গৃহ নির্মাণ কাজ পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল

 গৃহ নির্মাণ কাজ পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল
 গৃহ নির্মাণ কাজ পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল

আশাশুনি প্রতিনিধিঃসাতক্ষীরা জেলার আশাশুনিতে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে 'ক' শ্রেণির গৃহহীন ও ভূমিহীন পরিবারদের জন্য গৃহ নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করেছেন, জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল।

মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার দক্ষিণ চাপড়া বলফিল্ড এর পার্শ্বে ২২টি গৃহের নির্মাণ কাজ পরিদর্শনকালে তিনি গৃহনির্মানের জন্য নির্বাচিত জমি, ভূমিহীন পরিবার ও নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত ইট, বালি, সিমেন্টসহ সরঞ্জামাদি পরিদর্শন করেন।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল এ সময় ঘর পাওয়া ভূমিহীন পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলেন, সাথে সাথে কাজের গুণগত মান যেন ঠিক থাকে সে ব্যাপারে পরামর্শ ও তাগিদ প্রদান করেন। 

এছাড়াও ভূমিহীন পরিবারের জন‍্য এক একটা সিঙ্গার মেশিন দিয়ে তাদেরকে ইনকামের আশ্বাস প্রদান করেন।

জেলা প্রশাসক উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ইউপি চেয়ারম্যানকে নির্দেশ প্রদান করেন যাহাতে সবাই, শীতকালীন একটি করে কম্বল পায়। 

এসময় আশাশুনি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা, সহকারী কমিশানর (ভূমি) শাহীন সুলতানা, আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ গোলাম কবির, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অসীম বরণ চক্রবর্তী, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সোহাগ খান, বুধহাটা ইউপি চেয়ারম্যান আ ব ম মোসাদ্দেক, আশাশুনি সদর ইউপি চেয়ারম্যান স ম সেলিম রেজা মিলন, শ্রীউলা ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা শাকিল, আনুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর আলম লিটন, সার্ভেয়ার অমল কুমার ঘোষ ও স্থানীয় সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইঞ্জিঃ জাকের হোসেন সাগর

বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইঞ্জিঃ জাকের হোসেন সাগর

মোঃ রবিউল হোসাইন সবুজ, (লাকসাম) প্রতিনিধিঃ
মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে লাকসাম-মনোহরঞ্জ উপজেলা সহ সমগ্র দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইঞ্জিঃ জাকের হোসেন সাগর।

এক শুভেচ্ছা বাণীতে বলেন,বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাসে এক গৌরবময় দিন ১৬ ডিসেম্বর। বাঙালির নিজস্ব জাতিসত্ত্বার উন্মেষের দিন এটি।

এদিনেই মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে বিজয় সূচিত হয়। বিশ্বের মানচিত্রে অভ্যুদয় ঘটে স্বাধীন বাংলাদেশের।মহান বিজয় দিবসের এই শুভক্ষণে  পুরো দেশবাসীকে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

তিনি আরও বলেন বাঙালি জাতির অবিসংবাদিত নেতা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঐতিহাসিক স্বাধীনতার ঘোষণা দেন।বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে ও নেতৃত্বে দীর্ঘ নয় মাস সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত হয় চুড়ান্ত বিজয়। আমি আজ বিনম্র চিত্তে পরম শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান
যাঁর অপরিসীম ত্যাগ ও আপোষহীন নেতৃত্বে পৃথিবীর মানচিত্রে জন্ম নেয় স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশ।বিনম্র শ্রদ্ধা জানাই মহান স্বাধীনতাযুদ্ধে বীর শহীদদের প্রতি।

পটিয়ার জিরিতে নিরীহ মহিলার দোকান ভাংচুরের অভিযোগ

পটিয়ার জিরিতে নিরীহ মহিলার  দোকান ভাংচুরের অভিযোগ


পটিয়া  (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ- চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার জিরি ইউনিয়ন দক্ষিণ জিরি ৫ নং ওয়ার্ডে  দিলুয়ারা বেগম নাম এক নিরীহ মহিলার  ৪ টি দোকান ভাংচুর তান্ডব চালিয়ে আনুমানিক তিল লক্ষ টাকার ক্ষতি করেছে মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ১২ ডিসেম্বর রাত সাড়ে ৮ টায়। এঘটনায় মোঃ ইয়াকুবের স্ত্রী দিলুয়ারা বেগম বাদী হয়ে আবুল হোসেন, মোরশেদ, জয়নাল, আরিফ, ইয়াকুব নবীসহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জনের বিরুদ্ধে পটিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। থানার দায়েকৃত অভিযোগ সুএে জানাযায় দীর্ঘদিন জায়গা পাওয়ার অজুহাত তুলে গরীব অসহায় দিলুয়ারা বেগম কে বিভিন্নভাবে হত্যার হুমকি ভয়ভীতি প্রদর্শন করে আসছিল। এর ধারাবাহিকতায় গত ১২ ডিসেম্বর রাতে দিলুয়ারা বেগম এর নির্মাণধীন ৪ টি দোকান গৃহ ভাংচুর তান্ডব চালিয়ে আনুমানিক তিল লক্ষ টাকার ক্ষতিসাধন করছে মর্মে থানার দায়েকৃত অভিযোগ সুএে প্রকাশ। অভিযোগ পেয়ে থানার এস আই খোরশেদ ঘটনাস্থলে পরিদর্শনে যান বলে বিষয়টি নিশ্চিত নিশ্চিত করেন।অসহায় দিলুয়ারা বেগম পটিয়া থানার ওসি রেজাউল করিম মজুমদার এর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। 


মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদে ৪ মিলিয়ন মানুষের তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে

মক্কার গ্র্যান্ড মসজিদে ৪ মিলিয়ন মানুষের তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে



বেলাল উদ্দিন সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টারঃ মক্কাঃ ওমরাহ পুনরায় চালু হওয়ার পর থেকে দুটি পবিত্র মসজিদের বিষয়ক জেনারেল প্রেসিডেন্সি তাপ ক্যামেরার মাধ্যমে প্রায় 4 মিলিয়ন মানুষের তাপমাত্রা পর্যবেক্ষণ করেছে। করোনভাইরাস রোগের ছড়িয়ে পড়া (সিওভিড কোভিড -19) যাচাই করার জন্য জ্বরযুক্ত উপাসকদের সনাক্ত করতে গ্র্যান্ড মসজিদের প্রবেশদ্বারে মোট ২৫ টি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। শতাধিক কর্মচারী তাপ ক্যামেরা ব্যবহার প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। এই ক্যামেরাগুলি ছয় মিটার দূরে তাপমাত্রা রেকর্ড করতে পারে। দর্শনার্থীদের প্রবেশপথে জীবাণুনাশক ছড়িয়ে দেওয়া হয়।
রাষ্ট্রপতি হজযাত্রীদের সুরক্ষার জন্য কঠোর স্বাস্থ্য ও সুরক্ষা ব্যবস্থা চালু করেছেন। সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার জন্য, রাষ্ট্রপতি পদে বয়স্ক ও প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের নিরাপদে আচার অনুষ্ঠান করতে সহায়তা করার জন্য বিশেষ পথ নির্ধারণ করেছেন।
শীতাতপনিয়ন্ত্রণ সিস্টেম এবং ফিল্টারগুলি অতিবেগুনী স্যানিটাইজিং প্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রতিদিন নয়টি ক্লিন পান এবং 200 টিরও বেশি হাত-স্যানিটাইজিং ডিভাইসগুলি মসজিদ জুড়ে বিতরণ করা হয়েছে।
স্বাস্থ্যকর কারণে ওয়াটার কুলার এবং পুনঃব্যবহারযোগ্য বোতল নিষিদ্ধ করা হয়েছে এবং এর পরিবর্তে রাষ্ট্রপতি প্রতিটি হজযাত্রীদের  কাছে নির্দিষ্ট সংখ্যক জমজমের পানির বোতল হস্তান্তর করেছেন।

পতেঙ্গায় যা কিছু হলে ভালো হয়

পতেঙ্গায় যা কিছু হলে ভালো হয়

বেললা উদ্দিনঃ

> কাটগড় মোড়, পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত এরিয়া,  বিমানবন্দর মোড়, কেইপিজেড মোড় ও সিমেন্ট ক্রসিং মোড়ে একটি করে গণসৌচাগার।
 
> স্থান নির্ধারিত হওয়া ফায়ার স্টেশনটির দ্রুত বাস্তবায়ন। 

> সকলের চাওয়া একটি সরকারি জেনারেল  হাসপাতাল। 

> পতেঙ্গার মুক্তিযুদ্ধের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস ও মুক্তি যোদ্ধাদের নাম ও বীর শহীদদের নাম ফলক। ( এটি পতেঙ্গা সৈকতের পর্যটনী এরিয়াতে হলে ভালো হয়)

>জাতীয় কবি কাজী নজরুলের স্মৃতি স্তম্ভ (সিন্ধু হিন্দুল স্কয়ার টা পতেঙ্গা সৈকত এলাকায় তৈরী করা, পতেঙ্গায় কবির রচিত কবিতা ও সংক্ষিপ্ত ইতিহাস)

>পতেঙ্গার নামকরণের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস, পতেঙ্গার ভূগোলিক বর্ননা (এটিও সৈকত এরিয়াতে হলে ভালো হয়) 

>পতেঙ্গার বিখ্যাত তরমুজের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস ও প্রতিকৃতি। 

>কাটগড় হতে ৯ নং অভ্যন্তরীণ সড়কে টমটম বা অন্যকোন লোকাল যানবাহন সরাসরি চালু।

>বিমানবন্দর ও পতেঙ্গা সৈকতের দোকানগুলোর প্রতিটি পণ্য ন্যায্য মূল্যে গ্রাহকরা ক্রয়ের সুবিধা নিশ্চিত করা। 

>পতেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়কে বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে রূপান্তর করা।

>সমগ্র পতেঙ্গাকে সিসিটিভি দ্বারা নিয়ন্ত্রণ করা। 

>ভাড়াটিয়াদেরকে ওয়ার্ড কার্যালয় বা স্থানীয় থানা থেকে উক্ত এলাকায় বসবাসের অনুমতি পত্রের ব্যবস্থা করা। যার এক কপি বাড়িওয়ালা ও এক কপি থানা বা ওয়ার্ড অফিসে রাখা। 

>সমগ্র পতেঙ্গায় ওয়াশার পানির ব্যবস্থা করা। 

>আউটার রিং রোডের চরপাড়া, মুসলিমাবাদ, খেজুর তলা ও আকমল আলী রোড অঞ্চলে জনসাধারণের নিরাপদ পারাপারের সুবিধার্থে ফুটওভার ব্রিজ তৈরী করা। 

(ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা হিসেবে এগুলো দ্রুত বাস্তবায়ন করলে ইনশাআল্লাহ আমরা একটি সুন্দর পতেঙ্গা পাবো )
আমাদের পতেঙ্গা, চট্টগ্রাম।সাংবাদিক বেলাল উদ্দিন

অতীতের সব রেকর্ড ভাঙলো প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্স

অতীতের সব রেকর্ড ভাঙলো প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্স



তাহের সরকার,সিংগাপুর প্রতিনিধিঃ কেন্দ্রীয় ব্যাংক রেমিটেন্স প্রবাহের সর্বশেষ তথ্যমতে চলতি ডিসেম্বর মাসের প্রথম ১০ দিনে ৮১ কোটি ৪০ লাখ ডলার দেশে পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। ফলে বছর শেষ হওয়ার দুই সপ্তাহ বাকি থাকতেই ২০ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে গেছে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্সের পরিমাণ।

রোববার প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী সব মিলিয়ে ১ জানুয়ারি থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ে দেশে এসেছে ২০ দশমিক ৫০ বিলিয়ন ডলার, যা ২০১৯ সালের পুরো সময়ের চেয়ে প্রায় ১২ শতাংশ বেশি। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, জুলাই-নভেম্বর পাঁচ মাসে মোট ১০ দশমিক ৯০ বিলিয়ন ডলারের রেমিটেন্স এসেছিল।

এই হিসাবে ২০২০-২১ অর্থবছরের ১ জুলাই থেকে ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়ে মোট ১১ দশমিক ৭০ বিলিয়ন ডলারের রেমিটেন্স এসেছে দেশে। গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে রেমিটেন্স বেড়েছে ৪৩ শতাংশ।

আর ২০১৯-২০ অর্থবছরের শেষ ছয় মাসে (২০০০ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ৩০ জুন) এসেছিল ৮ দশমিক ৭৯ বিলিয়ন ডলার, যা আগের অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ১২ শতাংশ বেশি।

করোনাভাইরাস মহামারীর মধ্যেই অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে ২ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলারের রেমিটেন্স এসেছিল দেশে, যা এ যাবৎকালের সর্বোচ্চ। মহামারীর কারণে রেমিটেন্স কমে যাবে বলে ধারণা করা হলেও তা ঘটেনি। মহামারীর আঁচ বিশ্বের অর্থনীতিতে লাগার পর গত এপ্রিল মাসে রেমিটেন্স কমলেও এরপর আবার বেড়েছে।

২০১৯-২০ অর্থবছরে মোট ১৮ দশমিক ২০ বিলিয়ন ডলারের রেমিটেন্স পাঠিয়েছেন বিভিন্ন দেশে অবস্থানকারী প্রবাসীরা। ওই অঙ্ক ছিল আগের ২০১৮-১৯ অর্থবছরের চেয়ে ১০ দশমিক ৮৭ শতাংশ বেশি।

দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে বিভিন্ন দেশে থাকা ১ কোটির বেশি বাংলাদেশির পাঠানো এই অর্থ। দেশের জিডিপিতে সবমিলিয়ে রেমিটেন্সের অবদান ১২ শতাংশের মতো। রেমিটেন্স প্রবাহ বাড়াতে গত অর্থবছর থেকে ২ শতাংশ হারে নগদ প্রণোদনা দিচ্ছে সরকার।

এদিকে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিটেন্সের উপর ভর করে মহামারীর মধ্যেই বাংলাদেশের বিদেশি মুদ্রার সঞ্চয়ন ৪২ বিলিয়ন (৪ হাজার ২০০ কোটি) ডলারের মাইলফলক ছুঁতে চলেছে। রোববার দিন শেষে রিজার্ভে ছিল ৪১ দশমিক ৯০ বিলিয়ন ডলার, যা অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য ঘেঁটে দেখা যায়, এক বছরের ব্যবধানে রিজার্ভ বেড়েছে প্রায় ১০ বিলিয়ন ডলার। গত বছরের ৯ ডিসেম্বর রিজার্ভে ৩২ দশমিক ১১ বিলিয়ন ডলার ছিল।

আন্তর্জাতিক মানদণ্ড অনুযায়ী, একটি দেশের কাছে অন্তত তিন মাসের আমদানি ব্যয় মেটানোর সমপরিমাণ বিদেশি মুদ্রার মজুদ থাকতে হয়। এর আগে এক বছরে বাংলাদেশে এত রেমিটেন্স আর কখনো আসেনি। ২০১৯ সালে ১৮ দশমিক ৩৩ বিলিয়ন ডলার দেশে পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা 

সিরাজগঞ্জে মাস্ক ও হেলমেটবিহীন মোটর বাইক চালকের বিভিন্ন অংকের অর্থদন্ড

সিরাজগঞ্জে মাস্ক ও হেলমেটবিহীন মোটর বাইক চালকের বিভিন্ন অংকের অর্থদন্ড

মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধঃসিরাজগঞ্জে কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ওয়েভ মোকাবেলায় মাস্ক পরিধান না করার কারণে ১৫ ডিসেম্বর মঙ্গলবার বিকেলে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কালিয়া হরিপুর ইউনিয়নে কান্দাপাড়া সংলগ্ন এলাকায় ,পথচারী সিএনজি ও অটোরিকশা চালক এবং যাত্রীদেরকে অর্থদন্ড দিয়েছেন সিরাজগঞ্জ সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ।
উক্ত অভিযানে, ০৯জন ব্যক্তিকে মাস্ক পরিধান না করায় বিভিন্ন অংকের সর্বমোট ১৩০০ টাকা অর্থদন্ড দেন।
এবং, হেলমেটবিহীন মোটর বাইক চালানোর অপরাধে ০৪ জন ব্যক্তিকে মোট ২২০০৳ অর্থদণ্ড দেন।
এসময়, পথচারী, অটো চালক, সিএনজি চালক এবং যাত্রীদের মাঝে ফ্রি মাস্ক বিতরণ করেনন। এর পাশাপাশি তাদেরকে করোনার ২য় ওয়েভ নিয়ে সচেতন করেন।
এছাড়াও, কোভিড-১৯ এর ২য় ওয়েভ মোকাবেলায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা অব্যাহত থাকবে বলে যানান তিনি।
এ সময় সিরাজগঞ্জ আনসার বাহিনীর সদস্যগণ উক্ত মোবাইল কোর্টে উপস্থিত ছিলেন।

২১ বছরে চাকুরীরত ননএমপিও শিক্ষক এখন রুটি মেকার

২১ বছরে চাকুরীরত ননএমপিও শিক্ষক এখন রুটি মেকার
২১ বছরে চাকুরীরত ননএমপিও শিক্ষক এখন রুটি মেকার
নিউজ ডেস্কঃ ২১ বছর ধরে যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলার আলাউদ্দীন বিশ্বাস মডেল একাডেমী গুলবাগপুর এর ননএমপিও শিক্ষক এখন রুটি মেকার।এমন একটি দুঃখময় সংবাদ শিক্ষক তার নিজ ফেসবুকে প্রকাশ করে তার জীবনের কষ্টের কথা গুলো মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে অকপটে প্রকাশ করতে চেয়েছেন      

লাউতা জামি,আ ইবনে আব্বাস (রা) মাদ্রাসায় জরুরি মত বিনিময় সভা

লাউতা জামি,আ ইবনে আব্বাস (রা) মাদ্রাসায়  জরুরি মত বিনিময় সভা
লাউতা জামি,আ ইবনে আব্বাস (রা) মাদ্রাসায়  জরুরি মত বিনিময় সভা

আব্দুর রাজ্জাক, হরিরামপুর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ
হরিরামপুর উপজেলা চালা ইউনিয়ন পরিষদের পূর্ব পাশে লাউতা জামি,আ আব্বা (রা)মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে১৫/১২/২০২০ইং তারিখ এক জরুরি মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
  
মত বিনিময় সভাঃ ১/প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হাফেজ ক্বারী হযরত মাওলানা খন্দকার সিদ্দিকুর রহমান সভাপত্বি করেন হাঃ মাওঃ শহিদুল্লাহ 
প্রধান শিক্ষক আন্ধার মানিক মাদ্রাসা হরিরামপুর। 
পরিচালনায় ছিলেন হাঃ মাওঃ তানজিল হোসেন 
২/বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য 
আয়োজিত বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলহাজ্ব হযরত মাওলানা সালমান সাহেব দা.বা.খলিফা সাইয়েদ আবুল হাসান আলী নদবী (রহ),, মহাপরিচালক মাদ্রাসা দারুর  রাশাদ মিরপুর ঢাকা। সভাপতিত্ব করেন এবং তার জন্য 
হযরত মাওলানা আব্দুল ওয়াহাব সাহেব 
পরিচালক হরগজ মালেকিয়া আশরাফুল উলুম মাদ্রাসা, সাটুরিয়া, মানিকগঞ্জ। 

উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য পেশ করেন হযরত মাওলানা শেখ মোঃ সালাহউদ্দিন সাহেব
হেড মুহাদ্দিস মানিকগঞ্জ কামিল মাদ্রাসা। 
দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন হযর মাওলানা আব্দুল কাদের সাহেব সাধারণ সম্পাদক ইমাম ও মুয়াজ্জিন কল্যাণ পরিষদ। 
স্বাগত বক্তব্য পেশ করেন হাফেজ হযরত মাওলানা মুফতি রফিকুল ইসলাম সাহেব সভাপতি ইমাম ও মুয়াজ্জিন কল্যাণ পরিষদ।উক্ত বিশেষ দোয়া মাহফিল  অনুষ্ঠানে আরো  বক্তব্য রাখেন

চলাচলের রাস্তায় তারকাটার বেড়া, চরম দূর্ভোগে দিন কাটছে প্রায় ২৫ জনের

চলাচলের রাস্তায় তারকাটার বেড়া, চরম দূর্ভোগে দিন কাটছে প্রায় ২৫ জনের
চলাচলের রাস্তায় তারকাটার বেড়া, চরম দূর্ভোগে দিন কাটছে প্রায় ২৫ জনের

কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি //
কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার খলিসাকুন্ডি ইউনিয়নের মালিপাড়া গ্রামে চলাচলের রাস্তা তারকাটার বেড়া দিয়ে আটকে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে এক প্রভাবশালী প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে।

 
এতে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন ৪টি পরিবারের ২০/২৫ সদস্য। উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা প্রশাসন বলছেন বিষয়টি ঠিক হয়নি। তবুও অদৃশ্য শক্তির জোরে ৭ দিন ধরে বেড়া এখনও রয়ে গেছে।

 উপজেলার খলিসাকুন্ডি ইউনিয়নের মালিপাড়া গ্রামের ৪টি পরিবারের যাতায়াতের এই পথটি এখন বন্ধ। এতে বাগানের ভেতর দিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে ওই পরিবারগুলোকে।

সপ্তাহখানেক আগে তারকাটার বেড়া দিয়ে পথটি বন্ধ করে দেয় মালিপাড়া গ্রামের তাহের মন্ডল এর ছেলে লালান মন্ডল। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, নিজের জায়গা অন্য কাউকে ব্যবহার করতে না দেয়ার অজুহাতে এই বেড়া দিয়েছেন তাহের মন্ডল ও তার ছেলে লালান মন্ডল ।

ভুক্তভোগী জিয়াউর রহমান (জিয়ার) জানান, আমার প্রতিবেশী তাহের মন্ডল প্রায় সাতাশ বছর আগে আমাদের এই জায়গায় আসার জন্য বলে, আমরা প্রথমে আসতে রাজি হয়নি কারণ আমাদের বের হওয়ার রাস্তা নেই বলে, পরক্ষণে তাহের মন্ডল আমাদের রাস্তা দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে এখানে নিয়ে আসে। কিন্তু হঠাৎ সপ্তাহখানেক হলো তার ছেলে লালান মন্ডল রাস্তাটি তারকাটা বেড়া দেয়- এতে আমাদের চরম দুর্ভোগ হচ্ছে আমরা বের হওয়ার রাস্তা পাচ্ছি না।
আমরা প্রশাসনের কাছে এর সুষ্ঠু সমাধানের দাবি জানাচ্ছি।এ ব্যাপারে দৌলতপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাড. এজাজ আহমেদ মামুন বলেন, কারও চলাচলের পথ বন্ধ করা উচিত নয়।

দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তার বলেন, এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নড়াইল থেকে বিপুল পরিমাণ অতিথি পাখি শিকারের সরঞ্জামাদি জব্দ

নড়াইল থেকে বিপুল পরিমাণ অতিথি পাখি শিকারের সরঞ্জামাদি জব্দ

মোঃ আজিজুর বিশ্বাস, ষ্টাফ রিপোর্টার নড়াইলঃ নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার দিঘলিয়া ইউনিয়নের কুমড়ি গ্রাম থেকে ডিবি পুলিশের অভিযানে অতিথি পাখি শিকারের সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয়েছে। 

ডিবি পুলিশ সূত্রে জানা যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুমড়ি গ্রামের মো: তাইজুল মোল্যার বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে প্রচুর পরিমান অতিথি পাখি শিকারের সরঞ্জাম জব্দ করা হয়েছে। যার আনুমানিক মুল্য ২৫ হাজার টাকা। 

ডিবি পুলিশের এসআই মনির বলেন, কুমড়ি গ্রামের অনেক লোক অতিথি পাখি শিকারের সাথে জড়িতো আছে বলে জানা যায়, পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা পালিয়ে যায়।

এরপর তাইজুল মোল্যার বাড়িতে ডিবি পুলিশের এসঅাই মনিরের নেতৃত্বে এএসআই ওবায়দুর, এএসআই জাহিদ সহ সংঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে পাখি শিকারের সরঞ্জাম জব্দ করে নড়াইল জেলা ডিবি অফিসে নিয়ে যায়।

জুড়িতে মন্ত্রীগ্রাঁমে শীতবস্ত্র বিতরন

জুড়িতে মন্ত্রীগ্রাঁমে শীতবস্ত্র বিতরন
 
স্টাফ রিপোর্টারঃ জুড়ী উপজেলার গোয়ালবাড়ী ইউনিয়নের মন্ত্রীগাঁও গ্রাম সামাজিক শক্তি কমিটির উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ  করা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।  (১৫ ডিসেম্বর)  বিকাল ৪ঘটিকায়  মন্ত্রীগ্রাঁমে কয়েছুজ্জামানের সভাপতিত্বে  এবং  রাকেশ বিশ্বাসের পরিচালনায়  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জুড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আল-ইমরান রুহুল ইসলাম।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গোয়ালবাড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শাহাবুদ্দিন আহমেদ লেমন, ইউপি সদস্য মোঃআব্দুল কাদির, মোঃ মোস্তাক খাঁন,অঞ্জলি রাণী নাথ, মোঃকয়সর আহমেদ, আব্দুল আলীম,বিডিসি অরুন কুমার দাস,আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক আনিসুজ্জামান বাবুল, এসটিও-এইচএস এন্ড সিআই মোঃবাবলু মিয়া, শাখা ব্যবস্থাপক লুৎফুর রহমানসহ  এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ । উল্লেখ্য ১৫১ টি হতদরিদ্র  পরিবারের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।

মহান বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবেদার আফতাব উদ্দিন

মহান বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবেদার আফতাব উদ্দিন
বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবেদার আফতাব উদ্দিন

নিউজ ডেস্কঃ ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে সিলেট সহ দেশ-বিদেশে অবস্থানরত সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন সিলেট জেলা  মুক্তিযোদ্ধা র সাবেক সহকারী কামান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবেদার আফতাব উদ্দীন মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক কানাইঘাট উপজেলা আওয়ামীলীগ।

তিনি এক শুভেচ্ছা বার্তায় বলেন,দীর্ঘ নয় মাস রক্তক্ষয়ী লড়াইয়ে লাখো প্রাণের বিনিময়ে ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর অর্জিত হয় আমাদের মহান স্বাধীনতা। আমি দৃঢ় ভাবে বলতে পারি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কারণেই আজকে আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ নামক একটি দেশ পেয়েছি।বিজয়ের দিবসে আমি সকল মুক্তিযোদ্ধাদের জানাই আন্তরিক মুবারকবাদ । করোনার এই পরিস্থিতিতে সবাই নিজ নিজ নিরাপদ অবস্থান থেকে সকল মুক্তিযোদ্ধাদের ভাইরা  করুনা কালীন  নিয়ম কানুন মেনে চলুন

তিনি আরো বলেন,জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশ যে উন্নয়নের অগ্রগতি হচ্ছে তার ইতিহাস সাক্ষী। যেখানে সবাই মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে পদ্মা সেতুর কথা শুনে। কিন্তু আমার নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তা সম্ভব করে দেখিয়েছেন। আজ তা দৃশ্যমান। এটাই হলো শেখ হাসিনা। সবাই প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আস্তা রাখুন তথা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ প্রতি আস্তা রাখুন।

মোংলায় ২৫ কেজি হরিণের মাংসসহ আটক ৪

মোংলায় ২৫ কেজি হরিণের মাংসসহ আটক ৪

মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃ মোংলায় হরিণের মাংসসহ ৪ দুর্বৃত্তকে  আটক করেছে পুলিশ। সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে মোংলার হলদিবুনিয়ার বাইল্লার মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে হরিণের মাংস পাচারকালে তাদেরকে আটক করা হয়।
 
আটককৃতরা হলো জপতোষ মন্ডল (৩৮), টিটু মন্ডল (২৭), নাজমুল মল্লিক (৪৯) ও অনিমেষ মন্ডল (৩৮)। এ সময় তাদের কাছ থেকে ২৫ কেজি হরিণের মাংসসহ তার ব্যবহৃত দুইটি মটর সাইকেল জব্দ করে পুলিশ। আটককৃতদের বাড়ী মোংলা, খুলনা ও গোপালগঞ্জে। 

মোংলা থানার সেকেন্ড অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর আলম জানান, সুন্দরবন থেকে হরিণের মাংস নিয়ে বৌদ্ধমারী বাজার হয়ে মটর সাইকেলযোগে চাঁদপাই ইউনিয়নের হলদিবুনিয়ার বাইল্লার মোড় এলাকায় পৌঁছালে আগ থেকে সেখানে নজরদারীতে থাকা এএসআই সাধন বিশ্বাস ও এএসআই অমিতের নেতৃত্বে তাদের আটক করা হয়।
 
এ ঘটনায় থানার সেকেন্ড অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বাদী হয়ে সুন্দরবনে প্রবেশ করে হরিণ শিকার করে পাচারের চেষ্টায় ১৯২৭ সালের বন আইন (সংশোধনী-২০০০) এর ২৬ (১) (খ) ও (২৬) (১ক) (চ) ধারায় মামলা করেন। পরে আদালতের মাধ্যমে মঙ্গলবার দুপুরে তাদের জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

আশাশুনিতে গৃহ নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক মোস্তফা কামাল

আশাশুনিতে গৃহ নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক মোস্তফা কামাল

আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ আশাশুনিতে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে 'ক' শ্রেণির গৃহহীন ও ভূমিহীন পরিবারদের জন্য গৃহ নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার দক্ষিণ চাপড়া বলফিল্ড এর পাশের্ব ২২টি গৃহের নির্মাণ কাজ পরিদর্শনকালে তিনি গৃহনির্মানের জন্য নির্বাচিত জমি, ভূমিহীন পরিবার ও নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত ইট, বালি, সিমেন্টসহ সরঞ্জামাদি পরিদর্শন করেন। এবং তিনি গৃহ পাওয়া ভূমিহীন পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলেন। সাথে সাথে কাজের গুণগত মান যেন ঠিক থাকে সে ব্যাপারে পরামর্শ ও তাগিদ প্রদান করেন।
 
এছাড়াও ভূমিহীন পরিবারের জন্য এক একটা সিঙ্গার মেশিন দিয়ে তাদেরকে ইনকামের আশ্বাস প্রদান করেন। সর্বশেষ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ইউপি চেয়ারম্যানকে নির্দেশ প্রদান করেন সবাই যেন শীতকালীন সময়ে একটি করে কম্বল পায়। এসময় আশাশুনি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা, সহকারী কমিশানর (ভূমি) শাহীন সুলতানা, 

উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অসীম বরণ চক্রবর্তী, আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ গোলাম কবির, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সোহাগ খান, বুধহাটা ইউপি চেয়ারম্যান আ ব ম মোসাদ্দেক, আশাশুনি সদর ইউপি চেয়ারম্যান স ম সেলিম রেজা মিলন, শ্রীউলা ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা শাকিল, আনুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর আলম লিটন সহ গন্য মান্যব্যাক্তি বর্গ উপস্থিত ছিলেন 

আশাশুনিতে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তা সংস্কারের সমাপনী ও মোড়ক উন্মোচন করলেন স.ম সেলিম রেজা মিলন

আশাশুনিতে আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তা সংস্কারের সমাপনী ও মোড়ক উন্মোচন করলেন স.ম সেলিম রেজা মিলন

আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধিঃ আশাশুনির হাসখালীতে ইউপি চেয়ারম্যান আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তা সংস্কারের কাজ সমাপনী ও মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে।
 
রোববার সকালে উপজেলা সদরের হাসখালী জাতিসংঘের কৃষি ও খাদ্য সংস্থার অর্থায়নে কাজের বিনিময়ে অর্থ প্রকল্পের আওতায় বাংলাদেশ সরকারের কৃষি, মৎস্য ও প্রানী সম্পদ দপ্তরের বাস্তবায়নে এবং সুশিলনের সহযোগীতায় কাজের সমাপনী ও মোড়ক উন্মোচন করেন আশাশুনি সদর ইউপি চেয়ারম্যান স.ম সেলিম রেজা মিলন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন এফএও প্রতিনিধি উত্তম কুমার মজুমদার, জিএম মনিরুজ্জামান, পিএম কাজী তোবারক হোসেন মামুন, এফএস এন্ড এমএ সাবিনা ইয়াসমিনসহ গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। প্রধান অতিথি বাসুদেবের বাড়ী হতে সঞ্জিব বৈরাগী মৎস্য ঘেরের মাথা পর্যন্ত ৬২০ ফুট রাস্তা মাটির কাজ সমাপনী ও মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে।
 
১০ দিন ব্যাপী মাথাপিচু নগদ বিকাশের মাধ্যমে ৩,০৫৬ টাকা চুক্তিতে ৩৮জন মহিলা ও ৮৭ জন পুরুষ উপকারভোগী শ্রমিক কাজ করছেন।সমাপনীকালে প্রধান অতিথি শ্রমিকদের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন।

কালীগঞ্জে ইয়াবা সহ ২ জন আটক করেছে পুলিশ

কালীগঞ্জে ইয়াবা সহ ২ জন আটক করেছে পুলিশ

খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার, খুলনা ব্যুরো প্রধানঃ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার কলাহাট মোড় এলাকা থেকে ইয়াবাসহ ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকালে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলো-কালীগঞ্জ আড়পাড়া এলাকার আব্দুল মাজেদের স্ত্রী লাইজু খাতুন ও ভোলা জেলার শশিভূষন উপজেলার জাহানপুর গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে সাইফুল ইসলাম।
 
কালীগঞ্জ থানার ওসি মোঃ মাহফুজুর রহমান মিয়া জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারে কালীগঞ্জের আড়পাড়া এলাকায় মাদক কেনা-বেচা চলছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে  জানতে পেরে এস আই জাকারিয়া ও এএসআই সাইফুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে একটি ভাড়া বাসা থেকে লাইজু ও সাইফুল ইসলাম নামের ২ জনকে আটক করা হয়। পরে তাদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক উদ্ধার করা হয় ৬৬ পিচ ইয়াবা। আটককৃতরা মাদক ব্যবসায়ী বলে দাবি পুলিশের।

আশাশুনিতে ওয়ারেন্টভূক্ত ১৩ আসামী আটক

আশাশুনিতে ওয়ারেন্টভূক্ত ১৩ আসামী আটক

আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ আশাশুনি থানা পুলিশের অভিযানে ওয়ারেন্টভূক্ত ১৩ জন আসামীকে আটক করা হয়েছে। থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ গোলাম কবির এবং পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ মাহফুজুর রহমান এর নেতৃত্বে সোমবার এসআই ফকির জুয়েল রানা, এসআই গাজী নূর নবী, এসআই নবাব আলী, এসআই জাহাঙ্গীর হোসেন, এএসআই কবির হোসেন, এএসআই দেবাশীষ মন্ডল, এএসআই নাজিম উদ্দীন সঙ্গীয় ফোর্স এর সহায়তায় ওয়ারেন্ট মূলে তাদেরকে নিজ নিজ বাড়ি থেকে আটক করা হয়।
 
আটককৃতরা হলেন, উপজেলার দাদপুর গ্রামের সামছুর বিশ্বাস এর ছেলে আঃ সবুর, কল্যানপুর গ্রামের বাবর আলী মোল্যা ওরফে বাবু মোল্যার ছেলে মতি মোল্যা ও আক্তার মোল্যা, রাজাপুর গ্রামের নুরু ঢালীর ছেলে মনিরুল ঢালী, বেউলা গ্রামের আব্দুল হাকিম সরদারের ছেলে বিল্লাল হোসেন, রামনগর গ্রামের মৃত সত্যরঞ্জন সানার ছেলে প্রনব সানা, পুরোহিতপুর গ্রামের মৃত মোছেল উদ্দীন সরদারের ছেলে ইলিয়াছ সরদার, ইদ্রিস আলী ও সুলতান সরদার, গোদাড়া উত্তরপাড়া এলাকার মৃত বলাই দাস এর ছেলে তারক দাস, শ্রীকলস এপি মানিকখালী চর এলাকার আব্দুর রশিদ মোল্যার ছেলে আব্দুল আলিম মোল্যা, বড়দল গ্রামের মৃত জেহের গাজীর ছেলে হাকিম গাজী এবং সোদকনা গ্রামের বাবর আলী গাজীর ছেলে আলমগীর হোসেন। আটককৃতদেরকে মঙ্গলবার বিচারার্থে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

যশোরে আরো পাঁচ জনের করোনা পজেটিভ

যশোরে আরো পাঁচ জনের করোনা পজেটিভ

সুমন হোসেন ,যশোর জেলা প্রতিনিধিঃ যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) জেনোম সেন্টারের পরীক্ষায় আরো পাঁচ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব শনাক্ত হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের এনএফটি বিভাগের চেয়ারম্যান ও পরীক্ষণ দলের সদস্য ড. শিরিন নিগার জানান, সোমবার রাতে তাদের ল্যাবে সন্দেহভাজন এদিন যশোর জেলার ৪১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ৫টি পজেটিভ রেজাল্ট আসে।পরীক্ষা সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য মঙ্গলবার সকালেই সংশ্লিষ্ট  জেলার সিভিল সার্জনদের কার্যালয়ে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগের হিসেব মতে, সোমবার রাত সাতটা পর্যন্ত যশোর জেলায় মোট চার হাজার ৫৩৬ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে চার হাজার ২১৮ জন ইতিমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন। মারা গেছেন ৫৩ জন।

ভাস্কর্য অবমাননার প্রতিবাদে বাঁকড়ায় বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ

ভাস্কর্য অবমাননার প্রতিবাদে বাঁকড়ায় বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ
ভাস্কর্য অবমাননার প্রতিবাদে বাঁকড়ায় বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ

আব্দুল জব্বার, স্টাফ রিপোর্টার ও ইকরামুল করিম সৈকত ।।কু‌ষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধু ভাস্কর্য ভাঙ্গার প্র‌তিবাদে আজ যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া বাজারে ঐ‌তিহা‌সিক বিক্ষোভ মি‌ছিল ও প্র‌তিবাদ সমাবেশ অনু‌ষ্ঠিত হয়। 

সমাবেশ অনুষ্ঠানে প্রধান অ‌তি‌থি হিসাবে  উপ‌স্থিত থেকে বিক্ষোভ মি‌ছিলে নেতৃত্বদেন, যশোর-২ আসনের সংসদ সদস্য বীরমু‌ক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অবঃ) অধ্যাপক ডাঃ না‌সির উ‌দ্দি‌ন। 

সমাবেশে সভাপ‌তিত্ব করেন ,১১নং বাঁকড়া ইউ‌নি‌য়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নিছার আলী। প্রধান বক্তা হিসাবে উপ‌স্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপ‌তি ভিপি আব্দুস সালাম। 

বিশেষ অ‌তি‌থি হিসাবে উপ‌স্থিত ছিলেন,  উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপ‌তি পৌর মেয়র মোস্তফা আনোয়ার পাশা জামাল, সহসভাপ‌তি চৌধুরী রমজান শরীফ বাদশা ও  উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ম‌নিরুল ইসলাম।

আরোও উপ‌স্থিত ছিলেন, পা‌নিসারা ইউ‌পি  চেয়ারম্যান নও‌শের আলী, মাগুরা ইউ‌পি ‌চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক, ঝিকরগাছা ইউ‌পি  চেয়ারম্যান আ‌মির হোসেন, যশোর জেলা যুবলীগের সহ-সভাপ‌তি আজাহার আলী, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ক‌মি‌টির সদস্য সাজ্জাদুল আলম,র‌ফিকুল ইসলাম বাপ্পী, শামীম রেজা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সে‌লিম রেজা, আব্দুল জব্বার, জা‌ফিরুল হক , জুল‌ফিকার আলী ভু‌ট্টো, শা‌হিদুর রহমান শিপলু, জাহাঙ্গীর আলম, আবু জাফর ম‌নি, ইমামুল হা‌বিব  জগলু, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপ‌তি সামছুর রহমান, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপ‌তি এহসানুল হা‌বিব শিপলু, গঙ্গানন্দপুর ইউ‌নিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আ‌মিনুর রহমান, মাগুরা  ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এ কে এম গিয়াসউ‌দ্দিন, শিমু‌লিয়া  ইউ‌নিয়ন  আওয়ামীলীগ নেতা ত‌রিকুল ইসলাম, ম‌ফিজুর রহমান মেম্বর, গদখালী ইউ‌নিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা শ‌হিদুল ইসলাম খোকন, যুবলীগ নেতা প্রিন্স আহমেদ, পা‌নিসারা  ইউ‌নিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আব্দুল কাদের , আজাহারুল ইসলাম লাবু, নাভারন ইউ‌নিয়নের আওয়ামীলীগ নেতা হারুনর রশীদ  , ঝিকরগাছা  ইউ‌নিয়নের সাধারন সম্পাদক শ‌ফিউ‌দ্দিন , নির্বাস‌খোলা ইউ‌নিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান খাইরুজ্জামান, হা‌জিরবাগ  ইউ‌নি‌য়ন আওয়ামীলীগ নেতা  আব্দুস সাত্তার,  স্বপন খাঁন, সি‌দ্দিক হোসেন, শংকরপুর ইউ‌নিয়ন আওয়ামীলী‌গের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান ধাবক, সাবেক সাধারন সম্পাদক জাহান আলী, বাঁকড়া  ইউ‌নিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা হা‌ফিজুর রহমান,  ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপ‌তি আবুল কালাম আজাদ সহ আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, সর্বস্তরের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।



দিনাজপুর বেসরকারী ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক মালিক সমিতির উদ্যোগে মাননীয় হুইপ ইকবালুর রহিম এমপিকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

দিনাজপুর বেসরকারী ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক মালিক সমিতির উদ্যোগে মাননীয় হুইপ ইকবালুর রহিম এমপিকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

দিনাজপুর প্রতিনিধি : জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ ইকবালুর রহিম এমপিকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানালেন দিনাজপুর বেসরকারী ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ।
 
১৫ ডিসেম্বর মঙ্গলবার সকালে দিনাজপুর শহরের মুন্সীপাড়াস্থ নাজমা রহিম ফাউন্ডেশনে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপিকে দিনাজপুর বেসরকারী ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক মালিক সমিতির সভাপতি সাবেক সিভিল সার্জন ডা: মনসুর আলী ও সাধারন সম্পাদক আতিকুর রহমান নিউ এর নেতৃত্বে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। 
 
ফুলেল শুভেচ্ছা বিনিময়ের পর সংগঠনের নেতৃবৃন্দ মাননীয় হুইপ ইকবালুর রহিমের সাথে সংক্ষিপ্ত কুশল ও মত বিনিময় করেন। এসময় অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ-সভাপতি ডাঃ মমতাজ বেগম পলি, সহ- সভাপতি ডাঃ মোহাম্মদ আলী, সহ- সভাপতি আসাদুর রহমান ভূঁইয়া তপন, সহ- সভাপতি সৈয়দ সোহেল হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো: আকতারুজ্জামান সবুজ, সহ-সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু রায়হান ইভা, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ বজলুর রশীদ বুলু, কোষাধ্যক্ষ মো: আতিকুর রহমান, স্বাস্থ্য সম্পাদক ডাঃ মোঃ আইয়ুব আলী, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সম্পাদক বিশ্বজিৎ কুমার রায়, আইন  বিষয়ক সম্পাদক মোঃ জাকিরুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক মোঃ আবুবকর সিদ্দিক, কার্যনির্বাহী সদস্য  মোঃ তোফায়েল আহমেদ, নুর বিভিন্ন ক্লিনিকের মালিকসহ  অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

তথ্য আপা প্রকল্পের উঠান বৈঠক আজ

তথ্য আপা প্রকল্পের উঠান বৈঠক আজ

আকরাম হোসাইন মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার সদর ইউনিয়নের বিওসি কেছরিগুল এলাকায় বসবাসরত সাওতাল নারীদের নিয়ে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন " তথ্য আপা" প্রকল্পের উঠান বৈঠক আজ অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত উঠান বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার,বড়লেখা মোঃ শামীম আল ইমরান, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ উবায়েদ উল্লাহ খান, সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ সিরাজ উদ্দিন,তথ্য আপা কর্মকর্তা মোছাঃ মাহাবুবা খানম।উঠান বৈঠকে উপস্থিত সাওতাল নারীদের মধ্যে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে প্রাপ্ত শীতবস্ত্র (কম্বল)  ও বিতরণ করা হয়। এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সমতলের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় নির্মানাধীন ঘরের কাজ পরিদর্শন করেন।

বড়লেখায় ২০২১-২২ চক্রের ভিজিডি কর্মসূচি

বড়লেখায় ২০২১-২২ চক্রের ভিজিডি কর্মসূচি



আকরাম হোসাইন মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলায় ২০২১-২২ চক্রের ভিজিডি কর্মসূচির আওতায় উপকারভোগীদের তালিকা যাচাই-বাছাই ও অনুমোদন সংক্রান্ত উপজেলা কমিটির সভা আজ উপজেলা পরিষদ কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বড়লেখা মোঃ শামীম আল ইমরানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় কমিটির উপদেষ্টা ও চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বড়লেখা জনাব সোয়েব আহমেদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

 
আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়েছে। 

সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের আয়োজনে মঙ্গলবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরে প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে উক্ত মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়।

প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক মমতাজ আহমেদ বাপীর সঞ্চালনায় মানবন্ধনে বক্তব্য রাখেন, প্রেসক্লাব সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদ, সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সহ-সভাপতি আধ্যক্ষ আশেক-ই-এলাহি, সিনিয়র সাংবাদিক এড. অরুন ব্যানার্জী, প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বারী, এম. কামরুজ্জামান, সাংবাদিক রামকৃষ্ণ চক্রবর্তী, ফারুক মাহবুবুর রহমান, ইয়ারব হোসেন, সেলিম রেজা মুকুল, আমিনা বিলকিস ময়না, শরিফুল্লাহ কায়সার সুমান, গোলাম সরোয়ার, আবুল কাসেম প্রমুখ।

বক্তারা এ সময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের সাথে জড়িত ও মদদদাতা মৌলবাদী গোষ্ঠীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবী জানান।

জবিতে স্থায়ী নিলাম কমিটি গঠন

জবিতে স্থায়ী নিলাম কমিটি গঠন
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় - উইকিপিডিয়া

জবি প্রতিনিধি: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) বিভিন্ন পুরাতন গাড়ী, গাছপালা, আসবাবপত্র, পত্রিকা, ব্যবহৃত কাগজপত্র গারবেজ ও অন্যান্য অস্থাবর পুরাতন মালামাল নিলামে বিক্রি করার নিমিত্তে প্রক্টর ড. মোস্তফা কামালকে সভাপতি করে স্থায়ী নিলাম কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গত মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) উপাচার্য মহোদয়ের আদেশক্রমে রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মোঃ ওহিদুজ্জামান স্বাক্ষরিত ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

কমিটিতে সদস্য হিসেবে রয়েছেন জবির ছাত্র কল্যাণের পরিচালক ড. মোহাম্মদ আব্দুল বাকী, অর্থ ও হিসাব দপ্তরের পরিচালক কাজী মোঃ নাসির উদ্দীন, পরিবহন পুলের প্রশাসক অধ্যাপক আবদুল্লাহ্-আল্-মাসুদ, প্রকৌশল দপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী মোঃ হেলাল উদ্দিন পাটোয়ারী, রেজিস্ট্রার দপ্তরের সহকারী রেজিস্ট্রার/ডেপুটি রেজিস্ট্রার (এস্টেট শাখা) জনাব মোহাম্মদ কামাল হোসেন সরকার। উক্ত কমিটিতে সদস্য সচিব হিসেবে রয়েছেন পরিকল্পনা, উন্নয়ন ও ওয়ার্কস দপ্তরের উপ-পরিচালক জনাব সৈয়দ আলী আহমেদ।

নওগাঁর আত্রাইয়ে ঐতিহাসিক তিন গুম্বুজ মসজিদ টি দাঁড়িয়ে আছে কালের স্বাক্ষী হয়ে

নওগাঁর আত্রাইয়ে ঐতিহাসিক তিন গুম্বুজ মসজিদ টি দাঁড়িয়ে আছে কালের স্বাক্ষী হয়ে

 
রাজশাহী ব্যুরোঃ নওগাঁর আত্রাইয়ে অবস্থিত তিন গম্বুজ মসজিদটি কালের স্বাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে 
মোগল স্থাপত্যরীতিতে তৈরি নওগাঁর আত্রাইয়ের তিন গুম্বুজ মসজিদটি এখন বিলুপ্তির পথে। সঠিক যত্ন আর রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে কালের গর্ভে হারিয়ে যেতে বসেছে ঐতিহাসিক স্থাপনা মসজিদ টি।
উপজেলার ইসলামগাঁথী গ্রামে অবস্থিত তিন গুম্বুজ মসজিদটি। উপজেলা সদর থেকে প্রায় ৮ কিলোমিটার পূর্বদিকে ঐতিহাসিক গুড় নদীর তীরে গ্রামটি অবস্থিত। এই গ্রামেই রয়েছে শতাধিক বছরের পুরোনো স্থাপনা মসজিদটি। 
কখন কিংবা কে এই স্থাপনা দু'টি নির্মাণ করেছিলেন তার সঠিক কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে জনশ্রুতি রয়েছে রাতারাতি নাকি হঠাৎ করে গড়ে উঠে এই মসজিদটি। 
স্থানীয়রা জানায়, ওই গ্রাম এক সময় নিভৃত একটি জনবসতি ছিল। অতীতে নৌকার বিকল্প কোন যোগাযোগ ব্যবস্থা ছিল না। সেই গ্রামে আজ থেকে শতাধিক বছর আগে গড়ে ওঠে তিন গম্বুজ বিশিষ্ট একটি মসজিদ।
ওই গ্রামের সত্তুর্ধো বয়সী বৃদ্ধ মো. আব্দুস ছাত্তার বলেন, আমরাতো দূরের কথা, আমাদের বাপ-দাদারাও বলতে পারেননি এটি কত সালে স্থাপিত হয়েছে। 
ওই গ্রামের বাসিন্দা আত্রাই কলকাকলী মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ মাজেদুর রহমান বলেন, আমার দাদা ১৯৮০ সালে ১০৩ বছর বয়সে মারা গেছেন। তিনিও বলতে পারেননি এ মসজিদটি কোন সময় তৈরি হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, তবে ইতিহাস পর্যালোচনায় যতদূর জানা যায়, ১৫৭৬ খ্রিষ্টাব্দে মোগল শাসনামলে ইসলাম খাঁ নামে এক ব্যক্তি এই এলাকার শাসনকার্যে নিয়োজিত ছিলেন। ইসলামগাঁথী, ইসলামপুরসহ এ অঞ্চলে বেশ কয়েকটি গ্রাম তার নামানুসারেই করা হয়েছে। ধারণা করা হয় তার আমলেই এ মসজিদটি নির্মাণ করা হয়েছে।
অধ্যক্ষ মাজেদুর রহমান জানান, এসএ এবং আরএস খতিয়ান মূলে ৬ শতক জমির ওপর কালের স্বাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে স্থাপনা মসজিদটি।


ভাস্কর্য ইস্যুতে আলেম-ওলামাদের সঙ্গে আলোচনা চলছে-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ভাস্কর্য ইস্যুতে আলেম-ওলামাদের সঙ্গে আলোচনা চলছে-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিউজ ডেস্কঃ ভাস্কর্য ইস্যুতে আলেম-ওলামাদের সঙ্গে আলোচনা চলছে উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, 'স্পষ্ট করে বলতে চাই, আমরা সংবিধানের বাইরে যাব না। আবার ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করেও কিছু করব না।'

আজ মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রাজধানীর সচিবালয়ে সাংবাদিকদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।আসাদুজ্জামান খান বলেন, আওয়ামী লীগ নতজানু রাজনীতি করে না। আলোচনা শুরু হয়েছে এবং চলবে।

ভাস্কর্য নির্মাণকে কেন্দ্র করে সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের সঙ্গে গতকাল সোমবার রাতে বৈঠক করেন দেশের শীর্ষস্থানীয় আলেমরা। রাত সাড়ে নয়টার দিকে তাঁরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ধানমন্ডির বাসায় যান। মন্ত্রীর সঙ্গে তাঁরা প্রায় এক ঘণ্টা আলোচনা করেন।

বৈঠকে আলেমদের পক্ষে নেতৃত্ব দেন কওমি মাদ্রাসাগুলোর শিক্ষা বোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়ার (বেফাক) সভাপতি মাহমুদুল হাসান। ১২ জন আলেম ওই বৈঠকে অংশ নেন।

আজ আসাদুজ্জামান খান বলেন, 'আলোচনা অনেক দূর এগিয়েছে। যেহেতু আমরা আলোচনা শুরু করেছি, শিগগির এর একটি ফলপ্রসূ ফলাফলও পাবেন। তাঁরা (আলেমরা) যে পাঁচটি প্রস্তাব দিয়েছেন, সেসব নিয়ে আলোচনা চলবে। আমরা ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করব না। আমরা সংবিধানের বাইরে কোনো কিছুই করব না।'

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'আমরা মনে করি, একটা সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। কেউ যেন ভাঙচুর বা আইনশৃঙ্খলা নষ্ট না করে, সে বিষয়ে তাঁরা আমাদের সঙ্গে একমত হয়েছেন। ফেসবুকের অপপ্রচার বন্ধে আমাদের সজাগ হতে বলেছেন। তাঁরা (আলেমরা) বলেছেন, কোনো রকম আন্দোলন তাঁরা করবেন না। তাঁরা পাঁচটি প্রস্তাব আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে শেষ করতে চান।'

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ভাস্কর্যের বিষয়ে আলেম-ওলামাদের সঙ্গে আলোচনা পাঁচ দফা প্রস্তাব অনুযায়ী আলোচনা চলছে। তাঁরা ভাস্কর্যের বিপরীতে মিনার স্থাপনের প্রস্তাব দিয়েছেন। আলেমরা বঙ্গবন্ধুর নামে মিনার স্থাপনের প্রস্তাব করছেন। কী করা হবে, এসব নিয়ে আলোচনা চলছে। এখন পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

ভাস্কর্য সরানো হবে কি না বা নির্মাণকাজ বন্ধ রাখা হবে কি না জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ বিষয় নিয়েও আলোচনা চলছে। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে তো পূজা করা হয় না।বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য করা হয়েছে যাতে প্রজন্মের পর প্রজন্ম তাঁকে স্মরণ করতে পারে।

এর আগে ৫ ডিসেম্বর যাত্রাবাড়ী মাদ্রাসায় কওমি আলেমদের এক সভা থেকে ভাস্কর্যের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনায় বসার প্রস্তাব দেওয়া হয়। এ ছাড়া ১০ ডিসেম্বর একই দাবি জানায় হেফাজতে ইসলাম।

রাজধানীর দোলাইরপাড়ে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের কাজ বন্ধের দাবিতে বেশ কিছুদিন ধরে হেফাজতে ইসলামসহ কয়েকটি ধর্মভিত্তিক সংগঠন আন্দোলন করে আসছে। এর মধ্যে ৪ ডিসেম্বর রাতে কুষ্টিয়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মাণাধীন ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দেশজুড়ে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে।

তথ্যের উৎসঃ প্রথম আলো   


ইলেকটোরাল কলেজের ভোটেও হারল ট্রাম্প

ইলেকটোরাল কলেজের ভোটেও হারল ট্রাম্প

নিউজ ডেস্কঃ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইলেকটোরাল কলেজের ভোটে বিজয়ী হয়েছেন জো বাইডেন। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় সোমবার সন্ধ্যায় ক্যালিফোর্নিয়া তাদের ইলেক্টোরাল ভোটের ফলাফল আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করে। এর মধ্য দিয়ে শেষ হয় ইলেক্টোরাল ভোটের ফলাফল ঘোষণা। বাইডেন পেয়েছেন ৩০৬টি ইলেক্টোরাল কলেজ ভোট ও ট্রাম্প পেয়েছেন ২৩২টি ভোট। 

ইলেক্টোরাল ভোট নিয়ে সাধারণত রাজনৈতিক উত্তাপ থাকে না। তবে এবারের চিত্র আলাদা। ভোট জালিয়াতির অভিযোগ তুলে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করেছেন ট্রাম্প। ট্রাম্প নির্বাচনের ফল না মেনে তা চ্যালেঞ্জ করায় এবার এই ভোট তাৎপর্যপূর্ণ হয়ে ওঠে; রাজ্যে রাজ্যে অনুষ্ঠিত এই ভোটের দিকে চোখ রাখছিলেন সবাই। খবর বিবিসির

যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয় ইলেক্টোরাল কলেজ ভোটের মধ্য দিয়ে। দেশটির ৫০টি রাজ্য ও রাজধানী অঞ্চল ডিস্ট্রিক অব কলাম্বিয়ার ইলেক্টররা ইলেক্টোরাল কলেজ ভোটে অংশ নেন। নাগরিকদের ভোটে যে রাজ্যে যে প্রার্থী জয়ী হন, সেখানকার সব ইলেক্টোরাল কলেজ ভোট তিনি পেয়ে থাকেন। এ হিসাবে জয়-পরাজয় নাগরিকদের ভোটেই নির্ধারণ হয়ে যায়।

ইলেক্টোরাল ভোটে জয়ী হওয়ার পর জাতির উদ্দেশে দেওয়া বক্তৃতায় যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্রকে হুমকির মুখে ফেলা হয়েছিল। এই লড়াইয়ে গণতন্ত্র রক্ষা পেয়েছে, ভীত আরও মজবুত হয়েছে। জনগণের ইচ্ছার জয় হয়েছে। 

বক্তৃতায় বাইডেন বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে রাজনীতিবিদেরা ক্ষমতা গ্রহণ করেন না। জনগণ রাজনীতিবিদদের ক্ষমতা গ্রহণের অনুমোদন দেন। জনগণ ভোট দিয়েছে। প্রতিষ্ঠানের প্রতি আমাদের আস্থা অবিচল রয়েছে। নির্বাচনের গ্রহণযোগ্যতা অটুট রয়েছে।

ইলেক্টোরাল ভোটের আগে নির্বাচনের ফল বানচাল করতে সর্বাত্মক চেষ্টা করেছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জালিয়াতির অভিযোগ তুলে ট্রাম্পের পক্ষে টেক্সাসের অ্যাটর্নি জেনারেল চার রাজ্যের ২০ লাখ ভোট বাতিল করার জন্য সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছিলেন। ট্রাম্পের পক্ষ নিয়ে ওই মামলার নথিতে স্বাক্ষর করেছিলেন রিপাবলিকান পার্টির ১০০ জন আইনপ্রণেতা। বাইডেনের জয় ছিনিয়ে নিতে এটি ছিল ট্রাম্পের শেষ চেষ্টা। তবে সর্বোচ্চ আদালত গত শুক্রবার মামলাটি খারিজ করে দেন। ফলে ট্রাম্পের সর্বশেষ চেষ্টাও ব্যর্থ হয়েছে।


নির্বাচনের ফলাফল পাল্টে দেওয়ার জন্য ট্রাম্পের চেষ্টার কথা উল্লেখ করেন বাইডেন। তিনি বলেন, সুপ্রিম কোর্ট ঐক্যবদ্ধ হয়ে নির্বাচনের ফলাফল পাল্টে দেওয়ার প্রয়াস প্রতিহত করেছেন।তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে অনেক আগে থেকেই গণতন্ত্রের শিখা জ্বলে উঠেছিল। আমরা জানি মহামারী বা ক্ষমতার অপব্যবহারের কিছুই এই শিখা নিভিয়ে দিতে পারে না।বইডেন জনগণের উদ্দেশে বলেন, এখন সময় এসেছে ঘুরে দাঁড়াবার। ইতিহাসে বার বার আমরা এটাই করেছি। এখন সময় একত্রিত হওয়ার।প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে এখনও কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

তথ্যের উৎসঃ সমকাল

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে ঝিকরগাছা পৌর ছাত্রলীগের আলোক প্রজ্জ্বলন কর্মসূচী

শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে ঝিকরগাছা পৌর ছাত্রলীগের আলোক প্রজ্জ্বলন কর্মসূচী


ঝিকরগাছা প্রতিনিধি: জাতীর শ্রেষ্ঠ সন্তান শহীদ বুদ্ধিজীবীদের স্মরণে যশোরের ঝিকরগাছায় আলোক বাতি প্রজ্জ্বলন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

সোমবার ১৪ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় ঝিকরগাছা পৌর ছাত্রলীগের আয়োজনে ঝিকরগাছা উপজেলা মোড় প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধু ম্যুরালে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। আলোকবাতি প্রজ্জ্বলন শেষে শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করা হয়।

ঝিকরগাছা পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তৌফিক আলম কৌশিকের নেতৃত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগ নেতা নাঈমুর রহমান হৃদয়, ইকরামুল করিম সৈকত, হাসিবুর রহমান, জাহিদ হাসান রুবেল, ইমরান হোসেন, আকাশ হোসেন, বিশ্বজিৎ, জয়, প্রসেনজিৎ, যুবলীগ নেতা ফারুক হোসেন, হাদিউজ্জামান মিন্টু, সোহানুর রহমান সুমন প্রমূখ।

কুলাউড়ায় রাউৎগাঁওয়ে মদিনাবাহী কাফেলার কমিটি গঠন সম্পন্ন

কুলাউড়ায় রাউৎগাঁওয়ে মদিনাবাহী কাফেলার কমিটি গঠন সম্পন্ন



মোঃরেজাউল ইসলাম শাফি,কুলাউড়া উপজেলা প্রতিনিধিঃকুলাউড়া উপজেলার রাউৎগাঁও ইউনিয়নের চৌধুরী বাজারে  একটি ইসলামিক সামাজিক সংগঠন  মদিনাবাহী কাফেলার গঠনের লক্ষে গত ২ রা ডিসেম্বর সন্ধ্যায় এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মোঃ আব্দুস সালামের সভাপতিত্বে  ও মোঃ জয়নুল ইসলামের পরিচালনায়  মতবিনিময় সভায় সকলের আলোচনা সাপেক্ষে মোঃ আব্দুস ছালাম কে সভাপতি  ও  মোহাম্মদ তাজুল ইসলামকে সাধারণ সম্পাদক করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটিতে অন্যন্যারা হলে  সহ সভাপতি মাও কাজী সৈয়দ লিয়াকত আলী, হাফিজ ইন্তাজ আলী,মাও ফয়জুর রহমান,হাফিজ মোঃ আব্দুল বাছিত,কারী আশিকুর রহমান মোঃ তফজ্জুল আলী, মোঃসুন্দর আলী। সহ সাধারণ সম্পাদক হাফিজ মোঃআজিজুর রহমান , সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজ মোঃআব্বাছ আলী , সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম জুয়েল ,  অর্থ সম্পাদক মোঃ জয়নুল ইসলাম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুল আজিজ শামীম , সহ প্রচার সম্পাদক  সৈয়দ আব্বাছ আলী ,মোঃ আক্তার হোসেন কে সমাজ কল্যাণ সম্পাদক,দুলাল আহমদ কে সহ সামাজ কল্যাণ সম্পাদক।শিপন আহমদ  অফিস সম্পাদক।হাসান আহমদ  সহ অফিস সম্পাদক।মোঃ সারওয়ার হোসেন রাজু  ইসলামিক সাংস্কৃতিক সম্পাদক।ইমাদ উদ্দীন  সহ ইসলামিক সাংস্কৃতিক সম্পাদক। মাও মোঃ ইকবাল হোসেন  প্রশিক্ষন সম্পাদক মোঃ আব্দুল কাইয়ূম কে সহ প্রশিক্ষন সম্পাদক। হাফিজ রুহুল আহমদ,হাফিজ বুরহান উদ্দীন,মোঃ পারভেজ আহমদ,আজারুল ইসলাম সেনা,হাফিজ সাজিদ আলী, হাফিজ তায়েফ আহমদ, সিপন আহমদ,মোঃ আকবর আলী  প্রমুখ উল্লেখ্য আগামী তিন বছরের জন্য  কার্যকরী কমিটি গঠন করা হয়েছে।

নড়াইলে দীর্ঘ ৩৪ বছর পর সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার

নড়াইলে দীর্ঘ ৩৪ বছর পর সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার



মো: আজিজুর বিশ্বাস ষ্টাফ রিপোর্টার নড়াইলঃলোহাগড়া থানায় মামলা হওয়ার পর দীর্ঘ ৩৪ বছর পলাতক থাকার পর সাজাপ্রাপ্ত আসামীকে সুকৌশলে গ্রেফতার করেছে লোহাগড়া থানা পুলিশ। 


লোহাগড়া থানা সূত্রে জানা যায়, ঢাকার টঙ্গী থানার ১৯৮৬ সালের জুন মাসের ১৫ নং মামলার আসামী মোঃ নুরুল ইসলাম, পিতা- মোঃ রাইজেল মোল্যা, সাং- মাকড়াইল, থানা- লোহাগড়া, জেলা- নড়াইল কে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ২ মাস আসামীর প্রতি গভীর পর্যবেক্ষণ করে নিশ্চিত হওয়ার পর উক্ত সাজাপ্রাপ্ত আসামীকে গ্রেফতার করেছে লোহাগড়া থানার পুলিশের এসআই মোঃ মাহফুজুল হক।


 উক্ত আসামী মামলা হওয়ার পর থেকেই ঢাকা থেকে পালিয়ে নিজ এলাকায় না এসে দেশের বিভিন্ন এলাকা নাম পরিচয় গোপন করে পেশা পরিবর্তন করে নানান পেশায় জড়িত ছিলো বলে জানা যায়।

 আদালতে আসামীর অনুপস্থিতিতে গাজীপুরের ১ম শ্রেনীর আদালত এর বিচারক জনাব শশি কুমার সিংহ, ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ড, এবং ০২(দুই) হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ০৩(তিন) মাস কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন।আসামী ঢাকার একটি সিরামিক কারখানায় চাকুরিরত অবস্থায় চাকর কর্তৃক অপরাধমূলক বিশ্বাস ভঙ্গের অপরাধে পেনাল কোডের ৪০৮ ধারার অপরাধ করেছে মর্মে বিচারক জানায়। 

আসামী দীর্ঘ দিন মাগুরা জেলার জাগলা বাজার এলকারা বড়খড়ি গ্রামে বিয়ে করে ব্যবসা বানিজ্য করে আসছিল। 

নড়াইল জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দীন পিপিএম(বার) এর নির্দেশক্রমে এবং অফিসার ইনচার্জ লোহাগড়া থানার সৈয়দ অাশিকুর রহমান, এর সহযোগীতায় উক্ত আসামীকে গ্রেফতার করে এসআই মোঃ মাহফুজুল হক। এ বিষয়ে এসআই মোঃ মাহফুজুল হক জানান, গ্রেফতার করে লোহাগড়া থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।