গুলবাগপুর (বেলে দাড়ি) গ্রামের সুইচগেট ও খাল খনন প্রকল্পের নামে জমি জবর দখলের অভিযোগ!

স্টাফ রিপোর্টার: গুলবাগপুর (বেলেদাড়ি) গ্রামের সুইচগেট ও খাল খনন প্রকল্পের নামে জমি জবর দখলের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনা  সূত্রে জানা যায় যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলার ১নং গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নের গুলবাগপুর (বেলে দাড়ি) গ্রামের ব্রিজের উপর সুইচগেট ও খাল খনন প্রকল্পের নামে জমির জবরদখলের অভিযোগ এনে আজ (৭ ই এপ্রিল)   নির্বাহী প্রকৌশলী যশোর এর বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন উক্ত প্রকল্পের আওতাধীন জমির প্রকৃত মালিকগণ।

উক্ত অভিযোগনামায় লিখিতভাবে বলা হয় (অভিযোগ এর কপি)

জনাব,  যথাবিহিত সম্মান প্রদর্শনপূর্বক বিনীত নিবেদন এই যে ,আমরা নিম্নস্বাক্ষরকারী ব্যক্তিবর্গ, যশোর জেলার ,ঝিকরগাছা উপজেলাধীন ১নং গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নের গুলবাগপুর গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা। সম্প্রতি আপনার অধীনে গুলবাগপুর গ্রামের উত্তরপাড়া (বেলেদাড়ি) কপোতাক্ষ নদের সাথে সংযুক্ত খালের ব্রিজে স্লুইস গেটসহ খাল খনন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। প্রকৃতপক্ষে গুলবাগপুর মৌজার, ১৫৪ ও ১৫৫ দাগে উল্লেখিত জমির মালিক আমরা নিম্নস্বাক্ষরকারী ব্যক্তিবর্গ । এই ব্রিজের উত্তর দক্ষিণ পাশের সকল জমির মালিক আমরা নিম্ন স্বাক্ষরকারীগণ । উল্লেখ্য যে উক্ত জমির মালিক আমরা হওয়া সত্বেও আমাদের অজান্তে কে বা কাহারা আমাদের নাম ও স্বাক্ষর জাল করে উক্ত প্রকল্প বাস্তবায়নকল্পে একটি সমিতি গঠন পূর্বক মিথ্যা অঙ্গীকারনামা ও উক্ত জমির মালিক সেজে আমাদের সাথে জাল-জালিয়াতি করে বর্ণিত জমি জবর দখলের চেষ্টা করছে। প্রকৃতপক্ষে এখানে কোন সরকারি খালের নামে বা খালের জমির নামে কোন জমি নাই । সকল জমির মালিক আমরা নিম্ন স্বাক্ষরকারীগণ  এমনকি খালের উপরে ব্রীজের উত্তর-দক্ষিণ দিক থেকে আসার রাস্তাটি ব্রীজের দুই মাথায় শেষ হয়। উক্ত ব্রিজ টি সম্পূর্ণভাবে ব্যক্তিমালিকানাধীন (আমাদের) জমির উপরে তৈরি।

অতএব, আপনার কাছে আকুল আবেদন উপরোক্ত সমস্যাটি বিবেচনা পূর্বক সঠিকভাবে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে আপনার একান্ত মর্জি হয়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক ভুক্তভোগীরা জানান অভিযোগটি সম্পূর্ণ সত্য এবং অভিযোগের কপির অনুলিপি আরও আটটি দপ্তরে প্রেরণ করা হয়েছে ।সঠিকভাবে তদন্ত হইলে সত্য ঘটনা বের হয়ে আসবে। ভুক্তভোগীরা সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন।


শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট