ঝিকরগাছায় জায়গাজমি নিয়ে সংঘাতে থানায় অভিযোগ

আফজাল হোসেন চাঁদ : যশোরের ঝিকরগাছা পৌরসদরের পুরন্দুরপুর রিফুজীপাড়া গ্রামের জায়গাজমি ও পারিবারিক সংঘাত নিয়ে জাহাঙ্গীর হোসেন (৫৫) নামের একব্যক্তি ৬জনকে বিবাদী করে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে। অভিযোগে আসামীরা হল, পৌরসদরের পুরন্দুরপুর রিফুজীপাড়া গ্রামের মৃত আইজেল গাইনের ছেলে জালাল গাইন (৫০), সালাম গাইন(৪৬) ও বাবলু গাইন(৫৫), জালাল গাইনের ছেলে জনি(১৮),  জালাল গাইনের স্ত্রী মোছাঃ সেলিনা(৪২) এবং সালাম গাইনের স্ত্রী মোছাঃ শম্পা(৪০)।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বিবাদীদের সহিত বাদীর জায়গাজমি ও পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ বিরোধ চলে আসছে। এমতাবস্থায় গত ১ফেব্রুয়ারি সকাল অনুমান ১০টার সময় উক্ত বিবাদীগন হাতে গাছিদা, লোহার রড, বাঁশের লাঠিসোঠায় সজ্জিত হয়ে পূর্বের বিরোধের জের ধরে বে-আইনি জনতাবদ্ধে বাদীর বসত বাড়ির আঙিনায় অনধিকার প্রবেশ করে বাদীকে অহেতুক অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। বাদী, বিবাদীদের গালিগালাজ করতে নিষেধ করায় ৩নং বিবাদী হুকুমে ১নং বিবাদী গাছিদা দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে সজোরে কোপ মেরে গুরুত্বর কাটা রক্তাক্ত জখম করে। বাদীর কোলে থাকা বাদীর ৪বছরের মেয়ে সামিয়া খাতুনকে জোরপূর্বক কোল থেকে নিয়ে মাটিতে ফেলে দেয়। ২নং বিবাদী লোহার রড দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে বাদীর মাথায় আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে। তখন বাদী মাটিতে পড়ে গেলে ২,৩,৪,৫ও ৬নং বিবাদীগন লোহার রড, বাশের লাঠিসোঠা দিয়ে বাদীকে এলোপাতাড়ি ভাবে মারপিট করে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় নীলাফোলা রক্তাক্ত জখম করে। মারপিটের এক পর্যায়ে ৪নং বিবাদী, বাদীর পরিহিত প্যান্টের পকেটে নগদ ৫০ হাজার টাকার জোরপূর্বক নিয়ে নেয়। তখন বাদীর ডাক-চিৎকারে বাদীর স্ত্রী ও সাক্ষীগণসহ আশেপাশের লোকজন আগিয়ে আসলে বিবাদীগণ বাদীকে প্রকাশ্য জীবননাশের বিভিন্ন ধরনের হুমকি ধামকি ভয়ভীতি প্রদর্শন করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। বর্তমানে বাদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসারত অবস্থায় আছে। এ বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুর রাজ্জাক জানান, ঘটনার বিষয়ে আমার নিকট একটি লিখিত অভিযোগ এসেছে। ঘটনার বিষয়ে তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট