নোবিপ্রবিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মদিন এবং জাতীয় শিশু দিবস উদযাপিত

নোবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ আজ বুধবার (১৭ মার্চ ২০২১) নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মদিন এবং জাতীয় শিশু দিবস পালন করা হয়।  কর্মসূচিসমূহের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল কেক কাটা, র‌্যালি, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন। এদিন পথ শিশুদের জন্য ছিল বিশেষ আয়োজন, যথা ; মুক্তিযুদ্ধের শিশুতোষ চলচ্চিত্র প্রদর্শন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, দুপুরের খাবার পরিবেশন। 
উল্লেখ্য, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ দিদার-উল-আলম সম্প্রতি করোনা পজিটিভ হয়েছেন। তাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে তিনি সরাসরি উপস্থিত থাকতে না পারলেও দিবসটি উপলক্ষ্যে বাণী প্রদান করেন। এতে তিনি জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের পাশাপাশি অনুষ্ঠানের সাফল্য কামনা করেছেন।
এদিন (১৭ মার্চ ২০২১) সকাল ১০ টায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনিক ভবনের সামনে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে দিবসের কর্মসূচি শুরু হয়। জাতীয় সংগীত পরিবেশন শেষে বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ফারুক উদ্দিন। এসময় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মদিনের কেক কাটা হয়।  অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর, সাধারণ সম্পাদক মোঃ মজনুর রহমান, আইআইএস-এর পরিচালক ড. ফিরোজ আহমেদ, নোবিপ্রবির রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) মো. জসীম উদ্দিন, অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মেজবা উদ্দিন, শিক্ষক সমিতি ও অফিসার্স এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ, ছাত্র-শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ। উদ্বোধন শেষে নোবিপ্রবিতে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ফারুক উদ্দিনের নেতৃত্বে র‌্যালিটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালি শেষে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ, ইনস্টিটিউট, বিভাগ, হল, শিক্ষক সমিতি, অফিসার্স এসোসিয়েশন, কর্মচারীবৃন্দ এবং নোবিপ্রবির ছাত্র-ছাত্রীদের পক্ষ হতে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এরপর বীরমুক্তিযোদ্ধা হাজী মোহাম্মদ ইদ্রিছ অডিটোরিয়ামে পথ শিশুদের নিয়ে "আমার বন্ধু রাশেদ" চলচ্চিত্রটি প্রদর্শন করা হয়। চলচ্চিত্র প্রদর্শন শেষে দুপুর ১২.৩০ মিনিটে পথ শিশুদের দুপুরের খাবারের আয়োজন করা হয়। বাদ যোহর নোবিপ্রবি কেন্দ্রীয় মসজিদে মিলাদ ও দোয়ার আয়োজন করা হয়। সবশেষে বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী মোহাম্মদ ইদ্রিছ অডিটোরিয়ামে পথ শিশুদের নিয়ে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়।

উল্লেখ্য, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১তম জন্মদিন এবং জাতীয় শিশু দিবস ২০২১ উপলক্ষ্যে রাত ১২.০১ মিনিটে নোবিপ্রবির গোলচত্বরে আতশবাজি উৎসবের আয়োজন করা হয় এবং বর্ণিল আলোকসজ্জায় সাজানো হয় নোবিপ্রবি।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট