আদিতমারী উপজেলায় আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেলো কৃষকের ৬টি ঘর

রিপন, লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ
লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলায় আগুনে পুড়ে ছাই হয়েছে কৃষকের ৬টি ঘর। আসবাবপত্র সড়াতে গিয়ে আরফিনা বেগম (২৮) নামে এক  গৃহবধূ দগ্ধ হয়েছেন।

গতকাল শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) দিবাগত মধ্যরাতে আদিতমারী উপজেলার পলাশী ইউনিয়নের মহিষাশহর গ্রামের কৃষক আমিনুর রহমানের বাড়িতে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। দগ্ধ গৃহবধূ আরফিনা তার পুত্রবধূ।
ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা জানান, মধ্যরাতে হঠাৎ কৃষক আমিনুর রহমানের বাড়ির একটি ঘরে আগুন লাগে। মুহুর্তে তা পুরো বাড়িতে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে আদিতমারী উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রহনা দিলেও ঘনকুয়াশার কারনে অর্ধপথ থেকে ফিরে আসেন। পরিবারের লোকজনের আত্মচিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে ৪০মিনিটের অধিক সময় চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেন। আগুন থেকে ঘরে আসবাবপত্র সড়াতে গিয়ে গৃহবধূ আরফিনার বাম হাত পুড়ে যায়। তাকে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকদের মাধ্যমে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ অগ্নিকান্ডে কৃষক আমিনুর রহমানের ৬টি ঘর, ১টি গরু, ৫টি ছাগল, ধান, চালসহ নগদ অর্থ পুড়ে ছাই হয়েছে। এতে প্রায় ৩লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেন ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার। বিদ্যুতের সর্টসার্কিট থেকে আগুনের সুত্রপাত বলে ধারনা করছেন স্থানীয়রা।

আদিতমারী উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের টিম লিডার হাবিলদার আব্দুর রহমান বলেন, ঘন কুয়াশার কারনে সময়মত ঘটনাস্থলে গাড়ি পৌছতে পারেনি। এরই মধ্যে স্থানীয়রা আগুন নিয়ন্ত্রণ করেছেন বলে মোবাইলে নিশ্চিত করায় ঘটনাস্থলে যাওয়া হয়নি। তাই ক্ষয়ক্ষতির পরিমানও জানা যায়নি।
আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন বলেন, অগ্নিকান্ডে কৃষকের গরু-ছাগলসহ সবকিছু পুড়েছে বলে জেনেছি। ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে দ্রুত টিন ও শীতবস্ত্রসহ আনুসঙ্গিক সহায়তা দেয়া হবে।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট