সিরাজগঞ্জে প্রাণিসম্পদ বিভাগের তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ বিষয়ক কর্মশালা

সিরাজগঞ্জে প্রাণিসম্পদ  বিভাগের   তথ্য  সংগ্রহ ও সংরক্ষণ  বিষয়ক  কর্মশালা
  




মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জ  সদর উপজেলা  প্রাণিসম্পদ  বিভাগের  উদ্যাগে  তথ্য সংগ্রহ   ও সংরক্ষণ  বিষয়ক  কর্মশালা  অনুষ্ঠিত  হয়েছে । 
মঙ্গলবার  ২৮ জুলাই  সকাল সারে  ১০ টায় 
উপজেলা  প্রাণিসম্পদ অফিসের  ভেটেরিনারি  সার্জন  ডাঃ  মোঃ  এস এম  মাহমুদুল  হক  এর সভাপতিত্বে  প্রধান  অতিথি  বক্তব্য  রাখেন  উপজেলা প্রাণিসম্পদ  কর্মকর্তা  ডাঃ  মোঃ  হারুন -অর -রশিদ। 
প্রধান  অতিথি তাঁর  বক্তব্য  বলেন , জেলা প্রাণিসম্পদ  কর্মকর্তা  আলহাজ্ব  ডাঃ  মোঃ  আক্তারুজ্জামান ভূইয়ার   এর  দিকনির্দেশনা  মহামারী  করোনা  ভাইরাস এর সময়ও থেমেনি আমাদের  কার্যক্রম।আমার  নিয়মিত  গবাদিপশু  চিকিৎসা  দিয়ে যাচ্ছি ও আসন্ন  ঈদ  উল  আযহা  উপলক্ষে  প্রতি হাটে আমাদের ভেটেরিনারি    মেডিকেল  টিম কাজ করছে।
আজ প্রাণিসম্পদ  ও ডেইরী  উন্নয়ন  প্রকল্প  এল ডি ডি পি এর আওতায়  উপজেলার গ্রাম ভিত্তিক গবাদিপশু, পাখির খামারের তথ্য, আশ্রয়ণ প্রকল্পের তথ্য , হাট বাজারের তথ্য ,   বন্যার তথ্য  সংগ্রহ , ব্যবসায়ীদের তথ্য  ও সংরক্ষণের জন্য  এলডিডিপি প্রকল্পের কর্মকর্তা  ও কর্মচারী দের ১ দিনের কর্মশালায় শেষে  এল ইও, এলএফএ এবং  এল এসপি দের মধ্যে  তথ্য  সংরক্ষণের জন্য  ডায়েরী  বিতরণ  করা হয়। এছাড়াও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত  এলাকা গুলো  তালিকা   করে গবাদিপশুর খাদ্য  আসলে বিতরণ  করা হবে। তবে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে পশু সম্পদের যথেষ্ট গুরুত্ব রয়েছে। আদিকাল থেকেই গবাদিপশু এদেশের প্রত্যকটি কৃষকের বাড়ীতে হাল চাষ, গাড়ী টানা, দুধ ও মাংস উৎপাদনের জন্য পালন হয়ে আসছে। বর্তমানে কৃষি যন্ত্রায়ন এবং বিভিন্ন ধরনের যানবাহন সহজলভ্য হওয়ার কারনে গবাদিপশু দ্বারা হাল চাষ ও মালামাল পরিবহণের কাজে ব্যবহার অনেকটা কমেছে। বর্তমানে শুধু দুধ ও মাংস উৎপাদনের লক্ষ্যে গবাদিপশু পালন করা হয়ে থাকে। কিন্তু আমাদের দেশের অধিকাংশ গবাদিপশু অনুন্নত জাতের হওয়ায় এদের দুধ ও মাংস উৎপাদন ক্ষমতা অত্যন্ত কম।
এসময়  উপ সহকারী  প্রাণিসম্পদ  কর্মকর্তা  নজরুল  ইসলাম , ডাঃ মৌসুমী খাতুন  
সিরাজগঞ্জ  পোল্ট্রি  এ্যাসিয়েশনের সাংগঠনিক  সম্পাদক  মাহফুজুর রহমান , মোঃ ইউসুফ  আলী  সহ অন্যান্যরা উপস্থিত  ছিলেন ।

মিরসরাইয়ে ‘শেষ বিদায়ের বন্ধু’র এ্যাম্বুলেন্স সেবার উদ্বোধন

মিরসরাইয়ে ‘শেষ বিদায়ের বন্ধু’র এ্যাম্বুলেন্স সেবার উদ্বোধন





মিরসরাই প্রতিনিধিঃকরোনাকালীন সময়ে আত্মমানবতার সেবায় মৃত মানুষের দাফন কাফনের কাজে নিয়োজিত সংগঠন ‘শেষ বিদায়ের বন্ধু’র চলমান দাফন কাফন সেবার পাশাপাশি ২৪ ঘন্টা এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) বিকালে সংগঠনের প্রধান কার্যালয় প্রাঙ্গনে ২৪ ঘন্টা এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিসের  শুভ উদ্বোধন করেন মিরসরাই উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জসিম উদ্দিন। অনুষ্ঠানের শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন, হাফেজ আবরার।

সংগঠনের প্রধান সমন্বয়ক

সাংবাদিক নুরুল আলমের সভাপতিত্বে ও সমন্বয়ক মোঃ নিজাম উদ্দিনের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখনে মিরসরাই সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এমরান উদ্দিন। প্রধান আলোচক ছিলেন কিফটন গ্রুপের সিইও ও বিজিএমই পরিচালক এমডিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মিরসরাই উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এম আলা উদ্দিন, কাষ্টমস কর্মকর্তা ও এ্যাম্বুলেন্স তহবিল সংগ্রহ কমিটির আহবায়ক মোঃ কামরুল ইসলাম চৌধুরী, বিশিষ্ট চিকিৎসক, মাতৃকা হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রফেসর ডা. মোঃ জামশেদ আলম, দুর্গাপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম খোকা প্রমুখ। এসময় উপস্থিত ছিলেন মিরসরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক এম সাইফুল্লাহ দিদার, সদস্য মোজাহের হোসেন চৌধুরী সোহেল, শেষ বিদায়ের বন্ধু সংগঠনের সদস্য এজেডএম সাইফুল ইসলাম টুটুল, ওমান প্রবাসী সমাজকর্মী হাজ্বী আবদুল মতিন, সলিম উদ্দিন, আনিসুর রহমান সহ শেষ বিদায়ের বন্ধু সংগঠনের বিভিন্ন ইউনিটের সদস্যবৃন্দ। আলোচনা সভা শেষে দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন সংগঠনের ধর্মীয় পরামর্শক হাফেজ মাওলানা শোয়াইব।
 
উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে সংগঠনের কার্যালয়ে এ্যাম্বুলেন্স ব্যবস্থাপনা কমিটির বৈঠকে মিরসরাই উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জসিম উদ্দিন সকলের মতামতের ভিত্তিতে যুগোপযোগী এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস চার্জ নির্ধারণ করে দেন। মিরসরাই থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল ২হাজার টাকা, মিরসরাই থেকে  ফেনী ১৫শত টাকা, মিরসরাই থেকে ঢাকা ৬হাজার টাকা।
বিশেষ ক্ষেত্রে চার্জ কমতে ও বাড়তে পারে। 

ঈদুল আযাহা'র শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তরুণ সাংবাদিক আর.জে মিজানুর রহমান ইমন

ঈদুল আযাহা'র শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তরুণ সাংবাদিক আর.জে মিজানুর রহমান ইমন






স্টাফ রিপোর্টার :  জান্নাত আক্তার (মীম পবিত্র ঈদুল আযাহা উপলক্ষে ময়মনসিংহ তারাকান্দা উপজেলা ও দলের সর্বস্তরের নেতাকর্মী সহ সারা দেশ বাসীকে মাননীয় গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী জনাব শরীফ আহমেদ এমপি মহোদয়ে পক্ষ থেকে ঈদুল আযাহা'র শুভেচ্ছা জানিয়েছেন "জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন" তারাকান্দা উপজেলা শাখা কমিটির সাধারণ সম্পাদক, সাংবাদিক আর.জে মিজানুর রহমান ইমন । গতকালকে জাতীয় সাংবাদিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন, তারাকান্দা উপজেলা কমিটির এক আলোচনা সভায় তিনি বলেন, এই উৎসবে আমি মহান আল্লাহর কাছে বাংলাদেশ সহ সমগ্র মুসলিম সমৃদ্ধির  শান্তি কামনা করছি । পবিত্র ঈদুল আযাহা ধনী গরীব নির্বিশেষে সকলের জীবনে বয়ে আনুক আনন্দ ও অনাবিল সুখ শান্তি  । তিনি আরো বলেন, বছরের দুইটি উৎসবের  মধ্যে একটি হচ্ছে কোরবানীর ঈদ  । সমাজের হিংসা বিদ্বেষ হানাহানির থেকে মুক্তির জন্য কোরবানি মহান আল্লাহ তায়ালার রহমত  । এক প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, ঈদ মানেই খুশি, ঈদ মানেই আনন্দ, এই ঈদে সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে, ঈদের আনন্দ হোক মধুময়, একে অপরের প্রতি সহনশীলতা সম্প্রীতি গড়ে তুলেন  । ঈদ সবার জীবনে নিয়ে আসুক শান্তিময় ভালোবাসা সবাই কে পবিত্র ঈদুল আযাহার শুভেচ্ছা  জানাই  ।

মাধবপুরে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার বাঘাসুরা ইউনিয়নের তালিকায় অনিয়ম

মাধবপুরে প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার বাঘাসুরা ইউনিয়নের তালিকায় অনিয়ম




লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধোধনকৃত ২৫ ‘শ টাকার ঈদ উপহার হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার ১১ নং বাঘাসুরা ইউনিয়নের তালিকায় ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। ওই ইউনিয়নের উপকারভোগী ৯৩৩ জনের মাস্টার তালিকায় স্বজনপ্রীতি, মৃত ব্যাক্তির নাম ও একই মোবাইল নাম্বার একাধিকবার ব্যবহার করা হয়েছে। অনুসন্ধানের প্রাথমিক তথ্য বাচাইয়ে দেখা যায়, বাঘাসুরা ইউনিয়নের সবচেয়ে বেশি অনিয়ম হয়েছে ১নং ওয়ার্ডে। আর এই ১নং ওয়ার্ডেই বর্তমান চার বারের চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দীন আহমেদের বাড়ি।

এ অনিয়মকে অনেকেই ভুল বশত নয় বলে জানান ইচ্ছাকৃতভাবে গরিবের জন্য দেয়া প্রাধানমন্ত্রীর এ উপহার আত্মসাতের উদ্দেশ্যেই চেয়ারম্যান শাহাবুদ্দীন ও মেম্বার আমির আলী যাদুর জোগসাজেসে এই তালিকা প্রণয়ন করেন। প্রাথমিক বাছাইয়ে বেরিয়ে আসে ১নং ওয়ার্ডের বেশ কিছু অনিয়ম। যেখানে ১ মোবাইল নাম্বার ব্যবহার করা হয়েছে বিভিন্ন লোকের নামে। শুধু নামের পাশে নয় পাশপাশি তালিকায় দেখানো হয়েছে ভিন্ন গ্রামও ১নং ওয়ার্ডে প্রণিত। 

তালিকায় ৮২ নং ক্রমিকে মোঃ শেফু মিয়া তাজপুর গ্রামের বাসিন্দা। তার মোবাইল নাম্বার ০১৭৭১৯০০৬৪১ একজন টমটম চালক। এই নাম্বারটি তালিকায় ৬৫, ৬৬, ৬৮, ৬৯, ৭০, ক্রমিকে মোট দেয়া হয়েছে ৬বার। যা বিভিন্ন নামে ও ভিন্ন ভিন্ন গ্রাম দিয়ে ব্যবহার করা হয়েছে। শিফু মিয়ার সাথে কথা হলে বাকি ব্যক্তি দু’জনকে চিনলেও তাদের নামের পাশে নাম্বার দেয়ার ব্যাপারে জানেন না কিছুই। ০১৭০৫৭৬৪২৬০এই 

নাম্বারটি রিয়াজনগর গ্রামের আল-আমিন নামের একজন রাজমিস্ত্রীর তার নাম্বার ব্যবহার করা হয়েছে দু’বার। এ ব্যাপারে আল-আমিন জানায়। আমার নাম্বার দু’বার কেন ব্যবহার করবে
০১৭০৩৪৮০৫১৪ এই নাম্বারটি রাধাপুর গ্রামের দরিদ্র খোদেজা বেগমের। তাজপুর বিলাল মিয়ার নামের পাশেও এই নাম্বার দেয়া হয়েছে। ফোন দিলে কথা হয় খোদেজা বেগমের ছেলের সাথে সে জানায় তারা ভাই বোন তবে বিলাল মিয়া।

স্বচ্ছল ব্যক্তি টাকা উত্তোলন করার স্বীকারও করেন তিনি ০১৭১৭৯৭১৮৮৫ এই নাম্বারটি তাজপুর গ্রামের রফিক মিয়ার। একই গ্রামের গোলাপ চানের পাশেও নাম্বারটি দেয়া সম্পর্কে মামাতো ভাই বোন বলে জানান রফিক।
০১৭৭১০৬২৯৭৭ এই নাম্বারের মালিক তাজপুরের সাহেদা বেগম। তার নাম্বার ব্যবহার করা হয়েছে ২বার ফতেহপুরের লিটন মিয়ার নামের পাশেও দেয়া আছে এই নাম্বার। কথা হলে জানান তারা ভাই বোন।

০১৭৫৪৩০৭০৩৯ এই নাম্বারের মালিক ফতেহপুরের আনোয়ারা কিন্তু তাজপুরের খুশনাহারের নামের পাশেও দেয়া আছে একই নাম্বার ০১৭৮১৬৫৬০১৯ নম্বরটি ব্যবহার করা হয়েছে ৩বার। তাজপুর রিয়াজনগর ও ফতেহপুর উল্লেখ করে তিন ব্যক্তির নামের পাশে দেয়া। তবে নাম্বারে ফোন দিলে বন্ধ পাওয়া যায়।
চারবারের খ্যাত চেয়ারম্যান শাহাবুদ্দিনের বসবাসরতরত ওয়ার্ড ১নং ওয়ার্ডে এমন অনিয়ম।

শুধু ১নং ওয়ার্ডেই নয় এমন অনিয়ম হয়েছে প্রতিটি ওয়ার্ডেই তালিকার ৩নং ওয়ার্ডেও দেখা যায় একই নিয়ম। ০১৭৫৮৬১৪২০৪ নাম্বারটি ব্যবহার হয়েছে দুইবার। আবার ৩২৬৬৫১১৭১০ ডিজিটের একই এনআইডি ব্যবহার হয়েছে দুইবার। ৪নং ওয়ার্ডেও রয়েছে ০১৭৬৬৭৭৪৯০২ একটি নাম্বার দেয়া হয়েছে দুইবার। অনুরূপ ৮নং ওয়ার্ডেও পাওয়া যায় বেশ কয়েকটি নাম্বার। 

তালিকায় ০১৭৭৭৫৬২৭১১ নাম্বার ব্যবহার হয়েছে দুইবার। ০১৭৭১২৯৮১৭৪ এই নাম্বারটিও দেয়া হয়েছে দুইবার। অনেকওে সাথেই কথা হলে জানান তারা কেউ কেউ ভাই বোন, অথবা মামাতো, খালাতো, ফুফাতো ভাই বোন। যা পুরো তালিকায় স্বজনপ্রীতি হয়েছে বলে এলাকাবাসীর দাবী
এদিকে তালিকায় ৬৬০ নং ক্রমিকের ব্যক্তি জামাল মিয়া মৃত।

কিন্তু তার নামও রয়েছে তালিকায় মৃত ব্যক্তি কি করে জীবিত হলো এমন প্রশ্নও ঘুরপাক খাচ্ছে ইউনিয়ন জুড়ে। কে পাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঈদ উপহারের অর্থ নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন জানান। প্রতিটি ওয়ার্ডের মেম্বারগণ চেয়ারম্যান শাহাবুদ্দিনের লোক। তিনি যা বলেন তারা তাই করেন নিজেদের লোকদের তালিকায় স্থান দিয়েছেন। 

বলেও দাবী তাদের। তবে চেয়ারম্যানের আরও অনেক অনিয়মের কথা জানান এই প্রদিবেদকের কাছে। যা পরবর্তীতে ধারাবাহিকভাবে তুলে ধরা হবে পাঠকের সামনে। এবিষয়ে চেয়ারম্যান শাহাবুদ্দিন মুঠোফোনে জানান। বিষয়টি আমি জানি না। তবে কিছু ভুলক্রটি হয়েছে এটা সত্য। সরকার কিছু লোকের তালিকা চেয়ে চিঠি দিলে আমি প্রতিটি ওয়ার্ডের সদস্যদেরকে ভাগ করে দায়িত্ব দেই। তারা ইউনিয়নের উদ্যোক্তাকে নিয়ে তালিকা তৈরী করেছে পরে জানতে পেরেছি তালিকাটি সংশোধন করা হচ্ছে।

দিনাজপুরে সেনাবাহিনীর উদ্দ্যোগে গর্ভবতী মা ও শিশুদের চিকিৎসা সেবা ও ত্রানসামগ্রী এবং এতিমদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ

দিনাজপুরে সেনাবাহিনীর উদ্দ্যোগে গর্ভবতী মা ও শিশুদের চিকিৎসা সেবা ও ত্রানসামগ্রী এবং এতিমদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ




 মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ  দিনাজপুরে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে সেনাবাহিনী দিনাজপুর জেলায় গর্ভবতী মা ও শিশুদের মাঝে বিনামুল্যে স্বাস্থ্যসেবা, ঔষধ ও ত্রান সামগ্রী বিতরণ করেছেন।
দিনাজপুর মিউনিসিপ্যাল হাইস্কুল মাঠে ৬৬পদাতিক ডিভিশনের ১৬পদাতিক ব্রিগেডের তত্বাবধানে ফোর হর্স এবং ৪৫ ফিল্ড এ্যাম্বুলেন্স এর যৌথ ব্যবস্থাপনায় মেডিকেল ক্যাম্পেইন,করোনার নমুনা সংগ্রহ,ঔষধ বিতরণসহ ৩শতাধিক গর্ভবতী মা শিশুদের মাঝে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়।এছাড়াও ১৫০জন দুস্থ্য মহিলাদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করেন।এদিকে দিনাজপুর শহরের চাউলিয়াপট্রির ২টি এতিম খানায় ১শ ২৬ জন এতিম শিশুদের মাঝে ঈদ সামগ্রী পলার চাল,চিনিসহ বিভিন্ন প্রকার খাদ্র সামগ্রী বিতরণ করেন।এর আগে বিরল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে গর্ভবতী মা শিশুদের বিনামুল্যে চিকিৎসা প্রদান করা হয়।
এসময় স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র পরিদর্শন ও খাদ্র সামগ্রী বিতরণ করেন ১৬ পদাতিক ব্রিগেড ব্রিগেডিয়ার জেনারেল খোন্দকার শফিকুজ্জমান (পিএসসি),অধিনায়ক ৪৫ফিল্ড এ্যাম্বুলেন্স লেঃ কর্ণেল হাসমত উল্লাহ খান, ক্যাপ্টেন ইসতিয়াজ আরাফাত।

ঝালকাঠির রাজাপুরে কায়েদ ছাহেব হুজুর রহ: এর জামাতার বাড়িতে ডাকাতের হানা

ঝালকাঠির রাজাপুরে কায়েদ ছাহেব হুজুর রহ: এর জামাতার  বাড়িতে ডাকাতের হানা



এইচ এম জহিরুল ইসলাম মারুফ,ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃরাজাপুরে কায়েদ ছাহেব হুজুরের মেয়ের ঘরে ডাকাতি, জামাতা রাজাপুরী হুজুরকে মারধর, ৩ দরজা ভেঙে কোরবানির গরু কেনার ৫ লাখ টাকা নেয়ার চেষ্টা

ঝালকাঠির রাজাপুরের পশ্চিম চাড়াখালি আজিজিয়া আলিম মাদ্রাসার পেছনের মোল্লা বাড়িতে ডাকাতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে কায়েদ ছাহেব হুজুরের মেয়ের ঘরের এ ঘটনায় কায়েদ ছাহেব হুজুরের জামাতা আলহাজ্ব হযরত মাওলানা মুজাম্মেলুল হক রাজাপুরী হুজুরকে ডাকাতরা মারধর করে আহত করেছে। মঙ্গলবার দুপুরে রাজাপুর সাংবাদিক ক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক রহিম রেজা সরেজমিনে ওই বাড়িতে গেলে মুজাম্মেলুল হক রাজাপুরী হুজুরের ছেলে পশ্চিম চাড়াখালি আজিজিয়া আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মোঃ সাইফুল হক জানান, রাত সোয়া ২ টার পর ভবনের প্রবেশের মূল দরজা সংলগ্ন ডান পাশের দরজার ছিটকানী ভেঙে ৫ জনের অধিক ডাকাত দল ভেতরে প্রবেশ করে মুজাম্মেলুল হক রাজাপুরী হুজুরের কক্ষের দরজারে ছিটকানী ভেঙে প্রবেশ করলে ডাকাতদের বাধা দেয়ার চেষ্টা করলে মুজাম্মেলুল হক রাজাপুরী হুজুরের মুখে গামছা ডুকিয়ে তাকে মারধর ও হাত-পা বেধে ফেলার চেষ্টার সময় তিনি চিৎকার শুরু করেন। একই সময় ভবনের বাম পাশের কক্ষটিরও দরজা ভেঙে রুমের লোকজনকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে জিম্মি করে ফেলে। বেধে ফেলার চেষ্টার সময় হঠাৎ জাম্মেলুল হক রাজাপুরী হুজুর স্ব জোরে চিৎকার দিয়ে বলেন তাকে মেরে ফেলা হলো বাচাও; চিৎকার শুনে দ্বিতীয় তলায় ঘুমে থাকা অধ্যক্ষ মোঃ সাইফুল হকের ঘুম ভেঙে যায় এবং তিনিও চিৎকার শুরু করে সাইজ করা কাঠের গুড়ি নিয়ে সিড়ি দিয়ে নিচের দিকে নামা শুরু করে ডাকাত দল পালিয়ে যায়। ডাকাতদের খবর তাৎক্ষনিক পুলিশকে জানালে রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থ পরির্শন করে। অধ্যক্ষ মোঃ সাইফুল হক আরও জানান, প্রতি বছরে ন্যায় এ বছরের পরিবারসহ কয়েক দফার কোরবানির গরু কেনার জন্য ২৭ জুলাই ভান্ডারিয়ার ব্যাংক থেকে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা বাড়িতে আছি। এ টাকা লুটকরে নেয়ার জন্য ডাকাতরা হানা দেয়, কিন্তু আল্লাহর রহমতে ডাকাতরা ব্যর্থ হয়। হযরত কায়েদ ছাহেব হুজুরের ছেলে আলহাজ্ব হযরত মাওলানা খলিলুর রহমান সকালে এ বাড়িতে এসে খোঁজখবর নিয়েছেন। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার প্রস্তুতি চলছে।

আশাশুনিতে করোনা রোগির পরিবারের সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ

আশাশুনিতে করোনা রোগির  পরিবারের সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ



আহসান উল্লাহ  বাবলু উপজেলা  প্রতিনিধি ॥ আশাশুনি হাসপাতালে কর্মরত পরিসংখ্যানবিদ (ভারপ্রাপ্ত) করোনা পজিটিভ আব্দুল খালেক এর পরিবারের সদস্যদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে তার বাসায় গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করা হয়। আব্দুল খালেক করোনা পজিটিভ রিপোর্ট পাওয়ার পর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তার ভাড়া বাসা লকডাউন ঘোষণা করা হয়। বাসাতেই খালেকের চিকিৎসা চলছে। তার অবস্থা আশাব্যাঞ্জক রয়েছে। মঙ্গলবার আক্রান্ত আঃ খালেক এবং তার পরিবার সহ মোট ০৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। নমুনা সংগ্রহ করেন, আশাশুনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইপিআই টেকনিশিয়ান দীলিপ কুমার ঘোষ ও স্বাস্থ্য সহকারী মোক্তারুজ্জামান স্বপন। আঃ খালেক সহ তার পরিবারের সকলের অবস্থা স্বাভাবিক আছে বলে জানা গেছে।

মাগুরা পৌরসভার মেয়র প্রার্থী হিসেবে সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা করলেন - আমির হোসেন রানা

মাগুরা পৌরসভার মেয়র প্রার্থী হিসেবে সবার কাছে দোয়া প্রার্থনা করলেন - আমির হোসেন রানা




এম এ অয়ন মাগুরা প্রতিনিধিঃ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শ যিনি ষোলোআনা নিজের হৃদয়ে ধারণ তিন দশক ধরে সুরাজনীতি করছেন তিনি হচ্ছেন মাগুরার আমির ওসমান‌ রানা । তার আচার-ব্যবহার, রাজনৈতিক প্রজ্ঞা, জনকল্যাণমূলক কর্মকান্ড ও নি:স্বার্থ মানব সেবা আজকের রাজনীতিতে সত্যিই বিরল। তিনি   তার রাজনৈতিক জীবনে স্বকর্মে একজন প্রকৃত জননেতার শীর্ষচুড়া স্পর্শ করেছেন। রাজনীতি ক্ষমতার বাহাদুরী বা ভোগ বিলাশী জীবন চর্চার মখমল আসন নয়, তার কাছে রাজনীতি হল; দেশ ও জনকল্যাণের চিরন্তন মানবিক যুদ্ধ। সেই যুদ্ধের ময়দানে যেমন অনিশ্চিত জীবন শংকা রয়েছে। তেমন রয়েছে আত্মতৃপ্তির  প্রবাহিক রংধনু সীমান্ত। যা মানব জীবনকে সাম্যক অর্থে কালজয়ী করে রাখে। তিনি গণমানুষের মন-মননে বেঁচে থাকেন হাজার বছর। এটাই একজন রাজনৈতিকের প্রধান লক্ষ্য। এ জন্যেই তিনি রাজনীতি করেন। 
রানা আমীর ওসমানকে বলা হয় রাজপথের লড়াকু সৈনিক। তিনি ভাংতে জানেন কিন্তু মচকাতে জানেন না। ছাত্র জীবন থেকেই নীতি-আদর্শে অবিচল তিনি। চাঁদাবাজী,টেন্ডারবাজী ও সন্ত্রাস নাশকতা মার্কা নষ্ট রাজনীতিকে তিনি চরম ঘৃনা করেন। যারা রাজনীতির এই নোংরা ধারার ধারক -বাহক তাদেরকে তিনি এড়িয়ে চলেন। আর এ কারণেই তিনি সর্বমহলে গ্রহনযোগ্য ও সমান জনপ্রিয়। 

ফিরে দেখা অতীত : 

রানা আমীর ওসমান ১৯৭৪ সালে মাগুরা জেলার ভায়না গ্রামে জন্ম গ্রহন করেন। তার পিতা মরহুম মো: সাখাওয়াৎ হোসেন ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা যে কোন  অন্যায়ের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদী কন্ঠ ছিলেন তিনি। মায়ের নাম পিয়ারি বেগম। শিক্ষাগত জীবনে বিএ পাশ করেছেন। বিবাহ করেছেন প্রায় একদশক আগে। ৮০’র দশকে তিনি বাংলাদেশ ছাত্র লীগের রাজনীতিতে যুক্ত হন। অতি অল্প সময়েই যোগ্য নেতৃত্ব দিয়ে জেলা আওয়ামী লীগ নেতাদের মন জয় করেন। ১৯৮৯ সালে তিনি মাগুরা পৌর ছাত্র লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক পদে মনোনিত হন। ১৯৯১ সালে জেলা ছাত্র লীগের সদস্যতা পান।  ১৯৯২ সালে মাগুরা সরকারী কলেজ ছাত্র সংসদের সহ সমাজ সেবা সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৯৪-১৯৯৮ মেয়াদে তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জাতীয় কার্যকরী সংসদের সদস্য মনোনিত হন। ১৯৯৮-২০০৩ মেয়াদে তিনি বাংলাদেশ ছাত্র লীগ মাগুরা জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হন। ২০০৩ -২০১৭ সাল পর্যন্ত তিনি স্বেচ্ছাসেবক লীগ মাগুরা জেলা শাখার যুগ্ম আহবায়ক ছিলেন। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মাগুরা জেলা শাখার ত্রান ও সমাজ সেবা সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। রাজনীতির পাশাপাশি তিনি যেসব সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে যুক্ত আছেন সেগুলো হল; যুগ্ম সাধারন সম্পাদক,মাগুরা জেলা ক্রীড়া সংস্থা, ( ৪ বার নির্বাচিত) পরিচালক,মাগুরা সমবায় ব্যাংক,( ২ বার নির্বাচিত) সহসভাপতি, কেন্দ্রিয় সমবায় সমিতি,মাগুরা, সদস্য,বাংলাদেশ এথেলেটিক ফেডারেশন ।  রাজনৈতিক জীবনে তিনি অনেকবার কারাবরণ করেছেন। ১৯৮৯ হতে ১৯৯০ স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে ৪ টি মামলার আসামী হয়ে কারাবরণ করেন। বিএনপি- জামায়াত সরকার বিরোধী আন্দোলনে ৯/১০ টি মামলার অসামী হয়ে কারাবরণ করেন। ২০০১ হতে ২০০৬ সাল পর্যন্ত জামায়াত-বিএনপি সরকার বিরোধী আন্দোলনে অগ্রণী ভুমিকা পালন করেন। সে কারণে তিনি নিজ বাড়ীতে হামলার শিকার হন। 

আগামীর অভিযাত্রা: 

যে কোন রাজনৈতিক নেতারই চুড়ান্ত লক্ষ্য থাকে নিজ এলাকাকে উন্নয়ন সোপানে সম্পৃক্ত রাখা। বুকের গভীরে তিল তিল করে জমে থাকা স্বপ্নগুলোকে বাস্তবে রুপদান করা। এলাকাবাসীর জন্য অনুস্মরণীয় কিছু কাজ করে যাওয়া। মাগুরার গণ মানুষের নেতা রানা আমীর ওসমানও এমন কিছু স্বপ্ন তার বুকের গভীরে লালন করেন। তিনি বদলে দিতে চান প্রিয় শহর মাগুরাকে। একটি মডেল পৌরসভার ছবি একেছেন চোখের ক্যানভাসে।  দৃষ্টি নন্দন একটি পরিকল্পিত শহর গড়ে তুলতে চান তিনি। যে শহরে থাকবে না মাদকের নীল দংশন।  থাকবে না সন্ত্রাসের কালোথাবা।  স্কুল -কলেজে থাকবে না কোন ইভটিজিং। থাকবে না ডেংগু মশার অত্যাচার। চোর,ডাকাত,ছিনতাইকারী মুক্ত হয়ে মানুষ নির্ভয়ে- নিরাপদে বসবাস করতে পারবে। আবর্জনামুক্ত একটি পরিছন্ন শহর সকলকে উন্নত জীবনের ঠিকানা দেবে। শহরবাসীর চিকিৎসা সেবায় আসবে আমূল পরিবর্তন। ঘুষ -দুর্নীতি ও শোষনমুক্ত একটি সমাজ প্রতিষ্ঠিত হবে। সড়ক গুলো আলোয় -আলোয় ভরে থাকবে। হাসি ,আনন্দের প্রণোদনা থাকবে প্রতিটি শিশুর জীবনে। এক কথায় উন্নত রাষ্ট্রের নাগরিক সেবার মত স্বাচ্ছন্দে থাকবে প্রতিটি নাগরিক। হা, সেই স্বপ্ন সফল করার সময় এগিয়ে আসছে বুঝি? 
এ বছর ২০২০’র  ডিসেম্বরেই শেষ হচ্ছে মাগুরা পৌরসভার নির্বাচিত পরিষদের মেয়াদ। বিধি মোতাবেক যথাসময়েই নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা হবে। আর এ নির্বাচনে পরিচ্ছন্ন জননেতা রানা আমীর ওসমানকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে দলীয় মেয়র প্রার্থী চাইছেন সকল স্তরের নেতা কর্মী ও এলাকাবাসী। এই দাবী নিয়ে তারা প্রতিদিনই ধর্ণা দিচ্ছেন রানা আমীর ওসমানের বাসভবনে।  নেতা-কর্মী ও এলাকাবাসীর এই দাবী কিছুতেই উপেক্ষা করতে পারছেন না রানা আমীর ওসমান। তিনি বলেছেন, প্রানপ্রিয় নেত্রী, জাতির জনক কন্যা, প্রধানমন্ত্রী , দেশরত্ন শেখ হাসিনা যদি যোগ্য মনে করে তাকে দলীয় মনোনয়ন দেন তবে তিনি নিশ্চয় আগামী পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থী হবেন। 

নেতা-কর্মীদের মূল্যায়ন: 

এ প্রসংগে কথা হয় মাগুরা জেলা, সদর উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের সর্বস্তরের নেতা কর্মীদের সাথে। তারা সকলেই প্রায় একই সুরে বলেন, মাগুরা পৌর নির্বাচনে পরিচ্ছন্ন যোগ্য প্রার্থী হিসাবে রানা আমীর ওসমানের  কোন বিকল্প নেই। তার ব্যবহার, রাজনীতি,  আদর্শ, জনসেবা সবই অনুকরণ ও অনুসরণযোগ্য। তিনি মাগুরা পৌরবাসীর জন্য বিধাতার আর্শিবাদ স্বরুপ। তারা আরো বলেন, এই করোনা ক্রান্তিকালে রানা আমীর ওসমান তার ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে পৌরবাসীকে যে পরিমাণ খাদ্য ও অর্থ সহায়তা দিয়েছেন তা অবিশ্বাস্য। তার মত আরো কিছূ নেতা থাকলে মাগুরাবাসীর মুখে হাসি আনন্দ চিরস্থায়ী হত।

শ্রীউলায় প্রকল্প সমাপ্তীকরণ সভা

শ্রীউলায় প্রকল্প সমাপ্তীকরণ সভা




 আহসান উল্লাহ  বাবলু  উপজেলা প্রতিনিধিঃ আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলায় ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে সাইক্লোন আম্পান রেসপন্স প্রকল্প এর সমাপ্তিকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বিকাল ৪ টায় মাড়িয়ালা সাইক্লোন শেল্টারে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। মুসলিম এইড ইউকে কান্ট্রি অফিস বাংলাদেশ এর অর্থায়নে নওয়াবেঁকী গণমুখী ফাউন্ডেশন (এনজিও) বাস্তবায়নে নগত অর্থ সহায়তা কর্মসূচী সমাপ্তীকরণ সভায় বক্তব্য রাখেন, ইউপি সদস্য ইয়াছিন আলি, আঃ রব, জালাল উদ্দীন, মুসলিম এইড মনিটরিং অফিসার আল-আমিন, হিসাব রক্ষক মনির হোসেন, গণমুখী ফাউন্ডেশনের (এম এফ) আলমগীর হোসেন, এনজিএফ মনিটরিং অফিসার মাহবুব আলম, ফাউন্ডেশনের নাকতাড়া শাখার ম্যানেজার আঃ মালেক, ফিল্ড ফাসিলেলেটর রফিকুল ইসলাম ও ওয়াহিদুল ইসলাম, সমাজ কর্মী মিজানুর রহমান প্রমুখ। অনুষ্ঠানে শ্রীউলা ইউনিয়নের ৩৬৮ পরিবারের মাঝে ৪৫০০ টাকা করে বিতরণ করা হয়।

বিভিন্ন এনজিও’র ঋণের বেড়াজালে আশাশুনির অসহায় মানুষ

বিভিন্ন এনজিও’র ঋণের বেড়াজালে  আশাশুনির অসহায় মানুষ




আহসান উল্লাহ  বাবলু উপজেলা প্রতিনিধি ঃ হত দরিদ্র জনগোষ্ঠির আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও মানব সেবা উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষ্যকে সামনে রেখে এনজিওগুলো কাজ করে যাচ্ছে। কিন্তু তার মধ্যে একটি অংশ সরকারি অনুমোদন নিয়ে কিংবা অনুমোদনের রীতি ভেঙ্গে ঋণের নামে টাকার অংক ফাঁকা রাখা ব্যাংক চেক গ্রহন করে, গ্রাহকদের ঠকানোর পাশাপাশি সর্বশান্ত করার মত অসাধু কর্ম করে যাচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এনজিওগুলো সরকারি অনুমোদন পেয়ে গ্রামের অসহায় মানুষকে ব্যবসা, কৃষিকাজ, মৎস্য চাষসহ বিভিন্ন কাজের জন্য ঋণ প্রদান করে থাকে। এলাকার নিরিহ মানুষ এসব কাজের জন্য সমিতি/এনজিও থেকে ঋণ গ্রহণ করে থাকে বিভিন্ন শর্তসাপেক্ষে। যার মধ্যে দলিল, স্বাক্ষরকৃত নন-জুডিশিয়াল সাদা স্ট্যাম্প, ব্যাংকের সাদা চেক (স্বাক্ষরকৃত) জামানত হিসাবে জমা রাখতে হয়। চেক বা স্ট্যাম্পে ঋণের প্রকৃত টাকার অংক বসিয়ে জামানত হিসাবে রাখলে অভিযোগ ছিলনা। কিন্তু ঋণের কিস্তি পরিশোধের কোন এক পর্যায়ে অপারগতার কারণে ঋণ পরিশোধে সমর্থ না হলে কিংবা বিলম্বিত হতে থাকলে কোন কোন ঋণদ্বাতা সংস্থা তাদের কাছে রক্ষিত স্ট্যাম্প ও চেকে ইচ্ছেমত টাকার অংক বসিয়ে মিথ্যা মামলা রুজু করে থাকে বলে অভিযোগ রয়েছে। ফলে নিরিহ ঋণগ্রহিতারা টাকার পাহাড়সম ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে আত্মগোপনে যেতে বাধ্য হয়ে থাকে। তাদের সংসার ক্রমে ক্রমে রসাতলে পড়ে যায়। অপরদিকে কিছু কিছু এনজিও এলাকায় অফিস খুলে বড় অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়ে উধাও হওয়ার ঘটনাও ঘটছে। আর এন্ড পি’র বিভিন্ন শাখা, দারুস সালাম লিঃ (সোনালী উন্নয়ন ফাউন্ডেশন), হায় হায়, সোপট, জয়েন্ট ইসলামী ফাইনান্স, ফুলতলা সমবায় সমিতি প্রভৃতি এনজিও প্রতারণার কারবার গ্রাহকদের ঠকিয়েছে বলে অভিযোগ রয়েছে। তাদের কাছে ঋণ গ্রহিতাদের রাখা স্ট্যাম্প বা ব্যাংক চেক ব্যবহার করে এনজিও নয় বর্তমানে প্রভাবশালীদের সহায়তায় ব্যক্তি বাদি হয়ে মিথ্যা মামলা দায়েরের অভিযোগও পাওয়া গেছে। সেফ ইসলামি ব্যবসায়ী কো-অপারেটিভ সোসাইটি আশাশুনি শাখা সদস্যদের থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়ে নিরুদ্দেশ হয়ে গেছে। বাংলাদেশ ব্যাংক বাংলাদেশে কার্যরত সকল আর্থিক প্রতিষ্ঠান নভেল করোনা ভাইরাসের কারনে ঋণ আদায়ের উপর বিধিনিষেধ আরোপ করলেও সেটি মানা হচ্ছেনা। বিষয়টি তদন্তপূর্বক ব্যবস্থাগ্রহনের জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি দাবি জানিয়েছেন তারা।

ঝিকরগাছা উপজেলাবাসীকে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জ্ঞাপন সাংবাদিক ইকরামুল করিম সৈকতের

ঝিকরগাছা উপজেলাবাসীকে ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জ্ঞাপন সাংবাদিক ইকরামুল করিম সৈকতের






প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ  পবিত্র ঈদ-উল আযহা উপলক্ষে সবাইকে শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন  ঝিকরগাছা উপজেলা ছাত্রলীগের অন্যতম সদস্য,  মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্ম কমান্ড এর যশোর জেলা শাখার সহ

সভাপতি ও অনলাইন পোর্টাল দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজের ঝিকরগাছা প্রতিনিধি মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত। 

মুসলিম জাহানের প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে ইকরামুল সকল মুসলমান ভাইদের প্রতি জানিয়েছেন আন্তরিক শুভেচ্ছা ও ঈদ মোবারক ।

তিনি এক শুভেচ্ছা বার্তায় বলেন পবিত্র ঈদ-উল আযহা মুসলিম জাতির জন্য আনন্দের। তাই তিনি পবিত্র এই দিনে সবাইকে নিয়ে মিলে মিশে গরীব দুঃখী মানুষের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করার আহবান জানান।

পুলিশি অভিযানে জিহাদী বই ও ল্যাপটপসহ এক শিবির কর্মী আটক

 পুলিশি অভিযানে জিহাদী বই ও ল্যাপটপসহ এক শিবির কর্মী আটক




আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা  প্রতিনিধি : সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র ও নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে আশাশুনির প্রতাপনগর ইউনিয়নের তালতলা বাজারের জামায়াত অফিস থেকে বিপুল পরিমাজন জিহাদী বই এবং ১টি ল্যাপটপসহ এক শিবির কর্মীকে আটক করেছে থানাপুলিশ। আটককৃত শিবির কর্মী শ্রীপুর গ্রামের ইয়াকুব লস্করের ছেলে ইসমাইল হোসেন (২১)।

অভিযান পরিচালনাকারী এসআই জাহাঙ্গীর হোসেন জানান- সোমবার রাতে সাড়ে ৮টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি সরকার উৎখাত ও সরকারি উন্নয়নমূলক কাজে বাঁধা প্রদানের জন্য তালতলা বাজারে জামায়াত অফিসে লোকজন জড়ো হয়েছে। এরপর আশাশুনি থানা অফিসার ইনচার্জ গোলাম কবীরের নির্দেশে এএসআই কবীর হোসেন ও সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় আমরা জামায়াত অফিসে অভিযান পরিচালনা করি। কিন্তু আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে ২০ জনের মত নাশকতাকারী পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। আমরা ঘটনাস্থল থেকে ইসমাইলকে ল্যাপটপসহ গ্রেফতার করি। এরপর তল্লাসি চালিয়ে অফিস থেকে বিপুল পরিমান জিহাদী বই উদ্ধার করা হয়েছে।এঘটনায় এসআই জাহাঙ্গীর হোসেন বাদী হয়ে আটক ইসমাইলসহ ৮ জনের নাম উল্লেখসহ আরও ১৫/২০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে আশাশুনি থানায় ২২(৭)২০নং একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামীকে বিচারার্থে মঙ্গলবার আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে প্রথম নারী ইউএনও

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে প্রথম নারী ইউএনও
:

  মো:লাতিফুল আজম,কিশোরগঞ্জ নীলফামারী প্রতিনিধিঃ নীলফামারী কিশোরগঞ্জ উপজেলায় এই প্রথম একজন নারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হিসেবে যোগদান করলেন রোকসানা বেগম । উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে তিনি নীলফামারী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ২৭ জুলাই যোগদান করেন এবং আজ ২৮ জুলাই দুপুর ৩ টায় আনুষ্ঠানিকভাবে কিশোরগঞ্জ উপজেলায় যোগদান করেন।

নবাগত ইউএনও রোকসানা বেগম এর আগে মিঠাপুকুরে সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে ছিলেন। তিনি নীলফামারী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সিনিয়র সহকারী কমিশনার থেকে ইউএনও পদে যোগদান করলেন। তিনি ৩৩তম বিসিএসে যোগদান করেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হিসেবে তার এটি প্রথম কর্মস্থল।

কাজিপুরে মুজিব বর্ষে ছাএলীগের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্ম সূচি , উদ্বোধন করেন সাবেক সাংসদ জয়

কাজিপুরে মুজিব বর্ষে ছাএলীগের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন কর্ম সূচি ,  উদ্বোধন করেন সাবেক সাংসদ জয়



মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃ মুজিব বর্ষের আহব্বান, ৩টি করে গাছ লাগান’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শত বর্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৩ মাসব্যাপী বৃক্ষরোপন কর্মসূচী ২০২০ এর কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহব্বানে সাড়া দিয়ে কাজিপুর উপজেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে মুজিববর্ষ উপলক্ষে এ বৃক্ষরোপন কর্মসূচী উদ্বোধন করা হয়।
আজ মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) সকালে কাজিপুর সরকারী মনসুর আলী কলেজ ক্যাম্পাসে নির্মানাধীন ৪তলা ভবনের সামনে বৃক্ষরোপনের মাধ্যমে উক্ত কর্মসূচী উদ্বোধন করেন সাবেক সাংসদ সিরাজগঞ্জ-১ প্রকৌশলী তানভীর শাকিল জয়। উক্ত কর্মসূচীতে অংশ নেন অত্র কলেজের অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) মো: রেজাউল করিম, উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান সিরাজী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব শওকত হোসেন, কাজিপুর সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান টি. এম. আতিকুর রহমান (নান্নু), উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রাজু আহমেদ, সাধারন সম্পাদক আবু সায়েম তালুকদার প্রমুখ। উল্লেখ্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুজিববর্ষ উদযাপনের অংশ হিসাবে সারাদেশে ১ কোটি চারাগাছ বিতরণ, রোপন ও বৃক্ষরোপন কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন।
জাতীয় চার নেতার অন্যতম ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলীর সুযোগ্য সন্তান সদ্য প্রয়াত মোহাম্মাদ নাসিম সর্ম্পকে স্মৃতিচারন করতে গিয়ে মনসুর আলী কলেজের (ভারপ্রাপ্ত) মো: রেজাউল করিম আবেগে আপ্লুত হয়ে বলেন, মোহাম্মাদ নাসিম ছিলেন কাজিপুরের শিক্ষার উন্নয়নের স্বপ্নদ্রষ্টা। কাজিপুরে প্রতিটি স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠায়, এমপিওভুক্ত করনে ও জাতীয়করনে অশেষ অবদান রেখেছিলেন। এ কলেজের প্রতিটি কাজের সাথে মোহাম্মাদ নাসিমের স্মৃতি জরিয়ে আছে। এ কলেজের প্রতিটি উন্নয়নের ক্ষেত্রে তার অবদান অপরিসীম। পরে মহান এ নেতার আত্মার মাগফেরত কামনা করে মোনাযাতের মাধ্যমে উক্ত কর্মসূচীটির সমাপ্তি ঘটে।

চৌগাছায় বজ্রপাতে যুবকের মৃত্যু

চৌগাছায় বজ্রপাতে যুবকের মৃত্যু


চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ
যশোরের চৌগাছার জগদীশপুর ইউনিয়ন এর কান্দি গ্রামে বজ্রপাতে  টিটো হোসেন (২৫) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। একই ঘটনায় আহত হয়েছেন নিহতের পিতা মোশাররফ হোসেন মুছা(৫৫)। 

আজ মঙ্গলবার বিকালে বৃষ্টির সময় গ্রামের মাঠে ধানের চারা রোপন করার সময় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই টিটোর মৃত্যু হয়। এবং তার  পিতা মোশাররফ হোসেন আহত হয়। আহত মোশাররফকে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  ভর্তি করা হয়েছে।     
জগদীশপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও কান্দি মাধমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাস্টার শিরাজুল ইসলাম ঘটনার  সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

অথৈ গ্রুপের চেয়ারম্যানের পক্ষ থেকে সবাইকে পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা

অথৈ গ্রুপের চেয়ারম্যানের পক্ষ থেকে সবাইকে  পবিত্র ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা

 

 প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ   কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর  উপজেলার বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী অথৈ গ্রুপের চেয়ারম্যান নাইচ পারভেজ তার সকল শুভাকাঙ্খী ও ক্রেতাদের পবিত্র ইদুল আযহার  শুভেচ্ছা বার্তা জানিয়েছেন। 

তিনি বলেছেন

আত্মত্যাগের মহিমার পরিশুদ্ধ হওয়ার মহোৎসব ঈদুল আজহা বয়ে আনুক অনাবিল সুখ শান্তি ও সমৃদ্ধি,
 সবার প্রতি ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা
আজকে বন্যার যে পরিস্থিতি তাতে হাজারো মানুষের বাড়িঘর জুম থেকে শুরু করে সব কিছু বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে। তবুও মহান আল্লাহ তায়ালা আমাদের সুস্থ রেখেছেন এজন্য আমরা শুকরিয়া আদায় করি। বর্তমান প্রেক্ষাপটে পুরো পৃথিবী জুড়ে করোনা ভাইরাসের কারণে হাজার হাজার মানুষ মৃত্যু বরণ করতেছে, আমাদের কে মহান আল্লাহ তায়ালা বাঁচিয়ে রেখেছেন এতে আমরা শুকরিয়া আদায় করছি, আলহামদুলিল্লাহ
ঈদ মানে খুশি ঈদ মানে আনন্দ, এটা আসলেই আমারা সবাই মেনে নেয়
তবুও আমরা খুশি।
মহান আল্লাহ আমাদের সকলকে পবিত্র ঈদুল আজহা পালন করার তৌফিক দান করুক।
ঈদ মানে খুশি ঈদ মানে আনন্দ ঈদ মানে দূর আকাশের মিষ্টি চাঁদের আলো,ঈদ মানে সবার প্রতি আমার ভালবাসা
পৃথিবীর যে যেই প্রান্তে রয়েছেন সকলকেই জানায় আমার পক্ষ  থেকে
শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

আশাশুনিতে উপজেলা নিবার্হী অফিসারের গরুর হাট পরিদর্শন ও ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা

আশাশুনিতে উপজেলা নিবার্হী অফিসারের গরুর হাট পরিদর্শন ও ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা





আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা  প্রতিনিধি: 

আশাশুনিতে ভ্রাম্যমান আদালতে এক মোদি ব্যবসায়ীকে জরিমানাসহ কোরবানির গরুর হাট পরিদর্শন করা হয়েছে। গতকাল সন্ধ্যায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মীর আলিফ রেজা 

এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকালে সরকারি নির্দেশ অমান্য করা, দোকানের মূল্য তালিকা না থাকায় বুধহাটা বাজারের মুদি ব্যবসায়ী আনিসুর রহমানের পুত্র শরিফকে ৫০০ টাকা জরিমানা করাসহ বুধহাটা বাজারের গরুর হাট পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে সকলকে মাস্ক ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে কোরবানির গরু ক্রয়-বিক্রয় এবং গরু বিক্রেতাদের খামারের গরুকে অনলাইন কোরবানি গরুর হাট www.brandszone.com.bd তে উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের মাধ্যমে আপলোড করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া বাজারে আগত সকল ক্রেতা ও বিক্রেতাকে মাস্ক পরা ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার জন্য জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। বাজারের সকল ব্যবসায়ীকে নির্দেশনা না মেনে পন্যের দাম বাড়ালে পরবর্তীতে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন। এসময় উপজেলা ভারপ্রাপ্ত প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান, আশাশুনি থানার পুলিশ ফোর্স, অফিস সহকারী আব্দুর রশিদ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ম শেখ হাসিনা দুর্যোগে মানুষের কথা ভুলেন না -এমপি গোপাল

প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ম শেখ হাসিনা দুর্যোগে মানুষের কথা ভুলেন না -এমপি গোপাল




মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ দিনাজপুর-১ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল বলেছেন, আওয়ামী লীগ সব সময় জনগণের জন্য কাজ করে। আওয়ামী লীগ প্রধান প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ম শেখ হাসিনা যে কোনো দুর্যোগে জনগণের পাশে থাকেন। তিনি কোনো দুর্যোগে মানুষের কথা ভুলেন না। তাই তো জনগণ বার বার আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনে। বর্তমান বাংলাদেশে শেখ হাসিনা মানেই উন্নয়ন। এটি শুধু আজ দেশে নয়, বিদেশেও প্রশংসিত হচ্ছে। অনেকে এ উন্নয়ন সহ্য করতে পারেনি। তারা আজ ইতিহাসের আস্তাকুঁড়ে নিক্ষিপ্ত হয়েছে। মানুষের পাশে না থাকায় জনগণ তাদের আজ ছুড়ে ফেলে দিয়েছে। এখন তারা শুধুমাত্র টেলিভিশনের পর্দায় প্রেস ব্রিফিং আর পত্রিকার বিবৃতিতে সীমাবদ্ধ। খুব তাড়াতাড়ি তাদের অস্তিত্ব বিলিন হয়ে যাবে। তাই আমাদের সবারই উচিৎ মানুষের জন্য কাজ করে তাদের হৃদয়ে স্থান নেয়া। বিশেষ করে কোনো দুর্যোগে মানুষের পাশে দাড়ানো একটি মহৎ কাজ। এ কাজ করতে পারলে মানুষ সারাজীবন তার কথা স্মরণে রাখে। তাই সবাই মিলে মানুষের সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করতে হবে। 
২৮ জুলাই মঙ্গলবার বীরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ সভা কক্ষে অনুদান ও চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। এ সময় এমপি গোপাল তার ঐচ্ছিক তহবিল থেকে ৩৫ লক্ষ টাকা ও ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান ও দুঃস্থ ব্যক্তিদের ৫৪টি পরিবারের মাঝে ১৮ হাজার টাকা করে মোট৯ লাখ ৭২ হাজার টাকার চেক বিতরণ করেন। বীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ইয়ামিন হোসেনের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপস্থিত ছিলেন, বীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুর ইসলাম নুর, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ ছানাউল্লাহ, উপজেলা আওয়ামী লীগের ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মোঃ ইয়াসিন আলী, বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ দিনাজপুর জেলা শাখার আহ্বায়ক মোঃ কামাল হোসেন প্রমুখ। এর পূর্বে সাংসদ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের আওতায় প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ ২০টি পরিবারের মাঝে ৩০ বান্ডিল ঢেউ টিন ও ৯০ হাজার টাকার চেক বিতরণ করেন।

দিনাজপুরে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণেচেম্বারের মত বিনিময়

দিনাজপুরে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণেচেম্বারের মত বিনিময়




মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি ঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ নুরুল ইসলাম এর পরামর্শক্রমে এবং দিনাজপুর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে গত ২২ জুলাই ২০২০ ইং তারিখে দিনাজপুর পৌরসভার করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সমন্বিত পরিকল্পনা প্রণয়নের উদ্দেশ্যে মাছ,সর্ব প্রকার ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী (রেফ্রিজারেটর, টেলিভিশন, মাইক্রোওয়েভ ওভেন, এসি ইত্যাদি) বিক্রয়কারী ব্যক্তিমালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের সত্ত্বাধিকারী বা কোম্পানীর ব্যবস্থাপক এবং হোটেল রেঁস্তোরা মালিক সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ও চেম্বার নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৮ জুলাই মঙ্গলবার সকালে শহরের মালদাহপট্টিস্থ চেম্বার ভবনের হলরুমে এ মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। দিনাজপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি’র সভাপতি সুজা-উর-রব চৌধুরীর সভাপতিত্বে মত বিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন চেম্বারের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন চৌধুরী পাপ্পু,পরিচালক মোঃ এনাম-উল্ল্যাহ জ্যামি, দিনাজপুর জেলা বেকারী মালিক সমিতির সভাপতি মোঃ সাইফুল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক মোঃ শামীম শেখ, ওয়াল্টনের ম্যানেজার মোঃ ফারুক আহমেদ, ট্রান্সকম ডিষ্ট্রিবিউশনের ম্যানেজার মোঃ শাহজাহান, গ্লোরী ইলেকট্রনিক্সের ম্যানেজার আকিল আহমেদ, স্যামস্যাং কোম্পানীর ম্যানেজার মোঃ ফয়সাল ইকবাল, বেস্ট ইলেকট্রনিক্সের ম্যানেজার মোঃ হাসান আলী প্রমুখ। মত বিনিময় সভায় উপস্থিত ওয়াল্টন দিনাজপুর শাখার ব্যবস্থাপক বলেন, ক্রমাগতবৃদ্ধির পথে চলা করোনা ভাইরাস সংক্রমন হার ব্যবসায়ীরাই নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারে। কোন ক্রেতা যদি মাস্ক বিহীন অবস্থায় কোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আসে, সংশ্লিষ্ট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপক বা মালিক আগত ক্রেতাকে মাস্ক পরিধান করিয়ে তার প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ কিংবা অন্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে যাবার জন্য অনুরোধ করা বা প্রয়োজনে বিধি নিষেধ আরোপ করতে পারে। মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ট্রান্সকম ডিজিটাল, বেস্ট ইলেকট্রনিক্স, স্যামসাং এর ব্যবস্থাপকগণ ওয়াল্টন এর বক্ত্যব্যের সাথে একমত প্রকাশ করেন। সভায় উপস্থিত বেকারী মালিক সমিতির সভাপতি জনাব মোঃ সাইফুল্লাহ বলেন, ব্যবসায়ীদের স্ব স্ব সেক্টর হতে নুন্যতম একজন করে প্রতিনিধি নিয়ে স্বেচ্ছাসেবক টিম গঠন করে শহরের জন সমাগম বেশী হয় সেসকল স্থানে ছড়িয়ে দেয়া যেতে পারে। স্বেচ্ছাসেবক টিমের সদস্যরা ক্রেতা সাধারণ যারা মাস্ক বিহীন অবস্থায় শপিংয়ের জন্য ঘোরাফেরা করছেন, তাদের মাস্ক পরানোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। জনসচেতনতাবৃদ্ধির লক্ষ্যে মতবিনিময়সভা আয়োজন করার জন্য উপস্থিত সকলে চেম্বার নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ জানান।

নওগাঁর নৈদিঘী গুচ্ছগ্রামের বাসিন্দারা পেল বিদ্যুৎ সংযোগ

নওগাঁর  নৈদিঘী গুচ্ছগ্রামের বাসিন্দারা পেল বিদ্যুৎ সংযোগ





মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
রাজশাহী ব্যুরো

নওগাঁর আত্রাইয়ে নৈদিঘী গুচ্ছগ্রামের বাসিন্দারা তাদের ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ পেল। নিজেদের ঘরে বিদ্যুতের আলো দেখতে পেয়ে বেজায় খুশী ওই গুচ্ছগ্রামের বাসিন্দারা। সোমবার গুচ্ছগ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগের আনুষ্ঠানিক বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মনিয়ারী ইউনিয়নের নৈদিঘী গ্রামে গুচ্ছগ্রাম গড়ে তোলা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের  সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে নির্মিত গুচ্ছগ্রামে ২১ টি পরিবারের ঠাঁই মিলেছে। গেল ২০১৯ সালে উপজেলার ঐ ইউনিয়নের ভূমিহীন দুস্থ ও অসহায় ২১ টি পরিবারকে এ গুচ্ছগ্রামে পুনর্বাসন করা হয়। এতো দিন গুচ্ছগ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগ লাইনের ব্যবস্থা ছিল না। ফলে সেখানকা বাসিন্দারা বিদ্যুতের আলো থেকে বঞ্চিত ছিল। তাই তারা আধুনিক বৈদ্যূতিক সকল সুযোগ সুবিধা পাওয়া থেকেও ছিল একেবারে দূরে। এ অবস্থায় গুচ্ছগ্রামের আসার পর থেকে এখানকার বাসিন্দারা বিদ্যুৎ সংযোগের দাবি জানিয়ে আসছিলেন। তাদের দাবির পরিপ্রক্ষিতে সরকারী খরচে উপজেলা প্রশাসন বিদ্যুৎ বিহীন নৈদিঘী গুচ্ছগ্রামে বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্যোগ গ্রহন করেন। 
সোমবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ছানাউল ইসলাম সুইচ টিপে বিদ্যুৎ সংযোগের শুভ উদ্বোধন করেন। সঙ্গে সঙ্গে প্রতিটি ঘরে জ্বলে উঠে বিদ্যুতের আলো। এতে খুশীতে আত্মহারা হয়ে পড়েন গুচ্ছগ্রামের বাসিন্দা।
এসময় উপস্থিত ছিলেন নওগাঁ-১ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জোনাল অফিস এর এজিম ফিরোজ জামান, পতিসর অভিযোগ কেন্দের ইনচার্জ আকরাম হোসেন,জিয়াউর রহমান, সহকারী প্রকৌশলী শাহীনুর রহমান,আত্রাই প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ রুহুল আমীন প্রমুখ৷

ধুমপান করতে বাজারে করোনা রোগী

ধুমপান করতে বাজারে করোনা রোগী




চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি : করোনা আক্রান্ত ওয়ান ব্যাংক চৌগাছা শাখার কর্মকর্তা ওহিদুজ্জামান শিপন নিজের বাসার লকডাউন উপেক্ষা করে ধূমপান করতে, বাজার করতে ঘুরে বেড়াচ্ছেন শহরময়। এতে আতংকিত হয়ে পড়েছেন লোকজন।
মহল্লার বাসিন্দারা জানতে চাইলে তিনি প্রশ্ন ছুড়ে দেন, "আমি কি না খেয়ে মরব?" 
তবে মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে তিনি জানান, জরুরি প্রয়োজনে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করে বাইরে বের হয়েছিলাম।’
চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার হাসপাতালে গিয়ে নমুনা দেন ওয়ান ব্যাংকের চৌগাছা শাখার কর্মকর্তা ওয়াহিদুজ্জামান শিপন। এরপর শনিবার যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনোম সেন্টারে পরীক্ষায় তার করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে।
রোববার সকালে রিপোর্ট পৌঁছালে হাসপাতাল থেকে প্রথমে তাকে মোবাইল ফোনে বাসার বাইরে বের হিতে নিষেধ করা হয়। এরপর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা.
মোছা. লুৎফুন্নাহার লাকি, হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ও করোনা বিষয়ক ফোকাল পয়েন্ট ডাক্তার মাসুম বিল্লাহ রোববার বেলা ১১টার দিকে তার চৌগাছা শহরের আম্রকানপাড়ার ‘পূর্বাশা’ নামে ভাড়া বাসা লকডাউন করতে যান। সে সময় ভাড়া বাসার বয়স্ক ও অসুস্থ মালিক সোনালী ব্যাংকের অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাবিবুর রহমানের অনুরোধে শুধু তিনতলায় ওহিদুজ্জামন শিপন তার স্ত্রীকে নিয়ে
যে ফ্লাটে থাকেন সেটিই লকডাউন করা হয় এবং ওহিদুজ্জামানকে তার বাসায় অবস্থান করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়। তখন উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা তাকে এ-ও বলেন, ‘আপনার জরুরি প্রয়োজনীয় কিছু হলে ব্যাংকের কর্মচারী বা কাউকে দিয়ে আনিয়ে নেবেন, তবু বাইরে বের হবেন না। বাইরে বের হলে পুরো বাড়িটিই লকডাউন করে দিতে বাধ্য হবো।’
তবে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার এ নির্দেশনার পরও ব্যাংক কর্মকর্তা ওহিদুজ্জামান শিপন নিয়মিত ধূমপান করতে বাসা থেকে নেমে শহরে যাচ্ছেন।
মঙ্গলবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকেও তিনি বাসা থেকে নেমে ধূমপান করতে এবং আনুষঙ্গিক দ্রব্যাদি কিনতে মহল্লার পাশেই চৌগাছা শহরের বিভিন্ন দোকানে যান। এতে মহল্লার বাসিন্দারা আতংকিত হয়ে পড়েন। তাদের কয়েকজন এ প্রতিবেদককে বিষয়টি মোবাইল ফোনে জানান।
প্রতিবেশিরা জানান, হাসপাতাল থেকে ওহিদুজ্জামানকে মোবাইল ফোনে জানানোর পর রোববারও তিনি একইভাবে ধুমপান করতে শহরের মাইক্রোস্ট্যান্ডের একটি চায়ের দোকানে যান এবং শহরের অন্য মুদি দোকান থেকে নুডুলসসহ আনুষঙ্গিক দ্রব্যাদি কেনাকাটা করেন। পরে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা তার বাড়ি লকডাউন করতে গেলে প্রতিবেশিরা এ বিষয়ে তার কাছে অভিযোগ দেন। একারণেই স্বাস্থ্য কর্মকর্তা তাকে বেশি করে সতর্ক করেছিলেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ড. মোছা. লুৎফুন্নাহার বলেন, ‘স্থানীয়রা সেদিনও এ বিষয়টি বলেছিল। আমি নিজে রোববার তার বাড়ি লকডাউনের সময়ে বারবার সতর্ক করেছি। বয়স্ক ও অসুস্থ বাড়িমালিকের অনুরোধে পুরো বাড়িটি লকডাউন করা হয়নি। এবিষয়ে ওহিদুজ্জামান শিপনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘গত মঙ্গলবার থেকে আমি অসুস্থ বোধ করতে থাকি। এরপর বৃহস্পতিবার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নমুনা দিই। রোববার আমার পজেটিভ রিপোর্ট আসে। তবে আমি বর্তমানে সুস্থ আছি।’
বাইরে বের হচ্ছেন কেন- জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘জরুরি প্রয়োজনে ডিমসহ কিছু দ্রব্য কিনতে বাইরে বের হয়েছিলাম। তবে আমি মাস্ক পরে বের হয়েছি। হ্যান্ড স্যানিটাইজারও ব্যবহার করছি।’
আপনার সংস্পর্শে এসে দোকানি বা অন্য কেউ পজেটিভ হলে দায়িত্ব কে নেবে? আপনার ব্যাংকের ম্যানেজারকে বলে তো কর্মচারী দিয়ে আনিয়ে নিতে পারতেন।– এমন কথা বলা হলে তিনি নিরুত্তর থাকেন।
তার পূর্ববর্তী কথা স্মরণ করিয়ে দিলে এই ব্যাংক কর্মকর্তা বলেন, ‘আমার ভুল হয়েছে। আপনাদের (সাংবাদিকদের) সাথে তো আমাদের প্রতিষ্ঠানের সুসম্পর্ক রয়েছে।’

আশাশুনিতে সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছে দিতে শোভনালী পুলিশিং বিট'র উদ্বোধন

আশাশুনিতে সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছে দিতে শোভনালী পুলিশিং বিট'র উদ্বোধন





আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা প্রতিদিন;ঃ    আশাশুনিতে সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় পুলিশের সেবা পৌঁছে দিতে শোভনালী ইউনিয়ন পুলিশিং বিট কার্যালয়ের উদ্বোধন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে আশাশুনি থানা অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মাদ গোলাম কবিরের নেতৃত্বে ইউনিয়নের শালখালী বাজারে এ বিট কার্যালয়ের উদ্বোধন করেন থানা অফিসার ইনচার্জ এর প্রতিনিধি ইন্সপেক্টর তদন্ত মোহাম্মদ মাহফুজুর রহমান।

"মুজিববর্ষের অঙ্গীকার পুলিশ হবে জনতার" এই স্লোগান বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় পুলিশের সেবা পৌঁছে দিতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান (পিপিএমবার) এর দিকনির্দেশনায় এ বিট কার্যালয়ের ব্যবস্থা বলে জানান উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বক্তারা।

ইউপি সদস্য উদয় চন্দ্র বাছাড়ের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী পূর্ব আলোচনা সভায় শোভনালী ইউপি চেয়ারম্যান ম. মোনায়েম হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন ইন্সপেক্টর তদন্ত মোহাম্মদ মাহফুজুর রহমান। এসময় বিটের দায়িত্বপ্রাপ্ত এস আই ফণীভূষন সরকার, এ এস আই কাওছারুল ইসলাম, বিভিন্ন ওয়ার্ডের ইউপি সদস্যদবৃন্দ, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

কুষ্টিয়ার খলিসাকুন্ডি পুলিশ ক্যাম্পের অভিযান চালিয়ে ৫০০ বোতল ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক

কুষ্টিয়ার খলিসাকুন্ডি পুলিশ ক্যাম্পের  অভিযান চালিয়ে ৫০০ বোতল ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক





কুষ্টিয়া প্রতিনিধি:-
মোঃ চঞ্চল হোসেন। 

 কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার খলিসাকুন্ডি পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এ এস আই খোরশেদ আলম অভিযান চালিয়ে ৫০০ বোতল ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে । মঙ্গলবার সকালে  কুষ্টিয়া-মেহেরপুর সড়কের খলিসাকুন্ডি পুলিশ বক্সের সামনে থেকে আটক করা হয়।
আটককৃত দু্‌ই মাদক ব্যবসায়ী মেহেরপুর জেলার গাংনী উপজেলার তেতুলবাড়িয়া ইউনিয়নের মথুরাপুর গ্রামের ইব্রাহিমের ছেলে সাইদ আলী (২২) ও একই গ্রামের তানসেনের ছেলে রজব আলী (২৪) ।
খলিসাকুন্ডি পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এ এস আই খোরশেদ আলম জানায়, মঙ্গলবার সকাল ৭ টার দিকে  গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি গাংনী থেকে অভিনব কায়দায় মাদকের বড় চালান আসছে। সংবাদ পাওয়ার পর কোন কাল বিলম্ব না করে কুষ্টিয়া-মেহেরপুর সড়কের খলিসাকুন্ডি পুলিশ বক্সের সামনে অভিযান পরিচালনা করি । এ সময় মেহেরপুরের গাংনী থেকে আসা কুষ্টিয়া গামী পাটকাটি/ খড়ি বোঝায় একটি নছিমনে অভিযান চালানো হয় । এ সময় ৫০০ বোতল ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী মেহেরপুর জেলার গাংনী উপজেলার তেতুলবাড়িয়া ইউনিয়নের মথুরাপুর গ্রামের ইব্রাহিমের ছেলে সাইদ আলী ও একই গ্রামের তানসেনের ছেলে রজব আলীকে আটক করা হয় ।
আটককৃত দুই মাদক ব্যবসায়ী ও ফেন্সিডিলসহ থানায় পাঠনো হয়  এবং এদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য আইনে মামলার প্রস্তুতির কাজ চলছে বলে ক্যাম্প ইন্চার্জ জানান।

