আমাদের সামাজিক দায় : পর্ব- ২, লেখক : গোলাম মোস্তফা

প্রতীকী চিত্র, উৎস : ইন্টারনেট

আমাদের অনেক কাজ। আমরা অভ্যেস গুলো ব্যস্ততার মধ্যেই চালু রাখি।

আমরা অনেকেই সিগারেট খাই। আগে তো লুকিয়ে খেতাম। এখন সবার সামনে। সমস্যা নেই। বাবার টাকা কিম্বা নিজের পকেট থেকে টাকা বের করে কিনবো। তো লুকিয়ে কেন খাব, হ্যাঁ। সবার সামনে মুখ উচু করে খাব। ইয়ে মানে গুরুজন দের এখন মানামানির কি দরকার? জীবন আমার, চলবে আমার ইচ্ছেতে।

আমরা রাস্তার পরে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে নাস্তা করি। একটা বন রুটি একটা দুটো কলা। রুটি খেয়ে রুটির প্যাকেট টা কই আর ফেলতে যাব? রাস্তাতো আছে তার পরেই না হয় ছুড়ে দিলাম। কলার খোসাটা ফেলতে কোথায় যাব? রাস্তা তো আছেই।

পান খেতে খুব মজা, তাতে একটু জরদা, মিষ্টি জরদা। কি মজা তাই না? পান খেতে খেতে রাস্তা দিযে চলি আর পিক ফেলতে কি লন্ডন যেতে হবে? রাস্তাতেই ফেলি।

আমরা দোকানদাররা কোন বাস্কেট দোকানে রাখি না। কি দরকার অ্যা? রাস্তা আছে তো? রাস্তাতেই ফেলি।

আমাদের মহান ইসলামের একটা আকিদাহ হল পরিচ্ছন্নতা। পরিচ্ছন্নতা ঈমানের অর্ধেক। নিজেদের ধোপদুরস্ত পোষাক দেখলে মনে হবে অনেক বেশি পরিচ্ছন্ন, অর্ধেক ঈমান হাসিল করে ফেলেছি। আপনার সামনের রাস্তাটা ময়লা মুক্ত রাখতে কি করবেন? একটু হাত লাগাই।

পরিস্কার থাক রাস্তাটা, পরিস্কার থাক আমাদের ধোপ দুরস্ত জামা কাপড়। আমাদের মনটাও পরিস্কার থাক।

গোলাম মোস্তফা, প্রধান শিক্ষক (অবঃ)

শেয়ার করুন

প্রকাশকঃ

অফিসঃ হাজী সিরাজুল ইসলাম সুপার মার্কেট, মোহাম্মদপুর মোড়, ছুটিপুর রোড, ঝিকরগাছা, যশোর।

পূর্ববর্তী প্রকাশনা
পরবর্তী প্রকাশনা