আশাশুনির দয়ারঘাট-জেলেখালি ভাঙ্গনকৃত পাউবো’র বেড়ীবাঁধ নির্মানে হতাশায় ভূক্তভোগী এলাকাবাসি

আহসান   উল্লাহ বাবলু,  আশাশুনি সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ আশাশুনির দয়ারঘাট-জেলেখালি ঘুর্ণিঝড় আম্পানে পাউবো'র বেড়ীবঁাধ ভেঙ্গে এলাকা প্লাবিত হওয়া নির্মান কাজ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে হতাশার অন্ত নেই। আর কত মাস গেলে বাঁধের নির্মান কাজ করা হবে ? এমন ধুয়াশায় মধ্যে থেকে এ প্রশ্নের জবাব কারো জানা নেই। আশাশুনি সদরের দয়ারঘাট-জেলেখালি বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে এলাকা প্লাবিত হয়েছে ৬ মাস পূর্বে। দীর্ঘ ৬ মাসে নদীর জোয়ার ভাটার তোড়ে এলাকার মানুষের নাভিঃশ্বাস উঠেছে। তাদের চরম দুরাবস্থা দেখলে শান্তনা দেয়ার কোন ভাষা খুঁজে পাওয়া যায় না। বিগত ৬ মাসের মধ্যে অনেক উর্দ্ধতন কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শন করেছেন। সবাই দ্রুত বাঁধ রক্ষার কাজ করা হবে বলে আশ্বাসের বাণী শুনিয়ে চলেছেন। আশ্বাসের বাণী শুনতে শুনতে মানুষের মনে কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি ও সংশ্লিষ্টদের প্রতি মানুষের ভিন্নরূপ ধারনার সৃষ্টি হয়েছে। আসলে আর কত মাস পরে নির্মান কাজ করা হবে এনিয়ে হতাশার অন্ত নেই। বাঁধ নির্মানের লক্ষণ না দেখে এবং কর্তৃপক্ষের বড় বড় বুলির ঝলকানি নামক আশ্বাসকে এলাকার ভুক্তভোগিরা তামাশা বলে আখ্যায়িত করছেন। তাদের বিতশ্রদ্ধ প্রশ্ন, এহেন তামাশা বন্ধ হবে কবে ? তারা আর আশ্বাস, প্রতিশ্রুতি বা শান্তনার গল্প শুনতে চায়না, তারা বাস্তবে কাজ দেখতে প্রত্যাশী। বিষয়টি আমলে নিয়ে দ্রুত বঁাধ নির্মান কাজ করার জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট