বঙ্গবন্ধু বাঙালি জাতির অধিকার আদায়ে কখনো মাথানত করেনি- মজনু

মোঃ সবুজ মিয়া বগুড়া প্রতিনিধিঃবগুড়া জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু বলেন,বাঙালির বহু বছরের পরাধীনতার শৃঙ্খল ভাঙার নেতৃত্ব দিয়েছিলেন জাতির পিতার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তাঁর সুদূরপ্রসারী বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বিশ্বের বুকে জন্ম নিয়েছিল বাংলাদেশ নামের নতুন একটি রাষ্ট্র।তিনি সারাজীবন এ দেশের মাটি ও মানুষের অধিকার আদায় এবং কল্যাণের জন্য সংগ্রাম করেছেন।

বাঙালি জাতির মুক্তির জন্য জীবনের ১৪টি বছর পাকিস্তানি কারাগারের অন্ধপ্রকোষ্ঠে বন্দি থেকেছেন, দুইবার ফাঁসির মঞ্চে মৃত্যুর মুখোমুখি হয়েছেন। কিন্তু আত্মমর্যাদা ও বাঙালি জাতির অধিকার আদায়ের প্রশ্নে কখনো মাথানত করেননি, আপস করেননি পরাজয় বরণ করেনি। তিনি সকাল ৮:৩০ টায় বগুড়া জেলা আওয়ামীলীগের উদোগে দলীয় কার্যালয়ের সামনে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আনন্দ শোভাযাত্রা শেষে আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

আলোচনা সভায় বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনের আন্দোলন এবং সংগ্রামের ইতিহাস শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করে বলেন বঙ্গবন্ধুর সাহসী, দৃঢ়চেতা, আপসহীন নেতৃত্ব ও বীরত্বপূর্ণ সংগ্রামে অনুপ্রাণিত হয়ে জেগে ওঠে শত বছরের নির্যাতিত-নিপীড়িত পরাধীন বাঙালি জাতি। মুক্তির অদম্য স্পৃহায় উদ্বুদ্ধ করে তিনি বাঙালি জাতিকে স্বাধীনতার চূড়ান্ত সংগ্রামে ঐক্যবদ্ধ করে তুলেছিলেন।

বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে তার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাঙালি জাতি আজ স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী পালন করছে। দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ,আনন্দ শোভাযাত্রা সহ দিনব্যাপী কর্মসূচি গুলো তে উপস্থিত ছিলেন ডা: মকবুল হোসেন,টি জামান নিকেতা,এডভোকেট আব্দুল মতিন,আবুল কালাম আজাদ, এডভোকেট মকবুল হোসেন মুকুল,এডভোকেট রেজাউল করিম মন্টু,এডভোকেট আমানউল্লাহ,আসাদুর রহমান দুলু,সাগর কুমার রায়, এডভোকেট তবিবর রহমান তবি, এডভোকেট সাইফুল ইসলাম,অ্যাডভোকেট জাকির হোসেন নবাব,অধ্যক্ষ শাহাদত আলম ঝুনু,সুলতান মাহমুদ খান রনি,আল-রাজী জুয়েল।

আব্দুল খালেক বাবলু, শেরিন আনোয়ার জর্জিস,অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম আক্কাস,নাসরিন রহমান সীমা,মাশরাফি হিরো,আনোয়ার পারভেজ রুবন,তপন চক্রবর্তী,এসএম শাহজাহান, খালেকুজ্জামান রাজা, আবু সেলিম,এম এ বাসেত, এডভোকেট নরেশ মুখার্জি,আবু সুফিয়ান শফিক,অধ্যক্ষ শহিদুল ইসলাম দুলু,অধ্যক্ষ শামসুল আলম জয়,অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম আক্কাস, ইমরান হোসেন রিবন,অধ্যক্ষ আহসানুল হক,প্রভাষক আব্দুর রাজ্জাক,সাইফুল ইসলাম বুলবুল,আলমগীর হোসেন স্বপন,আলতাফুর রহমান মাসুক,প্রভাষক সোহরাব হোসেন সান্নু, প্রভাষক কামরুল হুদা উজ্জ্বল,গৌতম কুমার দাস,খাদিজা খাতুন শেফালী,আব্দুস সালাম, মাফুজুল ইসলাম রাজ,আলমগীর বাদশা, শুভাশিস পোদ্দারর লিটন,আমিনুল ইসলাম ডাবলু,এডভোকেট লাইজিন আর লিনা, মনজুরুল হক মঞ্জু,জুলফিকার রহমান শান্ত,ডালিয়া নাসরিন রিক্তা ,নাইমুর রাজ্জাক তিতাস,অসীম কুমার রায়,রাসেল আহমেদ কনক,রাশেকুজ্জামান রাজন।


শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট