প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

 
সাতক্ষীরা থেকে প্রকাশিত কয়েকটি পত্রিকা এবং অনলাইনে "শ্যামনগরে শিক্ষার্থীকে শারীরিক নির্যাতন ও পুলিশের ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায়ের অভিযোগ " শিরোনামে  একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে ৷ যাহা আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে ৷ প্রকৃত পক্ষে সংবাদ সংশ্লিষ্ট ছেলেটি দীর্ঘদিন ধরে আমার মেয়ে কে উত্যাক্ত করে আসছে ৷ আমি পরিবারের পক্ষ থেকে অনেক বার নিষেধ করার পরও আমার মেয়েকে উত্যাক্ত করলে বুড়িগোয়ালীনি ইউনিয়নের ১,২,৩ সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার খাদিজা খাতুনের প্রতিনিধি কুদ্দুস আলী গাজী, ছেলের দাদা আবু বক্কার সিদ্দিক, ছেলের ছোট চাচা মোকসেদ গাজী ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক খান বাহাদুর সহ গন্যামান্য ব্যক্তি ছেলেকে ডেকে আমার মেয়েকে যাতে উত্যাক্ত না করে সে কারনে নিষেধ করে দেন।
কিন্ত আমি আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মেম্বার প্রার্থী হওয়ায় আমাকে সমাজে হেয় প্রতিপন্ন করার লক্ষ্যে সাংবাদিকদের ভুল বুঝিয়ে এমন সংবাদ প্রকাশিত করিয়াছে ৷ আমি উক্ত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

                -জামাল হোসেন
    ধানখালী মুন্সিগঞ্জ শ্যামনগর, সাতক্ষীরা ৷

উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করে যেতে চাই ইঞ্জি. আবুল কাসেম সিমান্ত

 উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার  লক্ষ্যে কাজ করে যেতে চাই ইঞ্জি. আবুল কাসেম সিমান্ত

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির রাজাপুরের নিজ গালুয়া গ্রামের সন্তান আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটি সদস্য ইঞ্জি. আবুল কাসেম সীমান্ত বৃহস্পতিবার বিকালে নিজ এলাকার বাসভবনে একান্ত সাক্ষাৎ কালে সাংবাদিকদের তিনি তার জীবনের শৈশব, কৈশর, ছাত্র ও রাজনৈতিক ব্যক্তিগত জীবনের উল্লখযোগ্য নানা দিক তুলে ধরেন তিনি ১৯৭৮ সালে রাজাপুরের নিজ গালুয়া গ্রামে মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। তার বাবার নাম আলহাজ্ব মো. আব্দুল জলিল আকন। সিমান্ত ১৯৯৫ সালে গাজীপুর ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজ থেকে স্টার মার্কস পেয়ে উচ্চ মাধ্যমিক এবং ২০০০ সালে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রকৌশল শাস্ত্রে স্নাতক সম্মান অর্জন করেন। তিনি বার্ড গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর। ইঞ্জি. আবুল কাসেম সীমান্ত ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ছিলেন। শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের ভারপ্রাপ্ত ভিপি ছিলেন। ছাত্র জীবন থেকে তিনি বিভিন্ন সামাজিক কল্যাণমূলক কাজের সঙ্গে জড়িত। ইঞ্জি. আবুল কাসেম সীমান্ত জানান, মাদার অফ হিউম্যনিটি জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে কাজ করার সুযোগ দিয়েছেন। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও দেশের জনগণের জন্য কল্যাণমূলক তৃণমূলে জনসাধারণের পাশে থেকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলার বির্নিমানে এবং দেশরত্ন শেখ হাসিনার "রুপকল্প-২০৪১" উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার লখ্যে কাজ করে যাব।

আশাশুনিতে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে চেয়ারম্যান প্রার্থী এস এম হোসেনুজ্জামানের মাস্ক বিতরণ

আশাশুনিতে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে  চেয়ারম্যান প্রার্থী  এস এম হোসেনুজ্জামানের  মাস্ক বিতরণ

আহসান উল্লাহ বাবলু  আশাশুনি সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: আশাশুনি সদরে ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী সাবেক ছাত্রনেতা তরুন সমাজ সেবক এস এম হোসেনুজ্জামানের সার্বিক সহযোগিতায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ও গণসচেতনা বৃদ্ধিতে জনস্বার্থে মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সদরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জনবহুল পয়েন্টে সর্ব সাধারনের মাঝে নতুন করে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় জনগণের সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য এ মাস্ক বিতরণ করেন এবং সাধারণ জনগণের মাঝে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড তুলে ধরেন এস এম হোসেনুজ্জামান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও প্রতাপনগর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ জাকির হোসেন, সাবেক ইউপি সদস্য রুহুল আমিন সরদার, আওয়ামীলীগ নেতা সাঈদ সরদার, আসাদুল ইসলাম, বদিউজ্জামান মন্টু, আবু সাদেক, খালেক সরদার, সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্যা রোজিনা পারভীন ময়না, যুবলীগ নেতা তরিকুল, আল মামুন, গাউসুল আযম, কামরুল ইসলাম, সমরেশ চক্রবর্ত্তী, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা রফিকুল ইসলাম, ডালিম হোসেন, কেনারুল ইসলাম, তরুনলীগ নেতা মোতাহার হোসেন, ফুলবারী, সোহাগ হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা আলিমুজ্জামান, মিজানুর ইসলাম, তাজ, শিমুল, ইমরান হোসেন, আল আমিন সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

মহেশপুরে ভ্যানের সাথে গলার উড়নায় ফাঁস লেগে স্কুল ছাত্রীর করুণ মৃত্যু!

মহেশপুরে ভ্যানের সাথে গলার উড়নায় ফাঁস লেগে স্কুল ছাত্রীর করুণ মৃত্যু!

সম্রাট হোসেন, ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃঝিনাইদহের মহেশপুরে গলায় ওরনার ফাঁস লেগে ১২ দিন পর যশোর সদর হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেছে।মহেশপুর বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী তিন্নি। সে মহেশপুর পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের হঠাৎ পাড়ার বাসিন্দা।
জানা গেছে মহেশপুর হাসপাতালের পিছনে হঠাৎ পাড়ার বাসিন্দা সুফিয়ার মেয়ে তিন্নি (১৪) গত ১৮ মার্চ ২০২১ ইং তারিখ সকালে ভ্যান যোগে যাওয়ার সময় গলায় ওরনা জড়িয়ে গলায় ফাঁস লেগে মারাক্তক জখম হয়। সাথে সাথে মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে চিকিৎসা নেয়, এসময় তার অবস্থা অবনতি হলে ঢাকায় রেফার করে সেখানে কিছুটা সুস্থতা অনুভব করলে আবারো মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করা হয়। এখানে তার অবস্থা অবনতি দেখা দেওয়ায় গত ৩১ মার্চ যশোর সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসারত অবস্থায় ১লা এপ্রিল বিকাল ৪.০০ ঘটিকায় সে মৃত্যু বরণ করে।

আশাশুনি সদর ইউপি চেয়ারম্যান মিলনের নেতৃত্বে অবশেষে আটকানো সম্ভব হলো ভাঙ্গনকৃত রিং বাঁধ

আশাশুনি সদর ইউপি চেয়ারম্যান মিলনের নেতৃত্বে অবশেষে আটকানো সম্ভব হলো ভাঙ্গনকৃত রিং বাঁধ

আহসান উল্লাহ বাবলু,  আশাশুনি সাতক্ষীরা  প্রতিনিধিঃ আশাশুনি সদরের খোলপেটুয়া নদীর ভাঙ্গনকৃত রিং বাঁধ অবশেষে সংস্কার কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ফলে বৃহস্পতিবার দুপুরে জোয়ারে নদীর পানি আর ভেতরে প্রবেশ করতে পারেনি। কিন্তু, মঙ্গলবার দুপুর থেকে ও বুধবার রাতের জোয়ার পর্যন্ত নদীর পানি ভেতরে প্রবেশ করে আশাশুনি দক্ষিণ পাড়া, দয়ারঘাট, জেলেখালি, আশাশুনি পূর্ব বিল ও দূর্গাপুর মোট ৫ গ্রাম প্লাবিত হয়। পানি বন্দি হয়ে পড়ে প্রায় পাঁচ শতাধিক মানুষ। তলিয়ে যায় সুন্দরবন চিংড়ি পোনা হ্যাচারি, একটি মসজিদ, ৪টি মন্দির, প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ দেড় শতাধিক চিংড়ী ঘের, প্রায় কর্তন উপযোগী ধানের মাঠ, পুকুরসহ অসংখ্য কাচা পাকা বসতবাড়ী। এসব পানিতে তলিয়ে ফসল নদীতে ভেষে গিয়ে কয়েক কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। 
জানাগেছে, কাচা-পাকা ঘরবাড়ী ভেঙ্গে চুরে তছনছ হয়ে গেছে। বানভাষী মানুষসহ গবাদি পশু ও প্রয়োজনীয় কিছু মালামাল নিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার দ্রুত পাউবো'র বাঁধে অবস্থান নেয়। হঠাৎ করে বাঁধ ভেঙ্গে পানি ভেতরে প্রবেশ করায় অধিকাংশ পরিবার তাদের বহু মূল্যবান জিনিস পত্র হেফাজতে রাখতে ব্যর্থ হয়। ফলে কোটি কোটি টাকার সম্পদ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। যা সঠিক নিরুপনে উপজেলা প্রশাসন ও বিভিন্ন এনজিও প্রতিনিধিদের মাঠে নামতে দেখা গেছে। এ দিকে ভেতরে প্রবেশ করা পানি এখন সরানোর কোন পথ না থাকায় জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। তবে প্লাবিত এলাকার বানভাসি পরিবারের মধ্যে সরকারি ও এনজিও'র পক্ষ থেকে কোন শুকনা খাবার সরবরাহ করা হয়নি। পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর উপজেলা জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে বানভাসি এলাকায় সুপেয় পানি সরবরাহ করলেও কোন খাদ্যের ব্যবস্থা করা হয়নি। ফলে পাউবো'র মূল বাঁধের উপর আশ্রায় নেয়া পরিবারগুলির মানুষ ও শিশুদের অর্ধহারে অনাহারে কষ্ট পেতে দেখা গেছে। মল ত্যাগের স্থান পানিতে ডুবে যাওয়ায় সরকারি বা বেসরকারিভাবে ভ্রাম্যমান ব্যবস্থা না করায় সবচেয়ে বেশী সমস্যায় থাকতে হচ্ছে বানভাষী মানুষের। গত মঙ্গলবার বাঁধ ভেঙ্গে প্লাবিত হওয়ার পর রাত থেকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এলাকা বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

আশাশুনি সদর ইউপি চেয়ারম্যান স, ম সেলিম রেজা মিলন জানান, সকাল থেকে প্রায় চার শতাধিক শ্রমিক নিয়ে সকাল থেকে দুপুরে জোয়ারের আগ পর্যন্ত নিরলসভাবে কাজ করে রিং বাঁধের সংস্কার কাজ সম্পন্ন করেছি।রিং বাঁধে কাজ করা শ্রমিকদের জন প্রতি তিনশত টাকা করে প্রদান করা হয়েছে।একাজে পাউবো কর্তৃপক্ষ জিও ব্যাগ সরবরাহ করেছে। উপজেলা চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিমের দিক নির্দেশনায় ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুল হুসেইন খানের সার্বিক সহযোগিতায় পাউবো কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনায় সদরের নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিদের সার্বিক সহযোগীতায় এবং জোয়ারের পানির চাপ কম থাকায়, আপাতাত মূল রিং বাঁধের সুন্দরবন হ্যাচারী, সবুরের বাড়ী, রনজিৎ বৈদ্য, স্বপন মুহুরী ও অমল মন্ডল, ঋষি পাড়ার নিরান দাশ এবং পুলিন দাশের বাড়ী সংলগ্ন মোট ৬টি পয়েন্টের রিং বাঁধ আটকানো সম্ভব হয়েছে। ফলে আপাতাত কয়েকটি পরিবার বাঁধের বাইরে পড়ায় তারা পাউবো'র বাঁধে আশ্রায় নিয়েছে। ভেতরে আপাতাত আর এ গোনে খোলপেটুয়া নদীর পানি উঠার সম্ভবনা খিন হয়ে গেছে। এখন ওই রিং বাঁধ মেরামতের কাজ অব্যহত রয়েছে। তবে আগামী অমাবশ্যা গোনের আগেই যদি মূল বাঁধের কাজ না করা হয় তা হলে আবারো এমন ঘটনা ঘটতে সময়ের ব্যাপার মাত্র। তাছাড়া জোয়ারে পানি কম বৃদ্ধি পাওয়ায় বাজারে পানি উঠা আপাতাত বন্ধ হয়েছে। ভবিষ্যতে মানিকখালি টু মরিচ্চাপ ব্রীজ পর্যন্ত পাউবো'র বেড়ীবাঁধ না থাকায় এলজিইডি কর্তৃক নির্মানাধী রাস্তা নীচু হওয়ায় বছরের বিভিন্ন সময় গোনে জোয়ারের চাপে মরিচ্চাপ নদীর পানি ভেতরে প্রবেশ করে। ফলে বাজারের ব্যবসায়ীদের বেশ ক্ষতির শিকার হতে হয়। বাজার কমিটিসহ এলাকার সচেতন মহলের দাবী দ্রুত এ জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তাটির জলবায়ু পরিবর্তন রোধক ব্যবস্থা করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

মোংলায় কোস্টগার্ডের অভিযানে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

মোংলায় কোস্টগার্ডের অভিযানে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক
মোংলায় কোস্টগার্ডের অভিযানে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক
মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলাঃ বাংলাদেশ কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের  অধিনস্ত বিসিজি বেইজ মোংলার একটি টহল দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে
বুধবার (৩১মার্চ) দুপুরে মোংলার দিগরাজ বাজার সংলগ্ন আপাবাড়ি এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৩২৯ গ্রাম গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে। 

কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের গোয়েন্দা কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট এম মাজহারুল হক স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়,গোপন সংবাদের ভিত্তিতে
বুধবার (৩১ মার্চ) দুপুরে মোংলার দিগরাজ বাজারের আপাবাড়ি এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৩২৯ গ্রাম গাঁজা সহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে কোস্টগার্ড। ওই মাদক ব্যবসায়ী  কোস্টগার্ডের অভিযান টের পেয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে ধাওয়া করে তাকে আটক করা হয়। এর আগে ওই একই এলাকা থেকে ইয়াবাসহ আরো কয়েকজন মাদক পাচারকারীকে আটক করেছে কোস্টগার্ড।

আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীর নাম আজাদ  (২৫)। সে রামপাল  উপজেলার মালিডাঙ্গা গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে। আটক মাদক ব্যবসায়ী ও তার কাছ থেকে উদ্ধারকৃত গাঁজা পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য মোংলা থানায় স্থানান্তর করা হয়েছে।

সুন্দরবন সংলগ্ন এলাকাসমূহে অবৈধ পণ্য পাচারকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে কোস্টগার্ড সবসময়ই দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করে আসছে। ভবিষ্যতেও এধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের এই কর্মকর্তা।

নওগাঁর আত্রাইয়ের শাহাগোলাতে বিষপানে এক যুবকের আত্মহত্যা

 নওগাঁর আত্রাইয়ের শাহাগোলাতে বিষপানে এক যুবকের  আত্মহত্যা

রাজশাহী ব্যুরো 
নওগাঁর আত্রাইয়ে রব্বেল হোসেন (২৫) নামের এক যুবক বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার শাহাগোলা গ্রামে।
বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেন। নিহত রব্বেল হোসেন উপজেলার শাহাগোলা গ্রামের আফসার আলীর ছেলে।

জানা যায়, পারিবারিক কলহের কারণে নিহত রব্বেল বুধবার দিবাগত গভীর রাতে কোনো এক সময় পরিবারের লোকজনের অজান্তে বিষপান করে। পরে রাত ১২টার দিকে পরিবারের লোকজন বিষয়টি জানতে পেরে সাথে সাথে তাকে উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। তার অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করলে পথমধ্যে তার মৃত্যু হয়।

ঝিকরগাছায় জমি ক্রয় করেও দখল করতে পারেছে না একটি অসহায় পরিবার : আদালতে মামলা ও থানায় অভিযোগ

ঝিকরগাছায় জমি ক্রয় করেও দখল করতে পারেছে না একটি অসহায় পরিবার : আদালতে মামলা ও থানায় অভিযোগ

আফজাল হোসেন চাঁদ : যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার ৯নং হাজিরবাগ ইউনিয়নের দেউলী গ্রামে নগদ অর্থ দিয়ে জমি ক্রয় করেও দখল করতে পারেছে না একটি অসহায় পরিবারের সদস্য মোক্তার আলী খা (৫০)। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে যশোরের বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা চলমান থাকার পরেও এলাকার প্রভাবশালীদের দাপটে অবশেষে হারাতে বসেছে তার ক্রয়করা বসতভিটার জমি। দেওলী মৌজায় ৪১৭নং আরএস ও ৩৮৮নং আরএস খতিয়ানে সর্বমোট ৯২শতক জমির মধ্যে বাদী দু'বারে ক্রয়কৃত ২০শতক জমি।
মামলা সূত্রে জানা যায়, বিগত ২০০১ সালে একই এলাকার মৃত সমছের আলী খা'র ছেলে পাঞ্জাব আলী খার নিকট হতে ১০শতক জমি বাবদ উপযুক্ত মূল্য দিয়ে খরিদ করে। তার উপর ঐ সময় বসতবাড়ী নির্মাণ করে। বর্তমানে বসবাস এবং রাস্তা সংলগ্নে একটি দোকান নির্মাণ করে ব্যবসা পরিচালনা করছে। অতঃপর তাকে বার বার অনুরোধ করার পরও তিনি উক্ত ১০ শতক জমি ২০১১ সালে ৪৩৬১নং কেবলা দলিলমূলে ২৩ হাজার টাকায় এই বাদীর অনুকূলে হস্তান্তর নিশ্চিত করেন। ২০১৭সালে ৩১৯৬ নং রেজিস্ট্রি দলিল করে পুনরায় উক্ত জমি পাঞ্জাব আলী খার ছেলে হাসান আলী খার নিজ প্রয়োজনে ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকায় বিনিময়ে ১০শতক জমি সংলগ্ন উত্তরপার্শ্বে আরও ১০শতক জমি বাদী মোক্তার আলী খা'র নিকট নগদ অর্থের বিনিময়ে বিক্রয় নিশ্চিত করেন। 
এই মামলার বাদীপক্ষ উক্ত ২০শতক জমি একলপ্ত করে গৃহাদীতে বসবাসে, কিছু অংশে বৃক্ষ এবং রাস্তা সংলগ্ন করে ২টি দোকান স্থাপনে ব্যবসা পরিচালনা করছে। এমতাবস্থায় পাঞ্জাব আলী, তার স্ত্রী রহিমা খাতুন ও তার ছেলে হাসান আলী খা বিবাদী/দ্বিতীয়পক্ষ করে ২০২১ সালের ২৫জানুয়ারী বেলা ১১টার সময় দা সাবল, লাঠিশোটা, এই সব অস্ত্রশস্ত্র লইয়া অপরিচিত গুন্ডাপান্ডা শ্রেনীর আরো ৪/৫জন লোক সাথে লইয়া আসিয়া মোক্তার আলী খার দোকান ঘরের ও বাড়ীর দেওয়ালে আঘাত করে ত্রাস সৃষ্টির মাধ্যমে জমি দখল করবে মর্মে হুমকি দিতে থাকে। এতেও বিবাদীপক্ষ ক্ষ্যান্ত হয়নি। তারা উক্ত জমি আবারও একই এলাকার বাহাদুর মন্ডলের ছেলে নুর হোসেনের নিকট বিক্রয় করে। 
বর্তমানে নুর হোসেন গং স্থানীয় প্রভাব খাটিয়ে মোক্তার আলী খা'র জমির সহ তার (নুর হোসেন) সকল জমি তারের কাটার বেড়া লাগিয়ে দিয়েছে। ২৭ মার্চ সকাল ৯টায় মোক্তার আলী খা'র ভাগে থাকা একটি বড় রেন্টিগাছের ডাল কাটিয়া গাছটি মেরে নেওয়ার চেষ্টা করছে এবং বিবাদীরা বাদীকে প্রকাশ্যে জীবননাশের হুমকি ধামকি দেওয়ায় মোক্তার আলী খা বাদী হয়ে ঝিকরগাছা থানাতে ০১এপ্রিল ২০২১ইং তারিখে ০৪ জনকে বিবাদী সহ অজ্ঞাতনামা ১০/১২ জনের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। অভিযোগে বিবাদীরা হলেন, নুর হোসেনের ছেলে শাহিন হোসেন @ রিপন (২৭), বাদু মন্ডলের ছেলে রবিউল ইসলাম (৪৮) ও আলী হোসেন (৫২) এবং রবিউল ইসলামের ছেলে আব্দুল্লাহ (২০) সহ অজ্ঞাতনামা ১০/১২ জন।
জমির মূল মালিক পাঞ্জাব আলী খা বলেন, আমি মোক্তার আলী খা'র নিকট জমি বিক্রয় করি ১০শতক। আর আমার ছেলে ঐ জমির বিপ্ররীতে ১০শতক জমি দিয়েছে। সেই সূত্রে পাঞ্জাব আলী খা ২০১১ সালে ১০শতক জমি দলিলের মূল ২৩ হাজার টাকা আর ২০১৭ সালে ছেলে নিকট হতে ১০ ক্রয়কৃত জমির মূল্য ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা।
অভিযোগে ১নং বিবাদী শাহিন হোসেন  রিপন বলেন, আমরা কাগজপত্র অনুযায়ী জমি কিনেছি। এবং সেই অনুযায়ী দখল করেছি।
থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আমাদের নিকট একটি লিখিত অভিযোগ এসেছে। অভিযোগের উপর তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

১১ ই এপ্রিল অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে

১১ ই এপ্রিল অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে

নিউজ ডেস্ক:প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা জানিয়েছেন, দেশে করোনা পরিস্থিতি দিন দিন ভয়ংকর রূপ ধারণ করায় ১১ এপ্রিল অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদ ও লক্ষ্মীপুর-২ আসনসহ সব নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ( ১ এপ্রিল) কমিশন সভা শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার সাংবাদিকদের এই এ কথা জানান। তিনি বলেন, ৩১ মার্চের পর আপাতত আর নির্বাচন হবে না। করোনার কারণে এটা ইসির নীতিগত সিদ্ধান্ত।

এরআগে গত ২৯ মার্চ করোনার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ার কারণে আগামী ১১ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া প্রথম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন না করার নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়।
এরআগে, বুধবার ( ১৭ ফেব্রুয়ারি) কমিশন সভা শেষে ইসি সচিব হুমায়ুন কবীর খোন্দকার জানিয়েছিলেন, আগামী ১১ এপ্রিল প্রথম দফায় ৩২৩টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। আর তফসিল ঘোষণা করা হবে মার্চের প্রথম সপ্তাহে। ১১ এপ্রিল প্রথম ধাপের ইউপি ভোটের সঙ্গে পৌর নির্বাচনের ষষ্ঠ ধাপে ৯টি পৌরসভার ভোটও গ্রহণ করার কথা ছিলো।গত বারের মতো আসন্ন ইউপির ভোটও হবে দলীয় প্রতীকে নেওয়ার কথা ছিলো।

তথ্যের উৎস: দৈনিক ইত্তেফাক

নড়াইলের লোহাগড়ায় শশুর বাড়ি বেড়াতে এসে জামাইয়ের আত্মহত্যা!

নড়াইলের লোহাগড়ায় শশুর বাড়ি বেড়াতে এসে জামাইয়ের আত্মহত্যা!
নড়াইলের লোহাগড়ায় শশুর বাড়ি বেড়াতে এসে জামাইয়ের আত্মহত্যা!

মো:আজিজুর বিশ্বাস,স্টাফ রিপোর্টার নড়াইল: নড়াইল জেলার লোহাগড়ায় শশুর বাড়ি বেড়াতে এসে জামাই আজম মীর (২১) স্ত্রীর ওড়না পেঁচিয়ে আত্বহত্যা করেছেন।বৃহস্পতিবার ১ এপ্রিল সকালে লোহাগড়া পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে। 


পারিবারিক ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নড়াইল জেলার নড়াগাতী থানার মাউলী ইউনিয়নের তেলগাতী গ্রামের হাশেম আলী মীরের ছেলে আজম মীর (২১)এর সাথে লোহাগড়া উপজেলার জয়পুর ইউনিয়নের বেলটিয়া গ্রামের মিঠু মোল্যার মেয়ে শামীমা খানম (১৯)এর সাথে এক মাস পূর্বে বিয়ে হয়। 

বিয়ের পর থেকেই তাদের দম্পত্য জীবন সুখের ছিল না। গত মঙ্গবার শবে বরাত উপলক্ষে জামাই আজম মীর শশুর বাড়ি বেলটিয়া বেড়াতে আসেন। এরপর বুধবার স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দাম্পত্য জীবন নিয়ে বাগ-বিতন্ডা হয়। এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে জামাই আজম মীর ঘরের আড়ার সাথে স্ত্রীর ওড়না পেঁচিয়ে আত্বহত্যা করেন।

বৃহস্পতিবার সকালে খবর পেয়ে লোহাগড়া থানার এসআই মাসুদুর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এবং নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত জন্য নড়াইল সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছেন।

এ ব্যাপারে লোহাগড়া থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মাহমুদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারন জানা যাবে।

রাণীশংকৈলে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক পরিধান না করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা

রাণীশংকৈলে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক পরিধান না করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা
রাণীশংকৈলে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মাস্ক পরিধান না করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা

কলিন চন্দ্র (ইতু) রায়,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ 
সারা দেশব্যাপী করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ের সার্বিক পরিস্থিতি মোকাবেলায় মাস্ক পরিধান ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে ১ এপ্রিল বৃহস্পতিবার  ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈলে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। এ উপলক্ষে এদিন সকালে পরিষদ চত্বর সংলগ্ন মহাসড়ক ও পৌর কাঁচা বাজারে মাস্ক ব্যবহার না করায় সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ আইন ১৮৬০ এর ২৬৯ ধারায় ৯ জনকে সামান্য অর্থ জরিমানা করা হয়। এছাড়াও শতাধিক মাস্ক বিহীন গরীব পথচারীকে ইউএনও বিনামূল্য মাস্ক বিতরণ করেন।এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল সুলতান জুলকার নাইন কবির।এ সময় ইউএনও অফিসের পেশকার ইউনুস আলী, এস আই আহসান হাবিব, পুলিশ সদস্য ও সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।জনস্বার্থে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে নির্বাহী কর্মকর্তা জানান।

দেশে রেকর্ডসংখ্যক করোনা রোগী শনাক্ত

দেশে রেকর্ডসংখ্যক করোনা রোগী শনাক্ত


নিউজ ডেস্ক: গত ২৪ ঘণ্টায় (গতকাল বুধবার সকাল আটটা থেকে আজ বৃহস্পতিবার সকাল আটটা পর্যন্ত) দেশে রেকর্ডসংখ্যক করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার করোনায় সংক্রমিত ৬ হাজার ৪৬৯ জন রোগীর শনাক্ত হওয়ার তথ্য জানানো হয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে। আর ২৪ ঘণ্টায় করোনায় সংক্রমিত হয়ে মারা গেছেন ৫৯ জন।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর এত বেশিসংখ্যক রোগী আর শনাক্ত হননি।গতকাল বুধবার দেশে করোনায় সংক্রমিত হয়ে ৪৫ জনের মৃত্যুর খবর জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। আর করোনায় সংক্রমিত ৫ হাজার ৩৫৮ জন রোগী শনাক্ত হয়েছিলেন গতকাল। তার আগের দিন মঙ্গলবার ৫ হাজার ৪২ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছিলেন।

এ পর্যন্ত দেশে মোট ৬ লাখ ১৭ হাজার ৭৬৪ জনের করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে মারা গেছেন ৯ হাজার ১০৫ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৪৪ হাজার ৯৩৮ জন।গত ২৪ ঘণ্টায় ২৮ হাজার ১৯৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় রোগী শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৯৪ শতাংশ।

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ চূড়ায় (পিক) উঠেছিল গত বছরের জুন-জুলাই মাসে। ওই সময়ে, বিশেষ করে জুনের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে জুলাই মাসের মাঝামাঝি পর্যন্ত প্রতিদিন গড়ে তিন থেকে চার হাজার রোগী শনাক্ত হতো। বেশ কিছুদিন পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে থাকার পর এক মাসের বেশি সময় ধরে সংক্রমণ আবার ঊর্ধ্বমুখী। এর মধ্যে ছয় দিন ধরে সাড়ে তিন হাজারের বেশি রোগী (প্রতিদিন) শনাক্ত হচ্ছেন। এমন পরিস্থিতিতে জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আরেকটি চূড়ার (পিক) দিকে যাচ্ছে দেশের সংক্রমণ পরিস্থিতি।

২০১৯ সালের শেষ দিকে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ে। গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের ঘোষণা আসে। দেশে প্রথম করোনায় সংক্রমিত ব্যক্তির মৃত্যুর ঘোষণা আসে ১৮ মার্চ।


দেশে সংক্রমণ শুরুর দিকে রোগী শনাক্তের হার কম ছিল। গত মে মাসের মাঝামাঝি থেকে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করে। মে মাসের শেষ সপ্তাহ থেকে আগস্টের তৃতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত রোগী শনাক্তের হার ২০ শতাংশের ওপরে ছিল। এরপর থেকে নতুন রোগীর পাশাপাশি শনাক্তের হারও কমতে শুরু করেছিল। মাস দুয়েক সংক্রমণ নিম্নমুখী থাকার পর গত নভেম্বরের শুরুর দিক থেকে নতুন রোগী ও শনাক্তের হারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা শুরু হয়। ডিসেম্বর থেকে সংক্রমণ আবার কমতে শুরু করে। তবে গত পাঁচ সপ্তাহের বেশি সময় ধরে সংক্রমণ আবার ঊর্ধ্বমুখী।

করোনা মহামারি নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে গত ২৭ জানুয়ারি দেশে টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়। এদিন গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চ্যুয়ালি টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশে গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়।
তথ্যের উৎস: দৈনিক প্রথম আলো


শেষ টি-টোয়েন্টিতে লজ্জার হার বাংলাদেশের

শেষ টি-টোয়েন্টিতে লজ্জার হার বাংলাদেশের

তানজিম, স্পোর্টস রিপোর্টারঃ ঘরের মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে দুই ম্যাচের টেষ্ট সিরিজে ভরাডুবির পর নিউজিল্যান্ড সফর করে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। নিউজিল্যান্ড সফরের শুরুতে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলে বাংলাদেশ। তিনটি ম্যাচই বাংলাদেশ হারে বড় ব্যবধানে। দ্বিতীয় ওয়ানডে ছাড়া কোনো ম্যাচেই প্রতিদন্ধিতাও করতে পারেনি তামিমের দল।
ওয়ানডে সিরিজের পর শুরু হয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ। টি-টোয়েন্টি সিরিজেও ওয়াইটওয়াশ হয় বাংলাদেশ। সিরিজের প্রথম দুই টি-টোয়েন্টি হারার পর আজ বৃষ্টি বিঘ্নিত তৃতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ নেমে আসে ১০ ওভারে। এ ম্যাচে বাংলাদেশ গড়ে এক লজ্জার রেকর্ড। 

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ১০ ওভারের নিচে অল-আউট হওয়া ২য় দল বাংলাদেশ। এর আগে তুরষ্ক ( দুই বার)  ৫১ ও ৫৩ বলে অল-আউট হয়েছে। আজ ৫৭ বল খেলে অল-আউট হয়েছে বাংলাদেশ দল। এর আগে টেষ্ট খেলা দলগুলোর মধ্যে সবচেয়ে কম ৭১ বল খেলে অল-আউট হওয়ার রেকর্ড ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলে। 


২৮ ফ্রেবুয়ারি ২০০৬ সালের পর তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাশরাফি বিন মুর্তজা ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদদের যে কোনো একজনকে ছাড়াই মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ দল। মাশরাফি টি-টোয়েন্টি থেকে অবসর নিয়েছেন ২০১৭ সালে।  আগেই ছুটিতে ছিলেন সাকিব আল হাসান, টি-টোয়েন্টি সিরিজে থেকে ছুটি নিয়েছিলেন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল। টি-টোয়েন্টি সিরিজে ইনজুরির কারণে খেলতে পারেনি মুশফিকুর রহিম। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ইনজুরিতে পড়েন টি-টোয়েন্টি দলের নিয়মিত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। 

ফলে নিয়মিত অধিনায়ককে ছাড়াই সিরিজে তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে ওপেনার লিটন দাসের অধিনায়কত্বে নামবে নামে টিম বাংলাদেশ। অধিনায়ক হিসেবে লিটনও করেন এক বিরল লজ্জার রেকর্ড। অধিনায়কত্বের অভিষেক ম্যাচে প্রথম বলে আউট হওয়া বিশ্বের একমাত্র ক্রিকেটার লিটন দাস।
সংক্ষিপ্ত স্কোর:

নিউজিল্যান্ড: ১০ ওভারে ১৪১/৩
গাপটিল ৪৪, অ্যালেন ৭১
তাসকিন ১/২৪, শরিফুল ১/২১

বাংলাদেশ: ৯.৩ ওভারে ৭৬/১০
নাইম ১৯, মোসাদ্দেক ১৩
অ্যাস্টল ৪/১৩, সাউদি ৩/১৫

বড়লেখায় গৃহহীন পরিবারের পুনর্বাস নির্মাণ কাজ পরিদর্শন

বড়লেখায় গৃহহীন পরিবারের পুনর্বাস নির্মাণ কাজ পরিদর্শন

আকরাম হোসাইন মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি ::  মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলায় মুজিববর্ষ উপলক্ষে দ্বিতীয় পর্যায়ে ১৫০টি "ক" শ্রেণীর গৃহহীন পরিবার পুনর্বাসনের লক্ষ্যে গৃহ নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বড়লেখা মোঃ শামীম আল ইমরান। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ উবায়েদ উল্লাহ খান ও দক্ষিনভাগ দক্ষিণ ইউপির চেয়ারম্যান মোঃ আজির উদ্দিন প্রমুখ।

দেবিদ্বারে বিয়ে বাড়িতে সংঘর্ষ, নিহত -২

দেবিদ্বারে বিয়ে বাড়িতে সংঘর্ষ, নিহত -২
দেবিদ্বারে বিয়ে বাড়িতে সংঘর্ষ, নিহত -২

আলমগীর হোসাইন, বাংগরা বাজার: কুমিল্লার দেবিদ্বারে একটি বিয়ে বাড়িতে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে নাচ ও গানকে কেন্দ্র করে দু'পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ২ যুবক নিহত হয়েছেন এবং গুরুতর আহত হয়েছেন তিনজন। বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে জেলার দেবিদ্বার উপজেলার জীবনপুর ইনসাফ মার্কেটের সামনে এ ঘটনা ঘটে।
.
নিহতরা হচ্ছেন উপজেলার আব্দুল্লাহপুর (জীবনপুর) গ্রামের হাবিবুর রহমান মিয়ার ছেলে সাইফুল ইসলাম (১৮) ও মুরাদনগর উপজেলার গুঞ্জর মধ্যপাড়া গ্রামের আবু হানিফের ছেলে রাহিম (২০)। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দেবিদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ মো: আরিফুর রহমান।

নওগাঁর আত্রাইয়ে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় ইউএনও'র মাস্ক বিতরণ

নওগাঁর আত্রাইয়ে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় ইউএনও'র মাস্ক বিতরণ
নওগাঁর আত্রাইয়ে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় ইউএনও'র মাস্ক বিতরণ

মোঃ ফিরোজ হোসাইন,রাজশাহী ব্যুরো:নওগাঁর আত্রাইয়ে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় জনসচেতনতা সৃষ্টি সহ মাস্ক বিতরণ করেছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.ইকতেখারুল ইসলাম।
প্রতিদিন  উপজেলার  বিভিন্ন হাট বাজার  এলাকায় এসব মাস্ক বিতরণ ও মসজিদে স্বাস্থ্য বিধি নিয়ে আলোচনা করা হয়।
উপজেলা কর্মকর্তা জানান, সারা বিশ্ব কোভিড-১৯ এর বিরদ্ধে যুদ্ধ করছে। বাংলাদেশও এর ব্যতিক্রম নয়, সরকারের সময়োপযোগী পদক্ষেপের কারণে দৃঢ়তার সাথে তা মোকাবেলা করছে বাংলাদেশ।
বৈশ্বিক এই দুর্বিপাকে সম্মুখ সারির যোদ্ধা হিসেবে শুর থেকেই নিরলসভাবে কাজ করছে উপজেলা প্রশাসন। সাম্প্রতিক সময়ে আবারও ছড়িয়ে পড়েছে বৈশ্বিক মহামারি করোনা।
করোনার দ্বিতীয় ঢেউ-এর প্রকোপ মোকাবেলায়  উপজেলা প্রশাসন এর উদ্যোগে উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজার এলাকায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.ইকতেখারুল ইসলামের   নেতৃত্বে মাস্ক বিতরণ ও জনসচেতনতামূলক প্রচারনা করা হয়।
এসময় যাদের মুখে মাস্ক ছিল না তাদেরকে মাস্ক পরিয়ে দেয়াসহ সচেতনতামূলক পরামর্শ দেওয়া হয়। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ রোধে নিজ ও পরিবারকে সুরক্ষিত রাখতে জনসাধারণকে সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান  কর্মকর্তারা।

মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ দিনাজপুর জেলা কমিটির অনুমোদন

 মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ দিনাজপুর জেলা কমিটির অনুমোদন


মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ  বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ দিনাজপুর জেলার পুর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন দিয়েছে কেন্দ্রীয় কমিটি। বুধবার রাতে এই কমিটির অনুমোদন দেন কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান মো. সোলায়মান মিয়া ও মহাসচিব মো. শফিকুল ইসলাম।
আল মামুন সরকার কে সভাপতি ও মো. জুয়েল কে সাধারণ সম্পাদকসহ মোট ৩১ সদস্য বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ দিনাজপুর জেলার পুর্ণাঙ্গ কমিটি দুই বছরের জন্য অনুমোদন দেন তারা।
কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন, সহ সভাপতি পংকর দাস, নুরে আলম সিদ্দিক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরমান সরকার, হাসান ফরিদ বিদ্যুৎ, প্রভাষক ইফতে খারুল মামুন, সাংগঠনিক সম্পাদক তারিক আজিজ আজবীর, কোষাধ্যক্ষ ইদি আমিন ফ্রান্সিস, প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, দপ্তর সম্পাদক তহিদুল ইসলাম বকুল, আইন বিষয়ক সম্পাদক ডালিম মিয়া, বন ও পরিবেশ সম্পাদক মোস্তফা দুলাল, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক প্রভাষক মাসুদ, শ্রম ও কর্মসংস্থান সম্পাদক আসাদুজ্জামান পারভেজ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক শাহানাজ পারভীন, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক গুলশান আরা লাকি, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. মাসুদ হোসেন, ত্রাণ ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক আলমগীর হোসেন, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক জেসমিন আক্তার, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক আল মবে দ্বিন মোহাম্মদ আরোজ, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মোস্তফা জামান শাহ, সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ফাতেমা মুক্তিসহ সদস্যরা হলেন অরুণ চন্দ্র শীল, নুরুজ্জামান, মাহামুদুল হাসান, হাফিজুল ইসলাম, মো. মাসুম, নিরালা শারমীন, ইব্রাহিম খান দুলাল, এহতেশাম পলাশ।
প্রসঙ্গত, এই অনুমোদিত জেলা কমিটি আগামী তিন মাসের মধ্যে জেলার সকল উপজেলা কমিটি গঠন করবে। সেই সাথে গঠনতন্ত্রের আইন কানুন মেনে এই কমিটি সদস্য বৃদ্ধি ও পরিবর্তন বাতিল করার ক্ষমতা সংরক্ষণ করে বলে অনুমোদিত চিঠিতে উল্লেখ্য করেছেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল।



ইউরোপসহ ১২ দেশ থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ নিষেধাজ্ঞা

ইউরোপসহ ১২ দেশ থেকে বাংলাদেশে প্রবেশ নিষেধাজ্ঞা
ছবিঃ ইন্টারনেট

নিউজ ডেস্কঃ বর্তমান করোনা পরিস্থিতির প্রেক্ষাপটে ইউরোপের সব দেশ থেকে এবং আরও ১২টি দেশ থেকে বাংলাদেশে যাত্রী প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) গতকাল বুধবার (৩১ মার্চ) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানিয়েছেন।

যেসকল দেশ থেকে যাত্রী প্রবেশ নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে, সেখানে ইউরোপের দেশগুলো ছাড়াও রয়েছে আর্জেন্টিনা, বাহরাইন, ব্রাজিল, চিলি, জর্ডান, কুয়েত, লেবানন, পেরু, কাতার, দক্ষিণ আফ্রিকা, তুরস্ক ও উরুগুয়ে।

আগামী শনিবার (৩ এপ্রিল)  থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে বলে জানা গেছে। এ সিদ্ধান্ত বহাল থাকবে ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত।

বেবিচকের ফ্লাইট স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড রেগুলেশনস-এর বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে প্রবেশের সময় ও বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পর অবশ্যই পিসিআরভিত্তিক কোভিড-১৯ নেগেটিভ সনদ দেখাতে হবে এবং ফ্লাইট বহির্গমনের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে এই টেস্ট সম্পন্ন হতে হবে।

ইঞ্জি. আবুল কাসেম সীমান্ত নিজ এলাকায় মানুষের ভালবাসায় সিক্ত

 ইঞ্জি. আবুল কাসেম সীমান্ত নিজ এলাকায় মানুষের ভালবাসায় সিক্ত

মোঃ নাঈম হাসান ঈমন, ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির রাজাপুরের নিজ গালুয়া গ্রামের সন্তান আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটি সদস্য ইঞ্জি. আবুল কাসেম সীমান্ত বুধবার নিজ এলাকায় ফিরেছেন।

বুধবার সকালে বিমানে এসে বরিশাল থেকে মোটর সাইকেল শোভাযাত্রার মাধ্যম নিজ এলাকায় ফিরেন তিনি। দলীয় পদ পাওয়ার পর এটাই তার প্রথম সফর। দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে সৌজন্যে সাক্ষাতে মিলিত হলে ঝালকাঠি জেলা আ'লীগ সাধারন সম্পাদক খান সাইফুল্লাহ পনীর, জেলা ও রাজাপুর উপজেলাসহ দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবন্দরা তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

ইঞ্জি. আবুল কাসেম সীমান্ত ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ছিলেন। শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের ভারপ্রাপ্ত ভিপি ছিলেন। ছাত্র জীবন থেকে তিনি বিভিন্ন সামাজিক কল্যাণমূলক কাজের সঙ্গে জড়িত।
ইঞ্জি. আবুল কাসেম সীমান্ত বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে কাজ করার সুযোগ দিয়েছেন। দল ও দেশের জনগণের জন্য কল্যাণমূলক কাজ করে যাবেন। তিনি ১৯৭৮ সালে রাজাপুরের নিজ গালুয়া গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। তার বাবার নাম আলহাজ্ব মো. আব্দুল জলিল আকন। সিমান্ত ১৯৯৫ সালে গাজীপুর ভাওয়াল বদরে আলম সরকারি কলেজ থেকে স্টার মার্কস পেয়ে উচ্চ মাধ্যমিক এবং ২০০০ সালে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রকৌশল শাস্ত্রে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি বার্ড গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর।
এলাকায় ফিরে মানুষের ভালবাসায় তিনি মুগ্ধ হন। সকলকে সাথে নিয়ে দেশ ও মানুষের কল্যানে কাজ করে যাবেন বলেও জানান তিনি।