জনগণের স্বত:স্ফূর্ত অংশগ্রহণে পৌর নির্বাচন সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে

জনগণের স্বত:স্ফূর্ত অংশগ্রহণে পৌর নির্বাচন সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে

নিউজ ডেস্কঃ তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, জনগণের স্বত:স্ফূর্ত অংশগ্রহণে পৌর নির্বাচন সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনেও সার্বিকভাবে ৬১ শতাংশ ভোটার উপস্থিতি ছিল। ইভিএম ভোটেও উপস্থিতি ছিল ৫৭ শতাংশের বেশি। অতীতের মতো অনাকাঙ্খিত দু-একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা হয়েছে। ভারতে ২০১৮ সালের পঞ্চায়েত নির্বাচনে ১৯ জন প্রাণ হারিয়েছিল। সেই তুলনায় আমাদের দেশে এ নির্বাচন অনেক শান্তিপূর্ণ হয়েছে। সোমবার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. হাছান বলেন, দ্বিতীয় দফায় আওয়ামী লীগ ৬০ শতাংশের বেশি আর বিএনপি পেয়েছে ১৮ শতাংশ ভোট। প্রথম দফায় বিএনপির মাত্র ২ জন প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছিল, এবার ৪জন। এ নির্বাচনের পর বিএনপি মহাসচিব যে বক্তব্য দিয়েছেন, সেটি স্বাভাবিক। প্রথম এবং দ্বিতীয় নির্বাচনেই তারা জনগণ কর্তৃক প্রচন্ডভাবে প্রত্যাখ্যাত হয়েছে। তাদের দুর্বলতা ঢাকতে আর মুখ রক্ষার জন্য এসব বক্তব্য দিচ্ছেন। জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন এবং স্থানীয় নির্বাচনে তাদের যে সাংগঠনিক দুর্বলতা তা মেনে নিয়ে তাদের কর্মপরিকল্পনা নেয়ার অনুরোধ করছি। তবেই বিএনপি লাভবান হবে। এরপরেও বিএনপি কয়েকটি আসনে নির্বাচিত হয়েছে।

সহিংসতার কথা উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, সিলেটের একটি পৌরসভায় বিএনপির কর্মীরা আমাদের প্রার্থীর গাড়ি ভেঙ্গে দিয়েছে, অনেকে আহত হয়েছেন। তারা এরকম বহু জায়গায় হামলা চালিয়েছে। বিদ্রোহী প্রার্থী প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের বিদ্রোহী প্রার্থীদের ব্যাপারে দলের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ইতিপূর্বেও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এখনো যারা বিদ্রোহী হয়েছেন তাদের ব্যাপারেও সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। মির্জা আব্দুল কাদেরকে নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ড. হাছান বলেন, তিনি তার মূল প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি ও জামায়াতের প্রার্থীদের সম্মিলিত ভোটের চেয়ে তিনগুণ ভোট বেশি পেয়েছেন। এজন্য কাদের মির্জা নিশ্চয়ই অভিনন্দন পাওয়ার যোগ্য।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সাম্প্রতিক বক্তব্য 'বাংলাদেশ ভবিষ্যতে আল-কায়েদার কর্মক্ষেত্র হয়ে উঠতে পারে'- এবিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে আল-কায়েদার কোনো উপস্থিতি নেই। যুক্তরাষ্ট্রের মতো একটি দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অজ্ঞতাবশত যখন এই বক্তব্য রাখেন, সেটি খুবই দুঃখজনক। সরকারের পক্ষ থেকে এর তীব্র প্রতিবাদ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে জানানো হয়েছে। আজকের বাস্তবতায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যেভাবে সহিংসতা দেখা দিয়েছে, সেখানে পার্লামেন্টে হামলায় কয়েকজন নিহত হয়েছেন, যা আমাদের দেশ কিম্বা আশেপাশের কোনো দেশে কখনো হয়নি। এফবিআই তথ্য দিচ্ছে, তাদের আশঙ্কা যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট শপথ নেয়ার দিন দিন সারাদেশে সহিংসতা ছড়াতে পারে। পৃথিবীর অন্যান্য দেশে সন্ত্রাসবাদ দমন করা আমাদের সম্মিলিত দায়িত্ব এবং লক্ষ্য। কিন্তু বর্তমান প্রেক্ষাপটে আমি মনে করি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আভ্যন্তরীণ সন্ত্রাসবাদ এবং বর্ণবাদ এ দুটির ব্যাপারে তাদের আরো মনোযোগী হওয়া প্রয়োজন।

সম্প্রতি রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে বিএনপি ও জামায়াতের দোয়া মাহফিলে সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে- এবিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা সবসময় বলে আসছি, জনগণ কর্তৃক প্রত্যাখ্যাত বিএনপি এবং দেশে আরো কিছু গোষ্ঠি সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। শেষ পর্যন্ত দেখতে পেলাম, দোয়া-মাহফিলকেও ষড়যন্ত্রের অংশ এবং উপলক্ষ্য হিসেবে নেয়া হয়েছে। এটি আসলেই দুঃখজনক। এ ধরণের ষড়যন্ত্র তারা আগেও করেছে। কিন্তু এগুলো করে লাভ হবে না।

তথ্যের উৎসঃ ভোরের কাগজ  

শ্যামনগর ফুটবল রেফারি অ্যাসোসিয়েশনের কমিটি গঠন

শ্যামনগর ফুটবল রেফারি অ্যাসোসিয়েশনের কমিটি গঠন

হুদা মালী,(শ্যামনগর)প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা শ্যামনগর উপজেলার ফুটবল রেফারি অ্যাসোসিয়েশনের কমিটি গঠন করা হয়। সোমবার বিকাল ৪টায় শ্রীফলকাটি আলিফ কংক্রিট ব্রিকস হলরুমে কমিটি গঠন অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের শ্যামনগর উপজেলায় রেফারি  অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক শেখ তৈয়বুর রহমান বাবলু সভাপতিত্বে । আগামী তিন বছরের  জন্য শ্যামনগর ফুটবল রেফেরী অ্যাসোসিয়েশন গঠন করা হয়। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের আইন অনুযায়ী পদাধিকারবলে সভাপতি শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ নাজমুল হুদা ও শেখ তৈবুর রহমান বাবলুকে সাধারণ সম্পাদক করে। এছাড়া বিভিন্ন টুর্ণামেন্টে রেফারি বরাদ্দ কমিটিতে শেখ আলমগীর হোসেন, মোঃ মনিরুল ইসলাম প্রধান শিক্ষক ও এমএম, মজনু ইলাহী সহকারী শিক্ষক। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র রেফারি জি এম জাহাঙ্গীর কবির , আবু নাঈম, মিজানুর রহমান,আবু তালেব, রিয়াজুল ইসলাম বাচ্চু, মাস্টার আব্দুল হামিদ, মোহাম্মদ মহিবুল্লাহ, মামুন, মাসুম, সোহাগ, রিয়াদ, ইলিয়াস ও রাকিব,আবু নাঈম প্রমুখ।

বিপুল ভোটের ব্যবধান বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতিকে জনগণের প্রত্যাখ্যান

বিপুল ভোটের ব্যবধান বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতিকে জনগণের প্রত্যাখ্যান

নিউজ ডেস্ক  : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মানুষ উন্নয়ন চায় বলেই পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিপুল ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন।

সেতুমন্ত্রী সোমবার (১৮ জানুয়ারি) সকালে চার দিনব্যাপী অগ্নিনিরাপত্তা বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। তিনি তার সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যুক্ত হন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, দ্বিতীয় ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে সব কেন্দ্রে ব্যাপক সংখ্যক ভোটারের উপস্থিতি ছিল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার দেশের সব সেক্টরে উন্নয়ন করে চলছে। মানুষ এই সরকারের কাছে আরও উন্নয়ন চায় বলেই আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিপুল ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপির প্রার্থীরা যেখানে সক্রিয় এবং জনপ্রিয় ছিল সেখানে তারা বিজয়ী হয়েছেন। এমনকি তাদের দুজন বিদ্রোহী প্রার্থীও বিজয়ী হয়েছেন। এখন কোনো দোষ খুঁজে না পেয়ে ভোটের ব্যবধান বেশি বলছেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও অর্জনের কারণেই আওয়ামী লীগের প্রার্থী বেশি ভোটে জয়ী হয়েছেন, এটাই স্বাভাবিক। জনগণের কাছে বিএনপি কী বলে ভোট চাইবে, তাদের তো বলার কিছু নেই।

তিনি বলেন, আগুন সন্ত্রাস আর মানুষ পুড়িয়ে মারা এবং দুর্নীতিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হওয়া ছাড়া তাদের জনগণের কাছে আর কি বা বলার আছে? ভোট কেন্দ্রে না এসে, প্রচার না চালিয়ে বিএনপি ভোটারদের আস্থা হারিয়েছে। আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের বিজয় উন্নয়নের বিজয়। বিপুল ভোটের ব্যবধান বিএনপির নেতিবাচক রাজনীতিকে জনগণের প্রত্যাখ্যান

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঘোষিত স্কোয়াডে পেসারের সংখ্যা- ৬

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঘোষিত স্কোয়াডে পেসারের সংখ্যা- ৬

নিউজ ডেস্কঃ ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের জন্য ঘোষিত স্কোয়াডে পেসারের সংখ্যা ৬ জন- রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ, মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, হাসান মাহমুদ ও শরিফুল ইসলাম। এদের সঙ্গে যোগ হলেন টেস্টের প্রাথমিক স্কোয়াডে থাকা খালেদ আহমেদ। সবমিলিয়ে সাত পেসার নিয়ে সোমবারের অনুশীলন পর্ব কাটাল বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

স্কোয়াডে ছয় পেসারের বিপরীতে বিশেষজ্ঞ স্পিনার মাত্র একজন- তাইজুল ইসলাম। এছাড়া স্পিনিং অলরাউন্ডার হিসেবে আছেন সাকিব আল হাসান, মেহেদি হাসান মিরাজ, শেখ মেহেদি হাসান ও আফিফ হোসেন ধ্রুব। পেস বোলারদের আধিক্যই দিয়েছে বার্তা, চিরাচরিত স্পিন নির্ভর আক্রমণ থেকে বেরিয়ে এবার হয়তো গতিময় বোলিংয়ের দিকে ঝুঁকছে বাংলাদেশ দল। যা নিশ্চিত করেছেন হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো।

সোমবার দুপুরে ওয়ানডে সিরিজকে সামনে অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন টাইগারদের হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো। যেখানে উঠে এসেছিল দলের পেস-স্পিন বিষয়ক পরিকল্পনার কথাও। তখন ডোমিঙ্গো সাফ জানিয়েছেন, স্পিন নির্ভরতা থেকে বের হতে চান তিনি, একাদশে সবসময় রাখতে চান অন্তত তিন পেসার।

তবে কন্ডিশনও বিবেচনায় আনা হবে জানিয়ে ডোমিঙ্গো বলেন, 'বোলিং আক্রমণের চেহারা কন্ডিশনের উপর নির্ভর করবে। আমাদের সাকিব আছে, যে ১০ ওভার বল করবে। উপমহাদেশের আরেকজন বিশেষজ্ঞ স্পিনার দলে চাইব। সে কে হবে, এটা আমাদের ঠিক করতে হবে। উপমহাদেশে ২০ ওভার স্পিনারদের দিয়ে করাতে চাইবে সবাই। সঙ্গে এক-দুই জন অনিয়মিত স্পিনার থাকতে পারে।'

পাশাপাশি একাদশে পেসারদের গুরুত্ব বুঝিয়ে তিনি বলেন, 'দলে যথেষ্ট পেসার থাকাটা নিশ্চিত করতে হবে, যেন উইকেটে কোনো সুবিধা থাকলে সেটা তারা নিতে পারে। বিশেষ করে এই শীতের সময় যখন খেলা শুরু হবে সকাল সাড়ে ১১টায়। কুয়াশা ও শিশিরের জন্য প্রথম ঘণ্টায় একটু মুভমেন্ট থাকতে পারে। দুই দিকই কাভার করাটা আমাদের নিশ্চিত করতে হবে।'

টাইগার হেড কোচ জোর দিয়ে বলেছেন, ওয়ানডে একাদশে সবময়ই তিন পেসার চান তিনি, 'এই বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই, আমরা ওয়ানডেতে সব সময় তিন পেসার খেলাতে চাই। এই মুহূর্তে দলে রোমাঞ্চকর কিছু তরুণ পেসার আছে। শরিফুল, হাসান মাহমুদ আছে। রুবেল, মুস্তাফিজ খুব ভালো বোলিং করছে। উন্নতির ছাপ আছে তাসকিনের বোলিংয়ে।'

তিনি আরও যোগ করেন, 'দলে জায়গার জন্য অনেকেই লড়াই করছে। ওদের ওয়ানডে খেলার সুযোগ আমাদের করে দিতে হবে। কেবল স্পিননির্ভর একটা দলে পরিণত হতে পারি না আমরা। ছয় সপ্তাহের মধ্যে আমাদের নিউজিল্যান্ডে যেতে হবে। আমি বলে দিতে পারি, সেখানে আমরা কেবল একজন স্পিনার খেলাব। তাই আমাদের নিশ্চিত করতে হবে, আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য আমাদের পেসাররা তৈরি। তিন পেসার ছাড়া আমি কোনো ওয়ানডে খেলব না।'

পটিয়ার সুচক্রদন্ডী নজরুল ইসলাম কারামুক্তিলাভে এলাকাবাসীর সংবর্ধনা

পটিয়ার সুচক্রদন্ডী  নজরুল ইসলাম   কারামুক্তিলাভে এলাকাবাসীর  সংবর্ধনা

পটিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ- চট্টগ্রামের পটিয়ার পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ড সুচক্রদন্ডী এলাকার সমাজ কর্মী ও সাবেক কাউন্সিলর প্রার্থী   নজরুল ইসলাম সিদ্দিকী মিথ্যা মামলায় কারামুক্তিলাভে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে  সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। ১৮ জানুয়ারি রবিবার   বিকালে এলাকাবাসীর  লোকজন নজরুল ইসলাম সিদ্দিকী'কে ফুলের শুভেচ্ছা  জানিয়ে  সংবর্ধনা দেওয়া হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন ২ নং ওয়ার্ড   আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও পৌর আওয়ামীলীগ নেতা আসন্ন ১৪ ফেব্রুয়ারী  পটিয়া পৌর নির্বাচনে ২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী   নজরুল ইসলাম বিপ্লব, পটিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগ সহ- প্রচার সম্পাদক মোঃ নাজিম উদ্দীন, পটিয়া পৌরসভা  যুবলীগের কার্যকরী কমিটির সদস্য আবদুল মন্নান,মোঃ আরিফ,  মোঃ সেলিম, মোঃ আইয়ুব সওঃ, ইসমাইল সওঃ, গাজী মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, জুলন দাশ পিন্টু, অলন শীল,মোঃ সাগর,মোঃ জহির,   অরুণ শীল, মোঃ জালাল  প্রমুখ।

ভেলাগুড়ি ইউপি নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন চান এমদাদ হোসেন

ভেলাগুড়ি ইউপি নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন চান এমদাদ হোসেন

মোঃ ফরহাদ হোসেন লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ খুব শীঘ্রই স্থানীয় সরকার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে নির্বাচন কমিশনের এমন ঘোষণা পাওয়ার পরপরই তুমুল তোরজোড় শুরু করেছেন প্রার্থীরা।

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশা করেছেন মোঃ এমদাদ হোসেন। জানা গেছে, লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য ইতোমধ্যে সমাজসেবামূলক অনেক কার্যক্রম সম্পন্ন করে জনগণের কাছে সাড়া ফেলেছেন এমদাদ হোসেন। 

সম্প্রতি মহামারী করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে ইউনিয়নের সাধারণ মানুষের পাশে সহযোগী হিসেবে দাড়িয়েছেন তিনি। নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পুরো ইউনিয়নজুড়ে সবার সাথে মিলেমিশে কাজ করার মানসিকতা নিয়ে ছুটে চলছেন এলাকার পরিচিত মুখ এমদাদ হোসেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে স্থানীয় সংসদ সদস্য, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সাবেক প্রতিমন্ত্রী মোতাহার হোসেন এমপির আস্থাভাজন ও নয়নের মনি হয়ে উঠেছেন এমদাদ হোসেন।

ইতিমধ্যে নানারকম জনকল্যাণমূলক কাজ করার কারণে ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের মানুষ তাকেই চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত করতে চান।ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে মানুষজন এমদাদ হোসেন এর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় ইতিমধ্যেই অংশগ্রহণ করেছেন, তারা চাচ্ছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে যেন এমদাদ হোসেনকেই মনোনয়ন দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে এমদাদ হোসেন এর সাথে কথা হলে তিনি জানান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের সার্বিক পরিস্থিতি উন্নয়নে তিনি কাজ করবেন।

বগুড়ায় ডিবির অভিযানে গাঁজাসহ আটক- ১

বগুড়ায় ডিবির অভিযানে গাঁজাসহ আটক- ১

মোঃ সবুজ মিয়া বগুড়া প্রতিনিধিঃবগুড়া সদর উপজেলার কর্নপুর এলাকা থেকে এক কেজি গাঁজাসহ শফিকুল আলম (৫০) নামে এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার হয়েছে। সোমবার (১৮ জানুয়ারি) তার বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়।

গ্রেপ্তার শফিকুল দিনাজপুরের হাকিমপুর উপজেলার দক্ষিণ বাসুদেবপুর গ্রামের বাসিন্দা। এর আগে গতকাল রাত আটটার দিকে কর্নপুর জোড়গাছা গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। সোমবার দুপুরে বিষয়টি প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন ডিবির ওসি আব্দুর রাজ্জাক।

ডিবি জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার রাতে সদরের কর্নপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় শফিকুলকে এক কেজি গাঁজাসহ গ্রেপ্তার করেন ডিবির সদস্যরা। পরে আজ তার বিরুদ্ধে বগুড়া সদর থানায় নিয়মিত মামলা দিয়ে আদালতে পাঠানো হয়।

নওগাঁর পোরশায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতিবন্ধি শির্ক্ষাথীদের মাঝে কম্বল বিতরন

নওগাঁর পোরশায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের  প্রতিবন্ধি শির্ক্ষাথীদের মাঝে কম্বল বিতরন

রাজশাহী ব্যুরো:
 নওগাঁর পোরশায়  প্রতিবন্ধি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। পোরশা উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে  কম্বলগুলি সোমবার ১৮ জানুয়ারি  সকাল ১১টায় অত্র বিদ্যালয়ে শতাধীক শিক্ষার্থীর দের কে কম্বল দেওয়া হয়। 
এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ্ মঞ্জুর মোরশেদ চৌধুরী। সভাপতিত্ব করেন ইউএনও নাজমুল হামিদ রেজা। এসময় উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান কাজীবুল ইসলাম, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা দোস্তদার হোসেন, নিতপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল কালাম শাহ্, প্রধান শিক্ষক মওদুদ আহমেদ সহ গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

কিশোরগঞ্জে তামাকের দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী

কিশোরগঞ্জে তামাকের দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী

মোঃ লাতিফুল আজম,নীলফামারী প্রতিনিধি:নীলফামারী কিশোরগঞ্জ উপজেলার গাড়াগ্রাম ইউনিয়নের পশ্চিম দলিরাম নতুন টেপার হাট নামক স্থানে  সোনালী বিড়ির মালিক সুনিল শাহ্, তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৩ অমান্য করে  ঘনবসতি, হাট-বাজার, কৃষি ব্যাংক, ব্রাক, ইউপি পরিষদ, কমিউনিটি ক্লিনিকের মত গুরুত্বপূর্ণ এলাকার সড়কের পাশে তামাক প্রক্রিয়াজাতকরণ ভাড়াকৃত গোডাউনের  চাতালে মেশিন ও  হাতের সাহায্য লাঠি  দিয়ে পিটিয়ে তামাকের পাতা ও ডাটা গুঁড়ো করার বর্জ্যেের  ধুলা- ময়লা বাতাসের সঙ্গে মিশে পরিবেশ দূষণসহ  জনস্বাস্থ্য মারাত্মকভাবে হুমকির মুখে পড়েছে।  এ বিষয়ে এলাকাবাসী জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী  অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এর বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন প্রতিবাদ করেও ফল না পাওয়ায় বাধ্য হয়েই তারা ঝুঁকিপূর্ণ পরিবেশে চরম স্বাস্থ্য ঝুঁকি নিয়ে বসবাস করছেন। এতে সবচেয়ে বেশি ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে কোমলমতি শিশু-কিশোর, বৃদ্ধ গর্ভবতী মা । অনেকেই ফুসফুসে ক্যান্সার, লিভার, যক্ষা, ক্ষুধামন্দা, হাঁপানি, শ্বাসকষ্টের
মত জটিল ও কঠিন রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন।  স্থানীয়দের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে জানা গেছে, সোনালী বিডির মালিক দীর্ঘদিন যাবত ঘনবসতি এলাকার সড়কের পাশে তামাক প্রক্রিয়াজাতকরণ গোডাউনের চাতালে  তামাক পাতা ও ডাটার মাড়াইয়ের গুড়ার বর্জ্যের  বিষাক্ত ধুলা- ময়লা বাতাসে মিশে পরিবেশ দূষণ করছে। তামাক পাতা ও ডাটা মাড়াই করার জন্য মেশিন চালু হওয়া মাত্রই তামাকের দূষিত বর্জ্যের  বিষাক্ত ধুলোয় অন্ধকার হয়ে যায় পুরো এলাকা।বিশেষ করে যখন বাতাস বেশি করে প্রবাহিত হয় তখন তামাকের দূষিত বর্জ্যের  তীব্র গন্ধে পার্শ্ববর্তী এলাকার মানুষ  বাড়ীতে বসবাসসহ জীবনযাত্রা দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে । অন্যদিকে হাঁচি কাঁশির মাঝে কোমলমতি শিশু কিশোররা ঠিকমত লেখাপড়ায় মনোনিবেশ করতে পারছেনা।বাতাসের সঙ্গে উড়ে আসা তামাক মাড়াইয়ের ধুলা-ময়লা আশ পাশ এলাকার  বাড়িঘর  গাছপালা আস্ত আবরণে ঢেকে গেছে।সরেজমিনে দেখা গেছে স্বাস্থ্য সুরক্ষা ছাড়াই অধিকাংশ নারী-পুরুষ শ্রমিক গণ চরম স্বাস্থ্যঝুঁকির মধ্যে খোলামেলা পরিবেশে  কাজ করছেন। স্থানীয় বাসিন্দা হামিদুর রহমান বাবু,জহুরুল, মশিয়ার রহমান  বলেন,ওই  ঘনবসতি  এলাকায়  তামাক পাতা মাড়াইয়ের  ধুলা- ময়লার অসহনীয় দুর্গন্ধে পরিবার পরিজন নিয়ে  বসবাস করা দুষ্কর হয়ে পড়েছে।রাতে ঘুমানোসহ খাওয়ার সময় বমি আসে।  খাবার গলা পার হতে চায় না। এ নিয়ে  এলাকাবাসী অনেক বার নিষেধ করলেও  জনস্বাস্থ্যের কথা চিন্তা না করে দিব্যি  চালাচ্ছেন মাড়াইয়ের কারখানা । এ ব্যাপারে কিশোরগঞ্জ শাখার সোনালী  বিড়ির ম্যানেজার ছাইদুর রহমানের কাছে পরিবেশ অধিদপ্তরের অনুমতির বিষয়ে ছাড়পত্র নেওয়া হয়েছে কিনা চানতে চাইলে তিনি জানান, ছাড়পত্র আছে দেখানো যাবেনা।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন,  অভিযোগ পেয়েছি। খোলামেলা পরিবেশ তামাক পাতা মাড়াই  করার নিয়ম নেই। কেউ করে থাকলে খোঁজ নিয়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

চৌগাছা পাবলিক লাইব্রেরির কার্যনির্বাহী পরিষদ এর শপথ অনুষ্ঠিত

চৌগাছা পাবলিক লাইব্রেরির কার্যনির্বাহী পরিষদ এর শপথ অনুষ্ঠিত

চৌগাছা(যশোর) প্রতিনিধিঃ যশোরের চৌগাছা পাবলিক লাইব্রেরির পরিচালনা পর্ষদের নরনির্বাচিত পরিচালনা পর্ষদের শপথ গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ সোমবার সকাল ১১ ঘটিকায় পাবলিক লাইব্রেরির হলরুমে শপথ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে নির্বাচন কমিশন।
চৌগাছা পাবলিক লাইব্রেরির সভাপতি ও চৌগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব এনামুল  হক এর সভাপতিত্বে শপথ পরিচালনা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার জনাব মোঃ আতিকুর রহমান, নির্বাচন কমিশনার জনাব মোঃ আব্দুল হামিদ কেনেডি এবং জনাব মশিয়ার রহমান। 
এই সময় উপস্থিত ছিলেন চৌগাছা পাবলিক লাইব্রেরির সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক জনাব মোঃ আঃ জলিল, নবনির্বাচিত কমিটির সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সালাম, সহ সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান এ্যাডমিরাল, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুজ্জামান রাজু, ক্রীড়া ও সমাজসেবা সম্পাদক মোঃ জাফর ইকবাল লিটন, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মামুন শামীম আকতার লিখন, নির্বাহী সদস্য নাসরিন সুলতানা স্বপ্না, নির্ববাহী সদস্য প্রভাষক  মোঃ অমেদুল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য মোঃ আকরামুল ইসলাম,  নির্বাহী সদস্য মোঃ সামাউল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য মোঃ শওকত আলী, নির্বাহী সদস্য মোঃঃ হাবিবুর রহমান স্বপন, নির্বাহী সদস্য মোঃ আলমগীর, নির্বাহী সদস্য মোঃ সাহিদুজ্জামান সবুজ, নির্বাহী সদস্য মোঃ আখতারুজ্জামান, নির্বাহী সদস্য মোঃ রতন হোসেন, সাংবাদিক এম এ রহিম, শ্যামল দত্ত প্রমুখ। 

শ্রীপুর পৌর নির্বাচনে ইভিএম জালিয়াতিঃ বিএনপি প্রার্থীর ভোট প্রত্যাখ্যান

শ্রীপুর পৌর নির্বাচনে ইভিএম জালিয়াতিঃ বিএনপি প্রার্থীর ভোট প্রত্যাখ্যান

নিউজ ডেস্কঃ গত ১৬ই জানুয়ারী অনুষ্ঠিত হওয়া শ্রীপুর পৌর নির্বাচনে ভোটের বাইরের পরিবেশ সুন্দর রেখে ইভিএম কারিগরির মাধ্যমে ভোটের ফল পাল্টানোর অভিযোগে নির্বাচন প্রত্যাখ্যান এবং পুননির্বাচন দাবি করেছেন বিএনপি মনোনিত প্রার্থী এডভোকেট কাজী খান। 
 
আজ বিকেলে সংবাদ সম্মোলনে তিনি জানান, নির্বাচন চলাকালীন সময়ে সকালেই ৫-৬টি কেন্দ্র থেকে তার নির্বাচনী এজেন্টকে মারধর করে বের করে দেওয়া হয়। পরবর্তীতে দুপুরের আগে আরও কয়েকটি কেন্দ্র হতে বিএনপি এজেন্টকে বের করে আওয়ামী প্রাথীর সমর্থকরা কেন্দ্র দখলে নেয় এবং ভোটার শনাক্তকরনের পর সকল ভোটারদের ভোট নৌকা মমার্কায় জোরপূর্বক নিজেরা দিয়ে দেয়। 

এছাড়াও নির্বাচনে বিভিন্ন কেন্দ্রে  ইভিএম ব্যাবহারে একাধিক মেমোরি এবং সফটওয়্যার ব্যাবহার করে ভোটের ফলাফল পাল্টানো হয়। 
সংবাদ সম্মোলনে থাকা কিছু ধানের শীষের কিছু নেতাকর্মী তাদের চাক্ষুষ জবান দেয় এবং তার তীব্র প্রতিবাদ জানায়।

সংবাদ সম্মোলনে আরও জানানো হয়, ভোটগ্রহন শেষ হবার পর যেসব কেন্দ্রে বিএনপি এজেন্ট ছিলো তাদেরকে বের করে দিয়ে সাংবাদিকদের অনুপস্থিতিতে ভোট গননা করা হয় এবং ভোটের ফলাফল পাল্টানো হয়। এসময় আরও অভিযোগ করা হয় কয়েকটি কেন্দ্রে প্রথমে একরকম ফলাফল ঘোষনা করলেও পরবর্তিতে ভিন্ন ফল ঘোষনা করা হয় এবং সকল কেন্দ্রে শতকরা একই ধরনের ভোট পড়েছে বলে জানানো হয়।

বিএনপি প্রার্থী কাজী খান এসব বিষয়ে বলেন,  নৌকা প্রার্থী ও প্রশাসনের ষড়যন্ত্র ও ইভিএমে ভোট চুরি করেছে যা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায়না। এসময় তিনি এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, ডিজিটাল জালিয়াতির মাধ্যমে আজ আবার প্রমান হলো গনতন্ত্র আজ হারিয়ে গেছে।

লালমনিরহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই পুলিশ সদস্য নিহত

লালমনিরহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই পুলিশ সদস্য নিহত

মোঃ রাশেদুল ইসলাম রাশেদঃলালমনিরহাটের হাতীবান্ধার খানের বাজার এলাকায় ট্রাক চাপায় দুই পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছে।  ওই দুই পুলিশ সদস্য হাতীবান্ধা থানায় ডিএসবি শাখায় কর্মরত ছিলেন।

সোমবার বিকেলে লালমনিরহাট - বুড়িমারী মহাসড়কে খানের বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।পুলিশ জানান, হাতীবান্ধা থানার ডিএসবি শাখার এসআই আব্দুল মতিন ও কনস্টবল মুজিবুল আলম ওরে হাজী মোটরসাইকেলযোগে বড়খাতা থেকে হাতীবান্ধা থানায় ফিরছিলো।
খানের বাজার এলাকায় ট্রাক অতিক্রম করার চেষ্টা করলে ট্রাকের নিচে পড়ে যায়। এতে ঘটনা স্থলে তাদের মৃত্যু ঘটে।হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদূল আলম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ফেসবুকের স্ট্যাটাসে সাড়া দিলেন যশোরের জেলা প্রশাসক

ফেসবুকের স্ট্যাটাসে সাড়া দিলেন যশোরের জেলা প্রশাসক

সুমন হোসেম,যশোর জেলা প্রতিনিধিঃ শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) যশোরের সাংবাদিক সাজেদ রহমান বকুল তার ফেসবুক পেজে জগহাটি গ্রামের অসহায় বাগদি সম্প্রদায়ের মানুষের শীতের কষ্ট তুলে ধরে ছবিসহ স্ট্যাটাস দেন।
স্ট্যাটাসে তিনি লিখেন 'যশোর সদরের জগহাটি বাওড়। তার পাশে বসবাস করেন ১১০ টি বাগদী পরিবার।পরিবারের সদস্য সংখ্যা প্রায় আড়াইশ'। এঁরা মাঠে কাজ করেন, পুরুষ এবং নারী মিলে। স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক তাদের দারুণ। এদের আগে পেশা ছিল মাছ ধরা। সেটা এখন কমে গেছে। এই শীতে তারা ভীষণ কষ্টে আছেন। আমি গিয়েছিলাম গত বুধবার তাদের দেখতে। বাগদী (দ্রাবিড়-বংশোদ্ভুত এই জাতিগোষ্ঠীর প্রধান বাসস্থান পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ) সম্প্রদায়ের নারীরা বাওড়ের পাশে কাঠ জ্বালিয়ে দেখি আগুন পোহাচ্ছেন। এতো সহজ-সরল মানুষ এই দেশে বাস করেন তা না দেখলে বোঝা যায় না। ইতিহাস বলে, এই বাগদী সম্প্রদায়ের মধ্যে ধর্ষণ, নারী নির্যাতনসহ অন্যান্য ঘটনা প্রায় নেই বললেই চলে। এটা তারা প্রকৃতি থেকে পেয়েছেন। শীতে তাদের কম্বল দরকার।'

সাংবাদিকের স্ট্যাটাস দেখে জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলামের নির্দেশে বাগদি সম্প্রদায়ের মানুষের জন্য কম্বল বরাদ্দ দেন। শনিবার বিকেলে তিনি নিজেই জগহাটি গ্রামে গিয়ে কম্বল বিতরণ করেন। এসময় ভূমিহীন অসহায় মানুষ জমি বরাদ্দ ও বাড়ি নির্মাণের দাবি জানান। এসময় জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খোঁজখবর নিয়ে পরবর্তীতে পদক্ষেপ গ্রহণের আশ্বাস দেন।
কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রফিকুল হাসান, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়নের (জেইউজে) সাবেক সভাপতি সাজেদ রহমান বকুল, চুড়ামনকাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান মুন্না, ইউপি সদস্য আনিসুর রহমান, সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুর রাজ্জাক, এনামুল কবির, আওয়ামী লীগ নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের, ইসহাক আলী গাজী, যুবলীগ নেতা আজাদুল করিম আজাদ প্রমুখ।

শিশু সানজিদা হত্যা মামলায় র‌্যাব-১৪ এর অভিযানে গ্রেফতার-২

শিশু সানজিদা হত্যা মামলায় র‌্যাব-১৪ এর অভিযানে গ্রেফতার-২

স্টাফ রিপোর্টারঃ আর.জে মিজানুর রহমান ইমনঃ (১৫ই জানুয়ারি) শুক্রবার ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার রামচন্দ্রপুর এলাকায় আকন্দবাড়ীর পিছনের জঙ্গলে অপহরণকারীরা মুক্তিপণের টাকা না পেয়ে শাহজাহান আকন্দের মেয়ে সানজিদা আক্তার (৭) কে হত্যা করে লাশ ফেলে রাখে । 

উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৪, ময়মনসিংহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে হত্যার বিষয়ে ছায়া তদন্ত শুরু করে । ঘটনাস্থল পরিদর্শন পারিপার্শ্বিকতার বিচারও নিহতের বিভিন্ন বিষয়ে পর্যালোচনা ও বিশ্লেষণ করে  নিবিড় তদন্তপূর্বক র‌্যাব-১৪, ঘটনার রহস্য উন্মোচন করে । 

এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-১৪,গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা থানার হত্যা মামলায় জড়িত সন্দেহে ইয়াসিন আকন্দ (১৬) পিতাঃ মোঃ আবুল হাশিম আকন্দ,সাং- রামচন্দ্রপুর থানা তারাকান্দা জেলা-ময়মনসিংহ কে তারাকান্দা থানা এলাকা থেকে বিশেষ অভিযানের মাধ্যমে অদ্য (১৭ই জানুয়ারি) রবিবার দিবাগত রাত ১ ঘটিকার সময় গ্রেপ্তার করা হয় । প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে । 

গ্রেপ্তারকৃত আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে সুপারী কুড়ানোর নাম করে ভিকটিম সানজিদা আক্তার কে তার বাড়ির পাশের জঙ্গলে নিয়ে সে এবং শাকিল (১৯) পিতা-টুটু/টুনু পাগলা মিলে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। 

পরবর্তীতে ভিকটিমের বাবার নিকট তারাকান্দা বাজার বিকাশ এজেন্ট নিশিত কুমার সিংহ (৫৭) পিতা নীরেন্দ্র চন্দ্র সিংহ এর মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ২০০০০/= টাকা মুক্তিপণ দাবি করে । মুক্তিপণের টাকা না পাওয়াতেই আটককৃত আসামি শিশু সানজিদা আক্তার কে হত্যা করার কথা স্বীকার করে । 
ময়মনসিংহ র‌্যাব-১৪ কর্তৃক প্রেরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ইফতেখার উদ্দিন জানান, স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে নিশিত কুমার সিংহ (৫৭) কেও গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-১৪। গ্রেপ্তারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন বলে জানান র‌্যাব-১৪ এই কর্মকর্তা ।

গুলবাগপুর গ্রামের মারুফ হোসেন ইন্তেকাল করেছেন

গুলবাগপুর গ্রামের মারুফ হোসেন ইন্তেকাল  করেছেন

 


স্টাফ রিপোর্টারঃ গুলবাগপুর গ্রামের পশ্চিম পাড়ার মারুফ হোসেন (দর্জি)  আজ (১৮ ই জানুয়ারী) ভোরে ইন্তেকাল করেছেন ( ইন্না-লিল্লাহ ------ রাজীউন) । পারিবারিক সুত্রে জানা যায় গত শনিবার বিকালে স্ট্রোক জনিত  কারণে যশোর ২৫০ শয়্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে  ভর্তি হন।
সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সোমবার ভোর ২ টার  দিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলার গুলবাগপুর গ্রামের ছবুল্লা এর বড় জামাতা। তার জন্মস্থান জেলা মাগুরা।
মৃত্যুকালে স্ত্রী, দুই ছেলে, এক মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। তার মৃত্যুতে তার বাসাতে ছুটে গিয়ে    গভীরভাবে শোক প্রকাশ সহ শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করে বিবৃতি দিয়েছেন অত্র ইউনিয়নের  এমপি প্রতিনিধি ও সাবেক চেয়ারম্যান আমিনুর রহমান।    

তেঁতুলিয়া তে বাংলাদেশ কৃষক লীগ এর শীতবস্ত্র বিতরণ

তেঁতুলিয়া তে বাংলাদেশ কৃষক লীগ এর শীতবস্ত্র বিতরণ

সাব্বির হোসেন রকিঃজাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে সারাদেশে একযোগে কৃষকদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করছে বাংলাদেশ কৃষক লীগ।

 তেঁতুলিয়া  উপজেলা কৃষক লীগের উদ্যোগে আয়োজিত কর্মীসভা ও শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত  ছিলেন, কৃষিবিদ সমীর চন্দ, সভাপতি, বাংলাদেশ কৃষকলীগ।,বিশেষ অথিতি- আব্দুল লতিফ তারিন, সহ-সভাপতি ,বাংলাদেশ কৃষকলীগ।  কৃষিবিদ বিশ্বনাথ সরকার বিটু, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ কৃষকলীগ, জনাব ফরিদা আক্তার হিরা সহ-সভাপতি জেলা আওয়ামী লীগ পঞ্চগড়, জনাব কৌশিক নাহিয়ান নাবিদ, সদস্য, বাংলাদেশ যুবলীগ, জনাব মাসুদ করিম সিদ্দিকী,সাবেক সভাপতি, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, তেঁতুলিয়া উপজেলা শাখা।

উক্ত অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন জনাব তাজিরুল ইসলাম তাজু, সভাপতি, বাংলাদেশ কৃষক লীগ, জেলা শাখা পঞ্চগড়।

কৃষক লীগের সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দ বলেন, কৃষকের সেবায় বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বাস্তবায়নে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে সারা বাংলাদেশে র্শীতবস্ত্র বিতরণ করছে কৃষক লীগ। মুর্জিববর্ষে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসকে স্মরণীয় ও বরণীয় করে রাখতে এই কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

সহ সভাপতি আব্দুল লতিফ তারিন জানান,  জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নীতি আদর্শ নিয়ে নিষ্ঠার সাথে কাজ করে যাচ্ছে এদেশের মানুষের জন্য, বাংলাদেশ কৃষক লীগ তেঁতুলিয়া উপজেলা শাখার এই অনুষ্ঠানে তিনি সকলে নেতা কর্মীকে একসাথে কাজ করার আহবান জানান তিনি।
এসময় বাংলাদেশ কৃষক লীগ, তেঁতুলিয়া উপজেলা শাখার মাধ্যমে  ৫ শতাধিক শীতবস্ত্র বিতরন করেন।