১৪ ফেব্রুয়ারী পটিয়া পৌর নির্বাচনে মেয়র প্রার্থীসহ ৫৯জনের মনোনয়ন দাখিল

১৪ ফেব্রুয়ারী পটিয়া  পৌর নির্বাচনে  মেয়র প্রার্থীসহ ৫৯জনের মনোনয়ন দাখিল


সেলিম চৌধুরী, স্টাফ রিপোর্টারঃ-আগামী  পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন সর্বমোট মেয়র পদে ৪ জন, সংরক্ষিত মহিলা আসনে ১০ জন ও সাধারন কাউন্সিলর পদে ৪৫ জন মনোনয়ন দাখিল করেছেন।

১৭ জানুয়ারী রোববার সংশ্নিষ্ট নির্বাচন রিটার্নিং কর্মকর্তা তারিকুজ্জামান ও সহকারি রিটানিং কর্মকর্তা আরাফাত আল হোসাইনী এ তথ্য জানান।আওয়ামীলীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী মো: আইয়ুব বাবুল: এ সময় তার সাথে ছিলেন দক্ষিণ জেলা আ'লীগ সাধারন সম্পাদক মফিজুল রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ দাশ, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা: তিমির বরণ চৌধুরী, জেলা পরিষদ সদস্য দেবব্রত দাশ দেবু, উপজেলা আ'লীগ সভাপতি আকম সামশুজ্জমান চৌধূরী, সাধারন সম্পাদক অধ্যাপক হারুনুর রশিদ, পৌরসভা আ'লীগ সভাপতি আলমগীর আলম ও সাধারন সম্পাদক এমএনএ নাছির, মুজিবুল হক চৌধূরী মহব্বত, শাপলা কুড়ির আসরের নেতা আবদুল করিম।জাতীয় পার্টির মনোনীত মেয়র প্রার্থী শামসুল আলম মাস্টার: এ সময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন জাপা নেতা আবদুস সত্তার রনি, রফিক আহমদ চেয়ারম্যান, নরুল ইসলাম, মুজিবুর রহমান, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন।বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী নুরুল ইসলাম সওদাগর: এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপি সদস্য মোজাম্মেল হক, রেজাউল করিম নেছার, পৌরসভা বিএনপি সদস্য সচিব গাজী আবু তাহের, শাহজাহান চৌধুরী, কবিয়াল আবু ইউসুফ।ইসলামী ফ্রন্টে'র মনোনীত মেয়র প্রার্থী মুহাম্মদ আলী হোসাইন: এ সময় তার সাথে ছিলেন ইসলামী ফ্রন্টে নেতা কাজী সোলাইমান চৌধুরী, মাওলানা আনোয়ারুল ইসলাম, মাওলানা আলমদার ফরিদ, মাওলানা কাজী আবু বক্কর, মাওলানা নাছিম হায়দার, কাজী ইলিয়াছ।সংরক্ষিত মহিলা আসন-১০ জন। তৎমধ্যে (সংরক্ষিত-১) বুলবুল আকতার, ফাতেমা বেগম ও শিরিন আকতার চৌধুরী।

(সংরক্ষিত-২) ইয়াছমিন আকতার চৌধুরী, শাহনাজ বেগম, জেসমিন আকতার তুলি ও জোৎস্না আরা বেগম।(সংরক্ষিত-৩) ফারহান ইয়াছমিন, ফেরদৌস বেগম ও পারভীন আকতার।সাধারন ১নং ওয়ার্ডে (৮জন)- আব্দুল খালেক, জয়নাল আবেদীন, রেহেনা আকতার মুন্নী, নজরুল ইসলাম, মোহাম্মদ নাছির, আবদুল মালেক, মীর মো: আবদুল রহমান ও ইয়াছিন আকরাম।সাধারন ২নং ওয়ার্ডে (৪জন)- রূপক কুমার সেন, শাহদাদ হোসেন, সঞ্জীব কুমার দাশ ও মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম বিপ্লব।

সাধারন ৩নং ওয়ার্ডে (৫ জন)- আবু ছৈয়দ, ওজি গিয়াস উদ্দিন আজাদ, সাংবাদিক গোলাম কাদের, আবেদুজ্জমান আমিরী ও মোহাম্মদ আলমগীর।সাধারন ৪নং ওয়ার্ডে (৫জন)- গোফরান রানা, শেখ বেলাল উদ্দিন, এম এ আবছার, মুহাম্মদ শফিকুল ইসলাম ও মো: ইব্রাহিম।সাধারন ৫নং ওয়ার্ডে (৪জন)- এম খোরশেদ গনি, মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম, জসিম উদ্দিন, ও মজিবুর রহমান।

সাধারন ৬নং ওয়ার্ডে (৬জন)- শফিউল আলম, রুবেল দাশ বাবু, আবুল কাশেম, রূপসী দাশ, মো: আবুল মনসুর ও জাহাঙ্গীর আলম চৌধূরী।

সাধারন ৭নং ওয়ার্ডে (৪জন)- কামাল উদ্দিন বেলাল, মো: হাসান মুরাদ, কামরুল ইসলাম ও মো: নাজিম।সাধারন ৮নং ওয়ার্ডে (৩জন)- আবদুল মন্নান, ছরোয়ার কামাল মোছলেম উদ্দিন রাজীব ও মোস্তাক আহমদ।

সাধারন ৯নং ওয়ার্ডে (৬ জন)- শেখ সাইফুল ইসলাম, খলিলুজ্জমান আমিরী শিবলু, ইলিয়াছ চৌধূরী ভুট্টো, মো: সোহেল, আহমদ নুর চৌধুরী ও মৌলনা আবদুল মাবুদ আলকাদের।

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় আগুনে পুড়ে বৃদ্ধার করুন মৃত্যু

ঝিনাইদহের  শৈলকুপায় আগুনে পুড়ে বৃদ্ধার করুন মৃত্যু

সম্রাট হোসেন, ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার ত্রিপুরাকান্দি গ্রামে আজ রাত ৮ টার সময় আগুনে পুড়ে মৃত সৈয়দ আলীর স্ত্রী আছিরন (৮৫) নামের এক বৃদ্ধার করুন মৃত্যু হয়েছে। রান্না ঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত বলে শৈলকুপা ফায়ার সার্ভিস ধারণা করছে।আগুন লাগার সময় অসুস্থ বৃদ্ধা মহিলা বারান্দায় ঘুমিয়েছিল। সে হাটা চলা করতে পারতো না৷ পরিবারে অন্য সদস্যরা প্রাণ বাঁচাতে দৌড়ে ঘর থেকে বের হতে পারলে সে অসুস্থ থাকার কারণে হাটা চলা করতে পারতো না তাই বের হতে পারে নি। খবর পেয়ে শৈলকুপা ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট ঘটনা স্থানে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেন ও লাশ উদ্ধার করেন।

সুন্দরবন প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে লিডার্স এর নির্বাহী প‌রিচালক‌কে সংবর্ধনা প্রদান

সুন্দরবন প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে  লিডার্স এর নির্বাহী প‌রিচালক‌কে সংবর্ধনা প্রদান

হুদা মালী শ্যামনগর প্রতিনিধি:  স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড-চ‌্যা‌নেল আই এর'এ্যাগ্রো অ্যাওয়ার্ড' ২০২০ পুরস্কারে ভূষিত হ‌য়ে‌ছে বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা লিডার্স।
এই পুরষ্কা‌রে ভূ‌ষিত হওয়ার জন‌্য লিডার্স এর নির্বাহী প‌রিচালক মোহন কুমার মণ্ডল‌ কে লিডাসের নিজস্ব কাযলয়ে ১৭ জানুয়া‌রি ২০২১ সংবর্ধনা প্রদান ক‌রে‌ন সুন্দরবন প্রেস ক্লাব । সংবর্ধনা অনুষ্ঠা‌নে সভাপতিত্বে করেন সুন্দরবন প্রেস ক্লাবের সভাপতি আয়ূব আলী, প্রধান অতিথি উপ‌স্থিত ছি‌লেন সুন্দরবন প্রেস ক্লাবের উপদেষ্টা এস এম জাহাঙ্গীর আলম, সুন্দরবন প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক বিলাল হোসেন,সাংগঠনিক সম্পাদক মাছুম বিল্লাহ, প্রচার সম্পাদক নজরুল ইসলাম,কাযনিবাহি সদস্য আব্দুল্লাহ আল মামুন,সাংবাদিক মনিরুজ্জামান (জুলেট), ত্রিদীপ সরদার,সহ ও লিডার্স প‌রিবা‌রের সকল কর্মীবৃন্দ।

বড়লেখায় "ক" শ্রেণীর গৃহহীন ৫০ টি পরিবারের মাঝে দুই শতক করে জমি রেজিস্ট্রি সম্পন্ন হয়

বড়লেখায় "ক" শ্রেণীর গৃহহীন ৫০ টি পরিবারের মাঝে দুই শতক করে জমি রেজিস্ট্রি সম্পন্ন হয়

আকরাম হোসাইন মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলায় মুজিববর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে "ক" শ্রেণীর গৃহহীনদের( ভূমিহীন ও গৃহহীন) পুনর্বাসনের লক্ষ্যে ৫০ টি পরিবারের মাঝে দুই শতক করে জমির কবুলিয়ত রেজিস্ট্রি সম্পন্ন হয় আজ।
উপজেলা ভূমি অফিস ও সাব রেজিস্ট্রার অফিস, বড়লেখার সহায়তায় এ কাজ সম্পন্ন করা হয়।এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ, বড়লেখার চেয়ারম্যান জনাব সোয়েব আহমেদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বড়লেখা মোঃ শামীম আল ইমরান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) নুসরাত লায়লা নীরা,সাব রেজিস্ট্রার, বড়লেখা মোঃ রফিকুল ইসলাম,  উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ উবায়েদ উল্লাহ খান, এপিপি এড. গোপাল দত্ত, দক্ষিণ ভাগ দক্ষিণ ইউপির চেয়ারম্যান মোঃ আজির উদ্দিন, উত্তর শাহবাজপুর ইউপির চেয়ারম্যান আহমদ জুবায়ের লিটন, সদর ইউপির চেয়ারম্যান মোঃ সিরাজ উদ্দিন, দক্ষিণ ভাগ উত্তর ইউপির চেয়ারম্যান মোঃ এনাম উদ্দিন প্রমুখ। উল্লেখ আগামী ২৩ তারিখ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক উপকারভোগীদের গৃহ ও জমির কাগজ হস্তান্তর করা হবে।

বড়লেখার সুজানগর আইডিয়াল মাদ্রাসায় ১৪ জন কুরআনে হাফেজ কে পাগড়ী প্রদান

বড়লেখার সুজানগর আইডিয়াল মাদ্রাসায় ১৪ জন কুরআনে হাফেজ কে পাগড়ী প্রদান

আকরাম হোসাইন মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার সুজানগর আইডিয়াল মাদ্রাসায় ১৭/০১/২০২১ইং: মাদরাসার হলরুমে মাদ্রাসার চেয়ারম্যান মাওঃ আমিনুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং প্রিন্সিপাল মাওঃ লোকমান হোসাইন ও সহঃ শিক্ষক মাওঃ হুসাইন আহমদের যৌথ সঞ্চালনায় পাগড়ী প্রদান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে হিফজ বিভাগের ১৪ জন ছাত্রের মাথায় পাগড়ী পরিয়ে দেন।প্রধান অতিথি আল্লামা আবু তায়্যিব সৎপুরী সাহেব ও প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন মাওলানা আবু তায়্যিব সৎপুরী।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন তানযীমুল উম্মাহ মাদরাসা আল আরকাম শাখা ঢাকা এর প্রধান শিক্ষক মাওঃ হাফেজ ক্বারী মাহমুদুল হাসান আযমী, গাংকুল ফাযিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ এফ.এইচ.এম ইউসূফ আলী,সুজানগর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান জনাব নছিব আলী, সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জনাব এমাদুল ইসলাম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জনাব ফয়সল আহমদ,মাদ্রাসার ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুর রহমান সমছ,সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ছাবির আহমদ,স্যোশাল ইসলামী ব্যাংকের ব্যবস্থাপক জনাব নিজামুল হক, সাবেক প্রিন্সিপাল মাওঃ মুজাহিদুল ইসলাম।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন হিফজ বিভাগের উস্তাদ হাফিজ কামরুল ইসলাম, হাফিজ হাসান জামিল, হাফিজ লুৎফুর রহমান, সহকারী শিক্ষক হাফিজ সাইফুল আলম প্রমূখ।

'মুনাজাতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়'।

রাণীশংকৈল পৌর নির্বাচনে কাউন্সিলর পদপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন রকি

রাণীশংকৈল  পৌর নির্বাচনে  কাউন্সিলর  পদপ্রার্থী  হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন রকি

কলিন চন্দ্র ( ইতু) রায়,ঠাকুরগাঁও   প্রতিনিধি :আজ ১৭জানুয়ারি রবিবার রাণীশংকৈল পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মোঃ শহিদুল ইসলাম রকি মনোনয়নপত্র জমা দেন। আসছে ১৪ ফেব্রুয়ারী রবিবার আসন্ন রানীশংকৈল পৌরসভা নির্বাচন ২০২১ উপলক্ষে ৪ নং ওয়ার্ডের  কাউন্সিলর প্রার্থীতার জন্য উপজেলা নির্বাচন অফিসার আঁখি সরকারের হাতে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন শহীদুল ইসলাম রকি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন  ৪ নং ওয়ার্ডের এলাকাবাসী। শহীদুল ইসলাম রকি বলেন,
রাণীশংকৈল পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ড কে সময় উপযোগী উন্নয়নের মাধ্যমে একটি আদর্শ ওয়ার্ড হিসেবে রূপান্তরিত করা  ও এলাকার সকল মানুষের নৈতিক, মানবিক, সামাজিক ও সাংবিধানিক অধিকারের পক্ষে আলোচনার মাধ্যমে তা সুনিশ্চিত করা সেই সাথে পৌরশহরের উন্নয়নের মূল মন্ত্র দারিদ্র দূরীকরণ ও বেকারত্ব দূরীকরণের জন্য কাজ করা।  এই কথা বলে তিনি সকলের কাছে দোয়া ও আশির্বাদ প্রার্থনা করেছেন।

উল্লেখ্য যে,আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারী চতুর্থ ধাপে রানীশংকৈল পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

মোংলাপোর্ট পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়রকে অভিনন্দন জানিয়ে বিভিন্ন মহলের বিবৃতি

মোংলাপোর্ট পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়রকে অভিনন্দন জানিয়ে বিভিন্ন মহলের বিবৃতি

মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃ  মোংলাপোর্ট পৌরসভার নব নির্বাচিত মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুর রহমানকে বিভিন্ন সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানের নেতৃবৃন্দ অভিনন্দন জানিয়ে বিবৃতি প্রদান করেছেন। বিবৃতিদাতারা হলেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার এমপি, বাগেরহাট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ কামরুজ্জামান টুকু, বাগেরহাট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হেমায়েত উদ্দিন ভূঁইয়া, বাগেরহাট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক সরদার নাসির উদ্দিন, মোংলা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ গোলাম সরোয়ার, সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজনথর সভাপতি ফ্রান্সিস সুদান হালদার, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও মোংলা প্রেসক্লাব সভাপতি এইচ এম দুলাল, সুশাসনের জন্য নাগরিক সুজনথর সাধারণ সম্পাদক এবং উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাংবাদিক মোঃ নূর আলম শেখ, মোংলা প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক মোঃ হাসান গাজী, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) এর নেতা নাজমুল হক ও মোল্লা আল মামুন, সর্বদলীয় সম্প্রীতি উদ্যোগ মোংলার নেতা মোঃ ইস্রাফিল হোসেন, শফিকুল ইসলাম সোহাগ, শেখ শাকির হোসেন, মোঃ জাহিদ হোসেন, আব্দুর রশিদ হাওলাদার প্রমূখ। বিবৃতি নেতৃবৃন্দ নব নির্বাচিত পৌর মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুর রহমানকে অভিন্দন জানিয়ে আশা প্রকাশ করে বলেন স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর বছরে রণাঙ্গণের সৈনিক নব নির্বাচিত পৌর মেয়র শেখ আব্দুর রহমানের নেতৃত্বে মোংলা পোর্ট পৌরসভা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় শান্তি-সম্প্রীতি ও সহাবস্থানের মাধ্যমে পরিচালিত হবে।

মোংলা পৌর নির্বাচনে নৌকার বিজয়ে আওয়ামীলীগের আরো দায়িত্ব বেড়ে গেলো

মোংলা পৌর নির্বাচনে নৌকার বিজয়ে আওয়ামীলীগের আরো দায়িত্ব বেড়ে গেলো

মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃ মোংলা পোর্ট পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুর রহমানের বিজয়ে আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীদের দায়িত্ব আরো বেড়ে গেলো। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং আওয়ামীলীগ প্রতিহিংসার রাজনীতি পছন্দ করে না। নির্বাচনের পরে মনে করবেন সবাই ভোট দিয়েছে। কেউ প্রতিহিংসার রাজনীতি করবেন না। রাস্ট্রীয় ক্ষমতায় শেখ হাসিনা। তাঁর ভাবমূর্তি উজ্জ্বল রাখতে হবে। নির্বাচন পরবর্তী পরিবেশ-পরিস্থিতি ভালো রাখতে হবে। ১৭ জানুয়ারি রবিবার দুপুরে দলীয় কার্য্যালয়ে মোংলা উপজেলা ও পৌর আওয়ামীলীগের আয়োজনে নৌকা প্রতীকের নব নির্বাচিত মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুর রহমানের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় খুলনা সিটি কপোর্রেশনের মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক একথা বলেন।

রবিবার দুপুর ১টায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সুনীল কুমার বিশ্বাস। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন বাগেরহাট জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি অধ্যাপক মোল্লা আব্দুর রউফ, উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ ইকবাল হোসেন ও উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিসেস কামরুন্নাহার হাই। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন সংবর্ধিত অতিথি নৌকা প্রতীকের নব নির্বাচিত পৌর মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুর রহমান। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সাবেক পৌর মেয়র সেখ আব্দুস সালাম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইব্রাহিম হোসেন, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ শেখ কামরুজ্জামান জসিম, আওয়ামীলীগ নেতা মাহমুদ হাসান ছোটমনি, তালুকদার আক্তার ফারুক, কাজী গোলাম হোসেন বাবলু, উৎপল মন্ডল, সাখাওয়াত হোসেন মিলন, ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা মোঃ তারিকুল ইসলাম, শেখ কবির হোসেন, মোঃ ইস্রাফিল হোসেন হাওলাদার, গাজী আকবর হোসেন, নারজিনা বেগম নাজিন, মহিলা আওয়ামীলীগ নেত্রী দরিয়া তালুকদার প্রমূখ। প্রধান অতিথি খুলনা সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক আরো বলেন পরিক্ষীত লোক আদর্শচ্যুত হবে না। যারা নৌকাকে মা হিসেবে দ্যাখেনা তাদের দরকার নেই। যারা নির্বাচিত হয়েছেন তাদেরকে ৫ বছর পর জনগনের কাছে জবাবদিহি করতে হবে। তাই ১বছরের মধ্যে মানুষের দৃষ্টিভংগি পরিবর্তন করে উন্নয়নের চাবিকাঠিতে পরিণত হতে হবে। সংবর্ধিত অতিথি নবনির্বাচিত পৌর মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুর রহমান বলেন পৌরবাসীর কাছে ভোট ভিক্ষা করে জয়লাভ করেছি। মানুষের আশা পূরণ করে যেন নৌকার সম্মান রাখতে পারি সেই জন্য সকলের সহযোগিতা চাই। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে নব নির্বাচিত সকল কাউন্সিলরবৃন্দ উপস্থিত ছিলে।

ধর্ষণরোধে বিচারের সংস্কৃতি চাই : মোমিন মেহেদী

ধর্ষণরোধে বিচারের সংস্কৃতি চাই : মোমিন মেহেদী

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ  নতুনধারা বাংলাদেশ এনডিবির চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী বলেছেন, ধর্ষণরোধে বিচারের সংস্কৃতি চাই। আমাদের দেশে কেবল আইন আছে কিন্তু তার যথাযথ প্রয়োগ না থাকায় অপরাধ-দুর্নীতি বৃদ্ধির পাশাপাশি নির্যাতন-ধর্ষণ বেড়েই চলছে।

১৭ জানুয়ারি বিকেল ৫ টায় তোপখানা রোডস্থ ধারার কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত 'ধর্ষণরোধে বিচারের সংস্কৃতি' শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি উপরোক্ত কথা বলেন।  সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন প্রেসিডিয়াম মেম্বার ও বাংলাদেশ কৃষক ফেডারেশনের সভাপতি কৃষকবন্ধু আবদুল মান্নান আজাদ। বক্তব্য রাখেন সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান শান্তা ফারজানা, প্রেসিডিয়াম মেম্বার আলতাফ হোসেন রায়হান, অধ্যাপক শুভঙ্কর দেবনাথ, মো. আবুল হোসেন, হাসান চৌধুরী, লায়ন সাবিত্রী দাস, মহাসচিব নিপুন মিস্ত্রী, সাজিয়া আহমেদ প্রমুখ।  

এসময় মোমিন মেহেদী আরো বলেন, নতুন প্রজন্মের প্রতিনিধিরা অন্যায়ের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ; ধর্ষণ-নির্যাতনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ; কিন্তু পুলিশ-প্রশাসন নির্যাতক-ধর্ষকের দালাল হিসেবে কাজ করায় অন্যায়-অপরাধ ক্রমশ বেড়ে যায়।

রাজাপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন, প্রতারনা, চেক প্রতারনা মামলার ৩ আসামি গ্রেপ্তার

রাজাপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন, প্রতারনা, চেক প্রতারনা মামলার ৩ আসামি গ্রেপ্তার

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন স্টাফ রিপোর্টার ঝালকাঠির রাজাপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন, প্রতারনা, চেক প্রতারনা আইনে পৃথক পৃথক মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত তিন পলাতক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার দিবাগত রাতে তাদের নিজ নিজ এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো উপজেলার চরপালট এলাকার সৈয়দ আলী খলিফার ছেলে মো. ইলিয়াচ খলিফা, বাগড়ি এলাকার মো. হাতেম আলীর ছেলে মো. খলিলুর রহমান, পুটিয়াখালী এলাকার মো, কাশেম আলী হাওলাদারের ছেলে মো. শহিদুল ইসলাম। রাজাপুর থানা পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আবুল কালাম আজাদ বলেন. গ্রেপ্তারকৃতদের রবিবার সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

রাজাপুরে গরু চোর সন্দেহে ৩ যুবক আটক

রাজাপুরে গরু চোর সন্দেহে ৩ যুবক আটক

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন স্টাফ রিপোর্টার ঝালকাঠি রাজাপুরে সদর ইউনিয়নের বড়কৈবর্তখালী গ্রামের মিলবাড়ি বাজার থেকে গরু চোর সন্দেহে ৩ ব্যক্তিকে এলাকাবাসী আটক করেছে। শনিবার গভীর রাতে মিলবাড়ি বাজার এলাকার এক বাড়িতে গরু চুরির প্রস্তুতিকালে তাদের ধাওয়া দিয়ে এলাকাবাসী আটক করে রাতেই পুলিশে সোর্পদ করে বলে স্থানীয়রা দাবি করে জানান। পুলিশের দেয়া তথ্য মতে আটককৃতরা হলো- নলছিটি থানার কান্দিপুর গ্রামের মৃত ফেরদাউস সরদারের ছেলে তুষার সরদার (২০), বাখেরগঞ্জ থানার ছড়ারি গ্রামের জাকির হাওলাদারের ছেলে বাদশা হাওরাদার (২৫), মুলাদি থানার নন্দির বাজার গ্রামের মনির সরদারের ছেলে সম্রাট সরদার (১৯)। রাজাপুর থানার ওসির তদন্ত আবুল কালাম আজাদ জানান, গরু চুরির প্রস্তুতিকালে গরু চোর সন্দেহে তাদের এলাকাবাসী ধরে পুলিশে সোর্পদ করেছে। তদন্ত করে বিষয়টি দেখা হচ্ছে, আটকৃতদের বিরুদ্ধে মামলা প্রস্তুতি চলছে। পরে তাদের আদালতে প্রেরন করা হবে।

টাঙ্গাইলের মধুপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে কলেজ ছাত্রীর আত্বহত্যা

টাঙ্গাইলের মধুপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে কলেজ ছাত্রীর আত্বহত্যা

আঃ হামিদ মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের মধুপুর পৌর এলাকার ৭নং ওয়ার্ডের পুন্ডুরা (পুর্বপাড়া) এলাকার মৃত মোনছের আলীর মেয়ে শারমীন সুলতানা মীম নামের এক কলেজ ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্ব হত্যা করেছে বলে জানা যায়।রবিবার(১৭ জানুয়ারী) আনুমানিক  সকাল ১১ টায়  এ ঘটনা ঘটে। জানা জায়, মীম মধুপুর শহীদ স্মৃতী কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, বাড়ীর সবাই সকালের খাবার খেয়ে মীমের মা শরিফা বেগম মীমকে বাড়ীতে রেখে তার ছোট ছেলে তাওহীদের জন্য খাবার  নিয়ে পার্শবর্তী একটি নুরানী মাদ্রাসায় যায়। মাদ্রাসা থেকে এসে দেখে মীম তার রুমের খাটের উপড় সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলে  আছে। তাকে তাড়া তাড়ি তার মা এবং নানী খাটের উপরের সিলিং ফ্যান থেকে ঝুলন্ত অবস্হায় ওড়না
কেটে নামালে ততক্ষণে সে মারা যায় বলে প্রত্যক্ষ দর্শীরা জানান। তার মৃত্যুর কারন জনা যায় নি।

ইউজিসি প্রতিবেদনে গবেষণা শূণ্য জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়

ইউজিসি প্রতিবেদনে গবেষণা শূণ্য জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়

জবি প্রতিনিধি:
সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে ইউজিসির বার্ষিক প্রতিবেদন ২০১৯। প্রতিবেদন অনুযায়ী ২০১৯ সালে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) গবেষণা সংখ্যা শূণ্য। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মিলছে ভিন্ন তথ্য। বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসেবে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে মোট গবেষণা প্রকল্প সংখ্যা ১৪৩ । গত ৬ জানুয়ারি প্রকাশিত ইউজিসি ৪৬তম বার্ষিক প্রতিবেদনে এ তথ্য দেওয়া হয়।

জবি ছাড়াও আরও ১৯টি বিশ্ববিদ্যালয়কে গবেষণা শূণ্য দেখানো হয়েছে। তবে ইউজিসির এমন আজগুবি তথ্য বিব্রত বোধ করছেন জবির শিক্ষক শিক্ষার্থীরা। ২০১৯ সালে বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে প্রকাশিত বিশেষ জার্নালে দেখা যায়, ২০১৮ - ১৯ শিক্ষাবর্ষে জবির গবেষণা খাতে বরাদ্দ ছিলো ১ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা। একই শিক্ষাবর্ষে মোট বাস্তবায়ন হওয়া প্রকল্প ছিলো ১৪৩ টি। এছাড়াও গবেষণাধর্মী গ্রন্হ প্রকাশ পেয়েছে ১০টি। আন্তর্জাতিক প্রকাশনা আছে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. সুরঞ্জন কুমার দাসের ১টি, একই বিভাগের অধ্যাপক ড. নূরে আলম আবদুল্লাহর ২ টি, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. অরুণ কুমার গোস্বামীর ১টি, রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. আবুল কালাম মোঃ লুৎফুর রহমানের ২টি, একই বিভাগের ড. মোঃ শাহাজানের ৩টি।

এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, মোট অধ্যাপকের সংখ্যা ৯৬ জন। যার মধ্যে পিএইসডি শেষ করেছেন ৯৪ জন। বাকি ২জন পিএইসডি অধ্যায়নরত। এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে এমফিল ও পিএইচডি শিক্ষার্থী সংখ্যা যথাক্রমে, ৩৫ ও ২৮। গবেষণা দপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক ড. নূর আলম আবদুল্লাহ বলেন, আমাদের ১৪৩টা গবেষণা বাস্তবায়িত হয়েছে ২০১৯ সালে। অধ্যাপকদের মধ্যে ২ জন ছাড়া সবার পিএইচডি শেষ। তবে তথ্যের গড়মিলের বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারবো না, ঐসময় আমি গবেষণা দপ্তরের দায়িত্বে ছিলাম না।

এবিষয়ে ইউজিসির সদস্য ও প্রতিবেদন সম্পাদনা পরিষদের অধ্যাপক ড. মোঃ সাজ্জাদ হোসেন বলছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের অসহযোগীতায় এর জন্য দায়ী। তিনি বলেন, জগন্নাথের মতো বিশ্ববিদ্যালয়ে অবশ্যই গবেষণা থাকবে। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে চিঠি দিয়ে তথ্য আহ্বান করি। অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ের বারবার যোগাযোগ করা হলেও সাড়া মেলে না। আমাদের চেষ্টা থাকে জুন-জুলাইয়ের মধ্যে প্রতিবেদন প্রকাশ করা। কিন্তু এ ধরণের সীমাবদ্ধতার কারণে সম্ভব হয় না। আগামীতে অনলাইনে অটোমেশনের চিন্তাভাবনা আছে আমাদের, যাতে এধরণের তথ্য বিভ্রাট মুক্ত থাকা যায়।

অসহযোগিতার বিষয়ে জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, তাদের লেখা উচিত ছিলো তথ্য পাওয়া যায়নি। আমাদের গবেষণা চালু ছিলো না আগে, এমফিল-পিএইসডি প্রোগ্রাম চালুর পর থেকে আমাদের গবেষণা শুরু হয়। ইউজিসি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থায়নে শিক্ষকদের গবেষণা প্রকল্প দেওয়া হয়েছে, অনেক পাবলিকেশন হয়েছে। তবে ১৯ সালের পরে আমাদের গবেষণা, প্রকাশনা আরও বেড়েছে। যেটা হয়েছে ইউজিসির সাথে তথ্য গ্যাপ হয়েছে।

কিশোরগঞ্জে মুজিব বর্ষের রঙিন বাড়ি পাচ্ছে গৃহহীনরা

কিশোরগঞ্জে মুজিব বর্ষের রঙিন বাড়ি পাচ্ছে গৃহহীনরা

মোঃ লাতিফুল আজম,নীলফামারী প্রতিনিধি:নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে রঙিন পাকা বাড়ি পাচ্ছে গৃহহীনরা। ১শ'৪০টি পরিবারের জন্য ভুমি বন্দোবস্তসহ বাড়ি নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। বরাদ্দ প্রাপ্তরা তাদের স্বপ্নের বাড়িতে বসবাসের জন্য মুখিয়ে আছেন। এসব রঙিন ঘরে ঢুকতে গৃহহীনদের আর তর সইছেনা। 
সরেজমিনে জানা যায়, উপজেলার নিতাই, বাহাগিলী ও চাঁদখানা ইউনিয়নের গৃহহীনদের জন্য তৈরী করা হয়েছে এসব দৃষ্টিনন্দন বাড়ি। বরাদ্দ প্রাপ্তরা কেউ থাকেন পলিথিন মোড়ানো ঝুপড়িতে, কেউ অন্যের বাড়িতে বা কোন প্রতিষ্ঠানের বারান্দায়। এসব রঙিন বাড়ি বরাদ্দ পাওয়া কয়েকজন গৃহহীন জানান তাদের স্বপ্ন বাস্তবায়নের রুপকথা। বাহাগিলি ইউনিয়নের দাসপাড়া গ্রামের স্বামী পরিত্যক্তা তপিজোন বেগম, নিতাই ইউনিয়নের কাছারীপাড়া গ্রামের শারীরিক ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ভিক্ষুক চিনু বালা ও চাঁদখানা ইউনিয়নের বগুলাগাড়ী গ্রামের বিধবা জেন্নাতোন বলেন, হামরা পাকা বাড়িত থাকমো কোনদিন কল্পনাও করি নাই। জরাজীর্ণ কুঁড়ে ঘরের ওপর পলিথিন দিয়ে থাকি। ঠিকমত ভাত-কাপড় জোগাড় করতে পাই না। বর্ষাকালে সীমাহীন দুর্ভোগে কোন রকমে রাত কাটাই। পাকা বাড়িত থাকাতো দূরের কথা ভিতরেও ঢুকি নাই। এখন হামরা নিজের পাকা বাড়িত থাকমো। যায় হামার থাকার কষ্ট দূর করে দেয়ছে। আল্লাহ যেন তার মঙ্গল করেন। বরাদ্দকৃত বাড়িতে পদার্পণের বার্তায় গৃহহীনরা এখন আনন্দে ভাসছেন। নিতাই ৪০টি, বাহাগিলী ৬০টি ও চাঁদখানা ইউনিয়নে ৪০টি বাড়ি গৃহহীনদের জন্য নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী নির্মাণকৃত এসব বাড়ি পরিদর্শনে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার রোকসানা বেগম জানান, প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ হতে গৃহহীন ১৪০টি পরিবারকে ২শতক খাস জমি বন্দোবস্তসহ বাড়ি নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে ভিক্ষুক, প্রতিবন্ধী, বিধবা, স্বামী পরিত্যক্ত ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার বরাদ্দ পেয়েছেন। মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ২৩জানুয়ারী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গৃহহীনদেরকে এসব বাড়ি উপহার দিবেন।

হয়রানির শেষ নেই তেঁতুলিয়া রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের

হয়রানির শেষ নেই তেঁতুলিয়া রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের

তেঁতুলিয়া প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড়ের তেতুলিয়া রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের কর্মকর্তাদের খারপ আচরনে ক্ষিপ্ত গ্রাহকরা। 
দুপুর ২ টায় রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক তেতুলিয়া শাখায়  টাকা তুলতে গিয়ে ব্যাংক এর এক কর্মকর্তা জানান তাদের কাছে টাকা নেই, সোনালী ব্যাংক থেকে টাকা নিয়ে আসবে তারপর চেক হতে টাকা উঠাতে পারবেন। 

রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক এর এক গ্রাহক জানান দুপুরে এসেছি টাকা তুলে কিন্তুু এখন সময় ৩ টা এখন পর্যন্ত টাকা উঠাতে পারেনি, যে যার মতো করে আসছে,মনে হয় তাদের কোনো কাজ নেই,  ব্যাংক  এর সময় তারা গ্রাহকদের সেবা না দিয়ে তারা বাহিরে নিজেদের ব্যক্তিগত কাজে সময় পার করেন তারা।
ব্যাংক কর্মকর্তার কাছে জানতে চাইলে তারা এক পর্যায় গ্রহকদের সাথে খারাপ আচরন করে বলে জানিয়েছেন সেই গ্রাহক।
দুপুর ২ টা পর রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক  একজন কর্মকর্তা ছাড়া দেখা মিলে নাই অন্য কোনো কর্মকর্তার। 

ফুঠফোনে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের তেতুলিয়া শাখার ব্যবস্থাপক ২ঃ৩০ মিনিটে জানান আমাদের ব্যাংক টাকা নাই তাই গ্রহকদের টাকা দিতে একটু সময় লাগছে।

নড়াইলের লোহাগড়া দুই সন্তানের জননী কে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ

নড়াইলের লোহাগড়া দুই সন্তানের জননী কে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ




মো: আজিজুর বিশ্বাস,স্টাফ  রিপোর্টার নড়াইলঃ নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার  মুচড়া গ্রামের স্বামী পরিত্যক্ত দুই সন্তানের জননী কে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
 পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,লোহাগড়ার উত্তর মুচড়া গ্রামের মো: বেলায়েত, এর ছেলে মো: সোহাগ,(৩২) ও একই গ্রামের স্বামী পরিত্যক্ত মেয়ে কে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করে আসছিল। দীর্ঘদিন ধর্ষণের পরে ওই নারী কে বিয়ে করে নাই সোহাগ। এই ঘটনার পরে ওই নারীবাদী হয়ে লোহাগাড়া থানায় ১৪/১/২০২১ তারিখ : নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনের একটি মামলা দায়ের করেন।

এরপর মামলার লোহাগড়া থানার সাব-ইন্সপেক্টর এস,আই আলমগীর হোসেনের নেতৃত্বে আসামিকে গ্রেপ্তার করেন।

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সৈয়দ আশিকুর রহমানের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, ভিকটিমের ডিএনএ পরীক্ষা করানো হয়েছে। এবং আসামি সোহাগকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

তেলের ড্রাম বোঝাই ভ্যান উল্টে চালক নিহত হলেন দৌলতখান উপজেলায়

তেলের ড্রাম বোঝাই ভ্যান উল্টে চালক নিহত হলেন দৌলতখান উপজেলায়

মোঃ আওলাদ হোসেন,জেলা প্রতিনিধি ভোলা,(দৌলতখান) ভোলার দৌলতখানে তেলের ড্রাম বোঝাই ভ্যান উল্টে ড্রামের নিচে চাপা পড়ে আবু বক্কর সিদ্দিক নামের এক শ্রমিকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। এঘটনায় দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে ডাক্তার লাঞ্ছিতসহ বিক্ষোভ করেছে স্থানীয়রা। দফায় দফায় বৈঠকের পর বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

গত শুক্রবার রাত ৯টায় ভোলা জেলার দৌলতখান উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের বটতলা নামক স্থানে এঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানান, ঐ সময় প্রতিদিনের ন্যায় মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক স্থানীয় তেল ব্যবসায়ী মোঃ হাকিমের তেল বোঝাই দুটি ড্রাম ভ্যানে করে মোঃ মিলনের দোকানে নিয়ে যাচ্ছিলো। এসময় বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধে উঠার সময় ভ্যান উল্টে তেল বোঝাই ড্রাম ভ্যান চালক সিদ্দিকের শরীরের ওপর পড়ে। এতে সে গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে দৌলতখান হাসপাতালে ভর্তি করেন। হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার মোঃ হাসান মাহমুদ তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য ভোলা নেয়ার পরামর্শ দেন। তবে রাত পৌন ১১টায় এ্যাম্বুলেন্সে করে ভোলায় নেওয়ার সময়ই তার মৃত্যু হয়।

 

এঘটনায় স্থানীয়রা ডাক্তারদের বিরুদ্ধে কর্তব্য অবহেলার অভিযোগ এনে বিক্ষোভ করে। এক পর্যায়ে উত্তেজিত জনতা ডাক্তারদের লাঞ্চিত করে। খবর পেয়ে দৌলতখান থানা পুলিশ এবং পৌর মেয়রসহ আওয়ামী লীগের নেতারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। তবে সবাইকে ম্যানেজ করেই দ্রুত লাশ দাফনের চেষ্টা চালানো হয়। ব্ষিয়টি রাতে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করা হলে এবং সাংবাদিকদের তৎপরাতায় আইনি প্রক্রিয়া ছাড়া লাশ দাফন প্রক্রিয়া বন্ধ হয়ে যায়। পরে নিহতের পরিবার জেলা প্রশাসক'র কাছে আবেদন করলে ময়নাতদন্ত ছাড়া লাশ দাফনের অনুমতি নিয়ে লাশ দাফন করে।

এদিকে স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, নিহত আবু বক্কর সিদ্দিক স্থানীয় তেল ব্যবসায়ী মোঃ হাকিমের সাথে কাজ করে। সে ব্লাকের তেল ক্রয়করে এভাবেই বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করে আসছে। ওই তেল অপর ব্যবসায়ী মিলনের কাছে বিক্রি করে। তবে এঘটনায় ব্যপক তোলপাড় শুরু হলে বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার জন্য চেস্টা চালায়।

এ বিষয়ে তেল ব্যবসায়ী মোঃ হাকিম মুঠোফোনে বলেন,আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা ষড়যন্ত্র করছে। আমি ব্লাকের তেলের ব্যবসা করি না। নিহত আবু বকর সিদ্দিককে জীবনেও দেখিনি। তাকে আমি চিনিই না।

অপরদিকে ভোলার দৌলতখান থানার ওসি মোঃ বজলার রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, নিহতের পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় জেলা প্রশাসক স্যার ময়নাতদন্ত ছাড়া লাশ দাফনের অনুমতি প্রদান করেন। হাকিম বিভিন্ন স্থান থেকে তেল ক্রয় করে বিক্রি করে। ভ্যানে করে তেল মিলনের দোকানে পাঠাচ্ছিলো। এসময় দুর্ঘটনা ঘটে। তবে ডাক্তার লাঞ্চিতের বিষয় কোন লিখিত অভিযোগ কেউ দেয়নি।

এদিকে দৌলতখান উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার মোঃ আনিসুর রহমান বলেন, আমরা পৌর মেয়র ও উপজেলা চেয়ারম্যানসহ সভা করেছি। ডাক্তারের অবহেলা ছিলো কিনা তা খোঁজ নেয়ার জন্য। তবে রাতে নিহতের স্বজন ও স্থানীয়রা কয়েক দফায় বিক্ষোভ করেছে। তারা ডাক্তার হাসান মাহমুদকে ঘিরে রেখে ধাক্কাধাক্কি করেছে।

দৌলতখানে ফারহান-৫ লঞ্চের ধাক্কায় পা হারালেন কোহিনূর

দৌলতখানে ফারহান-৫ লঞ্চের ধাক্কায় পা হারালেন কোহিনূর

মোঃ আওলাদ হোসেন, জেলা প্রতিনিধি ভোলা (দৌলতখান) ভোলা থেকে ঢাকা যাওয়ার জন‌্য লঞ্চঘাটে এসে পা হারালেন কোহিনুর বেগম (৩৮) নামের এক নারী। ফারহান-৫ লঞ্চের চাপায় তার বাম পা দ্বিখণ্ডিত হয়েছে।

আহত ওই নারী ভোলার দৌলতখান উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ফরাজী বাড়ির মো. সালাউদ্দিনের স্ত্রী।

স্থানীয়রা ওই নারীকে উদ্ধার করে প্রথমে দৌলতখান উপজেলা স্বাস্থ‌্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। সেখান থেকে চিকিৎসকরা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন‌্য ভোলা সদর হাসপাতালে পাঠান।শনিবার রাত পৌনে ৯টার দিকে দৌলতখান লঞ্চঘাটে এ ঘটনা ঘটে।

দৌলতখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বজলার রহমান ঘটনার সত‌্যতা নিশ্চিত করেছেন।

বাড়ি যাওয়া হল না খাদিজা বেগমের

বাড়ি যাওয়া হল না খাদিজা বেগমের

মোঃ লাতিফুল আজম,নীলফামারী প্রতিনিধি: নীলফামারী কিশোরগঞ্জ উপজেলায়  ট্রলির ধাক্কায় খাদিজা বেগম (৪০)নামে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৭টায়  ঘটনাটি ঘটে উপজেলার বাহাগিলী ইউনিয়নের জুম্মা পাড়ার অদুরে বিএম কলেজের সামনে।  তিনি ওই ইউনিয়নের দক্ষিণ বাহাগিলী হুরকা পাড়া গ্রামের আবুল কাশেমের স্ত্রী। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, খাদিজা বেগম তারাগঞ্জ থেকে ভ্যানযোগে বাড়ি ফেরার পথে বিএম কলেজের সামনে  ইট বোঝাই ট্রলি,ভ্যানটির পিছনে ধাক্কা দিলে তিনি রাস্তায় ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হন।  গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে ওই রাতে তার মৃত্যু হয়। 
এ ব্যাপারে কিশোরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল আউয়াল ট্রলির ধাক্কায় মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আমাদের সংগ্রাম চলবেই মো:রাসেল মিয়া

আমাদের সংগ্রাম চলবেই মো:রাসেল মিয়া

হতমানে অপমানে নয়, সুখ সম্মানে
বাঁচবার অধিকার কাড়তে
দাস্যের নির্মোক ছাড়তে
অগণিত মানুষের প্রাণপণ যুদ্ধ
চলবেই চলবেই,
আমাদের সংগ্রাম চলবেই।

প্রতারণা প্রলোভন প্রলেপে
হ'ক না আঁধার নিশ্ছিদ্র
আমরা তো সময়ের সারথী
নিশিদিন কাটাবো বিনিদ্র।দিয়েছি তো শান্তি আরও দেবো স্বস্তি
দিয়েছি তো সম্ভ্রম আরও দেবো অস্থি
প্রয়োজন হ'লে দেবো একনদী রক্ত।
হ'ক না পথের বাধা প্রস্তর শক্ত,
অবিরাম যাত্রার চির সংঘর্ষে
একদিন সে-পাহাড় টলবেই।
চলবেই চলবেই
আমাদের সংগ্রাম চলবেই

মৃত্যুর ভর্ৎসনা আমরা তো অহরহ শুনছি
আঁধার গোরের ক্ষেতে তবু তো' ভোরের বীজ বুনছি।
আমাদের বিক্ষত চিত্তে
জীবনে জীবনে অস্তিত্বে
কালনাগ-ফণা উৎক্ষিপ্ত
বারবার হলাহল মাখছি,
তবু তো ক্লান্তিহীন যত্নে
প্রাণে পিপাসাটুকু স্বপ্নে
প্রতিটি দণ্ডে মেলে রাখছি।
আমাদের কি বা আছে
কি হবে যে অপচয়,
যার সর্বস্বের পণ
কিসে তার পরাজয় ?
বন্ধুর পথে পথে দিনান্ত যাত্রী
ভূতের বাঘের ভয়
সে তো আমাদের নয়।

হতে পারি পথশ্রমে আরও বিধ্বস্ত
ধিকৃত নয় তবু চিত্ত
আমরা তো সুস্থির লক্ষ্যের যাত্রী
চলবার আবেগেই তৃপ্ত।
আমাদের পথরেখা দুস্তর দুর্গম
সাথে তবু অগণিত সঙ্গী
বেদনার কোটি কোটি অংশী
আমাদের চোখে চোখে লেলিহান অগ্নি
সকল বিরোধ-বিধ্বংসী।
এই কালো রাত্রির সুকঠিন অর্গল
কোনোদিন আমরা যে ভাঙবোই
মুক্ত প্রাণের সাড়া জানবোই,
আমাদের শপথের প্রদীপ্ত স্বাক্ষরে
নূতন সূর্যশিখা জ্বলবেই।
চলবেই চলবেই
আমাদের সংগ্রাম চলবেই।

বড়লেখায় পাকশাইল গ্রেট ভিশন এসোসিয়েশন এর ক্যালেন্ডারের মোড়ক উন্মোচন

বড়লেখায় পাকশাইল গ্রেট ভিশন এসোসিয়েশন এর ক্যালেন্ডারের মোড়ক উন্মোচন

আকরাম হোসাইন মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার সুপরিচিত সামাজিক উন্নয়নমূলক সংস্থা পাকশাইল গ্রেট ভিশন এসোসিয়েশন এর  উদ্যোগে ২০২১ সালের ক্যলেন্ডারের মোড়ক উন্মোচন সম্পন্ন হয়েছে।

গ্রেট ভিশন এসোসিয়েশন এর সেক্রেটারি জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে এসোসিয়েশন সহ সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান এর পরিচালনায় এবং সহ অফিস সম্পাদক আবুল কালাম কিবরিয়ার কোরআন তেলাওয়াত এর মাধ্যমে অনুষ্টান শুরু হয়।

অনুষ্টানে বিগত দিনের কার্যক্রম এবং সামনের অগ্রযাত্রার পরিকল্পনা তুলে ধরে  বক্তব্য রাখেন সংস্থার সহ সভাপতি ইমন আহমদ। তাছাড়াও দিকনির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন সংস্থার প্রবাসী শুভাকাঙ্ক্ষী নুরুল হাসান,উপদেষ্টা মাওঃমুজিবুর রহমান,উপদেষ্টা ডাঃনোমান উদ্দীন,উপদেষ্টা ফয়ছল আহমদ প্রমুখ ।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংস্থার  উপদেষ্টা জনাব আব্দুল্লাহ আল মাহফুজ সুমন সংস্থার অগ্রযাত্রায় সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে  কাজ করার  আহব্বান জানিয়ে নতুন বছরের-ক্যালেন্ডারের-মোড়ক উন্মোচন  করেন।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন:-

জাহাঙ্গীর আলম (সাধারণ সম্পাদক)
কবির আহমদ (ক্রিড়া সম্পাদক)
আবজল হোসেন (সহ সাংগঠনিক সম্পাদক)
কাউসার আহমদ (ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক)
আলী  হোসেন(সহ ক্রীড়া সম্পাদক)
মাজহারুল হক( সহ অর্থ সম্পাদক)
ফেরদৌস আহমদ রিয়াদ (সহ অফিস সম্পাদক)
এ বি এম আসিফ(সহ পাঠাগার সম্পাদক)
জিয়াদ বিন মাসুদ আরিফ(সহ ছাত্র কল্যাণ সম্পাদক)
জাবির আহমদ(সহ সাহিত্য সম্পাদক)
নাহিদ আহমদ(পাঠাগার সম্পাদক)
মাজেদ আহমদ(সহ প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক)।

কুলাউড়া পৌরসভা নির্বাচনে বিজয়ী নৌকার প্রার্থী সিপার

কুলাউড়া পৌরসভা নির্বাচনে বিজয়ী নৌকার প্রার্থী সিপার

কুলাউড়া প্রতিনিধিঃমৌলভীবাজারের কুলাউড়া পৌরসভার নির্বাচন উৎসবমুখর পরিবেশে সম্পন্ন হয়েছে। দু'একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া ভোট গ্রহণ শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়। 


নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী অধ্যক্ষ সিপার উদ্দিন আহমদ নৌকা প্রতীক নিয়ে ১৫৩ ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হন। তাঁর প্রাপ্ত ভোট ৪ হাজার ৮৩৮। 
তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি স্বতন্ত্র প্রার্থী শাজান মিয়া (জগ) পেয়েছেন ৪ হাজার ৬৮৫ ভোট। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান মেয়র শফি আলম ইউনুছ (নারিকেল গাছ) পেয়েছেন ২ হাজার ৯৯৪ ভোট। বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সাবেক মেয়র কামাল উদ্দিন আহমদ জুনেদ (ধানের শীষ) পেয়েছেন ১ হাজার ৭৭৬ ভোট। 

নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মো. শুকুর মাহমুদ মিয়া ফলাফল ঘোষণা করেন। এসময় সহকারী রিটার্নিং অফিসার মো. আহসান ইকবাল উপস্থিত ছিলেন।

মোট ভোটার ছিলেন ২০ হাজার ৭৫৯। প্রদত্ত ভোট ১৪ হাজার ৮১০। বাতিল ভোট ৫১৭টি। শতকরা ৭১.৩৪% ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

বগুড়ার সারিয়াকান্দি পৌরসভায় আ.লীগপ্রার্থী মতিউর বিজয়ী

বগুড়ার সারিয়াকান্দি পৌরসভায় আ.লীগপ্রার্থী মতিউর বিজয়ী

মোঃ সবুজ মিয়া বগুড়া প্রতিদিনঃবগুড়ার সারিয়াকান্দি পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মতিউর রহমান (নৌকা) ৬ হাজার ৫৭৪ ভোট পেয়ে বেসকারি ফলাফলে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্রপ্রার্থী আলমগীর শাহী সুমন (নারিকেল গাছ) পেয়েছেন ২ হাজার ৭৯৬ ভোট।

শনিবার সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও সারিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা সাখাওয়াত হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ঝিকরগাছার শংকরপুর ইউনিয়নের বেতনা নদী থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন

ঝিকরগাছার শংকরপুর ইউনিয়নের বেতনা নদী থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন

আব্দুল জব্বার, স্টাফ রিপোর্টার।।যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার শংকরপুর ইউনিয়নের কুমরী গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া বেতনা নদী থেকে, অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গলি দেখিয়ে ড্রেজার মেশিন দিয়ে, বেতনা নদী থেকে প্রতিদিন বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। এতে বেতনা নদীর পাশে অবস্থিত ঘরবাড়ী হুমকির মুখে পড়েছে। এ ব্যাপারে প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকা বাসী।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, শংকরপুরের কুমরী গ্রামের রফিকের ছেলে জাহাঙ্গীর কবির, নিজের নব নির্মিত ভবনের নিচে ভরাট করার জন্য বেতনা নদী থেকে ড্রেজার বসিয়ে ১০ থেকে ১৫ দিন যাবত অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছে। প্রতিদিন বালু উত্তোলনের ফলে বিভিন্ন স্থাপনা হুমকির মুখে পড়েছে।

এদিকে অবৈধ বালু উত্তোলনের ফলে গ্রামের মানুষ খুবই চিন্তিত আছেন। ভুক্তভোগীরা জানান, ড্রেজার মেশিন পদ্ধতিতে বালু উত্তোলন করা হলে ভরা বর্ষায় তাদের বসত ভিটা বিলিন হতে পারে।

নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, ২০১০ সালে বালু উত্তোলন নীতিমালায় যন্ত্রচালিত মেশিন দ্বারা ড্রেজার পদ্ধতিতে বালু উত্তোলন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এছাড়াও সেতু, কালভার্ট, রেললাইনসহ মূল্যবান স্থাপনার এক কিলোমিটারের মধ্যে বালু উত্তোলন করা বেআইনি। অথচ নিজের স্বার্থ হাসিলের জন্য, সরকারি ওই আইন অমান্য করে কুমরী গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া বেতনা নদী থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে বালু উত্তোলনকারী জাহাঙ্গীর বলেন,বালু উত্তোলন করা সমস্যা হলে বন্ধ করে দেব।ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরাফাত রহমান বলেন, বালু উত্তোলনের বিষয়টি আমার জানা ছিলো না। আপনাদের মাধ্যামে জানতে পারলাম। বিষয়টি তদন্ত পুর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ঝিকরগাছার এক স্কুল ছাত্রীকে নায়িকা বানানোর স্বপ্ন দেখিয়ে ধর্ষণ থানায় অভিযোগ

ঝিকরগাছার এক স্কুল ছাত্রীকে নায়িকা বানানোর স্বপ্ন দেখিয়ে ধর্ষণ থানায় অভিযোগ

আব্দুল জব্বার, স্টাফ রিপোর্টার।।যশোরের ঝিকরগাছার উপজেলার কৃতীপুর গ্রামের এক কিশোরী স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। রাজধানী ঢাকায় রুপালি পর্দার নায়িকা বানানোর স্বপ্ন দেখিয়ে, যশোর শহরের পুরাতন কসবা কাজীপাড়ার অভি ইসলাম প্রান্ত, নামের এই যুবক গত বৃহস্পতিবার তাকে ধর্ষণ করে। ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী ঝিকরগাছার এক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী।
 
অভিযুক্ত অভি ইসলাম প্রান্ত ঝিকরগাছায় তার মামা কাজল রায়হানের বাড়িতে থাকেন। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র মাদকসহ অনুমানিক সাতটি মামলা রয়েছে। অভি ইসলাম প্রান্তর সদ্যবিবাহিত বলেও জানা গেছে। 

ঝিকরগাছা থানায় দায়ের করা অভিযোগের ওই স্কুলছাত্রী দাবি করেছে, অভি ইসলাম প্রান্তের মামা কাজল রায়হানের রাজধানী পান্থপথে একটি অ্যাড ফার্ম রয়েছে। সেখানে কাজের মাধ্যমে মিডিয়ায় নায়িকা বানানোর প্রতিশ্রুতি করে দেয়ার কথা বলে প্রান্ত, ওই ছাত্রীকে তার মামার বাসায় যেতে বলে। তাঁর কথামতো গত বৃহস্পতিবার বিকালে ওই বাড়িতে গেলে প্রান্ত তাকে জোর করে ধর্ষণ করে।
 
ঝিকরগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী নিজেই  থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে। আমরা যাচাই করে আইনগত পদক্ষেপ নেব।

মোহনগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থীর জয় লাভ

মোহনগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থীর জয় লাভ

আজহারুল ইসলাম মোহনগঞ্জ প্রতিনিধি নেত্রকোনা: কোন রকম অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহীনীর কড়া নিরাপত্তার ব্যাবস্থার মধ্যে দিয়ে শান্তিপুর্ণ  সুষ্ঠ ও উৎসব মুখর পরিবেশে  নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
নির্বাচনে  আওয়ামীলীগের প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি  এডভোকেট লতিফুর রহমান রতন বিপুল ভোটের ব্যাবধানে বেসরকারী ভাবে জয়ীলাভ করেছে। 
দ্বিতীয় ধাপে ৬০ পৌরসভার নির্বাচনে অংশ হিসেবে শনিবার (১৬-ই জানুয়ারী) মোহনগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন ব্যালটের মাধ্যেমে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

মোহনগঞ্জ পৌরসভার মোট কেন্দ্র ৯ টি,  ভোটার সংখ্যা ২১ হাজার ৪ শত ৪ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ১০ হাজার ৪ শত ১৪ জন,  নারী ১০ হাজার ৯শত ৯১ জন। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ভোট গ্রহন চলে। 
আওয়ামীলীগ প্রার্থী লতিফুর রহমান রতন ৯৪৪৫  ভোট পেয়ে বেসরকারী ভাবে  বিজয়ী হন, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দৃি স্বতন্ত্র প্রার্থী তাহমিনা পারভীন বীথী পান ৪৩৮৪ ভোট, বি এন পির মনোনীত প্রার্থী মাহবুবুন্নবী শেখ ধাঁনের শীষ প্রতীক পান ১০২২  ভোট, স্বতন্ত্র প্রার্থী চৌধুরী আবু হেনা মোস্তফা কামাল সেতু মোবাইল ফোন প্রতীক নিয়ে পান ১৪৩ ভোট।

আলহাজ্ব মুনসুর আহমেদের সুস্থতা কামনা করে গাবুরায় দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

 আলহাজ্ব মুনসুর আহমেদের সুস্থতা কামনা করে গাবুরায় দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

হুদা মালী,(শ্যামনগর)প্রতিনিধি: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ১২ নং গাবুরা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড শাখা কর্তৃক ৯নং সোরা দৃষ্টি নন্দন সাইক্লোন শেল্টারে শনিবার ১৫ ই জানুয়ারি বিকাল ৪টায় গাবুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ আব্দুল বারীর সভাপতিত্বে জেলা আওয়ামী লীগের সংগ্রামী সভাপতি জননেতা মোঃ মুনসুর আহমেদের সুস্থতা কামনা করে দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জননেতা জি এম শফিউল আযম লেনিন,প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গঠনে দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা'র হাত কে শক্তিশালী করতে নৌকা প্রতীকের বিকল্প নেই। তিনি আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতা কর্মীর উদ্দেশ্য  বলেন চলমান উন্নয়ন চিত্র মানুষের কাছে তুলে ধরে শেখ হাসিনার হাত কে শক্তিশালী করতে আওয়ামী লীগ এক ও অভিন্ন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শ্যামনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক জি এম বাদশাহ আলম, গাবুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ মহাসিন আলম, গাবুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক জি এম ইমাম হোসেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জি এম আব্দুল মান্নান খোকা, আওয়ামী লীগ নেতা ও গাবুরা ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য জি এম আবিয়ার রহমান, ২ নং ওয়ার্ডের ইউ'পি সদস্য জি এম গোলাম মোস্তফা, ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউ'পি সদস্য ৩নং ওয়ার্ড শ্রী পীযুষ কুমার মৃধা  ৯নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউ'পি সদস্য জি এম মঞ্জুর হোসেন, ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল রশিদ, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আফছুর মোল্লা, সহ গাবুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সহ অঙ্গসহযোগী সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ। 

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন গাবুরা ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক এস এম আতাউর রহমান।

মরহুম হাজী আলতাফ মেম্বার স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণ

মরহুম হাজী আলতাফ মেম্বার স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণ

সিপন,নারায়গঞ্জরঃ নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের (১৫জানুয়ারি )শনিবার সন্ধ্যায় মরহুম হাজী আলতাফ হোসেন মেম্বার স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান করা হয়।
এ খেলায় টেকপাড়া স্পোর্টিং ক্লাবকে ০১ গোলে দক্ষিণ আজিবপুর ইউনিয়ন কে পরাজিত করে।

এ সময় ঢাকা ডেমরা ৬৮নংওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহমুদুল হাসান পলিন বলেন মাদক ও সন্ত্রাস মুক্ত, একটি আলোকিত সমাজ গড়তে শিশু-কিশোরদের লেখা পড়ার পাশাপাশি শারীরিক গঠন ও মানসিক বিকাশের জন্য খেলাধুলার গুরুত্বপূর্ণ অপরিসীম।

এ সময় নাসিম মাহমুদ তপন নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সোনারগাঁও উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আরমান মেরাজ বলেন খেলাধুলা সম্পৃক্ত থাকলে বাজে অভ্যাস গুলো থেকে বিরত থাকা যায়।

পড়ে এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন হাজী মোঃ শহিদুল্লাহ, মোহাম্মদ কাইয়ুম, মোঃ শাহিন মুন্সী, মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম,তাজুল ইসলাম সহ আরো অনেক মুরুব্বিগণ।

মসর দৈলজোড় তরুণ সমাজের উদ্যোগে নাইট টুর্নামেন্ট

মসর দৈলজোড় তরুণ সমাজের উদ্যোগে নাইট টুর্নামেন্ট

লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধিঃ
গ্রামাঞ্চলে ক্রিকেটের আনন্দটাই ফিকে হতে বসেছিল। স্থানীয় ভাবে জমজমাট ম্যাচের দেখা এখন মেলে খুব কমই। এমন এক সময়ে মসর দৈলজোড় তরুণ সমাজের উদ্যোগ নাইট ক্রিকেট টুর্নামেন্ট উপহার দিল আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়ন মসর দৈলজোড় তরুণ সমাজ। আয়োজনে ছিলনা কোন ঘাটতি। সন্ধা ৬টা থেকেই দর্শক গ্যালারী কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে যায়। পাওয়ারফুল সব বৈদ্যুতিক বাতির সাথে নতুন মাত্রা যোগ করে। শনিবার মসর দৈলজোড় তরুণ সমাজের  উদ্যোগে মসর দৈলজোড় উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সকলের পরিচিত মুখ  জনাব মোহাম্মদ  মজিদুল ইসলাম বিশিষ্ট সমাজ সেবক সারপুকুর ইউনিয়ন আদিতমারী। দর্শকরা উচ্ছাস প্রকাশ করে। আদিতমারী  উপজেলার বিভিন্ন স্পনসারের সৌজন্যে টুর্নামেন্টে মোট ১৬টি দল অংশগ্রহণ করেন। শুরুতে নক আউট পর্বের খেলায় ৪টি দল বিজয়ী হয়ে সেমি ফাইনালে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে। সেমি থেকে সরাসরি ফাইনালে চলেযায় । ফাইনালে এই দুই দলের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আত্র প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক জনাব  নীল কমল রায়, মোঃ বাদশা আলমগীর সভাপতি বাংলাদেশ কৃষক লীগ  আদিতমারী উপজেলা শাখা,  সরুজ আলী জনতা ব্যাংক লিমিটেড, শ্রী পুষ্পজিৎ রায়, শ্রী সুনিল চন্দ্র রায়, শ্রী মনোজ কুমার রায়, জনাব ডাঃ ইউসুফ আলী টিপের বাজার, শ্রী অনিল চন্দ্র রায় সহকারী শিক্ষক মসর দৈলজোড় উচ্চ বিদ্যালয়, আব্দুর রাজ্জাক  বিশিষ্ট সমাজ সেবক, শ্রী নয়ন কুমার রায় সমাজ সেবক মসরদৈলজড়। 
সভাপতিত্বে করেন আবুল কালম আজাত আয়োজনেঃ বাঙ্গালী সংসদ,  সারপুকুর, আদিতমারী,  লালমনিরহাট।

কুষ্টিয়ায় আ'লীগ তিনটি এবং জাসদ একটিতে বিজয়ী

কুষ্টিয়ায় আ'লীগ তিনটি এবং জাসদ একটিতে বিজয়ী

নিউজ ডেস্কঃ কুষ্টিয়ার চারটি পৌরসভা নির্বাচনে তিনটিতে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী এবং একটিতে জাসদের প্রার্থী বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।

কুষ্টিয়া পৌরসভা নির্বাচনে বর্ষীয়ান আওয়ামী লীগ নেতা বর্তমান মেয়র আনোয়ার আলী নৌকা প্রতীক নিয়ে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী বশিরুল আলম চাঁদকে পরাজিত করে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।

কুমারখালী পৌরসভায় বর্তমান মেয়র আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী সামসুজ্জামান ওরুন ১০১৬০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রার্থী ধানের শীষের আনিসুর রহমান লালু পেয়েছেন ২৩৮৬ ভোট।

মিরপুর পৌরসভায় আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী হাজী এনামুল হক ১০৪৬৮ ভোট পেয়ে পুনরায় মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম স্বতন্ত্র প্রার্থী শেখ আরিফ পেয়েছেন ২৫১৫ ভোট।

এদিকে ভেড়ামারা পৌরসভায় ৮০৩২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) মনোনীত মশাল প্রতীকের প্রার্থী আনোয়ারুল কবীর টুটুল। তার নিকটতম প্রতীদ্বন্দ্বী ছিলেন বর্তমান মেয়র আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী শামীমুল ইসলাম ছানা। তিনি পেয়েছেন ৫৬৩৪ ভোট।

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত একযোগে কুষ্টিয়ার চারটি পৌরসভায় শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

এরমধ্যে কুমারখালী পৌরসভায় প্রথমবারের মতো ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। অন্য তিনটি পৌরসভায় ব্যালট পেপারের মাধ্যমে ভোট হয়।

নির্বাচন চলাকালে কোথাও তেমন কোনো অপ্রীতিকর ঘটনার সংবাদ পাওয়া যায়নি। নির্বাচন চলাকালে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

মোংলা পৌর নির্বাচনে মেয়রে আওয়ামীলীগের আঃ রহমান বিজয়ী

মোংলা পৌর নির্বাচনে মেয়রে আওয়ামীলীগের আঃ রহমান বিজয়ী

মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃ 
মোংলা পোর্ট পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুর রহমান বিজয়ী হয়েছেন। ১৬ জানুয়ারি সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ইভিএম'র মাধ্যমে বিরতিহীন ভাবে শান্তিপূর্ন ভোট হয়েছে। কেন্দ্র দখল, এজেন্ট ঢুকতে না দেয়া এবং সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগে বিএনপি মনোনীত ধানেরশীষ প্রতীকের প্রার্থী মোঃ জুলফিকার আলী শনিবার সকালে ভোট বর্জন। নির্বাচনে আওয়ামীলীগ সমর্থিত ০৯জন  সাধারণ এবং ০৩জন সংরক্ষিত  আসনের কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। 

রিটার্নিং অফিসার ফারাজী বেনজীর আহম্মেদ জানান মোংলা পোর্ট পৌরসভা নির্বাচনে বেসরকারি ভাবে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুর রহমান নির্বাচিত হয়েছেন। নৌকা প্রতীকের প্রাপ্ত ভোট হচ্ছে ১২ হাজার  ১শো ২৫ ভোট। শেখ আব্দুর রহমানের নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী ছিলেন বিএনপি মনোনীত ধানেরশীষ প্রতীকের প্রার্থী মোঃ জুলফিকার আলী। ধানেরশীষ প্রতীকের প্রাপ্ত ভোট  ৫শো ৯২ ভোট। নির্বাচিত সাধারণ আসনের কাউন্সিলররা হচ্ছে এস এম কবীর হোসেন (১নং ওয়ার্ড), এইচ এম শরিফুল ইসলাম (২নং ওয়ার্ড), মোঃ বাহাদুর মিয়া (৩নং ওয়ার্ড), শফিকুর রহমান খান (৪নং ওয়ার্ড), শরীফ হোসেন (৫নং ওয়ার্ড), জি এম আলামীন (৬নং ওয়ার্ড), হুমায়ুন হামিদ নাসির (৭নং ওয়ার্ড), ছরোয়ার হোসেন (৮নং ওয়ার্ড) ও মজনু গাজী (৯নং ওয়ার্ড)। সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচিত কাউন্সিলররা হচ্ছে জাহানারা চানু (১,২,৩), জোহরা বেগম (৪,৫,৬) এবং শিউলি আক্তার (৭,৮,৯)। নির্বাচনে ১২টি কেন্দ্রে মোট বৈধ ভোটের সংখ্যা ১২ হাজার ৭শো ৫০ ভোট। বাতিলকৃত ভোটের সংখ্যা ০৫ ভোট। সর্বমোট প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা ১২ হাজার ৭শো ৫৫ ভোট। কাস্টিং ভোট পড়েছে ৪০.৫০%। বিএনপি মনোনীত ধানেরশীষ প্রতীকের প্রার্থী মোঃ জুলফিকার আলী কেন্দ্র দখল, এজেন্ট ঢুকতে না দেয়া এবং সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগে সকাল ১১টার দিকে মাদ্রাসা রোডস্থ তার নিজ বাসায় সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে ভোট বর্জনের ঘোষনা দেন। বিএনপিথর মেয়র প্রার্থীর অভিযোগের বিষয়ে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুর রহমান বলেন অবাধ-সুষ্ঠু-শান্তিপূর্ণ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হয়েছে। বিচ্ছিন্ন ২/১টি ঘটনা ঘটেছে। তার বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসন ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। জুলফিকার আলীর অভিযোগের বিষয়ে রিটার্নিং অফিসার ফারাজী বেনজীর আহম্মেদথর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন মেয়র প্রার্থী মোঃ জুলফিকার আলী সকাল থেকে বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে ২/১টি কেন্দ্রথর দিকে নজর দিতে বলেন। তার কথা মোতাবেক আমি সাথে সাথে ব্যবস্থা নিই। অধিক সংখ্যক আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করি। বড় ধরনের অপ্রীতিকর কোন ঘটনা নেই। শান্তিপূর্ণ ভোট হয়েছে। ৫নং ওয়ার্ডের স্বতন্ত্র কাউন্সিলর প্রার্থী এইচ এম মাসুম বিল্লাহ বলেন সাধারণ ভোটারদের ভোট প্রদানে বাধা দেয়া হয়েছে।  অন্যদিকে ৭নং ওয়ার্ডের মোংলা সরকারি কলেজ কেন্দ্রে সকাল  ১০টায় ভোট প্রদান শেষে নতুন ভোটার রুমি আক্তার বলেন ইভিএম ভোট দিতে কোন অসুবিধা হয়নি। শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট হয়েছে। কেন্দ্রের ভিতরে ও বাইরে হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশ বজায় ছিলো। সেন্ট পল্স উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে শনিবার দুপুরে ভোট প্রদান শেষে শায়লা পারভীন বলেন ব্যাপক সংখ্যক ভোটার উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। উৎসবমূখর পরিবেশে ভোট হয়েছে।

কুলাউড়া পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী আহত

কুলাউড়া পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী আহত

মোঃরেজাউল ইসলাম শাফি,কুলাউড়া উপজেলা প্রতিনিধিঃমৌলভীবাজারের কুলাউড়া পৌরসভায় অনুষ্ঠিত নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী সাবেক মেয়র কামাল উদ্দিন আহমদ জুনেদ প্রতিপক্ষের হামলায় আহত হয়েছেন।

১৬ জানুয়ারি শনিবার দুপুর ২ ঘটিকার দিকে কুলাউড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।বিএনপির মেয়রপ্রার্থী কামাল উদ্দিন আহমদ জুনেদের স্ত্রী শাহেলা চৌধুরী জানান, শনিবার দুপুর ২টার দিকে ভোট চলাকালীন সময়ে ওনার স্বামী কুলাউড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে যান। সেখানে গিয়ে দেখতে পান তার প্রতিপক্ষের নেতাকর্মীরা কেন্দ্রের একটি রুম দখলের পায়তারা করছে। বিষয়টি তার স্বামী পুলিশকে জানালে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে তার উপর হামলা চালায়। হামলার একপর্যায়ে তিনি মাথায় আঘাত পেয়ে গুরুতর আহত হন।

পরে তাকে উদ্ধার করে কুলাউড়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেন।বিষয়টি নিশ্চিত করে কুলাউড়া থানার ওসি বিনয় ভূষণ রায় জানান, অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রাজাপুরে বিএইচ হারুনের উদ্যোগে ৫ হাজার পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরন

রাজাপুরে বিএইচ হারুনের উদ্যোগে ৫ হাজার পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরন

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন স্টাফ রিপোর্টার 
ঝালকাঠি-১ (রাজাপুর-কাঠালিয়া) আসনের সাংসদ বিএইচ হারুনের ব্যক্তি উদ্যোগে প্রিমিয়ার ব্যাংকের সৌজন্যে রাজাপুর উপজেলার ৬ ইউনিয়নের ৫ হাজার পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরনের উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিাবর বিকেলে এ উপলক্ষ্যে উপজেলা সভাকক্ষে আয়োজিত সভায় মোবাইলে ভার্চুয়াল ভাবে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ঝালকাঠি-১ (রাজাপুর-কাঠালিয়া) আসনের সাংসদ বিএইচ হারুন। বিতরনীতে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মনিরউজ্জামান, ইউএনও মোক্তার হোসেন, এসএসসি (সার্কেল) মোঃ সাখাওয়াত হোসেন, ভূমি কমিশনার অনুজা মন্ডল, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফরোজা আক্তার লাইজু, ওসি শহিদুল ইসলাম, অধ্যক্ষ গোলাম বারী খান, ফয়জুর রব আজাদ, ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল সিকদার, মুজিবুল হক কামাল ও মাহমুদুল হাসান প্রমুখ।

পটিয়া পৌর নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে সাংবাদিক গোলাম কাদের এর মনোনয়ন দাখিল

পটিয়া পৌর নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে সাংবাদিক গোলাম কাদের এর মনোনয়ন দাখিল

পটিয়া  (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধঃ-১৪ই ফেব্রয়ারী আসন্ন পটিয়া পৌরসভা নিবার্চনে ৩নং ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন ফরম দাখিল করলেন পৌরসভা যুবলীগ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ও সাংবাদিক মোঃ গোলাম কাদের। শনিবার বিকেলে উপজেলা নিবার্চন কমিশনার আরাফাত আল হোসাইনী'র নিকট দাখিল করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক মোহাম্মদ শাহজাহান চৌধুরী, সমাজসেবক সোলাইমান চৌধুরী, আবদুর ছত্তার, আবদুল মান্নান, সাবেক ছাত্রনেতা আবু তৈয়ব। 

এ সময় কাউন্সিলর প্রার্থী সাংবাদিক গোলাম কাদের বলেন, পটিয়া পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডে জনগনের আশা আঙ্খকা প্রতিফলনের জন্য ও উন্নয়নের ধারাকে বেগবান করতে এবং সার্বিক পরিবর্তনের লক্ষ্যেই কাউন্সিলর পদে নিবার্চনে অংশ নিয়েছি। ওয়ার্ডবাসি'র সহযোগিতা ও দোয়া বিজয়ী হলেন সন্ত্রাস ও মাদক মুক্ত এবং আধুনিক মডেল ওয়ার্ডে রূপান্তর করা হবে ইনশাল্লাহ। উল্লেখ্য পটিয়া পৌরভা নিবার্চনে এই পর্য়ন্ত মেয়র পদে-৬ জন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে-১১ জন্য ও সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৫১ জন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছে। 

তৎমধ্যে মনোনয়ন ফরম দাখিল করেছেন ১ নং ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর মোঃ আবদুল খালেক চ সংরক্ষিত মহিলা আসন- ১ থেকে বুলবুল আকতার ও ফাতেমা বেগম। সংরক্ষিত মহিলা আসন-২ থেকে ইয়াছমিন আকতার চৌধুরী, জোস্না আরা বেগম ও জেসমিন আকতার তুলি। সাধারন কাউন্সিলর ১নং ওয়ার্ডে আবদুল খালেক, রেহেনা আকতার মুন। ২নং ওয়ার্ড রূপক কুমার সেন, সনজিত কুমার দে, শাহদাত হোসেন। ৩নং ওয়ার্ড সাংবাদিক গোলাম কাদের, ওজি গিয়াস উদ্দিন আজাদ, মো: আলমগীর, আবেদুজ্জমান। ৪নং ওয়ার্ড গোফরান রানা, শফিকুল ইসলাম। ৬নং ওয়ার্ড রুবেল দাশ। ৭নং ওয়ার্ড কামরুল ইসলাম। ৮নং ওয়ার্ড আবদুল মন্নান, সরোয়ার কামাল মোসলেম উদ্দিন রাজীব। ৯নং ওয়ার্ড শেখ সাইফুল ইসলাম।

আশাশুনিতে ব্যাডমিন্টন টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন করেন ইউপি চেয়ারম্যান- মিলন

আশাশুনিতে ব্যাডমিন্টন টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন করেন ইউপি চেয়ারম্যান- মিলন

আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি  সাতক্ষীরা   প্রতিনিধিঃ আশাশুনি সদর ইউনিয়নের মানিকখালীতে ৮ দলীয় নক-আউট ব্যাডমিন্টন টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন করা হয়েছে। শুক্রবার রাতে মানিকখালী যুব সংঘের আয়োজনে ব্যাটমিন্টন টুনামেন্ট এর শুভ উদ্ভোধন করেন আশাশুনি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান স,ম সেলিম রেজা মিলন।আশাশুনি সদর ইউনিয়নের মানিকখালী যুব সংঘের আয়োজনে নক-আউট ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে রাসেল,কৃষ্ণ জুটি এবং রানার্সআপ হয় রাব্বি,সামিউল জুটি। উদ্বোধনকালে ইউপি চেয়ারম্যান মিলন বলেন, আশাশুনি সদর ইউনিয়ন কে একটি মডেল ইউনিয়ন হিসেবে গড়ার লক্ষ্যে আমি কাজ করে যাচ্ছি।তিনি ইউনিয়নের অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন ও উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী ইউপি নির্বাচনে তাকে পুনরায় নির্বাচিত করার আহ্বান জানিয়ে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।এ সময় উপস্থিত ছিলেন ইউপি সদস্য শাহিনুর ইসলাম, সমাজসেবক রুহুল কুদ্দুস, যুবলীগ নেতা পরেশ অধিকারী, উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান বিপুল, সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি তৈবুর রহমান তৈবার, যুব সংঘের কর্মকর্তা ও সদস্যবৃন্দ।

শৈলকুপা পৌরসভায় ৩য় বারের মত মেয়র নির্বাচিত হলেন আশরাফুল ইসলাম আজম

শৈলকুপা পৌরসভায় ৩য় বারের মত মেয়র নির্বাচিত হলেন আশরাফুল ইসলাম আজম

সম্রাট হোসেন, ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহের শৈলকুপা পৌরসভা নির্বাচনে কাজী আশরাফুল আজম নির্বাচিত হয়েছেন। নৌকা প্রতীকে তার প্রাপ্ত ভোট ১০ হাজার ৮৮৮। আশরাফুল আজম তৃতীয়বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হলেন।

তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী তৈয়বুর রহমান খান জগ প্রতীকে পেয়েছেন সাত হাজার ২৮১ ভোট। অন্যদিকে ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী খলিলুর রহমান পেয়েছেন এক হাজার ৫৬৯ ভোট।

উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটারদের উপস্থিতিতে ঝিনাইদহের শৈলকুপা পৌর নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়।দু'টি কেন্দ্রে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া এবং আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী (স্বতন্ত্র) তৈয়বুর রহমানের গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটলেও বাকি ১৩ কেন্দ্রে কোনো ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

নির্বাচনে সকাল থেকে ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখা যায়। সকাল থেকেই নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

নির্বাচনে মেয়র পদে চারজন, কাউন্সিলর পদে ৩৬ ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। নয়টি ওয়ার্ডের ২৮ হাজার ৬৩২ জন ভোটার ১৫ কেন্দ্রের ৯২ কক্ষের মাধ্যমে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন।

বীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে বেসরকারি ভাবে স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়

বীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে বেসরকারি ভাবে স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়

খাদেমুল ইসলাম রাজ, বীরগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধিঃ ৬০ পৌরসভা নির্বাচনে মোবাইল ফোন প্রতীক নিয়ে প্রার্থী মোশারফ হোসেন বাবুল ৩ হাজার ৯৯২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে জয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো নুর ইসলাম  পেয়েছেন ৩ হাজার ৯৪৬ ভোট।

বীরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন কার্যালয়ে এ ফলাফল ঘোষণা করেন উপজেলা  নির্বাচন কর্মকর্তা মো নুর-আলম।  আজ শনিবার  সকাল ৮টা থেকে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে বীরগঞ্জ পৌরসভায় ভোটগ্রহণ শুরু হয় বিকেল ৪টার মধ্যে ভোটগ্রহণ শেষ হয়।
পৌরসভায় মেয়র প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন ৫ জন। নয়টি ওয়ার্ডের ৪৯টি বুথ কক্ষে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এখানে মোট ভোটার সংখ্যা ১৫ হাজার ৫৪৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৭হাজার ৫১৩ জন এবং নারী ভোটার ৮ হাজার ৩২ জন।

পটিয়া পৌর নির্বাচনে বিএনপি'র মেয়র প্রার্থী নুরুল ইসলাম সংবর্ধিত

পটিয়া পৌর নির্বাচনে বিএনপি'র মেয়র প্রার্থী নুরুল ইসলাম সংবর্ধিত

পটিয়া (চট্টগ্রাম) থেকে সেলিম চৌধুরীঃ- চট্টগ্রামের পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি'র মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম সওদাগর'কে দলের নেতা কর্মীরা ফুলের শুভেচ্ছা জানিয়ে সংবর্ধিত করেছে। ১৬ জানুয়ারি শনিবার বিকেলে বিএনপি'র মেয়র প্রার্ঘী নুরুল ইসলাম ঢাকা থেকে দলের মনোনয়ন ফরম নিয়ে পটিয়া আসলে প্রথম মনসা চৌমুহনী এলাকায় উপজেলা পৌরসভার বিএনপি ও  অঙ্গসংঘটনের নেতা কর্মীরা 
ফুলের মালা দিয়ে বরণ করেন।এর পরে মোটরশোভাযাএা নিয়ে পটিয়া বাসষ্টেশন এলাকায় সংক্ষিপ্ত সভায় মেয়র প্রার্থী পৌর বিএনপি'আহবায়ক নুরুল ইসলাম সওদাগর বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারী পটিয়া পৌরসভা নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করার আহবান জানান। এতে বক্তব্য রাখেন, পৌর বিএনপি সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি কবিয়াল ইউসুফ, দক্ষিণ জেলা ছাএদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম নেছার,আবদুল মন্নান তালুকদার, মঈনুল আলম ছেটান,সাবেক পটিয়া পৌর ছাএদলের সভাপতি আবদুল মাবুদ, আবুল হোসেন বাবুল,দক্ষিণ জেলা যুবদল সিনিয়র সহসভাপতি শাহজাহান চৌধুরী, হাজী আবুল কাসেম, ফজলুল কাদের জুলু, ইদ্রিস পানু,মোঃ নান্নু, হামিদুর রহমান পেয়ারু, শহিদুল ইসলাম পটল,সিরাজুল ইসলাম তারেক, নুরুল আলম,মনজুর আলম, মোঃ নাছির উদ্দীন,মোঃ হাসান, আবদুল কাদের, জসিম উদ্দিন, রিপন, মোঃ বাবুল, ফোরকান,মোঃ আবুল, কাজল, মোঃ আরমান, রবিউল হোসেন,ছোটন প্রমুখ।

ঢেউ টিন, চাল-ডাল কম্বল ও অর্থ নিয়ে বাড়িতে হাজির ছবির হোসেন, বৃদ্ধা রাহিমার মুখে হাসি

ঢেউ টিন, চাল-ডাল কম্বল ও অর্থ নিয়ে বাড়িতে হাজির ছবির হোসেন,  বৃদ্ধা রাহিমার মুখে হাসি

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন স্টাফ রিপোর্টারঃ ঝালকাঠির রাজাপুরের গালুয়া ইউনিয়নের জীবনদাসকাঠি গ্রামের বৃদ্ধ অসহায় রহিমা বেগম-আব্দুল মান্নাফ দম্পত্তি জীর্ণ ভাঙা খুপড়ি ঘরে শীত ও বৃষ্টিতে মানবেতর জীবনযাপনের নিউজ প্রকাশ করা হয় সেই নিউজ ছবির হোসেনের নজরে আসার পরে ঢেউ টিন, চাল-ডাল কম্বল ও নগদ অর্থ নিয়ে বাড়িতে ছুটে গেছেন ঝালকাঠির তরুন ব্যবসায়ী সমাজসেবক ছবির হোসেন। শনিবার দুপুরে অটোতে করে ২ বান্ডিল ঢেউ টিন, ১ বস্তা চাল, ডাল, আলু, তেল ও কম্বল এবং নগদ অর্থ নিয়ে ওই বাড়িতে হাজির হন। এ সময় সাংবাদিক পলাশ রায়, রাজাপুর সাংবাদিক ক্লাবের সভাপতি রহিম রেজা ও সাংবাদিক আতিকুর রহমানসহ সুধীজন উপস্থিত ছিলেন। বৃদ্ধা রহিমা বেগম জানান, তিনি অন্যের বাড়িতে ও রাস্তার পাশে মাটি দেয়ার কাজ করাসহ যখন যে কাজ পায় তাই করে দু'বেলা দু'মুঠো খাবার জোগার করতেই কষ্ট হচ্ছিল। অসুস্থ স্বামীর চিকিৎসা এবং ওষুধ খরচ মেটানো অনেক কষ্টসাধ্য বিষয় হওয়ায় ৩ বছর ধরে ঘরের অবস্থা একদম বেহাল হয়ে গেছিলো। ছবির হোসেনের এ সহযোগীতায় নতুন করে আবার ঘর মেরামত করে বসবাস করতে পারবেন। তিনি ছবির হোসেনের সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ু ও মঙ্গল কামনা করেন এবং তার জন্য আল্লাহর দরবারে দোয়া করেন। ঝালকাঠি শহরের তরুন ব্যবসায়ী সমাজসেবক ছবির হোসেন জানান, রহিমা বেগমের কষ্টের জীবনযাপনের খবর দেখে মনটা ভীষন খারাপ হয়ে গেছিলো। তাই নিজ অর্থায়নে ২ বান্ডিল ঢেউ টিন, ১ বস্তা চাল, ডাল, আলু, তেল ও কম্বল এবং নগদ অর্থ দিয়ে সহযোগীতা করেছি। এটা আমার দায়িত্ব। মানুষকে কিছু দিতে পারলে আমি পরিতৃপ্তি পাই। সকলের উচিত সমাজের অসহায় ব্যক্তিদের পাশে দাড়ানো। ছবির হোসেন ১১শ করোনার কীট কিনে হাসপাতালে দান করা, অসহায় সবিতা রাণীকে জুতার দোকান দিয়ে দেয়া, সবজির দোকান ও ভ্যান দেয়াসহ করোনায় খাদ্য সহায়তা ও বিভিন্ন অসহায় দরিদ্র ব্যক্তি ও পরিবারকে দীর্ঘদিন ধরে সহায়তা করে আসছেন।

নওগাঁর বদলগাছীতে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় বেইলি ব্রিজ,সংস্কারে ব্যবহার হচ্ছে অচল পাত, পূনরায়

নওগাঁর বদলগাছীতে  ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় বেইলি ব্রিজ,সংস্কারে ব্যবহার  হচ্ছে অচল পাত, পূনরায়

রহমত উল্লাহ আশিকুর জামান নুর,নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁ জেলা বদলগাছী আক্কেলপুর সড়কের বিষ্ণুপুর গ্রামের নিকট নির্মিত পুরাতন ঝুঁকিপূর্ণ বেইলি ব্রিজের স্টিলের পাতা ভেঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থা মারাত্মকভাবে ব্যাহত হয়ে পড়ে। গত ২৪ ডিসেম্বর বদলগাছী-আক্কেলপুর সড়ক বেইলি ব্রিজের স্টিলের স্লাব ভেঙ্গে মরণফাঁদ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের ২ দিন পর বেইলি ব্রিজটি সংস্কার করা হলেও এখনও ঝুঁকি কাটেনি। বিষ্ণুপুর গ্রামের শিক্ষক আবু সাইদ রিপু ও ব্যবসায়ী মোছাদ্দেক হোসেন মূসা বলেন, বেইলি ব্রিজের ভেঙ্গে যাওয়া স্টিলের পাত পরিবর্তন করে আবারও পুরাতন ১ টি স্টিলের পাত সংযুক্ত করে সংস্কার করা হয়েছে। এবং তা আবার বেঁকে যাচ্ছে। ঝুঁকি এখনও কাটেনি। বদলগাছী আক্কেলপুর সড়কটি নওগাঁ জয়পুরহাটসহ বগুড়া জেলার সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ যোগাযোগের মাধ্যম। তার পরেও সরু নরবড়ে এই বেইলি ব্রিজে প্রায় সড়ক দুর্ঘটনার মধ্য দিয়ে যুগ যুগ পেরিয়ে গেলেও এখানে নতুন ব্রীজ নির্মাণের প্রয়োজনীয় কোন পদক্ষেপ নেয়নি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এলাকাবাসী জানায়, একদিকে ব্রিজটি ঝুঁকিপূর্ণ তার উপর অতিরিক্ত মালবাহী ট্রাক চলাচল করায় বেইলি ব্রিজ ভারসাম্য হারিয়েছে। বদলগাছী উপজেলা কৃষি প্রধান এলাকা। উপজেলার হাট বাজারগুলোতে প্রতিদিন হাজার হাজার মণ সবজি কেনাবেচা হচ্ছে। যোগাযোগ ব্যাবস্থা ভালো না হওয়ায় কৃষকেরা তাদের উৎপাদিত পণ্য সঠিক সময়ে বাজারজাত করতে পারছে না জন্যই সঠিক মুনাফা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এলাকাবাসীর দাবি পুরাতন বেইলি ব্রিজ তুলে ফেলে সেখানে নতুন ব্রিজ নির্মাণের। নওগাঁ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সাজেদুর রহমান সাজিদ জানান, ন ওগাঁ জেলার মধ্যে এখন একটি মাত্র বেইলি ব্রিজ রয়েছে। বিষয়টি উপরে অবগত করানো হয়েছে। সেখানে যাতে একটি পূর্ণাঙ্গ ব্রিজ নির্মাণ করা যায় এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

লোহাগড়া সেই প্রতিবন্ধী মাসুদ পেলো ভ্যান উপহার

লোহাগড়া সেই প্রতিবন্ধী মাসুদ পেলো ভ্যান উপহার

মো: আজিজুর বিশ্বাস,স্টাফ রিপোর্টার নড়াইলঃকয়েকদিন আগে চাচই গ্রামের প্রতিবন্ধী মাসুদেক নিয়ে কয়েকটি পত্র-পত্রিকা ও ইলেকট্রনিকস মিডিয়ায় লেখা লেখি হয়েছিল। সেই সুত্রপাতে শুক্রবার (১৫ জানুয়ারী) নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন ভদ্রলোক  একটি ফেসবুক গ্রুপের মাধ্যমে মাসুদকে একটি নতুন ভ্যান উপহার দিয়েছেন। 

এবিষয়ে জানতে চাইলে মাসুদ বলেন, যে ভাই ভ্যানটি দিল তাকে শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জানাই, এবং তার পরিবারের সকলের দীর্ঘায়ু ও মঙ্গল কামনা করি। 

এর আগে!
সকালের শুরুতে ভ্যানের চাকা না ঘুরলে পেটে ভাত জোটে না প্রতিবিন্ধ মাসুদের পরিবারের। নড়াইলের লোহাগড়া থানার চাচই গ্রামে ৪ শতক জমির ওপর পাটখড়ি ও পলিথিনে মোড়ানো একটি ছোট নসিমন ঘরে বসবাস করেন প্রতিবন্ধি মাসুদের পরিবার।

অতি প্রত্যুষে না খেয়ে তিন চাকার একটি ভাড়ার ভ্যান নিয়ে যাত্রীর খোঁজে বেড়িয়ে পড়েন প্রতিবন্ধি মাসুদ। অনেক সময় যাত্রীরা তাকে দেখে তাহার ভ্যানে যাত্রী হতে চায়না। কারন, মাসুদের দুটি পা ই বিকলাঙ্গ। যখন যাত্রীরা চলে যেতে চায় সে বিনীতভাবে বলে 'আমি ভালো ভ্যান চালাতে পারি আপনাদের কোন সমস্যা হবেনা। আপনাদেরকে সুন্দরভাবে আপনাদের গন্তব্যে পৌছে দেব। আপনাদের ইচ্ছামত আমাকে ভাড়া দিয়েন। জানেন স্যার আপনাদের টাকা দিয়েই আমার সংসার চলবে এবং ছেলের লেখাপড়ার খরচ চালাতে হবে। এভাবে সারাদিন ভ্যান চালিয়ে প্রতিবন্ধি মাসুদ তিন থেকে চারশ টাকা  উপার্জন করে তার তিন সদস্যের সংসারের খরচ ও একমাত্র ছেলের লেখাপড়ার খরচ চালান। 

দিন শেষে ভ্যান মালিককে ভাড়া বাবদ দিতে হয় ১৬০ টাকা। প্রতিবন্ধি মাসুদ শত প্রতিবন্ধকতার ভেতরেও একমাত্র ছেলে রাজু আহম্মেদের পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছেন। তার ছেলে বর্তমানে লোহাগড়া সরকারি কলেজে এইচএসসি-তে অধ্যয়নরত। প্রতিবন্ধি মাসুদের স্বপ্ন তার ছেলে লেখাপড়া শিখে একদিন অনেক বড় হবে। 

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মাসুদের ঘরটি জসিমউদ্দিনের আসমানি কবিতার সেই আসমানিদের ঘরের মত। কালের বিবর্তনে বেন্না পাতা হাঁরিয়ে যাওয়ায় পাটখড়ি ও পলিথিন দিয়ে একটি নসিমন ঘর তৈরি করে পরিবার নিয়ে বসবাস করছেন। 
প্রতিবন্ধি মাসুদের সাথে কথা বললে, মাসুদ আবেগাপ্লুত হয়ে কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, আমার ছেলে যখন আমার কাছে লেখাপড়ার খরচের টাকা চায় তখন নিজেকে বড় অসহায় মনে হয়। মনে হয় আমি যেন জগতের একমাত্র ব্যর্থ পিতা। প্রতিবেদক ভিক্ষাবৃত্তির কথা জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, যতদিন আমার দেহে প্রাণ আছে ততদিন আমি যেকোন কর্ম করেই হোক সংসারের খরচ জোগাড় করব কিন্তু ভিক্ষাবৃত্তি করব না।

পটিয়ার ধলঘাটে এনজিও কর্মকর্তা'কে হত্যার হুমকি, মারধরের অভিযোগ

পটিয়ার ধলঘাটে  এনজিও কর্মকর্তা'কে হত্যার হুমকি, মারধরের অভিযোগ

পটিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি -  চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার ধলঘাটে এনজিও কর্মকর্তা মনোজিত চৌধুরী'কে হত্যার হুমকি ও মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে ১৬ জানুয়ারি শনিবার  সকাল ১০ টায় ধলঘাট ক্যাম্প এলাকায়। এঘটনায় বোয়ালখালীর বাসিন্দা  আহত পটিয়ার ধলঘাট ন্যাশনাল মাল্টিপারপাস কো- অপারেটিভ লিঃ এর ম্যানেজার মনোজিত চৌধুরী বাদী হয়ে জহির আহমদ, নজির আহমদ সাং নন্দেরখীল এই দুইজনের  বিরুদ্ধে পটিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগ সুএে জানাযায়, দীর্ঘদিন যাবত জহির ও নজির আহমদ মনোজিত চৌধুরী'কে মোবাইল ফোনে নানান ধরনের ভয়ভীতি হত্যার হুমকি দিয়ে আসছিল। এর ধারাবাহিকতায় ১৬ জানুয়ারি সকাল ১০টায় মনোজিত চৌধুরী পটিয়ার ধলঘাট ক্যাম্প এলাকায় আসলে তার পথ অবরুদ্ধ করে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে সন্রাসী কায়দায়  এলোপাতাড়ি পিটিয়ে রক্তাক্ত গুরুত্বর  জখম করে বলে থানার দায়েরকৃত অভিযোগ সুএে প্রকাশ। বর্তমানে মনোজিত চৌধুরী প্রতিপক্ষদের অব্যহত  হত্যার হুমকি ধামকি কারণে সে  চরম আতংকের মধ্যে রয়েছে বলে জানান।  এ ব্যাপারে পটিয়া থানার ডিউটি অফিসার এস আই রিয়াজ জানান অভিযোগ পেয়েছি ওসি'র নির্দেশ তদন্ত করে আইনগত ব্যাবস্তা নেওয়া হবে বলে জানান।  মনোজিত চৌধুরী জানান, মোবাইল ফোনে হত্যার হুমকি ধামকি রেকর্ড রয়েছে।জহির আহমদ এবং নজির আহমদ অহেতুক গায়ে পড়ে হামলা চালায়। সে এ ব্যাপারে পটিয়া থানার ওসি রেজাউল করিম মজুমদার এর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। 

লালমনিরহাটে সেবানীড় পরিবারের পক্ষ থেকে অসহায় শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

লালমনিরহাটে সেবানীড় পরিবারের পক্ষ থেকে অসহায় শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

মোঃ রশিদুল ইসলাম রিপন, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃআজ শনিবার(১৬ জানুয়ারি)  লালমনিহাটে সেবানীড় পরিবারের পক্ষ থেকে অসহায়-দুস্থদের বাড়িতে গিয়ে তাদের কে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। শীতবস্ত্র বিতরণ করেন সেবানীড় এর সকল সদস্যরা। তারা ২০০টি শীতবস্ত্র বিতরণ করে।

জানা গেছে, কম্বল হাতে পেয়ে বেশ খুশি হয়েছে  শীতার্ত এই মানুষগুলো। মোঃ নজরুল(৬০) কম্বল পেয়ে বলেন, কম্বল পেয়ে খুব খুব ভালো লাগছে। শীতের রাতে ঘুমাতে খুব কষ্ট হতো এখন একটু আরামে ঘুমাতে পারবো। আবুল হোসেনের স্ত্রী বলেন,যারা কম্বল দিছে আল্লাহ তাদের ভালো  করুক।
শীতার্ত মানুষেরা কম্বল পেয়ে সেবানীড় পরিবারের সকল সদস্য ও প্রতিষ্ঠাতা মোঃ সাজু খানের জন্য দোয়া করছেন।

সেবানীড় এর পরিচালক জনাব মোঃ সাজু খান বলেন, সেবানীড় একটি অনলাইন ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন, বাংলাদেশ। মানুষ মানুষের জন্য। শীতার্ত মানুষের পাশে দ্বাড়ান, মানবতার হোক চির অম্লান। আসুন আমরা শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াই। আপনার পাশে থাকবে সেবানীড় পরিবার।  সেবানীড় সব সময় আছে আপনার পাশে।

কিশোরগঞ্জের উত্তর দুরাকুটি সড়কের বেহাল দশায় জনদুর্ভোগ চরমে

কিশোরগঞ্জের উত্তর দুরাকুটি সড়কের বেহাল দশায় জনদুর্ভোগ চরমে

মোঃ লাতিফুল আজম,নীলফামারী প্রতিনিধিঃ নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ বাহাগিলী ইউনিয়নের উ: দুরাকুটি গ্রামের জনবহুল একমাত্র যাতায়াতের সড়কটি যোগাযোগর অনুপযোগী হয়ে বেহাল দশায় নাজেহাল হয়ে পড়েছে।
ইউনিয়নটির উপজেলা শহরের প্রবেশদ্বারের বড় ব্রীজ থেকে হাড়িবেচা পাড়া পর্যন্ত বিভিন্ন জায়গা ধ্বসে যাওয়াসহ ২কিলোমিটার পুরাতন খোয়া বিছানো রাস্তায় ইটের খোয়া এবড়ে থেবড়ে হয়ে সড়কটি পুকুরে ধসে গিয়ে বিভিন্ন জায়গায় অসংখ্য খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে।এতে বাহাগিলী-নিতাই ইউনিয়নের ২৫ গ্রামের ১৫ হাজার লোক চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। বিভিন্ন স্থানে ধ্বসে গিয়ে সংকীর্ণ হয়ে যাওয়া সড়কটি দিয়ে যাত্রীবাহী থেকে শুরু করে পণ্যবাহী অসংখ্য যানবহন চলাচল করায় প্রতিনিয়ত ঘটছে ছোট-বড় দুর্ঘটনা। 
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, বড় ব্রীজ থেকে ময়দান পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পর্যন্ত ২ কিলোমিটার সড়কে বিছিয়ে রাখা হয়েছে পুরাতন ইটের খোয়া। যানবাহন চলাচলের জন্য নামমাত্র রোলার দিয়ে পুরাতন খোয়া মেরামত করা হলেও আবারও ইটের খোয়া সরে গিয়ে সড়কটির উপর ইটের খোয়া সয়লাব হয়ে গেছে। সড়কের উপর দিয়ে চলাচলারত পরিবহনের ঝাঁকুনিতে শিশু, বৃদ্ধ গর্ভবতী মহিলা ও মুমূর্ষু  রোগীর প্রাণ যায় যায় অবস্থা। অটোচালক উ: দুরাকুটি গ্রামের আব্দুস সামাদ ডাবরা জানান, এই সড়ক দিয়ে যাত্রী নিয়ে চলাচল একেবারেই অযোগ্য হয়ে পড়েছে। কখন জানি গাড়ি রাস্তার নিচে উল্টে পড়ে যায় । গাড়ি সার্ভিসিংয়ের  জন্য মাসের ২থেকে ৩বার মেকারের কাছে যেতে হয়। ওই গ্রামের আব্দুল আজিজ ও আব্দুল মান্নান ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এ এলাকার অধিকাংশ মানুষ কৃষি উৎপাদিত পণ্য সামগ্রী বাজারজাত করে জীবিকা নির্বাহ করে থাকে। কিন্তু জনসাধারণে জন্য  গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি দীর্ঘদিন যাবৎ সংস্কার না করায় উৎপাদিত কৃষিপণ্য বাজারজাত করতে নানামুখী সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে। সড়কটি যেন এলঅকার মানুষের গলার কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে।
এ ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী অফিসার মজিদুল ইসলাম জানান, সড়কটি সংস্কারের জন্য টেন্ডার আহবানের মাধ্যমে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজটি নিলেও অর্থ সংকটের কারণে কাজ বন্ধ রয়েছে।

বুড়িগোয়ালিনীতে সামাজিক কর্মকান্ডে বাঁধাপ্রদান, মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন

বুড়িগোয়ালিনীতে সামাজিক কর্মকান্ডে বাঁধাপ্রদান, মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন

হুদা মালী, (শ্যামনগর) প্রতিনিধি: সামাজিক উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে বাঁধাপ্রদান এবং হয়রানি মূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে বুড়িগোয়ালিনীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

শনিবার (১৬ জানুয়ারি) বেলা ১১ টায় শ্যামনগর উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের দাতিনাখালীতে এলাকাবাসীর উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সমাজসেবা অধিদপ্তর কর্তৃক নিবন্ধনকৃত স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন ড্রীম এর সহ-সভাপতি মো. সিরাজুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে উক্ত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় ৭নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য মো. হায়দার আলী, শহর আলী গাজী, মো. আবু হাসান, বনজীবি নারী উন্নয়ন সংগঠন এর শেফালী খাতুন, ফাতেমা খাতুন, নুর ইসলাম, সোমা পারভীন, অপর্ণা রাণী প্রমুখ।

স্থানীয় সাঈদ মোড়ল তার বক্তব্যে বলেন, ড্রীম সংগঠন টি তারা এই এলাকার মানুষের সুপেয় খাবার পানির প্লান্ট নির্মাণের উদ্যোগ করে, কিন্তু তাদের বিরুদ্ধে যে মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে আমরা সেটির প্রতিবাদ জানাই।

আরো জানান,রোকেয়া বেগম এই এলাকার একজন মহিলা প্রসূতি হলে তাদের চিকিৎসার জন্য শ্যামনগর উপজেলা সদরে যেতে হয়। ড্রীম একটা হাসপাতাল নির্মাণ করতে যাচ্ছে, আমরা সাধুবাদ জানাই। কিন্তু ড্রীমের কাজকে যারা বাঁধা প্রদান করে আমরা তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

উল্লেখ্য, ড্রীম সংগঠন টি ২০০৫ সাল থেকে উপকূলীয় অঞ্চলের মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে নিয়োজিত রয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় গত ডিসেম্বর মাসে ড্রীমের উদ্যোগে তাদের নিজস্ব জমিতে চ্যারিটেবল হাসপাতাল ও সুপেয় খাবার পানির প্লান্ট এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন সাতক্ষীরা-৪ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য এস.এম জগলুল হায়দার, সহকারী কমিশনার ভূমি) আব্দুল হাই সিদ্দিকী, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ভবতোষ কুমার মন্ডল। কিন্তু স্থানীয় কিছু স্বার্থান্বেসী মহল তাদের ব্যক্তিস্বার্থ চরিতার্থ করার উদ্দেশ্যে এবং ড্রীম এর কাজকে বাধাগ্রস্ত করার লক্ষ্যে তাদের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা করেন। তারই বিরুদ্ধে এবং মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে এলাকাবাসী উক্ত মানববন্ধন করেন।

যশোরে বোরো ধান রোপণে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা

যশোরে বোরো ধান রোপণে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা

মোরশেদ আলম,যশোর ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি: যশোরের উপজেলা গুলিতে  সকাল থেকে পড়ন্ত বিকাল পর্যন্ত কৃষকরা ব্যস্ত সময় পার করছেন মাঠে মাঠে। দেখা গেছে, রাজগঞ্জ এলাকায় বোরো ধান রোপণের কাজ কোমর বেঁধেই করছেন কৃষকরা। শ্রমিক সংকট না থাকায় অনেকটাই স্বস্তিতে আছেন কৃষক ও গৃহস্থরা।
মনিরামপুর উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি বোরো মৌসুমে উপজেলা ব্যাপি হাইব্রিডসহ প্রায় ২৮ হাজার ৯০০ হেক্টর জমিতে ধান রোপণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। আর ধান রোপণের জন্য হাইব্রিডসহ ১ হাজার ৯৫৫ হেক্টর জমিতে বোরো বীজতলা তৈরি করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় অন্যান্য উপজেলার চেয়ে শীত ও কুয়াশায় বীজতলার তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি। কৃষকরা নিজেদের চাহিদা পূরণ করে আশপাশের অঞ্চলে বোরো ধানের চারা সরবরাহ করতে পারবেন বলে জানা গেছে। এতে কৃষকও লাভবান হবেন। চলতি মাসের মধ্যেই রাজগঞ্জ এলাকায় ধান রোপণ শেষ হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

রাজগঞ্জের ঝাঁপা ইউনিয়নের হানুয়ার গ্রামের আতিয়ার রহমান (৪৫), ঝাঁপা গ্রামের আলিম (৫০), খালিয়া গ্রামের সিরাজুল (৪০), মশ্বিমনগর ইউনিয়নের কাঠালতলা গ্রামের নাজিমুদ্দিন (৫৮), চালুয়াহাটি ইউনিয়নের মোবারকপুর গ্রামের ইসহাক আলী (৪৮) বলেন, আমাদের জমিতে আগেভাগেই আমরা ইরি-বোরো ধান রোপন করেছি। মাঠে আরো অনেকের জমিতে এখনো ধান রোপন কার্যক্রম চলছে। কোনো সমস্যা ছাড়াই এবছর ইরি-বোরো আবাদ শুরু করেছি। শেষও হবে ভালোই ভালোই আশা করি।
ঝাঁপা ইউনিয়নের উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তা ভগীরথ চন্দ্র বলেন, ধানই এই অঞ্চলের প্রধান ফসল। তাই আমরা সব সময় কৃষকের পাশে থেকে কৃষকদের জমি প্রস্তুতি থেকে শুরু করে আগাম পরামর্শ দিয়ে আসছি। আশা করছি চলতি মৌসুমে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ইরি-বোরো ধান চাষ হবে।
এ ছাড়াও আমরা কৃষকদের অধিক ফলনশীল ধান চাষের প্রতি উদ্ধুদ্ধ করে আসছি। তাই এবার কৃষকরা আগের চেয়ে বেশি পরিমাণ জমিতে অধিক ফলনশীল জাতের বোরো ধান করছেন। আশা করা হচ্ছে চলতি মাসের মধ্যেই রাজগঞ্জ অঞ্চলের পুরো মাঠেই ধান রোপণের কাজ শেষ হয়ে যাবে।

আ'লীগের শ্রম ও জনশক্তি উপকমিটির সদস্য হলেন আর্কিটেক্ট নিখিল চন্দ্র গুহ

আ'লীগের শ্রম ও জনশক্তি উপকমিটির সদস্য হলেন আর্কিটেক্ট নিখিল চন্দ্র গুহ

মোস্তাকিম ফারুকী: বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নব-গঠিত শ্রম ও জনশক্তি বিষয়ক উপকমিটির সদস্য নির্বাচিত হলেন বিশিষ্ট সমাজ সেবক আন্তর্জাতিক লায়ন্স ক্লাবের অন্যতম নেতা লায়ন আর্কিটেক্ট নিখিল চন্দ্র গুহ। গত বুধবার (১৩ জানুয়ারী) নবগঠিত আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে আওয়ামীলীগ এর শ্রম ও জনশক্তি উপকমিটি প্রকাশিত হয় যার চেয়ারম্যান জনাব মেজর জেনারেল আব্দুল হাফিজ, পিএসসি (অবঃ) এবং সদস্য সচিব জনাব হাবিবুর রহমান সিরাজ নির্বাচিত হন। উক্ত কমিটিতে জনাব আর্কিটেক্ট  নিখিল চন্দ্র গুহ কমিটির অন্যতম সদস্য নির্বাচিত হন।

নিখিল চন্দ্র গুহ ছাত্র জীবনে আওয়ামীলীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) শাখার সভাপতি ছিলেন। তিনি সদ্য সাবেক বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য ছিলেন। ব্যক্তি জীবনে একজন সফল মানুষ আর্কিটেক্ট নিখিল চন্দ্র গুহ অত্যন্ত দক্ষতার সাথে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন।

পটুয়াখালীর এই কৃতি সন্তান একাধারে একজন সফল ব্যবসায়ী, একজন দক্ষ সংগঠক এবং বর্তমানে বিশ্বের সর্ববৃহৎ সেবা সংগঠন লায়ন্স ক্লাবস ইন্টারন্যাশনাল এর জেলা ৩১৫এ১, বাংলাদেশ এর গভর্ণর (ডেজিগনেটেড) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ছাত্র জীবন থেকে রাজনীতি ও মানব সেবায় ব্রত এ গুণী ব্যক্তি সর্বদা জনগণ তথা মানুষের কল্যাণে কাজ করতে বদ্ধপরিকর।

সদস্যপদ প্রাপ্তির পর অনুভূতি প্রকাশ করে আর্কিটেক্ট নিখিল চন্দ্র গুহ বলেন, দলের উপকমিটিতে আমাকে মূল্যায়ন করায় আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এর প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। আমার উপর অর্পিত দলের এ দায়িত্ব আমি যথাযথভাবে পালন করবো।