ভোলা পৌরসভায় নতুন ভোটারদের মধ্যে স্মার্ট কার্ড বিতরণ শুরু

ভোলা পৌরসভায় নতুন ভোটারদের মধ্যে স্মার্ট কার্ড বিতরণ শুরু

মোঃ আওলাদ হোসেন, জেলা প্রতিনিধি,ভোলাঃ ভোলা পৌরসভায় নতুন ভোটারদের মধ্যে স্মার্ট কার্ড বিতরণ শুরু হয়েছে। আজ১৮ই ফেব্রুয়ারি (বৃহস্পতিবার) সকালে পৌরসভা ভবনে বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনির। স্মার্ট কার্ড হাতে পেয়ে উচ্ছ্বসিত ভোটাররা। সকালে পৌরসভা ভবনে বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনির। স্মার্ট কার্ড হাতে পায়ে উচ্ছ্বসিত ভোটাররা। 

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, ২০১৯ সালে ভোটার তালিকায় নতুন করে যুক্ত হওয়া ভোলা পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের ২৩ হাজার ভোটারকে স্মার্ট কার্ড দেওয়া হচ্ছে। শুরুতে পৌরসভা এলাকায় এ কার্ড বিতরণ করা হলেও পর্যায়ক্রমে ইউনিয়ন ও উপজেলা পর্যায়ে ক্যাম্প করে কার্ড বিতরণ করা হবে। 


যারা বৃহস্পতিবার স্মার্ট কার্ড নিতে পারেন নি। তারা পরবর্তীতে জেলা নির্বাচন অফিস থেকে নিতে পারবেন। এছাড়া পুরাতন ভোটারদের মধ্যে যারা এখনো স্মার্ট কার্ড হাতে পাননি।তাদেরও একই সঙ্গে নির্বাচন অফিস থেকে দেওয়া হবে। 

২০১৮ সালে সদর উপজেলায় দুই লাখ ৯২ হাজার ভোটারকে স্মার্ট কার্ড দেওয়া হয়।

কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হাতিয়াতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত পারুল

কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হাতিয়াতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত পারুল

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হাতিয়াতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত হয়েছে পারুল খাতুন (৬৫)  নামের মহিলা। এ সময় বসতবাড়ি ভাংচুরসহ তাদেরকে কুপিয়ে জখম ও বেধড়ক মারপিট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
ঘটনাটি ঘটেছে (১২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ঝাউদিয়া ইউনিয়নের হাতিয়া পূর্বপাড়া গ্রামে। পারুল খাতুন কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা গ্রহণ করেছেন।
পারুল খাতুনের ছেলে সজল জানান, তাদের বসতভিটার পাশে বাঁশ বাগান নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে চাচাদের সাথে বিরোধ চলে আসছিল। অভিযোগ সূত্রে জানা যায় পারিবারিক বাঁশ বাগান থেকে বাঁশ ভাগাভাগি নিয়ে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মহিদুল বাঁশের লাঠি হাসুয়া নিয়ে আমার বাড়ির উঠানের এসে আমাকে নাম ধরে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন আমার স্ত্রী শেফালী খাতুন (৩০) ঘর থেকে বাহির হয়ে মহিদুল কে বলেন চাচা আপনি আর গালিগালাজ করেন না। তখন মহিদুল হুকুম দেয় তার মেয়ে জলি কে তার হাতে থাকা হাসুয়া দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে মাথায় কোপ মারলে আমার স্ত্রী মাথা সরিয়ে নিলে বাম হাতের কনুইয়ের উপর লেগে রক্তাক্ত জখম হয়। ঘটনাটি গত ১২/২/২০২১ ইং তারিখে  দুপুরে হঠাৎ আমার চাচা মহিদুল সহ চাচাতো বোনেরা মিলে আমাদের বসত বাড়ি ইট পাটকেল মারতে থাকে নিষিদ্ধ করায় আমার মায়ের উপর ও আমার স্ত্রীর উপর আতঙ্কিত ভাবে হামলা করে।  এ সময় বাড়িতে কোন পুরুষ মানুষ না থাকায় আমার মা নিষেধ করতে গেলে মারপিট করেন ১ মহিদুল হক বিশ্বাস,২ বিউটি খাতুন,৩,বিথী খাতুন,৪ জলি খাতুন,৫, জুথি খাতুন , তারা অমানবিকভাবে মারধর করেছে আমার পরিবারের উপর আমার মা খালা বোন স্ত্রী সহ পরিবারের সকল সদস্যদের উপর । বাঁশ ও লাঠিসোটা দিয়ে অমানবিকভাবে নির্যাতন করেছে তারা।
আমার মা বাধা দেয়ার চেষ্টা করে। এ সময় তারা আমার মাকে কুপিয়ে জখম ও বেধড়ক মারপিট করে ফেলে রেখে যায়। আমার স্ত্রীর গায়ের কাপড় টেনে হেঁচড়ে ফেলেন এবং শ্রীলতাহানি করে। পরে তাদেরকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপালে ভর্তি করা হয়। সজলের বোনের  সাথে কথা হলে তিনি বলেন আমাদের কেউ নাই আমরা গরীব মানুষ তাই শুধু মার খেয়ে যাই ওদের হাত লম্বা ওদের সাথে পারা যায় না অনেক ক্ষমতা দেখাই আল্লাহ ওদের বিচার করবে গরিবের বিচার নাই।
 এ বিষয়ে সরজমিনে গিয়ে মহিদুলের সাথে কথা বলার চেষ্টা করলে তাকে বাড়ি পাওয়া যায়নি।
কুষ্টিয়া ইবি থানার অফিসার ইনচার্জ এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন আমাদের কাছে ৫ জনের নামে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আশাশুনিতে ট্রলার ডুবিতে নিখোঁজ ৩ শ্রমিকের মধ্যে বাবর নামের একজনের মৃতদেহ উদ্ধার

আশাশুনিতে ট্রলার ডুবিতে নিখোঁজ ৩ শ্রমিকের মধ্যে বাবর নামের একজনের মৃতদেহ উদ্ধার

আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধিঃ আশাশুনিতে ট্রলার ডুবীতে নিখোঁজ হওয়া ৩ শ্রমিকের একজনের মৃতদেহ ৫৪ ঘন্টা পর উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১১.৫৫ মি. উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের কুড়িকাহুনিয়া কপোতাক্ষ নদের তীরে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার হওয়া শ্রমিক উপজেলার বকচর গ্রামের মনজিল গাজীর পুত্র বাবর আলি (৪৫)। বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস'র সাতক্ষীরা উপ-সহকারি পরিচালক তারেক হাসান ভুইয়া জানান, ফায়ার সার্ভিস ও কোষ্ট গার্ডের ডুবুরী দল  নিখোঁজ ৩ শ্রমিককে কপোতাক্ষ নদে টানা তল্লাসির ৫৪ ঘন্টা পর কুড়িকাহুনিয়া লঞ্চঘাটের বিপরীতে নদীর তীরে অর্থাৎ নিখোঁজ স্থল থেকে প্রায় সহস্রাধিক গজ দুরে মৃতদেহ ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এ খবরে দুপুর ২.৩০ মি. দিকে সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহীন সুলতান ও থানা পুলিশের উপস্থিতিতে নিখোঁজ বাবর আলীর মৃতদেহ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। উল্লেখ্য, সম্প্রতি আম্পানের আঘাতে ভেঙ্গে যাওয়া কপোতাক্ষ নদের উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের শ্রীপুর-কুড়িকাহুনিয়া পাউবো'র বেড়ীবঁাধ সংস্কার কাজ চলছিল। সংস্কার কাজে নিয়োজিত গত মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারী) ভোর ৬ টার সময় ১২ শ্রমিক ট্রলারে নদী পার হওয়ার সময় স্রোতের তোড়ে ঘোলে পড়ে ট্রলার ডুবে যায়। তাৎক্ষনিকভাবে গুরুতর আহত একজনসহ ৯ শ্রমিকের হদিস মিললেও ৩ জনের কোন খেঁাজ মেলেনি। বৃহস্পতিবার নিখোঁজ বাবর আলীর মৃতদেহ উদ্ধার হলেও বৃহস্পতিবার এরিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বাকী ২জন একই গ্রামের ফজলে সানার পুত্র শফিকুল ও পুইজালা গ্রামের মানিক মোড়লের পুত্র আজিজুর রহমান নিখোঁজ রয়েছে।

দেয়াল কেটে দোকানে চুরি,চাচাতো ভাই গ্রেফতার !

দেয়াল কেটে দোকানে চুরি,চাচাতো ভাই গ্রেফতার !

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃকুড়িগ্রাম সদরের পুলিশ সুপারের বাসভবনের সামনে সংরক্ষিত এলাকায় এক কনফেকশনারির দোকানে চুরির ঘটনা ঘটেছে ।

চুরির ঘটনায় দোকান মালিকের এক চাচাত ভাইকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ১৭ ফেব্রুয়ারী(বুধবার) ভোর রাতে চুরির ঘটনা ঘটলে ২৪ ঘন্টার মধ্যে চুরির দায়ে অভিযুক্ত মো. হারুন অর রশিদকে আজ সকালে
গ্রেফতার করে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার(১৮ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান অপরাধ ও প্রশাসন বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রুহুল আমিন। গ্রেফতার হওয়া মো. হারুন চুরির দায় স্বীকার করেছেন বলেও জানায় পুলিশ। 

চুরির ঘটনাটিকে চাঞ্চল্যকর আখ্যা দিয়ে পুলিশ আরও জানায়, ১৭ ফেব্রুয়ারী ভাের রাতে কুড়িগ্রাম সদরের নাজিরা ব্যাপারী পাড়ায় পুলিশ সুপারের বাসভবনের সামনে কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের পাশে শানু ভ্যারাইটিজ স্টোর এর পিছনের দেয়াল কেটে দোকানে প্রবেশ করে নগদ অর্থসহ সর্বমােট ১ লক্ষ ১২ হাজার ৫০০ টাকার মালামাল চুরি হয়। এরপর পুলিশ সুপার , অফিসার ইনচার্জ (কুড়িগ্রাম থানা) ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেন । এবং দ্রুততার সাথে কুড়িগ্রাম থানা পুলিশ মামলা রুজু করে প্রকাশ্য ও গােপনে তদন্ত শুরু করে । এরই ধারাবাহিকতায় বিস্তারিত তদন্তে ও প্রযুক্তিগত সহায়তায় চুরির সাথে জড়িত আসামী মােঃ হারুন অর রশিদ ( ৩৩ ) কে চোরাই নগদ অর্থ ১১ হাজার ১৪০ টাকা সহ  চুরির কাজে ব্যহৃত টর্চ লাইট , শাবল(রড) , চুরির সময় মুখ ঢাকার জন্য ব্যবহৃত শর্ট চাদর ও পরিহিত ফুলপ্যান্ট উদ্ধার করা হয় । এব্যাপারে চুরি হওয়া দোকান মালিক শাওন জানান, চুরির দায়ে গ্রেফতার হওয়া হারুন তার বাবার চাচাতো ভাইয়ের ছেলে। সে(হারুন) অনেক আগে থেকেই চুরির সাথে জড়িত ছিলো। এছাড়াও হারুন মাদকাসক্ত বলেও জানান তিনি।

এব্যাপারে কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) বলেন,বর্ণিত মামলাটির যাবতীয় কার্যক্রম শেষ করে অল্প সময়ের মধ্যে আসামী মােঃ হারুন অর রশিদ ( ৩৩ ) এর বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে অভিযােগপত্র দাখিল করা হবে ।

আশাশুনিতে সাংবাদিক বিএম আলাউদ্দীনকে জীবননাশের হুমকি

আশাশুনিতে সাংবাদিক বিএম আলাউদ্দীনকে জীবননাশের হুমকি

আহসান উল্লাহ বাবলু  আশাশুনি সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:নিউজ প্রকাশ ও নিউজ সংক্রান্ত ফেসবুক পোস্টে কমেন্ট করায় আশাশুনিতে সাংবাদিক বিএম আলাউদ্দীনকে জীবননাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যা ০৬.৩৪ মিনিটে ০১৭১৭৭৭১৪৫৯ নাম্বার থেকে ধান্যহাটি গ্রামের আব্দুর রশিদ সরকারের ছেলে ও তার স্ত্রী নাজমা বেগম এ জীবননাশের হুমকি ও গালিগালাজ করেন। সাপ্তাহিক জনতার মিছিল, সাতক্ষীরা থেকে প্রকাশিত দৈনিক দক্ষিণের মশাল ও যশোর থেকে প্রকাশিত দৈনিক স্পন্দন পত্রিকার আশাশুনি প্রতিনিধি এবং আশাশুনি রিপোর্টার্স ক্লাবের প্রচার সম্পাদক বি এম আলাউদ্দীনকে একটি ফেসবুকে স্ট্যাটাসের কমেন্ট এর সত্যতা প্রকাশ করায় তাকে এ হুমকি প্রদান করা হয়েছে। উল্লেখ্য, গত ২০১৮ সালের ৮ ই ডিসেম্বর শনিবার সাতক্ষীরা থেকে প্রকাশিত দৈনিক দৃষ্টিপাত পত্রিকায় "আশাশুনিতে চড়া সুদের জালে জড়িয়ে নিঃস্ব বহু সংখ্যালঘু অসহায় পরিবার" কালের চিত্র পত্রিকায় "আশাশুনিতে নাজমার চড়া সুদের জালে বহু সংখ্যালঘু পরিবার" আজকের সাতক্ষীরা পত্রিকায় "আশাশুনিতে সুদের চক্রবৃদ্ধির চক্রে নিঃস্ব হয়েছে কয়েকটি পরিবার" যুগের বার্তা পত্রিকায় "আশাশুনিতে সুদের কারণে নিঃস্ব হয়েছে কয়েকটি পরিবার" সাতনদী পত্রিকায় "আশাশুনির ধান্যহাটিতে বহু সংখ্যালঘু পরিবার নাজমার চড়া সুদের জালে জড়িয়ে নিঃস্ব" দৈনিক কাফেলা পত্রিকা "আশাশুনিতে সুদের চক্রবৃদ্ধির চক্রে নিঃস্ব হয়েছে কয়েকটি সংখ্যালঘু পরিবার" শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিথ হয়। ২০১৯ সালে ৪ জানুয়ারি শুক্রবার দৈনিক দৃষ্টিপাত পত্রিকায় "আশাশুনি থানা পুলিশের সহায়তায় চড়া সুদের কবল থেকে মুক্তি পেল কয়েকটি অসহায় পরিবার" ২৪ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার দৃষ্টিপাত পত্রিকায় "জেলা প্রশাসকের গণশুনানিতে উপকৃত হচ্ছেন জেলার ভুক্তভোগী জনগণ"। ৫ ফেব্রুয়ারি শনিবার কালের চিত্র পত্রিকায় "সুদের জালে জড়িয়ে নিঃস্ব করেও ক্ষান্ত হয়নি আলোচিত সুদে মহজন নাজমা। ৭ ই ফেব্রুয়ারি দৈনিক দৃষ্টিপাত পত্রিকায় "নিঃস্ব পরিবার গুলোকে ঘরে আগুন দেওয়ার মিথ্যা মামলায় জড়ানোর পাঁয়তারা" শিরোনামে নিউজ প্রকাশিত হয়। সেখান থেকেই সাংবাদিক বিএম আলাউদ্দিনসহ অসহায় পরিবার গুলোর পাশে দাঁড়ানো সাংবাদিকদের ওপর বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি দিয়ে আসে সুদে কারবারী পরিবারের সদস্যরা। এরই ধারাবাহিকতায় গত বুধবার সাংবাদিক বিএম আলাউদ্দীনের মোবাইল ফোনে কল করে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ ও জীবননাশের হুমকি দেয় আলোচিত রশিদ সরকারের স্ত্রী সুদে মহাজন নাজমা বেগম ও তার পুত্র। সংবাদিক বিএম আলাউদ্দীনের জীবনের নিরাপত্তা ও অসহায় পরিবার গুলোকে রক্ষা করতে সংশ্লিষ্ট ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সাংবাদিক বি এম আলাউদ্দীন।

আশাশুনির বুধহাটায় জমি কেদ্রিক বিরােধে প্রতিপক্ষ তুলসিগংদের হামলায় ফিরােজসহ জখম-৪

আশাশুনির বুধহাটায় জমি কেদ্রিক বিরােধে প্রতিপক্ষ তুলসিগংদের হামলায় ফিরােজসহ জখম-৪

আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধিঃ   আশাশুনির বুধহাটায় জমি কেদ্রিক বিরােধে প্রতিপক্ষের হামলায় প্রভাষক ফিরােজ আলমসহ ৪ জন রক্তাক্ত জখম হয়েছে। এ ঘটনায় আহতের বড় ভাই ব্যাংকার ফারুক আহম্মেদ থানায় লিখিত এজাহার সূত্র ও মৌখিকভাবে জানান, তিনি স্বামী-স্ত্রী উভয়ই চাকুরী সূত্রে উপজেলার বুধহাটা বাজার সংলগ এক খন্ড জমি ক্রয় করে বসতঘর বেঁধে দীর্ঘদিন স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করে আসছেন। ওই জমি লাগােয়া জমি ক্রয় করে ভােগ দখলে আছেন বুধহাটা গ্রামের মৃত. মাধব আঢ্যর পুত্র ড্রাইভার তুলসী কুমার আঢ্য। জমির সিমানা নির্ধারণ কেদ্রিক উভয়ের মধ্যে দীর্ঘদিন বিরােধ চলে আসছে। এ বিষয়ে স্থানীয়ভাবে শালিস মিমাংশা না হওয়ায় সর্বশেষ উপজেলা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে এক শালিসের মাধ্যমে মাপ জরিপআন্তে সিমানা নির্ধারণ করে দেন। সে মােতাবেক ব্যাংকার ফারুক আহম্মেদ বৃহস্পতিবার বাড়ীর সিমানার ঘেরা বেড়া সংস্কার করছিলেন। এ সময় ড্রাইভার তুলসি আঢ্য, এলাকার নামধারী মাদকাসক্ত তার পুত্র ড্রাইভার হিরণ কুমার আঢ্য ও অপর পুত্র কিরণ আঢ্য দা, শাবল ও লাঠি সােটা নিয়ে তাদের পক্ষীয় আরও অজ্ঞাত ৪/৫ জনকে সাথে নিয়ে ফারুক আহম্মেদের বাড়ী ঢুকে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ ও হুমকি-ধামকি দিতে থাকে। এসময় ফারুকসহ অপর সহােদর আশাশুনি সরকারি কলেজের প্রভাষক ফিরােজ আলম ও সদ্য অবসরপ্রাপ্ত বিজিপি সদস্য ফাইজুল মৌখিকভাব প্রতিবাদ বা চুপ থাকার জন্য অনুরােধ করে। এক পর্যায়ে তুলসি আঢ্য, তার দু'পুত্র হিরণ আঢ্য ও কিরণ আঢ্যসহ ৭/৮ জন আচমকা চড়াও হয়ে হামলা চালিয়ে প্রথমে বাইপাচ সার্জারীকৃত ফিরােজ আলমের রক্তাক্ত জখম করে। ঠেকাতে গেলে আমরা সরকারি গাড়ীর ড্রাইভারী করি আমাদের উপর মাতবারী করবি। তাদের জান শেষ করব, কে তােদের ঠেকায় দেখব। এমন আস্ফালন করতে করতে ফারুক, স্ত্রী শিক্ষিকা সাবিনা ইসলাম ও সহােদর ফাইজুলকও মারপিট করে আহত ও অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে লাঞ্চিত করে বীর দর্পে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। পরে ফিরােজ আলমকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ফারুক, সাবিনা ও ফাইজুল প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়ী ফিরে গেছে। এ ব্যাপারে ফারুক আহম্মেদ বাদী হয়ে ঘটনার সাথে জড়িতদের নাম উল্লেখপূর্বক এবং ৪/৫ জনকে অজ্ঞাত রেখে আশাশুনি থানায় এজাহার দাখিল করেছেন। অপরদিকে, তুলসি আঢ্যও একটি পাল্টা এজাহার দাখিল করেছেন বলে জানাগেছে। ফারুক আহম্মেদ জানান, তুলসি আঢ্য হুমকি দিয়ে বলেছে আমি আমার পুত্র হিরণ আঢ্য দু'জনই সরকারি গাড়ীত ড্রাইভারী করি,  মামলা করে কিছুই করতে পারবিনা। ফারুকসহ ভুক্তভােগী অনেকে অভিযােগ করেন, তুলসি একজন ড্রাইভার হয়ে এমন ক্ষমতার দাপট ও কােটি টাকার গরম দেখিয়ে চলেছে, যা এলাকার সমস্যাগ্রস্ত অসহায়দের জন্য অত্যান্ত ক্ষতিকারক বলে এলাকাবাসির কাছ একটি পিড়া হয়ে দাড়িয়েছে। এ ব্যাপারে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারসহ এলাকার নাম প্রকাশে অনিছুক বহু ভুক্তভােগী পরিবার তুলসি গংদের ক্ষমতার দাপট থেকে অব্যহতি পেতে প্রশাসনর উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন

ঢাবি ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া শুরু ৮ মার্চ

 ঢাবি ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তির  আবেদন প্রক্রিয়া শুরু ৮ মার্চ

নিউজ ডেস্ক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে ১মবর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে অনলাইনের মাধ্যমে প্রার্থীদের ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া আগামী ৮ মার্চ ২০২১ সোমবার বিকাল ৪:০০টা থেকে শুরু হবে এবং ৩১ মার্চ ২০২১ বুধবার রাত ১১:৫৯টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। টাকা জমা দেয়ার শেষ তারিখ ০১ এপ্রিল ২০২১ বৃহস্পতিবার রাত ১১:৫৯টা পর্যন্ত।

আজ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ বৃহস্পতিবার উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি বিষয়ক সাধারণ ভর্তি কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত উক্ত সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমান, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভিন্ন বিভাগের চেয়ারম্যান, বিভিন্ন ইনস্টিটিউটের পরিচালক, রেজিস্ট্রার এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ক-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২১ মে ২০২১ শুক্রবার, খ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২২ মে ২০২১ শনিবার, গ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২৭ মে ২০২১ বৃহস্পতিবার, ঘ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২৮ মে ২০২১ শুক্রবার এবং চ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা (সাধারণ জ্ঞান) ০৫ জুন ২০২১ শনিবার অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি ইউনিটের পরীক্ষা সকাল ১১:০০টা থেকে দুপুর ১২:৩০ মিনিট পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। 

সভায় ‘ক’, ‘খ’, ‘গ’ ও ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ৬০ নম্বরের MCQ এবং ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। শুধুমাত্র ‘চ’ ইউনিটের পরীক্ষায় ৪০ নম্বরের MCQ এবং ৬০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। ‘ক’, ‘খ’, ‘গ’ ও ‘ঘ’ ইউনিটের গঈছ পরীক্ষার জন্য ৪৫ মিনিট এবং লিখিত পরীক্ষার জন্য ৪৫ মিনিট সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। ‘চ’ ইউনিটের MCQ পরীক্ষার জন্য ৩০ মিনিট এবং লিখিত পরীক্ষার জন্য ৪৫ মিনিট সময় নির্ধারণ করা হয়েছে।

ভর্তিচ্ছুআবেদনকারীদের ন্যূনতম যোগ্যতা হিসেবে ‘ক’ ইউনিটের জন্য মাধ্যমিক/সমমান এবং উচ্চ মাধ্যমিক/সমমান পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) প্রাপ্ত জিপিএ-দ্বয়ের যোগফল ন্যূনতম ৮.৫ (আলাদাভাবে জিপিএ ৩.৫), ‘খ’ ইউনিটের জন্য জিপিএ-দ্বয়ের যোগফল ন্যূনতম ৮.০ (আলাদাভাবে ৩.০), ‘গ’ ইউনিটের জন্য জিপিএ-দ্বয়ের যোগফল ন্যূনতম ৮.০ ( আলাদাভাবে ৩.৫), ‘ঘ’ ইউনিটের জন্য মানবিক শাখার ক্ষেত্রে জিপিএ-দ্বয়ের যোগফল ন্যূনতম ৮.০ (আলাদাভাবে ৩.০) ও বিজ্ঞান শাখার ক্ষেত্রে জিপিএ-দ্বয়ের যোগফল ন্যূনতম ৮.৫ (আলাদাভাবে ৩.৫) এবং ‘চ’ ইউনিটের জন্য জিপিএ-দ্বয়ের যোগফল ন্যূনতম ৭.০ (আলাদাভাবে জিপিএ ৩.০) থাকতে হবে। 

উল্লেখ্য, ভর্তি পরীক্ষা ঢাকাসহ ৮টি বিভাগীয় শহরে অনুষ্ঠিত হবে। 

ভর্তি সংক্রান্ত বিস্তারিত নির্দেশনা ও তথ্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট https://admission.eis.du.ac.bd এবং পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে শিগ্গিরই জানিয়ে দেওয়া হবে।

তথ্যসূত্র: ঢাবি ওয়েবসাইট  

বগুড়ার নন্দীগ্রামে ডিজিটাল ম্যারাথন দৌড়

বগুড়ার নন্দীগ্রামে ডিজিটাল ম্যারাথন দৌড়

আব্দুল আহাদ,নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি:বগুড়ার নন্দীগ্রামে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে 'বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ডিজিটাল ম্যারাথন' অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধিসহ ৮ শতাধিক মানুষ স্বত:স্ফুর্তভাবে অংশ গ্রহণ করেন।বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০ টায় নন্দীগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে সেনাবাহিনীর ১১ পদাতিক ডিভিশনের আয়োজনে ডিজিটাল ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতায় বেলুন উড়িয়ে উদ্বোধন করা হয়। এতে উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় ম্যারাথন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল আশরাফ জিন্নাহ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মোছা. শারমিন আখতার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. নুরুল ইসলাম, ক্যাপ্টেন আহমেদ সাজিদ সিবহাতুল্লাহ, থানা অফিসার ইনচার্জ কামরুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান দুলাল চন্দ্র, শ্রাবণী আকতার বানু প্রমূখ।

শহীদ মিনার চত্বর থেকে ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে ৫ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে ওমরপুর এসে শেষ হয়। ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে আগেই অ্যাপসের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন করেন প্রতিযোগীরা। এরপর সেই অ্যাপস্ এর সহায়তায় তাদের দৌড় প্রতিযোগিতার সময় ও দূরত্ব নির্ধারণ করা হয়। দৌড়ে অংশ গ্রহণকারিদের মধ্যে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অধিকারীসহ চতুর্থ থেকে দশম স্থান অধিকারী পর্যন্ত প্রত্যেককে পুরস্কার দেয়া হয়েছে।

সিরাজগঞ্জে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা করলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট

সিরাজগঞ্জে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা করলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট

মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃসিরাজগঞ্জে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা করলেন সিরাজগঞ্জের সদরের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ।তিনি বলেন বৃহস্পতিবার  সন্ধ্যা ৬ টায় সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বহুলী ইউনিয়নের নিয়ামতপুর গ্রামে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীর (১৫) বাল্য বিয়ে হচ্ছে সংবাদ পেয়ে কনের বাসায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় উপস্থিত কনের বাবার  নিকট থেকে প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পূর্বে বিয়ে দিবেন না মর্মে মুচলেকা নেয়া হয় এবং বরকে ও কনের বাবাকে মোট ১৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেন।
এসময় মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় সিরাজগঞ্জ সদর থানা পুলিশ, উপজেলা ভূমি অফিসের স্টাফগণ সহযোগিতা করেন বলে তিনি জানান।

আগামীকাল শুভ মুক্তি নুরুল ইসলাম রাসেল এর পরিচালনায় টেলিফিল্ম মনে যারে চায়

আগামীকাল শুভ মুক্তি নুরুল ইসলাম রাসেল এর পরিচালনায় টেলিফিল্ম মনে যারে চায়

পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ আগামী শুক্রবার ১৯/০২/২০২১ দুপুর ১২ টায় আপনাদের প্রিয় চ্যানেন বৈশাখী মাল্টিমিডিয়ায় শুভ মুক্তি পাবে নতুন টেলিফিল্ম "মনে যারে চায়"। ধনি গরিবের ব্যবধান নিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই টেলিফিল্মটি।
 
মনে যারে চায় টেলিফিল্মটি পরিবেশনায় বৈশাখী মাল্টিমিডিয়া,
রচনাঃ সোহরাব মাষ্টার, 
চিত্রনাট্য পরিচালনা ও ভিডিও সম্পাদনা 
মোঃ নূরুল ইসলাম(রাসেল)।
টেলিফিল্ম টি দেখতে আমাদের ইউটিউব লিংকে ক্লিক করে চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন। 

মনে যারে চায় টেলিফিল্ম অভিনয় করেছেন।
নবাগত অভিনেতা -
নায়ক মিঠুন কুমার রাজ।
নায়িকা ফারজানা ইসলাম আয়রা।
সাইড নায়ক রাসেল মাঝী।
রাকিবুল হাসান /আলম শেখ/ব্রোজোনাথ ঢালী।

পরিচালক নুরুল ইসলাম রাসেল বলেন "মনে যারে চায়" টেলিফিল্মটি 
সম্পূর্ন একটি ব্যতিক্রম ধরনের বিরহের ভালোবাসার কাহিনী নিয়ে সাজানো হয়েছে। ধনি ও গরিবের মধ্যে যে  পার্থক্য তা সুন্দর ভাবে ফুটে উঠেছে। আমরা আশা করি আমাদের টেলিফিল্মটি আপনাদের হৃদয় ছুয়ে যাবে। মনে যারে চায় টেলিফিল্ম যদি আপনাদের ভালো লাগে তবেই আমাদের পরিশ্রম সার্থক হবে।আপনারা অবশ্যই টেলিফিল্ম মনে যারে চায় শেয়ার ও কমেন্ট করবেন।

 অভিনেতা রাজ বলেন, মনে যারে চায় টেলিফিল্মটি ভালোবাসা, বিরহ, ধনী, গরীব এবং অহংকারের কাহিনী নিয়ে তৈরি করা হয়েছে। মনে যারে চায় টেলিফিল্মটি আশা করি আপনাদের হৃদয় ছুঁয়ে যাবে। 
নিচের লিংকটি ক্লিক করে চ্যানেলটি সাবক্রাইব করুন।  https://youtube.com/channel/UC9z_tZB-rUTphDweSCa3I4A

পটিয়ায় সংবাদ সম্মেলনে- মন্নান নির্বাচনে হত্যাকান্ডের জন্য কাউন্সিলর প্রার্থী রাজীব দায়ী

পটিয়ায় সংবাদ সম্মেলনে- মন্নান নির্বাচনে  হত্যাকান্ডের জন্য কাউন্সিলর প্রার্থী রাজীব দায়ী

পটিয়া( চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি: পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে গত ১৪ ফেব্র"য়ারী ভোট চলাকালে বেলা ১২টায় গুলি বর্ষণ ও হত্যাকান্ডের ঘটনার জন্য কাউন্সিলর প্রার্থী সরওয়ার কামাল রাজীবকে দায়ী করছেন বর্তমান কাউন্সিলর আবদুল মন্নান।তিনি ১৮ ফেব্রুয়ারী 

(বৃহস্পতিবার) পটিয়া পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের নিজ কাউন্সিলর কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন। লিখিত অভিযোগে তিনি জানান শান্তিপূর্ণভাবে ভোট চলাকালে সরওয়ার কামাল রাজীবের ইঙ্গিতে সংঘবদ্ধ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা গুলিবর্ষণ করে আমার ভাই আবদুল মাবুদকে হত্যা করে। এখন আমাকে প্রতিনিয়ত হুমকি দেয়া হচ্ছে। নির্মম গুলি ও চুরির আঘাতে আমি আমার ভাইকে হারিয়েছি, হয়তো আমিও নির্মমভাবে হত্যার শিকার হতে পারি। হত্যা মামলার বাদী হওয়ায় আমাকে নানান ভাবে হুমকি দেয়া হচ্ছে। তারপরও আমার শেষ নি:শ্বাস পর্যন্ত আমি ভাই হত্যার বিচারের দাবীতে সোচ্চার থাকব। যাকে নির্বাচিত বলা হচ্ছে সে কোন অবস্থাতে নির্বাচিত হতে পারে না। শান্তিপূর্ণ পরিবশে সাধারন ভোটাররা দীর্ঘ সারি ধরে ভোট দিতে আসলে অতর্কিতভাবে গুলি, ইট, পাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। এসময় আমি বিব্রত হয়ে আমার এজেন্টদের নিয়ে কেন্দ্র থেকে বের হয়ে যায়। এ সুযোগে ভোটারদের ফিঙ্গার নিয়ে উঠপাখি প্রতীকে জোর করে ভোট ডাকাতি করা হয়। আমি তার জন্য দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছি।লিখিত বক্তব্যে তিনি আরো জানান, গত ১৫ বছর ধরে এ ওয়ার্ড থেকে নির্বাচন করে জনপ্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করে আসছি। এ দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে আমার ওয়ার্ডের ভোটারদের শুধু ভোটার হিসেবে নয়, তারা আমার পরিবারের সদস্য হিসেবে আন্তরিকতা দেখিয়ে আসছে। তাদের ভালোবাসার বাধ ভাঙ্গা জোয়ারে ইর্ষান্বিত হয়ে প্রতিপক্ষ প্রার্থী সরওয়ার কামাল রাজীব নির্বাচনী সহিংসতার ঘটনা ঘটায়। সরওয়ার কামাল রাজীব দীর্ঘদিন ধরে কিশোরদের অস্ত্র, চাপাতি হাতে তুলে দিয়ে আমাদের ওয়ার্ডকে ত্রাস সৃষ্ঠি করেছে। তিনি কিশোর গ্যাং লিডার হিসেবে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্ঠি করে।কাউন্সিলর আবদুল মান্নান কিশোর গ্যাংদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনার পাশাপাশি অতিদ্রুত এ ওয়ার্ডের নির্বাচন বাতিল করে পূনরায় নির্বাচনের দাবী জানিয়েছেন। সংবাদ সম্মেলনে আবদুল মন্নানের পরিবারের সদস্যরা ছাড়াও 
এলাকার লোকজন  উপস্থিত ছিলেন।

ঠাকুরগাঁওয়ের মৎস্য অভয়াশ্রম পরিদর্শন করলেন মৎস্য অফিসার আয়েশা

ঠাকুরগাঁওয়ের  মৎস্য অভয়াশ্রম পরিদর্শন করলেন মৎস্য অফিসার আয়েশা

কলিন চন্দ্র( ইতু) রায়,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁওয়ের  সদর  উপজেলার টাঙ্গন মৎস্য অভয়াশ্রমে আজ বৃহস্পতিবার  ২ ঘটিকার সময়  সিনিয়র  মৎস্য কর্মকর্তা   আয়েশা আক্তার  পরিদর্শন করেন।এসময়  উপস্থিত ছিলেন এবিসিডি সংগঠনের সভাপতি সুজয় চক্রবর্তী,সাধারণ সম্পাদক অনিল রায়,মৎস্য অভয়াশ্রমে  সার্বিক পরিচালনায় দায়িত্বরত নন্দন বর্মন (ঝড়ু),  আনন্দ রায়, চন্দন রায়,  ধনী চন্দ্র বর্মন কৃষ্ণ চন্দ্র বর্মন,  রিপন চন্দ্র বর্মন প্রমুখ।  এছাড়াও উপজেলা মৎস্য অফিসের  ক্ষেত্র সহকারী রাব্বে হাবীব উপস্থিত ছিলেন।ঠাকুরগাঁওয়ের টাঙ্গন নদী মৎস্য অভয়াশ্রমটি অবস্থিত   শ্রী  শ্রী কালী মন্দির ফারাবাড়ী সংলগ্ন।  মৎস্য অভয়াশ্রমের আয়তন প্রায়  ১ হেক্টর। মৎস্য অভয়াশ্রমের সম্পূর্ণ দেখা শুনা করেন  এবিসিডি নামে এক  সংগঠন।  

এ সময় সংগঠনের সভাপতি সুজয় চক্রবর্তী  জানান, আমাদের এবিসিডি সংগঠনের সহায়তায় ৮০০ মিটার দীর্ঘ মৎস্য অভয়াশ্রমটির সদস্যরা  নিয়মিত দেশী  মাছ  সংরক্ষণের কার্য়ক্রম চালিয়ে যাচ্ছে  এবং খাদ্য  প্রদান করেন। সদর উপজেলার সিনিয়র  মৎস্য কর্মকর্তা   আয়েশা আক্তার  বলেন, মৎস্য 
 অভয়াশ্রমটি উন্নয়নে সার্বিক  ভাবে  সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

ফুলপুরে বওলা ইউপি সচিব নিলুফার ইয়াসমিন এর দুর্নীতি ও অনিয়ম থামাবে কে?

ফুলপুরে বওলা ইউপি সচিব নিলুফার ইয়াসমিন এর দুর্নীতি ও অনিয়ম থামাবে কে?

গোলাম মোস্তফা ফুলপুর প্রতিনিধিঃ ফুলপুর উপজেলার ১০ নং বওলা ইউনিয়ন পরিষদের যেন দুর্নীতির আর অনিয়মের কারখানা।দুর্নীতির মূল কারিগর হল সচিব, নিলুফার ইয়াসমিন বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করে থাকে এলাকার নিরীহ ও সাধারণ জনগনকে,নিয়মনিতি না মেনে সচিব তার মনগড়া মতে চালাচ্ছে ইউনিয়ন পরিষদ,

যেমন প্রতিমাসে ১৭ থেকে ১৮ দিন অনুপস্থিত তাকে,এছারা জন্ম নিবন্ধন ও মৃত্যু নিবন্ধন,জন্মের ও মৃত্যুর প্রথম দিন থেকে পয়তাল্লিশ দিন পর্যন্ত সরকারি, নির্ধেষ অনুযায়ী কোন টাকা লাগেনা, তারপরও সচিব নিচ্ছে(৩০০/-)তিনশত টাকা,ছয়চল্লিশ দিন থেকে পাঁচ বছর পর্যন্ত(২৫/-)পঁচিশ টাকার কথা থাকলেও সচিব নিচ্ছে (৩০০/-৫০০)

পাঁচ বছরের উপরে যত বছর হোক (৫০/-)পঞ্চাশ টাকা,নেওয়ার কথা থাকলেও নিয়মভঙ্গকারী সচিব নিলুফার ইয়াসমিন নিচ্ছে (৩৪০/-৪১০)উত্তরাধিকারি সনদ কোন টাকা লাগবেনা,সরকারি ভাবে নিষেধ থাকলেও অনিয়মকারী সচিব নিলুফার ইয়াসমিন নিচ্ছে(২০০/-)দুইশত টাকা,এ ভাবে হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতি মাসে হাজার হাজার টাকা।

এ বিষয়ে' এই প্রতিবেদকের,তদন্তে বেরিয়ে আসে পরিষদের আসল রুপ, কেউ যদি কোন সনদের জন্য আবেদন করেন,তাহলে অতিরিক্ত বিভিন্ন হারে টাকা চেয়ে থাকেন পরিষদের সচিব নিলুফার ইয়াসমিন,এবং নিরীহ ও সাধারণ মানুষ বাধ্য হয়ে টাকা দিতে হয়, তাছাড়া কেউ যদি সনদের অতিরিক্ত ফি দিতে রাজি না হয়,ঐ কাজ রাখতে রাজি হয়না ঐ দুর্নীতিবাজ সচিব নিলুফার ইয়াসমিন ।

বওলা ৪ নং ওয়ার্ডের মরম আলীরকাছ থেকে ৮০০ টাকা ছায়েরা বানুর কাছ থেকে ৬০০ হাতীবান্ধায় গ্রামের একলাছ উদ্দিন খানের মেয়ে মায়িশা জান্নাতের কাছ থেকে ৭০০ টাকা রামসোনা গ্রামের সাদ্দাম হোসেনের কাছ থেকে ৮০০ টাকা নেওয়ার কথা জানা যায়।

এই বিষয়ে ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক,একাধিক সদস্য জানান বওলা ইউনিয়নের মানুষকে সহজ সরল মানুষ পেয়ে ইউপি সচিবের এভাবেই হাতিয়ে নিচ্ছে অনেক টাকা।

তারা জানান আমরা সচিবকে বলছিলাম সহজ সরল মানুষ পেয়ে যে অতিরিক্ত টাকা নিচ্ছেন পরে যদি জানাজানি হয়,সচিব নিলুফার ইয়াসমিন রাগান্তিক হয়ে বলেন আমি এই পরিষদের মানুষকে কোন কেয়ার করিনা।অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার বিষয় বওলা ইউনিয়নের সচিব নিলুফার ইয়াসমিন বক্তব্য জানতে চাইলে মুঠোফোনে তিনি জানান,তার তার বিরুদ্ধে জন্ম-মৃত্যু সনদ দেওয়ার বিপরীতে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ সত্য নয়,

ভূক্তভোগী ও সচেতন মহল জানিয়েছে, অনতিবিলম্বে জনগনের হয়রানি বন্ধ করে,অতিরিক্ত টাকা আদায় কারী ইউপি সচিব নিলুফার ইয়াসমিনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী ইউনিয়ন বাসীর।

ঝিকরগাছায় ফুল চাষী, ব্যবসায়ী ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

ঝিকরগাছায় ফুল চাষী, ব্যবসায়ী ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

আফজাল হোসেন চাঁদ : ভাল ফুলের ভাল দেশ, গড়বো মোরা বাংলাদেশ এই স্লোগানকে সামনে রেখে যশোরের ঝিকরগাছায় ফুলের রাজ্যে প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে জনসমাগমে আইন শৃঙ্খলা ও সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে ফুল চাষী, ফুল ব্যবসায়ী সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সমন্বয়ে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় পানিসারা-হাড়িয়া মোড়ে বাংলাদেশ ফ্লাওয়ার সোসাইটির সভাপতি মোঃ আব্দুর রহিমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মনিরুল ইসলাম। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, পৃথিবীতে ফুল ভালোবাসে না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না। ফুলের মতন করে নিজের জীবনকে সাজাতে হবে হবে। ফুলের রাজ্যের মান রাখতে উপজেলা পরিষদের পক্ষে সর্বাধিক প্রচেষ্টা পরিচালনা করা হবে।
বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরাফাত রহমান, অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ সেলিম রেজা, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুল মালেক, সাংবাদিক আফজাল হোসনে চাঁদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফ্লাওয়ার সোসাইটির নির্বাহী সদস্য মীর বাবর জান বরুন, সদস্য শাহিন, বিল্লাল, ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ ফ্লাওয়ার সোসাইটির সদস্য মীর ফারুক আহমেদ।

ঝিকরগাছা উপজেলা পর্যায়ে প্রোগ্রাম অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত

ঝিকরগাছা উপজেলা পর্যায়ে প্রোগ্রাম অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত

আফজাল হোসেন চাঁদ : শিক্ষা নিয়ে গড়ব দেশ শেখ হাসিনার বাংলাদেশ এই স্লোগানকে সামনে রেখে যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলা পর্যায়ে প্রোগ্রাম অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় উপজেলা পরিষদের ভিডিও কনফারেন্স রুমে আউট অব স্কুল চিলড্রেন এডুকেশন প্রোগ্রামের উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপজেলা পর্যায়ে প্রোগ্রাম অবহিতকরণ সভায় চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচি (পিইডিপি-৪) সাব কম্পোনেন্ট ২.৫ আউট অব স্কুল চিলড্রেন এডুকেশন প্রোগ্রামের বাস্তবায়ন করা হয়। যশোরের দিশা সমাজ কল্যাণ সংস্থার বাস্তবায়ন সহায়ক সংস্থার আয়োজনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরাফাত রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মনিরুল ইসলাম।
বিশেষ অতিথি ছিলেন যশোরের উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো'র সহকারী পরিচালক মহম্মদ বজলুর রশিদ, দিশা সমাজ কল্যাণ সংস্থার পরিচালক মোঃ যুবায়ের হাসান, ডেপুটি ম্যানেজার মনিটরিং মোঃ আমিনুর রহমান, জেলা প্রোগ্রাম ম্যানেজার মোঃ কামরুল ইসলাম, উপজেলা সমবায় অফিসার মোঃ ফরিদুল ইসলাম, উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের ইন্সট্র্যাক্টর মোছাম্মদ নাজনীন নাহার, সাংবাদিক আফজাল হোসনে চাঁদ প্রমুখ। 

গঙ্গানন্দপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতিমুলক সভা

গঙ্গানন্দপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতিমুলক সভা

স্টাফ রিপোর্টারঃ  গঙ্গানন্দপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন উপলক্ষে প্রস্তুতিমুলক সভা অনুষ্ঠিত হয়। আজ (১৮ ই ফেব্রুয়ারী)  বৃহস্পতিবার  যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গঙ্গানন্দপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অফিস কক্ষে সকাল ১০ টার সময় জাতীয় শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা উদযাপন উপলক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 
উক্ত আলোচনা সভায় বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ এর সম্মানিত সভাপতি অত্র ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান এমপি প্রতিনিধি আমিনুর রহমানের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুস্তাফিজুর রহমান, পরিচালনা পর্ষদ এর বিদ্যুৎসাহী সদস্য প্রভাষক মহসীন আলী, বিপ্লব হোসেন, কামারুল ইসলাম, সামসুর রহমান,শিউলী খাতুন, শিক্ষক প্রতিনিধি জহুরুল ইসলাম, ছবি রাণী ঘোষ, কামারুজ্জামান টিটু প্রমুখ।

নওগাঁর আত্রাইয়ে ২১ ফেব্রুয়ারী ও ৭ মার্চ পালনে প্রস্তুতিমূলক সভা

নওগাঁর আত্রাইয়ে ২১ ফেব্রুয়ারী ও ৭ মার্চ পালনে প্রস্তুতিমূলক সভা

মোঃ ফিরোজ হোসাইন,রাজশাহী ব্যুরোঃনওগাঁর আত্রাইয়ে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে মহান ২১ শে ফেব্রুয়ারী এবং ঐতিহাসিক ৭ ই মার্চ পালন উপলক্ষে প্রস্তুতিমূলক সভা হয়েছে। বুধবার সকালে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে ইউএনও মো. ইকতেখারুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে প্রস্তুতিমূলক সভা হয়। এসময় ওসি আবুল কালাম আজাদ, ইউপি চেয়ারম্যান আক্কাছ আলী, শফিকুল ইসলাম বাবু, আল্লামা শের-ই-বিপ্লব, আ'লীগ সভাপতি নৃপেন্দ্রনাথ দত্ত দুলাল, সম্পাদক চৌধুরী গোলাম মোস্তফা বাদল, প্রকৌশলী পারভেজ নেওয়াজ খান, যুব উন্নয়ন অফিসার ফজলুল হক, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুস ছালামসহ সরকারী সকল দফতরের কর্মকর্তা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান, সাংবাদিকবৃন্দ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সভায় স্বাস্থ্যবিধি এবং সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক মহান  ২১ শে ফেব্রুয়ারী এবং  ঐতিহাসিক ৭ ই মার্চ পালনের সিদ্ধান্ত হয়।

নাগরপুর ঔষধ ব্যবসায়ী মো.হিরণ আর নেই,হোমিও চিকিৎসকদের শোক প্রকাশ

নাগরপুর ঔষধ ব্যবসায়ী মো.হিরণ আর নেই,হোমিও চিকিৎসকদের শোক প্রকাশ

হাসান সাদী,নাগরপুর(টাংগাইল)প্রতিনিধি:নাগরপুর বাজারে অবস্হিত মেসার্স হক মেডিকেল হলের মালিক এবং নাগরপুর উপজেলা ডি এন্ড সি সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো.শামছুল হক হিরণ আর নেই-ইন্না লিল্লাহী ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল আনুমানিক ৫৫ বছর।

 আজ বৃহস্পতিবার,১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ খ্রি.বেলা ২.০০ টায় হার্ট স্টোর্কে ইন্তেকাল করিয়াছেন। মরহুমের জানাজার নামায বাদ এশা ধল্লা নিজ গ্রামে অনুষ্ঠিত হবে এবং সামাজিক কবর স্হানে দাফন করা হবে।

 বিশিষ্ট মেডিসিন ব্যবসায়ী মো.শামছুল হক হিরণের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক পরিষদ,নাগরপুর উপজেলা শাখার সভাপতি মুকতাদির হোমিও চিকিৎসা কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ম্যানেজিং ডিরেক্টর ডা.এম.এ.মান্নান ও সাধারণ সম্পাদক ডা.মো.মন্জুরুল ইসলাম। 

শোক বার্তায় ডা.এম.এ.মান্নান বলেন-মরহুম হিরণ ছিলেন নাগরপুর বাজারের সিনিয়র মেডিসিন ব্যবসায়ী। তিনি ছিলেন নরম ও সহজ প্রকৃতির মানুষ। তিনি সকল হোমিও চিকিৎসক ও ঔষধ ব্যবসায়ীদের কাছে সারাজিবন অমর হয়ে থাকবেন। প্রাথমিক চিকিৎসা করার ক্ষেত্রে তার হাতে জুস অনেক ভাল ছিল।তিনি নাগরপুরে হিরণ ডাক্তার নামে বেশ পরিচিতি ছিলেন । মহান আল্লাহ যেন মরহম হিরণ সাহেব কে জান্নাত নসিব করেন এবং তার পরিবার পরিজন ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের শোক সইবার তৌফিক দান করেন,আমিন

নওগাঁয় প্রতারণায় শিকার আদিবাসীর আত্মহত্যা

নওগাঁয় প্রতারণায়  শিকার আদিবাসীর আত্মহত্যা

রহমতউল্লাহ আশিকুর জামান নুর,নওগাঁ  প্রতিনিধি: নওগাঁয় 'প্রতারকদের পাল্লায় পড়ে সম্পদ খোয়ানোর হতাশা থেকে' এক আদিবাসী আত্মহত্যা করেছে বলে ধারনা করা হয়েছে। 

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকালে নওগাঁ জেলা ধামইরহাট উপজেলার উদয়শ্রী গ্রাম থেকে নিহতের বাড়ির দক্ষিণ পাশে এক কাঁঠাল গাছে গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় লাশ উদ্ধার করেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহত শিবলাল হাসদা (৫২) দুই স্ত্রী,দুই ছেলে এবং এক মেয়ে রেখে গেছেন। ধামইরহাট থানার ওসি আব্দুল মমিন বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে থানায় ইউডি মামলা হয়েছে।পুলিশ ও গ্রামবাসী জানান, এক সময় তার অনেক সম্পদ ছিল। প্রতারকদের প্রলোভনে বিভিন্ন কাজে জাড়িয়ে পড়ে টাকা-পয়সা খাটিয়ে সহায়-সম্পদ হারিয়েছেন তিনি।সম্পদ শেষ হওয়ায় তিনি হতাশায় ভুগছিলেন তিনি। আর হতাশা থেকে তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন বলে মনে করছে পুলিশসহ সংশ্লিষ্টরা।

চৌহালীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ অনুষ্ঠিত

চৌহালীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১ অনুষ্ঠিত

মোঃ শাকিল আহমেদ, বিশেষ প্রতিনিধিঃসিরাজগঞ্জের চৌহালীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন ২০২১অনুষ্ঠিত হয়েছে। 
উক্ত ম্যারাথন উদ্বোধন করেন জনাব মোঃ ফারুক সরকার, চেয়ারম্যান চৌহালী উপজেলা পরিষদ। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন মোল্লা বাবুল আক্তার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান। মোঃ রফিকুল ইসলাম, ওসি চৌহালী থানা। মোছাঃ নাসরিন আক্তার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান চৌহালী উপজেলা। এ সময় বক্তারা বলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও ভালোবাসা সম্পর্কে জানতে হবে যুব সমাজকে। 

আরো উপস্থিত ছিলেন ৩৭ এয়ার ডিফেন্স এর সদস্য বৃন্দ। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ। ছাত্র শিক্ষক বিভিন্ন পেশার মানুষ।

সাতক্ষীরা'র কুড়িকাউনিয়াতে টলার ডুবির ঘটনায় ৫৬ ঘন্টা পর ১জনের মরদেহ উদ্ধার

সাতক্ষীরা'র কুড়িকাউনিয়াতে টলার ডুবির ঘটনায় ৫৬ ঘন্টা পর ১জনের মরদেহ উদ্ধার

আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃ সাতক্ষীরা জেলার আশাশুনি উপজেলার কুড়িকাউনিয়াতে ট্রলার ডুবির ঘটনায় নিখোঁজ তিন শ্রমিকের মধ্যে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১২টার দিকে কুড়িকাহুনিয়া লঞ্চঘাটের বিপরীতে খুলনার কয়রা উপজেলার দশালীয়ায় তার মরদেহ ভেসে উঠলে, তার লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

উদ্র হওয়া বাবর আলী (৪৫) আশাশুনির কাপসন্ডা গ্রামের মনজিল সরদারের ছেলে।এখনো নিখোঁজ রয়েছেন শফিকুল ইসলাম  ও আব্দুল আজিজ নামে দুই শ্রমিক। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান দুপুর ১২টার দিকে কপোতাক্ষ নদের দশালীয়ায় সাদা কিছু একটা ভাসতে দেখে, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের খবর দেয়, তারা মরদেহটি উদ্ধার করে।

সাতক্ষীরা ফায়ার সার্ভিসের উপসহকারী পরিচালক তারেক হাসান ভুঁইয়া জানান, নিখোঁজ শ্রমিকদের উদ্ধারে তৃতীয় দিনের মতো অভিযান চলছে। একজনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে। বাকী দুইজনকে উদ্ধারের প্রচেষ্টা চলছে।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) ভোর ৬টার দিকে বাঁধ নির্মাণের কাজে যাওয়ার সময় কুড়িকাউনিয়ায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানে কপোতাক্ষ নদের বেড়িবাঁধ ভেঙে সৃষ্ট খালে ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটে। ট্রলারটিতে থাকা ১২ জন শ্রমিকের মধ্যে নয়জনকে উদ্ধার করা সম্ভব হলেও তিনজন নিখোঁজ ছিল। তার মধ্যে আজ একজনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে

নড়াইলে স্ত্রী কে হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসির আদেশদ

নড়াইলে স্ত্রী কে হত্যার দায়ে স্বামীর ফাঁসির আদেশদ

মো: আজিজুর বিশ্বাস,স্টাফ রিপোর্টার  নড়াইল।।নড়াইলের লোহাগড়ায় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামী ফোরকান উদ্দিন শাকিল  (৩৫) কে ফাঁসির আদেশ,ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা,অনাদায়ে আরো এক বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ডাদেশ দিয়েছেন জেলা ও দায়রা জজ আদালত।
 বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে নড়াইল জেলা ও দায়রা জজ মুন্সী মো:মশিয়ার রহমান এ আদেশ দেন। দন্ডপ্রাপ্ত শাকিল আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, পারিবারিক কলহের জের ধরে ২০১৫ সালের ১১ অক্টোবর রাতে নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা গোপীনাথপুর এলাকায় ভাড়া করা বসতবাড়িতে ধরালো অস্ত্র দিয়ে শাকিল তার স্ত্রী মর্জিনা বিথিকে (২৫) কুপিয়ে হত্যা করে। শাকিল পিরোজপুর সদরের তেজদাশকাটি গ্রামের তোফায়েল উদ্দিন খানের ছেলে। তবে শাকিল লোহাগড়া উপজেলা সদরের একটি হোটেল বাবুর্চির কাজ করতেন।

দু:সময়ে দলের নেতৃত্ব দিয়ে সংগঠনকে শক্তিশালী করেছেন মমতাজ উদ্দিন

দু:সময়ে দলের নেতৃত্ব দিয়ে সংগঠনকে শক্তিশালী করেছেন মমতাজ উদ্দিন

মোঃ সবুজ মিয়া বগুড়া প্রতিনিধিঃবগুড়া জেলা আওয়ামীগের সাবেক সভাপতি,কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক অন্যতম সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রয়াত জননেতা আলহাজ্ব মমতাজ উদ্দিনের ২য় মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে বগুড়া জেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করা হয়।

উক্ত কর্মসূচির মধ্যে ছিলো দুপুর ১২ টায় কালো ব্যাজ ধারণ, সাড়ে বারোটায় কবর জিয়ারত ,বাদ জোহর দলীয় কার্যালয়ে দোয়া মাহফিল এর আয়োজন হয়।কর্মসূচি গুলোতে উপস্থিত ছিলেন বগুড়া জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু, সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, টি জামান নিকেতা, আবুল কালাম আজাদ, প্রদীপ কুমার রায়, আসাদুর রহমান দুলু, সাগর কুমার রায়, এ্যাড: জাকির হোসেন নবাব, শাহাদৎ আলম ঝুনু, আব্দুল খালেক বাবলু, সুলতান মাহমুদ খান রনি, আল রাজি জুয়েল, শেরিন আনোয়ার জর্জিস, নাসরিন রহমান সীমা, আনিছুজ্জামান মিন্টু, মাশরাফি হিরো, আনোয়ার পারভেজ রুবন, রুহুল মোমিন তারিক, এস এম সাজাহান, জহুরুল হক বুলবুল, খালেকুজ্জামান রাজা, রফি নেওয়াজ খান রবীন, আবু সুফিয়ান সফিক, আতিকুর রহমান দুলু, সহিদুল ইসলাম দুলু, সাইফুল ইসলাম বুলবুল, রুমানা আজিজ রিংকি, আলমগীর হোসেন স্বপন, আলতাফুর রহমান মাসুক, গৌতম কুমার দাস, খাদিজা খাতুন শেফালী, ওবাইদুল হাসান ববি, মাফুজুল ইসলাম রাজ, আব্দুস সালাম, সাজেদুর রহমান শাহিন, লাইজিন আরা লীনা, ডালিয়া খাতুন রিক্তা, নাইমুর রাজ্জাক তিতাস, রাশেকুজ্জামান রাজন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

স্মরন সভায় বক্তরা বলেন প্রয়াত জননেতা মমতাজ উদ্দিন ছাত্রজীবন থেকে আমৃত্যু তিনি সামনে থেকে সকল লড়াই সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়ে গেছেন। ভয়-ভীতি উপক্ষো করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ প্রতিষ্ঠায় কাজ করে গেছেন।

পাকিস্তানী শাষক-শোষক গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীনতা প্রতিষ্ঠায় মমতাজ উদ্দিন ছাত্রলীগের নেতৃত্ব দিয়েছেন। মুক্তিযুদ্ধের পরে দেশের যুবসমাজকে ঐক্যবদ্ধ করতে কাজ করেছেন তিনি। দু:সময়ে দলের নেতৃত্ব দিয়ে সংগঠন শক্তিশালী করেছেন। বিভিন্ন সরকার নানা প্রলোভন দিয়েও আওয়ামী লীগ থেকে তাঁকে বিচ্যুত করতে পারেনি।

প্রয়োজনে ক্ষমতা থেকে দূরে থেকেছেন। তবু আদর্শের প্রশ্নে আপোষ করেন নি। আইয়ুব সরকার, সামরিক সরকারের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে দীর্ঘ ৫০ বছর তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধ সহ গনতান্ত্রিক আন্দোলন, লড়াই সংগ্রামে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। আমৃত্যু বঙ্গবন্ধুর আদর্শ প্রতিষ্ঠায় কাজ করে গেছেন। তিনি বগুড়াবাসীর হৃদয়ে চিরদিন বেঁচে থাকবেন তাঁর কর্মের মাধ্যমে। প্রিয় নেতাকে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করে দোয়া পরিচালনা করেন মুফতি মো: ফজলুল বারি।

বুড়িচংয়ে ইয়াবা ব্যাবসায়ী কর্তৃক বাকশীমুল ইউনিয়নের পাহাড়পুরে প্রবাসীর স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা

বুড়িচংয়ে ইয়াবা ব্যাবসায়ী কর্তৃক বাকশীমুল ইউনিয়নের পাহাড়পুরে প্রবাসীর স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা

মারুফ হোসেনঃ বুড়িচং(কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলা বাকশীমুল ইউনিয়নের পাহাড়পুর(বেলবাড়ী) গ্রামের প্রবাসী মোঃ রিপন মিয়ার স্ত্রী মোসাঃ লিপি খাতুন কে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে একই গ্রামের মৃত মোঃ মোসলেম উদ্দিনের ছেলে জামাল হোসেন ও শাকিল, মৃত গনি মিয়ার ছেলে মোঃ ইউসুফ। এ বিষয়ে প্রবাসীর স্ত্রী লিপি খাতুন বুড়িচং থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায় বিবাদী জামাল হোসেন একজন উশৃংখল প্রকৃতির লোক। সে পূর্বে কয়েক দফায় প্রবাসী স্ত্রীর উপর আক্রমণ করে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে মোসাঃ লিপি খাতুন বুড়িচং থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এলাকায় কয়েক দফায় লোকজন নিয়ে সালিশ হয়। কিন্তু সবাইকে তোয়াক্কা করে সবসময় জামাল হোসেন লিপি খাতুনের উপর সবসময়ই গালিগালাজ করে। অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে। ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১ দুপুর ২ টার সময় মোঃ জামাল মিয়া পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে মোসাঃ লিপি খাতুনের উপর তার গং নিয়ে আক্রমণ করে। এতে করে লিপি খাতুন কে বিবস্ত্র করে ও মাথায় ধারালো দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আঘত করে মেরে ফেলার চেষ্টা চালায়। লিপি খাতুন চিৎকার করে। চিৎকার শুনে স্হানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করতে আসলে জামাল তার গং বাহিনী নিয়ে পালিয়ে যায়। আক্রান্ত অবস্থায় লিপি খাতুনকে বুড়িচং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ভর্তি করা হয়।

স্হানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে জানা যায় মোঃ জামাল হোসেন একজন মাদক ব্যবসায়ী। এলাকায় অনেক খারাপ কাজের সাথে জড়িত। সে সবাইকে তোয়াক্কা করে এলাকায় অনেক অসামাজিক কার্যকলাপে লিপ্ত থাকে। সে চিহ্নিত একজন মাদক ব্যবসায়ী। তার নামে বুড়িচং থানায় আরো কয়েকটি মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা আছে।

জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তর যৌথ অভিযানে চন্দনাইশে অবৈধ পাঁচ ইটভাটা ধ্বংস

জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তর যৌথ  অভিযানে চন্দনাইশে অবৈধ পাঁচ  ইটভাটা ধ্বংস

সেলিম চৌধুরী স্টাফ রিপোর্টারঃ-চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তরের যৌথ অভিযানে চন্দনাইশে গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে  ৫টি অবৈধ ইটভাটা। বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত উপজেলার পূর্ব হাশিমপুর এলাকায় এ অভিযান চলে।
অভিযানে নেতৃত্ব দেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেজোয়ানা আফরিন ও পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রামের সহকারী পরিচালক শেখ মুজাহিদ। এছাড়াও কাঞ্চন নগর এলাকায় অভিযান চালানোর দাবি জানান এলাকাবাসী। কাঞ্চন নগর এলাকায় বেশ কয়েকটি অবৈধ ইটভাটা রয়েছে। ঐসব ইটভাটায়  পাহাড় এর মাটি এবং গাছ ব্যাবহার করছে। সরকারের নিয়ম নীতি অপেক্ষা করে মুনাফালোভি ইটভাটার মালিকগণ এ সমস্ত কাজ চালিয়ে আসছে বলে এলাকাবাসী সুএে জানাযায়। সুএে জানা যায়, উচ্চ আদালতের নির্দেশে পরিবেশ রক্ষায় অবৈধ ইটভাটার বিরুদ্ধে চলমান অভিযানের অংশ হিসেবে আজ বুধবার চন্দনাইশে অবৈধ ইটভাটা ধ্বংসে অভিযানে নামে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন ও পরিবেশ অধিদপ্তর।
বুধবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত চলা অভিযানে উপজেলার হাশিমপুর ইউনিয়নের পূর্ব হাশিমপুর এলাকার বিসমিল্লাহ্ ব্রিক ম্যানুফ্যাকচারিং, বার আউলিয়া ব্রিকস, হযরত আলী শাহ্ ব্রিক ম্যানুফ্যাকচারিং, নিউ হযরত আলী শাহ্ ব্রিক ম্যানুফ্যাকচারিং, আর,বি,এল ব্রিকস নামে ৫টি অবৈধ ইটভাটা গুঁড়িয়ে দেয়া হয়।
অভিযানের সময় র‌্যাব-৭, চন্দনাইশ থানা পুলিশ, আনসার ভিডিপি এবং দমকল বাহিনীর সহ বিপুল সংখ্যক আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্য উপস্থিত ছিলেন।
পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রামের সহকারী পরিচালক শেখ মুজাহিদ সাংবাদিকদের বলেন, "পরিবেশ রক্ষার জন্য অবৈধ ইটভাটাগুলো ধ্বংসে উচ্চ আদালতের নির্দেশনা রয়েছে। ফলে আমাদের অবৈধ ইটভাটা বন্ধে অভিযান অব্যাহত আছে। তারই অংশ হিসেবে আজ চন্দনাইশে অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে হাশিমপুর ইউনিয়নের পূর্ব হাশিমপুর এলাকায় ৫টি অবৈধ ইটভাটা ধ্বংস করা হয়।"
যতগুলো অবৈধ ইটভাটা এখনো সচল রয়েছে পর্যায়ক্রমে সবগুলোতে অভিযান চালানো হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

মোংলায় হরিণের ৪টি পা সহ আটক ২

মোংলায় হরিণের ৪টি পা সহ আটক ২

মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃ মোংলায় হরিণের চারটি পা, আধা বস্তা ফাঁদ, দুইটি ছুরি ও একটি নৌকাসহ দুই চোরা শিকারীকে আটক করেছে বনবিভাগ। আটককৃতদের বিরুদ্ধে বন ও বন্যপ্রাণী নিধন আইনে মামলা দায়েরের পর বৃহস্পতিবার সকালে বাগেরহাট আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে বনবিভাগ।

পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক মো: এনামুল হক জানান, বুধবার রাত ৯টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মোংলার বৈদ্যমারী ফরেস্ট অফিস সংলগ্ন ইসহাকের চিলা এলাকায় অভিযান চালায় বনপ্রহরীরা। এ সময় ওই এলাকায় আগে থেকে অবস্থানকৃত চোরা শিকারীরা অভিযানকারীদের উপস্থিতি টের পেয়ে জবাইকৃত হরিণের মাংস নদীতে ফেলে দিয়ে পালানোর চেষ্টার করে। পরে ধাওয়া করে দুই চোরা শিকারীকে আটক করে বনবিভাগের সদস্যরা। এ সময় অভিযানকারীরা আটক ওই দুই হরিণ শিকারীর কাছ থেকে জবাইকৃত হরিণের চারটি পা, আধা বস্তা হরিণ শিকারের ফাঁদ, দুইটি ছুরি, রক্ত মাখা পলিথিন ও একটি নৌকা জব্দ করে। আটককৃতরা হলো উপজেলার সুন্দরবন ইউনিয়নের বুড়বুড়িয়া গ্রামের ইসমাইল মোল্লার ছেলে জাহাঙ্গীর মোল্লা (৪০) ও আবজাল শিকারীর ছেলে ফজলু শিকারী (৫০)। আটককৃতদেরকে রাতে চাঁদপাই ফরেষ্ট ষ্টেশনে নেয়া হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে বন ও বন্যপ্রাণী নিধন আইনে মামলা দায়েরের পর বৃহস্পতিবার সকালে বাগেরহাট আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন এসিএফ (সহকারী বন সংরক্ষক) এনামুল হক।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ২০ জানুয়ারী বাগেরহাটের শরণখোলা থেকে একটি বাঘের চামড়াসহ এক পাচারকারীকে আটক করে র‌্যাব-০৮। এরপর গত ২২ জানুয়ারী আবারো বাগেরহাটের শরণখোলা থেকে ১৯টি হরিণে চামড়াসহ দুই পাচারকারীকে আটক করে ডিবি পুলিশ। তারপর গত ২৫ জানুয়ারী খুলনার দাকোপ উপজেলার পানখালী খেয়াঘাট এলাকা থেকে ১১ কেজি হরিণে মাংসসহ দুইজনকে আটক করে পুলিশ। ৩১ জানুয়ারী বাগেরহাটের মোংলার দিগরাজ এলাকা থেকে ৪৭ কেজি হরিণের মাংস তিনজনকে কোস্ট গার্ড এবং ২ ফেব্রুয়ারী বাগেরহাটের রামপাল থেকে ৪৫ কেজি হরিণে মাংসসহ পাচারকারীদের আটক করে ডিবি পুলশ।

আল-ইখওয়ান ইসলামি সমাজকল্যাণ সংস্থা "র ৪র্থ বার্ষিক তাফসির ও মোনাজাত

আল-ইখওয়ান ইসলামি সমাজকল্যাণ সংস্থা "র ৪র্থ বার্ষিক তাফসির ও মোনাজাত

আকরাম হোসাইন মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি :: মহান রবের অশেষ কৃপায় সম্পন্ন হয়েছে "আল-ইখওয়ান ইসলামি সমাজকল্যাণ সংস্থা " নয়ামাটি এর ৪র্থ বার্ষিক তাফসিরুল কোরআন মাহফিল ও মোনাজারা সভা। এলাকার তাওহীদি জনতা ও প্রবাসী ভাইদের আন্তরিকতা, দোয়া ও ভালোবাসার কারনেই মাহফিলকে সুন্দর ভাবে সম্পন্ন করতে পেরেছি। তাই আপনাদের সবাইকে আন্তরিক মোবারকবাদ।

মাহফিলকে সম্পন্ন করতে গিয়ে যাদের আন্তরিকতা বিশেষ ভুমিকা রেখেছে। 
১।জনাব আহমদ আলী সাহেব। সম্ভাব্য চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী। 
২।আলি আহমদ। সাধারণ সম্পাদক ঃগোয়াইনঘাট প্রবাসী ঐক্য পরিষদ।  
৩।কামরুল ইসলাম। সভাপতি ঃপ্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
৪।ইলিয়াস আহমদ। সাধারণ সম্পাদক ঃপ্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
৫। বশির আহমদ। অর্থ সম্পাদকঃপ্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
৬।হাঃশাহিন আহমদ। প্রবাসী কল্যাণ  বিষয়ক সম্পাদক ঃপ্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
৭।ফখরুল ইসলাম।প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক ঃপ্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
৮। ফয়জুল ইসলাম। (সাবেক সভাপতি -আল-ইখওয়ান ইসলামী সমাজকল্যাণ সংস্থা। 
৯।সুলেমান আহমদ। সদস্য প্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
১০।সালমান আহমদ।সদস্য প্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
১১।বাহার উদ্দিন। সদস্য প্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
১২।কয়ছর আহমদ। সদস্য প্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
১৩।তাজুল ইসলাম। সদস্য প্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
১৪।তাসমিন আহমদ। সদস্য প্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
১৫।তাজুল ইসলাম।(নয়াবাড়ি) সদস্য প্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
১৬।কয়ছর আহমদ। (নয়াবাড়ি) সদস্য প্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
১৭।মাওলানা তাজুল ইসলাম।সদস্য প্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।
১৮।এমরান আহমদ। সদস্য প্রবাসী কল্যাণ সমিতি  বাগেরসড়ক।

দোয়া করি মহান আল্লাহ যেন আপনাদের দানকে কবুল করেন।আপনাদের প্রবাস জীবন যেন সুখ -শান্তি ও আনন্দঘন হয়।আমিন।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদকে অভিনন্দন জানিয়ে ছাতকে আনন্দ মিছিল

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদকে অভিনন্দন জানিয়ে ছাতকে আনন্দ মিছিল

আব্দুল হালিম,বিশ্বনাথ(সিলেট)প্রতিনিধি।।
বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের শূন্য পদে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রাহমান হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আল-আমিন রহমান কে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয় সম্পাদক নির্বাচিত করায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য কে অভিনন্দন জানিয়ে আজ ১৭ফেব্রুয়ারী(বুধবার)সুনামগঞ্জের  ছাতক উপজেলা চরমহল্লা ইউনিয়নের টেটিয়ারচর বাজারে আনন্দ মিছিল করেছে ছাতক উপজেলা ছাত্রলীগ ও চরমহল্লা ইউনিয়ন ছাত্রলীগ।

মিছিলটি টেটিয়ারচর পয়েন্ট থেকে শুরু হয়ে টেটিয়ারচর বাজারের প্রধান সড়কের উপর সভায় মিলিত হয়।

চরমহল্লা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম রাজু,র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক খালেদ হোসেনের পরিচালনা ও নেতৃত্বে সভায় বক্তব্য দেন
চরমহল্লা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা চরমহল্লা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের বর্তমান মেম্বার নুরুজ্জামান শামিম, ছাতক উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক কমিটির সিনিয়র সদস্য শায়েস্তা তালুকদার রবি।

এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সাবেক ছাএলীগ নেতা শরিফুজ্জামান, চরমহল্লা ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা আবু সুফিয়ান সুফি, আলমগীর হোসেন, দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি কাওছার তালুকদার, অর্থ সম্পাদক কাওছার আহমদ, উওর খুরমা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আতাউল গনি, শাহ আলম, ফয়ছল,কাইয়ুম, আবির, রুহেল, ছায়াদ, সুহেল, ছায়াদ, ও আল আমিন রহমানের ছোট ভাই ছাত্রলীগ নেতা তানভীর রহমান প্রমুখ।সভায় ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ দেশরত্ন শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি
 আল-নাহিয়ান খান জয় এবং লেখক ভট্টাচার্য্যের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।।