লাকসাম মুদাফফরগঞ্জ আঞ্চলিক শাখা ছাত্রসেনার ৪১ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষীকি পালিত

লাকসাম মুদাফফরগঞ্জ আঞ্চলিক শাখা ছাত্রসেনার ৪১ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষীকি পালিত

লাকসাম ( কুমিল্লা)  প্রতিনিধি. বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা লাকসাম উপজেলার মুদাফরগঞ্জ আঞ্চলিক শাখার ব্যানারে ২১ শে জানুয়ারি -২০২১ বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় মুদাফরগঞ্জ বাজারে প্রতিষ্ঠা বার্ষীকির আনন্দ  র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা মুদাফরগঞ্জ আঞ্চলিক শাখার সভাপতি মাওলানা মোঃ মোবারক হোসেন এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ ওমর ফারুকের পরিচালনায় র‍্যালী ও আলোচনা সভায় উপস্থিত  ছিলেন - বিশিষ্ট আলেমদ্বীন ও আহলে সুন্নাত ওয়াল জামায়াত লাকসাম উপজেলা কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি হাফেজ মাওলানা মুফতি মীর হোসাইন পাটোয়ারী, মুদাফফরগঞ্জ ( উত্তর)  আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের সাধারণ সম্পাদক মুফতি মাওলানা আহসান হাবীব, কুমিল্লা মহানগর বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মুহাম্মদ আবুল খায়ের ( গোলজারী),বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনা মুদাফফরগঞ্জ ইউনিয়ন সভাপতি মাওলানা ইয়ার মোহাম্মদ জিলানী, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা নজরুল ইসলাম তাহেরী,সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মোতালেব হোসেন প্রমুখ।

র‍্যালীটি মুদাফফরগঞ্জ বাজারের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে।
সমাবেশ শেষে সংগঠনের দলীয় কার্যালয়ে দোয়া,মিলাদ ও মুনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।
দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন মাওলানা মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন জালালী (কেশতলা),মাওলানা কাওসার হোসাইন জালালী।

নারাঙ্গালী-কৃষ্ণচন্দ্রপুর সড়ক উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন এমপি নাসির উদ্দিন

নারাঙ্গালী-কৃষ্ণচন্দ্রপুর সড়ক উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেন এমপি নাসির উদ্দিন

মোঃ ইকরামুল করিম, ঝিকরগাছা প্রতিনিধিঃযশোরের ঝিকরগাছায় বৃহঃবার বিকাল ৪টায় বাকড়া জিসি-বাগআঁচড়া জিসি ভায়া শংকরপুর ইউনিয়ন পরিষদ উপজেলা সড়ক উন্নয়ন ও নারাঙ্গালী-কৃষ্ণচন্দ্রপুর সড়ক কার্পেটিং দ্বারা উন্নয়ন কাজের ১৬,০০,০০,০০০(ষোল কোটি) টাকা ব্যয়ের রাস্তা শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে।

বাঁকড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নিসার আলীর সভাপতিত্বে শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যশোর-২ (চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অবসরপ্রাপ্ত) ডাক্তার অধ্যাপক নাসির উদ্দিন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি ও পৌর মেয়র মোস্তফা আনোয়ার পাশা জামাল, ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি চৌধুরী রমজান শরীফ বাদশা, ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ডাক্তার মোস্তাফিজুর রহমান মুসা, ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সেলিম রেজা, ঝিকরগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রাজ্জাক। এছাড়াও বাকড়া, হাজিরবাগ ও শংকরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

অবৈধ সম্পদক অর্জন ঝিনাইদহের সাবেক ওসি ও তার স্ত্রীর নামে মামলা

অবৈধ সম্পদক অর্জন ঝিনাইদহের সাবেক ওসি ও তার  স্ত্রীর নামে মামলা

খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধানঃঝিনাইদহ সদর থানার  সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হরেন্দ্র নাথ সরকার ও তার স্ত্রী কৃষ্ণা রানী অধিকারীর বিরুদ্ধে তিন কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ এনে পৃথক দুটি মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ওসি হরেন্দ্র নাথ সরকার ও তার স্ত্রী কৃষ্ণারানী অধিকারীর বাড়ি সাতক্ষীরার আশাশুনি বাশীরামপুর গ্রামে। সাবেক ওসি হরেন্দ্র বর্তমানে রাঙামাটি পুলিশের বিশেষ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের (পিএসটিএস) পরিদর্শক। কুষ্টিয়া দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মো. নাছরুল্লাহ হোসাইন বাদী হয়ে মামলা দুটি করেন। মামলার এজাহারে বলা হয়, ওসি হরেন্দ্র নাথ সরকার অবৈধ ভাবে ২ কোটি ৮৭ লাখ ৫৭ হাজার ৭৮৪ টাকা আয় করেছেন। এই টাকার কোনো ব্যাখ্যা তিনি দিতে পারেননি। একই ভাবে তার স্ত্রী কৃষ্ণারানী অধিকারী ৩২ লাখ ৮০ হাজার ৭০৪ টাকার কোনো ব্যাখ্যা দিতে পারেননি। ২০০৪ সালের দুর্নীতি দমন কমিশন আইনের ২৬(২) ও ২৭(১) ধারা এবং ২০১২ সালের ৪(২) ও ৪(৩) এর মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনের মামলা দুটি রজু হয়। মামলার বাদী কুষ্টিয়া দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মো. নাছরুল্লাহ হোসাইন বলেন, আইন মোতাবেক আসামিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ বিষয়ে বর্তমানে রাঙামাটি জেলার পুলিশের বিশেষ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে (পিএসটিএস) কর্মরত পুলিশ পরিদর্শক হরেন্দ্রনাথ সরকারের সাথে মুঠোফোনে কথা হয়। তিনি জানান, হ্যাঁ, এর আগে দুদক একটা তদন্ত করেছিলো। তবে মামলা হয়েছে সেটা আমার জানা নাই। প্লিজ দয়া করে বিষয়টি নিউজ টিউজে আইনেন না। উনারা তো আমার ফাইলপত্রও ঠিকভাবে দেখে নাই। আমাকে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগও দেই নাই। উনারা আন্দাজে কীভাবে কী করলেন আমি বুঝলাম না।

আশাশুনি উপজেলা পরিষদের মাসিক সভা

আশাশুনি উপজেলা পরিষদের মাসিক সভা

আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি,  সাতক্ষীরা  প্রতিনিধিঃ  আশাশুনি উপজেলা পরিষদের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আশাশুনি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মোস্তাকিম এর সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। আশাশুনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজার সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ সুদেষ্ণা সরকার, ভাইস চেয়ারম্যান অসীম বরণ চক্রবর্তী, মোসলেমা খাতুন মিলি, উপজেলা প্রকৌশলী আক্তার হোসেন, শিক্ষা কর্মকর্তা কাজী সাইফুল ইসলাম, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সোহাগ খান, ইউপি চেয়ারম্যান প্রভাষক মোনায়েম হোসেন, স ম সেলিম রেজা মিলন,দীপঙ্কর কুমার সরকার, আব্দুল আলিম মোল্লা,হারুন চৌধুরী ও উপজেলা পরিষদের সিএ নাজমুল হুদা। সভায় সরকারি রাস্তার পাশে যে সমস্ত  মৎস্য ঘের রয়েছে সেই সকল মৎস্য ঘের মালিকদের  বিকল্প বাঁধ মৎস্য ঘের করতে হবে। যদি কোন মৎস্য ঘের মালিক এই সিদ্ধান্ত অমান্য করে মৎস্য ঘের পরিচালনা করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

কয়রা জাকারিয়া শিক্ষা নিকেতনে যৌন হয়রানী প্রতিরোধে কমিটি গঠন

কয়রা জাকারিয়া শিক্ষা নিকেতনে যৌন হয়রানী প্রতিরোধে কমিটি গঠন

কয়রা(খুলনা)প্রতিনিধিঃ কয়রা উপজেলা জলবায়ু পরিষদের উদ্যেগে উপজেলার ঐতিহ্যবাহি বিদ্যাপিঠ জাকারিয়া শিক্ষা নিকেতন (মাধ্যমিক) বিদ্যালয়ে যৌন হয়রানী প্রতিরোধে কমিটি গঠন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় বিদ্যালয়ের হল রুমে প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক জিএম রেজাউল ইসলামের সভাপতিত্বে কমিটি গঠন উপলক্ষে আলোচনা রাখেন উপজেলা জলবায়ু পরিষদের সদস্য সাংবাদিক রিয়াছাদ আলী,সিএসআরএল প্রকল্পের ফিল্ড অফিসার নিরাপদ মুন্ডা, ইউপি সদস্য আয়শা খাতুন,শিক্ষক মোঃ বশির উদ্দিন, মোঃ আবুল বাশার প্রমুখ। আলোচনা শেষে প্রতিষ্ঠানের প্রধান জিএম রেজাউল ইসলামকে সার্বিক দায়িত্বে ও শিক্ষক মোঃ বশির উদ্দিনকে আহবায়ক করে ৭ সদস্য বিশিষ্ঠ যৌন হয়রানী প্রতিরোধে কমিটি গঠন করা হয়।

আশাশুনির হাড়িভাঙ্গায় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলার উদ্বোধন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান - মোস্তাকিম

আশাশুনির হাড়িভাঙ্গায় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলার উদ্বোধন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান - মোস্তাকিম

আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি  সাতক্ষীরা  প্রতিনিধিঃআশাশুনি উপজেলার সদর ইউনিয়নের হাড়িভাঙ্গায় চারদলীয় ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে হাড়িভাঙ্গা স্কুল মাঠে হাড়িভাঙ্গা প্রান্তিক যুব সংঘের আয়োজনে ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন করেন আশাশুনি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মোস্তাকিম। উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এবিএম মোস্তাকিম বলেন, একমাত্র খেলাধুলায় পারে সুস্থ সুন্দর জীবন গঠন ও সমাজকে রক্ষা করতে। মাদক, সন্ত্রাস ও ইভটিজিং থেকে যুব সমাজকে দূরে রাখতে বর্তমান সরকার খেলাধুলার প্রতি যুবকদের আগ্রহী করার জন্য বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। তিনি সকলকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার আহ্বান জানান। শিক্ষক মৃনাল কান্তি সরকারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন, আশাশুনি সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক স,ম সেলিম রেজা মিলন, জেলা পরিষদ সদস্য ও উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মহিতুর রহমান,উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সামাদ বাচ্চু,ইউপি সদস্য সন্তোষ কুমার মন্ডল, ইন্দ্রা রানী সরকার। টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলায় অভি স্যাটেলাইট সেন্টার কাশিবাটি ও চাঁদপুর জিং ফুটবল একাডেমি অংশগ্রহণ করে। হাজার হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা মূলক এ খেলায় অভি স্যাটেলাইট সেন্টার কাশিবাটি এক গোলে বিজয়ী হয়। খেলা পরিচালনা করেন সমু চৌধুরী।হাড়িভাঙ্গা প্রান্তিক যুব সংঘের কর্মকর্তা ও সদস্য বৃন্দের আয়োজনে টুর্নামেন্টের সফল পরিসমাপ্তি হয়।

ঝিনাইদহে ২য় দিনের অভিযান গুড়িয়ে দেওয়া হলো ১০ টি ইটভাটা

ঝিনাইদহে ২য় দিনের অভিযান গুড়িয়ে দেওয়া হলো ১০ টি ইটভাটা

খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধানঃ ঝিনাইদহে পরিবেশ অধিদপ্তরের অভিযানের ২য় দিনে গুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ১০ টি অবৈধ ইটভাটা। এ নিয়ে গত ২ দিনে জেলার সদর, হরিণাকুন্ডু ও শৈলকুপা উপজেলায় ২০ টি অবৈধ ইটভাটা গুড়িয়ে দেওয়া হয়। এছাড়াও ৪ টি ইটভাটায় জরিমানা করা হয় ২৪ লাখ টাকা। বৃহস্পতিবার সকালে শৈলকুপা উপজেলার পৌর এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এর নেতৃত্বে দেন পরিবেশ অধিদপ্তরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রোজিনা আক্তার ও যশোর পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সাঈদ আনোয়ার। সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত পৌর ও উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে অবৈধভাবে গড়ে ওঠা ১০ টি ইটভাটা গুড়িয়ে দেওয়া হয়। 

উপ-পরিচালক সাঈদ আনোয়ার বলেন, আমরা বুধবার থেকে ঝিনাইদহে অভিযান শুরু করেছি। যে ইটভাটাগুলোতে পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র নেই, জেলা প্রশাসনের অনুমোদন নেই। এসব ইটভাটার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছি। আমাদের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ঝিনাইদহে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারেক আল মেহেদীর বিদায় সংবর্ধনা

ঝিনাইদহে অতিরিক্ত  পুলিশ  সুপার  তারেক আল মেহেদীর বিদায় সংবর্ধনা

খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধানঃ ঝিনাইদহ জেলা হতে মাগুরা জেলায় বদলি হওয়ায় জনাব তারেক আল মেহেদী,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার,সদর,ঝিনাইদহ কে পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে বিদায় সংবর্ধনা জানান ঝিনাইদহ জেলার পুলিশ সুপার জানাব মুনতাসিরুল ইসলাম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জনাব মোঃ আনোয়ার সাঈদ,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ),জনাব মোঃ মোহাইমিনুল ইসলাম,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার,কোটচাঁদপুর সার্কেল,জনাব আবুল বাশার,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার,ঝিনাইদহ সার্কেল,জনাব মোঃ আরিফুল ইসলাম,শৈলকুপা  সার্কেল সহ সকল থানার অফিসার ইনচার্জগন।

প্রফিট ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র ও মাক্স বিতরন

প্রফিট ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শীতবস্ত্র ও মাক্স বিতরন

মোঃ রাশেদুল ইসলাম রাশেদ,উপজেলা প্রতিনিধি:- ২১ জানুয়ারি রোজ বৃহস্পতিবার ২০২০ ইং প্রফিট ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে  লালমনিরহাট জেলা কোর্ট প্রাঙ্গণে জনসাধারনের মাঝে মাক্স বিতরন করেন এবং লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় অসহায় শীতার্তদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে কম্বল বিতরণ করেছেন প্রফিট ফাউন্ডেশন এর নির্বাহী পরিচালক নুরুজ্জামান আহমেদ।
রবিবার থেকে রাতে তিনি উপজেলার দলগ্রাম, মদাতী, ভোটমারী ও তুষভান্ডার ইউনিয়নসহ বিভিন্ন স্থানে এবং এতিম খানায় ঘুরে ঘুরে ইয়ুথ গ্রুপের সদস্যদের সাথে নিয়ে এক্সিম ব্যাংক ও মার্কেন্টাইল ব্যাংক এর দেওয়া ৩৫০টি শীতার্ত মানুষের শরীরে কম্বল জড়িয়ে দেন ।
মদাতী এলাকার বাসিন্দা রশিদা বেওয়া (৬৭), হাফেজা (৬৫), প্রতিবন্ধী আব্দুল মজিদ (৭০) রাতে শীত বস্ত্র পেয়ে আবেগে কেদে ফেলেন।
ভোটমারী চর এলাকায় প্রতিবন্ধী জুথি বলেন, শীতে কষ্ট পাচ্ছিলাম। হঠাৎ করে রাতে বাড়িতে এসে ডেকে শীত নিবারনের জন্য কম্বল দেওয়ায় বড়ই উপকার হয়েছে।
এছাড়াও সড়কে দাঁড়িয়ে থেকে রাস্তায় চলাচল করা ভিক্ষুকদের হাতে শীত বস্ত্র তুলে দেন ।
এর আগে মুসলিম এইড'র দেওয়া ৫০৪ টি পরিবারের জন্য হাইজিন প্যাকেজ ও শীতকালীন প্যাকেজ প্রদান করা হয়। এছাড়াও এরমধ্যে ১১৫টি পরিবারকে নগদ ৩০০০ টাকা করে উপজেলার শাখাতী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বিতরণ করেন। কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা রবিউল হাসান'র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক মোঃ আবু জাফর, বিশেষ অতিথি উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমুখ

ভারতের উপহার ২০ লাখ করোনার টিকা পেল বাংলাদেশ

ভারতের উপহার ২০ লাখ করোনার টিকা পেল বাংলাদেশ

ডেস্ক রিপোর্টঃ উপহার হিসেবে ২০ লাখ করোনার টিকা আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশের হাতে তুলে দিল ভারত।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা দেড়টার দিকে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের হাতে উপহারের টিকা তুলে দেয় ভারত।বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের হাতে পৃথকভাবে করোনার টিকার দুটি বক্স তুলে দেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী।ভারত উপহার হিসেবে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা উদ্ভাবিত ও দেশটির সেরাম ইনস্টিটিউট প্রস্তুতকৃত ২০ লাখ করোনার টিকা বাংলাদেশকে দিয়েছে। উপহারের এই টিকা আজই বাংলাদেশে আসে।টিকা নিয়ে এয়ার ইন্ডিয়ার একটি উড়োজাহাজ আজ বেলা ১১টার দিকে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

উপহারের টিকার বাইরে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট ও বেক্সিমকো ফার্মার চুক্তি রয়েছে।অনলাইনে নিবন্ধন ছাড়া কাউকে করোনার এই টিকা দেবে না বাংলাদেশ সরকার। রাজধানীর চারটি হাসপাতালে এ মাসের শেষ দিকে টিকাদানের মহড়া বা ড্রাই রান হবে।ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে দেশব্যাপী টিকা কার্যক্রম শুরু করার প্রস্তুতি নিচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

শুরুতে বেসরকারি প্রতিষ্ঠান টিকা দেওয়ার অনুমতি পাচ্ছে না।
তথ্যের উৎসঃ প্রথম আলো 

উলিপুরে জাল সনদে চিকিৎসক সেজে প্রতারণার অভিযোগ

উলিপুরে জাল সনদে চিকিৎসক সেজে প্রতারণার অভিযোগ

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার পান্ডুল ইউনিয়নে জাল সনদে চিকিৎসক সেজে প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে অভিনব পদ্ধতিতে চিকিৎসা প্রদানসহ রোগীদের ধোঁকা দিয়ে বোকা বানানোর অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সহ উপজেলা প্রশাসন বরাবর অভিযোগ পত্র দাখিল করেও কোনো প্রতিকার না-পেয়ে হতাশ স্থানীয় সচেতন মহল।

অভিযোগে জানা যায়, পান্ডুল ইউনিয়নের ভন্নাটারী (কুয়ার পাড়) গ্রামের মোঃ হান্নান সরকারের পুত্র মোঃ নুরনবী সরকার প্রায় ১ বৎসর ধরে নিজেকে মেডিকেল  অফিসার, শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ সহ বড় চিকিৎসক হিসেবে পরিচয় দিয়ে আসছেন। এছাড়াও অত্যাধুনিক মেশিনের সাহায্যে কিডনি, লিভার, ফুসফুস পাকস্থলী, জন্ডিস, চক্ষুরোগ, নাক-কান ও গলার রোগ নির্ণয় করে চিকিৎসা প্রদান করা হয়। এহেন চটকদার বিজ্ঞাপন ব্যবহার করে দালালদের মাধ্যমে নিরীহ ও সাধারণ মানুষজনকে  চিকিৎসার নামে ধোঁকা দিয়ে নিজের অপকর্ম দোর্দন্ড প্রতাপে চালিয়ে আসছেন। এতে ওই এলাকাসহ আশপাশের নিরীহ সাধারণ মানুষজন চটকদার বিজ্ঞাপন ও দালালদের ফাঁদে পড়ে চিকিৎসার নামে অপচিকিৎসা পেয়ে পড়ছেন শারীরিক ও অর্থনৈতিক ঝুঁকিতে।  

অভিযোগে আরও জানা যায়, তিনি একই নামের অপর একজনের এইচ,আর,টি,ডি মেডিকেল ইন্সটিটিউট, ঢাকা প্রদত্ত সনদ এবং ওই ব্যক্তির রেজিষ্ট্রেশন নম্বর ১৭১৩১ সাইনবোর্ড ও ব্যবস্থাপত্রে ব্যবহার করে আসছেন।

অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে উলিপুর স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সুভাষ চন্দ্র সরকার জানান, এলাকাবাসীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে তিনি অভিযুক্তের চেম্বারে গিয়ে একটি মেশিন  দেখতে পান। তবে সেটি নষ্ট থাকার কথা জানিয়ে বলেন যে, তিনি তার সনদের কপি নিয়ে এসেছেন এবং তাকে ব্যবস্থাপত্রে ডাঃ লিখতে  নিষেধ  করেছেন।  তার নিকট ঢাকা মিরপুরে অবস্থিত পৃথক ২ টি প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন মেয়াদী ২ টি ডিপ্লোমা মেডিকেল সনদ পাওয়া গেছে। তবে যাচাই-বাছাই  করে সিভিল সার্জন বরাবর প্রতিবেদন দাখিল করবেন বলে জানান তিনি।

এব্যাপারে ভুয়া ডাক্তার হিসেবে অভিযুক্ত মোঃ নুরনবী সরকার দাবী করেন, তিনি ঢাকার মিরপুর ১২ এবং ১০- এ অবস্থিত এস. পি. কে.এস থেকে ২ বৎসর মেয়াদি  ডিপ্লোমা মেডিকেল এবং এইচ.আর.টি.ডি ডিপ্লোমা মেডিকেল ইন্সটিটিউট থেকে ১ বৎসর মেয়াদি অপথালমোলজি'র ওপর কোর্স করেছেন। তবে মেশিন দ্বারা রোগ নির্ণয়  করার কথা অস্বীকার করেন তিনি। এছাড়াও স্বাস্থ্য কর্মকর্তার নির্দেশ মেনে ব্যবস্থাপত্রে ডাঃ লেখা বাদ দিয়েছেন জানিয়ে বলেন, রোগীরা আসলে আমার কি দোষ?

যুবলীগ নেতা হত্যা মামলায় পুলিশের খাতায় পলাতক থাকলেও প্রকাশে ঘুরে বেড়ান ইউনিয়ন চেয়ারম্যান

যুবলীগ নেতা হত্যা মামলায় পুলিশের খাতায় পলাতক থাকলেও প্রকাশে ঘুরে বেড়ান ইউনিয়ন চেয়ারম্যান

খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার,খুলনা ব্যুরো প্রধান:২০১১ সাল থেকে তিনি পলাতক। হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে একের পর এক গ্রেফতারি পরোয়ান জারি হলেও তিনি পলাতক থাকায় আজ পর্যন্ত পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি। অথচ পলাতক থেকে তিনি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন করে বিজয়ী হয়েছে। করছেন মাদক, সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশ। ভাস্কর্য ভাংচুরের প্রতিবাদে করছেন প্রতিবাদ সমাবেশ। যেখানে অংশ নিচ্ছেন জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ। জেলা পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা। আইনের চোঁখে বছরের পর বছর পলাতক থাকলেও বীরদর্পে ঘুরছেন এলাকায়। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে নির্বাচন করে জয়ী হয়ে চালাচ্ছেন পরিষদ। এত সবের পরও তিনি পেয়েছেন কমিউনিটি পুলিশিংয়ের জেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যানের পুরস্কার। জানা জানি হওয়ার পর যা হতবাক করেছে জেলার সর্বস্তরের মানুষকে। তিনি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার গান্না ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন মালিতা।
অথচ দীর্ঘ ১০ বছর পেরিয়ে গেলে হত্যার বিচার না পাওয়ায় হতাশা বিরাজ করছে নিহত যুবলীগ নেতার পরিবারে।
জানা যায়, ২০১০ সালে ৭ জুলাই সন্ধ্যায় ঝিনাইদহ সদর উপজেলার গান্না বাজার থেকে কাশিমনগর বাড়ি ফেরার পথে খালের ব্রীজের উপরে বোমা হামলায় মারাত্বক আহত হন গান্নার তৎকালিন ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক জাকির হোসেন মন্ডল শান্তি। এর ৩দিন পর ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এ ঘটনায় ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি বিস্ফোরক ও আরেকটি হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহতের শশুর সিরাজুল ইসলাম মালিতা। ঘটনার সাথে জড়িত ৮ আসামীকে পুলিশ গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্য থেকে ৪ আসামী নাসির মালিথার অর্থায়নে যুবলীগ নেতাকে হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়। মামলার ৯নং আসামি হয়ে যান নাসির মালিতা। এরপর ২০১১ সালের ২৪ অক্টোবর মামলার চার্জসীট জমা দেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। তাতেও চেয়ারম্যান নাসির মালিতাসহ ১১জনকে অভিযুক্ত করা হয়। আদালতে চার্জসীট জমা হলে আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি করে বিচারক। সেই থেকে চেয়ারম্যান নাসির মালিতাসহ ৪ আসামী পলাতক। এ ব্যাপারে আদালতে হাজির হওয়ার জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। কিন্তু এর মধ্যে নাসির মালিথা কুটকৌশল অবলম্বন করে ভুয়া রিকল থানায় জমা দিয়ে পার পেয়ে যান। বিষয়টি বর্তমানে ঝিনাইদহ অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতের নজরে আসলে নতুন করে দুটি মামলায় পলাতক আসামীদের বিরুদ্ধে পুণরায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে।
দীর্ঘ ১০ বছরে হত্যা মামলা বিচার না পেয়ে হতাশা বিরাজ করছে ভুক্তভোগি পরিবারের মাঝে। মামলার বাদি সিরাজুল ইসলাম মালিতা বলেন, এত বছর হয়ে গেল। আজও হত্যার বিচার হলো না। চেয়ারম্যান নাসির পলাতক দেখিয়েছে। কিন্তু সে নির্বাচন করলো। নির্বাচনে জিতল। এলাকায় এখনও ঘুরে বেরাচ্ছে। আমি দ্রুত এ হত্যার বিচার দাবী করছি।
এ ব্যাপারে মামলার পলাতক আসামী চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন মালিথার বলেন, হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে বাদী পক্ষের সাথে ওই সময় মামলাটি আপোস মিমাংসা করি। আমি পলাতক নয় এবং এটি আমার বিরুদ্ধে নতুন করে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।
এ ব্যাপারে সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে আমার জানা নেই। তবে খোঁজ খবর নিয়ে দেখছি