মানবিক কাজে মানবতার ফেরিওয়ালাদের ধারাবাহিকতা বজায়

এস.এম অলিউল্লাহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের মিরপুর গ্রামের পাচঁটি  অসহায় ও হতদরিদ্র পরিবারকে চিকিৎসা  বাবদ ব্যয় ও নিজেকে স্বাবলম্বী করার জন্য নগদ টাকা ও সেলাই মেশিন প্রদান করল মিরপুর প্রবাসী মানব কল্যাণ পরিষদ।আজ শুক্রবার(২৩/৪)দশম রোজার দিনকে মানবতার কাজের মাধ্যমে পূণ্যময় করে রাখার লক্ষ্যে মিরপুর পীর পুকুরপাড় ঈদগাহ মাঠে জুমার নামাজ শেষে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে উক্ত অসহায় পাঁচটি পরিবারের মাঝে নগদ ৪০০০০ হাজার টাকা ও একটি সেলাইমেশিন প্রদান করে মানবতার ফেরিওয়ালাদের মানবিক কাজে ধারাবাহিকতা বজায় রাখল আলোচিত এই সংগঠনটি।দেশে লকডাউন ও করোনায় বিপর্যস্ত অবস্থায় তাদের এই মানবিক কার্যক্রমের এলাকায় চায়ের টেবিলে প্রশংসায় জোয়াড়ে ভাসছে।

নগদ টাকা প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির বাংলাদেশ শাখার সভাপতি মোস্তাক আহমেদ ম্যানেজার,অন্যতম সদস্য মোঃমুসলেম উদ্দীন,হাজী জিল্লুর রহমান,মোঃ খুশরুজ্জামান ব্যাপারী, ক্যাশিয়ার মোঃআবু আক্কাছ,শাহাদাৎ হোসেন শাহীন মাষ্টার,মোঃ মনির হোসেন মাষ্টার,সদস্য উত্তম চন্দ্র সরকার (মাষ্টার),অন্যতম সদস্য ডাক্তার মোজাম্মেল সরকার,কার্যনির্বাহী সদস্য আবু রাশেদ সরকার,মোঃসুহেল মিয়া সহ সংগঠনের সকল সদস্যবৃন্দ।

এদিকে সংগঠনের প্রবাসী শাখার সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাধন এক ভিডিও বার্তায় বলেন,"অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষদের পাশে থাকার জন্যে আমাদের এ ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।দেশে আমাদের এই কার্যক্রমকে যারা সহায়তা করে যাচ্ছে তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।আমরা প্রবাসীরা মানবতার কাজের মধ্যে নিজেদেরকে সবসময় সম্পৃক্ত রাখতে চাই। "

আরেক ভিডিও বার্তায় সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা আমেরিকা প্রবাসী জয়দিল হোসেন বলেন,অসহায় মানুষগুলো আমাদের এই সমাজেরই ফলে তাদেরকে স্বাবলম্বী ও কর্মসংস্থান করানোর দায়িত্ব আমাদের।আমাদের সংগঠন সবসময় অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষের পাশে থেকে তাদেরকে সমাজের মূল ধারায় ফিরিয়ে নিয়ে আসার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছি।

উল্লেখ্য,মিরপুর প্রবাসী মানব কল্যাণ পরিষদ  গত করোনা মহামারি তে প্রতিষ্ঠার পর থেকে গ্রামে বিভিন্ন মানবিক কাজে এখন পর্যন্ত বিভিন্নভাবে প্রায় ৯০০০০০(নয় লক্ষ)টাকার অনুদান দেওয়া হয়।

নির্দেশনায় ছিলেনঃ মোঃ আনোয়ার হোসেন সরকার (কার্য নির্বাহী প্রধান)মোঃ শাহীন আলম (সাধারণ সম্পাদক)মোঃ আরিফ হোসেন বেপারী (সাংগঠনিক সম্পাদক)। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন বেনজির আহাম্মেদ বাদল,হাজী আঃ রহিম,বাবুল সরকার,হাজী আলমগীর, নাছির সরকার,হাজী মনির সরকার,হাজী শামসুল হক,বাছির সরকার,শাহাবুদ্দিন সরকার,ওবায়দুল ,মাহবুব রনি, জহির,মহিউদ্দিন, প্রচার সম্পাদক এমরান,ছাইদুল সরকার

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট