রাণীশংকৈলে কারেন্টের আগুনের ৬ টি ঘর পুড়ে ছাই

রাণীশংকৈলে কারেন্টের আগুনের ৬ টি ঘর পুড়ে ছাই

কলিন চন্দ্র (ইতু) রায়,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি ::-
রাণীশংকৈল উপজেলার গুয়াগা নামক স্থানে বৈদ্যুতিক সার্কিটের আগুনে ৬ টি ঘর পুড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

২৫ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার আনুমানিক দুপুর ২ টার সময় নিবারণ রায় (৪০),পিতা মৃতঃ ওপেন রায় ,বাঙালি রায় (৪৮) পিতা মৃতঃ ওপেন রায়
আজেন রায় (৪০) নামে ব্যক্তির ছয়টি ঘর বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের কারণে পুড়ে যায়। এতে ২টি সাইকেল, ১ টি টিভি,১৩০০০ হাজার টাকা,কয়েক মণ চাল, ধান ও টিন সহ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে।
এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, যখন আগুনের সূত্রপাত হয় তখন তারা কেউ বাড়িতে ছিল না আগুনের বিষয়টি আমরা বুঝতে পেরে বিভিন্ন মাধ্যমে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে অবশেষে আগুন নিভাতে সক্ষম হই।পরে ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আসেন।

এসময় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অতুল রায় (৩৫) নামে এক যুবক আগুন নিভানোর চেষ্টা করলে তার মুখমন্ডল পুড়ে যায়।ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা পুড়ে যাওয়া ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার নাসিম ইকবাল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন,ফায়ার সার্ভিস কর্মী মামুন জানান আনুমানিক ১ লক্ষ ৮৩ হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে তারা ধারণা করছেন।

রানীশংকৈল পৌর নির্বাচনে মহিলা কাউন্সিলর হালিমার মতবিনিময় সভা

রানীশংকৈল পৌর নির্বাচনে মহিলা কাউন্সিলর হালিমার মতবিনিময় সভা
রানীশংকৈল পৌর নির্বাচনে মহিলা কাউন্সিলর হালিমার মতবিনিময় সভা

কলিন চন্দ্র ( ইতু) রায়,
ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি::-

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে উপজেলায় আসন্ন পৌর নির্বাচন ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হালিমা আক্তার ডলি মতবিনিময় সভা করেছেন।২৫ ডিসেম্বর শুক্রবার নামাজের পরে রানীশংকৈল কলেজ পাড়ায় এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করেন।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও ঠিকাদার আবু তাহের, হরিপুর আদর্শ  মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ দবিরুল ইসলাম, সমাজসেবক শামসুল ইসলাম, দবিরুল ইসলাম, এন্তাজ আলী,শিক্ষক আলতাফ হোসেন,ব্যবসায়ী আমজাদ হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান সহ পৌর সভার ১,২ও ৩ নং ওয়ার্ডের মান্যগণ্য ব্যক্তিবর্গ।

সে সময় হালিমা আক্তার ডলি সকলের নিকট দোয়া চেয়ে নির্বাচনের প্রার্থীতা ঘোষণা করেন।

ফেন্সিডিল সহ আবার ধরা খেয়েছে ফেন্সিডিল সম্রাট এরশাদ’ সহ তার সহযোগী

ফেন্সিডিল সহ আবার ধরা খেয়েছে ফেন্সিডিল সম্রাট এরশাদ’ সহ তার সহযোগী

আহসান উল্লাহ বাবলু,আশাশুনি  সাতক্ষীরা  প্রতিনিধিঃ ১৭ বোতল ফেন্সিডিল বিক্রির সময় সহযোগীসহ পুলিশের হাতে আবার গ্রেফতার হয়েছে আশাশুনির কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী এরশাদ হোসেন (৩৪)। এ নিয়ে সে কমপক্ষে চারবার ধরা খেলো। সে শোভনালী ইউনিয়নের বসুখালী গ্রামের এলেম বক্স গাজীর ছেলে। আটক সহযোগী দেবহাটা উপজেলার সখীপুর গ্রামের নওশের আলী সরদারের ছেলে কবির হোসেন ওরফে বিল্টু (৩০)। বৃহস্পতিবার (২৪ ডিসেম্বর) রাতে আশশুনি থানা অফিসার ইনচার্জ মো. গোলাম কবিরের নেতৃত্বে পুলিশের বিশেষ অভিযানে বসুখালী গ্রামের তালতলা মোড় এলাকা থেকে হাতেনাতে এ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। অভিযানে অন্যতম নেতৃত্বদানকারী এএসআই মাহাবুব হাসান জানান- এরশাদকে ধরতে এএসআই পূর্ণানন্দ হরি, এএসআই দেবাশিষ মন্ডল ও সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় বসুখালী গ্রামের বিভিন্ন পয়েন্টে একাধিক ফঁাদ পাতা হয়। সর্বশেষ ক্রেতা সেজে তালতলা মোড় এলাকা থেকে ১৭ বোতল ফেন্সিডিলসহ এরশাদ ও বিল্টুকে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। ধরা পড়ার পর এরশাদ আলামত নষ্টের চেষ্টা চালায়। তার বিরুদ্ধে আশাশুনি থানায় এর আগে একাধিক মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। এই সংক্রান্তে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে তাদের বিরুদ্ধে আশাশুনি থানায় ১৪(১২)/২০২০ নং একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। শুক্রবার আসামীদের বিচারার্থে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

বগুড়ায় অস্বাস্থ্যকর খাদ্য বিক্রির অপরাধে ৩ হোটেলকে জরিমানা

বগুড়ায় অস্বাস্থ্যকর খাদ্য বিক্রির অপরাধে ৩ হোটেলকে জরিমানা

মোঃ সবুজ মিয়া বগুড়া প্রতিনিধিঃঅস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য উৎপাদন ও বিক্রির অপরাধে বগুড়ার তিনটি হোটেলকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সকালে শহরের কলোনি ও ঠনঠনিয়া বাসস্ট্যান্ডে ওই আদালত পরিচালনা করেন বগুড়া জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইসরাত জাহান ও শাহাদাত হোসাইন।

এসময় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা যায়, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্যদ্রব্য উৎপাদন ও বিক্রির অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালত শহরের কলোনি এলাকার চিটাগাং হোটেলকে ২০ হাজার, শুভ হোটেলকে ৫ হাজার এবং ঠনঠনিয়া বাসস্ট্যান্ডের একটি হোটেল কে ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

দিনাজপুর লেডিস ক্লাবের ৫৫ বছর পূর্তি উদযাপন

দিনাজপুর লেডিস ক্লাবের ৫৫ বছর পূর্তি উদযাপন

মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ দিনাজপুর লেডিস ক্লাবের ৫৫ বছর পূর্তি উদযাপন করেছে সংগঠনের সদস্যরা। ৫৫ বছর পূর্তিতে শুক্রবার বিকালে দিনাজপুর স্টেশন ক্লাবে আয়োজিত মিলন মেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম। 
অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসকের সহধর্মীনি লেডিস ক্লাবের সভাপতি ফারহানা সুলতানা।জোনাল সেটেলম্যান্ট কর্মকতা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শরিফুল ইসলাম,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শিক্ষা সানিউলফেরদ্দৌস,অতিনিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্ব মাহফুজুল আলমসহ উপস্থিত ছিলেন লেডিস ক্লাবের অন্যান্য সদস্য ।
লেডিস ক্লাবের ৫৫ বছর পূর্তিতে কেক কেটে অনুষ্ঠানের সূচনা করেন লেডিস ক্লাবের সভাপতি ফারহানা সুলতানাসহ অন্যান্য অতিথিরা।৫৫ বছর পূর্তি উদযাপন অনুষ্ঠানে ক্লাবের সদস্যার বিভিন্ন কর্মকান্ড নিয়ে আলোচনা করেন। লেডিস ক্লাবের পক্ষ প্রতিবছর  দুস্থ শিক্ষার্থী,শীর্তাথ মানুষের মধ্যে শীত বস্ত্র বিতরন, অসহায় মানুষদের চিকিংসায় সহযোগিতা করা হয়েছে।
পরে অতিথিবৃন্দ ও সদস্যদের মধ্যে ক্রেস্ট প্রদানসহ মধ্যাহ্ন ভোজের আয়োজনের মধ্য দিয়ে ৫৫ বছর পূর্তি উদযাপন করেন ক্লাবটির সদস্যরা।

পটিয়া পৌরসভা ২ নং ওয়ার্ড সুচক্রদন্ডী শাখা জাতীয় শ্রমিকলীগের কমিটি গঠন

পটিয়া পৌরসভা ২ নং ওয়ার্ড সুচক্রদন্ডী  শাখা জাতীয় শ্রমিকলীগের কমিটি গঠন


সেলিম চৌধুরী, স্টাফ রিপোর্টারঃ- পটিয়া পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড সুচক্রদন্ডি শাখা জাতীয় শ্রমিক লীগ এি- বার্ষিক সন্মেলন সুচক্রদন্ডী স্কুল মাঠে  বাবু শিব রাম দের সভাপতিত্বে এবং
 মোঃ সাইফুল ইসলাম বিপু সঞ্চলনায় অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন পটিয়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র পটিয়া -প্রকৌশলী বাবু রূপক সেন,  বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় শ্রমিক লীগ পটিয়া পৌরসভা'র সভাপতি মোঃ শফিকুল ইসলাম শফি।  প্রধান বক্তা ছিলেন পটিয়া পৌরসভা জাতীয় শ্রমিকলীগ সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক মাজু। বক্তব্য রাখেন  মোঃ বাবু চৌধুরী,  পটিয়া পৌরসভা জাতীয় শ্রমিকলীগ সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ কলিমুর রহমান   উপদেষ্টা ২ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ-  ঝন্টু কুমার দে, উপদেষ্টা ২নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ- সাধন ভট্টাচার্য, সাবেক সভাপতি ২নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ  ধনঞ্জয় ভট্টাচার্য, সদস্য -পটিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগ জুলহাজুল রহমান লিংকন, উপ প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক পটিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগ মোঃ নাজিম উদ্দিন। মোঃ মনজুরুল আলম। মোঃ  জসিম উদ্দিন মোঃ রিয়াদ। সহ পৌরসভা  শ্রমিক লীগ এর অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভার শেষে পটিয়া পৌরসভার ২নং  ওয়াডের কমিটি সভাপতি শিব রাম দে, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইফুল ইসলাম বিপু মোঃ মতি'কে সাংগঠনিক সম্পাদক করে   ২১ বিসৃষ্ট কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়। 

মোংলায় প্রার্থণা ও আনন্দ উৎসবে বড়দিন উদযাপিত

 মোংলায় প্রার্থণা ও আনন্দ উৎসবে বড়দিন উদযাপিত

মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃ খ্রীষ্ট ধমার্বলম্বীদের প্রধান ধর্মীয়  উৎসব শুভ বড়দিন আজ। মোংলায় ধর্মীয়  আচার, প্রার্থণা ও আনন্দ উৎসবসহ নানা অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে বড়দিন উদযাপন করছে খ্রীষ্টান সম্প্রদায়। বড়দিন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টায় শুরু হয় গীজার্য় গীর্জায় ধর্মীয়  রীতি অনুযায়ী ঘন্টা/ঘন্টি বাজানো। ঘন্টি/ঘন্টা বাজানোর সাথে সাথে গীর্জা  এলাকায় জড়ো হওয়া খ্রীষ্ট ধর্মাবলম্বীরা ঢুকতে শুরু করেন গীজার্র অভ্যন্তরে। এরপর শুরু হয় বিশেষ প্রার্থণাসহ নানা আচার। শুরুতেই যিশু খ্রীষ্টকে স্মরণ ও করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তির প্রত্যাশায় দেশ এবং জাতীর মঙ্গল কামনা করে প্রার্থণা করেন মোংলার প্রধান কেন্দ্রীয় শেহলাবুনিয়া গীজার্র (সাধু পল ক্যাথলিক মন্ডলী) পালক পুরোহিত ফাদার দানিয়েল মন্ডল। প্রার্থণা করা হয় ফাদার মারিনো রিগনের আত্মার শান্তির জন্যেও। শেহলাবুনিয়ার প্রধান ক্যাথলিক গীজার্সহ অনন্ত ৪৩টি চার্চে একসাথে অনুষ্ঠিত হয় বড়দিনের বিশেষ এ প্রার্থনা। এছাড়া শুক্রবার সকাল থেকে শেহলাবুনিয়া, মালগাজী, চিলা ও বুড়িরডাঙ্গাসহ খ্রীষ্ট অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে নানা আনুষ্ঠানিকতা এবং উৎসবের মধ্যদিয়ে বড়দিন উদযাপিত হচ্ছে। বড়দিন উপলক্ষে খ্রীষ্ট ধর্মাবলম্বীদের উপস্যানালয় ও বাড়ী-ঘরগুলোতে জাকজমকপূর্ণ আলোকসজ্জা শোভা পাচ্ছে। গীর্জাগুলোর সামনেই স্থাপন করা হয়েছে গোসালা। গোসালায় দৃষ্টি নন্দনভাবে যিশুর আর্বিভাবের প্রতিকৃতি সাজানো হয়েছে। বড়দিনকে ঘিরে গীর্জাগুলোর আশপাশে বসেছে মেলা। এদিকে বড়দিন উপলক্ষ্যে সকল গীজার্ ও খ্রীষ্টান পল্লীগুলোতে পুলিশের রয়েছে বাড়তি নজরদারী। সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্য বিধি মেনেই বড়দিন উৎসব উদযাপন করছেন খ্রীষ্ট সম্প্রদায়ের লোকজন। 

বড়দিন উপলক্ষে খ্রীষ্ট সম্প্রদায়কে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন স্থানীয় সাংসদ ও পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রনালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার, উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, উপজেলা নিবার্হী অফিসার কমলেশ মজুমদার, থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকতার্ মো: ইকবাল বাহার চৌধুরী, পৌর মেয়র আলহাজ্ব মো: জুলফিকার আলী, পৌর নিবার্চনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী  বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আ: রহমান ও স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী  আলহাজ্ব এইচ এম দুলাল। 

চুয়াডাঙ্গা ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান: গাঁজা সেবন করার অপরাধে ৩ জনকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা

 চুয়াডাঙ্গা  ভ্রাম্যমান  আদালতের অভিযান: গাঁজা সেবন করার অপরাধে ৩ জনকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা

 


খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধানঃচুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মুহাম্মদ সাদিকুর রহমান এর নেতৃত্ব ভ্রাম্যমান  আদালতের অভিযান পরিচালনা করেন। আজ শুক্রবার ২৫ ডিসেম্বর সকাল ১১ টার সময় 

 চুয়াডাঙ্গা সদরে কলেজ পড়ায় ভ্রাম্যমান  আদালতের অভিযান পরিচালনা কালে গাঁজা সেবন করার অপরাধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০১৮ সনের ৩৬(১) সারনির ১৯(ক) ধারায় মোট তিনজনকে প্রত্যেককে ৫০০০/- টাকা করে সর্বমোট ১৫,০০০/-টাকা  জরিমানা আদায় করে ভ্রাম্যমান আদালত। গাঁজা সেবন কারিরা হলেন চুয়াডাঙ্গা সদরের ফার্মপাড়ার হিরা শেখের ছেলে মোঃ রাসেল(২০) এবং উভয় দুইজন

দক্ষিণ গোরস্থান পাড়ার মোঃ রফিকুল ইসলামের ছেলে মশিউর রহমান(১৭) ও মোহাম্মদ আলীর ছেলে মোঃ আসলাম (২১)। সহযোগিতায় ছিলেন পেশকার সোবহান আলী, অফিস সহায়ক মোঃ আরমান আলী চুয়াডাঙ্গা সদর থানার এ এস আই মোঃ হাবিবুর রহমান সহ পুলিশ ফোর্স সদস্যরা।

ঝিনাইদহে "মায়ের আর্দশ সবুজের অভিযান"স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগে কম্বল বিতরণ

ঝিনাইদহে "মায়ের  আর্দশ সবুজের অভিযান"স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগে কম্বল  বিতরণ


ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহের আরাপপুর,কালিগঞ্জ উপজেলার কামারাইল গ্রামে, হরিনাকুণ্ড পৌরসভায় ও শৈলকুপা উপজেলার গাড়াগঞ্জ ,বাজুখালি,বড়দাহ ,ব্রাহিমপুর ,ডাঙিপাড়া ও চণ্ডিপুর গ্রামে অসহায়, হতদরিদ্র  মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছে "মায়ের আর্দশ সবুজের অভিযান" স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।সাংবাদিক সম্রাট হোসেন ও মায়ের আর্দশ সবুজের অভিযান স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা মোঃ রাজীব হোসেন  এর উদ্দ্যোগে জামান মেমোরিয়াল কোচিং সেন্টার , সুমন এডমিশন কোচিং ও মায়ের আর্দশ সবুজের অভিযান এর সার্বিক সহযোগিতায় অসহায়, হতদরিদ্র  মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ করা হয়।
কামারাইল গ্রামের কয়েকজন অসহায় মহিলা কম্বল পেয়ে বলেন, শীতের যে কাপড় ছিল তা দিয়ে শীত নিবারণ হচ্ছিল না। এখন এই কম্বল পেয়ে খুব ভালো হলো। এখন শীতে আর কষ্ট করতে হবে না ।গাড়াগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অবস্থানরত কিছু অসহায় মানুষ কম্বল পেয়ে বলেন যে আমরা কেনেদিন কোন সাহায্য সহযোগিতা পায়নি। আজ এই কম্বল পেয়ে খুব ভালো হলো। এখন রাতে শীতের যন্ত্রনা নিবারণ করে শান্তিতে ঘুমাতে পারবো।
আজ শুক্রবার হতদরিদ্র মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে কম্বল বিতরণ করা হয়।কম্বল বিতরণের প্রধান উদ্যোক্তা সাংবাদিক সম্রাট হোসেন বলেন, গরিবদের জন্য সবাই যদি এভাবে এগিয়ে আসত, তাহলে কাউকে শীতে এত কষ্ট করতে হতো না।

বেনাপোলে ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

 বেনাপোলে ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

স্টাফ রিপোর্টার  ,যশোর : যশোর ডিবি পুলিশ বেনাপোলের মহিষাডাঙ্গায় অভিযান চালিয়ে ২০ বোতল ফেনসিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী আবুল কালাম রয়েলকে আটক করেছে। সে ওই গ্রামের মোশারফ হোসেনের ছেলে।

যশোর ডিবি পুলিশের ইনচার্জ সোমেন দাশ জানান, ডিবি পুলিশের একটি দল শুক্রবার ভোরে মহিষাডাঙ্গার পুটখালী বারপোতাগামী রাস্তা থেকে আবুল কালাম রয়েলকে আটক করে। এসময় তার কাছ থেকে ২০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

যশোরে সড়ক দুর্ঘটনায় পিতার মৃত্যু, ছেলে আহত

যশোরে সড়ক দুর্ঘটনায় পিতার মৃত্যু, ছেলে আহত

 


স্টাফ রিপোর্টার ,যশোর : যশোর-মাগুরা মহাসড়কের হুদার মোড় এলাকায় শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে কাভার্ড ভ্যানের সাথে মোটর সাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে নয়ন হোসেন (৪৫) নামে এক দীনমুজুর নিহত হয়েছেন। এসময় তার ছেলে জাফর হোসেন গুরুতর আহত হয়েছে। নিহত নয়ন হোসেন যশোর সদর উপজেলার ক্ষিতিবদিয়া গ্রামের হবিবর রহমানের ছেলে।

নিহতের স্বজন ও পুলিশ জানায়, শুক্রবার সকালে ইট কেনার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হন। যশোর মাগুরা সড়কের হুদার মোড় এলাকায় পৌছুলে বিপরীত মুখোমুখি সংঘর্ষে পিতা ও পুত্র গুরুতর আহত হন। এসময় ঘাতক কাভার্ডভ্যান পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন আহত পিতা ও পুত্রকে উদ্ধার 

করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক দেলোয়ার হোসেন নয়নকে মৃৃৃত ঘোষণা করেন। ও জাফর হোসেনকে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করেন। তার অবস্থার অবনতি হলে সার্জারী বিভাগের চিকিৎসক ঢাকায় রের্ফার করেন। বারোবাজার হায়ওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেজবা উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

বগুড়া সদরে ইয়াবা ও শেরপুরে গাঁজা উদ্ধার, আটক ২

বগুড়া সদরে ইয়াবা ও শেরপুরে গাঁজা উদ্ধার, আটক ২

মোঃ সবুজ মিয়া প্রতিনিধিঃবগুড়ায় জেলা পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) মাদক বিরোধী অভিযানে দুই কেজি গাঁজা ও ১০০ পিস ইয়াবাসহ দুইজন গ্রেপ্তার হয়েছেন। বৃহস্পতিবার তাদেরকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে বুধবার সন্ধ্যায় শেরপুর উপজেলা থেকে দুই কেজি গাঁজাসহ সুমন শাহ (২৮) নামের এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়। সুমন শেরপুরের বাগদা চকপোতা গ্রামের বাসিন্দা।

আরেক অভিযানে বুধবার বিকেলে বগুড়া সদরের মাটিডালি বিমান মোড় থেকে ১০০ পিস ইয়াবাসহ সোহেল হোসেন (৩২) নামে আরেকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। সোহেল মাটিডালি মধ্যপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

গ্রেপ্তার দুইজনই মাদক ব্যবসায়ী। এদের মধ্যে সুমনের বিরুদ্ধে আরও চারটি মাদক মামলা রয়েছে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা ডিবি পুলিশের ওসি মো. আব্দুর রাজ্জাক।

তিনি বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে  বগুড়া সদর ও শেরপুর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা করা হয়েছে। তাদেরকে আদালতে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

বিএসপির বিদ্রোহী’র প্রকাশনা উৎসবে বক্তারা সৃষ্টিশীল লেখকরা ডাক্তার হিসেবে সমাজকে চিকিৎস দেন

বিএসপির বিদ্রোহী’র প্রকাশনা উৎসবে বক্তারা সৃষ্টিশীল লেখকরা ডাক্তার হিসেবে সমাজকে চিকিৎস দেন

স্টাফ রিপোর্টার: বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী ও মহান বিজয় দিবস ২০২০ উপলক্ষে বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদ (বিএসপি) প্রকাশিত বিদ্রোহী (২৪তম সংখ্যা) এর প্রকাশনা উৎসব শুক্রবার সকালে (২৫ ডিসেম্বর) প্রেসক্লাব যশোরে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন যশোর কালেক্টরেটের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কবি কাজী আতিকুর রহমান, বিশেষ অতিথি ছিলেন যশোর কালেক্টরেটের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কবি কৃষ্ণ চন্দ্র।
সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কাজী রকিবুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বিশিষ্ট কলামিস্ট আমিরুল ইসলাম রন্টু, বিশিষ্ট কবি ও গবেষক ড. মোঃ মুস্তাফিজুর রহমান, কবি ড. শাহনাজ পারভীন, যশোর আইনজীবী সমিতির সহসভাপতি অ্যাড. জিএম মুছা।
বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মুন্না'র পরিচালনায় প্রকাশনা উৎসবে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিদ্রোহী'র সম্পাদক আহমদ রাজু। এসময় উপস্থিত ছিলেন, শতাব্দী সাহিত্য ও গবেষণা পরিষদের সভাপতি কবি ও গবেষক, অধ্যাপক কাজী শওকত শাহী, প্রেসক্লাব যশোরের দফতর সম্পাদক তৌহিদ জামান, মণিরামপুর সাহিত্য পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক হোসাইন নজরুল হক, মুক্তেশ^রী সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক গাজী শহিদুল ইসলাম।
অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদের সহসভাপতি আমির হোসেন মিলন, সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল হাসনাত সজল, কোষাধ্যক্ষ আবুল হাসান তুহিন, নির্বাহী সদস্য সোনিয়া সুলতানা চাঁপা, অ্যাড. মাহমুদা খানম, নাসির উদ্দিন, জাহিদুল যাদু, পারভীনা খাতুন, অধ্যাপক এস. এম তোজাম্মেদ হক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, শামীম বাদল, রাজপথিক, হুমায়ন কবির, মুহাম্মদ হাতেম আলী সরদার, সমাপ্তি দাস, মোঃ হোসেন আলী, ফাতিমা পারভীন, মানবেন্দ্র কুমার সাহা,সাধন কুমার দাস, মোহাম্মদ শামীম, মাসুম বিল্লাহ,তানভীন হোসেন,আমিন রুহুল,এএফএম মোমিন যশোরী, মহব্বত আলী মন্টু,এম এ কাশেম অমিয়, শহিদুজ্জামান মিলন,সুমন রেজা প্রমুখ। কবি ও গবেষক আব্দুর রহিম আসাদীর মৃত্যুতে আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়।
অনুষ্ঠানে অতিথিবৃন্দ বলেন, সৃষ্টিশীল লেখকরা ডাক্তার হিসেবে সমাজকে চিকিৎসা করেন। সমাজকে ভাল রাখার জন্য কবিতা লেখেন। সমাজকে বির্নিমাণের জন্য লেখক তার লেখনি উপহার দেন। আর ভাল লেখার জন্য বেশি বেশি করে পড়তে হবে। জানতে হবে।
বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদের ২০৩ তম মাসিক সাহিত্য আগামি ১ জানুয়ারি ২০২১ অনুষ্ঠিত হবে বলে অনুষ্ঠানে জানানো হয়।

বুলেট ট্রেন নয়, টিকা ফ্রি চাই : মোমিন মেহেদী

বুলেট ট্রেন নয়, টিকা ফ্রি চাই : মোমিন মেহেদী

প্রেস বিজ্ঞপ্তি: নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী বলেছেন, করোনা পরিস্থিতিতে দেশের মানুষ প্রণোদনার নামে প্রতারণা পেয়েছে, এখন বুলেট ট্রেন নয়, টিকা ফ্রি চাই। ২৫ ডিসেম্বর বেলা ১১ টায় অনুষ্ঠিত ‘করোনায় টেস্ট-টিকা বাণিজ্য বন্ধ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। এসময় তিনি আরো বলেন, বিশে^র অন্যান্য দেশের মত স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়কে দুর্নীতি মুক্ত করতে স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে বহিস্কার ও করোনার টেস্ট-টিকা ফ্রি করতে হবে। যদি দেশের মানুষকে করোনার মত এই মহামারিতে সরকার প্রণোদনা দিতে না পারে, টিকা ফ্রি দিতে না পারে, টেস্টটাও ফ্রি করতে না পারে তো সরকার জনগনের কি দরকার?


এসময় প্রেসিডিয়াম মেম্বার বীর মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক শুভঙ্কর দেবনাথ, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা, মহাসচিব নিপুন মিস্ত্রী, যুগ্ম মহাসচিব প্রকৌশলী লিলি চৌধুরী, স্মৃতি রাণী দাস, সাংগঠনিক সম্পাদক লিটন দ্রং, জাতীয় শিক্ষাধারা ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক হাসিবুল হক হাসিব প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। এরপর শুভ বড়দিন উপলক্ষে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন নতুনধারার রাজনীতির প্রবর্তক কলামিস্ট মোমিন মেহেদী সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

নাগরপুরে ফ্রেন্ডশীপ ফাউন্ডেশন এর বার্ষিক সভা অনুষ্ঠিত

নাগরপুরে ফ্রেন্ডশীপ ফাউন্ডেশন এর বার্ষিক সভা অনুষ্ঠিত

  
ডা.এম.এ.মান্নান,টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:
টাংগাইল জেলা নাগরপুর উপজেলায় প্রানকেন্দ্রে অবস্হিত একটি আর্দশ কল্যানমৃলক ও অরাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান "ফ্রেন্ডশীপ ফাউন্ডেশনের সকল সদস্যদের নিয়ে বার্ষিক সাধারন সভা অনুষ্ঠিত।

আজ শুক্রবার,২৫ ডিসেম্বর ২০২০ খ্রি.বেলা ২.০০ টায় বাবনা পাড়া এম সি সি দাখিল মাদ্রাসা শিক্ষক হল রুমে অধ্যাপক মো. রশীদ মিয়া মহাদয়ের সভাপতিত্বে ও মাওলানা মো.মঈন উদ্দীন এর পরিচালনায় মাও.আ.সামাদ সাহেবের কুরআন পাঠের মাধ্যমে বার্ষিক সভার কাজ সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে আনুষ্ঠানিক ভাবে শুরু হয়।

 বার্ষিক সাধারন সভায় উপস্হিত ছিলেন সহকারি অধ্যাপক মো.শামিম আল মামুন সেলিম,সহকারি অধ্যাপক আলহাজ্ব মো.আব্দুস সালাম,ব্যাংকার মো.কবির হোসেন,প্রভাষক মো.শাহিন,হাফেজ মো.আজিম, মো.আনিসুর রহমান,হুমায়ুন কবীর,প্রভাষক ছাইদুর রহমান,মো.মনসুর আলী,আতাউর রহমান,বাহারুল ইসলাম,রহুল আমীন,মো.জব্বার, বাদল মিয়া,আইনুদ্দীন মিয়া,ডা.এম.এ.মান্নান প্রমুখ। 

সাধারন সভায় সকল সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে সামাজিক উন্নয়নে  অনেক গুরুত্বপৃর্ন সিদ্ধান্ত গৃহীত।

করোনায় পুলিশ সদস্যের মৃত্যু

করোনায় পুলিশ সদস্যের মৃত্যু
মোঃ জহুরুল ইসলাম
  বেলাল উদ্দিন সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টারঃকন্সটেবল মোঃ জহিরুল ইসলাম করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে অদ্য ২৫ ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রী. শুক্রবার সকাল ০৬ঃ০৫ ঘটিকায় চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন । ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন। তিনি চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সিটি স্পেশাল ব্রাঞ্চে কর্মরত ছিলেন।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার জনাব সালেহ মোহাম্মদ তানভীর,  পিপিএম মহোদয় তাঁর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন। তিনি মরহুমের শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর দুঃখ ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

সরকারি দায়িত্ব পালনকালে তিনি গত ০৬/১২/২০২০ খ্রী. করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হন। পরবর্তীতে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আই সি ইউ তে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি অদ্য ২৫ ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রী. শুক্রবার সকাল ০৬ঃ০৫ ঘটিকায় মৃত্যুবরণ করেন। 

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৪৪ বছর। তিনি ১৯৯৬ সালে বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করে অদ্যবধি দক্ষতা ও সুনামের সাথে চাকরি করেছেন। তাঁর গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুর জেলার সাহাপুর গ্রামে। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক পুত্র ও এক কন্যা সহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

কিশোরগঞ্জের সড়ক দুর্ঘটনায় সাবেক সেনা সদস্য নিহত

কিশোরগঞ্জের সড়ক দুর্ঘটনায় সাবেক সেনা সদস্য নিহত

মোঃ লাতিফুল আজম
নীলফামারী প্রতিনিধি:

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে ট্রাকের ধাক্কায় সাবেক সেনা সদস্য ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম রফিকের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৪ ডিসেম্বর) রাত ৯ টার দিকে উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের চৌধুরীর স্টান্ড নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। তিনি রণচন্ডি ইউনিয়নের মৃত জোবেদ আলীর পুত্র।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, কিশোরগঞ্জ উপজেলা থেকে বৃহস্পতিবার রাত ৯ টার দিকে রফিকুল ইসলাম মোটরসাইকেলে বড়ভিটা বাজার হয়ে নিজ বাড়ির দিকে যাওয়ার পথিমধ্যে বড়ভিটা চৌধুরীর স্টান্ড নামক স্থানে পৌঁছালে রংপুর থেকে ছেড়ে আসা জলঢাকা গামী একটি ট্রাকের ধাক্কায় গুরুত্বর আহত হন। পরে এলাকাবাসী তাঁকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

কিশোরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুল আউয়াল,ট্রাক দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

বেতাগীতে ইভিএম পদ্বতিতে ভোট গ্রহনের প্রশিক্ষন, জেলা প্রশাসকের মতবিনিময়

 বেতাগীতে ইভিএম পদ্বতিতে  ভোট গ্রহনের প্রশিক্ষন, জেলা প্রশাসকের মতবিনিময়

বরগুনা বেতাগী হতে শিপনঃ বরগুনার বেতাগী পৌরসভা সাধারণ নির্বাচন‘২০২০ উপলক্ষে দুইদিন ব্যাপি ইভিএম প্রশিক্ষনে ১৩৯ জন ভোট গ্রহণকারী প্রশিক্ষন দেয়া হয়,পরে কর্মকর্তাদের সাথে জেলা প্রশাসক মতবিনিময় করেন।জেলা নির্বাচন অফিসের আয়োজনে বেতাগী সরকারি পাইলট বিদ্যালয়  এ অনুষ্ঠানে  প্রধান অতিথি ছিলেন, বরগুনা জেলা প্রশাসক এবং বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাইন বিল্লাহ, বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা  সুহৃদ সালেহীন, জেলা নির্বাচন ও  রিটার্নিং কর্মকর্তা দিলীপ কুমার হাওলাদার।

বরগুনা সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা নাজমুল হোসেনের সঞ্চালনায় এ সময় বক্তব্য রাখেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ফারহানা ইয়াসমিন, বেতাগী থানার অফিসার ইনচার্জ কাজী  সাখাওয়াৎ হোসেন তপু, সহকারী রিটার্নিং  ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা  কাজী সহিদুল ইসলাম।

বরগুনা জেলা প্রশাসক এবং বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাইন বিল্লাহ বলেন,’ ভোট গ্রহণকারী কর্মকর্তা,আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ সংশ্লিস্ট সকল কমকর্তাদের উদ্দেশ্যে করে বলেন, ‘নির্বাচনকালীণ সময় আমরা কাউকে চিনবো না। সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন অনুষ্ঠানে আমরা বদ্ধ পরিকর। কোথাও যেন নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘিত না হয় সে জন্য সজাগ ও সচেষ্ট থাকতে হবে।  ভোটগ্রহণকারীদের নিরপেক্ষতার সহিত দায়িত্ব পালন করে ভোট গ্রহণ করতে হবে।

মাঠ পর্যায়ে প্রশাসনকে দূর্নীতি রুখতে সচিবের হুঁশিয়ারী

 মাঠ পর্যায়ে প্রশাসনকে দূর্নীতি রুখতে সচিবের হুঁশিয়ারী

নিউজ ডেস্কঃ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শেখ ইউসুফ হারুন ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন মাঠ প্রশাসনের অনিয়ম, দুর্নীতি, অদক্ষতা ও বিশৃঙ্খলা নিয়ে  ।এসব কর্মকাণ্ডের ব্যাপারে তিরি  কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, দুর্নীতি, অনিয়ম ও বিশৃঙ্খলার ক্ষেত্রে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি আরো বলেন যারা দক্ষতা, যোগ্যতা অর্জন করতে পারবে না, তাদের চাকরিতে থাকার কোন প্রয়োজন নেই।


ঢাকার সেগুনবাগিচায় বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে ২০২০ সালের সামগ্রিক কর্মদক্ষতা বিবেচনায় জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ কর্মকর্তা স্বীকৃতি প্রদান অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি সাংবাদিকদের কে  বলেন, মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের মূল্যায়ন এবং সে অনুযায়ী নির্দেশনা দেওয়া আমাদের দায়িত্ব।সরকারের দ্বায়িত্ব  দুর্নীতি, অনিয়ম শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনা । সেই কথা মাথায় রেখে  কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তিনি আরো  বলেন, একজন নির্বাহী কর্মকর্তা গণমাধ্যমে বক্তৃতা দিতে যদি প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার সক্ষমতা না থাকে তাহলে —এমন কর্মকর্তার কী প্রয়োজন?


প্রশাসনের মাঠ পর্যায়ে কর্মকর্তারা অনেক বেশি দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়ছেন, আবার অনেকে অপরাধ থেকে নিজেদের বাঁচাতে নানাভাবে তদ্বির করছেন। এ অভিযোগ খোদ জনপ্রশাসন সচিবের। তিনি বলছেন, অধিকাংশ কর্মকর্তাই ঢাকায় থাকার জন্য তদ্বির করেন, যা পীড়াদায়ক।

তিনি জানান, ‘আমাদের কর্মকর্তাদের অপরাধপ্রবণতা এখন এত বেশি, প্রতিদিন আমাকে কয়েকটি বিভাগীয় মোকদ্দমা শুনতে হয় এবং মোকদ্দমায় অনেকের শাস্তি হচ্ছে। আমি হঠাত্ দেখলাম যে, পেকুয়ার ইউএনও তার ঐখানে একটা ঘটনা ঘটল। তার সঙ্গে ইউএনওর বিন্দুমাত্র সম্পর্ক নেই, তিনি একটি টেলিভিশনে বক্তৃতা দিলেন। একটা প্রশ্নের জবাব তিনি দিতে পারলেন না। আমি ঐ অনুষ্ঠান দেখে লজ্জিত, আমার একজন ইউএনও, টেলিভিশনে গেল কিন্তু একটি প্রশ্নের জবাব দিতে পারলেন না।’

বদলি হতে বা বদলি ঠেকাতে তদ্বির করা হয়, যা খুবই বিব্রতকর জানিয়ে জনপ্রশাসন সচিব বলেন, ‘স্যার আমার ঢাকায় পোস্টিং দরকার। জানতে চাইলাম, কেন? বললো, আমি তো ঐ ব্যাচের সভাপতি। আমার ব্যাচের অনেক কাজকর্ম করতে হয়। এজন্য তার ঢাকা আসা প্রয়োজন।’ আরেক জন কর্মকর্তা ফেসবুকে পোস্ট দেন, ‘অমুক ব্যাচের কর্মকর্তা তো এতদিন এসিল্যান্ড ছিলেন, আমরা কেন এক বছর পর এসিল্যান্ড থেকে প্রত্যাহার হব।’ কোনো কাজ করার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছবি বা পোস্ট দেওয়া নিয়েও সহকর্মীদের কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করেন জনপ্রশাসন সচিব।

শেখ ইউসুফ হারুন বলেন, ‘একটি ভূমি অফিস পরিদর্শন করলাম, এটি ফেসবুকে দেওয়ার কী হলো! এমন একটি ভাব ইউনিয়ন ভূমি অফিস কেবল তিনি পরিদর্শন করেছেন। তার আগে কোনো কর্মকর্তা জীবনে কোনো দিন এটা পরিদর্শন করেননি। ঐ কর্মকর্তা ভালো গান গাইতে পারেন। তিনি গান গেয়ে ফেসবুকে দিলেন। কেন?’ অনুষ্ঠানে একটি ভিডিও বার্তা পাঠান জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী। পরে ২০২০ সালের সামগ্রিক কর্মদক্ষতায় বিবেচনায় জেলা পর্যায়ে ঢাকা বিভাগীয় ১৪ এসিল্যান্ড ও ১৩ জন ইউএনওকে শ্রেষ্ঠ কর্মকর্তা হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়।

তথ্যের উৎসঃ ইত্তেফাক

ফেন্সিডিল সহ ঝিকরগাছায় ব্যবসায়ী আটক

ফেন্সিডিল সহ ঝিকরগাছায় ব্যবসায়ী আটক

খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলন্ ব্যুরো প্রধানঃ পুলিশ সুপার যশোর মহোদয়ের নির্দেশে মাদক মুক্ত যশোর গঠনের লক্ষ্যে এএসপি নাভারন সার্কেল ও জনাব মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, অফিসার ইন-চার্জ ঝিকরগাছা থানার সার্বিক তত্ত্বাবধানে ঝিকরগাছা থানার এসআই (নিঃ)/কাজী মোঃ সাহিদুজ্জামান, এএসআই(নিঃ)/মোঃ আনিছুর রহমান সংগীয় ফোর্স সহ ইং ২৩/১২/২০২০ তারিখ রাত্র ২১.৩০ ঘটিকার সময় ঝিকরগাছা থানাধীন মধুখালী সাকিনস্থ বারবাকপুর টু ছুটিপুর রোডস্থ জনৈক মোঃ সোহাগ হোসেন, পিতা-মোঃ আরাফাত মন্ডল এর চায়ের দোকানের সামনে পাঁকা রাস্তার উপর হইতে ২০ বোতল ফেন্সিডিল ও ০১টি Apache R.T.R 160 CC মোটর সাইকেলসহ আসামী মোঃ ওমর ফারুক (২৫), পিতা- মোঃ আজিজুর রহমান, গ্রাম-কাশিপুর (পশ্চিমপাড়া), থানা- শার্শা, জেলা- যশোর’কে গ্রেফতার করেন। এই সংক্রান্তে ঝিকরগাছা থানার মামলা নং-১৭, তাং-২৩/১২/২০২০খ্রিঃ, ধারা-২০১৮ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ৩৬(১) এর ১৪(খ)/৩৮ রুজু করিয়া আসামীকে বিজ্ঞ আদালতে বিচারের নিমিত্তি পুলিশ প্রহরায় প্রেরণ করা হইয়াছে।

মুজিববর্ষে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট ৩২ টি দল নিয়ে আয়োজন

মুজিববর্ষে ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট ৩২ টি দল নিয়ে আয়োজন

আকরাম হোসাইন মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার অফিসার্স ক্লাব, বড়লেখার আয়োজনে মুজিববর্ষ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট -২০২০ এর শুভ উদ্বোধন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বড়লেখা ও অফিসার্স ক্লাব, বড়লেখার সভাপতি মোঃ শামীম আল ইমরান। বড়লেখা উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, কর্মচারী ও জনপ্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে ৩২ টি দল নিয়ে এই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

সাবেক প্রতিমন্ত্রী আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন- এর মৃত্যুতে পরিবেশ মন্ত্রীর শোক

সাবেক প্রতিমন্ত্রী আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন- এর মৃত্যুতে পরিবেশ মন্ত্রীর শোক

 

আকরাম হোসাইন মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি :: সাবেক বস্ত্র প্রতিমন্ত্রী ও পটুয়াখালী ৩ আসনের প্রাক্তন সংসদ সদস্য আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন- এর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপি।
মন্ত্রী আজ এক শোকবার্তায় মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। 
শোকবার্তায় পরিবেশ মন্ত্রী জানান, দলের দুঃসময়ে ও সকল আন্দোলন-সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন এর অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে। তাঁর মৃত্যুতে দেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে এক শূন্যতার সৃষ্টি হলো। 
উল্লেখ্য, বিশিষ্ট রাজনীতিক আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইন (৬৬) আজ বিকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে আবু মোঃ নাহিদ ব্যাপক প্রচার প্রচারনায় এগিয়ে

৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে আবু মোঃ নাহিদ ব্যাপক প্রচার প্রচারনায় এগিয়ে

 
আব্দুর রাজ্জাক,  মানিকগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
আসন্ন ২৮ ডিসেম্বর মানিকগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে  ৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদে আবু মোঃ নাহিদ ব্যাপক প্রচার প্রচারনায় এগিয়ে রয়েছে।  

কাউন্সিল প্রার্থী আবু মোঃ নাহিদ বলেন আমার অঙ্গিকার ৮নং ওয়ার্ডের উন্নয়ন। এই ওয়ার্ডে পৌরসভার পানি ও গ্যাস এর ব্যবস্থা নেই, রাস্তা ঘাট ভালো না।
আরেকটি বড় সমস্যা হলো পাশে কালিগঙ্গা নদী বন্যার পানিতে কিছু অংশ ভেঙ্গে গেছে এ ওয়ার্ড টি একেবারে হুমকির মুখি। 
আমি যদি কাউন্সিল হতে পারি তাহলে মেয়র এর মাধ্যমে একটি স্থায়ী বেড়িবাদ নির্মাণ অন্য অন্য  অভাব গুলো পূরণ করার জন্য চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ। তিনি আরো বলেন আমি ৮নং ওয়ার্ড এর একজন নাগরিক। অত এব ৮নং ওয়ার্ড  আমার আমি নির্বাচনে জয় হলে ৮নং ওয়ার্ড থেকে মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত একটি আধুনিক  ওয়ার্ড উপহার দিতে চাই। 

আবু মোঃ নাহিদ বলেন আমি 
নির্বাচনে পানির বোতল মার্কা বিজয় অর্জন করবো ইনশাআল্লাহ।  কারণ আমি ব্যাপক পরিমাণে  জন সাধারণের সারা পেয়েছি। আমি ৮নং ওয়ার্ডের সকল জন গনের নিকট দোয়া চাই।

অনলাইন রচনা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান

অনলাইন রচনা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান

মোঃ আওলাদ হোসেন, জেলা প্রতিনিধি, ভোলা (দৌলতখান)মহান বিজয় দিবস ২০২০ উপলক্ষে ভোলার দৌলতখান উপজেলায় অনলাইন রচনা প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৪ ডিসেম্বর) দৌলতখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ কাওছার হোসেন এর সভাপতিত্বে রচনা প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে সকাল ১১ টায় তাহার নিজ কার্যালয়ে পুরস্কার বিতরন করা হয়েছে।

বিজয়ীদের তিনটি গ্রুপে বিভক্ত করা হয়েছে, ১ম ধাপ ৬ষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেনি পর্যন্ত,২য় ধাপ ৯ম থেকে ১০ম শ্রেনি পর্যন্ত এবং ৩য় ধাপ কলেজ। 
মাধ্যমিক পর্যায়ে রচনার বিষয় ছিল "বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ " কলেজ পর্যায়ে রচনার বিষয় ছিল "মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ভবিষ্যৎ বাংলাদেশ।" ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যায়ে প্রথম ও দ্বিতীয় হয়েছে দৌলতখান সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় এবং তৃতীয় হয়েছে খাদিজা খানম মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

নবম থেকে দশম শ্রেনি পর্যায়ে প্রথম হয়েছে দৌলতখান সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় দ্বিতীয় হয়েছে জয়নুল আবদীন ল্যাবরেটরি হাই স্কুল এবং তৃতীয় হয়েছে দৌলতখান সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়।
কলেজ পর্যায়ে প্রথম,দ্বিতীয় ও তৃতীয় হয়েছে দৌলতখান সরকারি আবু আব্দুল্লাহ কলেজ। 
এদের মধ্যে প্রথম স্থান অর্জন করেছেন দৌলতখান আবু আবদুল্লাহ সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র আল জিহাদ। জিহাদ যে কোন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেই অধিকাংশ সময়ই কৃতিত্বের সাক্ষর রাখেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এবং জয়নুল আবদীন ল্যারেটরি হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুল্লাহ আল নোমান প্রমুখ।

মোবাইল ও কাগজপত্র থানায় জমা দিয়ে মহত্ত্বের পরিচয় দিলেন রকেট

মোবাইল ও কাগজপত্র  থানায় জমা দিয়ে মহত্ত্বের পরিচয় দিলেন রকেট

কলিন চন্দ্র (ইতু রায়),ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে ২৩ ডিসেম্বর বুধবার রাতে একটি মোবাইল সেট সেম্ফোনী বিএল ৯৭ ও সাথে থাকা প্রয়োজনীয় হিসাবের কাগজপত্র কুড়িয়ে পান থানা গেটের সামনে রকেট কম্পিউটারের স্বত্তাধিকারী আফসার আলী রকেট।তিনি এসব কুড়িয়ে পাওয়ার পর তৎক্ষণাৎ গিয়ে রাণীশংকৈল থানায় জমা দিয়ে দেন।

নিজ দোকানের সামনে মহাসড়কের উপরে পড়ে থাকা অবস্হায় রাত ৯ টায় সময় মোবাইল সহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র গুলো কুড়িয়ে পান বলে রকেট জানান।

রাণীশংকৈল থানার পুলিশ পরিদর্শক আব্দুল লতিফ সেখ ও সাব ইন্সপেক্টর আহসান হাবিবের হাতে মোবাইল সেট ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা দিয়ে মহানুভবতার পরিচয় দেন রকেট।

এ বিষয়ে ওসি তদন্ত আব্দুল লতিফ শেখ বলেন মোবাইল ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র থানায় জমা দিয়ে রকেট অনেক মহত্ত্বের কাজ করেছে।প্রমাণ সাপেক্ষে প্রকৃত মালিককে হারিয়ে ফেলা মোবাইল সহ সবকিছু ফেরত দিতে প্রয়োজনীয় উদ্দোগ গ্রহন করা হবে।

লাকসাম ১নং খাস খতিয়ান ভূক্ত প্রায় ৭৮ শতক সরকারি সম্পত্তি উদ্ধার

লাকসাম ১নং খাস খতিয়ান ভূক্ত প্রায় ৭৮ শতক সরকারি সম্পত্তি উদ্ধার


মোঃ রবিউল হোসাইন সবুজ, লাকসাম প্রতিনিধিঃ কুমিল্লার লাকসামে প্রায় ২ কোটি টাকা মূল্যের ৭৮ শতক সরকারি সম্পত্তি উদ্ধার করা হয়েছে। উপজেলার মুদাফরগঞ্জ ইউনিয়নের চিকোনিয়া গ্রামে অভিযান চালিয়ে এ সম্পত্তি উদ্ধার করা হয়। বুধবার(২৩ ডিসেম্বর)  দিনব্যাপী উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) উজালা রানি চাকমার নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় কানুনগো ইদ্রিস মিয়া ও লাকসাম থানা পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা ভূমি অফিস জানায়, দীর্ঘদিন যাবত এ এলাকার লোকমান হোসেন ওরফে মনির চৌধুরী এবং নজির আহমেদ ভূইয়া নামে দুই প্রভাবশালি ব্যক্তি লাকসাম-মুদাফরগঞ্জ পাকা সড়কের সংলগ্ন ২২০নং মুদাফরগঞ্জ মৌজার ১নং খাস খতিয়ান ভূক্ত ৪৬৩২ দাগের নাল শ্রেণির ০.৭৮০০ একর ভূমি অবৈধভাবে দখল করে রেখেছিল।

এ বিষয়ে লাকসাম উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) উজালা রানি চাকমা জানান, উদ্ধারকৃত এ সম্পত্তিতে মুজিব বর্ষ উপলক্ষে অসহায় গৃহহীনদের আবাসনের জন্য ব্যবহার করা হবে।

খেলাধুলা শুধু শারীরিক সুস্থতা নয়, মানসিক প্রশান্তিও দেয়: লায়ন মোস্তুফা কামাল

 খেলাধুলা শুধু শারীরিক সুস্থতা নয়, মানসিক প্রশান্তিও দেয়: লায়ন মোস্তুফা কামাল


মোস্তাকিম ফারুকী:মুজিব বর্ষ বিজয় দিবস খো খো টুর্নামেন্ট-২০২০ ফাইনালের পুরুষ্কার বিতরনী ও চ্যাম্পিয়ন এ্যাথলেটিকদের সংবর্ধনার আয়োজন করেন যশোর জেলা ক্রিয়া সংস্থা। উক্ত আনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিল যশোর জেলার জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান, লায়ন্স ক্লাব ইন্টারন্যাশনাল ডিস্ট্রিক্ট৩১৫এ১ এর দ্বিতীয় ভাইস গভর্নর লায়ন ইঞ্জিনিয়ার মোস্তুফা কামাল, যশোর ক্রিয়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা ইয়াকুব কবিরসহ জেলার বিশিষ্ট ক্রিড়া ব্যাক্তিত্ব।

উক্ত অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম বলেন, সরকারি দায়িত্ব পালনে দেশের বিভিন্ন জেলায় কাজ করার অভিজ্ঞতা আমার আছে। কিন্তু এই জেলায় এসে খেলাধুলার প্রতি সবার আন্তরিকতা ও আগ্রহ দেখে আমি মুগ্ধ হয়েছি। খেলাধুলা মানুষকে নেতিবাচক কর্মকান্ড থেকে বিরত রাখে এই ধারণা সবার মাঝে ছড়িয়ে দেওয়ায় ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ইঞ্জিনিয়ার মোস্তুফা কামালকে এবং খেলাধুলার প্রতি জেলার বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ যেন পৃষ্ঠপোষকতা অব্যাহত রাখে সেই আহবান জানান।
লায়ন ইঞ্জিনিয়ার মোস্তুফা কামাল তার বক্তব্যে বলেন, এই টুর্নামেন্টে খেলতে তোমাদের অনেকটা পথ পাড়ি দিয়ে আসতে হয়েছে। খেলতে আসা একঝাঁক তরুণ তরুণীদের উপদেশ দিয়ে বলেন, সাহসের সঙ্গে লড়ে যাও। খেলাধূলা আমাদের শারীরিকভাবে সুস্থ রাখার পাশাপাশি মানসিক প্রশান্তিও দেয়। এই করোণাকালীন সময়ে আমরা প্রত্যেকেই অনুধাবন করতে পেরেছি মানসিক প্রশান্তি কতটা গুরুত্বপূর্ণ। কর্মবিহীন জীবনে নানা ধরনের নেতিবাচক চিন্তা আমাদের মাথায় উদয় হয়, যা আমাদের সব সময় উদ্ধিগ্ন রাখে এবং শারীরিকভাবে অসুস্থ করে তুলে। কিন্তু খেলাধুলায় মনোযোগ থাকলে সবসময় আমরা সতেজ থাকতে পারি।
খেলাধুলা আমাকে অনেক কিছু শিখিয়েছে। স্কুলজীবন থেকেই শিখেছি, কোনো প্রতিযোগিতায় নামার আগে কীভাবে প্রস্তুতি নিতে হয়, কীভাবে পরিকল্পনা করতে হয় আর কীভাবে সেই পরিকল্পনা বাস্তবে রূপ দিতে হয়। বিপক্ষ দল এবং নিজের দলের খেলোয়াড়দের সম্মান করা খুব জরুরি। আমি জানি সবাই এখানে জিততে এসেছে। সবাই জয়ী হবে না। কিন্তু তুমি নিশ্চয়ই সবার হৃদয় জিতে নিতে পারো। হৃদয় জেতার সঙ্গে খেলায় হারজিতের সম্পর্ক নেই।
রানারআপ দলকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, পরাজয় আমাকে শিখিয়েছে, কীভাবে আবার মাথা তুলে দাঁড়াতে হয়, সাহসের সঙ্গে লড়াই চালিয়ে যেতে হয়। তাই তোমাদের জন্য আমার বার্তা—প্রতিযোগিতার মধ্যে থাকো, উদ্যমের সঙ্গে লড়ে যাও। আমার বিশ্বাস অনেক বাধা পেরিয়েই তোমরা আজকের অবস্থানে পৌঁছেছ। উদ্যম ধরে রেখে স্বপ্নের পেছন ছুটতে থাকো। আমরা অনেক সময় ছুটতে ছুটতে ক্লান্ত হয়ে যাই। পেছনে তাকিয়ে ভাবি, কিছুই তো পেলাম না। ভুলে যেয়ো না, সাফল্য কিন্তু পেছনে নয়, সামনে থাকে। তাই সামনের দিকে তাকিয়ে উদ্যমের সঙ্গে পরিশ্রম করে যাও। প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে ওঠার একটা কারণ খুঁজে নাও। মাঠে নামতে হবে, খেলতে হবে। অনেক ছেলেমেয়েকে দেখি আইপড, ল্যাপটপে ভিডিও গেমস নিয়ে মেতে থাকে। কিন্তু ঘরে বসে স্রেফ আঙুলের ব্যায়াম করলে তো হবে না। এই শক্তিটা মাঠে ব্যয় করা উচিত। কারণ খেলাধুলা শুধু সুস্থতাই দেয় না, সুখও দেয়। আমরা পুরো জাতি খেলোয়াড় হতে পারব না। কিন্তু একটা সুখী জাতি তো আমরা হতেই পারি।

কয়রায় লজিক প্রকল্পের উপজেলা পর্যায়ে সম্বনয় সভা

কয়রায় লজিক প্রকল্পের উপজেলা পর্যায়ে সম্বনয় সভা

কয়রা(খুলনা) প্রতিনিধিঃ স্থানীয় সরকার বিভাগ খুলনার উদ্যোগে লোকাল গভর্ণমেন্ট ইনিশিয়েটিভ অন ক্লাইমেট চেঞ্জ (লজিক) প্রকল্পের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে উপজেলা পর্যায়ে সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, সুশিল সমাজের প্রতিনিধিসহ উপকারভোগী সদস্যদের সাথে এক প্রকল্প সম্বনয় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় কয়রা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার অনিমেষ বিশ্বাসের সভাপতিত্বে প্রকল্প সম্বনয় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার খুলনার উপ-পরিচালক মোঃ ইকবাল হোসেন।বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এস এম শফিকুল ইসলাম ও ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাডঃ কমলেশ চন্দ্র সানা। এতে বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি অফিসার এস এম মিজান মাহমুদ, ইউপি চেয়ারম্যান মোহাঃ হুমায়ুন কবির, আলহাজ্ব সরদার নুরুল ইসলাম, আব্দুল্লাহ আল মামুন লাভলু, কবি জিএম শামছুর রহমান, লজিক প্রকল্পের জেলা সম্বনয়কারি শেখ ফয়সাল শাহ রিপন, মোঃ আসাদুল হক, কপোতাক্ষ কলেজের অধ্যক্ষ অদ্রিশ আদিত্য মন্ডল, প্যানেল চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবুল কাশেম, সাংবাদিক আনিসুজ্জামান, উপকারভোগী সদস্য আশা আক্তার প্রমুখ।

বগুড়া জুড়েই মোড়ে মোড়ে শীতের ভাপা পিঠা

বগুড়া জুড়েই মোড়ে মোড়ে শীতের ভাপা পিঠা
বগুড়া জুড়েই মোড়ে মোড়ে শীতের ভাপা পিঠা
মোঃ সবুজ মিয়া বগুড়া প্রতিনিধিঃপিঠা পছন্দ করে না এমন মানুষ কম। শীত আসলেই বাঙালির ঘরে ঘরে পিঠা তৈরির ধুম পড়ে। নানান রঙের পিঠা তৈরি করা হয় ঘরে ঘরে।  এছাড়া শীতে শহরের অলি গলি কিংবা পাড়া মহল্লায় পিঠা তৈরিতে ব্যস্ত থাকেন অনেক।

বাহারি ধরনের পিঠা তৈরি করে বিক্রি করেও আয় করে থাকেন নিম্ন আয়ের অনেকে। তেমনি একজন বগুড়ার বেগুনি খালা। এই নামে সবার কাছে পরিচিত তিনি। বগুড়া শহরের খান্দার এলাকার শহীদ চান্দু স্টেডিয়ামের সামনে দীর্ঘ দুই যুগ ধরে পিঠা বিক্রি করছেন বেগুনি খালা। নানান ধরনের পিঠা বিক্রি করছেন। রয়েছে ৬জন কর্মচারিও।

পিঠাপিয়াসুুরা জানায়, বেগুনি খালার পিঠা মানেই অন্যরকম স্বাদ। একের পর এক লাইন ধরে পিঠা কিনছের ক্রেতারা। দূর দূরান্ত থেকেও আসছেন অনেকে। বেগুনী খালার পিঠার সুনাম বগুড়াসহ আশপাশের জেলায় ছড়িয়ে পড়েছে। গরম পিঠা খেতে বিকেল থেকে ভিড় লেগে থাকে বেগুনী খালার দোকানে। শহরের বিভিন্ন স্থানে শীতকালীন নানা ধরনের খাবারের দোকান থাকলেও বেগুনী খালার দোকানের পিঠার চাহিদা বেশি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গিয়ে দেখা যায়, বেগুনি খালার ৬টি মাটির চুলায় পিঠা তৈরিতে ব্যস্ত তার কর্মচারিরা। যেন দম ফেলারও ফুরসত নেই তাদের। কোন চুলায় মিস্টি কুশলী, কোন চুলায় ঝাল কুশলী, আবার একটি চুলায় ভাপা পিঠা, অন্যগুলোতে চিতই পিঠা, তেল পিঠা, চালের ঝাল পিঠাসহ নানা ধরনের পিঠা তৈরি করা হচ্ছে।

নারিকেলের মিস্টি কুশলী প্রতিটি ১০ টাকা, ঝাল কুশলী ৮ টাকা, বুটের কুশলী ৮ টাকা করে, ভাপা পিঠা প্রতিটি ১০ টাকা, চিতই পিঠা ১০ টাকা করে, তেল পিঠা ১০ টাকা করে, চালের ঝাল পিঠা ১৫ টাকা করে, ডিমের ঝাল পিঠা ২৫ টাকা করে বিক্রি হয়।

বেগুনী বেগম জানান, প্রায় দুই যুগ ধরে তিনি পিঠা বিক্রি করে আসছেন। শুরুতে তিনি একলা পিঠা তৈরি করে পিঠা বিক্রি করলেও বর্তমানে ক্রেতার চাহিদা বাড়ার সাথে সাথে তার দোকানে ৬ জন কর্মচারী রয়েছে। দিন হিসেবে তাদের বেতন দেন। প্রতিদিন ৬-৭ হাজার টাকার পিঠা বিক্রি করে থাকেন। তিনি জানান, শীতের সময় ভালো ব্যবসা হয়। প্রতিদিন সব খরচ মিটিয়ে হাজার টাকার মত লাভ থাকে।

বেগুনী বেগমের দোকানের কর্মচারী কমলা বেগম ও রহমত আলী জানান, শীত আসতেই দোকানে কাজের চাপ অনেক। পিঠা বানানো থেকে সব কিছু করতে হয়। ক্রেতাদের চাহিদা মেটাতে ব্যস্ত সময় পার হয়। 

পিঠা বিক্রেতা বেগুনী বেগম জানান, তার স্বামী ইদ্রিস আলী বেপারী, সহযোগী রাবেয়া বেগম, সিফাত, করিমুল্লাহসহ আরো দু'জন প্রত্যেক বছর শীতের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত তারা পিঠা-পুলির ব্যবসা করে থাকেন। তাদের সবার বাড়ি শহীদ চাঁন্দু স্টেডিয়াম এলাকায়। তরুণ সহযোগী সিফাত জানান, বেগুনী বেগম ও তার স্বামী ইদ্রিস আলী সম্পর্কে তার দাদা-দাদী।

বেগুনী বেগম বলেন, প্রায় বিশ বছর ধরে শীতকালীন পিঠা-পুলির ব্যবসা করে আসছেন তারা। শীত শেষে অন্য কাজ করেন। তিনি জানান, বিকাল হলেই তারা পিঠার দোকান দিয়ে বসেন।

পটিয়ার নাইখাইন কৃষকদের মাঝে হক কমিটির নেতা দিদারুল আলম এর সার বিতরণ

পটিয়ার নাইখাইন কৃষকদের মাঝে হক কমিটির নেতা দিদারুল আলম এর সার বিতরণ
হক কমিটির নেতা দিদারুল আলম এর সার বিতরণ
সেলিম চৌধুরী,  স্টাফ রিপোর্টারঃমহান ১০ পৌষ বিশ্বঅলি শাহানশাহ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী (কঃ)র ৯২ তম পবিত্র খোশরোজ শরীফ উপলক্ষে মাইজভাণ্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি পটিয়া পৌরসভা শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক বিশিষ্ট ব্যাবসায়ি ও সমাজ সেবক মুহাম্মদ   দিদারুল আলমের ব্যবস্হাপনায় ২৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার  সকালে  পটিয়া উপজেলার জঙ্গলখাইন ইউনিয়নের নাইখাইন গ্রামে হতদরিদ্র ৩০জন কৃষকের মাঝে ৫ কেজি করে  সার বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়াও ৩০ জন কৃষকদের একবেলা টিফিন প্রদান করেন দিদারুল আলম।এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন পটিয়া- কর্ণফুলী মাইজভান্ডারি গাউসিয়া হক কমিটির সমন্বয়কারী মোহাম্মদ জাফরুল ইসলাম, সমন্বয়কারী সাইফুল ইসলাম সোহেল,  মানবিক পল্লী চিকিৎসক আর.কে বড়ুয়া, দৈনিক জনতা ও দৈনিক ইনফো বাংলা'র সাংবাদিক সেলিম চৌধুরী। কৃষকরা হলেন আবু ছৈয়দ বলাই, আবুল হাসেম, ফরিদুল আলম, শাহজাহান, জসিম উদ্দিন, ফারুক আহমদ,আমিনুল হক প্রমুখ।

গোপালপুরে দুই শতাধিক শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরন

গোপালপুরে  দুই শতাধিক শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরন
গোপালপুরে  দুই শতাধিক শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরন
ডা.এম.এ.মান্নান,টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:
আজ বৃহস্পতিবার,২৪ ডিসেম্বর ২০২০ খ্রি.  গোপালপুরে ভেংগুলা কলেজ মাঠে রোটারী ক্লাব বারিধারা সানরাইজ এবং ভেংগুলা খন্দকার ফজলুল হক ডিগ্রী কলেজের যৌথ উদ্যোগে দুইশতাধিক গরীব-অসহায় শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। 

উপস্থিত ছিলেন ভেংগুলা কলেজর অধ্যক্ষ মোঃ ফরিদ অাহমেদ, ভেংগুলা কলেজ পরিচালনা পরিষদের সদস্য সাইম অাল মামুন, ইউপি মেম্বার এনায়েত কবীর ও  গোপালপুর কলেজ পরিচালনা পরিষদের সাবেক সদস্য মঞ্জুরুল হক ফরিদ প্রমুখ।

জয়পুরহাটে ট্রেন- বাসের সংঘর্ষে নিহত পরিবারের পাশে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী

জয়পুরহাটে ট্রেন- বাসের সংঘর্ষে নিহত পরিবারের পাশে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী
নিহত পরিবারের পাশে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী
ডা.এম.এ.মান্নান,টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:
গত ১৯ ডিসেম্বর জয়পুরহাট সদর উপজেলার পুরানাপুল এলাকার রেলক্রসিংয়ে এক মারাত্নক দুর্ঘটনায় চলন্ত ট্রেনের ধাক্কায় যাত্রীবাহী বাস চুর্ণবিচুর্ণ হয়ে যায়। এতে বাসের চালক ও চালকের সহকারীসহ ১২ জন লোক নিহত হন। আরেকজন মারাত্নক আহত হয়ে সংকটাপন্ন অবস্থায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 

এ দুর্ঘটনায় নিহতদের  সহমর্মিতা জানানোর জন্য আমীরে জামাত ডাঃ শফিকুর রহমান টাংগাইল জেলা জামায়াতে ইসলামী আমীর জননেতা আহসান হাবীব মাসুদকে নির্দেশ দেন। সে নির্দেশ মোতাবেক টাংগাইল জেলার নেতৃবৃন্দ আজ বৃহস্পতিবার,২৪ ডিসেম্বর ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের কাছে ছুটে যায়।উপজেলা আমীর সাবেক তুখোর জনপ্রিয় ছাত্রনেতা আব্দুল্লাহ আল মামুনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথী হিসাবে বক্তব্য রাখেন টাংগাইল জেলা নায়েবে আমির খন্দকার আব্দুর রাজ্জাক।

 নিহতর পরিবারকে সহমর্মিতা জানান এবং সান্ত্বনা প্রদান করে তাদের মাগফিরাতের জন্য মহান রাব্বুল আলামীনের দরবারে দোয়া করা হয় এবং পরিবারবর্গকে আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করেন  জামায়াত নেত্ববৃন্দ। 

জেলা নায়েবে আমীর খ.আব্দুল রাজ্জাক  বলেন-একটি ইসলামী কল্যাণ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্য জনগণকে সাথে নিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী কাজ করে যাচ্ছে। আমরা আমাদের নৈতিক দায়বোধের জায়গা থেকে মনের টানে আপনাদের কাছে ছুটে এসেছি। আমরা আপনাদের কল্যাণের জন্য আল্লাহ্‌ সুবহানাহু ওয়া তায়ালার কাছে দোয়া করি। আপনারাও আমাদের জন্য দোয়া করবেন। বিশেষ করে জাতির প্রয়োজনে আমরা যেন সব সময় বিপন্ন মানবতার পাশে থাকতে পারি। 

উল্লেখ্য এ সময় টাংগাইল জেলা নেতৃবৃন্দসহ এবং ভুয়াপুর ও এলেংগা সাংগাঠনিক উপজেলার  জামায়াতের নেতৃবৃন্দ  উপস্হিত ছিলেন।

চট্রগ্রামের নিহত পরিবারের পাশে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী

চট্রগ্রামের নিহত পরিবারের পাশে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী


সেলিম চৌধুী স্টাফ রিপোর্টার: মাইজভাণ্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি বাংলাদেশ,পটিয়া উপজেলার শোভনদন্ডী ইউনিয়নের  হিলিচিয়া হাতিয়ারঘোনা শাখার যুগ্ম সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম এর পিতা ইউনুছ  মিয়া (৭০) ২৩ ডিসেম্বর রাত বুধবার রাত সাড়ে ৯টায় নগরীর একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। ইন্না-লিল্লাহী ওয়ান্নাহ লিল্লাহি রাজিউন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৪ ছেলে এক মেয়ে সহ বহু গুনগ্রাহী রেখে যান। ২৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় ইউনুছ মিয়ার জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

 তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ ও শোকসপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন মাইজভান্ডারি গাউসিয়া হক কমিটির সমন্বয়কারী জাফরুল ইসলাম, মোঃ নাছির উদ্দীন, সাইফুল ইসলাম সোহেল, মোঃ দিদারুল আলম, শোভনদন্ডী ইউপি চেয়ারম্যান এহসান,  দৈনিক জনতা  ও দৈনিক ইনফো বাংলা'র সাংবাদিক সেলিম চৌধুরী,  পটিয়া উপজেলা ছাএলীগের  সাবেক সাধারন সম্পাদক আ.ন.ম সেলিম প্রমুখ।

দেশের সকল বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়েকে জাতীয়করণে আলোচনা

দেশের সকল বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়েকে জাতীয়করণে আলোচনা



স্টাফ রিপোর্টার:   দেশের সকল বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়েকে জাতীয়করণে আলোচনা অনুষ্ঠিত। আজ ২৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় দেশের সকল বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (মাধ্যমিক )বিদ্যালয় কে একসাথে জাতীয়করণের লক্ষ্যে যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলার গঙ্গানন্দপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে উপজেলার ২১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের কে নিয়ে এক আলোচনা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা অনুষ্ঠানে গঙ্গানন্দপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন  মোকামতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনারুল ইসলাম ,কাশিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সবুর,রাজাপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শফিউল্লাহ , খুলশী বাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইতিমুদ্দৌলা, ছুটিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল আলিম ,গঙ্গানন্দপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক রেজাউল হক ,আঙ্গারপাড়া বহিরামপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাকির হোসেন, লাউজানি হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক এস এম সেলিম রেজা, রঘুনাথ নগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এস এম হাসানুল বান্না,বাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমান খান , ব্যাংদাহ সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আব্দুল মজিদ, বি এম হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সামাদ,আলাউদ্দিন বিশ্বাস মডেল একাডেমীর প্রধান শিক্ষক আতিকুল ইসলাম, অমৃতবাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফারুক হোসেন, বালিয়া- গৌরসুটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উত্তম কুমার। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বি এম হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সামাদ। অনুষ্ঠান শেষে গঙ্গানন্দপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে সকলের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানের বিশেষ আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অত্র বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সম্মানিত সভাপতি আমিনুর রহমান ,শিক্ষানুরাগী সদস্য প্রভাষক মহসীন আলী ,সদস্য বিপ্লব হোসেন, সামছুর রহমান, কামরুজ্জামান, শিউলী খাতুন প্রমুখ।

আশাশুনির দরগাহপুর ইউনিয়নের ভূমিহীন সমিতির কমিটি গঠন

আশাশুনির দরগাহপুর ইউনিয়নের ভূমিহীন সমিতির কমিটি গঠন

 
আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃআশাশুনির দরগাহপুর ইউনিয়নের ভূমিহীন সমিতির কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বুধবার সকালে উপজেলার ভূমিহীন সমিতির সভাপতি এম এম সাহেব আলী, সাধারন সম্পাদক শহিদুল ইসলাম স্বাক্ষরিত সভাপতি জিন্দা সরদার, সহ সভাপতি মোবারক আলী গাজী, আল-আমিন, দলিলুদ্দীন, আব্দুর রউফ গাজী, আলী হোসেন, সাধারন সম্পাদক ছিদ্দিকুর রহমান,যুগ্ম সম্পাদক রবিউল সরদার, রফিকুল গাজী, এনামুল সরদার, সাংগঠনিক সম্পাদক মিঠুন হোসেন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মিলন গাজী, হাসান, শারমিন খাতুন, ইব্রাহিম গাজী, দপ্তর  সম্পাদক  হাসান, অর্থ সম্পাদক আবু সাইদ গাজী , আইন বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ মোস্তাফিজুর রহমান, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আজগার গাজী, সমাজ কল্যান সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, সমবায় সম্পাদক আতিয়ার রহমান, ভূমি ও গন সংযোগ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বাছের হোসেন, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক  সম্পাদক উজ্জ্বল কুমার রাহা, শ্রম ও জনশক্তি সম্পাদক মোঃ আইনুস আলী সরদার, ক্রীড়া সম্পাদক মনিরুল ইসলাম, যুদ্ধাহত ও শহীদ পরিবার সম্পাদক মোশারফ মালঙ্গী, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক আনন্দ কুমার রাহা, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক রোজিনা খাতুন, সহ-মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নাজমা খাতুন, সদস্য ছালাম খঁা, সাইদ সরদার, রফিকুল ইসলাম, মনি গাজী, রাসেল, নূর আলী সরদারম, আকিম সরদার, মহিবুল্লাহ মোড়ল, ছালাম মোড়ল, সাইদ গোলদার, ছবুর গোলদার সহ ১০১ সদস্য বিশিষ্ট্য আশাশুনি উপজেলার দরগাহপুর ইউনিয়ন ভূমিহীন সমিতির এ কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়।

আশাশুনির বুধহাটায় পাকা রাস্তার কাজ উদ্বোধন

আশাশুনির বুধহাটায় পাকা রাস্তার কাজ উদ্বোধন
আশাশুনির বুধহাটায় পাকা রাস্তার কাজ উদ্বোধন     
  

আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধিঃ  আশাশুনির বুধহাটা ইউনিয়নের বুধহাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে পাকা রাস্তার কাজের উদ্বোধন করেন  ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিঃ আ ব ম মোসাদ্দেক।বুধবার সকালে তিনি এ রাস্তার কাজ উদ্বোধন  করেন।উদ্বোধনকালে ইউপি চেয়ারম্যান মোসাদ্দেক বলেন,নির্বাচনে জয়লাভের পর আমি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম  বুধহাটা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে রাস্তা পাকা করে দিব।আজ এই রাস্তার কাজের উদ্বোধন এর সাথে সাথে প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করা হল।তিনি আরও বলেন আমি কাজে বিশ্বাসী,আমার আমলে বুধহাটা ইউনিয়নে যে উন্নয়ন হয়েছে তা আগে কখনও হয় নাই।উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যহত রাখতে তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। এসময় উপস্থিতি ছিলেন ইউপি সদস্য খোকন হাজী, রেজোয়ান আলী (রেজো) রহমতুল্লাহ হুজুর, বুধহাটা ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি এজদান আলি,যুবলীগ নেতা সাদ্দাম হোসেন প্রমুখ।

সিরাজগঞ্জে রতন কান্দি ও ছোনগাছায় ঘরের শিং কেটে চুরির প্রভাব বেড়েছে

সিরাজগঞ্জে রতন কান্দি ও ছোনগাছায় ঘরের শিং কেটে চুরির প্রভাব বেড়েছে

মাসুদ রানা,সিরাজগঞ্জ,জেলাপ্রতিনিধিঃসিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার রতন কান্দি ইউনিয়নে বাহুকাতে ঘরে শিং কেটে চুরির হিড়িক পরেছে। শিং কেটে চুরির উপদ্রুপ এলাকার সাধারণ কৃষক বিপাকে পড়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে বাহুকা এলাকায়।  এবিষয়ে চুরি হওয়া ঘর মালিকগন  অভিযোগ করে বলেন। অভিযোগে জানা যায়, গত (শুক্রবার) বাহুকা এলাকার  জয়নাল মন্ডলের  ছেলে আঃ হাকিম (৩৫) এর  ঘরে থাকা দুই লক্ষ পাঁচ হাজার টাকা দের ভরি গোহনা সহ ঘরে থাকা পরনের কাপর রাতে, ঘরের শিং কেটে  চুরি করে  নিয়ে যায় । এসময় বাড়ির মালিক চুরির ঘটনাটি টের পেয়ে হৈ-চৈ শুরু করেন।  স্থানীয়রা জানায়, ছোনগাছা ইউনিয়নে ডিঙ্গীপাড়া গ্রামে মৃত ছবদের আলীর ছেলে গাজীউর রহমান মঙ্গল বার তার ঘরে ও শিং কেটে ব্যাটারি চালিত অটো ভ্যান চুরি করে নিয়ে যায়। আরো পড়ুনঃ বগুড়া জুড়েই মোড়ে মোড়ে শীতের ভাপা পিঠা
গত মাসে একই এলাকার বেশ কয়টি বাড়ি এ ভাবে চুরি হয়ে যায়। চুরির বিষয়টি নিয়ে কোন প্রতিকার না হওয়ায় বাহুকা ও ডিঙ্গীপাড়া গ্রামে আতংক বিরাজ করছে। এলাকাবাসি এখন চুরির ভয়ে রাত জেগে  বাড়ি ঘর ও গরু পাহারা দিচ্ছে।এবিষয়ে রতন কান্দি  ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান, চোরের খপ্পরে পরে হতদরিদ্র কৃষকের কষ্টের টাকা পয়সা ও পালিত গরু যা ঐ পরিবারের আয়ের মূল উৎস তা  হারিয়ে কৃষকরা নিঃশ্ব হয়ে জাচ্ছে।বিষয়টি সরজমিনে তদন্ত করে চুরির উপদ্রুপ থেকে রেহাই পেতে চায় এলাকাবাসি।

মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকায় মুক্তিযোদ্ধার নাম নাই!

মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকায় মুক্তিযোদ্ধার নাম নাই!

নিউজ ডেস্কঃ মুক্তিযুদ্ধের সময় মুজিবনগর সরকারের প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদের দূত হিসেবে কাজ করেছেন আবদুর রৌফ চৌধুরী। দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংগঠিত করার ক্ষেত্রেও তাঁর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। কিন্তু স্বাধীনতা অর্জনের ৪৯ বছর পর গত ১৯ নভেম্বর জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের (জামুকা) ৭০তম সভায় মহান মুক্তিযুদ্ধের এই সংগঠকের নাম বীর মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে গেজেটে অন্তর্ভুক্ত করার সুপারিশ করা হয়নি। যুক্তি হিসেবে বলা হয়েছে, তাঁর ডিজিআই নম্বর নেই, অর্থাৎ তিনি অনলাইনে বা সরাসরি জামুকার মহাপরিচালক বরাবর মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে সরকারি স্বীকৃতি চেয়ে আবেদন করেননি।


আবদুর রৌফ চৌধুরী ১৯৯৬ সালের সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে দিনাজপুর-১ আসন থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন। পরে প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বও পালন করেন। তিনি একটানা ১৫ বছর দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। ২০০৭ সালের অক্টোবরে তিনি মারা যান। তাঁর একমাত্র ছেলে খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বর্তমান সরকারের নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী। পিতার নাম মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকায় রাখার সুপারিশ জামুকা করেনি জানতে পেরে খালিদ মাহমুদ চৌধুরী দুঃখ প্রকাশ করে প্রথম আলোকে বলেন, ‘এটা মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়ের বিষয়। আমি কী বলব?’

আক্ষেপ করে খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ‘আমার বাবা সনদ বা সুবিধা পাওয়ার জন্য মুক্তিযুদ্ধ করেননি। আমরা আবেদনও করিনি। তবে এটুকু বলতে পারি, যাঁরা মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ছিলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর তাঁদের অন্ধকারে ঠেলে দেওয়া হয়।’

বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাঁদের পরিবারের কল্যাণ নিশ্চিত করতে ২০০২ সালে জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল (জামুকা) আইন করা হয়। এ আইনে বলা আছে, ‘প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা প্রণয়ন, সনদ ও প্রত্যয়নপত্র প্রদানে এবং জাল ও ভুয়া সনদ ও প্রত্যয়নপত্র বাতিলের জন্য সরকারের কাছে সুপারিশ পাঠাবে জামুকা।’ অর্থাৎ, বীর মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্ত করতে অবশ্যই জামুকার সুপারিশ নিতে হবে।
প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে যাঁদের নাম কখনো কোনো তালিকায় আসেনি, তাঁদের অন্তর্ভুক্ত করতে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয় ২০১৪ সালে একটি উদ্যোগ নেয়। এ জন্য অনলাইনে আবেদন আহ্বান করা হয়। পরে ২০১৬ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত অনলাইনে ১ লাখ ২৩ হাজার ১৫৪টি আবেদন জমা পড়ে। এর পাশাপাশি বিভিন্ন মাধ্যমে মন্ত্রণালয়ে সরাসরি আরও ১০ হাজার ৯০০টি আবেদন আসে।


আমার বাবা সনদ বা সুবিধা পাওয়ার জন্য মুক্তিযুদ্ধ করেননি। আমরা আবেদনও করিনি। তবে এটুকু বলতে পারি, যাঁরা মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ছিলেন, মুক্তিযুদ্ধের ক্ষেত্র তৈরি করেছিলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর তাঁদের অন্ধকারে ঠেলে দেওয়া হয়।


খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

অনলাইনে ও সরাসরি পাঠানো আবেদন যাচাই–বাছাইয়ের কাজ শুরু হয় ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে। তখন সারা দেশে ৪৭০টি উপজেলা, জেলা এবং মহানগর কমিটি গঠন করে মুক্তিযোদ্ধা যাচাই-বাছাইয়ের কাজটি হয়। কিন্তু যাচাই–বাছাইয়ে নানা অনিয়মের অভিযোগ ওঠায় মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা (যাঁদের নাম আগে অন্তর্ভুক্ত হয়নি) তৈরির প্রক্রিয়া স্থগিত হয়ে যায়। পরে ২০১৮ সালের জুলাই মাসে আবার যাচাই–বাছাই শুরু হয়। এসব যাচাই–বাছাইয়ে সব মিলিয়ে প্রায় পাঁচ হাজার সুপারিশ আসে। তাদের মধ্যে দুই দফায় মোট ২ হাজার ২১২ জনের নাম মুক্তিযোদ্ধাদের গেজেটে অন্তর্ভুক্ত করার বিষয়ে জামুকা সিদ্ধান্ত নেয়। এ–সংক্রান্ত গেজেট এখনো প্রকাশ হয়নি। শুধু ৬১ জন নারী মুক্তিযোদ্ধার নামের তালিকা ১৫ ডিসেম্বর প্রকাশ (গেজেট) করেছে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়।

তথ্যের উৎসঃ প্রথম আলো   

সরকারের পাশাপাশি শীতার্ত মানুষের জন্য ‘আমরা’ সংগঠনের মত বিত্তশালীদের এগিয়ে আসা উচিৎ

সরকারের পাশাপাশি শীতার্ত মানুষের জন্য ‘আমরা’ সংগঠনের মত বিত্তশালীদের এগিয়ে আসা উচিৎ


মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি  ঃ দিনাজপুর শহরের ফকিরপাড়া-কালুর মোড় সংলগ্ন এলাকাবাসীর সামাজিক সংগঠন 'আমরা' সংগঠনের আয়োজনে প্রতি বছরের মত এবারো দরিদ্র-অসহায় শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র ও কম্বল উপহার হিসেবে বিতরণ করেছে।
বিশিষ্ট সমাজসেবক ও 'আমরা' সংগঠনের সভাপতি আল মামুন বিপ্লব এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম বলেন, শীতার্ত মানুষদের পিছনে ফেলে রেখে দেশ ও জাতির উন্নয়ন সম্ভব নয়। শীতার্ত মানুষের পাশে দাড়ানো আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। করোনার সময় একজন জেলা প্রশাসক হিসেবে আমি যে কাজ করেছি তা আমার দায়িত্ব থেকে করেছি। 'আমরা' সংগঠন যেভাবে শীতার্ত মানুষের পাশে এগিয়ে এসেছে তা একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ বলে আমি মনে করি। বিশেষ অতিথি হিসেবে দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরূপ বকসী বাচ্চু বলেন, আর্ত মানবতার কল্যাণে 'আমরা' সংগঠন যে কাজ করে আসছে তা দেখে সমাজের বিত্তশালী ব্যক্তিরাও এগিয়ে আসবে বলে আমার বিশ্বাস। সরকারের পাশাপাশি এ ধরণের সংগঠনগুলোর শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানো দরকার। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে দিনাজপুর পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র মোঃ আলতাফ হোসেন বলেন, প্রতি বছর এ সময় দিনাজপুরে শৈত্য প্রবাহ হওয়ার কারনে সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রা কষ্টদায়ক হয়ে দাড়ায়। বিশেষ করে ভ্রাম্যমান ও ভব ঘুরে মানুষদের পাশে আমাদের দাড়ানো দরকার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, এলাকার বিশিষ্ট আইনজীবী এ্যাড. রাশেদুল ইসলাম মানিক। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, মটর শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শেখ বাদশাহ, মালিহা বুশরা প্রজ্ঞা, সামিউল ইসলাম সোয়াদ। 

নওগাঁর আত্রাইয়ে শীতার্তের মাঝে সরকারি কম্বল বিতরণ

নওগাঁর আত্রাইয়ে  শীতার্তের মাঝে সরকারি কম্বল বিতরণ

 
রাজশাহী ব্যুরোঃ নওগাঁর আত্রাইয়ে সাড়ে ৩ হাজার অসহায় শীতার্তের মাঝে সরকারি কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। 

কয়েক দিনের বয়ে চলা শৈত প্রবাহে যখন মানুষের জীবন-যাপন বিপন্ন, সে সময় তাদের দুঃখ দুর্দশা  লাঘবে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়ের উদ্যোগে এ সকল  কম্বল বিতরণ করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ছানাউল ইসলাম বলেন, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এবং মেম্বারদের দেওয়া তালিকা যাচাই-বাছাই করে ট্যাগ অফিসার, সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও মেম্বারের উপস্থিতিতে গরিব-দুঃখি শীতার্তের মাঝে কম্বলগুলো বিতরণ করা হয়।

আশাশুনির কুল্যায় ভিজিডি কার্ডের তালিকাভুক্ত ব্যক্তিদের বাড়ি পরিদর্শনে ইউএনও

আশাশুনির কুল্যায় ভিজিডি কার্ডের তালিকাভুক্ত ব্যক্তিদের বাড়ি পরিদর্শনে ইউএনও
আশাশুনির কুল্যায় ভিজিডি কার্ডের তালিকাভুক্ত ব্যক্তিদের বাড়ি পরিদর্শনে ইউএনও


আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃ সাতক্ষীরা জেলার আশাশুনি উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে, ভিজিডি কার্ডের তালিকাভুক্ত হওয়া ব্যক্তিদের বাড়ি পরিদর্শন করেছেন আশাশুনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার  মীর আলিফ রেজা। 

বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) বিকেলে ৪ ও ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ভিজিডি কার্ডের তালিকাভুক্ত হওয়া বিভিন্ন ব্যক্তিদের বাড়ি পরিদর্শন করেন তিনি। পরিদর্শনকালে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তালিকা অনুযায়ী বিভিন্ন বিষয় খোঁজখবর নেন এবং পরিবারের বিভিন্ন ব্যক্তিবর্গের সাথে কথা বলেন।

এসময় মহিলা ও শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা সাইদুর রহমান, কুল্যা ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বাছেত আল হারুন চৌধুরী, ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম পান্না, আলমগীর হোসেন আঙ্গুর, আব্দুর রশিদ, শামীমা সুলতানা কুইন, আনোয়ারা খাতুন, অফিস সহকারী আব্দুর রশিদ ও আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বোয়ালখালী প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ

বোয়ালখালী প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ


সেলিম চৌধুরী স্টাফ রিপোর্টারঃ- চট্টগ্রামের 
বোয়ালখালী প্রেস ক্লাবের উদ্যোগে দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। শনিবার (১৯ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ক্লাবের সভাপতি এসএম মোদ্দাচ্ছের। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ব্যবসায়ী মো. ওসমান। ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মো. সেকান্দর আলম বাবরের পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন, আরবী প্রভাষক মুফতি মাওলানা মুহাম্মদ তোহা হোসাইন, সাংবাদিক আবুল ফজল বাবুল, এমএস এমরান কাদেরী, ক্লাবের সহ-সভাপতি রাজু দে, সহ-সম্পাদক পূজন সেন, অর্থ সম্পাদক দেবাশীষ বড়ুয়া রাজু, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মুহাম্মদ মহিউদ্দিন, কার্যনির্বাহী সদস্য আল সিরাজ ভান্ডারী ও আলমগীর চৌধুরী রানা মো. এনামুল হক।

পটিয়া মানবতা ক্লাবের ধুমপান বিরোধী সভা ৩১ ডিসেম্বর

পটিয়া মানবতা ক্লাবের ধুমপান বিরোধী সভা ৩১ ডিসেম্বর



সেলিম চৌধুরী স্টাফ রিপোর্টারঃ- প্রতি বছরের ন্যায় আগামী ৩১ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার সন্ধায় পটিয়া মানবতার ক্লাবের উদ্যাগে পটিয়া প্রধান ডাকঘর এলাকায় ধুমপান বিরোধী আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছে। উক্ত অনুষ্ঠান সফল করার আহবান জানিয়েছেন পটিয়া মানবতা ক্লাবের প্রতিষ্টাতা সভাপতি সাবেক ছাএনেতা মোঃ ইদ্রিস পানু।

গঙ্গানন্দপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আগামীকাল ফ্রি ডেন্টাল ক্যাম্প

গঙ্গানন্দপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আগামীকাল ফ্রি ডেন্টাল ক্যাম্প

নিউজ ডেস্ক: আগামীকাল ২৪ শে ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার গঙ্গানন্দপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রাঙ্গণে ফ্রি ডেন্টাল কাপ অনুষ্ঠিত হবে ।এই উপলক্ষে যেসকল ব্যক্তি দাঁতে রোগে ভুগছেন তাদেরকে যথাসময়ে আসার জন্য বিশেষভাবে বলা হলো।

সার্বিক সহযোগিতায়:  মুশফিকুর রহিম জিম
যোগাযোগ : 01623 87 86 87

সাতদিন বাদেই অনলাইনে বই উৎসবের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

সাতদিন বাদেই অনলাইনে বই উৎসবের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

ফাইল ফটো

ডেস্ক রিপোর্ট: সাতদিন বাদেই অনলাইনে বই উৎসবের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অথচ প্রাথমিকের বই এসেছে ৬৮ দশমিক ৮১ শতাংশ। আর মাধ্যমিকের বই  প্রাপ্তির হার ৪৩ শতাংশ। জেলা শিক্ষা অফিস কর্তৃপক্ষ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। দাখিলে বই প্রাপ্তির হার মাত্র ২০ শতাংশ।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্র জানিয়েছে, জেলার আট উপজেলায় বইয়ের চাহিদা ১৪ লাখ ১২ হাজার ৭৩৩ পিস। এসেছে ৯ হাজার ৭২ হাজার ২০৩ পিস প্রাপ্তির হার ৬৮ দশমিক ৮১ শতাংশ। এরমধ্যে কেশবপুর, চৌগাছা, ঝিকরগাছা ও শার্শা  উপজেলায় শতভাগ বই পৌঁছে গেছে। বাঘারপড়ায় ৯৭ হাজার ৮০ পিস বইয়ের মধ্যে পৌঁছেছে ৬৬ হাজার ৪৩৫ পিস বই। অভয়নগরে ১লাখ ১২ হাজার ৫পিস বইয়ের মধ্যে পৌঁছেছে ৭৪ হাজার ৯৬২ পিস বই। মণিরামপুরে ২ লাখ ৪ হাজার ১২৬ পিস বইয়ের মধ্যে পৌঁছেছে ৮০ হাজার ৪৫৪ পিস বই। সদর উপজেলায় ৩ লাখ ৯৯০ হাজার ২৪০ পিস বইয়ের মধ্যে পৌঁছেছে ১ লাখ ৫০ হাজার ৭০ পিস। সদর, অভয়নগর, বাঘারপাড়া ও মণিরামপুর উপজেলায় দ্বিতীয়, তৃতীয় ও পঞ্চম শ্রেণির বই পৌঁছাইনি। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শেখ অহিদুল আলম জানান এ মাসের মধ্যে সব বই পৌঁছে যাবে। যথা সময়ে শিক্ষার্থীদের কাছে বই পৌঁছে দেয়া হবে।

এদিকে মাধ্যমিক ২৭ লাখ ৭৫ হাজার ১৪৬ পিস বইয়ের মধ্যে এসে পৌঁছেছে ১১ লাখ ৯২ হাজার ৯৬৮ পিস বই। প্রাপ্তির হার ৪৩ শতাংশ। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৮ লাখ ৪৭ হাজার ৫৬৯ পিস বইয়ের মধ্যে এসে পৌঁছেছে  ৩ লাখ ৭১ হাজার ১৬৮ পিস বই। প্রাপ্তির হার ৪৪ শতাংশ। শার্শায় ৩ লাখ ৪৮ হাজার পিস বইয়ের মধ্যে এসে পৌঁছেছে  ১ লাখ ৫৯ হাজার পিস বই। মণিরামপুরে ৪ লাখ ১হাজার ৮৫৮ পিস বইয়ের মধ্যে এসে পৌঁছেছে  ১ লাখ ৮৬ হাজার ৭৭৯ পিস বই। বাঘারপাড়ায় ১লাখ ৬৪ হাজার ৪৩৩ পিস বইয়ের মধ্যে এসে পৌঁছেছে   ৮৪ হাজার ৫১০ পিস বই। ঝিকরগাছায় ২লাখ ৮০ হাজার ৯৩ পিস বইয়ের মধ্যে এসে পৌঁছেছে   ১ লাখ ২৫ হাজার ২৪৪ পিস বই। চৌগাছায় ২ লাখ ৪৫ হাজার ৪৬০ পিস বইয়ের মধ্যে এসে পৌঁছেছে  ১লাখ ১৫ হাজার ২৪৪ পিস বই। কেশবপুরে ২ লাখ ১৫ হাজার ১৫২ পিস বইয়ের মধ্যে এসে পৌঁছেছে   ৪৬ হাজার ২২১ পিস বই। অভয়নগরে ২ লাখ ৭২ হাজার ৫৮১ পিস বইয়ের মধ্যে এসে পৌঁছেছে   ১লাখ ৪ হাজার ৩৩৪ পিস বই।

এদিকে মাদ্রাসার দাখিলে এসেছে মাত্র ২০ শতাংশ বই।

সাতক্ষীরায় ভারতে পাচারকালে ২০ ভরি ওজনের স্বর্ণের বারসহ আটক-১

সাতক্ষীরায় ভারতে পাচারকালে ২০ ভরি ওজনের স্বর্ণের বারসহ আটক-১
সাতক্ষীরায় সীমান্ত দিয়ে স্বর্ণের বার ভারতে পাচারকালে আটক -১


আজহারুল ইসলাম সাদী, স্টাফ রিপোর্টারঃ
ভারতে পাচারকালে সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর সংলগ্ন লক্ষিদাড়ি সীমান্ত থেকে ২০ ভরি ওজনের দুই পিচ স্বর্ণের বারসহ এক চোরচালানীকে আটক করেছে বিজিবি। জব্দকৃত স্বর্ণের বারের বাজার মূল্য ১৩ লাখ ৮০ হাজার টাকা।

বুধবার(২৩ ডিসেম্বর)  বিকালে লক্ষিদাড়ি সীমান্ত থেকে তাকে আটক করা হয়। 
আটক চোরাচালানীর নাম ইয়াছিন হোসেন (৩২)। তিনি সাতক্ষীরা সদর উপজেলার সীমান্তবর্তী লক্ষীদাড়ি গ্রামের মোহাম্মদ গাজীর ছেলে।

বিজিবি জানায়, স্বর্ণের একটি বড় চালান ভারতে পাচারের জন্য ভোমরা স্থলবন্দর সীমান্ত এলাকায় আনা হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে, বিজিবি ভোমরা বিওপি'র টহলরত সদস্যরা ভোমরা স্থলবন্দর সংলগ্ন লক্ষিদাড়ি সীমান্ত এলাকায় অভিযান চালায়।
এ সময় সেখান থেকে ২০ ভরি ওজনের ২ পিচ স্বর্ণের বারসহ চোরাচালানী ইয়াছিন গাজীকে হাতেনাতে আটক করে। 

সাতক্ষীরা ৩৩ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল গোলাম মহিউদ্দীন খন্দকার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় আটক চোরাচালানীর বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।

বাংলাদেশ এডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস এসোসিয়েশন কমিটির সহ-সভাপতি হলেন মণিরামপুরের নবাগত এসিল্যান্ড

বাংলাদেশ এডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস এসোসিয়েশন কমিটির সহ-সভাপতি হলেন মণিরামপুরের নবাগত এসিল্যান্ড
পলাশ কুমার দেবনাথ

মণিরামপুর, যশোর: বাংলাদেশ এডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস এসোসিয়েশন ৩৫তম ব্যাচের কার্যনির্বাহী কমিটির সহ-সভাপতি হলেন মণিরামপুরের নবাগত সহকারি কমিশনার (ভূমি) পলাশ কুমার দেবনাথ। 

এর আগে পলাশ কুমার দেবনাথ অত্যন্ত সুনামের সাথে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সহকারি কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হিসাবে কর্মরত ছিলেন। পলাশ কুমার দেবনাথ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন কৃতি শিক্ষার্থী।

বড়লেখায় ৫ জন কাউন্সিলর প্রার্থীকে ১১,৫০০-টাকা অর্থদন্ড

বড়লেখায় ৫ জন কাউন্সিলর প্রার্থীকে ১১,৫০০-টাকা অর্থদন্ড


আকরাম হোসাইন মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের বড়লেখা পৌরসভা নির্বাচন আচরণবিধি প্রতিপালন মনিটরিং ও নিশ্চিতকরনে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। এ সময় ৩ জন সংরক্ষিত আসনের মহিলা প্রার্থীসহ মোট ৫ জন কাউন্সিলর প্রার্থীকে বিধিবহির্ভূতভাবে নির্বাচনী প্রচারণার জন্য মোট ১১,৫০০/- টাকা অর্থদন্ডে দন্ডিত করা হয় ও সতর্ক করা হয়। অন্যান্য প্রার্থীগন যাদের ইতোপূর্বে অর্থদন্ড প্রদান করা হয়েছিল কিন্তু এখনো সংশোধন করেননি, তাদেরকে আবারো সতর্ক করার জন্য উপজেলা নির্বাচন অফিসারকে বলা হয়।মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন।জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, মৌলভীবাজারের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মো. তানভীর হোসেন।

বড়লেখায় ৫০টি "ক" শ্রেণীর গৃহ নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে

বড়লেখায় ৫০টি  "ক" শ্রেণীর গৃহ নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে


আকরাম হোসাইন মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি :: মুজিববর্ষ উপলক্ষে  মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলায় নির্মিতব্য "ক" শ্রেণীর (ভূমিহীন ও গৃহহীন) ঘর নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বড়লেখা মোঃ শামীম আল ইমরান। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ উবায়েদ উল্লাহ খান এবং সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানরা । উল্লেখ্য বড়লেখা উপজেলায় ৫০টি  "ক" শ্রেণীর গৃহ নির্মাণ করে দেয়া হচ্ছে।

উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে তানিসা খাতুন

 উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে তানিসা খাতুন
ঝিকরগাছা নিবার্হী অফিসারের কাছ থেকে সনদ গ্রহণ করছে তানিসা খাতুন-কপোতাক্ষ নিউজ
স্টাফ রিপোর্টার: উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে তানিসা খাতুন। যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলার সকল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে উপজেলা পর্যায়ে গত ১২ ডিসেম্বর উপজেলা শিক্ষা অফিসে উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত প্রতিযোগিতায় উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ গঙ্গানন্দপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী তানিসা খাতুন অংশ নিয়ে তৃতীয় স্থান অধিকার করেন। তার এই অসাধারণ সফলতার জন্য বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জ্ঞাপন করেছেন এবং তার উত্তর উত্তর সফলতা কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি আমিনুর রহমান, প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান, শিক্ষানুরাগী সদস্য  প্রভাষক মহসীন আলী ,সদস্য সামছুর রহমান, কামরুজ্জামান ও শিউলী খাতুন । সে অত্র বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর বিজ্ঞান বিভাগের  ছাত্রী, যার ক্লাস রোল -৩। সে উপজেলার ২ নম্বর মাগুরা ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের বিপ্লব হোসেনের কন্যা।