বেতনের দাবিতে আদমজী ইপিজেডে ধাওয়া পাল্টাধাওয়া

শিপন,নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে আদমজী ইপিজেডে শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছেন বকেয়া বেতন ও বন্ধ হওয়া ফ্যাক্টরি খুলে দেওয়ার দাবিতে। শ্রমিকরা সকাল ৮টায় প্রথমে আদমজী ইপিজেডের প্রধান কার্যালয় ঘেরাও করেন। এক পর্যায়ে তাদের ওপর আনসার ও আদমজী ইপিজেডের নিরাপত্তাকর্মীরা লাঠিচার্জ শুরু করলে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা নারায়ণগঞ্জ-আদমজী-শিমরাইল সড়ক অবরোধ করেন।

আন্দোলনরত শ্রমিকদের সাথে আনসার ও আদমজী ইপিজেডের নিরাপত্তা কর্মীদের সাথে ধাওয়া পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়। এতে নারী শ্রমিকসহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হন।

ইপিজেডের কুনতং এপারেলস লিমিটেড (ফ্যাশন সিটি) গত বছরের ১০ আগস্ট হঠাৎ দুই দিনের ছুটি ঘোষণা করে ফ্যাক্টরি বন্ধ করে দেয়। সেই বন্ধ পরবর্তীতে ক্রমশ বৃদ্ধি করতে করতে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়। তবে বন্ধ হওয়ার পরেও শ্রমিকদের ৩ থেকে ৪ হাজার টাকা করে বেতন পরিশোধ করে আসছিল মালিকপক্ষ।


তার ধারাবাহিকতায় বেতন দেওয়ার কথা থাকলেও গার্মেন্টস কর্তৃপক্ষ আগামী ১২ জানুয়ারি বেতন দেওয়ার ঘোষণা দেয়। যার কারণে প্রায় ১ হাজার শ্রমিক বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় আদমজী ইপিজেডের প্রধান কার্যালয়ে অবস্থান নেয় বলে জানান শ্রমিকরা। সেখানেই তাদের ওপর আনসার ও ইপিজেডের নিরাপত্তা কর্মীরা চড়াও হয় বলে অভিযোগ করেন তারা।

বেলা সাড়ে ১১টায় শিমরাইল-নারায়ণগঞ্জ ইপিজেড সড়কের প্রধান ফটকে অবস্থান নেয়।পরে শ্রমিকরা ইপিজেডের রেমি গার্মেন্টের সামনে অবস্থান নেন।খবর পেয়ে ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশ-৪ এর সিনিয়র এএসপি আইনুল হকের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের সাথে আলোচনা করে বকেয়া বেতন পরিশোধের আশ্বাস দিলে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা তাদের আন্দোলন স্থগিত করে স্থান ত্যাগ করেন।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট