প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

গত ১২/০৩/২০২১ ইং তারিখে দৈনিক প্রতিদিনের কথা পত্রিকায় প্রথম পাতায় ৩ কলামে প্রকাশিত ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল স্বাধীন আলো পত্রিকাতে "ইজারার সাড়ে ২৪লক্ষ টাকা জমা দেননি সাবেক চেয়ারম্যান আমিনুর" শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি আমার দৃষ্টিগোচর হইয়েছে। প্রকৃত পক্ষে গত ২০/০২/২০২০ তারিখে আমি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দপ্তর হইতে ২৬লক্ষ ১২ হাজার টাকার দরপত্র কমিটি কর্তৃক অনমোদিত ছুটিপুর পশুহাটের ইজারা গ্রহণ করি। দরপত্রের সাথে ৮লক্ষ টাকা বি.ডি. জমা প্রদান করি। একটি নোটিশে জানানো হয়, ৭ কার্যদিবসের মধ্যে জমা প্রদান পূর্বক জমা স্লিপ ও চালানের মূলকপি এবং ২৫০ টাকার নন জুডিশিয়াল ষ্টাম্পে চুক্তি সম্পাদনের জন্য বলা হয়। আরো জানানো হয় জমাদানে ব্যর্থ হলে ও চুক্তি সম্পাদন না করলে দরপত্র বাতিল সহ জামানতের অর্থ বাজেয়াপ্ত করা হবে। কিন্তু আমি করোনাকালীন সময়ে ইজারা সংক্রান্ত কোন চুক্তিপত্র সম্পাদন করি নাই। যার জন্য উক্ত তারিখে আমার ইজারা বাতিল বলিয়া গণ্য হয়। পরবর্তীতে হাট-বাজার উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হইতে বন্ধ রাখা হয়। আমি আমার জমাকৃত টাকা আনুপাতিক হারে ফেরত চাইলে আমাকে মৌখিক ভাবে উপজেলা প্রশাসন বলেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে হাট চালিয়ে যেতে । আমি হাট চালিয়ে যেতে অপারগতা প্রকাশ করি এবং আমার পে-অর্ডারের মাধ্যামে জমাকৃত টাকার মধ্য হইতে আনুপাতিক হারের টাকা কর্তন পূর্বক অবশিষ্ট টাকা আমাকে ফেরত দেওয়ার জন্য গত ০৭/০৭/২০২০ ও ১৫/০৯/২০২০তারিখে দু'টি আবেদন করি। তবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আমার আবেদনের কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। আমি পুনারায় ০৬/১২/২০২০ তারিখে আর একটি আবেদন করি এবং তাতেও  কোন সাড়া না পাওয়ায় পুনরায়  ০৬/০১/২০২১ তারিখে দ্বায় মুক্তি প্রদান চেয়ে  স্মারক সংখ্যা উল্লেখ পূর্বক  ছুটিপুর পশু হাটের ১৪২৭ বাংলা সনের ইজারা প্রাপ্ত হওয়া ও তৎপোষকে জমাকৃত টাকা হইতে আইনত গ্রাহ্য জামানতের টাকা কর্তন পূর্বক অবশিষ্ট টাকা ফেরত পাওয়ার জন্য  একটি আবেদন করি। উক্ত আবেদনে আমার পে-অর্ডারের মাধ্যামে জমাকৃত টাকার অবশিষ্ট টাকা আমাকে এখনো ফেরত দেয়নি। তবে বিষয়টি সংশ্লিষ্ট দপ্তরে এখনও বিবেচনাধীন রয়েছে। বর্তমানে উক্ত হাটটি পুনারায় টেন্ডারের মাধ্যামে ইজারা দেওয়া হয়েছে অন্য ইজারাদার সেটা গ্রহণ করেছেন। উল্লেখিত বিষয়ের উপর ভিত্তি করে স্থানীয় একটি কুচক্রিমহল আমার রাজনৈতিক ভাবে সম্মান ও জনপ্রিয়তা নষ্ট করার জন্য   সাংবাদিকদেরকে মিথ্যা ভিত্তিহীন তথ্য দিয়ে সংবাদ পরিবেশন করিয়েছে। আমি উক্ত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। -মোঃ আমিনুর রহমান আমিন।

শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট