কক্সবাজারের রামুতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান

কক্সবাজারের রামুতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান

 আনিস নাঈমুল হক, রামু:কক্সবাজার জেলার রামু উপজেলার রাজারকুল ইউনিয়নের বৃহত্তর পাঞ্জেগানা বাজারে অবৈধ দখলকৃত দোকান উচ্ছেদ করা হয়েছে । ৮ফেব্রুয়ারি সোমবার সকাল ১১টায় এ  অভিযান চালানো হয়।

জানা যায়, রামু-মরিচ্যা আরকান সড়কের প্রশস্ত করনের কাজ চলমান রয়েছে।রাস্তাটির প্রস্থ ৩৪ ফুট করার জন্য রামু উপজেলা প্রশাসনের নেতৃত্বে ৩৮ শতক অবৈধ দখলকৃত বাজারের দোকান উচ্ছেদ করা হয়।
রাস্তার বর্ধিতকরন কাজে বাধাগ্রস্ত হওয়াতে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে বলে জানা যায়।

রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমা বলেন, অবৈধ দখলদার ও ব্যবসায়ীদের ইতিপূর্বে দোকান ও সকল সরঞ্জাম সরানোর জন্য বলা হয়েছিল।তারা নির্দিষ্ট সময়ে না সরালে আমরা এ অভিযান পরিচালনা করি।
এছাড়া ব্যবসায়ী ও স্হানীয়দের সুবিধার্তে বিকল্প জায়গায় বাজার নির্মান করা হচ্ছে এবং ইজারাদারদের তা বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে।

উক্ত অভিযানে আরো উপস্থিত ছিলেন,রামু উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো.  সরওয়ার উদ্দিন,রামু থানা পুলিশের টিম,রামু ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ আনিছুর রহমান সহ ফায়ার সার্ভিস ইউনিট, বনবিভাগের কর্মকর্তারা ,আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা,রামু বিদ্যুৎ অফিসের কর্মকর্তা, রাজারকুল ইউপি চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান সহ প্রমুখ।

অনিয়মের অভিযোগে কলারোয়া নলছিটি ও ভূঞাপুর পৌরসভার ফলাফল স্থগিত

অনিয়মের অভিযোগে কলারোয়া নলছিটি ও ভূঞাপুর পৌরসভার ফলাফল স্থগিত


আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃতৃতীয় ধাপের পৌর নির্বাচনে, অনিয়মের অভিযোগে সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়াসহ তিনটি পৌরসভার বেসরকারি ফলাফল স্থগিত রাখা হয়েছে বলে নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম সূত্রে জানা গেছে,
তিনি জানান, এই তিন পৌরসভা নির্বাচনের বিষয়ে প্রতিবেদন পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে। সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) নির্বাচন কমিশন ভবনে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

ফল স্থগিত রাখা পৌরসভাগুলো হচ্ছে সাতক্ষীরা'র কলারোয়া, ঝালকাঠীর নলছিটি ও টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর।নির্বাচন কমিশনার কবিতা আরো খানম বলেন, 'তৃতীয় ধাপে কয়েকটি পৌরসভা নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা সামান্য বিঘ্ন ঘটার বিষয়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরগুলি দেখে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তাকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। 

কেন আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি বিঘ্ন ঘটেছে, কারা ঘটিয়েছে, কেন ভঙ্গ হলো এবং এ বিষয়ে কারা দায়ী এই বিষয়গুলোর ওপরে তদন্ত করে একটি প্রতিবেদন পাঠাতে বলা হয়েছে।উক্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর যদি দেখা যায় যে, অপরাধ ঘটেছে, তাহলে যে পদক্ষেপ নেওয়া দরকার, তা আমরা নেবো। 

প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে দরকার হলে ফৌজদারি বা নির্বাচনি আইনে মামলা দায়ের করবো। চতুর্থ ও পঞ্চম ধাপের পৌরসভা নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, 'চতুর্থ ধাপে ৫৬টি এবং পঞ্চম ধাপে ৩১টি পৌরসভার নির্বাচন হতে যাচ্ছে। এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের যেখানে যেখানে নির্বাচন  অনুষ্ঠিতরহবে, সেখানকার ডিসি, এসপি, রিটার্নিং অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসারের সঙ্গে অনলাইনে মিটিং করেছি। 

এ মিটিংয়ে আমার সঙ্গে ইসি সচিব যুক্ত ছিলেন। ভোট যাতে কোনোভাবেই বিঘ্নিত না হয় ও আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি কঠোরভাবে যাতে নিয়ন্ত্রণ করা হয়, সেই দিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এজন্য পুলিশ ও প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলেছি। এর আগে রাজশাহী বিভাগের নির্বাচনগুলো সুষ্ঠু হয়েছে বলে তারা বৈঠকে জানিয়েছেন।

সাংবাদিক সাগর হাওলাদারের শুভ জন্মদিন শুভেচ্ছা জানিয়েছে রাজাপুর সাংবাদিক ক্লাবের সকল সদস্য

সাংবাদিক সাগর হাওলাদারের শুভ জন্মদিন শুভেচ্ছা জানিয়েছে রাজাপুর সাংবাদিক ক্লাবের সকল সদস্য

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন স্টাফ রিপোর্টার 
ঝালকাঠির রাজাপুর সাংবাদিক সাগর হাওলাদারের শুভ জন্মদিন আজ ০৮ ফেব্রুয়ারী। তিনি এই দিনে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারের জন্মগ্রহণ করেন।সাংবাদিক সাগর হাওলাদার জনপ্রিয় পত্রিকা দৈনিক আলোকিত বরিশাল রাজাপুর প্রতিনিধি ও রাজাপুর সাংবাদিক ক্লাবের কার্যনির্বাহী সদস্যের দায়িত্ব পালন করছেন।

ছাত্রজীবন থেকেই তিনি সাংবাদিক পেশায় নিয়োজিত, তিনি তার সংবাদ সংগ্রহ করে তা উপস্থাপন করে পাঠকের মনজয় করে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। তার পরিচিতির জগৎ স্বাভাবিকভাবেই বিস্তৃত। তার ঘনিষ্ঠ যোগাযোগের বৃত্তে বিখ্যাত ব্যক্তিগণ। সেখানে দল, মত, গোষ্ঠীর কোনো নেই বাছবিচার। তবে ব্যক্তিগত সুসম্পর্ক কখনো তার সাংবাদিক সত্তাকে আচ্ছন্ন করে না। যা উচিত বলে মনে করেন পরম বন্ধুর বিরুদ্ধে হলেও সে কথা লিখতে তার দ্বিধা নেই। এই আপসহীনতাই তাকে এগিয়ে এনেছে। আপনার সততা, প্রজ্ঞা,মেধা,বিচক্ষণতা,বুদ্ধিমত্তা দিয়ে সামনে আরো এগিয়ে যান।তাঁর জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন,
রাজাপুর সাংবাদিক ক্লাবের সকল সদস্য। তাঁর জন্মদিন উপলক্ষে সকালের কাছে দোয়া কামনা করেছেন।

স্কুল খুললে জামা-জুতা পাবে শিক্ষার্থীরা

স্কুল খুললে জামা-জুতা পাবে শিক্ষার্থীরা

নিউজ ডেস্ক:সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় খুললে শিক্ষার্থীদের জামা-জুতা কেনার টাকা দেওয়া হবে। নগদের মাধ্যমে এ অর্থ অভিভাবকের মোবাইল নম্বরে পাঠানো হবে। কিটস অ্যালাউন্স হিসেবে প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীকে এক হাজার টাকা করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন।সোমবার মন্ত্রণালয়ে নগদের মাধ্যমে দেশের আটটি উপজেলায় উপবৃত্তি প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা জানান।

জাকির হোসেন বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষার্থীদের জামা-জুতা কেনার জন্য কিটস অ্যালাউন্স বাবদ এক হাজার টাকা দেওয়ার কথা থাকলেও তা সম্ভব হয়নি। আমরা সব শিক্ষার্থীদের তথ্য যুক্ত করেছি। বিদ্যালয় খুললে নগদের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের কাছে এ অর্থ পৌঁছে দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, এখন থেকে নগদের মাধ্যমে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির অর্থ দেওয়া হবে। আজ ৮ উপজেলার ৮৬ হাজার ৫২ জনের গত তিন মাসের উপবৃত্তি দেওয়ার মাধ্যমে এ কার্যক্রম উদ্বোধন হল। পর্যায়ক্রমে দেশের সব জেলায় নগদের মাধ্যমে উপবৃত্তির অর্থ পাঠানো হবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, গত তিন মাস ধরে প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে ৪৫০ টাকা করে দেওয়া হবে।  আট উপজেলার জন্য ৩ কোটি ৬৪ লাখের বেশি অর্থ বিতরণ করা হবে।
তথ্যের উৎস: দৈনিক শিক্ষা ডটকম

দৌলতপুরে ঘাস মরা বিশ প্রয়োগে কৃষকের পান বরজ নষ্ট। অভিযোগ তদন্তকারী কর্মকর্তার গাফিলতি

দৌলতপুরে   ঘাস মরা বিশ প্রয়োগে কৃষকের পান বরজ নষ্ট। অভিযোগ তদন্তকারী কর্মকর্তার গাফিলতি

কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি //কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার মথুরাপুর পিপলস ডিগ্রী কলেজের পূর্ব পাশ্বে প্রায় ১০ দিন আগে ঘাস মরা বিশ প্রয়োগ করে রুবেল হোসেন পিতাঃ- তহির মালিথা সাং খাস মথুরাপুরের পান বরজ  নষ্ট করে দেয় সন্দেহভাজন ১ বা একাধিক  ব্যাক্তি। 
পরবর্তীতে ৩১/০১/২০২১ এ রুবেল হোসাইন থানায় এসে সন্দেহভাজন ১ জনকে আসামী করে ১ টি অভিযোগ করেন দৌলতপুর থানায় এবং অভিযোগের তদন্তের জন্য দায়িত্ব দেওয়া হয় খাস মথুরাপুর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এস আই সন্জিত কুমার কে। 
পরবর্তীতে এস আই সন্জিত কুমার তদন্তের কাজে গেলে থানায় অভিযোগকারী রুবেল হোসাইনের অভিযোগের মধ্যে উল্লখিত ও তার সন্দেহভাজন এবং পাশের পান বরজ থেকেই বিষ, বিষ স্প্রে করা মেশিনের মাথা এবং বিষ ভর্তি বোতল সেখান থেকে উদ্ধার করেন অভিযোগের তদন্ত কর্মকর্তা খাস মথুরাপুর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ সন্জিত কুমার। 
এর দুইদিন পরই  সন্দেহভাজন ব্যাক্তি মোঃ সাহাজুল ইসলাম (৪৫) পিতাঃ মৃত আরজেল এলাকার বিভিন্ন মানুষের কাছে ব্যাপারটি সালিশি মিমাংসায় দফারফা করার জন্য ঘুরে বেড়ায় এবং এই দফারফার মধ্যস্ততা করতে চান মথুরাপুর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ ও অভিযোগের তদন্ত কর্মকর্তা এস আই সন্জিত কুমার। শুধু তাই নয় এস আই সন্জিত কুমার সন্দেহভাজন ব্যাক্তির পান বরজের মধ্যে থেকে ঘাস মরা বিষ ও স্প্রে করা মেশিনের মাথা পাই পায়ের ছাপ পাই এবং তথ্য প্রমান থাকা সত্যেও এখন পর্যন্ত নেই কোন পদক্ষেপ। মোঃ সাহাজুল ইসলাম স্থানীয় দালালের মাধ্যমে  এস আই সন্জিত কুমারের কাছে ও প্রস্তাব দেন সালিসি দফারফা করার এবং এস আই সন্জিত কুমার তাতেও রাজিও হয়ে যান। এ দিয়েই শেষ নয় তদন্ত কর্মকর্তা ভুক্তভোগী পরিবারের এক সদস্যকে মোবাইল ফোনে বিষয়টি সালিসি মীমাংসায় দফারফা করার ও এক প্রকার প্রস্তাব করেন। 
মথুরাপুরের মানুষের অর্থনীতির মুল চালিকা শক্তি পান ক্ষেত আর এই পান ক্ষেত নষ্ট করার অভিযোগ তদন্তে যদি হয় গাফিলতা তাহলে কৃষকের এই অর্থনৈতিক ক্ষতির দায় কে নেবে  এমন মন্তব্য সুশীল সমাজের ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের।

আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় আশাশুনি থানায় পিকআপ ভ্যান হস্তান্তর করেন উপজেলা চেয়ারম্যান

আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় আশাশুনি থানায় পিকআপ ভ্যান হস্তান্তর করেন উপজেলা চেয়ারম্যান

আহসান উল্লাহ বাবলু  . আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধি:আশাশুনি উপজেলার আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে থানায় পিকআপ ভ্যান হস্তান্তর করা হয়েছে। রবিবার দুপুরে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে পুলিশ সুপার মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম(বার) নিকট চাবি হস্তান্তর করেন আশাশুনি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মোস্তাকিম। রবিবার দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে থেকে আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ গোলাম কবির এর হাতে এ পিকআপ ভ্যানটির চাবি আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করেন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম (বার)। এসময় তিনি বলেন, আশাশুনি উপজেলার আইন শৃঙ্খলা রক্ষা জোরদারকরণের লক্ষে থানা পুলিশকে আমার মাধ্যমে এ পিকআপ ভ্যানটি উপহার প্রদান করেছেন আশাশুনি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এবিএম মোস্তাকিম। এ পিকআপ ভ্যান দ্বারা আশাশুনি থানা পুলিশ উপজেলার আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারবে। এসময় তিনি আশাশুনি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানান। পিকআপ ভ্যানটি হস্তান্তরকালে আশাশুনি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এবিএম মোস্তাকিম বলেন, আমি আশাশুনি উপজেলা থেকে মাদক, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজী, দূর্নীতি, চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই ও বিভিন্ন ধরণের প্রতারণা নির্মূলে এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে ডিউটি জোরদারকরণের লক্ষে থানা পুলিশকে এ পিকআপ ভ্যানটি উপহার হিসাবে প্রদান করেছি। আশাকরি এ পিকআপ ভ্যানটির সাহায্যে পুলিশ সদস্যরা আশাশুনি থানা এলাকায় ডিউটি আরও জোরদার করে উপজেলাবাসীর সেবক হয়ে কাজ করতে পারবে।

রাজাপুরে মুজিব শতবর্ষের শর্ট পিচ মিনি ডে নাইট টুর্নামেন্ট ফাইনাল খেলায় পিংড়ী বাড়ই বাড়ি একাদশ চ্যাম্পিয়ন

রাজাপুরে মুজিব শতবর্ষের শর্ট পিচ মিনি ডে নাইট টুর্নামেন্ট ফাইনাল খেলায় পিংড়ী বাড়ই বাড়ি একাদশ চ্যাম্পিয়ন

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন স্টাফ রিপোর্টার: 
ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার বড় কৈবর্তখালীর ৩৬ নং বড় কৈবর্তখালি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে সোমবার বিকেলে বড় কৈবর্তখালী সর্ট পিচ মিনি ডে নাইট টুর্নামেন্টর ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ফাইনাল খেলায় রাজাপুর ব্লাড ডোনেশন ক্লাবকে ৪২ রানে হারিয়ে পিংড়ী একাদশ চ্যাম্পিয়ান হয়েছে। পিংড়ি একাদশ দলের ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হয়েছে তাসরিফ হোসেন। চ্যাম্পিয়ান দলের অন্য খেলায়াড়রা হলো সুজন দাস,জয়দেব, এমদুল,ইমরান, নিবু,টিটু,সিয়াম,রাজিব দাস ফয়সালা ও সুজন। এ টুর্নামেন্টে বিভিন্ন স্থান থেকে ২৪ টি দল অংশগ্রহণ করে। খেলা শেষে চ্যাম্পিয়ান ও রানার্স আপ দলের খেলোয়াড়দের হাতে ট্রফি তুলে দেন অতিথিরা। ক্রীড়াপ্রেমী সৈয়দ মেহেদী হাসান রুমান,সৈয়দ জাহিদ, শামীম সিকদার সহ উদীয়মান কয়েক তরুণ এ খেলার আয়োজন করেন। আয়োজকরা জানান, বর্তমান প্রজন্মকে মাদক ও মোবাইল আসক্তির হাত থেকে রক্ষায় তাদের খেলাধুলার প্রতি আগ্রহ বাড়িয়ে মাঠে ফিরাতে এ টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়। ভবিষ্যতেও এধরণের টুর্নামেন্টের আয়োজনের ধরা অব্যাহত থাকবে।

নওগাঁর বদলগাছীতে চার বন্ধুর স্বপ্নের আমবাগান প্রতিহিংসার ছোবলে নিঃশেষ এলাকাবাসীর মানববন্ধন

নওগাঁর  বদলগাছীতে চার বন্ধুর স্বপ্নের আমবাগান প্রতিহিংসার ছোবলে  নিঃশেষ এলাকাবাসীর মানববন্ধন

রহমতউল্লাহ আশিকুর জামান  নুর,নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি:নওগাঁর বদলগাছীতে শুক্রবার রাতের আধারে শত্রুতার জেরে ৪ বিঘা জমির ৬' শ আম্ররুপালী আমগাছ দূরত্তৃরা কেটে ফেলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসি। 

প্রতি হিংসা মানুষের মানুষত্ব কে নষ্ট করে  তার কবলে  বলি হয় হাজারো নিষ্প্রাণ।সেরকমই প্রতিহিংসার ছোবলে চার বন্ধুর স্বপ্নের আমবাগান, বলি হলো নিষ্পাপ বৃক্ষ ও,বদলগাছী উপজেলার গয়েশপুর গ্রামে ওই আম বাগানের সামনে রাস্তায় সোমবার সকাল ১০ টা থেকে ১১ টা পর্যন্ত  এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

মানববন্ধনে গাছ কর্তনকারী দূবৃর্ত্তদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও শাস্তি দাবি করেন মানববন্ধনকারীরা। এ সময় মথুরাপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাকি চৌধুরি, বাগান মালিক মির্জা ইউসুব আলী বিপ্লব, মাহবুব আলম চৌধুরী বাবু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। মানববন্ধনে এলাকার শত শত নারী,পুরুষ,শিশু অংশ গ্রহন করেন।

মানববন্ধনে মথুরাপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাদী চৌধুরি টিপু বলেন, বলেন আম  গাছ কর্তন কারীরা জঘন্য তম অপরাধ করেছেন। তাদের অবিলম্বে সনাক্ত করে গ্রেফতার শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

বাগান মালিক মাহবুব আলম চৌধুরি বাবু বলেন, আমাদের ৪ বন্ধুর কারো সাথে কোন শত্রুতা বা বিরোধ নেই।আমরা এলাকায় ৭২ বিঘা জমিতে বাগান গড়ে তুলেছি। অথচ কারা কি কারনে শুক্রবার দিবাগত রাতে আম বাগানের ৬'শ আম গাছ রাতের অন্ধকারে কেটে ফেলেছে জানিনা। আমরা মামলা করেছি আশাকরছি অপরাধীদের শাস্তি হবে।

জেলার বদলগাছী উপজেলার ৪ বন্ধু, গয়েশপুর গ্রামের মির্জা ইউসুব আলী বিপ্লব, মাহবুব আলম চৌধুরী বাবু এবং হাটশাপিলা গ্রামের এলভি চৌধুরী ও মেহেদী চৌধুরী ।এদের মধ্যে এলভি চৌধুরী ও মেহেদী চৌধুরী ঢাকায় চাকুরী করেন। ৪ বন্ধু এলাকাবাসীকে নতুন কিছু উপহার দিতে এবং বেকারদের অনুপ্রেরণা জোগাতে জমি লীজ নিয়ে তারা আম বাগান, ষ্ট্রবেরী ও ড্রাগণ ফলের চাষ শুরু করেন। এক বছর আগে ৪ বন্ধুর সিদ্ধান্তক্রমে গয়েশপুর গ্রাম সংলগ্ন হাটশাপিলা মৌজায় ৪ বিঘা জমিতে আম বাগানসহ মোট ৭২ বিঘা জমিতে বাগান তৈরি করেন। প্রায় অধিকাংশ গাছে এবার মকুল এসেছে। শুক্রবার দিবাগত রাতে আম বাগানের ৬'শ আম গাছ রাতের অন্ধকারে কেটে ফেলেছে দূূর্বৃত্তরা। এতে ওই আম বাগানের মালিক ৪ বন্ধুর প্রায় ৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে তারা দাবি করেছেন।

বদলগাছী থানার চৌধুরি জোবায়ের আহমেদ বলেন,  আম গাছ কর্তনের বাগান মালিকদের একজন আবু হায়াৎ মো:মিনহাজ চৌধুরি এলভিজ বাদী হয়ে বদলগাছী থানায় অঙ্গাতনামা ব্যক্তিদের আসামী করে মামলা করেছেন। আসামীদের দ্রুত সনাক্ত করে গ্রেফতারের তৎপড়তা চলছে

কাগজ ঠিক থাকলে ফুলেল শুভেচ্ছা, না থাকলে মামলা

কাগজ ঠিক থাকলে ফুলেল শুভেচ্ছা, না থাকলে মামলা

জামিরুল ইসলাম জয়পুুরহাট জেলা প্রতিনিধি: দ্রুততম সময়ের মধ্যে মোটর যানের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র চেকিংসহ ট্রাফিক হয়রানী রোধে জয়পুরহাটে শুরু হলো পজ-মেশিন প্রসিকিউশন এন্ড ফাইন পেমেন্ট সিস্টেম এর ই-ট্রাফিকিং ব্যবস্থা।

সোমবার দুপুরে শহরের জিরো পয়েন্ট এলাকায় জেলা পুলিশের আয়োজনে এর উদ্বোধন করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সালাম কবির।

এ সময় অভিযানে মোটর চালকদের মোটরযানের সব ধরনে কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করা হয়। এতে সে সকল চালকদের কাগজপত্র সঠিক পাওয়া যায়, তাদেরকে ফুলের শুভেচ্ছা জানানো হয়। আর যেসব চালকদের কাগজপত্র ঠিক নেই তাদের গাড়ির বিরুদ্ধেএই পজ-মেশিনের মাধ্যমে জরিমানা করা হয়। এছাড়া ট্রাফিক আইন বিষয়ে সাধারণ জনগণকে বিভিন্ন সচেতনতামূলক পরামর্শ দেয়া হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাজ্জাদ হোসেন, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আলমগীর জাহান, ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক জামিরুল ইসলাম, জেলা মোটর শ্রমিকের সাধারন সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রফিক, জয়পুরহাট প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক খ.ম আব্দুর রহমান রনি।

দিনাজপুর বেসরকারী ক্লিনিক এন্ড ডায়াগস্টিক মালিক সমিতির উদ্দ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি

দিনাজপুর বেসরকারী ক্লিনিক এন্ড ডায়াগস্টিক মালিক সমিতির উদ্দ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ করলেন হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি

দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুর বেসরকারী ক্লিনিক এন্ড ডায়াগস্টিক মালিক সমিতির উদ্দ্যোগে অসহায় ৭ শতাধিক মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করলেন জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি।

৮ ফেব্রুয়ারী সোমবার বিকেলে দিনাজপুর শহরের বন্ধন কমিউিনিট সেন্টারে  দিনাজপুর বেসরকারী ক্লিনিক এন্ড ডায়াগস্টিক মালিক সমিতির উদ্দ্যোগে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি। 

সংগঠনের সহ: সভাপতি ডা: মমতাজ বেগম পলির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডা: মো: আব্দুল কুদ্দুস, প্রেসক্লাবের সা: সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল, বিএমএ‘র সভাপতি ডা: এসএম ওয়ারেস।

অনুষ্ঠানে অতিথিদের ক্রেস্ট দিয়ে বরন করে নেন দিনাজপুর বেসরকারী ক্লিনিক এন্ড ডায়াগস্টিক মালিক সমিতির সভাপতি ডা: মো: মনসুর আলী সরকার সা: সম্পাদক মো: আতিকুর রহমান নিউ, সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সা: সম্পাদক এবং বর্তমান সহ:সভাপতি মো: আসাদুর রহমান ভুইয়া (তপন),সহ:সভাপতি ডা: মমতাজ বেগম পলি। এছাড়াও সবাইকে ফুল দিয়ে অতিথিদের বরণ করে নেন সংগঠনের সদস্য সবুজ, আতিক, সিদ্দিক, বুলু, বকুল, মতিন, ইভা, শামীম। 
শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে শহরের বিভিন্ন এলাকার অসহায় ৭ শতাধিক নারী ও পুরুষের মাঝে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরন করা হয়েছে

নবীনগরে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মানববন্ধনের পর ঘটনাস্থলে সত্যতা যাচাইয়ে ইউ এনও একরামুল ছিদ্দিক

নবীনগরে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মানববন্ধনের পর ঘটনাস্থলে সত্যতা যাচাইয়ে ইউ এনও একরামুল ছিদ্দিক

এস.এম অলিউল্লাহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উওর কাইতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আসলাম মৃধা মাদকাসক্ত ও দূর্নীতিবাজ হওয়ায় তার পরিষদের সকল সদস্য এক সাথে সাংবাদিক সম্মেলন করে অনাস্থা দেয়ার পর গতকাল (০৭/০২) রবিবার স্থানীয় খেলার মাঠে চেয়ারম্যানের অপসারণের দাবিতে শতশত জন সাধারণের উপস্থিতিতে মানববন্ধন করেন।এখবর বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় প্রকাশিত  হওয়ার পর নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একরামুল ছিদ্দিক আজ (০৮/০২) সোমবার কাইতলা উওর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে ছুটে গিয়ে ঐ পরিষদের সকল সদস্যদের ঘটনা সত্যতা যাচাইয়ে জিজ্ঞাসা বাদ করেন।
ইউ এনও কে কাছে পেয়ে ঐ পরিষদের সকল সদস্যদের মধ্যে  ন্যায় বিচার পাওয়ার স্বতঃস্ফূর্ত উল্লাস পরিলক্ষিত দেখা যায়।
এসময় তারা ইউ পি চেয়ারম্যানের পাশাপাশি ইউপি সচিবের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন যে,তিনিও চেয়ারম্যানের ন্যায় দূর্নীতিগ্রস্থ এবং ঠিক মত অফিস না করায় সাধারণ মানুষ সরকারি সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তাই পরিষদের সকল সদস্যগণ সচিবের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানান। এবং চেয়ারম্যানের সকল দূর্নীতি চিত্র তুলে ধরে অপসারণের দাবি জানান।

সকল অভিযোগের বিষয়ে কাইতলা উওর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আসলাম মৃধা বলেন,আমরা পরিষদের সকল সদস্যগণ যেভাবে আমার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছে আমিও ঠিক সেইভাবে লিখিত আকারে জবাব দাখিল করব,যদি আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগগুলো সত্য হয় তবে আমাকে অপসারণ করা হলে আমার কোন আপত্তি থাকবে না।

এসম্পর্কে নবীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা একরামুল ছিদ্দিক বলেন,  উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা, এই পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের উপস্থিতিতে ইউনিয়ন সচিবের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেছি এমনকি চেয়ারম্যান নিজেও শিকার করেছেন সচিব ঠিক মত অফিস করেন না,তাছাড়া চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের বিষয়ে সচিব অনুপস্থিত থাকায় তিনি আগামীকাল আমাদের কাছে লিখিত জবাব দিবেন বলে জানিয়েছেন। আমি সবগুলো অভিযোগ ও তার জবাবের সমন্বয় করে সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে আমাদের ঊর্ধ্বতনের নিকট লিখিত আকারে জানাব। তার সাথে আমি চায় উওর কাইতলা একটি সুন্দর ইউনিয়ন হয়ে গড়ে উঠুক এবং সাধারণ মানুষ এখানে সরকারি সকল সেবা সুন্দরভাবে উপভোগ করুক।

মহম্মদপুর উপজেলায় পাখি ধরাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ - আহত ৭

মহম্মদপুর উপজেলায় পাখি ধরাকে  কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ - আহত ৭

আবু নাঈম কাজী,মহম্মদপুর মাগুরা: মাগুরা জেলার মহম্মদপুর উপজেলার বাবুখালী ইউনিয়নের বাঁশো গ্রামে পাখি ধারাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ হয়।আজ আনুমানিক সকাল সাড়ে ৮ টার সময় বাশো গ্রামের আজিজার মোল্যার পোষা পাখি রাসেলদের বাড়িতে আসার রাসেল ধরে পাখি টাকে। রাসেল পাখিটাকে কেন ধরেছে এই নিয়ে নিজেদের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। পরে আজিজার মোল্ল্যার গ্রুপ ও বাবলু ( মেম্বারের)  গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। উক্ত সংঘর্ষে বাবলু মেম্বার গ্রুপের ৫ জন আহত হয়।এরা হলো ১.কবির মোল্যা (৩৮) এর মাথায় আঘাত ২. জিবলু  মোল্যা মাথায় আঘাত ৩. কিবির মোল্যা হাত ও পায়ে আঘাত ৪.কুটি মিয়া মাথায় আঘাত ৫.ছিয়ারন বেগম আহত এবং আজিজার মোল্ল্যা গ্রুপের ২ জন আহত হয়। এরা হলো ১ আজিজার মোল্ল্যার বাম কাধে আঘাত ২.সবুরা বেগম  আহত। উভয় পক্ষের আহতদের কে মাগুরা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট  সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 
স্থানীয় সূত্রে জানা যায় এই দুই গ্রুপের মধ্যে জমি সংক্রান্ত পূর্ব শত্রুতা রয়েছে।

এ ব্যাপারে মহম্মদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ তারক বিশ্বাস বলেন, পাখি ধারাকে  কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে।আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।সকলেই মাগুরা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট  সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি।অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্ক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রাজাপুরে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেপ্তার

রাজাপুরে সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি গ্রেপ্তার

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন স্টাফ রিপোর্টার 
ঝালকাঠির রাজাপুরে সোহাগ সিকদার নামে এক দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার গভীর রাতে উপজেলার গালুয়া এলাকার নিজবাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত সোহাগ উপজেলার গালুয়া বাজার এলাকার মৃত খলিল সিকদারের ছেলে। পুলিশ বলছে, ২০১৩ সালে বিদ্যুৎ আইনে সোহাগ সিকদারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন বিদ্যুৎ বিভাগ। সেই মামলা আদালত তাকে দুই বছর সশ্রম কারাদণ্ড সহ ১০ হাজার টাকা অর্থদÐ আনাদায়ে আরও তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদÐ প্রদান করেন। এরপর থেকে দীর্ঘদিন সে পলাতক ছিল। রাজাপুর থানা ওসি শহিদুল ইসলাম জানান, সোহাগ সিকদারকে সোমবার সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

রাজাপুরের সমাজসেবক খালেক হাওলাদার আর নেই, শোক প্রকাশ

রাজাপুরের সমাজসেবক খালেক হাওলাদার আর নেই, শোক প্রকাশ

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন স্টাফ রিপোর্টার 
ঝালকাঠির রাজাপুরের পশ্চিম ইন্দ্রপাশা গ্রামের বাসিন্দা সমাজসেবক আব্দুল খালেক হাওলাদার (৭৫) বাধক্যজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে সোমবার দুপুরে নিজবাড়িতে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি.....রাজিউন)। তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন রেখে গেছেন। সোমবার আসরবাদ নামাজে জানাজা শেষে নিজ বাড়ির পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

রাজাপুরে চুলার আগুনে পুড়েছে বসতঘর, খোলা আকাশের নিচে আশ্রয়

রাজাপুরে চুলার আগুনে পুড়েছে বসতঘর, খোলা আকাশের নিচে আশ্রয়

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন স্টাফ রিপোর্টার  ঝালকাঠির রাজাপুরের পূর্ব রাজাপুর গ্রামের হাওলাদার বাড়ি মসজিদ এলাকার মোবাক্ষের আলী হাওলাদারের ছেলে মো. ডালিম হাওলাদারের বসতঘরে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার দুপুরে ডালিম হাওলাদারের রান্না ঘর থেকে আগুন লেগে পুরো বসতঘরে আগুন ছড়িয়ে যায়। এতে কমপেক্ষ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্থদের দাবি। স্থানীয়রা জানান, রান্না চড়িয়ে অন্যত্র কাজে যান ঘরের লোকজন পরে রান্না ঘরে আগুন দেখে বাড়ির অন্য লোকজন ডাক চিৎকার দেয় এবং ফায়ার সার্ভিস খবর দেয়। খবর পেয়ে রাজাপুর ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা এসে স্থানীয়দের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। রাজাপুর ফায়ার সার্ভিসের ফায়ারম্যানরা জানান, দ্রæত সময়ের মধ্যে এসে আগুন নিয়ন্ত্রন করায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমান কম হয়েছে। চুলা থেকেই আগুনের সূত্রপাত বলেও জানান ফায়ার সার্ভিস। এদিকে শেষ আশ্রয় বসতঘর হারিয়ে খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে পরিবারটি।

ঝিকরগাছায় স্বপ্নলোকের পাঠশালা’র ২য় ক্যাম্পাস’র ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন

ঝিকরগাছায় স্বপ্নলোকের পাঠশালা’র ২য় ক্যাম্পাস’র ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন

আফজাল হোসেন চাঁদ : যশোরের ঝিকরগাছায় স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান পেন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে পৌর সদরের মোবারকপুরস্থ কলেজপাড়াতে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য প্রতিষ্ঠিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্বপ্নলোকের পাঠশালা'র ২য় ক্যাম্পাস'র  ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে।
সোমবার সকাল ৯টায় স্বপ্নলোকের পাঠশালা'র ২য় ক্যাম্পাস'র  ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনে উপস্থিত ছিলেন স্বপ্নলোকের পাঠশালা'র সভাপতি ও কথা সাহিত্যিক সফিয়ার রহমান, প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক মেঘনা ইমদাদ, অবসরপ্রাপ্ত সমবায় অফিসার এবিএম আক্তারুজ্জামান, কবি ও সাহিত্যিক টিপু সুলতান, পেন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ইমদাদুল হক ইমদাদ, সাংবাদিক আফজাল হোসেন চাঁদ, শিক্ষক রিজন বিশ্বাস, স্বপ্নলোকের পাঠশালা'র ২য় ক্যাম্পাস'র শিক্ষক বিথী খাতুন সহ আরো অনেকে।
উল্লেখ্য, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন পেন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ২০১৭ সালে এলাকার পিছিয়ে পড়া, হতদরিদ্র, পিতৃ-মাতৃহীন শিশুদের নিয়ে নিজেদের অর্থায়নে ঝিকরগাছা পৌরসভার অভ্যন্তরে কৃষ্ণনগর মাঠপাড়ায় প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্বপ্নলোকের পাঠশালা পরিচালিত হচ্ছে। এ বছর স্বপ্নলোকের পাঠশালা'র ২য় ক্যাম্পাসে মোট ৭০জন শিক্ষার্থী অধ্যায়ন করছে। অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক মেঘনা ইমদাদ বলেন, সমাজের প্রতি নিজের দায়বদ্ধতা থেকেই এই প্রতিষ্ঠানটা এপথ চলা শুরু হয়। আমার এই কাজে আমার স্বামী সহ সমাজের অনেকেই উৎসাহ ও সহযোগিতা করেছেন। এমনই ভাবে যদি কোন ব্যক্তি সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পাশে দাঁড়ায় তাহলে হয়তো একদিন আমাদের এই দেশটি বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা হতে বেশি সময় লাগবে না।

কুমিল্লায় নাঙ্গলকোট মা ও ভাবিকে গলা কেটে হত্যা: ঘাতক আটক

কুমিল্লায় নাঙ্গলকোট মা ও ভাবিকে গলা কেটে হত্যা: ঘাতক আটক

মোঃ রবিউল হোসাইন সবুজ, কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ কুমিল্লা নাঙ্গলকোট উপজেলার আদ্রা দক্ষিণ ইউনিয়নের পুজকরা গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে  মা ও  ভাইয়ের বউকে গলা কেটে হত্যা করে।
(৮ ফেব্রুয়ারি) সোমবার  পুজকরা গ্রামের সাইফুল (২৮) নামে এক যুবক এ  হত্যাকান্ড ঘটায়। 

নিহতরা হলেন উপজেলার আদ্রা দক্ষিণ ইউনিয়নের পুজকরা গ্রামের আব্দুল হামিদের স্ত্রী নুরজাহান বেগম (৫৯) ও তার ছেলে আব্দুল আজিজের স্ত্রী পুষ্প আক্তার (৪৫) আর ছুরিকাঘাতে আহত হয়ে ভাতিঝি আরজু (২৮) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।অন্যদিকে এ হত্যাকান্ডের মূল আসামি  সাইফুল (২৮) কে আটক করেছে নাঙ্গলকোট থানা পুলিশ।

নাঙ্গলকোট থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: বখতিয়ার উদ্দিন এ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ দুটি থানায় আনা হয়েছে। ঘাতককে ছুরিসহ বাসা থেকে আটক করা হয়েছে। মরদেহ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য কুমেক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। তদন্ত শেষে হত্যাকান্ডের মূল কারণ জানানো হবে।

তাহিরপুরে ডুবন্ত বাধেঁর ব্রীজ বন্ধকরন পুনরাকৃতিকরন কাজের শুভ উদ্বোধন

তাহিরপুরে ডুবন্ত বাধেঁর ব্রীজ বন্ধকরন পুনরাকৃতিকরন কাজের শুভ উদ্বোধন

আবু সায়েম, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃআজ ০৮ ই ফেব্রুয়ারী (সোমবার) ২০২০-২০২১ ইং অর্থ বছরে অনুন্নয়ন রাজস্ব খাতের আওতায় সুনামগঞ্জ পত্তর বিভাগ -১ বাপাউবো সুনামগঞ্জ জেলাধীন তাহিরপুর উপজেলার  মাতিয়ান হাওর উপ-প্রকল্পের কি,মি ৩২.০০০ হতে কি,মি ৩২.৩৯৮= ০.৩৯৮ কি,মি পর্যন্ত ডুবন্ত বাধেঁর ব্রীজ বন্ধকরন পুনরাকৃতিকরন  প্রকল্প বাস্তবন কমেটি নং (৭২) কাজের শুভ উদ্বোধন।।

সুনামগঞ্জ জেলার অন্তর্গত হাওর অঞ্চল তাহিরপুর  উপজেলার মাটিয়ান হাওরের আলমখাঁলী বেরীবাঁধের উওর পাশের কাউকান্দি এবং বড়দল গ্রামের মধ্যস্থানের আফর বেঁরিবাধ ৭২ নং পিআইসি'র কাজ শুভ উদ্ধোধন করা হয়েছে,

উদ্বোধন কালে উপস্থিত ছিলেন প্রকল্পের পিআইসি সভাপতি আইন উদ্দিন,সদস্য সচিব বাচ্চু মিয়া,সদস্য মঈনুল ইসলাম,রফিকুল ইসলাম,নুরুজ্জামান,দক্ষিণ বড়দল ইউনিয়ন ৫ নং ওয়ার্ড আওয়ামিলীগ সভাপতি নুর ইসলাম,ও ৫ নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার দক্ষিন বড়দল ইউনিয়ন যুবলীগের সম্মানিত সভাপতি সাইফুল ইসলাম এবং তাহিরপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পারভেজ আহমেদ মামুন প্রমুখ সহ স্থানীয় মুরুব্বি এবং যুবসমাজ ও কৃষকগন উপস্থিত
ছিলেন।

৩নং বড়দল দক্ষিণ ইউনিয়ন ৫নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার সাইফুল ইসলাম বলেন,বেড়িবাঁধের কাজে কোন ধরনের অনিয়ম ও দুর্নীতি করা না হয়।খুব দ্রুত কাজ সম্পন্ন করা হলে ভালো হয় বলে জানান।প্রকল্পের মাটির পরিমাণ-৩৫,১০.৬১ ঘন মিটার, মোট বরাদ্দের পরিমাণ- ১১,২৮,৬০২,.৩৪/-উদ্বোধনের কাজ মোনাজাতের মাধ্য দিয়ে শেষ করা হয়।।

নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের শপথের পর অসৎ কাজ ছাড়তে বললেন খুলনা সিটি মেয়র

নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের শপথের পর অসৎ কাজ ছাড়তে বললেন খুলনা সিটি মেয়র

মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা: মোংলা বন্দরকে ষড়যন্ত্র করে বিএনপি শেষ করেছিল, আ'লীগ ক্ষমতায় এসে সেটিকে পুনরজ্জিবিত করেছে জানিয়ে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও মহানগর আ'লীগের সভাপতি তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন- শেখ হাসিনা ক্ষমতায় না থাকলে মোংলা বন্দর আলোকিত হতনা।

সোমবার (৮ ফেব্রæয়ারী) সকালে স্থানীয় আ'লীগ আয়োজিত বর্ধিত সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। আ'লীগের দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এ সভায় পৌরসভার নির্বাচন প্রসঙ্গে টেনে তিনি এসময় বলেন, দীর্ঘ ১০ বছর পর হওয়া মোংলা পৌরসভা নির্বাচন সুষ্ঠ হয়েছে। এই নির্বাচনে জনগন সাড়া দিয়ে মেয়র থেকে শুরু করে আ'লীগ সমর্থিত ১২ কাউন্সিলর প্রার্থীকে জয়ী করেছেন।

সাতবার এ পৌরসভা নির্বাচনে এবারই প্রথমবার আ'লীগ সমর্থিতদের জয় হওয়ায় পৌরসভাকে আ'লীগের ঘাঁটি বানাতে দলীয় নেতা কর্মিদের নির্দেশও তিনি। পাশাপশি নব নির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের হুশিয়ারী করে বলেন, আগে যা যা করেছেন আগামীকাল ৯ ফেব্রেæয়ারী শপথ গ্রহনের পর তা ভুলে যান। অসৎ কার্যকলাপসহ জমি দখল করবেন না বলেও নবনির্বাচদের নির্দেশনা দেন মোংলা-রামপালের সাবেক এই সংসদ সদস্য।

আগামী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে যাকে মনোনয়ন দেয়া হবে তার পক্ষে কাজ করতে নেতা কর্মিদের আহবানও করেন তিনি।

বর্ধিত এসভায় মোংলা উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, পৌর আ'লীগের সভাপতি ও নব নির্বাচিত পৌরসভার মেয়র শেখ আব্দুর রহমান,উপজেলা আওয়ামিলীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম হোসেন, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ কামরুজ্জামান জসিম, চাদপাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোল্লা তরিকুল ইসলাম, মিঠাখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইস্রাফিল হাওলাদার, চিলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গাজী আকবর হোসেন, বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নিখিল চন্দ্র রায়, সুন্দরবন ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যান মোঃ কবির হাওলাদার সহ                                     নবনির্বাচিত কাউন্সিলররা সহ  প্রমুখ নেতা কর্মিরা উপস্থিত ছিলেন। 

নওগাঁর পোরশায় বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষ্যে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট উদ্বোধন

নওগাঁর পোরশায় বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষ্যে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট উদ্বোধন

 
রাজশাহী ব্যুরো: মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষ্যে নওগাঁর পোরশায় সরাইগাছি ফ্রেন্ডস ক্লাবের আয়োজনে ব্যাডমিন্টন খেলা উদ্বোধন করা হয়েছে। রবিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে সারাইগাছি মোড় জিরোপয়েন্ট ব্যাডমিন্টন গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত খেলায় ১৬টি দল অংশ গ্রহণ করেন।

ঢাকা নিজ বাস ভবন থেকে মোবাইল ফোনে বক্তব্য দিয়ে প্রধান অতিথি হিসাবে খেলার উদ্বোধন করেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ শাহ্ মঞ্জুর মোরশেদ চৌধুরী ও সাপাহার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহাজাহান হোসেন মন্ডল।

এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি ওবাইদুল্লাহ শেখ। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান কাজীবুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ফজলুল হক শাহ্ চৌধুরী, যুবলীগ নেতা আবু রাইহান মুন্না ,মোশাররফ হোসেন , ছাত্রলীগ নেতা আমজাদ হোসেন সহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। খেলা পরিচালনা করেন হিমেল সহ সংবাদিক বৃন্দ।

মোঃ ফিরোজ হোসাইন
রাজশাহী ব্যুরো
০১৭১০৯৬৭৫২২
০৮/০২/২১

ফলোআপঃ সাতক্ষীরায় দু'জনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারঃ নিহতের স্বামী ও দেবর আটক

ফলোআপঃ সাতক্ষীরায় দু'জনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারঃ নিহতের স্বামী ও দেবর আটক

আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃসাতক্ষীরার কলারোয়ায় মহিলা ও যুবকের রহস্যজনক ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার  ঘটনায় জড়িত থাকায় নিহতের স্বামী ও তার ছোট দেবরকে আটক করেছে পুলিশ৷

সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে কলারোয়া'র শ্রীপতিপুর গ্রামে  নিহতের বাড়ি সংলগ্ন পাঁচিলের পাশে থেকে হত্যায় ব্যবহৃত রড ও আলামত উদ্ধার করেছে পুলিশ৷ আটককৃতরা হলেন নিহত ফাতেমার স্বামী বাকপ্রতিবন্ধী শেখ আহসান ও তার আপন ছোট ভাই শেখ আসাদ৷ 

এ ঘটনায় সাতক্ষীরা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মির্জা সালাউদ্দিন বলেন, নিহত ফাতেমার সাথে দীর্ঘদিনের পরকীয়া সম্পর্কে ছিল শ্যামনগর উপজেলার ধুমঘাট এলাকার জয়নাল পাড়ের ছেলে নিহত করিম পাড়ের৷ 
ঘটনার দিন রাতে নিহত ফাতেমার শ্বশুরবাড়ি পরিত্যক্ত এক কক্ষে আপত্তিকর অবস্থায় দু'জনকে দেখেন তার স্বামী৷ 

এসময় নিহত ফাতেমার বাক প্রতিবন্ধী স্বামী ও তার ছোট দেবর আসাদের সহযোগিতায় প্রথমে দু'জনকে লোহার রড দিয়ে আঘাত করে হত্যা করে৷ পরে নিহত ফাতেমার গায়ে ব্যবহৃত কালো রঙের ওড়না ও গামছা দিয়ে গলায় বেঁধে দু'জনকে এক আম গাছের ডালে বেঁধে ঝুলিয়ে রাখে৷

 এ ঘটনায় নিহত করিম পারের বাবা জয়নাল পার একটি মামলা দায়ের করেন, তারই প্রেক্ষিতে ২৪ ঘন্টার ভিতরে ঘটনায় জড়িত থাকা প্রধান ২ আসামিকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ৷

তাদেরকে হত্যা মামলায় বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হবে৷ এসময় উপস্থিত ছিলেন কলারোয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মীর খায়রুল কবীর ও থানা পুলিশের সঙ্গীয় ফোর্স।

কোটচাঁদপুরের তালসার বাজার কবরস্থান থেকে কামারকুন্ডু সাবদারপুর সড়কের বেহাল দশা

কোটচাঁদপুরের  তালসার বাজার কবরস্থান  থেকে কামারকুন্ডু সাবদারপুর সড়কের বেহাল দশা

সম্রাট হোসেন, ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ তালসার কবরস্থান টু কামারকুন্ডু ভায়া সাবদারপুর রাস্তাটি শুভ উদ্বোধন করেন ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ইউসুফ আলী নাম করন  করেন সাবেক সংসদ সদস্য ঝিনাইদহ ৩ এর জনাব অধ্যক্ষ নবী নেওয়াজ। কিন্তু রাস্তাটি আন্দোলপোতার বট তলা মোড় পর্যন্ত পিচ হয়েছে কোন রকম চলে।কিন্তু এই বট তলার মোড় থেকে কামারকুন্ডু ও মামুনশিয়া হয়ে রাস্তায় খোড়া হয়েছে আজ প্রায় তিন বছর কিন্তু এই রোডের ইট বালি কোথায় গেল আর কেনই বা রাস্তার কাজ হচ্ছে না। এই রাস্তা খোড়ার কারনে কোন গাড়ি চলাচল করতে পারছে না। এই রাস্তা দিয়ে হাজারো মানুষ চলাচলের একমাত্র পথ। এটি অতি দ্রূত সংস্কার করা প্রয়োজন । এই রাস্তায় তালসার ঠিকডাঙ্গার মাঠ সংলগ্ন  একটি নতুন ব্রিজ  তৈরি না করেই পুরাতন অকেজো ব্রিজের উপর দিয়ে রাস্তা  পিচ করার কয়েক দিন পরে ব্রিজ টি ভেঙ্গে যায়। এই রাস্তা এখন মরন ফাঁদ হয়ে ওঠেছে।যাতায়াত করতে পারছে না এলাকার হাজার হাজার মানুষ। এই মাঠ দিয়ে আট গ্রামের চাষীরা তাদের ফসল তুলে নেন তাদের বাড়িতে কিন্তু রাস্তার  ব্রিজ টি ভাঙ্গার কারনে ফসল হয়তো মাঠে নষ্ট হতে পারে। আর ক্ষতির মধ্যে পড়বে এলাকার সাধারণ চাষীরা। না খেয়ে মরবে সাধারণ গরীব মানুষ। রাস্তা ও ব্রিজ টি  মেরামতের জোর দাবী করছেন এলাকার সব শ্রেনী পেশার মানুষ।  সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের আসু হস্তক্ষেপ কামনা করছে।

তারাকান্দায় সড়ক দূর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু

তারাকান্দায় সড়ক দূর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু

আর.জে মিজানুর রহমান ইমনঃ ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার মধুপুর গ্রামের মেসার্স জামান ফিলিং স্টেশন  নামক স্থানে সড়ক দূর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু । জানা যায়, (৮ই ফেব্রুয়ারি) রবিবার সন্ধ্যায় ময়মনসিংহ টু শেরপুর হাইওয়ে রোডের মধুপুর গ্রামের জামান ফিলিং স্টেশন নামক স্থানের সামনে একটি ট্রাকের সাথে মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে । আশেপাশের লোকজন বলেন, মোটরসাইকেল আরোহী উসমান গনি গাড়ি রানিং অবস্থায় রাস্তায় পড়ে যান, সেই সময় পিছনে আসা অন্য একটি ট্রাক তার পায়ের উপর দিয়ে চলে যায় এতে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলেই সে নিহত হন । পরে তার লাশ উদ্ধার করে তারাকান্দা থানা পুলিশ । তারাকান্দা থানা পুলিশ 

তিনি ময়মনসিংহের ধোবাউড়া উপজেলার সাধুয়ার কান্দা গ্রামের মৃত জয়নাল আবেদিনের পুত্র উসমান গনি (৫৩) সে চন্দ্রনাথ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছিলেন । তারাকান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল খায়ের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের মোটরসাইকেল ও ট্রাকটিকে থানা আটক করা হয়েছে । চালক কে আটক করতে পারেনি । সে গাড়ি রেখে ঘটনাস্থলেই পালিয়ে যায় ।

হাতীবান্ধায় বীরমুক্তিযোদ্ধা কে বেঁধে রাখলেন ইউপি চেয়ারম্যান!

হাতীবান্ধায় বীরমুক্তিযোদ্ধা কে বেঁধে রাখলেন ইউপি চেয়ারম্যান!

রশিদুল ইসলাম রিপন, লালমনিরহাট প্রতিনিধি,
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় আকবর আলী ওরফে ধনী (৭৫) নামে এক বীর মুক্তিযোদ্ধাকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে দড়ি দিয়ে বেধে নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে প্রভাবশালী ইউপি চেয়ারম্যান মহির উদ্দিনের বিরুদ্ধে। ছেলের বিরুদ্ধে গরু চুরির অভিযোগ তুলে তার উপর এই অমানবিক নিযাতন চালানো হয়।

শনিবার, ৬ ফেব্রুয়ারি সকালে উপজেলার ভেলাগুড়ি ইউনিয়নের জাওরানী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এর আগেও গত বছরের ১৬ মে ওই চেয়ারম্যানের বাড়িতে এক যুবুককে তুলে নিয়ে গিয়ে নির্যাতনের পর ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হয়।

নির্যাতনের শিকার বীর মুক্তিযোদ্ধা আকবর আলী ধনী উত্তর জাওরানী গ্রামের বাসিন্দা। এছাড়া সে ভেলাগুড়ি ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার। আর অভিযুক্ত মহির উদ্দিন ভেলাগুড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান।

জানাগেছে, ওই ভুক্তভোগী বীর মুক্তিযোদ্ধা আকবর আলী ধনীর ছেলের বিরুদ্ধে গরু চুরির অভিযোগ তুলে গ্রাম পুলিশ মুক্তিযোদ্ধার নিজ বাড়ি থেকে জোড় করে তুলে নিয়ে যায় চেয়ারম্যানের বাড়িতে। এরপর চেয়ারম্যান ও গ্রাম পুলিশ মিলে জোড় পূর্বক ওই মুক্তিযোদ্ধাকে চেয়ারের সাথে দড়ি দিয়ে হাত বেঁধে রাখেন।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা থানার অফিসার ইনচার্জ এরশাদুল হক সাংবাদিকদের বলেন, এমন অভিযোগ আমরা পেয়েছি। ঘটনা তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

টাঙ্গাইলের ১২টি উপজেলায় কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচীর উদ্বোধন

টাঙ্গাইলের ১২টি উপজেলায় কোভিড-১৯ টিকাদান কর্মসূচীর উদ্বোধন

ডা.এম.এ.মান্নান,টাঙ্গাইল জেলা প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের ১২টি উপজেলায় একযোগে কোভিট-১৯ করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ কার্যক্রম শুরু হয়েছে । সকালে স্বাস্থ্য মন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সারাদেশে একযোগে করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

এরপর টাঙ্গাইল জেলার মোট ৪২ টি কেন্দ্রে নিবন্ধিত ব্যক্তিদের শরীরে করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ কার্যক্রম শুরু হয়। টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে জেলা প্রসাশক ডক্টর আতাউল গনির শরীরে প্রথম ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়। এরপর জেলা পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় বিপিএম এর শরীরে ভ্যাকসিন প্রয়োগ করে । পর্যায়ক্রমে নিবন্ধিত সকলকেই এ ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য ছানোয়ার হোসেন, টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা. আবুল ফজল মো. শাহাবুদ্দিন খান, টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক সদর উদ্দিন, প্রেসক্লাবের সভাপতি জাফর আহমেদ প্রমূখ ।

উল্লেখ্য , টাঙ্গাইল ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নয়টি কেন্দ্র ও বাকি ১১ টি উপজেলার প্রতিটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তিনটি করে বুথ স্থাপন করা হয়েছে। প্রতি বুথে দুই জন করে টিকাদান কর্মী ও চারজন স্বেচ্ছাসেবক দায়িত্ব পালন করছেন। জেলায় মোট ১ লাখ ২০ হাজার ডোজ করোনা ভ্যাকসিন মজুদ রয়েছে। পর্যায়ক্রমে নিবন্ধিত ব্যক্তিদের শরীরে করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে।

পটিয়ায় পৌর ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী রুপসী দাশের ব্যাপক গণসংযোগ

পটিয়ায় পৌর ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী রুপসী দাশের ব্যাপক গণসংযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ-পটিয়া পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক ও বাংলাদেশ মহিলা ঐক্য পরিষদ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সাধারণ সম্পাদক নারী নেত্রী রুপসী দাশ বলেছেন, আসন্ন পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে বিজয়ী হলে তিনি জনগণকে নি:স্বার্থভাবে সেবা দিবেন। এই এলাকায় বিগত সময়ে যারা কাউন্সিলর ছিলেন তাদের থেকে জনগণ কাঙ্খিত সেবা পাননি। 

 এই ধরনের জনপ্রতিনিধিকে লোকজন বয়কট করতে শুরু করেছে। যা আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে ভোটের মাধ্যমে প্রমাণ দেবেন। উটপাখি প্রতীকে নির্বাচিত হলে তিনি পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডে বেশকিছু উন্নয়ন কাজ করবেন। গত ৭  ফেব্রুয়ারি রবিবার পটিয়া পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগকালে উটপাখি প্রতীকের প্রার্থী নারী নেত্রী রুপসী দাশ এই কথা বলেন। এসময় তার সাথে নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি উটপাখি প্রতীকে রুপসী দাশকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার আহবান জানান।