মহেশপুরের সেই মাইক্রো কাশেমের নামে নারী ও শিশু নির্যাতনের মামলা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার আবুল কাশে ওরফে মাইক্রো কাশেমের নামে ঝিনাইদহ আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা (নং-৮৮/২১)হয়েছে। গত ২৩ মার্চ ঝিনাইদহ বিজ্ঞ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে মামলাটি করেছেন মৌসুমী খাতুন নামের এক নারী।

বাদির অভিযোগ ও মামলা সূত্রে জানাগেছে, ফেব্রুয়ারী মাসের ২ তারিখ রাত আনুমানিক ১১ টার দিকে বাদি বাড়ির পাশের বাঁশ বাগানে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গেলে আসামী আবুল কাশেম তাকে জোর পূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে বাদি চিতকার করলে কিছু লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে। এই সময় বাদির স্বামী একটি মামলায় কারাগারে থাকায় মামলা করতে বিলম্ব হয়েছে বলে তিনি তার আর্জিতে উল্ল্যেখ করেছেন।
আসামী আবুল কাশেম উপজেলা।যোগীহুদা(দক্ষিণপাড়া) গ্রামের রমিজ উদ্দিনের ছেলে। আবুল কাশেম এলাকায় মাদক ব্যবসায়ী হিসাবে পরিচিত। এবং পুলিশের সোর্স হিসাবে কাজ করে। 
এর আগে বাদি ঝিনাইদহ জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আসামির বিরুদ্ধে এক সংবাদ সম্মেলন করে। সেই সংবাদ সম্মেলনে বাদি অভিযোগ করেন, আসামি আবুল কাশেম একটি অপহরণ মামলায় ইচ্ছা করে জড়িয়ে দেয়। এর আগে সে বাদিকে বিভিন্ন কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল বলে অভিযোগ করেন।
বাদির অভিযোগ এই বিষয়ে মহেশপুর থানায় মামলা করতে গেলে থানা মামলা না নিয়ে বিজ্ঞ আদালতে মামলা করার পরামর্শ দেয়।

শেয়ার করুন

প্রকাশকঃ

অফিসঃ হাজী সিরাজুল ইসলাম সুপার মার্কেট, মোহাম্মদপুর মোড়, ছুটিপুর রোড, ঝিকরগাছা, যশোর।

পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট