সরকারি ফি’তে মিলছে না জন্ম সনদ দূর্নীতি করতে গিয়ে হাতে নাতে ধরা খেলেন চেয়ারম্যান

লালমনিরহাট আঞ্চলিক প্রতিনিধিঃ শিশুর জন্ম থেকে ৪৫ দিন পর্যন্ত সরকারি নিয়মানুয়ী জন্ম নিবন্ধনের কোন ফি নেওয়া হয়না। তবে শিশুর ৫ বছর পর্যন্ত ও উপরে সব বয়সীদের ৫০ টাকা ফি নেয়ার নিয়ম করে দিয়েছে সরকার। তবে সরকারের এই নিয়ম মানা হচ্ছেনা লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার ৪ নং দলগ্রাম ইউনিয়নে আর সেই সরকারি ফি'তে মিলছে না জন্ম সনদ ''দূর্নীতি করতে গিয়ে সাংবাদিকের হাতে নাতে ধরা খেলেন চেয়ারম্যান ''
সেখানকার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সরকারি নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে নিজেই নতুন নিয়ম করে প্রতি জন্মনিবন্ধনে ২০০ থেকে ৫০০ টাকা পর্যন্ত ফি আদায় করছেন। অভিযোগ ভুক্তভোগীসহ স্থানীয়দের।

দলগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদ সরেজমিনে গিয়ে এমন অভিযোগের সত্যতাও পাওয়া গেছে। জন্মনিবন্ধন করতে আসা ব্যক্তিদের নিকট নেয়া হচ্ছে দুই থেকে পাঁচশত টাকা এবং রসিদ দেয়া হচ্ছে ৫০ টাকার। ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা নিয়ে ৫০ টাকার রসিদ দেয়া হচ্ছে এমন অভিযোগ চেয়ারম্যানকে করলে তিনি সাথে সাথে রসিদের অপর পৃষ্ঠায় বিভিন্ন খাত দেখিয়ে মিলিয়ে দেন বাড়তি টাকার হিসেব।
অত্র ইউনিয়নের উত্তর দলগ্রাম পাটওয়ারীটারী এলাকার ২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা মৃত্যু ছফর উদ্দিনের ছেলে ছকমল হোসেন তার বাচ্চার জন্মনিবন্ধনের জন্য আসলে উপস্থিত সাংবাদিকদের সামনে চেয়ারম্যান রবিন্দ্রনাথ বর্মন ওই ব্যাক্তির নিকট জন্মনিবন্ধনের জন্য সাড়ে ৩ শত টাকা দাবি করেন।

অত্র ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের আর এক বাসিন্দা জানান, বাচ্চার জন্মনিবন্ধন ২৫০ টাকা দিয়ে নিয়েছি। তবে রসিদ দিয়েছে ৫০ টাকার।সোমবার ১ ফেব্রুয়ারী ৩ নং ওয়ার্ডের মানসিক ভারসাম্যহীন আতিয়ার রহমানের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম সাংবাদিকদের বলেন দুইটি জন্মনিবন্ধনের জন্য ৭০০ টাকা নিয়েছে।
শুধু তাই নয় সরকারি নিয়ম উপেক্ষা করে ইউপি চেয়ারম্যান জন্মনিবন্ধন সনদে অতিরিক্ত ফি আদায় করেন বলে জন্ম নিবন্ধন নিতে আসা অনেকেই জানান।
ইউপি চেয়ারম্যান রবিন্দ্রনাথ বর্মনের নিকট জানতে চাইলে তিনি অতিরিক্ত ফি নেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে জানান, সবমিলিয়ে প্রতি জন্মনিবন্ধন ফি ১৫০ টাকা নেয়া হচ্ছে।
এ বিষয় লালমনিরহাট জেলাপ্রশাসক আবু জাফর বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্তের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার কে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট