়া এক পিতৃহীন নবজাতকের দায়িত্ব নিয়ে মানবতার এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন তিনি। পৌরসভার সবগুলো ওয়ার্ডের প্রতিটি এলাকায় জনগনকে করোনা বিষয়ে  সচেতন করার পাশাপাশি মাস্ক বিতরণ ও মাদক বিরোধী লিফলেফ বিতরণ কার্যক্রমেও তার অনেক অবদান রয়েছে। টানা বর্ষনে যখন পৌর শহরের অধিকাংশ এলাকা ও রাস্তাঘাট ডুবে গিয়েছিল তখন তিনি স্থানীয়দের সাথে পানি নিষ্কাশনসহ রাস্তাঘাট চলাচলের উপযোগী করেন।



করোনাকালে  মানুষের জন্য কাজ করতে গিয়ে তিনি নিজেই করোনা আক্রান্ত হয়ে পড়েন। সবার ভালবাসার সেই মানুষটিই করোনার সাথে যুদ্ধ করে অবশেষে ফিরে এলেন নিজ জন্মস্থান মোংলায়। হাজারো মানুষের ভালোবাসায় অভিষিক্ত হলেন তিনি। জানতে চাইলে শেখ কামরুজ্জামান জসিম বলেন, জীবনের এই সময়টাতে এসে বুঝেছি, একা থাকার নামই জীবন নয়, সবাইকে নিয়ে বেঁচে থাকার নামই জীবন।

রেজিষ্ট্রেশন সার্ভিস এসোসিয়েশন এর সভাপতি প্রার্থী মোঃজিয়াউল হক

 রেজিষ্ট্রেশন সার্ভিস এসোসিয়েশন এর সভাপতি প্রার্থী মোঃজিয়াউল হক


আজহারুল ইসলাম মোহনগঞ্জ প্রতিনিধি নেত্রকোনাঃবাংলাদেশ রেজিষ্ট্রেশন সার্ভিস এসোসিয়েশন এর সভাপতি নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জের কৃতি সন্তান নারায়ণগঞ্জ জেলা রেজিষ্ট্রার মোঃজিয়াউল হক আবারও ৯ই অক্টোবর রেজিষ্ট্রার  সার্ভিস কার্যনির্বাহী পরিষদ (২০২০-২০২১) এর সভাপতি পদে প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেছেন। 

এ নির্বাচনে তিনি (উন্নয়নের শপথ নিন) এই শ্লোগানকে সামনে রেখে জিয়াউল-কাউসার-জাহিদ-ইমরুল-বারী পরিষদ থেকে  ভোটে লড়েছেন। 

জিয়াউল হক সংগঠনের উন্নয়ন চিন্তাবীদ, তিনি সংগঠনের সমস্ত কার্যক্রম সুন্দর সুষ্টভাবে এগিয়ে যাওয়ার  লক্ষে কাজ করে যাচ্ছেন, পরোপকারী মানবিক গুনাবলী এবং সামাজিক ব্যক্তিত্ব সম্পর্ণ মানুষ একজন। তিনি সকলের নিকট দোয়া চেয়েছেন,সাথে সকলের সুস্বাস্থ কামনা করেছেন। 

জিয়াউল হক এর ছোট ভাই মোহনগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক মাসুম আহম্মদ সভাপতি পদপ্রার্থীর জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।

হবিগঞ্জে সদর হাসপাতালে ছদ্মবেশে ডিসির অভিযান দুই দালাল আটক

 হবিগঞ্জে সদর হাসপাতালে ছদ্মবেশে ডিসির অভিযান দুই দালাল আটক


.

লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি 


হবিগঞ্জের সদর আধুনিক হাসপাতালে ভোগান্তির অপর নাম দালাল চক্র দালালদের খপ্পরে পড়ছেন না এমন কোন রোগী ও তার স্বজন হয়তো খুঁজে পাওয়া যাবে না। দিন রাত ২৪ ঘন্টাই দালালদের উৎপাতে মুখরিত সদর হাসপাতাল এলাকা। যে কোন রোগী হাসপাতাল গেইটের সামনে গেলেই স্লিপ ধরতে দালালদের মধ্যে শুরু হয় টানা হেঁচড়ার প্রতিযোগীতা। আর এ প্রতিযোগীতার ফাঁদে পড়ে নিশ্বঃ হচ্ছেন গ্রামগঞ্চ থেকে আসা সাধারণ রোগীরা। 


মাঝে মধ্যে পুলিশ অভিযান চালিয়ে দু’একজনকে আটক করলেও মূল হোতারা থেকে যায় ধরা ছোয়ার বাইরে। পুলিশের এমন ভূমিকায় হতাশা প্রকাশ করেছেন স্থানীয় লোকজন। যদিও হাসপাতাল পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে অর্ধশতাধিক দালালের। এর মধ্যে এ পর্যন্ত আটক হয়েছে মাত্র হাতেগোণা কয়েকজন, বিষয়টি নজরে আসলে শুক্রবার (২-অক্টোবর) দুপুরে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে।


দালাল ধরতে সাধারণ মানুষের বেশে সেখানে অবস্থান নেন জেলা প্রশাসক মোঃ কামরুল হাসান এসময় তিনি চারপাশ পর্যবেক্ষণের পাশাপাশি হাতে-নাতে আটক করেন দুই দালালকে। তারা হল তালিকাভূক্ত দালাল সেলিম মিয়া ও বিলাল মিয়া। পরে তাদেরকে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে টাউট আইন ১৮৭৯ আওতায় ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাহ জহুরুল হোসেন জানান বেশ কিছুদিন যাবত সদর হাসপাতালে।


দালালদের দৌরাত্ম বৃদ্ধি পেয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় সেখানে জেলা প্রশাসক কামরুল হাসানের উপস্থিতিতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় সদর হাসপাতালে তালিকাভূক্ত দালাল সেলিম ও বিলালকে আটক ৩ মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ড দিয়ে কারাগারে প্রেরণ করা হয় তিনি আরো জানান দালালদের ধরতে জেলা প্রশাসনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

হবিগঞ্জে ভাতিজার ছুরিকাঘাতে চাচার অবস্থা সংকটাপন্ন

 হবিগঞ্জে ভাতিজার ছুরিকাঘাতে চাচার অবস্থা সংকটাপন্ন


.


লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি 


হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে নতুনব্রীজ এলাকায় পূর্ব বিরোধের জেরে আব্দুল আজিজ (২৫) নামে এক যুবককে ছুরিকাঘাতের ঘটনা ঘটেছে (১অক্টোবর) রাতে এ ঘটনা ঘটে, গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয় সে চুনারুঘাট উপজেলার উবাহাটা গ্রামের মৃত হাজী আব্দুর রহিমের ছেলে আহত সূত্র জানায় চুনারুঘাট উপজেলার উবাহাটা গ্রামের মধ্য উবাহাটা জামে মসজিদের জমি নিয়ে আহত আব্দুল আজিজের সাথে একই এলাকার তার ভাতিজা আব্দুল গনির দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল।


এর জের ধরে বৃহস্পতিবার রাতে শায়েস্তাগঞ্জ নতুন ব্রীজ এলাকা থেকে বাড়ি যাওয়ার পথে আব্দুল গনি তার উপর ধারালো ছুরি নিয়ে হামলা করে। ওই সময় আব্দুল গনি তাকে ছুরিকাঘাত করলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে বিষয়টি দেখতে পেয়ে স্থানীয় জনতা ঘাতক আব্দুল গনিকে ধাওয়া করলে সে পালিয়ে যায় পরে স্থানীয়রা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করে।

হবিগঞ্জে অনুমোদনবিহীন মাংস বিক্রি কসাইকে জরিমানা

 হবিগঞ্জে অনুমোদনবিহীন মাংস বিক্রি কসাইকে জরিমানা




লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি 


হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে অনুমোদন ছাড়া মাংস বিক্রি করায় এক কসাইকে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মতিউর রহমান খাঁনের ভ্রাম্যমাণ আদালত জানা যায়, আজমিরীগঞ্জ মাছ বাজারের অদূরে ও চরবাজারের মুন সিনেমা হল রোডে দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকার কতিপয় কসাই গরু খাসি পাঠা ইত্যাদি জবাই করে মাংস বিক্রি করে আসছিল নিয়মানুযায়ী জবাই করে মাংস বিক্রি করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কর্তৃক নিবন্ধন করতে হয়।


এছাড়া উপজেলা পশু সম্পদ কর্মকর্তা মাংস করার পূর্বে ডাক্তারি পরীক্ষা করে জবাই করার অনুমোদন আদায় করতে হয়। এমন নিয়ম ব্যতিরেকে তারা মনগড়াভাবে জবাই করে এলাকার লোকজনের নিকট মাংস বিক্রি করে আসছে। গোপনসূত্রে খবর পেয়ে শুক্রবার (২-অক্টোবর) সকালে অভিযানে নামেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মতিউর রহমান খাঁন। এসময় অনুমোদন ছাড়া মাংসের ব্যবসা পরিচালনা করার দায়ে পৌর এলাকার 


শরীফনগর (নতুন হাটি) গ্রামের বাসিন্দা মো. জিতু মিয়ার পুত্র মোহন মিয়া (৩৪) কে পশু জবাই ও মাংসের মান নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১১ অনুসারে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনায় সহযোগিতা করেন- থানার এ.এস.আই রেজার নেতৃত্বে একদল পুলিশ এসময় লাইসেন্স ছাড়া ব্যবসা পরিচালনা না করতে ও পশু সম্পদ অফিসারের অনুমোদন ব্যতিত পশু জবাই না করতে ব্যবসায়ীদের নির্দেশনা প্রদানের পাশাপাশি।


মাছ বাজারে মৎস্য ব্যবসায়ীদের আসন্ন ইলিশ প্রজনন মৌসুমে সরকার ঘোষিত নিষিদ্ধ সময়ে মা ইলিশ ধরা, পরিবহন ও বিক্রি না করতে প্রচারণা চালানো হয় এছাড়া বাজারে ব্যবসায়ীদের মাস্ক পরিধান করা ও মাস্ক ব্যতিত কাউকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ করতে না দেয়ার নির্দেশ দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

হবিগঞ্জে সড়ক দখল করে অটোরিক্সা স্ট্যান্ড

 হবিগঞ্জে সড়ক দখল করে অটোরিক্সা স্ট্যান্ড




লিটন পাঠান, হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:হবিগঞ্জের লাখাইয়ে সড়ক দখল করে অটোরিক্সা স্ট্যান্ড ও যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রতিদিন যানজট লেগে থাকে। প্রায়ই ঘটে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। তীব্র যানজট থেকে উত্তোরণে একটি আন্ডারপাস নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী সরেজমিনে দেখা গেছে হবিগঞ্জ-লাখাই সড়কের বুল্লা সড়ক বাজারের খালের উপরের ব্রীজটি ভেঙ্গে নতুন করে নির্মাণ করা হচ্ছে। সাময়িকভাবে যান চলাচলের জন্য নীচ দিয়ে একটি বিকল্প সড়ক নির্মাণ করে দিলেও যানবাহনের চাপ কাটিয়ে উঠা সম্ভব হচ্ছে না।


অন্যদিকে ব্রীজের গোড়ার দুইপাশ দখল করে অপরিকল্পতিভাবে স্ট্যান্ড হিসেবে ব্যবহার করে আসছেন অটোরিক্সা শ্রমিকরা। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত অটোরিক্সাগুলো আটকে থাকায় এখানে সারাক্ষণ যানজট লেগেই থাকে ছোট-বড় দুর্ঘটনাও ঘটছে নিয়মিত স্থানীয়রা জানিয়েছেন বুল্লা বাজার থেকে সিংহগ্রামের দিকে যাওয়া রাস্তায় প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষের চলাচল লাখাইয়ের পাশাপাশি শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার ব্রাহ্মণডুরা ইউনিয়নের বিভিন্ন।


গ্রামের লোকজনও এ সড়ক ব্যবহার করেন এছাড়া প্রায় দেড়শ কোটি টাকা ব্যয়ে লাখাই সড়ক সংস্কার এবং বলভদ্র সেতু নির্মাণ হওয়ার পর ঢাকার বিকল্প পথ হিসেবে সিলেটের বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষ লাখাই সড়ক ব্যবহার করে তাই সড়কে যানবাহনের চাপ থাকে এলাকা বাসী জানান, যানবাহনের চাপ সড়ক দখল করে অপরিকল্পিতভাবে গাড়ির স্ট্যান্ড গড়ে তোলার কারণে যানজট চরম আকার ধারণ করেছে।


প্রায় প্রতিদিনই কয়েকশ গাড়ির লাইন লেগে থাকে এ অবস্থায় রোগীসহ জরুরী কাজে যাতায়াতগামী লোকজন ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। তারা আরও জানান সড়ক বাজারের উপর ব্রীজটি নির্মাণ সমাপ্ত হলে যানজন আরও বাড়বে এ সমস্যা থেকে উত্তোরণে একটি আন্ডার পাস নির্মাণ করা এখন স্থানীয়দের প্রাণের দাবি।

তিন বান্ধবীর উদ্যোগে SKS Divas

তিন বান্ধবীর উদ্যোগে SKS Divas

করোনা মহামারীর সময় সবকিছু বন্ধ। কাজ, পড়ালেখা ছাড়া জীবনের এক অস্থির অবস্থা। তখন একমাত্র স্বস্থির নিশ্বাস ফেলার সুযোগ ছিলো না তিন বান্ধুবীর। একসাথে হওয়ার ফলে কাজের ঝোঁক বেড়ে গিয়েছিল সবার। পাশাপাশি বাসা কাছাকাছি হওয়ার কারনে কিছু করার সুযোগটা মাঝে মাঝে পাওয়া যেতো। কিন্তু তেমনভাবে করা হয়ে উঠেনি। তারা ছিলেন স্কুল জীবনের তিন বান্ধুবী সাফা, তার বান্ধুবি কাকলী ও শামা। স্কুলিং সময় থেকেই হঠাৎ কোনো রেস্টুরেন্টে খেতে গেলে নিজেদের মধ্যে কথার ফাঁকে কথা উঠতো তিনজন মিলে একদিন এরকম একটা রেস্টুরেন্ট দিবে কিংনা কোনো জায়গায় শপিং করতে গেলে ভাবতো তাদেরও এমন একটা শপিং মল থাকবে নিজেদের থাকবে শো রুম। অপেক্ষাটা ছিলো সঠিক সময়ের। তিনজনই স্কুল, কলেজ শেষ করে ইউনিভার্সিটিতে উঠলেন। এই অবসর সময়ে তারা তাদের স্বপ্ন একধাপ একধাপ করে বাস্তবতায় নিয়ে যেতে শুরু করলেন। দীর্ঘ একমাসেরও বেশি সময় ধরে তারা পরিকল্পনা  করতে থাকলেন। তারা বিশ্বাস করতেন যেকোনো কাজ সফল করার প্রথম মূলমন্ত্র হলো একটি সঠিক পরিকল্পনা। ঘরে বসে পরিকল্পনার পাশাপাশি বাস্তব পরিস্থিতি বুঝতে ঢাকার ভেতর সব পাইকারি মার্কেটে ঘুরে ঘুরে সব বোঝার চেষ্টা করলেন তারা। ২৪ই আগস্ট, ২০২০ এ তারা নিজেরাই তিন বান্ধুবীর স্বপ্নের পেইজ খুলে ফেললেন। নাম দিয়েছেন SKS Divas. নামটা করা হয়েছে তিন বান্ধুবীর নামের প্রথম অক্ষর নিয়ে। দেশের বিভিন্ন পাইকারি বাজার থেকে দেখে শুনে সব থেকে ভালো মানের ও সাধ্যের মধ্যে দামের ড্রেস নিয়ে আসা হয়। সেল করার জন্য পোস্ট দেয়া হয় তাদের পেইজে। তাদের পেইজের বয়স একমাস হতে এখনও কিছুদিন বাকী। কিন্তু এই কয়দিনে এতো ড্রেসের অর্ডার পাওয়া, কাস্টমারদের বিশ্বাস অর্জন করার ব্যাপারটা ছিলো অকল্পনীয়। তারা কখনো ভাবেনি এতো কম সময়ে এতো ভালো রেস্পন্স পাবেন। ড্রেসগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছ সিল্ক কটনের উপর স্কিন প্রিন্টের কাজ করা। সেই সাথে রয়েছে ডিজিটাল প্রিন্টের উড়না। গলায় হালকা কাজ। এক পিস, টু পিস ও থ্রি পিস সবই কালেকশনে রয়েছে তাদের। জয়পুরী ড্রেস, জয়পুরী মামা কটন থ্রি পিস। ওড়নার নিচে সুন্দর টারসেল করা। ১০০% রং, কষ গ্যারান্টিসহ। জামা, ওড়না, পায়জামাসহ গরমে মার্জিত সব বয়সের আপুরা, আন্টিরা পড়তে পারেন এমন সব কালেকশন। সুন্দর স্লাব কটনের কাপড়ের উপর গ্লাস ওয়ার্ক করা ১ পিছ। পাকিস্তানী ডিজিটাল প্রিন্টের ড্রেস। ২ পিস কুর্তি, ফুল স্টিচ জামা। ডিজিটাল প্রিন্টের সাথে অরজিনাল শিফনের ওড়না একদম ফ্রি সাইজ। এমন সুন্দর ও মার্জিত ড্রেসসহ একদম নতুন নতুন কালেকশন পাওয়া যায় স্বল্পমূল্যে একদম বাজেটের মধ্যে। ডেলিভারি ও দেয়া হচ্ছে সময়মতো। ঢাকা ও ঢাকার বাইরে সর্বত্র ডেলিভারি দেওয়া হচ্ছে। ডেলিভারি দেয়া হয় রেডেক্স কুরিয়ারের মাধ্যমে। তাই ১ দিনের মধ্যেই কাস্টমার প্রোডাক্ট হাতে পায়। আর টাকাও ওদের মাধ্যমেই আদান-প্রদান হয়। যার ফলে ঠকার সম্ভাবনা খুব কম থাকে। ঢাকার ভেতরে ডেলিভারি চার্জ ৬০ টাকা, ঢাকার আশেপাশে ১০০ টাকা ও ঢাকার বাইরে ১৫০ টাকা। কিছুদিনের মধ্যে দেশের বাইরেও প্রোডাক্ট পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে তারা। সেটি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। পরিবার, বন্ধুমহল, শিক্ষক, সিনিয়র-জুনিয়র সবাই তাদেরকে সাপোর্ট করছে সবসময়। এভাবে সকলের ভালোবাসা ও সহযোগীতা পেলে একদিন তাদের সকলের সফল উদ্যোক্তা হওয়ার রাস্তা আর সহজ হয়ে যাবে বলে আশা রাখছেন তারা।

পেজ লিংকঃ https://www.facebook.com/sksdivas/

মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় 


কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিমের মায়ের মৃত্যুতে এমপি বিএইচ হারুনের শোক প্রকাশ

 কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিমের মায়ের মৃত্যুতে এমপি বিএইচ হারুনের শোক প্রকাশ





এইচ এম জহিরুল ইসলাম মারুফ

ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধি।


বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জননেতা কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিমের রত্নগর্ভা মা নুর জাহান বেগমের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন ঝালকাঠি -১ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য বজলুল হক হারুন এমপি।


এমপি বিএইচ হারুন মরহুমার আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।


ঝালকাঠি-১ আসনের মাননীয় এমপি মহোদয়ের অ্যাম্বাসেডর ও রাজাপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি মোঃ মাহমুদুল হাসান মাহমুদ প্রেরিত শোক বার্তায় এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

ছাত্রলীগের কমিটি ভেঙে নতুন কমিটির দাবী ৫ নং বড় চতুল ইউপি ছাত্রলীগের

 ছাত্রলীগের কমিটি ভেঙে নতুন কমিটির দাবী ৫ নং বড় চতুল ইউপি ছাত্রলীগের


এম. এ. আদিলঃ কানাইঘাট প্রতিনিধি :বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কানাইঘাট উপজেলার ৫ নং বড় চতুল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের পূর্বের কমিটির ভেঙে নতুন কমিটি দেওয়ার দাবী জানিয়েছে বড় চতুল ইউপি ছাত্রলীগ। জানা যায় ৫ নং বড়চতুল ইউনিয়ন ছাত্রলীগ এর কমিটি ২০১৮ সালের জুন মাসে ০৫ তারিখে অনুমোদন করেন কানাইঘাট উপজেলা ছাত্রলীগ এর সভাপতি এম. আখতার হুসেন ও সাধারণ সম্পাদক  মারুফ আহমদ। 

উক্ত কমিটিতে সভাপতি করা হয় আফতাব আহমদ  কে যিনি বর্তমানে সৌদি আরব প্রবাসী এবং সাধারণ সম্পাদক করা হয় সাহিদুল আলম পারুল কে যিনি বর্তমানে ব্যক্তিগত কাজ নিয়েই ব্যস্ত রয়েছেন বলে দাবী স্থানীয় ছাত্রলীগের। এছাড়া কমিটি গঠন করা হলেও কমিটির কোন কার্যক্রম দেখাতে পারেননি  সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।  কমিটির কোন বৈঠক কিংবা কোন অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করতে পারেন নি তারা। বেসরকারি চাকরি করা সাধারণ সম্পাদক কমিটি হওয়ার আগে যে দৌড় ঝাপ করেছিলেন তা অব্যাহত রাখতে পারেন নি। এমনকি নেত্রীর জন্মদিন, ২১ শে আগস্ট কিংবা জাতীয় শোক দিবসেও কোন কার্যক্রম পরিচালিত হয়না উক্ত কমিটির পক্ষ থেকে। যার কারণে ছাত্রলীগ হারাচ্ছে তার কর্মীদের। নতুন কর্মী সংগ্রহ তো দূরের কথা আগের কর্মীদেরই ধরে রাখা যাচ্ছেনা এমনটাই দাবী স্থানীয় ছাত্রলীগের।  এমতাবস্থায় ছাত্রলীগের পুরাতন কমিটি ভেঙে নতুন কমিটি দেওয়ার দাবী জানিয়েছেন চতুল ইউপি ছাত্রলীগ এর নেতারা। চতুল ইউপি ছাত্রলীগের নেতাদের দাবী, যারা তাদেরকে ছাত্রলীগের পতাকা তলে নিয়ে এসেছিলেন তাদের অনেককেই এখন দেখতে পাননা। 

আমরা এখন অসহায়।  আমরা ৫ নং ইউনিয়ন এই কমিটি অতিদ্রুত বিলুপ্ত করে নতুন কমিটি দেওয়া হউক। যাতে  জননেত্রী  শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তি শালী হয়। এই কমিটির বিষয় ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতারা বলেন

কানইঘাট উপজেলা ছাত্রলীগ এর সভাপতি জনাব এম আখতার এবং

 সাধারণ সম্পাদক মারুফ আহমদ 

 এর দৃষ্টি আর্কষণ করছি অতিদ্রুত এই কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন কমিটি দেওয়া হউক।

চৌগাছায় আমরাই আগামী সংগঠন এর আয়োজনে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প

চৌগাছায় আমরাই আগামী সংগঠন এর আয়োজনে  ফ্রি মেডিকেল  ক্যাম্প




চৌগাছা ( যশোর)  প্রতিনিধিঃ যশোরের চৌগাছায় আমরাই আগামী সংগঠন এর আয়োজনে  ফ্রি মেডিকেল  ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২ অক্টোবর উপজেলার স্বরুপদাহ ইউনিয়নের মাশিলা গ্রামে এ ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়।মনোয়ারা বেগম ফাউন্ডেশন এর নির্বাহী পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার হাফিজুর রহমান এর অর্থায়নে  ৫ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের তত্ত্বাবধায়নে  এ ক্যাম্প পরিচালনা হয়।অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জনাব দেবাশীষ মিশ্র জয়।এছাড়া উপস্থিত ছিলেন প্রেসক্লাবের দপ্তর সম্পাদক ও উপদেষ্টা  ফিরোজ হোসেন,সাংবাদিক শামিম রেজা সহ স্থানীয় রা।এ দিন বিশেষজ্ঞ  চিকিৎসক এর মাধ্যমে সর্বপ্রকার রোগের চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়।এছাড়া ব্লাড গ্রুপিং, ফ্রি ডায়াবেটিস ,ফ্রি প্রেসার সহ বিনামূল্যে ওষুধ বিতরণ করা যায়। সংগঠন এর পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন সভাপতি আজিমুর সোহান, সহ সভাপতি শতদ্রু হোসেন,ফাহাদ আল তামিম,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহফুজ আলম রিদয়, জিসান আহমেদ,রাজিব ঘোষ,সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদ আল সায়েম,অমিত, জিসান, কাব্য,সুমন,ইশান,লিখন,শুভ,জিল্লুর,জিম,সজীব,সোহান,তকি,ইয়ামিন,সাকলাইন,সাব্বির,দিপু,নাহিদ মামুন,অরিন সহ স্থানীয় ভলেন্টিয়াররা। এছাড়া ব্লাড গ্রুপিং এ ছিল জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আসিফ হোসেন, রমজান আলি।এ সময় ৭০০ রোগিকে বিনামূল্যে চিকিৎসা দেওয়া হয় এবং বিনামূল্যে ওষুধ বিতরণ করা হয়।

মোংলায় আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও মানববন্ধন

মোংলায় আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও মানববন্ধন

মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃ আন্তর্জাতিক অহিংস দিবস উপলক্ষে সর্বদলীয় সম্প্রীতি উদ্যোগ মোংলার আয়োজনে ২ অক্টোবর শুক্রবার সকালে মোংলা প্রেসক্লাবে আলোচনা সভা ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

শুক্রবার সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন সর্বদলীয় সম্প্রীতি উদ্যোগ মোংলার সমন্বয়কারী সাংবাদিক মোঃ নূর আলম শেখ। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইব্রাহিম হোসেন। বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান মানিক, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক উৎপল মন্ডল, সুজন মোংলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক শেখ নজরুল ইসলাম ও সিপিবির মোংলার সভাপতি কমরেড নাজমুল হক। অন্যান্যদের মধ্যে রাখেন সাংবাদিক নেতা মোঃ জসিম উদ্দিন, বিএনপি নেতা আব্দুস সালাম ব্যাপারী, যুবলীগ নেতা শফিকুল ইসলাম সোহাগ, জেলে সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ, উপজেলা কিশোর ফোরামের সভাপতি মোঃ রিয়াজ শেখ প্রমূখ। আলোচনা সভায় বক্তারা মেয়াদ উত্তীর্ণ মোংলা পোর্ট পৌরসভার দ্রুততম সময়ে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ এবং সহিংসতামুক্ত নির্বাচনের দাবী করেন। আলোচনা সভা শেষে মোংলা প্রেসক্লাব চত্বরে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়

দিনাজপুরে ৫ দিন ব্যাপী নতুন নারী উদ্দ্যোক্তা সৃষ্টি প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠিত

 দিনাজপুরে ৫ দিন ব্যাপী নতুন নারী উদ্দ্যোক্তা সৃষ্টি প্রশিক্ষণের সমাপনী অনুষ্ঠিত




মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ দিনাজপুরের এমবিএসকে’র হল রুমে দিনাজপুর উইমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর আয়োজনে এবং এস.এম.ই ফাউন্ডেশনের অর্থায়নে দিনাজপুরে ৫ দিন ব্যাপী ৩০ জন নতুন নারী উদ্দ্যোক্তা সৃষ্টি প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর সমাপনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন এস.এম.ই ফাউন্ডেশনের সহকারি ব্যবস্থাপক মোঃ নাজমুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে দিনাজপুর উইমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ ও কলোনীপাড়া মহিলা উন্নয়ন সমিতির সভাপতি জান্নাতুস সাফা শাহীনুর এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন উদ্দ্যোক্তা উন্নয়ন প্রশিক্ষক ও পারমিদা এগ্রি বিজনেস লিমিটেড এর হেড অফ ইনিষ্টিটিউশনাল সেলস মোঃ মাহফুজুল হক মুকুল, এস.এম.ই ফাউন্ডেনের উদ্দ্যোক্তা উন্নয়ন প্রশিক্ষক সাইদা আফরোজ চৌধুরী প্রমূখ। সমাপনী অনুষ্ঠানে দিনাজপুর উইমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারিবৃন্দ ও সকল প্রশিক্ষনার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন দিনাজপুর উইমেন চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর অফিস ইনচার্জ সুরাইয়া বেগম ।

৫ দিন ব্যাপী ৩০ জন নতুন নারী উদ্দ্যোক্তা সৃষ্টি প্রশিক্ষণ কর্মসূচীতে উৎপাদন মূখী, সেবা মূখী ও ট্রেডিং বিষয়ের প্রতি প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।

বাংলাদেশ রেজিস্ট্রেশন সার্ভিস এসোসিয়েশন" কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদ এর নির্বাচন

 বাংলাদেশ রেজিস্ট্রেশন সার্ভিস এসোসিয়েশন" কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদ এর নির্বাচন




বাবুল চন্দ্র সূত্রধরঃ তারাকান্দা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ

"যুগোপযোগী সার্ভিস উন্নয়নের অঙ্গীকার" ই- রেজিস্ট্রেশন অগ্রাধিকার" এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে, বাংলাদেশ রেজিস্ট্রেশন সার্ভিস এসোসিয়েশন (বিআরএসএ) এর কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদ "এর" নির্বাচনে ২০২০-২০২১ জিয়াউল-কাওসার জাহিদ-ইমরুল-বারী-পরিষদ (ভোট নং-৬৮)


 যুগ্ন সাংগঠনিক সম্পাদক পদপ্রার্থী হয়েছেন, বাংলাদেশ ছাএলীগ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু হল শাখার সাবেক সহ-সভাপতি, সততা ন্যায়-নিষ্ঠা সদা হাসোজ্বল জনাব, ওমর ফারুক আপনাদের সকলের দোয়া ও মহা মূলবান ভোট প্রত্যাশী ।

বাঁধন জবি কমিটির স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার

বাঁধন জবি কমিটির স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার

জবি প্রতিনিধিঃবাঁধন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) ইউনিটের স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করেছে বাঁধন কেন্দ্রীয় পরিষদ। গত ২৫ শে সেপ্টেম্বর বাঁধন কেন্দ্রীয় পরিষদ এর কার্যকরী সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। উক্ত বৈঠকে জবি ইউনিটের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগের প্রেক্ষিতে গঠিত তদন্ত কমিটির রিপোর্ট এবং সুপারিশ বিষয়ে আলোচনা করা হয়। সভায় গৃহীত সিদ্ধান্ত মোতাবেক জবি ইউনিটের বর্তমান কমিটির স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার এবং জবি ইউনিট কেন্দ্রীয় পরিষদের সরাসরি তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হওয়ার ব্যাপারে মত দেন কেন্দ্রীয় পরিষদ।


বাঁধন কেন্দ্রীয় পরিষদের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক ফোনে উক্ত প্রেস রিলিজের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।


এছাড়া বাঁধন জবি ইউনিটের সাবেক সভাপতি নিয়াজ শরীফ টুটুল এর বিরুদ্ধে আর্থিক বিভিন্ন অনিয়ম এবং শাখা অফিসে তালা লাগিয়ে দেয়ার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায়, জবি ইউনিটের সকল কার্যক্রম থেকে ৩১ শে ডিসেম্বর ২০২২ পর্যন্ত বিরত থাকার নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। ছাত্র উপদেষ্টা সোহানুর রহমানকেও জবি ২০২০ কমিটির কোন কার্যক্রমে না থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এছাড়া জবি ইউনিটের উপদেষ্টা কমিটি গঠন থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে।

নওগাঁর আত্রাইয়ে গ্রামীন সড়ক রক্ষনাবেক্ষণ মাস উদ্বোধন

 নওগাঁর আত্রাইয়ে গ্রামীন সড়ক রক্ষনাবেক্ষণ মাস উদ্বোধন




মোঃ ফিরোজ হোসাইন,রাজশাহী ব্যুরোঃ “মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার, সড়ক হবে সংস্কার” প্রতিপাদ্যে নওগাঁর আত্রাই উপজেলাকে গ্রামীন সড়ক ‘রক্ষনাবেক্ষণ মাস’ ঘোষণা করা হয়েছে। 

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর উপজেলা গান্ধী আশ্রম চত্বরে গ্রামীন সড়ক রক্ষণাবেক্ষণ কাজে মাটি ফেলে এর উদ্বোধন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ এবাদুর রহমান এবাদ। এসময় উপজেলা প্রকৌশলী পারভেজ নেওয়াজ খান, আত্রাই প্রেসক্লাব সভাপতি রুহুল আমীনসহ অফিস কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রকাশ থাকে গতকাল  বৃহস্পতিবার দুপুরে স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলামের গত ৩০ সেপ্টেম্বর বিকাল ৪ ঘটিকায় ডিজিটাল প্লাটফর্মে অক্টোবর ২০২০ মাসকে রক্ষনাবেক্ষন মাস ঘোষণার করেন।

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়াছেন ইউএনও ওয়াহিদা।

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়াছেন ইউএনও ওয়াহিদা।

 

মাফিন হাসান,ময়মনসিংহ শহর: হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়াছেন ইউএনও ওয়াহিদা। দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিয়ে অনেকটা সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটের সাবেক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানম।


বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার পর ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস অ্যান্ড হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়।


হাসপাতালের চিকিৎসক অধ্যাপক জাহিদ হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।তাকে নেয়া হবে মিরপুর সিআরপিতে।


ডা. জাহিদ ওয়াহিদার স্বাস্থ্যের বিষয়ে বলেন, ওয়াহিদা খানম এখন নিজে হাঁটাচলা, খাওয়া ও পড়ালেখা করতে পারেন। তিনি প্রায় স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন। তবে তার কিছু থেরাপির দরকার আছে। সেজন্য তাকে সিআরপিতে (পক্ষাঘাতগ্রস্তদের পুনর্বাসন কেন্দ্র বা সেন্টার ফর দ্য রিহ্যাবিলিটেশন অব দ্য প্যারালাইজড) রেফার করা হয়েছে। তিনি সিআরপিতে থেরাপি নেবেন।


২ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে দুর্বৃত্তরা ইউএনওর সরকারি বাসায় ঢুকে ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা ওমর আলীকে (৭০) হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে পালিয়ে যায়।

ওয়াহিদা খানম ৩১তম বিসিএসে প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তা। তার স্বামী মেসবাউল হোসেনও একই ব্যাচে একই ক্যাডারের কর্মকর্তা।

আইয়ূব আলীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মাস ব্যাপি ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প ও দোয়া মাহফিল পালন করবে মুকতাদির হোমিও চিকিৎসা কেন্দ্র

আইয়ূব আলীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মাস ব্যাপি ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প ও দোয়া মাহফিল পালন করবে মুকতাদির হোমিও চিকিৎসা কেন্দ্র

     


নিউজ ডেস্কঃ টাংগাইলের নাগরপুর প্রানকেন্দ্রে অবস্হিত দুয়াজানী কলেজ পাড়া জামে মসজিদ এর সাবেক সভাপতি,বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ ও প্রথম বিশ্বযুদ্ধের প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত সৈনিক,সাবেক সরকারী কর্মচারী মরহুম আইয়ূব আলীর দশম মূত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আক্টোবর মাস ব্যাপি দোয়া অনুষ্ঠান, পথ শিশুদের মাঝে খাবার বিতরণ,অসহায়দের মাঝে বস্ত্র বিতরণ,ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পিং ও ঔষধ বিতরন, ফ্রি ব্লাড গ্লুপিং কর্মসৃচী  পালনের উদ্যোগ গ্রহন করেছেন-মুকতাদির হোমিও চিকিৎসা কেন্দ্র,আইয়ূব আলী মেমোরিয়াল হোমিওপ্যাথিক মেডিসিন রির্সাচ সেন্টার, আহাম্মদ হোসেন হোমিও ক্লিনিক,নাগরপুর ইংলিশ কেয়ার সেন্টার ও সাত্তার-বাতেন-কাইয়ূম ফ্রি ফ্রাইডে হোমিও ক্লিনিক। 


আগামি ৬ অক্টোবর, ২০২০ খ্রি.বিকাল ৪.০০ টায় মুকতাদির হোমিও চিকিৎসা কেন্দ্র,আইয়ূব আলী সুপার মার্কেট,নাগরপুর বাজার,টাংগাইল প্রধান চেম্বারে ফ্রি ব্লাড গ্লুপিং ও দোয়া মাহফিলের মাধ্যমে মাস ব্যাপি কর্মসৃচীর শুভ উদ্বোধন ঘোষনা করা হবে।


 মাস ব্যাপি কর্মসৃচী পালন বিষয়ে জানতে চাইলে আইয়ূব আলীর নাতি ও আইয়ূব আলী মৃত্যুবার্ষিকী বাস্তবায়ন পরিষদের আহবায়ক ডা.এম.এ.মান্নান বলেন-আমার দাদা মরহুম আইয়ূব আলী ছিলেন একজন খাঁটি ইমানদার ও পরহেজগার মানুষ। তিনি মৃত্যুর আগ পর্যন্ত ইসলামী দাওয়াত সকল মানুষের কাছে পৌছিয়ে দিয়েছিলেন। তিনি নিয়মিত ৫ ওয়াক্ত নামায জামাতের সহিত আদায় সহ নিয়মিত তাহাজ্জত ও অন্যন্য প্রয়োজনীয় আমল করতেন। তিনি নিয়মিত ফজর নামায আদায় করতেন সকালে গোসলের মাধ্যমে যা নাগরপুর বাসী এখনো বলে। অনেকেই বলে মান্নান তোমার দাদা যত শীত আসুক বা বন্যার পানি দিয়ে সারা গ্রাম ভরে যাক তবুও সকালে গোসল করবে তারপর মসজিদে গিয়ে ফজর নামায জামাতের সহিত আদায় করবে। আমরাও তাই দেখছি। দাদা সব সময় অসহায় মানুষকে নিয়ে ভাবতেন তাদের পাশে দাড়াতেন। আমার নিজস্ব উদ্যোগে আমার সেবামূলক প্রতিষ্ঠানসমূহ আমার দাদার মৃত্যুবার্ষিকী নানান কর্মসূচির মাধ্যমে পালন করবে। আমি নাগরপুরের সর্বস্বরের মানুষের কাছে সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি এবং দাদার জন্য দোয়া করার আহবান করছি। মহান আল্লাহ যেন আমার দাদ দাদিকে জান্নাত নসিব করেন,আমিন। 


উল্লেখ্য ২০১০ সালে ৩১ অক্টোবার সকালে আমার প্রিয় দাদা মরহুম আইয়ূব অালী নিজ বাসভবনে আমাদের কাছ থেকে চির বিদায় অথাৎ মহান আল্লাহ ডাকে সাড়া দিয়ে চলে গেছেন। তিনি দুই ছেলে, দুই মেয়ে, নাতি পতি সহ অংসখ্যক শুভাকাঙ্ক্ষী রেখে গেছেন।

শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফি রহ. এর জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল

শাইখুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফি রহ. এর জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনা ও দোয়া মাহফিল


আব্দুর রাজ্জাক, মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি। দারুল আজহার মডেল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল  মাওলানা শেখ মাহবুবুর রহমানের পরিচালনায় সাবেক জেলা শিক্ষা অফিসার জনাব আব্দুল মুন্নাফ খানের সভাপতিত্বে,  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মানিকগঞ্জ জেলা উলামা মাশায়েখ পরিষদের মহাসচিব আলহাজ্ব বশির রেজা, প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মানিকগঞ্জ ইসলামিয়া কামিল মাদরাসার মুহাদ্দিস মাওলানা শেখ মোঃ সালাহউদ্দিন। 

এতে মানিকগঞ্জ জেলার বিভিন্ন পর্যায়ের  ওলামা মাশায়েখগণ বক্তব্য রাখেনঃ

 #মাওলানা আশরাফুল আলম

মাস্টার ট্রেইনার ইফা মানিকগঞ্জ 


#মাওলানা আমিনুর রহমান 

মুহাদ্দিস, কামিল মাদরাসা মানিকগঞ্জ 


#মাওলানা ইয়াহইয়া

সহকারী অধ্যাপক, কামিল মাদরাসা মানিকগঞ্জ 


#মাওলানা আব্দুল কাদের

আরবি প্রভাবক, কামিল মাদরাসা মানিকগঞ্জ 


#আব্দুল হান্নান আনসারি

সাবেক বাংলা প্রভাষক, কামিল মাদরাসা 


#ড.ইন্জিনিয়ার ফারুক হোসেন

প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল, এনপিআই ইউনিভার্সিটি  মানিকগঞ্জ


#মাওলানা আমিনুল ইসলাম 

সিনিয়র শিক্ষক, হরগজ মাদরাসা সাটুরিয়া 


#মাওলানা গিয়াস উদ্দিন 

মুহতামিম,ধল্লা মাহমুদিয়া মাদরাসা


#মাওলানা আব্দুল ওয়াদুদ

ইমাম,জামে মসজিদ মানিকগঞ্জ 


#মাওলানা আব্দুল আউয়াল 

ইমাম, দেবেন্দ্র কলেজ মসজিদ মানিকগঞ্জ 


#মুফতি রফিকুল ইসলাম 

ইমাম,কোর্ট মসজিদ মানিকগঞ্জ 


#মাওলানা ইব্রাহিম খলিল 

ভাইস প্রিন্সিপাল, অত্র মাদরাসা 


#মাওলানা আশিকুল ইসলাম ছানোয়ার 

ইমাম,জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী জামে মসজিদ মানিকগঞ্জ 


#মুফতি আব্দুল করিম

ইমাম,বনগ্রাম জামে মসজিদ 


#মাওলানা জুবায়ের আহমেদ ফয়জী

ইমাম,পুলিশ লাইন্স জামে মসজিদ 


#মাওলানা আবু ইউসুফ 

ইমাম, কামিল মাদরাসা জামে মসজিদ। 


#মাওলানা আনিসুর রহমান আনাস 

পরিচালক অত্র মাদরাসা


#মাওলানা জুবায়ের আহমেদ 

পরিচালক অত্র মাদরাসা ও পরিচালক খিদমাহ হোম সার্ভিস মানিকগঞ্জ। 


#মাওলানা তাজুল ইসলাম 

ইমাম, জেলখানা জামে মসজিদ মানিকগঞ্জ 


#মাওলানা কবির আহমদ

ইমাম,উপজেলা পরিষদ জামে মসজিদ 


#মাওলানা জাবের আল সাফা

বিশিষ্ট ওয়ায়েজ ও আলোচক


#মাওলানা আব্দুল আউয়াল 

পরিচালক অত্র মাদরাসা 


#মাওলানা সাইফুল ইসলাম 

সেক্রেটারি, ইমাম পরিষদ সিংগাইর


#মাওলানা শফিকুল ইসলাম 

প্রিন্সিপাল, গোলড়া হাফিজিয়া মাদরাসা


#মাওলানা শরিফুল ইসলাম 

মুহতামিম, আরিচা হাফিজিয়া মাদরাসা 


# মাওলানা এম এ ইসলাম মুহসিন 

ইমামঃআশা টাওয়ার মসজিদ, মানিকগঞ্জ 


এছাড়াও বিভিন্ন মাদরাসার শিক্ষক ও মসজিদের মুয়াজ্জিন সাহেবসহ স্থানীয় ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।