পটিয়ায় দ্বিতীয় বাইপাস সড়ক নির্মাণের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

পটিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ- পটিয়া বাইপাস সড়কের ৫০ ফুট দূরত্বে দ্বিতীয় আরেকটি বাইপাস সড়ক নির্মাণের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে এলাকাবাসী।গতকাল (সোমাবার) সকাল ৯টায় বাইপাস সড়কের গিরি চৌধুরী বাজার প্রবেশ মুখে কচুয়াই গ্রামের প্রায় দুই শতাধিক হিন্দু সংখ্যালঘু পরিবারের সদস্য ও মুসলিম নারী-পুরুষেরা এই মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করে। মানববন্ধন কর্মসূচীর পাশাপাশি বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন কচুয়াই ইউনিয়ন আ'লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক উৎপল সরকার রাজু, এডভোকেট উত্তম কুমার দে, শিক্ষক বাবুল ভট্টাচার্য্য, ইউ,পি সদস্য বাবু সুনীল দে, মানববন্ধন সমন্বয়কারী কিশোর কুমার দে, বিপ্লব দে প্রমুখ।
সমাবেশে বক্তারা বলেন, পটিয়ায় প্রথমে যে বাইপাস সড়ক নির্মাণ করা হয় তাতে শতাধিক মানুষ ভিটে বাড়ী হারিয়েছে। উচ্ছেদ হয়েছে অনেকগুলো মসজিদ, মন্দির। যানজট ও দুর্ঘটনা নিরসনের লক্ষ্যে বাইপাস নির্মাণ করা হলেও প্রকৃত পক্ষে দুর্ঘটনা আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নের স্বার্থে এলাকার লোকজন ভিটে বাড়ী হারিয়ে তাদের অপূরণীয় ক্ষতি মেনে নিলেও পাশাপাশি কচুয়াই গ্রামের উপর দিয়ে জাইকা আরেকটি বাইপাস সড়ক নির্মাণ করলে শত বৎসরের পৈত্রিক বসত ভিটা হারিয়ে দুই শতাধিক পরিবার নিঃস্ব হয়ে যাবে। সেই সাথে অনেক গুলো মসজিদ, মন্দির, কবরস্থান, শ্মশান ধ্বংস হবে।
কচুয়াই ইউনিয়ন আ'লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক উৎপল সরকার রাজু বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়নের রোল মডেল। কিন্তু একটি স্বার্থন্বেষী কুচক্রী মহল তাদের আর্থিক ফায়দা লুঠার জন্য সরকারকে ভুল সিদ্ধান্ত দিয়ে জনগণ ও সরকারের লোকসান জনক কার্যক্রম চালাচ্ছে। তিনি পটিয়ার পুরাতন সড়কে সওজের জায়গা উদ্ধার করে সেখানে সড়ক উন্নয়নের দাবী জানান। এছাড়া নিরীহ সংখ্যালঘু লোকদের পৈতৃক বাড়ী ভিটা হারানো থেকে রক্ষা করার জন্য জননেত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।


শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট