ঝিকরগাছার বিভিন্ন মন্ডপ পরিদর্শনে উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম

 ঝিকরগাছার বিভিন্ন মন্ডপ পরিদর্শনে উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম

 


ইকরামুল করিম সৈকত, ঝিকরগাছা প্রতিনিধিঃবাংলাদেশে সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় ‘দুর্গা পূজা’। যশোরের ঝিকরগাছায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিভিন্ন দুর্গাপূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন  উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মনিরুল ইসলাম। 

আজ রবিবার (২৫অক্টোবর) ঝিকরগাছার বিভিন্ন পুজা মন্ডপ পরিদর্শন ও সার্বিক খোঁজ খবর নেন উপজেলা চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি ও ঝিকরগাছা উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য আজহার আলী, ঝিকরগাছা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও যুবলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম বাপ্পি, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও যুবলীগ নেতা শামীম রেজা, ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ সেলিম রেজা, ঝিকরগাছা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইমরান রশিদ,  পৌর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিমাই চন্দ্র, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন, যুবলীগ নেতা শামীম পারভেজ,  ইব্রাহীম, রনি, ছাত্রলীগ নেতা শিহাব উদ্দিন রাজ, সোহেল প্রমুখ।

বাংলাদেশ বন্ধু সংগঠন গাবতলী উপজেলার ৩১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি অনুমোদন

বাংলাদেশ বন্ধু সংগঠন  গাবতলী উপজেলার ৩১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি অনুমোদন


মোঃ সবুজ মিয়া বগুড়া প্রতিনিধিঃচলো বন্ধু বদলে যাই মানবতার বিশ্ব চাই, এই শ্লোগানকে সামনে রেখে, বাংলাদেশ বন্ধু সংগঠন বগুড়া জেলায় গাবতলী উপজেলার ৩১ সদস্য আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন।উক্ত কমিটির আহ্বায়ক,  সাংবাদিক মোঃ সবুজ মিয়া, সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক, মোঃ নুর আলম, যুগ্ম আহ্বায়ক, মোঃ শিহাব হোসাইন, মোঃ রায়হানুল ইসলাম নুর, মোঃ আলী আজম, যুগ্ম আহ্বায়ক মোঃ সুলতান আজিজ সনি, মোঃ অঙ্কুর ইসলাম,মোঃ মমিন প্রামানিক মোঃ পিয়াস ফরহাদ, সদস্য সচিব মোঃ সুমন মিয়া, সদস্য গণ মোঃ রব্বানী, মোঃ আহাদ আল আসিফ, মোঃ রিয়েল বাবু, মোঃ জিয়াদ আল হাসান, মোঃ রিয়েল বাবু, মোঃ শামিম হোসাইন, মোঃ আতিকুল ইসলাম, মোঃ শাহিন আলম শুভ, মোঃ আরিফুল ইসলাম, মোঃরানা, মোঃ সোহাগ মিয়া, মোঃ মিনহাজুল ইসলাম, মোঃ রাকিব, মোঃ রফিকুল ইসলাম, মোঃ সজল মিয়া, মোঃ রানা বাবু, মোঃ রোহান করিম, মোছাঃ জান্নাতুল ফেরদৌস, মোঃ সাগর ইসলাম, মোঃ হৃদয়, মোঃ তারাজুল ইসলাম লাম, মোঃ শাফি

গত ২৫/১০/২০ ইং বাংলাদেশ বন্ধু সংগঠন বগুড়া জেলা কমিটির সভাপতি মোঃ পারভেজ মোশাররফ ,সদস্য সচিব মোছাঃ হাসি আখতার,উক্ত কমিটির অনুমোদন দিয়েছে।

ধর্মীয় উগ্রবাদীতার দীক্ষা কোন ধর্মেই নেই : মোমিন মেহেদী

 ধর্মীয় উগ্রবাদীতার দীক্ষা কোন ধর্মেই নেই : মোমিন মেহেদী

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী বলেছেন, ধর্মীয় উগ্রবাদীতার দীক্ষা কোন ধর্মেই নেই। তবু অসাম্প্রদায়িক দেশ গড়ার অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে পুলিশ-প্রশাসন-ধর্মব্যবসায়ী আর রাজনীতিকদের একটি বড় অংশ। 


নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির পক্ষ থেকে রাজধানীর বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শনের সময় তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। ২৫ অক্টোবর শারদীয় দূর্গা পূজো মন্ডপ পরিদর্শনে সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা, মহাসচিব নিপুন মিস্ত্রী সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। নেতৃবৃন্দ বিভিন্ন রাজধানীর ঢাকেশ^রী মন্দির মন্ডপ পরিদর্শন শেষে যমুনা ফিউচার পার্কের পাশে অস্থায়ী পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করতে গেলে সেখানে হিন্দু কল্যাণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও সেভ দ্য রোড-এর ভাইস চেয়ারম্যান বিকাশ রায়, টুকন বোস সহ অন্যান্যরা তাদেরকে স্বাগত জানান। মোমিন মেহেদী সে সময় পুলিশ-প্রশাসনের উদ্দ্যেশ্যে বলেন, ধর্মীয় উগ্রবাদীতার দিকে দেশ যেন না যেতে পারে এজন্য ‘লা আবু মা তা’বুদুন’-এর ভিত্তিতে প্রশাসনিক কাজ পরিচালনা করা আপনাদের নৈতিক-ধর্মীয় ও রাষ্ট্রিয় দায়িত্ব। এই দায়িত্ব অবহেলা করলে ইতিহাস কাউকে ক্ষমা করবে না। অতএব, বাংলাদেশকে ভালোবেসে সকল ধর্মের প্রতি যথাযথ শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের মধ্য দিয়ে আপনাদের দায়িত্ব পালন করুন।

মানবাধিকার সংস্থা AHRI এর জবি শাখার সভাপতি রাইয়ান সম্পাদক আতিফ

 মানবাধিকার সংস্থা AHRI এর জবি শাখার সভাপতি রাইয়ান সম্পাদক আতিফ

 

জবি প্রতিনিধি:মানবাধিকার সংস্থা Access to Human Rights International-(AHRI) এর জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শাখার কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিতে সভাপতি হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী রাইয়ানুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক তৃতীয় বর্ষের আবু ছালেহ আতিফ।শনিবার (২৪ অক্টোবর) কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিটি গঠন করা হয়। উক্ত কমিটির নবনিযুক্ত কার্যনির্বাহীর সদস্যরা হলেন, সহ-সভাপতি, সুমাইয়া আক্তার, রনি ইসলাম পারভেজ। যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, মোঃ তাজুল ইসলাম, আকরাম হোসাইন। সাংগঠনিক সম্পাদক, ফইয়াজুল আজাদ রুদ্র, মুস্তাফিক হোসাইন মুসা, রুহুল আমিন, অপূর্ব চৌধুরী। দপ্তর সম্পাদক, শেখ খায়রুল ইসলাম।অর্থ বিষয়ক সম্পাদক, বিপ্লব দেবনাথ।আইন বিষয়ক সম্পাদক, মিসেস সুমনা আক্তারপ্রশাসন ও তদন্ত বিষয়ক সম্পাদক, চন্দ্রিকা মজুমদার। নারী ও শিশু বিষয়ক সম্পাদক, মেলিসা রহমান। ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক, জেরিন তাসনিম অর্ণি। পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক, মোঃ তরিকুল ইসলাম। তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক, সানজিদা মাুহমুদ মিষ্টি।শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক, মিজানুর রহমান জনসচেতনতা সম্পাদক, মোর্শেদ হাসান আসিফ, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পাদক, সাজ্জাদ ইসলাম আরিফ। কার্যনির্বাহী সদস্য, ইমাম হাসান, অনুপ কবিরাজ অরিজিৎ।এবিষয়ে নবনিযুক্ত সভাপতি রাইয়ানুল ইসলাম জানান, মানবাধিকার প্রতিষ্ঠার একটা গুরুত্বপূর্ন প্ল্যাটফর্ম হিসেবে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে AHRI এর যাত্রা শুভ হোক। Access to Human Rights International-(AHRI) এটি একটি Non-Governmental International Organization. আমার উপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করার চেষ্টা করবে। AHRI, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিটের উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করছি।

উল্লেখ্য, বিশ্বের প্রায় ৫৭ টি দেশে এর শাখা কমিটি রয়েছে। নারী-শিশু, পথশিশু, বৃদ্ধ, গরীব-অসহায় ও সুবিধাবঞ্চিত এবং যুবক ও শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে সেবামূলক কাজ করছে এই সংগঠন। শিশু অত্যাচার, নারী নির্যাতন, শিশুশ্রম, মাদক, ইভটিজিং, যৌন হয়রানি, পরিবেশ দূষণ রোধে গ্রাম ও শহর এলাকার হাজার হাজার মানুষকে স্বাস্থ্য ও আইনি সহায়তা প্রদান, প্রশিক্ষণ ও কাউন্সেলিংয়ের আয়োজন করছে এই সংগঠন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মানুষকে গত ৫ বছর ধরে খাদ্য, পোশাক,ওষুধ এবং শিক্ষা দিয়ে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে AHRI.

গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নের সকল পূজা মন্দিরে পরিদর্শন করলেন এমপি প্রতিনিধি আমিনুর রহমান

গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নের সকল পূজা মন্দিরে পরিদর্শন করলেন এমপি প্রতিনিধি আমিনুর রহমান
কাগমারী সার্বজনীন  মাতৃ মন্দিরে বক্তব্য দিচ্ছেন আমিনুর রহমান  

স্টাফ রিপোর্টার:গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নের সকল পূজা মন্দিরে পরিদর্শন করলেন এমপি প্রতিনিধি আমিনুর রহমান। যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলায়১ নং গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নের সকল পূজা মন্দির পরিদর্শন করেন চৌগাছা- ঝিকরগাছা আসনের মাননীয় জাতীয় সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অব:)অধ্যাপক ডাক্তার নাসির উদ্দিন এর পক্ষে অত্র ইউনিয়নের প্রতিনিধি ও সাবেক চেয়ারম্যান আমিনুর রহমান। 

ছুটিপুর বাজার মন্দিরে  অর্থ প্রদাণ করছেন   

আজ বিকাল চার ঘটিকার সময় হতে শতাধিক মোটরসাইকেল এর বিশাল বহর সহ অত্র ইউনিয়নের ৬ টি পূজা মন্দির পরিদর্শন করেন এবং পূজা উদযাপন কমিটির সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ ও সার্বিক খোঁজ-খবর নেন এবং তাদের পূজা সুন্দরভাবে পরিচালনা করার জন্য নগদ অর্থ প্রদান করেন।

কাগমারী মন্দিরে অর্থ প্রদান করছেন   

এ সময় তার সাথে সফরসঙ্গী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা রবিউল ইসলাম,অত্র ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুস সামাদ ,কত ইউনিয়নের দুই নম্বর এমপি প্রতিনিধি আশরাফুল ইসলাম ময়না, কপোতাক্ষ নিউজের সম্পাদক ও প্রকাশক  মহসীন আলী (প্রভাষক) , মাস্টার আব্দুল মজিদ,১নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বার শামসুর রহমান,আওয়ামী লীগ নেতা মহর আলী, আওয়ামী লীগ নেতা মিরাজুল ইসলাম মিরাজ,যুবলীগ নেতা রিলিফ হোসেন,সাহেব আলী, জাকির হোসেন অত্র ইউনিয়ন আওয়ামী কৃষকলীগের সাবেক সভাপতি ও ব্যাংদাহ সম্মিলিত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি জয়নুর রহমান, সম্মিলিত মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বর্তমান সভাপতি মিলন হোসেন, আওয়ামী লীগ নেতা বাবু হোসেন ,নজরুল ইসলাম, আতাউল হক আতাল, কামরুল ইসলাম ,শামসুর রহমান ,ফুল মিয়া, ইমামুল হক, মুরাদ আলী, ইউনুস আলী , দিয়ানত আলী, আহসান আলী ,যুবলীগ নেতা ও ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার পদপ্রার্থী তরিকুল ইসলাম,মোহাম্মদ আলী,মমিনুর রহমান মোমিন  সহ দুই শতাধিক অত্র ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ কৃষক লীগ সহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী।

নাগরপুরে ঐতিহাসিক বনগ্রাম গণহত্যা দিবস পালিত

 নাগরপুরে ঐতিহাসিক বনগ্রাম  গণহত্যা দিবস পালিত




ডা.এম.এ.মান্নান,টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের নাগরপুরে ঐতিহাসিক বনগ্রাম গণহত্যা দিবস পালিত হয়েছে।দিবসটি উপলক্ষে আজ রবিবার  সকালে গয়হাটা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক রাছেল খান এর আয়োজনে টাংগাইল-৬ নাগরপুর-দেলদুয়ারের সাংসদ আহসানুল ইসলাম টিটু ও গয়হাটা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পক্ষে  উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ুন কবির, উপজেলা কৃষক লীগের আহবায়ক মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন ইকবাল গণকবরে অবস্থিত শহীদ বেদীতে পুষ্প স্তবক অর্পণ করেন। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, গয়হাটা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত  সাধারণ সম্পাদক  কামরুজ্জামান কাইয়ুম, বনগ্রাম শহীদ মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফজলুর রহমান, টাংগাইল জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক মেহেদী হাসান হিমেল, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি আজিম হোসেন রতন, গয়হাটা ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক সজিব মিয়া প্রমূখ।

কিশোরগঞ্জের চাঁদখানা ইউপি আ'লীগ সভাপতির পূজা মন্ডপ পরিদর্শন ও নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান

কিশোরগঞ্জের চাঁদখানা ইউপি আ'লীগ সভাপতির পূজা মন্ডপ  পরিদর্শন ও নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান



মোঃ লাতিফুল আজম,কিশোরগঞ্জ নীলফামারী প্রতিনিধি:হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রধান ধর্মীয় উৎসব সারদীয় দূর্গাপুজা,জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বাংলাদেশের যে অসাম্প্রদায়িক চেতনা,'ধর্ম যার যার রাষ্ট্র ও উৎসব সবার",ফুটে উঠে আবহমান বাংলার শারদীয় দুর্গোৎসব, মুখ্যত বাঙালির শ্রীশ্রী শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে কিশোরগঞ্জের  চাঁদখানা ইউনিয়নের ১২টি পূজা মন্ডপ পরিদর্শন ও নগদ  অর্থ সহায়তা প্রদান করেন, চাঁদখানা ইউপির আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ওই দলটির দলীয় প্রতীকের ব্যানারে আসন্ন ইউপি নির্বাচনের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মিজানুর রহমান দুলাল, সাধারণ সম্পাদক  বাবু চন্দন কুমার রায়।এ সময় তার সফরসঙ্গী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি বাবু বিপ্লব কুমার সরকার দিপু, সাধারণ সম্পাদক ফণীভূষণ মজুমদার, সিনিয়র সহ-সভাপতি বাবু প্রতাপ চন্দ্র রায়, জাতীয় শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক বাবু আশুতোষ সিংহ লক্ষণ, সদস্য সচিব হিজবুল্লাহ রহমান ডালিম ও বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি প্রাণ কৃষ্ণ রায় প্রান্ত।এ ছাড়াও দলটির সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের দুই শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে শুভেচ্ছা বার্তা-মো:আনোয়ারুল আজিম খাঁন

শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে শুভেচ্ছা বার্তা-মো:আনোয়ারুল আজিম খাঁন

দূর্গাপূজা উপলক্ষে শুভেচ্ছা বার্তা জানিয়েছেন,১ নং ফেঞ্চুগঞ্জ  ইউনিয়ন ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক    আনোয়ারুল আজীম খান  শারদীয় দুর্গোৎসব-২০২০ উপলক্ষে হিন্দু ধর্মাবলম্বী ভাই ও বোনদেরকে ফেঞ্চুগঞ্জ   ইউনিয়ন ছাত্রলীগের  পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা, অভিনন্দন ও আন্তরিক প্রীতি জ্ঞাপন করছি। অশুভ শক্তির বিনাশ ও সত্য-সুন্দরের আরাধনায় দূর্গাপূজাকে আবহমানকাল থেকেই হিন্দু ধর্মাবলম্বী ভাই ও বোনেরা তাদের প্রধান উৎসব হিসেবে পালন করে আসছে। বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। সকল ধর্ম, বর্ণ ও সম্প্রদায়ের মানুষের মধ্যে সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতির কামনা করে এবং সেই লক্ষ্যেই সব সময় কাজ করে আসছে।দুর্গোৎসবের আন্তরিক প্রীতি ও সৌহার্দ্যতা সকলের মাঝে অক্ষুণ্ণ থাকুক।করোনা পরিস্থিতিতে সরকারি নির্দেশনাগুলো মেনে শারদীয় দূর্গাপূজা উৎসব পালন করুন। সুস্থ থাকুন নিরাপদে থাকুন।

শুভেচ্ছান্তে,

মো : আনোয়ারুল আজীম খাঁন

প্রচার সম্পাদক 

১ নং  ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়ন  ছাত্রলীগ

বড়লেখায় যুক্তরাজ্যে গমণ উপলক্ষে বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠান

বড়লেখায় যুক্তরাজ্যে গমণ উপলক্ষে বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠান




আকরাম হোসাইন মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার ১নং বর্ণি ইউনিয়নের পাকশাইল গ্ৰামের গ্রেট ভিশন এয়াোসিয়েশনের অফিস সম্পাদক, মেধাবী সংগঠক "কবির আহমদ" এর উচ্চশিক্ষা উর্জনের জন্য যুক্তরাজ্যে গমণ উপলক্ষে সংবর্ধনা দেওয়া হয়।কবির আহমদের জন্য রইলো অনেক অনেক দোয়া ও শুভকামনা।


পর্যায়ক্রমে যুক্তরাজ্যে গমণ উপলক্ষে বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সংবর্ধনা প্রদান করেন অর্থ সম্পাদক সাইফুল হোসেন পাভেলের। উপস্থাপনায় এবং সহ অফিস সম্পাদক আবুল কালাম কিবরিয়ার।সংস্থার সহ সাধারণ সম্পাদক নাহিদ আহমদ,সহ সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান, সেক্রেটারি জাহাঙ্গীর আলম,সহ সভাপতি ইমন আহমদ, সহ সভাপতি সাহিদুল হক,সহ সভাপতি কামরুল হোসাইন এনাম।

চুড়ামনকাঠির ভৈরব নদ থেকে গোলাম মোস্তফা লাশ উদ্ধার

 চুড়ামনকাঠির ভৈরব নদ থেকে গোলাম মোস্তফা লাশ উদ্ধার




মোরশেদ আলম,যশোর ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধিঃ যশোর জেলার সদর উপজেলার চুড়ামনকাটির ভৈরব নদ থেকে গোলাম মোস্তফা (৫৫) নামে এক কাঠ ব্যবসায়ীর গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

জানা জায় তিনি যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাঠি ইউনিয়নের সরদার বাগডাঙ্গা গ্রামের মৃত পাচু মন্ডলের ছেলে। কাঠের লগ ও সাইজ কিনে বিভিন্ন সমিলে বিক্রি করতেন তিনি।তার ছোট ছেলে হাবিবুর রহমান ও জামাই মেহেদি হাসান সজীব জানান, উপজেলার খোঁজারহাট গ্রামের বসুর কাছে পাওনা ২ লাখ টাকা আনার জন্য বাড়ি থেকে বের হন কিন্তু  রাত ১২টার দিকে বাড়ি ফিরে না আসায় তার মোবাইলে ফোন দিলে বন্ধ পাওয়া যায়। ওই সময় থেকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করলেও পাওয়া যায়নি। রবিবার (২৫ অক্টোবর) সকালে ভৈরব নদে এক কৃষক মুলা পরিস্কার করার জন্য গেলে প্রথমে  একটি হাত ভাসতে  স্থানীয়দের খবর দেন । পরবর্তীতে  পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করেন। তার পিতা কোন রাজনীতি দলের সাথে জড়িত ছিল না বলে দাবি করে ছেলেটি । কি কারণে এবং কারা তাকে হত্যা করেছে সে ব্যাপারে ছেলে হাবিবুর রহমান নিশ্চিত করে কিছু বলতে  পারেনি।

চুড়ামনকাঠি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান মুন্না জানান, শনিবার রাতে পাওনা আদায়ের কথা বলে তিনি বাড়ি থেকে বের হয়েছেন। এরপর তিনি আর বাড়ি ফিরে আসেনি বলে আমি পরিবার সুত্রে জানতে পেরেছি। 

আশাশুনির বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে ইউএনও

 আশাশুনির বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে ইউএনও




আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধি :আশাশুনি উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের দুর্গাপুজা মন্ডপ পরিদর্শন করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা। শনিবার মন্ডপের সার্বিক খেঁাজখবর নিতে কাদাকাটি ও দরগাহপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন উপজেলা নির্বাহী অফিসার। এসময় তিনি মন্ডপে আগত ভক্তদের সাথে মতবিনিময় করেন এবং পরিচালনা কমিটি ও পুরোহিতদের সাথে সুবিধা অসুবিধা ও প্রয়োজনীয়তা নিয়ে কথা বলেন। সকল স্থানে শান্তিপূর্ণ ভাবে পূজার কাজ চলছে জেনে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন। আইন শৃংখলা রক্ষায় তিনি স্বেচ্ছাসেবকদের সতর্কতার সাথে কাজ করা ও পরিচালনা কমিটিকে প্রয়োজনে প্রশাসন ও থানা পুলিশের সাথে যোগাযোগ রাখতে আহবান জানান। এসময় পিআইও সোহাগ খান তার সাথে ছিলেন।

আশাশুনির দরগাহপুরে “জমি আছে ঘর নেই” প্রকল্পের কাজ পরিদর্শন করলেন জনপ্রশাসন সচিব

 আশাশুনির দরগাহপুরে “জমি আছে ঘর নেই” প্রকল্পের কাজ পরিদর্শন করলেন জনপ্রশাসন সচিব


আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধি ঃ আশাশুনি উপজেলার দরগাহপুরে “জমি আছে ঘর নেই” প্রকল্পের অধীনে নির্মানাধীন গৃহের নির্মান কাজ পরিদর্শন করেছেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব শেখ ইউছুফ হারুন। রবিবার সকালে তিনি নিজ জন্মভূমি দরগাহপুরে এসে সর্বপ্রথম তার পিতামাতার কবর জিয়ারতের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচী শুরু করেন। এরপর প্রকল্পের নির্মানাধীন গৃহের নির্মান কাজ সরোজমিনে পরিদর্শন করেন তিনি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের সকল নাগরিকে বাসস্থান নিশ্চিত করার লক্ষ্যে জমি আছে ঘর নেই এমন পরিবারকে গৃহ নির্মান করে দেওয়া এবং “জমি নেই ঘর নেই” এমন পরিবারকে খাস জমি প্রদান ও গৃহ নির্মান করে দেওয়ার ঘোষণা প্রদান করেন। এরই ধারাবাহিকতায় আশাশুনি উপজেলার দরগাহপুরে “জমি আছে ঘর নেই” এমন পরিবারকে গৃহ নির্মান করে দেওয়ার কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন জনপ্রশাসন সচিব। একই সাথে “মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার, গৃহহীন থাকবে না কেউ আর” ও আশ্রয়ণের অধিকার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার'” এই লক্ষ্যকে সামনে রেখে তার নিজস্ব অর্থায়নে জমি আছে ঘর নেই দরগাহপুর ইউনিয়নের এমন দু’টি দুস্থ পরিবারের জন্য নির্মিত দু’কক্ষ বিশিষ্ট ঘর এর নির্মান কাজ পরিদর্শন করেন। এরপর তিনি দরগাহপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম ও দরগাহপুর ১০ শয্যা বিশিষ্ট মা ও শিশু হাসপাতাল সংলগ্ন টেকনিক্যাল ইনস্টিটিউট এর জমি অধিগ্রহনের জায়গা পরিদর্শন করেন তিনি। সবশেষে তিনি দরগাহপুর ইউনিয়ন পরিষদে যান এবং সেলাই মেশিন বিতরণ করেন। এরপর বিকাল তিনটায় তিনি খুলনার উদ্দেশ্যে রওনা হন। পরিদর্শনকালে প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলিফ রেজা, পাইকগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবিএম খালিদ হোসেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহীন সুলতানা, থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম কবির, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শোহাগ খান, দরগাহপুর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ মিরাজ আলী, দরগাহপুর রহমানিয়া জামে মসজিদের সভাপতি শেখ মতলুবর রহমান, প্রধান শিক্ষক দরবেশ-ই-রসুল, দক্ষিন বাংলা অনলাইন পোর্টাল-এর সম্পাদক প্রভাষক শেখ আশিকুর রহমান আশিক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আশাশুনি উপজেলা চেয়ারম্যান ও জার্মান ডেপুটি হাই কমিশনার সৌজন্য সাক্ষাৎ

 আশাশুনি উপজেলা চেয়ারম্যান ও জার্মান ডেপুটি হাই কমিশনার সৌজন্য সাক্ষাৎ


আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধি:জার্মানের ডেপুটি হাই কমিশনার কনস্ট্রানজা ঝিরিনজার আশাশুনিতে ত্রাণ বিতরণের উদ্দেশ্যে আগমনের এক পর্যায়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ও ডেপুটি হাই কমিশনার সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন। শনিবার বিকালে উপজেলা চেয়ারম্যানের চাপড়াস্ত বাস ভবনে এ সৌজন্য সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়। 

উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এবিএম মোস্তাকিম শ্রীউলা ইউনিয়নে অসহায় মানুষদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ শেষে জার্মান ডেপুটি হাই কমিশানরকে তার বাস ভবনে আমন্ত্রণ জানান। আমন্ত্রনে সাড়া দিয়ে ডেপুটি হাই কমিশনার কনস্ট্রানজা ঝিরিনজার তার বাসভবনে গমন করে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। এসময় উপজেলা চেয়ারম্যান আশাশুনি উপজেলার দুর্দশাগ্রস্ত ওয়াপদা ভেড়ী বঁাধ ভেঙ্গে প্রতিবছর এলাকার মানুষের চরম ভোগান্তির কথা অবহিত করেন। ডেপুটি হাই কমিশনার এলাকার চরম দুরাবস্থা ও মানুষের দুর্গতি দেখে খুবই মর্মাহত হন। এব্যাপারে জার্মান সরকার অসহায় মানুষের পাশে থাকতে পারে সেজন্য তার সরকারকে প্রকৃত চিত্র তুলে ধরবেন বলে আশ্বাস প্রদান করেন। পওে তিনি উপজেলা চেয়ারম্যানের ছাদে বিভিন্ন ফলজ বাগান ও ফুল বাগান ঘুরে ঘুরে দেখেন।

বান্দাইখাড়া বাজারে টয়লেট ব্যাবস্থা না থাকায় সর্ব সাধারণের ভোগান্তী

বান্দাইখাড়া বাজারে টয়লেট ব্যাবস্থা না থাকায় সর্ব সাধারণের ভোগান্তী


মোঃ ফিরোজ হোসাইন, রাজশাহী ব্যুরোঃনওগাঁর আত্রাইয়ের বান্দািখারাড়া বাজার আত্রাই থেকে ১৪ কিঃ পশ্চিমে, ভাবনীগঞ্জ থেকে ১৩ কিঃ উত্তরে মান্দা, থেকে ২২ কিঃ দক্ষিনে, নওগাঁ থেকে ২৬ কিঃ মিটার দক্ষিন পশ্চিমে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী বান্দাইখাড়া বাজার। অত্র নওগাঁ জেলার মধ্যে এই একটি মাত্র বাজার যাকে সরকারী ভাবে প্রতিদিনের বাজারকে হাট বলে ঘোষনা করা হয়েছে। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষের কেনা কাটায় মুখরিত হয়ে উঠে বাজারে। যেখানে প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ টাকার কেনা কাটা হয় এই বাজারে,কিন্তু দুঃখের বিষয় এই বাজারে কোন প্রকার পাবলিক টয়লেট নেই,আর পাবলিক টয়লেট না থাকার কারনে হাট বাজারে আসা পাবলিক বিভিন্ন ভানে হাটকাজারের পরিবেশ নষ্ট করতেছে এতে করে মানুষের রোগ ব্যাধি হওয়ার সম্ভবনা বেশি। স্থানীয় চেয়ারম্যান বিভিন্ন সময় প্রতিশ্র“তি দিলেও তা এখনো গড়ে উঠেনি এই বাজারে প্রায় ৪৫০টির বেশি দোকান ঘর আছে এবং বহু লোকজন ফুটপাতে বসে বেচা কেনা করে। তাই এলাকার তথা বাজারের সকলের দাবি অতি দ্রত এই বাজারে অন্তত কয়েকটি পাবলিক টয়লেট তৈরি করে দেওয়া হোক। এই মর্মে সর্ব সাধারণ প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছে।

কি ওয়ার্ড কোডের মাধ্যমে খাদ্যবান্ধব চাউল বিক্রি

  কি ওয়ার্ড কোডের  মাধ্যমে খাদ্যবান্ধব চাউল বিক্রি




ফরিদপুর প্রতিনিধিঃ ফরিদপুরের নগরকান্দায় নতুন পদ্ধতিতে কি ওয়ার্ড কোডের মাধ্যমে খাদ্য অধিদপ্তর কর্তৃক পরিচালিত হতদরিদ্রদের জন্য স্বল্পমূল্যে  খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর আওতায় ১০ টাকা কেজি দরে ৩৭৩ জন কার্ড হোল্ডারদের মাঝে প্রত্যেককে  ৩০ কেজি করে চাউল বিক্রি করা হয়।রোববার সকালে নগরকান্দা বাজারে কোদালিয়া শহীদনগর ইউনিয়নের ডিলার জাকির হোসেন জাকারিয়ার  গোডাউন  হতে নতুন পদ্ধতিতে  চাউল বিক্রির  উদ্বোধন  করেন কোদালিয়া শহীদনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন  তদারকি ও  উপজেলা পাট উন্নয়ন কর্মকর্তা আব্দুস সালাম প্রমুখ।

মুক্তিযোদ্ধাকে ভূয়া নানা বানিয়ে পোষ্য কোটায় চাকুরী সহকারী শিক্ষিকার

 মুক্তিযোদ্ধাকে  ভূয়া নানা বানিয়ে পোষ্য কোটায় চাকুরী সহকারী শিক্ষিকার



মোঃ লাতিফুল আজম,কিশোরগঞ্জ নীলফামারী প্রতিনিধি:নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজলোয় তথ্য গোপন করে প্রতিবেশী বীর  মুক্তিযোদ্ধাকে নানা বানিয়ে ভূয়া কাগজপত্র তৈরি করে  নাতনির পোষ্য কোটায় চাকুরী করে  বেতন ভাতা ভোগ করে আসছে  খামার গাড়াগ্রাম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষিকা  সূর্যি আক্তার । ২০১৬ সালের ১৯ শে জানুয়ারী  সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিয়োগের সময় তিনি এ জালিয়াতি করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

মাতৃকুল বা পিতৃকুলের কেউ মুক্তিযোদ্ধা না থাকলেও ২০১৬ সালের ১৯ শে জানুয়ারী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিয়োগের সময় কিশোরগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নে ছিট রাজীব গ্রামের  জাহেদুল ইসলামের মেয়ে সহকারী শিক্ষিকা সূর্যি আক্তার একই গ্রামের  বীর মুক্তিযোদ্ধা তমিজ মিয়াকে ভূয়া নানা বানিয়ে কাগজপত্র তৈরি করে  নিজেকে নাতনি হিসেবে পোষ্য কোটার সুযোগ সুবিধা নিয়ে চাকুরী নেয়। কৌশলে পুলিশ ভেরিভিকেশনের রিপোর্ট এর কাজও সু-সম্পন্ন করে। ভূয়া পোষ্য কোটায় অফিসকে ম্যানেজ করে প্রায় ৫ বছর দাপটের সঙ্গে  চাকুরী করছেন।

সরেজমিনে ও অনুসন্ধান সূত্রে জানা যায় , নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের  অধীনে খামার গাড়াগ্রাম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা পদে কর্মরত রয়েছেন কিশোরগঞ্জ উপজেলার ছিট রাজীব গ্রামের জাহেদুল ইসলামের মেয়ে সূর্যি আক্তার। তার প্রকৃত নানা একই গ্রামের মোফাজ্জল হোসেন (মাষ্টার)। অথচ তার প্রকৃত নানার নাম গোপন করে ছিট রাজীব গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা  তমিজ উদ্দিনকে ভূয়া নানা বানিয়ে  নাতনির পোষ্য কোটায় চাকুরি বাগিয়ে নেন। কিন্তু তার নিয়োগ সংক্রান্ত কাগজ পত্র পর্যালোচনা করে জানা যায়,  কিশোরগঞ্জ  ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আসাদুর রহমান (বাবুল)  স্বাক্ষরিত বীর মুক্তিযোদ্ধা তমিজ উদ্দিনের ওয়ারিশন সনদপত্রে ১ম কন্যা হিসেবে  সহকারী শিক্ষিকা সূর্যি আক্তারের  মাতা মর্জিনা বেগম নাম উল্লেখ রয়েছে। যেখানে বীর মুক্তিযোদ্ধা তমেজ মিয়ার স্ত্রী হাছনা বেগমের জন্ম তারিখ ০২-০৫-১৯৬৮ এবং  কন্যা মর্জিনা বেগমের জন্ম তারিখ  ০১-০৯-১৯৭২ মা-মেয়ে বয়সের ব্যবধান ৪  বছর  দেখানো হয়েছে। বর্তমান ওয়ারিশ সার্টিফিকেট ও জাতীয় পরিচয় পত্রে দেখা যায়, মর্জিনা বেগমের পিতা হিসেবে মোঃ মোফাজ্জল হোসেনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। বীর মুক্তিযোদ্ধা তমিজ উদ্দিনের ওয়ারিশন সনদপত্রে তিন মেয়ে ও তিন ছেলের নাম উল্লেখ্য থাকলেও  মর্জিনা বেগম নামে তার কোন কন্যা সন্তানের নাম উল্লেখ করা হয়নি ।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় , বীর মুক্তিযোদ্ধা তমিজ উদ্দিনের তিন ছেলে তিন মেয়ে রয়েছে। মরজিনা নামে তার কোন মেয়ে নেই বা সূর্যি আক্তার নামে তার কোন নাতনি নেই।সূর্যি আক্তার একই গ্রামের মোফাজ্জল মাষ্টারের নাতনি। তিনি তৎসময় ইউপি চেয়ারম্যানের মাধ্যমে ওয়ারিশন সনদপত্র নিজের নাম অন্তর্ভূক্তি করেন।সহকারী শিক্ষিকা সূর্যি আক্তারে সাথে এ বিষয়ে বার বার ফোনে বা স্ব-শরীরে  যোগযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তার সাথে যোগাযোগ করা যায় নি।বীর মুক্তিযোদ্ধা তমিজ উদ্দিন জানান, আমার  মর্জিনা বেগম নামে কোন মেয়ে নেই বা সূর্যি আক্তার নামে কোন নাতনি নেই । এ সম্পর্কে আমি কোন জানি না। এ বিষয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শরিফা আক্তার  জানান,নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয় উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের অধীনস্থ্য নয় তাই এ বিষয়ে আমি কোন মন্তব্য পারছি না। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার লবেজ উদ্দিন বলেন , আমি সাত থেকে আট মাস আগে দায়িত্বভার গ্রহন করেছি । সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

চৌগাছায় পুলিশ পরিচয়ে দরজা ভেঙে যুবকের উপর হামলা

 চৌগাছায় পুলিশ পরিচয়ে দরজা ভেঙে যুবকের উপর হামলা



নিউজ ডেস্কঃ  চৌগাছায়  রায়হান (১৯) নামে এক কলেজছাত্রকে নিজ বাড়ি থেকে দরজা ভেঙে উঠিয়ে নিয়ে হাতপা ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।খবর পেয়ে রাতেই চৌগাছা থানা পুলিশ ওই ছাত্রকে উদ্ধার করে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে রেফার করা হয়।রায়হান উপজেলার সিংহঝুলী ইউনিয়নের গরিবপুর গ্রামের শরিফুল ইসলামের ছেলে এবং পাশাপোল-আমজামতলা মডেল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।হাসপাতালে ভর্তি ছেলেটির মা জানান, শনিবার রাতে নিজ বাড়িতে ঘুমিয়ে ছিল রায়হান। রাত একটার দিকে শামীম, সাগর, সালাম, ইয়াসিন, বোরহান, ইউসুফসহ ১০-১২ জন দুর্বৃত্ত বিভিন্ন অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে তাদের বাড়িতে আসে। সন্ত্রাসীরা নিজেদেরকে থানা পুলিশের লোক পরিচয় দিয়ে রায়হানকে ডাকতে থাকে। এক পর্যায়ে তারা রায়হানের ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে পড়ে। ওই সময় রায়হানের মা শামিমের পা জড়িয়ে ধরেন। তখন তার বুকে লাথি মেরে ফেলে দিয়ে ছেলেকে ঘরের বাইরে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। বাড়ির উাঠনে ফেলে রায়হানকে উপর্যুপরি মারপিট করে। এরপর সেখান থেকে তাকে বাড়ির বাইরে নিয়ে আরেক দফা মারপিট করে। সেখান থেকে গ্রামের সাবেক মেম্বারের (ফেলা মেম্বার) বাড়ির সামনে নিয়ে রায়হানকে চারজনে ধরে মাটিতে শুইয়ে ডান পায়ে চাপাতির উল্টোপিঠ দিয়ে বেধড়ক আঘাত করে এবং একপর্যায়ে তার বুকে শটগান ঠেকিয়ে গুলি করতে উদ্যত হয়। সেসময় রায়হানের চিৎকারে গ্রামের লোকজন এগিয়ে এলে তাকে অজ্ঞান অবস্থায় ফেলে চলে যায় দুর্বৃত্তরা।স্থানীয়রা চৌগাছা থানায় সংবাদ দিলে পুলিশ গিয়ে রায়হানকে উদ্ধার করে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়। পরে সেখান থেকে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে রেফার করা হয়।যশোর জেনারেল হাসপাতালের ডাক্তার মাশরাফি বলেন, রায়হানের মাথা, ডান হাত ও ডান পায়ে গুরুতর আঘাত লেগেছে। নাকের অবস্থাও ভালো না। ২৪ ঘণ্টা না গেলে কিছু বলা যাবে না।চৌগাছা থানার ওসি রিফাত খান রাজীব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এখনো এবিষয়ে কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে

হরিরামপুরে আবিদ হাসান বিপ্লবের আগমনে নেতাকর্মীদের আনন্দ উল্লাস

হরিরামপুরে আবিদ হাসান বিপ্লবের আগমনে নেতাকর্মীদের আনন্দ উল্লাস

আব্দুর রাজ্জাক,  হরিরামপুর (মানিকগঞ্জ)প্রতিনিধি:    মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার বলড়া ইউনিয়নের কৃীতি সন্তান জনাব আবিদ হাসান বিপ্লবের দীর্ঘ দুই মাস পর আমেরিকা থেকে  দেশে আসায় হরিরামপুরের সকল শ্রেনীর নেতা কর্মী সহ সাধারন মানুষের ভালোবাসার সিক্ত হন এসময় হরিরামপুর  উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তকে ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে নেয়। পরে বঙ্গবন্ধুর  স্মৃতিস্তম্ভে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান নন্দিত এ নেতা।  জনাব আবিদ হাসান বিল্পব একজন আর্দশবান নেতা যিনি সর্বদা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু  শেখ মুজিবুর রহমানের আর্দশকে বুকে লালন করেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী জন্য নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। স্থানীয়দের ভাষ্যমতে আবিদ হাসান বিপ্লব একজন নিরহংকারী পরোপকারী ও আদর্শবান মানুষ। সমসময়ে তার মতো আদর্শবান মানুষ খুজে পাওয়া দুষ্কর। মানুষের বিপদাপদে পাশে থাকায় স্থানীয়রাও তাকে ভালোবেসে হৃদয়ে স্থান দিয়েছেন।স্যতিকারের একজন আর্দশ নেতার যে গুনাবলি  থাকা দরকার তার সবগুলো গূণাবলিই রয়েছে বিপ্লবের মাঝে।এসময় জনাব আবিদ হাসান  বিল্পবকে শুভেচ্ছা জানাতে উপস্থিত ছিলেন হরিরামপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীরমুক্তিযুদ্ধা গোলজার হোসেন বাচ্চু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি মো: মোসলেম উদ্দিন খান কুন্নু, সহসভাপ্রতি কামাল হোসেন, মানিকগঞ্জ জেলা বিদ্যুৎ সমিতির সভাপতি আলী হায়দার, হরিরামপুর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আজিম খান, মানিকগঞ্জ জেলা যুবলীগের সদস্য জাফর ইকবাল বিপুল, মানিকগঞ্জ জেলা সহসভাপতি মামুন বাবু, হরিরামপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো: লুতফর রহমান, আরো ছিলেন, যুললীগ নেতা তোফায়েল আহামেদ লিটন, মো: শাহিন মিয়া, মাসুদ, বাদল, উজ্জল, ছাত্রলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন,  ইমারত, অপু সহ বহু নেতাকর্মী  তকে ফুলের শুভেচ্ছা জানায়।

সাংবাদিক সাহেব আলীর ভাইয়ের দাফন সম্পন্ন

 সাংবাদিক সাহেব আলীর ভাইয়ের দাফন সম্পন্ন

আহসান উল্লাহ বাবলু,আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধিঃ     আশাশুনি  রিপোটার্স ক্লাবের সহ সভাপতি সাংবাদিক সাহেব আলীর সেজ ভাই আইয়ুব আলী মোড়ল (৪৯) এর নামাজে জানাজা ও দাফন সম্পন্ন হয়েছে। শনিবার রাত ৮টা ৫০ মিনিটে নিজ বাসভবনে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন ( ইন্না লিল্লাহে....  রাজিউন)। পরিবার সুত্রে জানাগেছে  আশাশুনি সদরের মৃত আব্দুল মজিদ মোড়লের সেজো পুত্র আইয়ুব আলী মোড়ল দীর্ঘদিন যাবৎ মরন ব্যাধি ক্যান্সার আক্রান্ত ছিলেন। মৃত্যকালে তিনি স্ত্রী ও ৮ কন্যা সন্তান সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। রবিবার সকাল ১১ টায় আশাশুনি হাফিজিয়া মাদ্রাসা চত্বরে মরহুমের জানাজা নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। মরহুমের জানাজা নামাজে উপস্থিত ছিলেন আশাশুনি উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সদর ইউ,পি চেয়ারম্যান স,ম সেলিম রেজা মিলন, আশাশুনি উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ সদস্য মহিতুর রহমান,নুরুল হক খোকন, আশাশুনি উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক,খুলনা সদর থানা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারন সম্পাদক এস, এম হোসেনুজ্জামান হোসেন, ইউ,পি সদস্য তারিকুল আওয়াল সেজে, প্রাক্তন শিক্ষক মাওঃ মো: শফিউল্লাহ, প্রভাষক হাফেজ বাকী বিল্লাহ, আশাশুনি প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান মাসুদ, বড়দল ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি সোহরাব হোসেন,বড়দল ভূমিহীন সমিতির সেক্রেটারী আবুল হোসেন রাজুসহ অন্যান্য গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মুসল্লিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। নামাজে জানাযায় ইমামতি করেন মরহুমের ভাইপো সৌরভ হোসেন। মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন মাওঃ আবুল কাশেম। আগামী শুক্রবার জুম্মাবাদ মরহুমের পরিবারের পক্ষ থেকে দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে আশাশুনি সদরের বিভিন্ন মসজিদে।

মহামারির করোনার মধ্যেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রেখেছে হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি

 মহামারির করোনার মধ্যেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের উন্নয়ন অব্যাহত রেখেছে হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি


মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি এই ভয়াবহ করোনা মহামারীর মধ্যেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ক্রমাগত উন্নয়ন কর্মকান্ডের ভুয়ুসী প্রশংসা করে বলেন, করোনা আক্রমণের পর গোটা বিশ্ব স্থবির পড়েছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শিতা ও বিচক্ষণতার জন্য দেশের উন্নয়নমূলক কার্যক্রম থেমে যায়নি। উন্নয়ন কার্যক্রম থেমে গেলে জনগণ বিপদগ্রস্থ হত। অভাব আমাদের কে করোনার মত আঁকড়ে ধরতো। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী সে সুযোগ দেয়নি। তার নির্দেশনা ও পরিকল্পনায উন্নয়ন কাজ অব্যাহত আছে। তিনি আরো বলেন, করোনায় কেউ চিকিৎসা পাইনি, না খেয়ে ছিল, এ অভিযোগ কোথাও নাই। আর এটাই বাংলাদেশের জন্য প্রথম। যে কোন দুর্যোগে অসংখ্য মানুষ মারা যায়। অভাব-অনটনে দিন যাপন করে। কিন্তু এবার মানুষের সেই দুর্ভোগ লাঘব করেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ২৫ অক্টোবর রোববার হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি ৭০ লাখ টাকা ব্যায়ে দিনাজপুর পুলহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন, ৬২ লাখ টাকা ব্যায়ে দিনাজপুর সদর উপজেলার ৭নং উথরাইল ইউনিয়নের নুনাইচ কাকিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবন ও ৬৮ লাখ টাকা ব্যায়ে দিনাজপুর সদর উপজেলার ৭নং উথরাইল ইউনিয়নের গোয়ালহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নতুন ভবনের উদ্বোধন কালে প্রধান অতিথির  বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এর পর হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি দিনাজপুর শহর ও সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের পুজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন।এসময় উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ ইমদাদ সরকার, ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ রবিউল ইসলাম সোহাগ, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাগফুরুল হাসান আব্বাসী, কোতয়ালী অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোজাফফর হোসেন, সদর উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার ফিরোজ আহমেদ, শহর আওয়ামলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ রায়হান কবীর সোহাগ, সাধারন সম্পাদক খালেকুজ্জামান রাজু, জেলা পরিষদ সদস্য ফয়সাল হাবিব সুমন, আওয়ামীলীগ নেতা মোয়াজ্জেম হোসেন প্রমুখ।

কয়রা সদর ইউনিয়নে বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালন

 কয়রা সদর ইউনিয়নে বিশ্ব হাত ধোয়া  দিবস পালন


কয়রা(খুলনা)প্রতিনিধিঃ কয়রা সদর ইউনিয়নে জাতীয় স্যানিটেশন মাস অক্টোবর ও বিশ্ব হাত ধোয়া দিবস পালন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ বােেরর প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল উন্নত স্যানিটেশন নিশ্চিত করি করোনা ভাইরাস মুক্ত জীবন গড়ি। কয়রা সদর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে  ডরপ ও দাতা সংস্থা হেলভেটাস বাংলাদেশের সহযোগিতায় গত শনিবার বেলা ১১ টায় ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে ইউপি চেয়ারম্যান মোহাঃ হুমায়ুন কবিরের সভাপতিত্বে ও ডরপের কমিউনিটি ডেভোলপমেন্ট অফিসার আলী রাজের পরিচালনায় এ উপলক্ষে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন ইউপি সদস্য সরদার লুৎফর রহমান, হরেন্দ্রনাথ সরকার, আঃ রব খোকন, ললিতা বর্মন, সেতারা বেগম, ডরপ পানি জীবন প্রকল্পের মোঃ মাসুদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, শিক্ষক, এনজিও প্রতিনিধি সহ সুশিল সমাজের লোকজন উপস্থিত ছিলেন। পরে হাত ধোয়ার মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তী ঘটে।

দৌলতপুরের মহিষকুন্ডিতে ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি করেছে মাদক ব্যবসায়ীরা,প্রাণনাশের হুমকি

 দৌলতপুরের মহিষকুন্ডিতে ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি করেছে মাদক ব্যবসায়ীরা,প্রাণনাশের হুমকি


কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি //এম,ডি,আল আসিবুজ্জামান চঞ্চলঃকুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলায় বেশিরভাগ সময় বিভিন্ন প্রকার অপকর্মে জড়িয়ে পড়ছে অত্র উপজেলার মানুষ মাদক কে কেন্দ্র করে। মাদক ব্যবসায়ীকে কেউ বাধা দিলেই তাৎক্ষণিক মাদক ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে আসে বিভিন্ন প্রকার হুমকি-ধামকি সহ মেরে ফেলার হুমকি। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৩/১০/২০২০ শুক্রবার বিকেল তিনটার সময় মহিষকুন্ডি এলাকার আব্দুল আলিম নামের এক ব্যক্তি কুষ্টিয়ার উদ্দেশ্যে মহিষকুন্ডি বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছালে কথিত কিছু মাদক ব্যবসায়ী রুবেল হালসানা, হৃদয় হালসানা,সুকচাদ হালসানা, লালচাঁদ হালসানা, সহ অজ্ঞাতনামা আরো দুই তিন জন ব্যক্তি  আব্দুল আলীমকে হত্যার উদ্দেশ্যে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র সজ্জিত হয়ে কিছু বুঝে ওঠার আগেই আব্দুল আলীমের উপরে চালাই অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলা।আব্দুল আলীমের অপরাধ ছিল শুধু তাদের মাদক ব্যবসায় বাধা হয়ে দাঁড়ানো।তার কারণেই তার উপরে নেমে আসে এই বর্বরোচিত নগ্ন হামলা।লাঠিসোটা রড ও হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করতে থাকে  কথিত ওই সন্ত্রাসীরা। এক পর্যায়ে আঘাত সইতে না পেরে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে আব্দুল আলিম। পরবর্তীতে আব্দুল আলীমের মৃত্যু ঘটেছে মনে করে হামলাকারীরা আব্দুল আলিমকে সেখানে ফেলে রেখেই স্থান ত্যাগ করে।পরে বাজারের স্থানীয় লোকজন সহ আব্দুল আলীমের পরিবারের লোকজন বাস স্ট্যান্ড থেকে আহত অবস্থায় আব্দুল আলীমকে উদ্ধার করে নিয়ে  ভর্তি করে দৌলতপুর ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।পরবর্তীতে ডাক্তারি পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে জানা যায় আহত ব্যক্তি আব্দুল আলীমের হাতুড়ির আঘাতে বুকের এক পাশের একটি হাড় ভেঙে গিয়েছে। এমন অবস্থায় হামলার শিকার আব্দুল আলীমের মা মোছাঃ সুরাইয়া খাতুন বাদী হয়ে দৌলতপুর থানায় একটি হত্যা উদ্দেশ্যে মামলা দায়ের করেন। (মামলা নাম্বার - ৫৯) আব্দুল আলীমের মায়ের সাথে কথা বলে জানা যায় তার ছেলে আব্দুল আলীম একজন দিনমজুর লেবার মাত্র। তার ছেলে সারাদিন লেবারি করে যে কয় টাকা পায় তাই দিয়ে চলে তার সংসার। কিন্তু বাড়ির পাশেই সন্ত্রাসীদের এই মাদকের রমরমা ব্যবসা দেখে বাধা দেয় আব্দুল আলিম,।যার কারণেই ষড়যন্ত্র করে আব্দুল আলীমের উপর সন্ত্রাসীরা চালিয়েছে এমন হামলা।

উক্ত সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় এনে সঠিক বিচার করা হোক বলে জানান আব্দুল আলীমের মা মোছাঃ সুরাইয়া খাতুন।অন্যদিকে দৌলতপুর উপজেলার মহিষকুন্ডি গ্রামে সরেজমিনে যেয়ে জানা যায়,সন্ত্রাসী রুবেল হালসানা, হৃদয় হালসানা, সুকচাদ হালসানা ও লালচাঁদ হালসানা সহ বেশ কয়েকজনের একটি চক্র মাদককে কেন্দ্র করে এলাকাতে বিভিন্ন সময় ঘটিয়ে চলেছে নানা বিধি অনৈতিক ঘটনা। যেটা আদিও এলাকাবাসীর কাম্য নয়। এমন অবস্থায় তাদের লাগাম টেনে ধরা হয়েছে বড় দায়। গত কয়েকদিন আগেও ওই একই এলাকার সেলিম বিশ্বাস নামে একজন ব্যক্তি কে বেধড়কভাবে পিটাই এই একই সন্ত্রাসীরা। তার ও অপরাধ ছিল তাদের মাদক ব্যবসায়ে বাধা দেওয়া।জানা যায় সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কেউ প্রশাসনের কাছে মুখ খুললে অথবা তাদের কাজে বাধা দিলে এলাকার লোকজনের ওপর নেমে আসে অমানবিক নির্যাতন।তাই এলাকার সচেতন মহল মনে করছে এখনই যদি এদেরকে না থামানো যায় পরবর্তী সময়ে এরা ঘটাতে পারে যেকোনো বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা।এ ব্যাপারে দৌলতপুর অফিসার ইনচার্জ মোঃ জহুরুল ইসলাম এর সাথে কথা বলে জানা যায় গত ২৪/১০/২০২০ তারিখে দৌলতপুর থানার মহিষকুন্ডি গ্রামের আহত আব্দুল আলীমের মা সুরাইয়া খাতুন বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। ইতিমধ্যে একজন আসামী গ্রেপ্তার হয়েছেন বাকিদের গ্রেফতারের জন্য আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি।

কয়রায় সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি, থানায় জিডি

কয়রায় সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি, থানায় জিডি




নিজস্ব প্রতিবেদকঃ খুলনার কয়রায় সকালের সময় ও স্থানীয় দৈনিক খুলনা টাইমস কয়রা প্রতিনিধি সাংবাদিক ওবায়দুল কবির সম্রাটকে প্রাণ নাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে কয়রা থানায় সাধারণ ডায়রী করা হয়েছে। জানা গেছে, গত ৫ সেপ্টেম্বর দুপুরে কয়রা উপজেলার মহারাজপুর ইউনিয়নের দেয়াড়া গ্রামে ইউনুস আলী গাজীর বাড়িতে আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ ওরফে ডন মাহমুদের নেতৃত্বে হামলা চালিয়ে ৩ জনকে কুপিয়ে জখম ও ভাঙচুর করা হয়। এ ঘটনায় পরের দিন দৈনিক সকালের সময় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করা হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ডন মাহমুদ ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী ওই সাংবাদিককের হাত কেটে নেওয়াসহ জীবননাশের হুমকি দিতে থাকে।

এতে সাংবাদিক ওবায়দুল কবির সম্রাট ও তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। পরে এবিষয়ে তিনি কয়রা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও (জিডি) করেছেন।জিডি নং ৯০২/২০। 


জিডিতে উল্লেখ করা হয়েছে, গত ২১ সেপ্টেম্বর ওই সাংবাদিক পেশাগত দায়িত্ব শেষে এক সহকর্মীর সাথে আমাদী থেকে বাড়ি ফেরেন। এসময় ডন মাহমুদের দেয়াড়া বাড়ির সামনে আসলে মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে প্রকাশ্যে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দিয়ে হত্যাসহ হাত কেটে নেওয়ার হুমকি দেয় ডন মাহমুদ। এছাড়াও এর আগে গত ১১ সেপ্টেম্বর ওই সাংবাদিকের ভাইয়ের সামনেও তাকে নানা ভয়ভীতিসহ মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

উল্লেখ্য, ডন মাহমুদের সন্ত্রাসী বাহিনী এর আগে আঃ রাজ্জাক নামে একজন আইনজীবিকে প্রকাশ্যে হাতুড়িপেটা ও লোহার রড ঢুকিয়ে পা ভেঙে দেয়। এ ব্যাপারে তাকে প্রধান আসমী করে মামলা হয়। এছাড়া রেজাউল করিম নামে একজন সমাজ কর্মীকে প্রকাশ্যে হাতুড়ি পেটা করে তার বাহিনী। এ ঘটনায়ও মামলা রয়েছে।

বাজারে আসছে মিটুল দেওয়ানের প্রথম ভিডিও এ্যালবাম

বাজারে আসছে মিটুল দেওয়ানের প্রথম ভিডিও এ্যালবাম


গীতিকার ও সুরকার  

নিউজ ডেস্কঃ যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলার  উজিরপুর গ্রামের মোঃ ওবাইদুর রহমানের পুত্র মিটুল দেওয়ান গান প্রিয় মানুষ সত্যিকারের গীতিকার ও সুরকার হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে আগামী ২৬ শে অক্টোবর প্রথম ভিডিও এ্যালবাম প্রকাশিত হতে যাছে। 

শিল্পী 

ভিডিও এ্যালবামের গানগুলো তে কন্ঠ দিয়েছেন শিল্পী মামুন জাহান। গানের সঙ্গীত আয়োজন করেছেন বাংলাদেশের স্বনামধন্য কম্পোজার আলী আফতাব লনি।ভিডিও টি প্রকাশ হবে ইউটিউব চ্যানেল দেওয়ান মিউজিক এ  (Dawan music) মিউজিক ভিডিও টি দেখার জন্য সকল দর্শক শ্রোতাকে অনুরোধ করা হল

বগুড়ায় কোভিড-১৯ প্রেক্ষিত বাংলাদেশ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন

বগুড়ায় কোভিড-১৯ প্রেক্ষিত বাংলাদেশ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন




মোঃ সবুজ মিয়া বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ার  টিজিএসএস এর চেয়াম্যান ছাইফুল ইসলাম কর্তৃক প্রকাশিত করোনাকালীন সময়ে প্রধানমন্ত্রীর গৃহীত উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড নিয়ে লেখা কোভিড-১৯ প্রেক্ষিত বাংলাদেশ শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিববর রহমান মজনু।

শনিবার বিকেলে শহরের রহমান নগরে এই বইটির মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা টিজিএসএস এর চেয়ারম্যান মো: ছাইফুল ইসলাম, বইটির লেখক প্রভাষক ইকবাল কবির লেমন, ছাত্রলীগ নেতা আবদুর রউফ প্রমূখ।

যবিপ্রবির শিক্ষার্থীর ছাত্রত্ব বাতিল!

যবিপ্রবির শিক্ষার্থীর ছাত্রত্ব বাতিল!




সুমন হোসেন, যশোর জেলা প্রতিনিধিঃসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সনাতন ধর্মের দেব-দেবী নিয়ে কটূক্তি ও আপত্তিকর মন্তব্য করায় যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) গণিত বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শাকিল হাওলাদারের ছাত্রত্ব সাময়িকভাবে বাতিল করা হয়েছে। একইসঙ্গে তার ছাত্রত্ব কেন স্থায়ীভাবে বাতিল করা হবে না তা জানতে চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশও দেওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

আজ শনিবার দুপুরে যবিপ্রবির প্রশাসনিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস কমিটি, শিক্ষক সমিতি ও কর্মকর্তা সমিতি ও জ্যেষ্ঠ শিক্ষকদের জরুরি সভায় তার ছাত্রত্ব বাতিলের এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন যবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন।

এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে। কমিটির আহ্বায়ক হলেন বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. সুমন চন্দ্র মোহন্ত। সদস্য হলেন ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন ড. মো. মেহেদী হাসান, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. আমজাদ হোসেন, ড.ইঞ্জি, গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মো. হাফিজ উদ্দিন এবং সদস্য সচিব কর্মকর্তা সমিতির সহ-সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম। কমিটিকে আগামী সাত কার্য দিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর তার বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে চূড়ান্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সভায় যবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির জন্য সারা বিশে^ বাংলাদেশ সমাদৃত। আর যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় একটি লঅসাম্প্রদায়িক বিশ্ববিদ্যালয়। এখানে কেউ সাম্প্রদায়িকতার বীজ বপন করার চেষ্টা করলে তা বরদাশত করা হবে না। যার যার ধর্ম তার তার পালনের অধিকার রয়েছে। এখানে কেউ সাম্প্রদায়িকতার উন্মাদনা ছড়ালে তার বিরুদ্ধে যথাযথ প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।           

সভায় উপস্থিত ছিলেন যবিপ্রবির ডিন ড. আব্দুল্লাহ আল মামুন, ড. নাসিম রেজা, ড. মো. মেহেদী হাসান, বিশ্ববিদ্যালয়ের জ্যেষ্ঠ শিক্ষক অধ্যাপক ড. মো. আনিছুর রহমান, অধ্যাপক ড. শেখ মিজানুর রহমান, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. আমজাদ হোসেন ড.ইঞ্জি, কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গালিব, শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মো. জাফিরুল ইসলাম, গণিত বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মো. হাফিজ উদ্দিন, রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. আহসান হাবীব, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক ড. আমিনুর রহমান, কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি প্রধান প্রকৌশলী হেলাল উদ্দিন পাটোয়ারি, সাধারণ সম্পাদক এ টি এম কামরুল হাসান প্রমুখ।

শৈলকুপায় সংগ্রামী মাজেদার জীবন গল্প

শৈলকুপায় সংগ্রামী মাজেদার জীবন গল্প


ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উপজেলার ধলহরাচন্দ্র গ্রামে মাজেদার বসবাস। ৭ ভাই- বোন আর বাবা মা  এই নিয়ে ছিল  তাদের সংসার। একে একে সব ভাই বোন বিয়ে হয়ে যায়  মাজেদা ও বড় হতে থাকে মাজেদা। বাবা বহু কষ্ট করে পাসের গ্রামের একটা ছেলের সাতে তার বিয়ে দেন। স্বামী সংসার নিয়ে ভালোই চলছিলো মাজেদার জীবন। কিন্তুু কপালের লিখন না যায় খন্ডন, যৌতুকের জন্য স্বামীর সংসারে শুরু হল মানুষিক ও শারীরীক অত্যাচার। হতদরিদ্র পিতা কিছু টাকা দিয়ে সাময়িক সুখ কেনার চেষ্টা করেন। এরপর মাজেদার বাবা- মায়ের মৃত্যুর পর মাজেদার উপর অত্যাচার আরো বৃদ্ধিপায়।  এর মাঝেই মাজেদার কোল জুরে আসে একটা কন্যা সন্তান,  এর ফলে তার স্বামী  আরো রাগলেন, নির্যাতন বেড়ে গেল। অতি মাত্রায় অত্যাচারের কারনে টিকতে পারে না স্বামীর সংসারে। ফিরে আসলেন গরীব বাপের ভিটায়। এক বেলা খায় আর এক বেলা উপস এ ভাবেই চলতে থাকে মাজেদার সংসার। অন্যের বাড়িতে কাজ করে বহুকষ্টে মেয়ে কে মানুষ করতে লাগলো মাজেদা। ছোট একটা ঝুপরি ঘরই তার সম্বল।  ভাঙ্গা চোরা ঝুপরি ঘরেই চলে তার সংগ্রামী জীবন।  গ্রামের মানুষের থেকে ধান নিয়ে চাল করে তাদের কে মুড়ি বানিয়ে দেয় তার থেকে সে যতো টুকু টাকা পায় তা দিয়ে চলে তার সংসার,  ও বলতে ভুলেই গেছি এরই মধ্যো মাজেদার মেয়েটা ও বড় হয়ে গেছে তাকে ও সে কোন মতো করে বিয়ে দিয়ে দেয় এখন সে একা , এখন চলছে তার সংগ্রামী জীবন।  মাজেদার সাথে আলাপ করতে গেলে তিনি জানান, সরকার যদি তাকে একটা ঘর আর কিছু অর্থ দিতো, তাহলে শেষ বেলাতে সে একটু সুখে থাকতে পারতো।নিজে ধান কিনে মুড়ি করে বিক্রি করতে পারলে তার সংসার চালাতে কারো কাছে সাহায্যের প্রয়োজন হতো না। সামান্য সহযোগীতা পেলেই সুখে শান্তিতে থাকতে পারবে একজন মাজেদা। কেননা মাজেদার মতো মানুষের সুখ কিনতে বেশি কিছু লাগে না। পেট ভরে ভাত আর কাপড়ের সংস্থান হলেই তারা খুশি।

নওগাঁর আত্রাইয়ে ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্রীর আত্মহত্যা

নওগাঁর আত্রাইয়ে ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্রীর আত্মহত্যা

মোঃ ফিরোজ হোসাইন, রাজশাহী ব্যুরোঃনওগাঁর আত্রাইয়ে ৪র্থ শ্রেনীর ছাত্রী জাহানারা খাতুন (৮) গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সে উপজেলার ভাঙ্গাজাঙ্গাল গ্রামের জিয়াউর রহমানের মেয়ে।জানা যায়, শিশু জাহানারা গতকাল শনিবার সকালে মায়ের উপর অভিমান করে নিজ শয়ন ঘরে সকলের অজান্তে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। সংবাদ পেয়ে আত্রাই থানার ওসি মোসলেম উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

ওসি মোসলেম উদ্দিন বলেন, যেহেতু শিশু মেয়ে অভিমান করেই আত্মহত্যা করেছে। এ ছাড়া নিহত শিশুর স্বজন ও এলাকাবাসীর কোন আপত্তি না থাকায় ময়না তদন্ত ছাড়াই লাশ দাফনের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

তারাকান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের পরিচিতি ও আলোচনা সভা

তারাকান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের পরিচিতি ও আলোচনা সভা

আর.জে মিজানুর রহমান ইমনঃ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের নব-গঠিত কমিটির পরিচিতি ও আলোচনা সভা ২৪ই অক্টোবর শনিবার বিকেল ৩টায় স্থানীয় মধুমন কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়েছে।উক্ত আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতি বাবু প্রদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী রনু ঠাকুরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব বাবুল মিয়া সরকারের সঞ্চালনায় পরিচিতি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় ।

নেতৃবৃন্দরা প্রথমেই বঙ্গবন্ধু সরকারি ডিগ্রী কলেজ প্রাঙ্গনে প্রয়াত নেতা এম শামসুল হকের কবর জিয়ারত এবং পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত ও গীতা পাঠের মাধ্যমে সভা শুরু করা হয় ।পরিচিতি ও আলোচনা সভায়  প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত  ছিলেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী জনাব শরীফ আহমেদ এমপি মহোদয় । বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, যুগ্ম সম্পাদক শওকত জাহান মুকুল, তারাকান্দা উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এডভোকেট ফজলুল হক, ফুলপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহব্বায়ক হাবিবুর রহমান (হাবি) ।আলোচনা সভায় জেলা আওয়ামী লীগের বিপ্লবী সাধারন সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল তার দীর্ঘ বক্তব্যে ফুলপুর তারাকান্দার মা মাটি মানুষের নেতা মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ভাষা সৈনিক, ময়মনসিংহের কিংবদন্তী ৫ বারের নির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য, তারাকান্দা উপজেলার স্বপ্নদ্রষ্টা প্রয়াত নেতা এম শামসুল হক কে গভীর শ্রদ্ধা ভরে স্মরন করেন ।  তার বক্তব্যে তারাকান্দা উপজেলার নবগঠিত কমিটি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখবেন বলে আশা ব্যাক্ত করেন ।

হরিণাকুণ্ডুর এক মেধাবী ছাত্রী’র কিডনি বিকল বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আবেদন

 হরিণাকুণ্ডুর এক মেধাবী ছাত্রী’র কিডনি বিকল বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আবেদন



 ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ‘খাদিজার চোখে বাঁচার স্বপ্ন’ ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুণ্ডু উপজেলার ঘোড়াগাছা লাল মোহাম্মদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর অত্যন্ত মেধাবী শিক্ষার্থী খাদিজা তুল কোবরা’র দুইটা কিডনিই রোগাক্রান্ত হয়ে নষ্ট হয়ে যাওয়ার পথে। এখনই উন্নত চিকিৎসা না করালে তাকে বাঁচিয়ে তোলা সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছেন ডাক্তার। খাদিজা একই উপজেলার কিসমত ঘোড়াগাছা গ্রামের বিল্লাল হোসেনের মেয়ে। 

তিন সন্তান এবং স্বামী, স্ত্রী নিয়ে কোন রকম খেয়ে পরে চলে বিল্লালের পরিবার। একমাত্র মেয়ের এই কঠিন রোগের কথা শুনে তার মাথায় আকাশ ভেঙ্গে পড়েছে। ইতমধ্যে বিল্লালের অনেক টাকা খরচ হয়ে গেছে। বর্তমানে সে ঢাকায় একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। মেয়েকে বাঁচাতে খাদিজার পিতা বিল্লাল হোসেন সমাজের বিত্তবানদের নিকট সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন।

সাহায্য পাঠাবার ঠিকানা মোঃ বিল্লাল হোসেন, সঞ্চয়ি হিসাব নং ৪৭৩৮, হলিাধানী শাখা, ঝিনাইদহ। প্রয়োজনে যোগাযোগের জন্য ০১৭৪৬-০৯১০০০ নং মোবাইলে ফোন করতে পারেন।

ঝিনাইদহ থানা পুলিশের তৎপরতায় অবশেষে বাড়ি ফিরলেন সাতক্ষীরার ১৪ জন যাত্রী

ঝিনাইদহ থানা পুলিশের তৎপরতায় অবশেষে বাড়ি ফিরলেন সাতক্ষীরার ১৪ জন যাত্রী



ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃঝিনাইদহ থানা পুলিশের তৎপরতায় অবশেষে বাড়ি ফিরলেন সাতক্ষীরা জেলার ১৪ জন যাত্রী। শনিবার সকালে বিআরটিসি ঢাকা মেট্রো-গ-১৫-৫৬৮৮ নং এর একটি বাসে করে গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ি থেকে সাতক্ষীরা জেলার উদ্যেশ্যে যাচ্ছিলেন বেশ কয়েকজন যাত্রী। পথিমধ্যে ঝিনাইদহ আরাপপুরে পৌছালে বিআরটিসির সুপার ভাইজার ১০ জন পুরুষ যাত্রীকে নামিয়ে দিয়ে ৪ জন মহিলা যাত্রীকে পৌছে দেওয়ার কথা বলে। তখন কোন উপায়ন্ত না পেয়ে ভুক্তভোগি নাজনিন নামের এক যাত্রী ঝিনাইদহ পুলিশ সুপারকে মোবাইলে কল দিয়ে বিষয়টি জানায়। তখন পুলিশ সুপারের নির্দেশনা মোতাবেক ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মোহাম্মদ মিজানুর রহমান তাৎক্ষণিকভাবে ওই সকল যাত্রীকে ওই গাড়িতেই বাড়ি পৌছানোর ব্যবস্থা করেন। ওই সকল যাত্রীরা বাড়িতে পৌছে মোবাইল ফোনে ঝিনাইদহ পুলিশের এ ধরণের মহতি উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান। শনিবার বিকেলে ঝিনাইদহ আরাপপুর নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

কোটচাঁদপুর পৌর মেয়র প্রাথী সহিদুজ্জামন সেলিমের১৭ টি পূজা মণ্ডপে আর্থিক অনুদান প্রদান

 কোটচাঁদপুর পৌর মেয়র প্রাথী সহিদুজ্জামন সেলিমের১৭ টি পূজা মণ্ডপে  আর্থিক অনুদান প্রদান

 


খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধানঃসনাতন ধর্মের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয়া দুর্গা পূজা উপলক্ষে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর পৌরসভার ১৭টি পূজা মণ্ডপকে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করেছেন আসন্ন পৌর নির্বাচনের মেয়র পদপ্রার্থী সহিদুজ্জামান সেলিম। শনিবার (২৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় কেকোটচাঁদপুর পৌর  এলাকার সর্বমোট ১৭টি পূজা মণ্ডপে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন এবং প্রত্যেক  পূজা মণ্ডপ কমিটির নেতৃবৃন্দের হাতে নগদ ৮ হাজার টাকা করে আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন পৌর-আওয়ামীলীগের আহবায়ক ফারজেল হোসেন মন্ডল, উপজেলা শ্রমিক লীগের আহবায়ক শফিকুর রহমান, পৌর যুবলীগের সভাপতি মেহেদি হাসান বুলবুল, সাধারণ সম্পাদক সোহেল আরমান, পৌর-স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহবায়ক আরিফ শেখ, আমিরুল শেখ সহ পৌর আঃলীগ,ছাত্রলীগ, যুবলীগ,ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের কয়েকশো নেতাকর্মী।

মৃত্তিকা মানবিক ইউনিটের পক্ষ থেকে মসজিদে টিন ও নগদ অর্থ বিতরণ

মৃত্তিকা মানবিক ইউনিটের পক্ষ থেকে  মসজিদে টিন ও নগদ অর্থ বিতরণ


আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃসকলের তরে সকলেই আমরা, এই স্লোগানকে সামনে রেখে, মৃত্তিকা মানবিক ইউনিট সাতক্ষীরা, তাদের মানবিক কার্যক্রম পরিচালনা করে চলেছেন। এই লক্ষে শনিবার (২৪ অক্টোবর) দেবহাটা উপজেলার পারুলিয়া ইউনিয়ন এর খেজুরবাড়িয়া, পাঞ্জগানা মসজিদে ১০টিন   ও নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়।ঘূর্নিঝড় আম্পানে  ক্ষতিগ্রস্ত দীর্ঘ ৫/৬ মাসেও মেরামত করতে ব্যর্থ হওয়া  দেবহাটার খেজুরবাড়িয়া গ্রামের পাঞ্জগানা মসজিদটিতে এ-ই অনুদান প্রদাণ করা হয়। মানবিক ইউনিট এর সভাপতি শাহরিয়ার শাকিব (মিঠুন) (সিঙ্গাপুর প্রবাসি) ও প্রধান উপদেষ্টা সাম্মি সাইফুল  (আমেরিকার প্রবাসি) কাছে মসজিদ টির দূর্দশার কথা  অবহিত করলে, বিষয়টি  তারা আমলে নিয়ে, মসজিদ সংস্কারের আশ্বাস দেন, আর সেই প্রতিশ্রুতি,অনুযায়ি,প্রবাসি কল্যান ফাউন্ডেশন এর প্রধান উপদেষ্টা মোঃ সাইফুল ইসলাম আমেরিকা (প্রবাসী)আহবায়ক মোঃ মিঠুন শাহারিয়া শাকিব,সিঙ্গাপুর (প্রবাসী)র সহযোগিতায় উক্ত ঢেউ টিন প্রদান করা হয়। 

এ সময় সংগঠনের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন, দেবহাটা মৃত্তিকা মানবিক ইউনিট এর সাধারণ সম্পাদক শান্তা মারিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক নামজুল, কুলিয়া ইউনিয়ন এর আহ্বায়ক শিমরান শিমু, সাতক্ষীরা জেলা সদরের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন, লিলি জেসমিন, জেমস প্রমুখ।  


মৃত্তিকা মানবিক ইউনিট এর আহবায়ক সিঙ্গাপুর প্রবাসী মোঃ শাহারিয়া সাকিব (মিঠুন) জানান, দেশের আনাচে-কানাচে এমন ক্ষতিগ্রস্ত মসজিদ মাদ্রাসা এতিমখানা ও বিভিন্ন অসহায় ব্যক্তিদের সহায়তায় জন্য,  বিত্তশালিদের, মানবতার পক্ষে, কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে, তাহলে স্বনির্ভর হবে দেশ।শুধু সরকারী অনুদানের আশা করলে হবেনা?সরকারের পাশাপাশি সমাজপতিদের ব্যক্তিগত অর্থে আমাদের মত সহায়তা করে অসহাযদের পাশে থাকতে হবে।

শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ময়নুল হোসেন খাঁন

 শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন  চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ময়নুল হোসেন খাঁন

 


মোঃরেজাউল ইসলাম শাফি, কুলাউড়া উপজেলা প্রতিনিধিঃবাঙালি হিন্দুদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা। সমাজে অন্যায়,অবিচার,অশুভ ও অসুরশক্তি দমনের মাধ্যমে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে এ পূজা হয়ে থাকে। আবহমানকাল ধরে এ দেশের হিন্দু সম্প্রদায় বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনা ও উৎসবমুখর পরিবেশে নানা অনুষ্ঠানাদির মাধ্যমে দুর্গাপূজা পালন করে আসছে। এ উৎসব সার্বজনীন।

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্য অক্ষুণ্ন রেখে ৫নং ব্রাক্ষন বাজার ইউনিয়ন ও  কুলাউড়া  উপজেলার সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে অবদান রাখার আহ্বান জানিয়েছেন ৫নং ব্রাক্ষন বাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ময়নুল হোসেন খাঁন । 

ময়নুল হোসেন খাঁন   বলেন,দুর্গোৎসব ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবার মধ্যে সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যের বন্ধনকে আরও সুসংহত করুক-এ প্রত্যাশা করি।তিনি আরও বলেন,অন্তরের সমস্ত বিদ্বেষ ত্যাগ করে মানবিক চেতনায় নিজেদের উন্নীত করার মাধ্যমে প্রতিটি মানুষ তার অন্তরের ইতিবাচক শক্তিকে জাগ্রত করে সমাজের সমস্ত নেতিবাচক বিষয়ের বিরুদ্ধে লড়াই করবেন বলে আশা রাখি।কুলাউড়া উপজেলার সকল  হিন্দু ভাই -বোনসহ দেশের সকল সনাতন ধর্মাবলম্বীদেরকে শারদীয় শুভেচ্ছা জানান।


শুভ শারদীয়া

শুভ হোক সকল মানুষের

বিনাশ হোক অসুরের

সুন্দরের জয় হোক

শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে শুভেচ্ছা বার্তা

শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে শুভেচ্ছা বার্তা


 দূর্গাপূজা উপলক্ষে শুভেচ্ছা বার্তা জানিয়েছেন,০৮নং রাউৎ গাঁও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি পদপ্রার্থী  নাফি তালুকদার শারদীয় দুর্গোৎসব-২০২০ উপলক্ষে হিন্দু ধর্মাবলম্বী ভাই ও বোনদেরকে 'রাউৎ গাঁও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের  পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা, অভিনন্দন ও আন্তরিক প্রীতি জ্ঞাপন করছি। অশুভ শক্তির বিনাশ ও সত্য-সুন্দরের আরাধনায় দূর্গাপূজাকে আবহমানকাল থেকেই হিন্দু ধর্মাবলম্বী ভাই ও বোনেরা তাদের প্রধান উৎসব হিসেবে পালন করে আসছে। বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। সকল ধর্ম, বর্ণ ও সম্প্রদায়ের মানুষের মধ্যে সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতির কামনা করে এবং সেই লক্ষ্যেই সব সময় কাজ করে আসছে।দুর্গোৎসবের আন্তরিক প্রীতি ও সৌহার্দ্যতা সকলের মাঝে অক্ষুণ্ণ থাকুক।করোনা পরিস্থিতিতে সরকারি নির্দেশনাগুলো মেনে শারদীয় দূর্গাপূজা উৎসব পালন করুন। সুস্থ থাকুন নিরাপদে থাকুন।


শুভেচ্ছান্তে,

নাফি তালুকদার 

সভাপতি পদপ্রার্থী 

০৮নং রাউৎ গাঁও ইউনিয়ন ছাত্রলীগ

শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে শুভেচ্ছা বার্তা-আমিনুল ইসলাম স্বপন

শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে শুভেচ্ছা বার্তা-আমিনুল ইসলাম স্বপন

মোঃ রেজাউল ইসলাম শাফি, স্টাফ রিপোর্টারঃ শারদীয় দুর্গোৎসব উপলক্ষে কুলাউড়া উপজেলা সহ ৮নং  রাউৎগাঁও ইউনিয়নের সকল সনাতন ধর্মাবলম্বীদের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন, কুলাউড়া অয়েল ফেয়ার এসোসিয়েশন কাতার শাখার ও এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদের সহ সাধারণ সম্পাদক,  আমিনুল ইসলাম স্বপন শুভেচ্ছা বার্তায় বলেন- বাংলাদেশ সামপ্রদায়িক সমপ্রীতির দেশ। প্রাচীনকাল থেকে আমরা পারস্পরিক সমপ্রীতির মেলবন্ধনে আবদ্ধ আছি। শরতের সুন্দর প্রকৃতির সঙ্গে মিশে আছে বাংলার আবহমানকালের শারদীয় দুর্গোৎসব। এ উৎসব বাঙালি হিন্দুদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব।

এ দেশে আবহমানকাল থেকে হিন্দু, মুসলমান, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান এবং আদিবাসী ও উপজাতি সমপ্রদায়ের লোকেরা মিলেমিশে বসবাস করে আসছে। এ দেশে একসঙ্গে নানা জাতি, নানা বর্ণের লোক এবং নানা ধর্ম-সংস্কৃতির লোকের বসবাস- এটাই আসল পরিচয়। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করি। সমাজের সর্বস্তরের জনগণকে সাথে নিয়ে ৮নং রাউৎগাঁও ইউনিয়নকে মডেল ইউনিয়ন গড়ার স্বপ্ন। স্বাস্থ্যবিধি  মেনে শারদীয় দুর্গাপূজা উৎসব পালন করুন। সুস্থ থাকুন নিরাপদে থাকুন। 

 

শুভেচ্ছান্তে,

আমিনুল ইসলাম স্বপন 

সহ সাধারণ সম্পাদক

 কুলাউড়া অয়েল ফেয়ার এসোসিয়েশন কাতার শাখা ও এম সাইফুর রহমান স্মৃতি পরিষদ।