দিনাজপুরে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরন করলেন মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল স্টুডেন্টস

দিনাজপুরে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক বিতরন করলেন মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল স্টুডেন্টস




মামুনুর রশিদ, দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ ২৮ জুলাই মঙ্গলবার জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপির সার্বিক সহযোগিতায় দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল স্টুডেন্টস এর উদ্যোগে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনগনের মাঝে করোনা সুরক্ষাকারী মাস্ক বিতরনের উদ্বোধন করেন এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডাঃ নাদির হোসেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সহযোগি অধ্যাপক (মেডিসিন) ডাঃ নুরুজ্জামানসহ শিশু বিশেষজ্ঞ ডাঃ মশিউর রহমান, মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল স্টুডেন্টস এর মাসতুরা মোশাররফ ঐষিকাসহ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল স্টুডেন্টস এর নেতৃবৃন্দ। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের মাঝে করোনা সুরক্ষাকারী মাস্ক বিতরন করেন মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল স্টুডেন্টস এর মাসতুরা মোশাররফ ঐষিকার নেতৃত্বে মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল স্টুডেন্টস এর নেতৃবৃন্দ।

দিনাজপুরে ঈদ উল আজহা উপলক্ষে খাদ্য উপহার সামগ্রী বিতরণ

দিনাজপুরে ঈদ উল আজহা উপলক্ষে  খাদ্য উপহার সামগ্রী বিতরণ



মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি॥ পবিত্র ঈদ উল আজহা উপলক্ষে দিনাজপুর সদরের পল্লীতে ব্যক্তিগত উদ্দ্যোগে করোনা দূর্গত অসহায় মানুষদের মাঝে খাদ্য উপহার সামগ্রী বিতরণ করলেন জনহিতৈষী একজন স্কুল শিক্ষক। 

২৮জুলাই মঙ্গলবার সকালে দিনাজপুর সদরের ৮নং শংকরপুর ইউপি‘র শংকরপুর এম দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে বড়াইপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো: আরিফ হোসেনের ব্যক্তিগত উদ্দ্যোগে অত্র ইউনিয়নের ৩০টি গ্রামের ২৫০ জন করোনা দূর্গত অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

শংকরপুর এম দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: জয়নাল আবেদীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ঈদ উল আজহা উপলক্ষে খাদ্য উপহার সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন,দেশের বিত্তবান মানুষের যদি এমন সংকটকালিন সময়ে অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ায় তাহলে কোরবানীর ত্যাগ স্বার্থক হবে এবং ঈদের আনন্দ প্রত্যেক মানুষের ঘরে ঘরে পৌছে যাবে। তাই তারা বিত্তশালী মানুষদের প্রতি আহবান জানান, আসুন প্রতিযোগীতার মাধ্যমে কোরবানীর পশুর দাম না বাড়িয়ে সেই টাকায় নিজ নিজ এলাকার অসহায় মানুষগুলোর মাঝে উন্নত খাবার পরিবেশনের ব্যবস্থা করে তাদের মুখে হাসি ফোটাই।

এসময় অনুষ্ঠানে অসহায় মানুষের মাঝে পোলাও খাওয়ার জন্যে আতপ চাল,তেল,লবন ও চিনি বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে অন্যানের মাঝে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় ব্যক্তিত্ব মো: আকরাম হোসেন ও মোসলেম উদ্দীন প্রমুখ।

ঝিনাইদহে ডিবি পুলিশের অভিযানে ১, কেজি গাঁজা সহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

ঝিনাইদহে ডিবি পুলিশের অভিযানে ১, কেজি গাঁজা সহ মাদক ব্যবসায়ী আটক





খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার। 
( ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি) 



ঝিনাইদহ জেলা গোয়েন্দা শাখা ডিবি পুলিশের ওসি মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান গোপন সংবাদের ভিত্তিতে  ডিবি পুলিশের একটি চৌকশ দল ২৮ জুলাই মঙ্গলবার সকালে  মাদক উদ্ধার অভিযান পরিচালনাকালে আসামি ১।মোঃ তুহিন (২৪), পিতা- মৃত খলিলুর রহমান, সাং-হামদহ কাঞ্চনপুর,২।মোঃ নাছির,পিতা-মৃত হোসেন আলী,সাং- আরাপপুর ক্যাডেট কলেজ পাড়া ৩।মোঃ জাহিদ,পিতা-মৃত শেখ আলী,সাং-কাঞ্চনপুর,উভয় থানা ও জেলা- ঝিনাইদহদেরকে  ০১ (এক) কেজি  গাঁজা সহ আটক করে।মাদক ব্যাবসায়ী দের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলে জানাযায়।

চুরি হওয়ার মিথ্যা তথ্য প্রচার করায় মোংলায় একটি বানিজ্যিক জাহাজকে ৫শ” মার্কিন ডলার জরিমানা

চুরি  হওয়ার মিথ্যা তথ্য প্রচার করায় মোংলায় একটি বানিজ্যিক জাহাজকে ৫শ” মার্কিন ডলার জরিমানা




মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা   
 বন্দর চ্যানেলে অবস্থানরত অবস্থায় চুরি  হওয়ার মিথ্যা তথ্য প্রচার করায় এমটি শিনা-৫ নামক একটি গ্যাস বহনকারী বানিজ্যিক জাহাজকে ৫শ” মার্কিন ডলার জরিমানা করেছে মোংলা বন্দর কতৃপক্ষ। গত ২৪ জুলাই মোংলা বন্দরে প্রবেশের জন্য বন্দর চ্যানেলে হিরন পয়েন্টে অবস্থান করতে ছিলো এমভি শিনা-৫ নামক গ্যাস বহনকারী বানিজ্যিক জাহাজটি। গভীর রাতে একটি সংঘবদ্ধ চক্র জাহাজের স্টোররুম ভেঙ্গে চারটি মুরিং রোপ চুরি করে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ আনেন জাহাজটির ক্যাপ্টেন। তাৎক্ষনিক ওই জাহাটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট মেসার্স সি এশিয়া,ক্যাপ্টেনের বরাত দিয়ে মোংলা বন্দর কতৃপক্ষকে চুরির বিষয়টি অবহিত করেন।  ওই চুরি হওয়ার বিষয়টি স্থানীয় শিপিং এজেন্ট এর বরাত দিয়ে বিভিন্ন টেলিভিশন ও অনলাইন মিডিয়ায় প্রচার হয়। বন্দর কতৃপক্ষ বিষয়টি গুরুত্বের সাথে দেখে এবং এ নিয়ে এমভি শিনা-৫ জাহাজের ক্যাপ্টেন ও বাংলাদেশি লোকাল এজেন্ট মেসার্স সি এশিয়া শিপিং এজেন্সী ও জাহাজের সমন্নয়ে থাকা সকলের সাথে কথা বলেন । ওই সময় জাহাজের ক্যাপ্টেন ও চীফ অফিসার তাদের জাহাজের নিজস্ব নিরাপর্ত্তার নিয়ে গাফিলতির বিষয়টি স্বীকার করেন। এবং এ জন্য বন্দর কতৃপক্ষের  নিকট দুঃখ প্রকাশ করেন তারা। জাহাজটির নাবিকদের এমন কর্মকান্ডের জন্য ৫শ” মার্কিন ডলার জরিমানা করে বন্দর কতৃপক্ষ।
 এক প্রেস বার্তায় এমন তথ্য নিশ্চিত করে মোংলা বন্দর কতৃপক্ষের হারবার মাস্টার কমান্ডার শেখ ফখর উদ্দিন জানান,এমভি শিনা-৫ জাহাজ কতৃপক্ষ রোপ চুরি যাওয়ার স্বপক্ষে কোন প্রমানাদি উপস্থাপন করতে না পারায় এবং জাহাজ কতৃক ভুল তথ্য প্রচার করায় স্থানীয় শিপিং এজেন্ট এর নিকট হইতে ওই  অর্থ দন্ড আদায় করা হয়েছে। বন্দরের এ কর্মকর্তা আরো বলেন, মোংলা বন্দর কতৃপক্ষ দেশের ভাবমূর্তি ক্ষূর্ন এবং বন্দরের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে নেতিবাচক কর্মকান্ড কোন ভাবে গ্রহন করবেনা।

বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৬তম প্রতিষ্ঠাতা বার্ষিকী পালন করলো তারাকান্দা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ

বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৬তম প্রতিষ্ঠাতা বার্ষিকী পালন করলো তারাকান্দা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ




আর.জে মিজানুর রহমান ইমন, ব্যুরো প্রধান ময়মনসিংহঃ

বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের ২৬ তম প্রতিষ্ঠাতা বার্ষিকী উপলক্ষে ২৭ই জুলাই সোমবার প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করলো ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ । পাঁচ বার নির্বাচিত এম.পি ভাষা সৈনিক মরহুম শামছুল হক সাহেবের কবর জিয়ারতের মাধ্যমে আয়োজিত অনুষ্ঠান শুরু করা হয় । উক্ত আয়োজন শুভ উদ্ভোধন করেন তারাকান্দা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব বাবুল মিয়া সরকার । এ সময় উপস্থিত ছিলেন, তারাকান্দা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান চৌধুরী জুয়েল, সাধারণ সম্পাদক কাজল সরকার, ও বিভিন্ন ইউনিয়ন কমিটির নেত্ববৃন্দ সহ আরো অনেকেই ।

বিশেষ অথিতি বিশেষ  উপস্থিত ছিলেন, তারাকান্দা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এডভোকেট ফজলুল হক, ভাইস-চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম নয়ন, তারাকান্দা উপজেলা যুবলীগের আহব্বায়ক আব্দুল মান্নান, বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগের সভাপতি মনির মিয়া সহ আওয়ামী অঙ্গসংগঠন ও সামাজিক সংগঠনের নেত্ববৃন্দ । তারাকান্দা উপজেলা কমপ্লেক্স মাঠ ভবনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানে পুস্পস্তবক অর্পন করেন আয়োজন শেষ করা হয় ।

সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫০তম জন্মদিন পালন করলো "সজীব ওয়াজেদ জয় পরিষদ" তারাকান্দা উপজেলা শাখা

সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫০তম জন্মদিন পালন করলো "সজীব ওয়াজেদ জয় পরিষদ" তারাকান্দা উপজেলা শাখা





স্টাফ রিপোর্টার : আর.জে মিজানুর রহমান ইমন :

 জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দৌহিত্র ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫০ তম জন্মদিন পালন করলো "সজীব ওয়াজেদ জয় পরিষদ" ময়মনসিংহ জেলা শাখার অর্ন্তগত তারাকান্দা উপজেলা শাখা । 

২৭ই জুলাই সোমবার সন্ধ্যায় তারাকান্দা উপজেলা প্রেসক্লাব কার্যালয়ে সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫০ তম জন্মদিন পালন করা হয় । 

এসময় উপস্থিত ছিলেন, সজীব ওয়াজেদ জয় পরিষদ ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিটির সভাপতি, মির্জা আল মুরাদ, সিনিয়র সহ সভাপতি, নুরুজ্জামান সরকার বকুল,  তারাকান্দা উপজেলা কমিটির সভাপতি বাবুল চন্দ্র সূত্রধর, সাধারণ সম্পাদক, মোঃ দুলাল মিয়া, সিনিয়র সহ সভাপতি, এ আর মনিরুজ্জামান মানিক, সহ সভাপতি আজগর আলী, সহ সভাপতি, আরিফুল ইসলাম ফকির, সহ সভাপতি, আসাদুজ্জামান সোহাগ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, আর.জে মিজানুর রহমান ইমন, দপ্তর সম্পাদক ডাঃ মফিদুল ইসলাম, যুব বিষয়ক সম্পাদক, পাপন চন্দ্র সূত্রধর, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক, শাহাব উদ্দিন, প্রচার সম্পাদক মোঃ সুলতান আহমেদ, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হোসাইন আহমাদ রেজা, সহ আরো অনেকেই ।

গুজব ও অপপ্রচার কারীর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান কোটচাঁদপুর মডেল থানার ওসি মোঃ মাহবুবুল আলম

গুজব ও অপপ্রচার কারীর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান কোটচাঁদপুর মডেল থানার ওসি  মোঃ মাহবুবুল আলম
 



খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার। 
( ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি) 



ছেলে ধরা গুজব সংক্রান্তে বাংলাদেশ পুলিশ কর্তৃক গণসচেতনতা সপ্তাহ পালন উপলক্ষে মাননীয় পুলিশ সুপার,জনাব মোঃ হাসানুজ্জামান পিপিএম  ঝিনাইদহ মহোদয়ের দিক নির্দেশনায় জনাব মোঃ মাহবুবুল আলম, অফিসার ইনচার্জ, কোটচাঁদপুর থানা, ঝিনাইদহ  ২৭ জুলাই সোমবার  কাগমারী গ্রামস্থ কাগমারী মাদ্রাসা ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের মধ্যে সচেতনতা মূলক বক্তব্য প্রদান করেন।এসময় উপস্থিত ছিলেন গ্রামের গন্য মান্য ব্যক্তি বর্গ, শিক্ষক, ছাত্র, ছাত্রী সহ কোটচাঁদপুর মডেল থানা পুলিশের একটি চৌকস দল।

চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন মা বাবার কবরের পাশে এমপি ইসরাফিল আলম

চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন মা বাবার কবরের পাশে এমপি ইসরাফিল আলম

 



মোঃ ফিরোজ হোসাইন  
রাজশাহী ব্যুরো

নওগাঁ-৬
 (আত্রাই-রাণীনগর) আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ইসরাফিল আলমের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল সোমবার বাদ আছর গ্রামের বাড়ি রাণীনগর উপজেলার গোনা ইউনিয়নের ঝিনা গ্রামের ঈদগাহ ময়দানে এমপির একাধিক জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা শেষে পারিবারিক গোরস্থানে তার বাবা মায়ের কবরের পাশে তাকে দাফন’ করা হয়। এসময় জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলী জানানো হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি আব্দুল মালেক, নওগাঁ সদর আসনের সংসদ সদস্য নিজাম উদ্দিন জলিল জন, রাজশাহী-৩ আসনের সাংসদ আইন উদ্দিন, জেলা প্রশাসক হারুনু-অর- রশিদ, পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আবদুল মান্নান মিয়া, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, ওসিসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, রাণীনগর-আত্রাই উপজেলা আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গসংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দ। এছাড়াও সর্বস্তরের হাজার হাজার সাধারণ মানুষ জানাযার নামাযে অংশগ্রহণ করে।

সোমবার সকালে ইসরাফিল আলম তীব্র শ্বাসকষ্ট নিয়ে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৫৪বছর। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও ২মেয়েসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। ইসরাফিল আলমের মৃত্যুতে মাননীয় রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শোক প্রকাশ করেছেন। শনিবার সন্ধ্যায় ফুসফুস ইনফেকশনে আক্রান্ত হয়ে তাকে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকরা লাইফ সাপোর্টে রাখেন। সোমবার সকাল ৬টা ৪০মিনিটে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ইসরাফিল আলমের স্ত্রী সুলতানা পারভীন বিউটি জানান, ৬জুলাই অসুস্থতা নিয়ে তিনি প্রথম এ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তখন তার করোনা ধরা পড়ে। এখানে কিছু দিন চিকিৎসা নেয়ার পর তিনি বাড়ি চলে যান। পরে পরীক্ষা করে করোনা নেগেটিভ আসে। এ অবস্থায় গত ১৭জুলাই আবারও অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত শুক্রবার রাত ১১টা দিকে তার প্রচুর- শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে তাকে ভেন্টিলেশন সাপোর্ট দেয়া হয়। এছাড়াও তিনি হৃদরোগ ও ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্ত ছিলেন।

এক সময়ের রক্তাক্ত জনপদ হিসেবে পরিচিত ছিলো জেলার রাণীনগর ও আত্রাই উপজেলা। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময় সর্বহারারা দিনে-দুপুরে প্রকাশ্যে এই জনপদে মানুষকে জবাই করে রাখতো। এরপর জেএমবির তান্ডব। অশান্তি আর হাহাকারের বাতাস বইতে শুরু করে এই অঞ্চলে। ঠিক তখনই আর্বিভাব ঘঠে শ্রমিক নেতা ইসরাফিল আলমের। ২০০১সালের নির্বাচনে প্রথমে তার পরাজয় হয়। এরপর যখন সর্বহারা ও জেএমবির অত্যাচার মাত্রারিক্ত হয়ে গেলে তখন এই অঞ্চলের মানুষ ২০০৮সালে নৌকা মার্কায় ৩৬বছর পর ভোট দিয়ে ধানের শীষের মনোনীত প্রার্থী আনোয়ার হোসেন বুলুকে পরাজিত করে বিএনপির দুর্গ হিসেবে খ্যাত নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনটিতে বিজয়ী করেন শ্রমিক নেতা মো: ইসরাফিল আলমকে। এরপর ২০১৮ সালেও তিনি সেই আলমগীর কবীরকে পরাজিত করে ৩য় বারের আবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ইসরাফিল আলম তার দেওয়া কথা রেখেছেন। তিনি এমপি হওয়ার পর আওয়ামীলীগ সরকারের সার্বিক সহযোগিতায় এই রক্তাক্ত জনপদ থেকে জবাই, হানাহানি, লুণ্ঠন, ছেলে ও স্বামী হারানোর কান্না থেকে রক্ষা করেছেন রাণীনগর ও আত্রাই উপজেলার মানুষকে। বর্তমানে তার চৌকস নেতৃত্বের কারণে এই অঞ্চলে শান্তির সুবাতাস বইছে। যার কারণে এই অঞ্চলের মানুষ কখনই তার বিকল্প খুঁজতে যাননি কখনই।

তিনি নওগাঁ-৬ (আত্রাই-রাণীনগর) আসনে টানা তিনবার আওয়ামীলীগের এমপি হিসেবে নেতৃত্ব প্রদান করছেন। এই ক্ষনজন্মা ব্যক্তির জন্ম রাণীনগর উপজেলার গোনা ইউনিয়নের ঝিনা গ্রামে ১৯৬৭সালে মরহুম আজিজুর রহমানের সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে। তিতাস গ্যাস কোম্পানিতে মিটার রিডার হিসেবে তিনি দীর্ঘদিন চাকরি করেছেন। তার রাজনৈতিক শিক্ষাগুরু প্রয়াত আহসান উল্লাহ মাস্টার। তিনি ঢাকা মহানগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি পুরোপুরি রাজনীতিতে আত্মনিয়োগ করেন। মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত তিনি বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় ফেডারেশনের সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। ইসরাফিল আলম অনেক গুনেগুনান্বিত ছিলেন। তিনি বর্তমানে টকশোর জগতে এক অনন্য ব্যক্তিত্ব। এছাড়াও তিনি ছিলেন একজন তারকা কণ্ঠশিল্পী,সম্পাদক,  সাহিত্যিক, ও লেখক।

প্রিয় দেশবাসীকে পবিত্র ঈদুল আযহারের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ডা.এম.এ.মান্নান

প্রিয় দেশবাসীকে পবিত্র ঈদুল আযহারের  শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ডা.এম.এ.মান্নান






 প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ  নাগরপুর সহ প্রিয় বাংলাদেশের সর্বস্বরের নাগরিকদের পবিত্র ঈদুল আযহারের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন এবং শান্তি কামনা করে মুকতাদির হোমিও চিকিৎসা কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ব্যবস্হাপনা পরিচালক, বিশিষ্ট সমাজসেবক ডা.এম.এ.মান্নান বলেন- -                  নাগরপুর সহ দেশের সব নাগরিকদের জানাচ্ছি ঈদ মোবারক,ঈদ মোবারক এবং  আমার সালাম,
আসসালামু আলাইকুম ওয়ারাহমাতুল্লাহ। 

"তাক্বাব্বালাল্লাহু মিন্না ওয়ামিনকুম"
-আল্লাহ আমাদের এবং আপনার (ইবাদত) কবুল করুন,আমিন। 

জ্বনাব ডা.এম.এ.মান্নান দেশের সকল নাগরিকদের দৃষ্টি আর্কষন করে আরও বলেন-

♦ঈদ মোবারকের পবিত্রতা রক্ষা করুন।
♦সকল প্রকার পাপাচার থেকে দুরে থাকুন।
♦বেশী বেশী ফরজ ইবাদত,সুন্নাহ ও নফল ইবাদত সহ সকল প্রকার সহিহ আমল করুন।
♦মহামারী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও বাঁচার জন্য মহান আল্লাহ কাছে বিশেষ প্রার্থনার মাধ্যমে সাহায্য কামনা করুন।                                    ♦বন্যায় কবলিত অসহায় মানুষের পাশে থেকে সাধ্যঅনুযায়ী সহযোগিতা করুন। 
♦ঈদ উপলক্ষে-- কর্মহীন,দুস্থ,অসহায়,বিধবা,গরীর শ্রেনীর মানুষকে অর্থ/খাদ্য সামগ্রী /পরামর্শ /বস্ত্র /চিকিৎস্যা দিয়ে সাধ্যঅনুযায়ী সহযোগিতা করুন এবং খোঁজ খবর রাখুন।                                            ♦সকল আত্বীয়-স্বজনদের খোঁজ খবর নিন এবং তাদের সাথে সু সম্পর্ক অটুট রাখুন। 
♦বাংলাদেশ সহ বিশ্ববাসীর জন্য করোনা ভাইরাস ও বন্যা সহ সকল প্রকার বালা মুসিবত থেকে মুক্তির জন্য মহান আল্লাহ দরবারে দোয়া করুন।
♦করোনা প্রতিরোধে ও বন্যা বিষয়ে সরকারের দেওয়া সকল নিয়ম কানুন মেনে চলুন।
♦ঘরে থাকুন,ঘরে থাকুন,ঘরে থাকুন।
♦স্বাস্হবিধি মেনে চলুন। 
♦স্বাস্থ্য বিষয়ক পরামর্শ করতে আইইডিসিআর,উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের জরুরী হট নাম্বারে যোগাযোগ করুন অথবা আমাদের মেডিকেল টিমের সাথেও যোগাযোগ করতে পারেন।

মহান আল্লাহ পাক যেন,পবিত্র ঈদুল আযহারের  উসিলায় আমাদের সকলকে হেফাজত করেন এবং সকল গুনাহ মাফ করেন,আমিন।
পরিশেষে বলতে চাই-সবাই ভাল থাকুন,সুস্হ থাকুন-আল্লাহ হাফেজ। 

----শুভেচ্ছান্তে----
ডা.এম.এ.মান্নান-আরটি
হোমিওপ্যাথিক মেডিসিন কনসালটেন্ট ও এমডি
মুকতাদির হোমিও চিকিৎসা কেন্দ্র.
চিকিৎসক রেজি.নং২৯১৭১ 
নাগরপুর,টাংগাইল।
০১৭২১৪০৬৭২০
mannan4ulive@gmail.com