সুবিধাবঞ্চিত প্রবীণদের নিয়ে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন করল নোবিপ্রবি নীল দল

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি: মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের প্রত্যক্ষদর্শী সুবিধাবঞ্চিত প্রবীণদের নিয়ে বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন করেছে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, বাঙালি জাতিয়তাবাদ ও মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী অসাম্প্রদায়িক শিক্ষা দর্শনে লালিত শিক্ষক সংগঠন নীল দল, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(নোবিপ্রবি)। 

আজ বৃহস্পতিবার(২৫ মার্চ) বিকেলে নোয়াখালীর মাইজদীতে অবস্থিত  'টিসিএম হালিমা-মাহমুদা স্বপ্ন কুঞ্জ' প্রাঙ্গণে এ অনুষ্ঠান হয়। অনুষ্ঠানের অতিথিরা কুঞ্জের সুবিধাবঞ্চিত প্রবীণদের মাঝে স্বাধীনতার সুবর্ণ শুভেচ্ছা উপহার হিসেবে ফুল ও পরিধেয় বস্ত্র দিয়ে স্বাগত জানান এবং প্রবীণদের সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজে অংশগ্রহণ করেন।

মধ্যাহ্নভোজ শেষে টিএসএম হালিমা-মাহমুদা স্বপ্ন কুঞ্জ  কর্তৃপক্ষ প্রবীণদের নিয়ে তাদের  কর্মকাণ্ডের উপর ডকুমেন্টারির প্রদর্শন করেন। এসময় কয়েকজন প্রবীণ 
 মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে তাদের স্মৃতিচারণ করেন। পরে নোবিপ্রবি নীলদলের সভাপতি ড. ফিরোজ আহমেদের সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো.  ফারুক উদ্দিন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাবিপ্রবি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ শিক্ষক পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ড. আব্দুল গণি, নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি  প্রফেসর ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর, সাধারণ সম্পাদক মো: মজনুর রহমান, এবং নীল দলের  উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য ও ফার্মেসি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মো সেলিম হোসেন। নোবিপ্রবি নীল দলের কোষাধ্যক্ষ মো. ইফতেখার পারভেজ সঞ্চালনায় আলোচনাসভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন নীল দলের সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব মল্লিক। আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নীল দল  নোবিপ্রবির উপদেষ্ঠামন্ডলী, বিভিন্ন অনুষদের সদস্য ও কার্যকরী কমিটির সদস্যরা। পরে 'টিসিএম হালিমা-মাহমুদা স্বপ্ন কুঞ্জ'র ব্যতিক্রমী মানবিক উদ্যোগের জন্য নোবিপ্রবি নীল দলের পক্ষ থেকে বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে
টিসিএম হালিমা-মাহমুদা স্বপ্ন কুঞ্জ প্রকল্পের  ব্যবস্থাপক মো. এমদাদুর রশিদ চৌধুরীকে সম্মাননা স্মারক প্রদানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শেষ হয়।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট