কয়রায় করোনা প্রতিরোধে ডাঃ খান আহম্মেদ হেলালীর পক্ষে দিনমজুর ও পথচারীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ

কয়রায় করোনা প্রতিরোধে ডাঃ খান আহম্মেদ হেলালীর পক্ষে দিনমজুর ও পথচারীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ




কয়রা (খুলনা) প্রতিনিধি।।  কয়রায় করোনা প্রতিরোধে সচেতনাতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ভ্যান, মোটর সাইকেল চালক, দিনমজুর ও পথচারীদের মাঝে খান সাহেব কোমরউদ্দীন মডেল কলেজের সভাপতি ও খুলনা শিশু হাসপাতালের শিশু বিশেষজ্ঞ ডাঃ খান আহম্মেদ হেলালীর পক্ষে মাস্ক বিতরণ করা হয়। বুধবার সকাল ১০ থেকে আমাদী মোটর সাইকেল ও ভ্যান স্টা›ড, খান সাহেব কোমরউদ্দীন কলেজ মোড়, চাঁদালী মোটর ও ভ্যাান স্টান্ড, ইসলামপুর চৌরাস্তা মোড় স্টান্ড, বাগালী ইউনিয়ন পরিষদ মোড়, সরদার বাড়ী মোড়, দেয়াড়া বাজার, অন্তাবুনিয়া বাজার, কালনা বাজার, গ্রাজুয়েটস মোড়, ফুলতলা বাজার, দালাল বাড়ী নসিমন স্টান্ড, কয়রা বাস স্টান্ড, ও কয়রা মোটর সাইকেল স্টান্ডের ভ্যান চালক, মোটর সাইকেল চালক, দিনমজুর ও পথচারীদের মাঝে ডাঃ খান আহম্মেদ হেলালীর পক্ষে ১০০০ মাস্ক বিতরণ করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক ও খান সাহেব মডেল কলেজরে প্রভাষক মোঃ শাহাবাজ আলী। এসময় তিনি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকা, বাইরে বের হওয়ার সময় ও বাইরে থেকে এসে ২০ সেকেন্ড সময় ধরে সাবান দিয়ে হাত ধোয়া, বাইরে গেলে মাস্ক পরিধান করা, নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে চলাচল সহ জনগণকে সতর্ক হওয়ার আহান জানান। এ সময় তার সাথে ছিলেন, খান সাহেব মডেল কলেজের প্রভাষক সুকুমার সরকার। ডাঃ খান আহম্মেদ বলেন, করোন ভাইরাস নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি করতেই প্রচারণা চারানো হচ্ছে। এ ভাইরাস নিয়ে আতঙ্কিত হওয়া যাবে না। বরং সবাইকে সচেতন হতে হবে। ভ্যান চালক, দিনমজুর ও পথচারী সাধারণ মানুষের সচেতনাতা বৃদ্ধির লক্ষে তাদের হাতে মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে।

হরিরামপুর উপজেলা লেচড়াগঞ্জ বাজারে করোনা প্রতিরোধ মাস্ক বিতরণ করলেন, আমেনা হোমিও রিসার্চ এন্ড ট্রিটমেন্ট সেন্টারের ডাঃ আব্দুল আলিম

হরিরামপুর উপজেলা লেচড়াগঞ্জ বাজারে করোনা প্রতিরোধ মাস্ক বিতরণ করলেন, আমেনা হোমিও রিসার্চ এন্ড ট্রিটমেন্ট সেন্টারের ডাঃ আব্দুল আলিম





আব্দুর রাজ্জাক হরিরামপুর (মানিকগঞ্জ)প্রতিনিধি।
হরিরামপুর লেচড়াগঞ্জ বাজারের বিশিষ্ট হার্ডওয়ার ব্যবসায়ি মোঃ সোরহাব মোল্লার ছেলে আমেনা হোমিও রিসার্চ এন্ড ট্রিটমেন্ট সেন্টার এর ডাঃ আব্দুল আলিম গরিবের চিকিৎসক নামে সুপরিচিত। 
ডাঃ আব্দুল আলিম বিশিষ্ট হোমিও প্যাথিক চিকিৎসক এবং প্রভাষক মানিকগঞ্জ হোমিও প্যাথিক মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতাল, মানিকগঞ্জ। ডাঃ আব্দুল আলিম এর নিজস্ব অর্থায়নে হরিরামপুরে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের জন্য মাস্ক বিতরণ  করেন স্কুলের ছাত্রদের  ও বিভিন্ন পেশার মানুষের নিকট এর আগেও তিনি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ বা ইমিউনিটি বুষ্টার হোমিও ঔষধ আর্সেনিকাম এ্যালবাম ৩০ শক্তি বিভিন্ন শ্রেনীর মানুষের মাঝে ফ্রি বিতরণ করেন। (আজ বুধবার) ৮/০৭/২০২০ খ্রিঃ বিকেল ৪.১০ মিনিটে করোনা প্রতিরোধ মাস্ক বিতরণ করেন।ডাঃ আব্দুল আলিম বলেন আমি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ আমার নিজস্ব উদ্যোগে কাজ করে যাচ্ছি।তিনি  বিভিন্ন সময় গরীব ছাত্র ছাত্রীদের  বই খাতা কলম বিতরণ করে থাকেন এবং ফ্রি চিকিৎসা ও ঔষধ বিনামূল্যে বিতরণ করেন। ডঃ আব্দুল আলীম বলেন হরিরামপুর  ( মানিকগঞ্জ)বাসীর জন্য করোনা ভাইরাস প্রতিরোধক  হোমিও মেডিসিন Ars. Alb-30 বিতরণের কর্ম সূচি গ্রহন করে তা এখন চলমান আছে ও থাকবে, ইনশাআল্লাহ। তিনি আরো বলেন আমি ৫০০ পরিবারকে ফ্রি হোমিও প্রতিরোধক মেডিসিন দিয়ে যাচ্ছি  পর্যায়ক্রমে নিজ এলাকা ও লেচড়াগঞ্জ বাজার বিভিন্ন অঞ্চলের মানুষের মাঝে। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন আমি যেন দেশের ও মানুষের সেবা করতে পারি এবং সেবা প্রদান কার্যক্রমটি চলমান রাখতে পারি।

কুড়িগ্রামে ৯৭০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

কুড়িগ্রামে ৯৭০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক




মোঃইয়ামিন সরকার আকাশ, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে ৯৭০পিস ইয়াবাসহ মোঃ আশরাফুল হক (৩৫) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে রংপুর র‌্যাব-১৩ এর একটি আভিযানিক দল।

জানা গেছে, র‌্যাব-১৩, রংপুর এর সিপিএসসি ক্যাম্পের আভিযানিক দল গতকাল ৭জুলাই বিকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার ফুলবাড়ী ইউনিয়নের কবির মামুদ গ্রাম এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ৯৭০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ১টি মোবাইল ফোন, ২টি সিমকার্ড এবং ১টি মেমোরীকার্ডসহ মাদক ব্যবসায়ী মোঃ আশরাফুল হক (৩৫)কে আটক করে।

আটক মাদক ব্যবসায়ী ফুলবাড়ী উপজেলার প্রানকৃষ্ণ এলাকার মোঃ ইসমাইল হোসেনের পুত্র।

বুধবার(৮ জুলাই) সিপিএসসি, র‌্যাব -১৩ এর কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ হাফিজুর রহমান জানান, গ্রেফতারকৃত অভিযুক্ত বর্ণিত এলাকার পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী ও কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ী থানার মাদক সিন্ডিকেটের অন্যতম সক্রিয় সদস্য। জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, উক্ত সিন্ডিকেট দেশের উত্তরাঞ্চলের বিভিন্ন সীমান্ত এলাকা থেকে পাইকারী দামে ইয়াবা কিনে এনে কুড়িগ্রাম জেলার বিভিন্ন উপজেলায় খুচরা দামে সাপ্লাই দেয়। গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর ও মহেশপুরে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ এর অভিযান, জরিমানা আদায়

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর ও মহেশপুরে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ এর অভিযান, জরিমানা আদায়
 




খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার 
( ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি) 



বাজার তদারকি অভিযান ৮ জুলাই বুধবার সকালে
ভোক্তার নিকট হতে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঝিনাইদহ জেলা কার্যালয় হতে কোটচাঁদপুর উপজেলা ও মহেশপুর উপজেলায় বাজার তদারকি করা হয়। এসময় ফিজিশিয়ান স্যাম্পল ও মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ বিক্রয়ের অপরাধে মহেশপুর বাজারে রায়হান মেডিকেল হলকে ৭০০০/- ও নিষিদ্ধ ভারতীয় ঔষধ ও মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ বিক্রয়ের অপরাধে আইয়ুব ফার্মেসিকে ১৫০০০/- প্রশাসনিক ব্যবস্থা হিসেবে জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি ব্যবসায়ী এবং ভোক্তাদের সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে এবং মাস্ক ব্যবহার করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়। সার্বিক সহযোগিতা করেছেন জনাব এম এ কবীর, সদস্য, ক্যাব, ঝিনাইদহ ও নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করেছেন ঝিনাইদহ জেলা পুলিশের একটি টিম। জনস্বার্থে এ অভিযান চলমান থাকবে।

প্রতাপনগরের কুড়িকাহুনিয়া ভেড়ী বাঁধ বাধার কাজ চলছে

প্রতাপনগরের কুড়িকাহুনিয়া ভেড়ী  বাঁধ বাধার কাজ চলছে




আহসান  উল্লাহ  বাবলু, আশাশুনি (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি ঃ আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগর ইউনিয়নের কুড়িকাহুনিয়ায় ভেঙ্গে যাওয়া ভেড়ী বাঁধ বাঁধার কাজ পুরোদমে এগিয়ে চলেছে। 
ঘুর্ণিঝড় আম্ফানের তান্ডবে প্রতাপনগরের অন্যান্য স্থানের ন্যায় কুড়িকাহুনিয়া গড়িমহল খালের গাজী বাড়ির সামনে পাউবো’র ভেড়ী ভেঙ্গে গিয়ে এলাকা প্লাবিত হয়েছিল। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সার্বিক সহযোগিতায় ও সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামালের তত্ত্বাবধানে বাঁধটি বাঁধার কাজ করা হচ্ছে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ জাকির হোসেনের নেতৃত্বে। এলাকাবাসীর অংশ গ্রহনে স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে বাঁধ বাধার কাজ এগিয়ে চলছে। বাঁধের বড় অংশের কাজ ইতিমধ্যে শেষ পর্যায়ে। এলাকাবাসী প্লাবনে নিত্য প্লাবিত হয়ে মানবেতর জীবন যাপন থেকে রক্ষা পেতে স্বতঃস্ফুর্ত ভাবে কাজে অংশ নিচ্ছে।

আশাশুনি পারুলিয়া সড়কে কার্লভাট ভেঙে যাওয়ায় যানবাহন চলাচল বন্ধ

আশাশুনি পারুলিয়া সড়কে কার্লভাট ভেঙে যাওয়ায় যানবাহন চলাচল বন্ধ




আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ আশাশুনি টু পারুলিয়া সড়কের কামালকাটি বাজারের কাছে কালভার্ট ভেঙ্গে যাওয়ায় যানবাহন ও পথচারী চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক বন্ধ হয়ে যাওয়ায় মানুষের ভোগান্তি চরম আকার ধারন করেছে। আশাশুনি জিসি টু পারুলিয়া জিসি সড়কের আশাশুনি অংশে শোভনালী ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন কামালকাটি বাজারে বৃহৎ কালভার্ট অবস্থিত। সড়কের চেইনেজ ১১৭০০.০০ মিটারে কালভার্টটি অবস্থিত। সড়কটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কালিগঞ্জ, দেবহাটা, সাতক্ষীরা সদর উপজেলার সাথে আশাশুনি উপজেলা এবং পাশ্ববর্তী পাইকগাছা, কয়রাসহ বিভিন্ন উপজেলার সংযোগ সড়ক এটি। এই সড়কে প্রতিদিন হাজার হাজার যানবাহন চলাচল করে থাকে। মালামাল পরিবহণসহ বিভিন্ন কাজে সড়কটি ব্যবহৃত হয়ে থাকে। পানি উন্নয়ন বোর্ড কালভার্টের নিচ দিয়ে প্রবাহিত নদী খনন কাজ করাচ্ছে। কয়েকদিন আগে কোন রকম প্রোটেকশান ব্যবস্থা ছাড়াই তারা খাল/নদী খননের কাজ করে। ফলে ব্রীজের এ্যাপ্রোচ বসে গেছে এবং ব্রীজের পূর্ব পার্শে ৩ ফুট বসে গেছে এবং ব্রীজের উইং ওয়াল ভেঙ্গে গেছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড সংশ্লিষ্ট এলজিইডিকে অবহিত না করেই কাজ করেছে। এধরনের অনুমতি না নেওয়ার ঘটনা ইতিপূর্বে অনেক স্থানে ঘটলেও তাদের বিরুদ্ধে কোন রূপ ব্যবস্থা না নেওয়ায় ঘটনার পুনরাবৃত্তি হচ্ছে বলে সচেতনমহল জানিয়েছেন। এছাড়া, বুধহাটা ইউনিয়নে ব্লুগোল্ড একই ভাবে এলজিইডির অনুমতি ছাড়াই সড়ক কেটে কালভার্ট নির্মান করেছিল এবং এলাকার মানুষ ভীষণ ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। সেখানেই কোন প্রতিকার হয়নি বলে তারা অভিমত ব্যক্ত করেন। বর্তমানে সরকারের লাখ লাখ টাকার ক্ষতি করলো এবং জনভোগান্তির সৃষ্টি করলো। তাদের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেওয়া হবে? জনভোগান্তির অবসান কবে নাগাদ হবে? এমন হতাশা জনক প্রশ্ন উত্থাপন করে তারা অবিলম্বে প্রশাসন, সংশ্লিষ্ট বিভাগ ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থাসহ জন প্রতিনিধিদের হস্তক্ষেপ কামানা করেছেন। এব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী আক্তার হোসেন জানান, পানি উন্নয়ন বোর্ড এলজিইডিকে অবহিত না করে, কোনরকম প্রটেকশান ব্যবস্থা না করে, খাল খননের সময় এ্যাপ্রোচ বসে গেছে, ব্রীজের উইং ওয়াল ভেঙ্গে গেছে। এব্যাপারে জরুরী ভিত্তিকে ব্রীজের উক্ত অংশ মেরামত করে যোগাযোগ ব্যবস্থা সচল করার প্রয়োজনীয় ব্যব্স্থা গ্রহনের জন্য নির্বাহী প্রকৌশলী মহোদয়কে অনুরোধ জানিয়ে পত্র প্রেরন করা হয়েছে।

নোবিপ্রবিতে বঙ্গবন্ধু আদর্শ ঐক্য পরিষদের নতুন কমিটি

নোবিপ্রবিতে বঙ্গবন্ধু আদর্শ ঐক্য পরিষদের নতুন কমিটি



নোবি প্রবি প্রতিনিধিঃ 
মো. রাহিবুর রহমান রাহিকে সভাপতি এবং আরাফাত সৌরভকে সাধারণ সম্পাদক করে বঙ্গবন্ধু আদর্শ ঐক্য পরিষদ, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(নোবিপ্রবি) শাখার নতুন কমিটির অনুমোদন দিয়েছে  বঙ্গবন্ধু আদর্শ ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটি।

নতুন কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি
রাব্বি চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সাধারণ
আব্দুল্লাহ আল মামুন(সাব্বির), সাংগঠনিক সম্পাদক
নুর আহমেদ সাগর, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মিনহাজুল আলম মজুমদার, দপ্তর সম্পাদক
মাহবুব আল হোসাইন, প্রচার সম্পাদক
নাজমুল ইসলাম (নয়ন) এবং অর্থ সম্পাদক
ফখরুল আরাফাত।

নতুন কমিটির সভাপতি রাহিবুর রহমান রাহি বলেন,'বাংলাদেশ শব্দ টা মুখে নেওয়ার সাথে সাথেই আরো যে একটি শব্দ মুখে চলে আসে তা হলো 'বঙ্গবন্ধু' । 'বঙ্গবন্ধু' যে সংগ্রাম ও ত্যাগের দৃষ্টান্ত স্থাপন করে আমাদের একটি সুন্দর ও স্বাধীন রাষ্ট্র উপহার দিয়ে গেছেন তা এড়িয়ে যাওয়ার কোন সুযোগ নেই। বঙ্গবন্ধু'র এই চেতনা বুকে ধারণ করে তা নতুন প্রজন্মের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে আমরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন প্রতিনিধি হিসেবে আমি এবং আমার অধীনে থাকা এই সংগঠনের কাজ হবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে বঙ্গবন্ধুর চেতনাকে আরো বেশি উজ্জীবিত করে তোলা এবং বিভিন্ন সামাজিক কাজের মাধ্যমে তা বাস্তবে প্রতিফলিত করা।'

সাধারণ সম্পাদক আরাফাত সৌরভ বলেন,'বাংলাদেশ, বঙ্গবন্ধু আর মুক্তিযুদ্ধ—এই শব্দ তিনটি মূলত সমার্থক। এই তিনটির যেকোনো একটিকে আলাদা করে বিশ্লেষণ করার কোনো সুযোগ নেই। জনগণের অন্তর্নিহিত শক্তির উপর অপার আস্থা-বিশ্বাস, অসাম্প্রদায়িক, মানুষের প্রতি নিঃশর্ত ভালোবাসা, মমত্ববোধ, ত্যাগ স্বীকার এবং সহমর্মিতার বিরল দৃষ্টান্তসমৃদ্ধ মানুষ বঙ্গবন্ধু।বর্তমানে রাজনীতিবিদদের এক বিশাল অংশ ক্ষণিক বা স্বাভাবিক ভালোলাগা থেকে রাজনীতির সঙ্গে নিজেকে জড়িত করলেও জাতির জনক ও তাঁর রাজনৈতিক জীবন সম্পর্কে তেমন কোনো ধারণাই রাখে না।তারা শুধু কথিত ফায়দা লুটের কাজে ব্যস্ত থাকে। বর্তমানে রাজনীতির মাঠে আদর্শের সংকট চলছে। এই সংকট থেকে মুক্তির একমাত্র উপায় হচ্ছে সবাইকে বঙ্গবন্ধুর  জীবানাদর্শ সম্পর্কে অবগত করা।আর এই "বঙ্গবন্ধু আদর্শ ঐক্য পরিষদের " মাধ্যমেই আমরা সবাইকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবীত  করার চেস্টা করবো।'

ফেসবুকে ধর্মীয় বিষয়ে মিথ্যা প্রচরণার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

ফেসবুকে ধর্মীয় বিষয়ে মিথ্যা প্রচরণার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন



মিঠুন কুমার রাজ, 
পিরোজপুর জেলা প্রতিনিধি।  

পিরোজপুরের নাজিরপুরে জমিজমা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে এক ব্যক্তি এবং উপজেলা ভূমি অফিসের মধ্যে বিরোধের জেরে ফেসবুকে ধর্মীয় উষ্কানি দিয়ে মিথ্যা প্রচারণারন প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের পিরোজপুর জেলা কমিটি। আজ বুধবার দুপুরে পিরোজপুর প্রেসক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

লিখিত বক্তব্যে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের পিরোজপুর জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক গোপাল চন্দ্র বসু জানান, নাজিরপুর উপজেলার দীঘিরজান বাজারের কাছে জনৈক মনিন্দ্রনাথ মজুমদার এবং উপজেলা ভূমি অফিসের মধ্যে দ্বন্দ্ব রয়েছে। গত সোমবার (৬ জুলাই) উপজেলা ভূমি অফিসের লোকজন সরকারি জমির উপর নির্মিত একটি বেড়া উচ্ছেদ করে। এ সময় এক যুবক ফেসবুকে মিথ্যা প্রচারণা চালায় যে, মন্দ্রিনাথের বাড়ির ২০০ বছরের পুরণো একটি শিব মন্দির দখল করে সেটি ভাংচুর করা হয়েছে।

তবে সেখানে এ ধরণের কোন ঘটনা ঘটেনি বলে জানান গোপাল বসু। একটি মহল সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিথ্যা প্রচারণা চালাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

এ বিষয়ে পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান জানান, ফেসবুকে মিথ্যা প্রচারণার বিষয়টি আমরা শুনেছি। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কুমিল্লার হোমনায় লাইভস্টক সার্ভিস প্রোভাইডারদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ

কুমিল্লার হোমনায়  লাইভস্টক সার্ভিস প্রোভাইডারদের মাঝে বাইসাইকেল  বিতরণ



শাহ আলম জাহাঙ্গীর
ব্যুরো চিফ, কুমিল্লা

কুমিল্লার হোমনায় মহামারী করোনা ভাইরাসের  দেশে চলমান পরিস্থিতির কারণে লাইভস্টক সার্ভিস প্রোভাইডার (এলএসপি) এর স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা বিবেচনা করে  এলডিডিপি  প্রকল্পের অধীনে লাইভস্টক সার্ভিস প্রোভাইডারদের মাঝে বাইসাইকেল  বিতরণ করা হয়েছে। উপজেলা প্রাণিসম্পদ  অধিদপ্তরের   উদ্যোগে আজ বুধবার ৮ জুলাই সকালে প্রাণিসম্পদ অফিস প্রাঙ্গনে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ৯ ইউনিয়নের লাইভস্টক সার্ভিস প্রোভাইডারদের মাঝে  ৯ টি বাইসাইকেল  বিতরণ করা হয়। 
বাইসাইকেল প্রাপ্তরা হলেন-রেহেনা বেগম (মাথাভাঙ্গা) মো.আনোয়ার হোসেন(ঘাগুটিয়া), মো. মনিরুল ইমলাম (দুলালপুর), রাফের মিয়া (চান্দরচর) জোসনা বেগম,(আছাদপুর) মোবারক হোসেন (নিলখী), মহিতুর রহমান(ভাষানিয়া), নাছিমা আক্তার (ঘারমোড়া) ও রোজিনা আক্তার (জয়পুর ইউনিয়ন) । 

বিতরণ  অনুষ্ঠানে  সহকারী কমিশনার (ভূমি) তানিয়া ভূইয়া, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. মহাসিন সরকার, উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা  ডাঃ সৈয়দ মো. নজরুল ইসলাম, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মুক্তা আক্তার, উপজেলা
 আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিনুজ্জামান খোকন,উপ-সহকারী প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা মোরশেদ আলমসহ অন্যান্য কর্মকর্তা কর্মচারীবৃন্দ এ সময়  উপস্থিত ছিলেন।

মাগুরায় হোমিওপ্যাথি চিকিৎসায় চলছে ভয়ঙ্কর প্রতারণা, অনুসন্ধানী রিপোর্ট

মাগুরায় হোমিওপ্যাথি চিকিৎসায় চলছে ভয়ঙ্কর প্রতারণা,  অনুসন্ধানী রিপোর্ট




এম.এ.অয়ন মাগুরা প্রতিনিধি:

গ্রামে একটা কথা প্রচলন আছে " যার নেই কোন গতি সে খায় হোমিওপ্যাথি", প্রায় ২০০ বছর আগে জার্মান বিজ্ঞানী ডা: স্যামুয়েল হ্যানিম্যানের হাত ধরে হোমিওপ্যাথি যাত্রা শুরু হয়। ভারতীয় উপমহাদেশে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা শুরু হয় প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে। এলার্জি এবং আঁচিল জাতীয় রোগ হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার মাধ্যমে কিছুটা মুক্তি মিললেও অন্য রোগের ক্ষেত্রে কতটা কার্যকর এ নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ আছে, তাই বিবিধ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ২০১৫ সালে ব্রিটেন সেদেশে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা বন্ধ করে দেয়। বৃটেনের স্বাস্থ্য গবেষকরা একে "ভুয়া এবং ভাওতা" বলে উল্লেখ করেন। 

বাংলাদেশের এখনো ২৮ শতাংশ মানুষ হোমিওপ্যাথির উপর আস্থা রাখেন, এদেশের মানুষ এখনো বিশ্বাস করে হোমিওপ্যাথি জটিল এবং কঠিন রোগের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়তে সক্ষম, কোনো ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই, যেখানে এলোপ্যাথি বিভিন্ন ধরনের উপসর্গ সৃষ্টি করে। এলোপ্যাথি বেশ ব্যয়বহুল হওয়ায়, এদেশের নিম্নবিত্ত মানুষেরা সস্তার হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার উপর ভরসা করে। 

সম্প্রতি মাগুরাতে কিছু চিকিৎসক হোমিওপ্যাথির সঙ্গে যোগ করেছেন কোয়ান্টাম এনালাইজার মেশিন, প্রচার করছেন এই মেশিনের মাধ্যমে অটোমেটিক কম্পিউটারে রোগনির্ণয় করা হয়, মানুষের সরল বিশ্বাসের সুযোগ নিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে হাতিয়ে নিচ্ছেন কোটি কোটি টাকা। 

সম্প্রতি অনুসন্ধানে দেখা যায় মাগুরার অসংখ্য হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক এই কোয়ান্টাম এনালাইজার মেশিন দিয়ে  রোগীর হৃদরোগ, ডায়াবেটিক, গ্যাস্ট্রিক, আলসার, ক্যান্সার এমন কি অতীত-বর্তমান-ভবিষ্যৎ বলে দিয়ে ধরিয়ে দিচ্ছেন কমপক্ষে চার থেকে পাঁচ হাজার টাকার বিল। 

মাগুরার জামরুলতলার বৃন্দাবন হোমিওপ্যাথির চিকিৎসক ডাক্তার মিলন বিশ্বাস এই এনালাইজার মেশিন দিয়ে চিকিৎসা করেন, তাকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি জানান "আসলে এই কোয়ান্টাম এনালাইজার মেশিন একটি ভুয়া মেশিন, এতে কোন রোগ নির্ণয়ের তো সম্ভবই না, বরং অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ভুল হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।" তাহলে এটা কেন ডাক্তাররা ব্যবহার করছেন জানতে চাইলে তিনি জানান, রোগীরা মনে করে কম্পিউটারে মাধ্যমে রোগ নির্ণয় করা হচ্ছে, ডাক্তারের উপর আস্থা পায়, ফি বেশি নেওয়া যায়, তাই সবাই ব্যবহার করে। আগে যেখানে ২০ থেকে ৩০ টাকার মধ্যে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা করা সম্ভব হতো, এখন এই কোয়ান্টাম এনালাইজার মেশিন দিয়ে ডিজিটাল প্রতারণা করে ২ থেকে ৩ হাজার টাকা আয় করা সম্ভব হচ্ছে। এভাবে প্রতিদিন একজন ডাক্তার প্রায় ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা আয় করে থাকেন।

মিলন বিশ্বাস দেওয়া তথ্যমতে যোগাযোগ করা হয় কোয়ান্টাম এনালাইজার মেশিনের মাগুরা ডিলার জার্মান হোমিও হলের শাহ আলম এর সাথে, তিনি জানান প্রতিটা মেশিন ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকায় আমি বিক্রি করি, এতে আমার ৫০০০ টাকা লাভ থাকে, আগে এইটার ব্যাপক চাহিদা ছিল, কিন্তু যেহেতু এটা ভুয়া তাই এখন চাহিদা কম, তারপরও কিছু ডাক্তার এখনও আমার কাছ থেকে কেনে। তিনি আরো জানান মাগুরা নতুন বাজার এর বিধান ডাক্তার, আড়পাড়ার বাজারের অপূর্ব, মাগুরা হোমিওপ্যাথি কলেজের সুনীল, রাধানগর বাজারের সনদ, ডুমুরিয়া বাজারের নিশিকান্ত ও জাহিদ সহ আরো অনেকে। 

দীর্ঘদিন ধরে প্রশাসনের নাকের ডগায় দিনদুপুরে এমন প্রতারণা চললেও সিভিল সার্জন জানান "অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে"।

একডালায় মোহাম্মাদ নাসিমের স্বরণে আলাচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত

একডালায় মোহাম্মাদ নাসিমের স্বরণে আলাচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত



 
মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃ
 ৮ ই জুলাই বুধবার বাদ আসর একডালা বাজারে মরহুম নাসিমের স্বরণে আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২ নং ওয়াড আঃলীগের সভাপতির সভাপতিত্বে মরহুম নাসিমের জীবনীর উপর স্মৃতিচারণ মূলক বক্তব্য রাখেন জেলাপরিষদ ও মুনসুর নগর থানা আঃ যুগ্ন আহবাক গোলাম রব্বানী তালুকদার,  ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ার হোসেন, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোঃ ছাইদুল ইসলাম জুরান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। পরে মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনায়  দোয়া পরিচালনা করেন নজুরুল ইসলাম পীর সাহেব, অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ২ নং ওয়াড আঃলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহআলম বি এসসি । এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন রতনকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন,  রতনকান্দি ইউনিয়ন আ:লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোস্থাফিজুর রহমান বিল্পব,  রফিকুল ইসলাম মাস্টার, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আলী হোসেন,ইউঃ যুবলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক আসলাম উদ্দিন সেখ,ইউনিয়ন   আঃমী স্বেচ্ছাসেবকলীগেরর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সোহেল রানা, যুগ্ন  সাধারন সম্পাদক রকন উদ্দিন,যুবলীগের সাঃ সম্পাদক মোঃ বুলবুল আহম্মেদ ভুট্র থানা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহসভাপতি এম এইচ মিল্টন,  গাজী আমজাদ হোসেন,ছালেম তালুকদার সহ এলাকার গন্য মান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

নাটোর লালপুর ফেনসিডিলসহ আটক- ২

নাটোর লালপুর ফেনসিডিলসহ আটক- ২



 রাজশাহী ব্যুরো
নাটোর  লালপুর উপজেলার বিলমাড়িয়া ইউনিয়নের মোল্লাপাড়া ঘাট এলাকায় লালপুর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে ফেনসিডিলসহ দুইজনকে আটক করে লালপুর থানা পুলিশ ।

থানা সূত্রে জানাযায়, মঙ্গলবার ৭জুলাই গোপন সংবাদের ভিত্তিতে লালপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি সেলিম রেজার নির্দেশনায় এস.আই আলি আযম এর নেতৃত্বে এএস.আই সেরাফত আলী সহ পুলিশের একটি দল লালপুর উপজেলার বিলমাড়িয়া ইউনিয়নের মোল্লাপাড়া ঘাট নামক স্থানে সন্ধ্যায় পুলিশ অভিযান চালায়। এ সময় দুটি ব্যাগের মধ্যে আমদানি নিষিদ্ধ ভারতীয় ২৫ বোতল ফেনসিডিল সহ মোহন প্রামানিক ওরফে মামুন (২৯) ও হাবিবুল বাশার হাবিব (২৮) কে পুলিশ আটক করে। মামুন কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থানার ফিলিপ নগর মাঠপাড়া গ্রামের মৃত মুলা প্রামানিকের ছেলে ও হাবিব রাজশাহীর বাঘা থানার পলাশী ফতেপুর গ্রামের ইবার খামারু ওরফে ইব্রাহিমের ছেলে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লালপুর থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ (ওসি) মোঃ সেলিম রেজা বলেন, এ ঘটনায় লালপুর থানায় মামলা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জে ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরো ২৬জনের করোনা শনাক্ত

সিরাজগঞ্জে ২৪ ঘন্টায়  নতুন করে  আরো ২৬জনের করোনা শনাক্ত



মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধি ঃ সিরাজগঞ্জ পিসিআর ল্যাবে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরো  ২৬ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। ২৬ জনের মধ্যে  অন্য জেলার ২ জন রয়েছেন এবং নতুন করে সিরাজগঞ্জে ২৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।
সিরাজগঞ্জ সিভিল সার্জন কার্যালয় সুত্রে জানা এ তথ্য জানা যায়।
বুধবার (৮ জুলাই) দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, শহীদ এম মনসুর আলী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের (পিসিআর) ল্যাব থেকে ৯৪ জনের নমুনার ফলাফল পাওয়া যায়। এর মধ্যে ২৬ জনের করোনা পজিটিভ এবং অন্য ৬৮ জনের নেগেটিভ ফলাফল আসে।
জেলায় নতুন ২৪ জনের মধ্যে সিরাজগঞ্জ সদরের ২০ জন, চৌহালীর ১জন এবং রায়গঞ্জের ৩ জন রয়েছেন।
জেলার বাহিরের মানুষসহ সিরাজগঞ্জ ল্যাবে এখন পর্যন্ত করোনা শনাক্ত হয়েছে ৭৭৩ জনের। যার মধ্যে সিরাজগঞ্জ জেলার বাসিন্দা ৭৪৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বাকী ২৭ জন অন্য জেলার।
সিরাজগঞ্জ জেলায়  মোট করোনা আক্রান্তের ৭৪৬ জনের মাঝে বেলকুচিতে ১৪২ জন, সিরাজগঞ্জ সদরের ২৭৯ জন, রায়গঞ্জের ৬৬ জন, চৌহালীর ৩১ জন, শাহজাদপুরের ৯৬ জন, উল্লাপাড়ার ৫০ জন, কাজিপুরের ৩৯ জন, তাড়াশের ২০ জন এবং কামারখন্দের ১৯ জন।
গত ২৪ ঘন্টায় নতুন সুস্থ হয়েছেন  আরও ৪৭জন।
এ পর্যন্ত সিরাজগঞ্জে মোট সুস্থ হয়েছেন ১২১ জন এবং মারা গেছেন ৯ জন

মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানালেন নবনিযুক্ত টাংগাইল জেলা প্রশাসক মোঃ আতাউল গনি

মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানালেন নবনিযুক্ত টাংগাইল জেলা প্রশাসক মোঃ আতাউল গনি


  ডা.এম.এ.মান্নান টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি: মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের প্রতি  ফুলের তোড়া দিয়ে সম্মান জানালেন টাঙ্গাইলের নবনিযুক্ত  জেলা প্রশাসক(ডিসি)মোঃ আতাউল গনি।

আজ বুধবার ৮ জুলাই ২০২০ খ্রি.  সকালে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে  মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি স্তম্ভে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা ও সম্মান  জানানো হয়।         
                                                 এ সময় আরোও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক( সার্বিক) মোহাম্মদ মোশারফ হোসেন খান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক( রাজস্ব) মোছাঃ মোস্তারী কাদেরী সহ টাংগাইল জেলা প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

ঝিনাইদহে নদীর পাড় থেকে পরিতাক্ত সরকারী ওষুধ উদ্ধার

ঝিনাইদহে নদীর  পাড় থেকে পরিতাক্ত সরকারী ওষুধ উদ্ধার




খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার ( ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি) 



ঝিনাইদহ শহরের নবগঙ্গা নদীর ধার থেকে বিপুল পরিমান সরকারী ওষুধ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বুধবার দুপুরে খাজুরা এলাকার নবগঙ্গা নদীর ধার থেকে এ ওষুধ উদ্ধার করা হয়।

ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান,শহরের খাজুরা এলকার নবগঙ্গা নদীর ধারে সরকারী ওষুধ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী পুলিশকে খবর দেয় ।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় লক্ষাধিক টাকার ওষুধ উদ্ধার করে।

স্বাস্থ্যবিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে উদ্ধারকৃত ওষুধের ব্যাপারে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে জানায় তিনি।

নাটোরে সরকারি গাছ কর্তনকারীদের বিরুদ্ধে জেলা পরিষদ সার্ভেয়ার ও তার সঙ্গীদের উপর হামলার অভিযোগ

নাটোরে সরকারি গাছ কর্তনকারীদের বিরুদ্ধে জেলা পরিষদ সার্ভেয়ার ও তার সঙ্গীদের উপর হামলার অভিযোগ





রাজশাহী ব্যুরো
নাটোরের লালপুরে সরকারি গাছ কর্তনের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাওয়া নাটোর জেলা পরিষদ সার্ভেয়ার ও তার সঙ্গীদের উপর হামলা করেছে গাছ কর্তনকারীরা।

লালপুর উপজেলার দুড়দুড়িয়া ইউনিয়নের আট্টিকা-গন্ডবিল রাস্তার আট্টিকা গ্রামে গত সোমবার (৬ জুলাই) এ ঘটনা ঘটে। হামলাকারীরা নাটোর জেলা পরিষদ সার্ভেয়ার তন্ময়, জেলা পরিষদ ডাক বাংলো লালপুরের কেয়ারটেকার মুজাহিদ, তদন্ত টিমের ডাকে ঘটনাস্থলে যাওয়া বিলমাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের ৬ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য হায়দার আলী ও তার সঙ্গী উধনপাড়া গ্রামের ইনছার আলীর ছেলে আব্দুস সালামকে বেধড়ক কিল-ঘুষি ও মারপিট করে বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বুধবার (৮ জুলাই) লালপুর থানায় হায়দার আলী বাদি হয়ে একটি অভিযোগ করেছেন বলে থানা সূত্র নিশ্চিত করেছে।

স্থানীয় ও লালপুর থানা সূত্রে জানা যায়, লালপুর উপজেলার দুড়দুড়িয়া ইউনিয়নের আট্টিকা-গন্ডবিল সড়কের ২টি শিশু ও জাম গাছ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা আট্টিকা গ্রামের আজিজুল আলম মক্কেল মাস্টারের ভাই আব্দুল মান্নান ওরফে মটর গত শুক্রবার (১৯ জুন) দুপুরে গাছ কাটার চেষ্টাকালে খবর পেয়ে লালপুর থানা পুলিশ গাছ দুটির ক্রেতা রুলু কে থানায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যায়। এ সময় গাছ দুটির বিক্রেতা আব্দুল মান্নান মটর ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে গাছের মালিকানা নিষ্পত্তি না হওয়া অবধি গাছ না কাটার শর্তে রুলুকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

এ নিষেধ অমান্য করে গত রোববার (৫ জুলাই) গাছ দুটি কেটে নেন আব্দুল মান্নান মটর। খবর পেয়ে পরের দিন ঘটনাস্থলে আসেন জেলা পরিষদ সার্ভেয়ার। কথোপকথোনের এক পর্যায়ে সাবেক চেয়ারম্যান আজিজুল আলমের ছেলে আসাদুজ্জামান বাবু জেলা পরিষদ সার্ভেয়ার তন্ময় ও ইউপি সদস্য হায়দার আলীকে মারপিট শুরু করলে বাকী সঙ্গীরা তাদের রক্ষার জন্য এগিয়ে যায়। এ সময় গাছ কর্তনকারী আব্দুল মান্নান মটর, সাবেক চেয়ারম্যান আজিজুল আলম, সাবেক চেয়ারম্যানের ছেলে আব্দুল আলীম, আমিনুল ইসলাম পলাশ, সাবেক চেয়ারম্যানের ভাই মহাসিন আলীর ছেলে মুনজুর রহমান ও জাকির হোসেন মিন্টু তাদের সকলকে এলোপাথাড়ি কিল-ঘুষি মারতে থাকে। নিজেদের রক্ষার্থে ঘটনাস্থল থেকে সার্ভেয়ার সহ বাকীরা চুপচাপ চলে যান।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জেলা পরিষদ সার্ভেয়ার তন্ময় জানান, পুরো ঘটনা উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

দুড়দুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ তহসিলদার ইউসুফ আলী জানান, রাস্তা পাশ্ববর্তী জমির মালিক গাছটি নিজের জমিতে দাবি করেন। সরকারী সার্ভেয়ার দিয়ে জমির সীমানা নির্ধারন করা দরকার। 

এ ব্যাপারে দুড়দুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান জানান, বিষয়টি শুনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবহিত করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে নাটোর জেলা পরিষদ প্রধান নির্বাহী খন্দকার ফরহাদ আহমেদের সাথে কয়েকবার মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নি।

সিরাজগঞ্জে সাংবাদিককে লাঞ্চিত করায় প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ সভা

সিরাজগঞ্জে সাংবাদিককে লাঞ্চিত করায় প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ সভা



মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধি ঃ
সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক নবচেতনা পত্রিকার উপজেলা প্রতিনিধি আলহাজ্ব গোলাম রাব্বানী  সুর্য কে মিথ্যা অভিযোগে ফাসিয়ে লাঞ্চিত করার প্রতিবাদে তাড়াশ উপজেলা প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ  সভা করা  হয়েছে। বুধবার সকালে উপজেলা প্রেসক্লাব কার্যালয়ে এ প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শাহিনুর রহমান শাহিন, সাবেক সহ সভাপতি ও দৈনিক সকালের সময় পত্রিকার উপজেলা প্রতিনিধি মহসীন আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক এবং আনন্দ টিভি ও দৈনিক মানবকণ্ঠের প্রতিনিধি সোহেল রানা সোহাগ, কোষাধক্ষ্য ও দৈনিক বাংলাদেশের আলো পত্রিকার উপজেলা প্রতিনিধি আবু হাসান, দপ্তর ও পাঠাগার সম্পাদক এস এম সনজু কাদের সহ সংগঠনের সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।
প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, এভাবে যদি সাংবাদিকদের উপর মিথ্যা সাজানো ঘটনা দিয়ে লাঞ্চিত,অপমান, অত্যাচার করা হয় তাহলে সাংবাদিকরা দেশের উন্নয়নের কোন কিছুতেই অংশগ্রহন করতে পারবেনা। এভাবে চলতে থাকলে একদিন সংবাদকর্মীদের খুজেও পাওয়া যাবে না। কে বা কারা এই সাংবাদিককে লাঞ্চিত করেছে অনতিবিলম্বে তাদের শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।
উল্লেখ্য: ৪ জুলাই বগুড়া জেলার শেরপুরে পরিকল্পিত ভাবে সাংবাদিককে নারী কেলেংকারির অভিযোগে ফাঁসিয়ে লাঞ্চিত করেছে কিছু কুচক্রি মহল । যার প্রতিবাদে ৬ জুলাই তাড়াশে কর্মরত সকল সাংবাদিকদের নিয়ে সঠিক তথ্য ও যেভাবে পরিকল্পিত ভাবে তাকে ফাঁসানো হয়েছে সে বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করে তুলে ধরেন লাঞ্চিত হওয়া সাংবাদিক তাড়াশ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও দৈনিক নবচেতনা পত্রিকার উপজেলা প্রতিনিধি আলহাজ্ব গোলাম রাব্বানী ।

নাটোর লালপুর অনলাইন কুইজ প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহনকারীদের মাঝে পুরস্কার বিতরন

নাটোর লালপুর অনলাইন কুইজ প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহনকারীদের মাঝে পুরস্কার বিতরন





রাজশাহী ব্যুরো
মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচারবিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস-২০২০ উপলক্ষে অনলাইন কুইজ প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহনকারীদের মাঝে বুধবার (৮ জুলাই) পুরস্কার বিতরন করা হয়। 

লালপুর উপজেলার আট্টিকায় আলোর দিশারী যুব স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন অফিসে অংশগ্রহনকারীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন লালপুর উপজেলা প্রেসক্লাব সাধারন সম্পাদক ও Drag Abuse Resistance and Understanding (দাড়াও) প্রকল্পের  লালপুর উপজেলা শাখার স্বেচ্ছাসেবক প্রভাষক মোয়াজ্জেম হোসেন।

নারী ও শিশু কল্যাণ সোসাইটি (এন.এস.কে.এস) এর Drag Abuse Resistance and Understanding (দাড়াও) প্রকল্পের অধীনে জুম অ্যাপসে্র মাধ্যমে এ কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

কর্মসূচিতে আর্থিক সহযোগীতায় রয়েছেন ইউএসএইড ও ইউকেএইড। প্রচার ও বাস্তবায়নে রয়েছে লাইট হাউজ, ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন, আশক্ত পূনর্বাসন সংস্থা (আপস)-রাজশাহী এবং নারী ও শিশু কল্যাণ সোসাইটি (এনএসকেএস)। কারিগরি সহযোগীতা করেন কাউন্টারপার্ট ইন্টারন্যাশনাল।

নওগাঁর আত্রাই থানা পুলিশের জনসচেতনতা মূলক প্রচারপত্র বিতরণ

নওগাঁর আত্রাই থানা পুলিশের জনসচেতনতা মূলক প্রচারপত্র বিতরণ





 মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
 রাজশাহী ব্যুরো

 নওগাঁর আত্রাইয়ে থানা পুলিশ কর্তৃক পানিতে ডুবে মৃত্যু রোধে করণীয় এবং সাপে কাটলে করণীয় বর্জনীয় ও প্রতিরোধ বিষয়ক জনসচেতনতা মূলক প্রচারপত্র বিতরণ করেন।

বুধবার দিনব্যাপী ওসি মোসলেম উদ্দিন এবং ওসি তদন্ত মোজাম্মেল হকের নেতৃত্বে চৌকস টিম এ কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

এসময় উপজেলা সদর ,সাহেবগঞ্জ বাজার, আহসানগঞ্জ স্টেশন, আত্রাই নতুন বাজার, বান্দাইখাড়া বাজার, শুকটিগাছা বাজার, সুদরানা বাজার, নওদুলি বাজার সহ লোক সমাগম হয় এমন স্থানে স্থায়ী বিলবোর্ড ঝোলানো এবং সর্ব সাধারনের হাতে হাতে প্রচারপত্র দেওয়া হয়।

ওসি মোসলেম উদ্দিন বলেন, কয়েক দিনের বৃষ্টি এবং উপরের ঢলের পানি এসে আত্রাই নদীর পানি ২৩ সেন্টিমিটার বীপদ সীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। মাঠ-ঘাট ডুবে চারিদিকে পানি থৈথৈ করছে। সেইসাথে বৃদ্ধি পেয়েছে সাপের উপদ্রব। সাপ এবং পানি হতে মানুষের জান-মাল রক্ষার্থে জেলা পুলিশের নির্দেশে আজকের এই কার্যক্রম পরিচালনা করা হলো।

নওগাঁর আত্রাইয়ে এক স্কুল চাত্রীর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

নওগাঁর আত্রাইয়ে এক স্কুল চাত্রীর  গলায় ফাঁস  দিয়ে আত্মহত্যা




মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
 রাজশাহী ব্যুরো

 নওগাঁর আত্রাইয়ে বৃষ্টি কুমারী (১৫) নামের এক স্কুলছাত্রী গলায় ওড়নার ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। বৃষ্টি কুমারী উপজেলার শাহাগোলা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী।

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে নিজ বাসায় আত্মহত্যা করে ওই শিক্ষার্থী। পরে বুধবার সকালে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। বৃষ্টি কুমারী উপজেলার শাহাগোলা পীরপাড়া গ্রামের বিপুল চন্দ্রের মেয়ে।

আত্রাই থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোসলেম উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাতের কোন এক সময় সে ঘরের তীরের সঙ্গে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বৃষ্টি কুমারী। 

তিনি আরো বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে মেয়েটি পারিবারিক সমস্যার কারণে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড করা হয়েছে।

আশাশুনিতে মুজিব বর্ষ উপলক্ষে বৃক্ষরোপণ উদ্বোধন

আশাশুনিতে মুজিব বর্ষ উপলক্ষে বৃক্ষরোপণ উদ্বোধন



আহসান উল্লাহ বাবলু আশাশুনি ( সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃআশাশুনিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী "মুজিব বর্ষ" উপলক্ষে উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার সকালে আশাশুনি উপজেলা পরিষদ চত্বরে এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মোস্তাকিম। উপজেলার প্রকৃত চাষীদের ভিতর  ১০০টি ফলজ বৃক্ষ চারা বিতরণ করা হয়। বিতরণকালে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রাজিবুল হাসান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অসীম বরুণ চক্রবর্তী, মোসলেমা খাতুন মিলি, জুনিয়ার কৃষি কর্মকর্তা আব্দুল গনি, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও রিপোর্টার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ বাচ্চু, রিপোর্টার্স ক্লাবের দপ্তর সম্পাদক রিপোর্টার্স ক্লাবের দপ্তর সম্পাদক আহসান উল্লাহ বাবলু, আনিসুর রহমান বাবলা  প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আর্থিক ক্ষতিতে বেতন বন্ধের উপক্রম পৌর কর্মচারীদের

আর্থিক ক্ষতিতে বেতন বন্ধের উপক্রম পৌর কর্মচারীদের




 মোঃএরশাদ হোসেন রনি, মোংলা   

মোংলা বন্দরের শিল্প এলাকার বিভিন্ন কলকারখার মালামাল পরিবহণকারী গাড়ী পার্কিংয়ের জন্য বন্দরের নিজস্ব জমিতে নির্মিত পৌর ট্রাক টার্মিনালটি হঠাৎ করে বন্ধ করে দেয়ায় ভোগান্তী বেড়েছে বন্দরের শিল্প এলাকা জুড়ে। ফলে বিভিন্ন ফ্যাক্টরীগুলোর গাড়ী এখন রাখতে হচ্ছে রাস্তার দুপাশে। এতে রাস্তা সংকুচিত হয়ে পড়ায় অন্যান্য যানবাহন চলাচলেও বিঘ্ন ঘটার পাশাপাশি দুর্ঘটনার আশংকাও বেড়েই চলেছে। রাস্তার উপর ও পাশে গাড়ী রাখায় রাস্তাও ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। স্থানীয় পুলিশের পক্ষ থেকে গত মাসের ৭ তারিখ পৌর ট্রাক টার্মিনালটি বন্ধ করে দেয়ায় শিল্প এলাকায় এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। যদিও হাইওয়ের টোল আদায়কৃত টার্মিনাল বন্ধের নিদের্শনা থাকলেও ভুল বুঝাবুঝির কারণেই বন্দরের নিজস্ব এলাকায় নির্মিত টার্মিনালটিও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এদিকে টার্মিনাল বন্ধ থাকায় আর্থিক ক্ষতিতে পড়েছে পৌর কর্তৃপক্ষ। টার্মিনালের আয় দিয়ে পৌর কর্মচারীদের বেতনসহ পৌরবাসীর সেবায় ব্যয় করা হতো। অচিরেই টার্মিনালটি চালু না হলে পৌর কর্মচারীদের বেতন দেয়া বন্ধ হওয়াসহ নাগরিক সেবাও বিঘ্নিত হবে। 

খোঁজ খবরে জানা গেছে, বন্দর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে জমি অধিগ্রহণ করে দিগরাজ এলাকায় প্রায় ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ট্রাক টার্মিনাল নিমার্ণ করে মোংলা পোর্ট পৌরসভা। ২০১৮ সালে ১লা মে টার্মিনালটির উদ্বোধনের পর বন্দর ও শিল্প এলাকার সকল সকল ট্রাক গত তিন বছর ধরে সেখানেই পার্কিং করে আসছিল। এবং সেখান থেকে সিরিয়াল অনুযায়ী বিভিন্ন ফ্যাক্টরীর মালামাল নিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করতো ট্রাকগুলো। ওই টার্মিনাল থেকে বছরে প্রায় ৪০ লাখ টাকা আয় হয়ে আসছিল পৌর কর্তৃপক্ষের। আয়ের ওই টাকার একটি অংশ চুক্তি মোতাবেক বন্দর কর্তৃপক্ষ পেতো আর বাকী টাকা দিয়ে পৌর কর্তৃপক্ষ তাদের কর্মচারীদের বেতন পরিশোধসহ জনসাধারণের সুযোগ-সুবিধায় ব্যয় করে আসছিল। মোংলা বন্দরের শিল্প এলাকায় গড়ে ওঠা সিমেন্ট, এলপিজিসহ বিভিন্ন ধরণের ২০ ফ্যাক্টরী এবং বন্দরের ও ইপিজেটের পণ্য পরিবহণে নিয়োজিত প্রায় ৭শ ট্রাকের আসা যাওয়া ও অবস্থান বন্দরের শিল্প এলাকায়। শিল্প এলাকার বন্দরের নিজস্ব এ সড়কের যানজট কমাতে এবং রাস্তার ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে বন্দর কর্তৃপক্ষ ও পৌরসভা যৌথভাবে এ ট্রাক টার্মিনালটি নিমার্ণ করে। অথচ গত ৮ জুন পুলিশ টার্মিনালটি বন্ধ করে দেয়। 

এ বিষয়ে মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, উর্ধতন কর্তৃপক্ষ ও পরিবহণ মালিক সমিতির দাবীর প্রেক্ষিতে যাতে মহাসড়কের কোথাও কোন টোল আদায় না হয় সেজন্য টার্মিনালটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এটা যদি হাইওয়ের বাহিরে এবং বন্দরের নিজস্ব জায়গায় হয়ে থাকে তাহলে তারা কাগজপত্র দেখালে একটা সুরহা করা যেতে পারে। 

মোংলা পোর্ট পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব মো: জুলফিকার আলী বলেন, বিশ্ব ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে প্রজেক্টের মাধ্যমে টার্মিনালটি করা হয়েছে। এটি বন্ধ করে দেয়ায় কিস্তি দেয়ায় অনিশ্চিত হয়ে পড়বে। এছাড়া এটি হাইওয়য়ের আওতাভুক্ত নয়। বন্দরের নিজস্ব জায়গায় এবং রাস্তাটি বন্দরের নিজস্ব। ভুল বুঝার কারণেই পৌর টার্মিনালটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এতে পৌরসভা আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে। কারণ টার্মিনালের আয় দিয়ে পৌরসভার কর্মচারীদের বেতন ও বিভিন্ন উন্নয়নমুলক কাজ করা হতো। দ্রুত এটি চালু না হলে কর্মচারীদের বেতন দেয়া অসম্ভব হয়ে পড়বে। 

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এম শাহজাহান বলেন, টার্মিনাল ও বন্দরের শিল্প এলাকার এ রাস্তা বন্দরের নিজস্ব জায়গার উপর এটি হাইওয়ের আওতাভুক্ত নয়। মুলত ভুল বুঝাবুঝিতে পৌর ট্রাক টার্মিনালটি বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এনিয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পৌর কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যে চিঠি দিয়েছে আমরাও চেষ্টা করছি আশা করা যায় স্বল্প সময়ের মধ্যে এটির সুরহা হয়ে যাবে। 

বেতন ভাতা প্রদানসহ বড়কুরিয়ায় কর্মরত ১১৪৭জন শ্রমিককে স্বস্ব কর্মস্থলে দ্রুত যোগদানের দাবীতে আল্টিমেটাম

বেতন ভাতা প্রদানসহ বড়কুরিয়ায় কর্মরত ১১৪৭জন শ্রমিককে স্বস্ব কর্মস্থলে দ্রুত যোগদানের দাবীতে আল্টিমেটাম




দিনাজপুর প্রতিনিধি॥ বড়কুরিয়া কয়লা খনির ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান এক্সএমসি-সিএমসি-জেএসএমই কর্মরত ১১৪৭জন শ্রমিককে বেতন ভাতা প্রদানসহ স্বস্ব কর্মস্থলে দ্রুত যোগদানের দাবীতে আল্টিমেটাম প্রদান করা হয়েছে। ৮ জুলাই বুধবার সকালে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি গেটে বড়পুকরিয়া কয়লাখনি জাতীয় শ্রমিক লীগ ও বড়কুরিয়া কয়লা খনি শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের যৌথ আয়োজনে এক মানববন্ধন থেকে এ আল্টিমেটাম প্রদান করা হয়। 
মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বড়কুরিয়া কয়লা খনি শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি মোঃ রবিউল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক মোঃ আবু সুফিয়ান, বড়পুকরিয়া কয়লাখনি জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম রতন, সাধারন সম্পাদক রবিউল ইসলাম রবি সহ অন্যান্য শ্রমিক নেতৃবৃন্দ। এসময় বক্তারা বলেন, আগামী ১২ জুলাই পর্যন্ত আমরা আমাদের দাবী বাস্তবায়নে কর্তৃপক্ষের কার্যক্রম লক্ষ করব। এর মধ্যে যোগদানের ব্যবস্থাসহ আমাদের দাবী দাওয়া বাস্তবায়নে কোন কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া না হলে ১৩ জুলাই আমাদের পরিবারসহ খনির প্রধান গেটে অবস্থান ধর্মধট পালন করব। এর পরেও কোন সুরাহা না হলে ভবিষ্যতে আরো কঠোর কর্মসূচী প্রদান করা হয়। শ্রমিকদের দাবীর মধ্যে রয়েছে সরকার ঘোষিত বেতনভাতাসহ ১১৪৭জন শ্রমিক স্বস্ব কর্মস্থলে যোগদান দিতে হবে। চুক্তি অনুযায়ী ঈদ বোনাস প্রদান করতে হবে। ফেস বোনাস প্রদান করতে হবে। এক্সএমসি-সিএমসি কনসোর্টিয়ামের অবহেলার কারণে যে সকল স্থানীয় শ্রমিক রিপ্লেসমেন্টের অপেক্ষায় অপেক্ষমান তাদেরকে বেতনভাতা, ঈদ বোনাস, ফেস বোনাস সহ সকল সুবিধা প্রদান করতে হবে।ড়

শৈলকুপায় বিবাহ ভাঙ্গা নিয়ে গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ আহত ৭, আটক ৭

শৈলকুপায় বিবাহ ভাঙ্গা নিয়ে  গ্রামবাসীর মধ্যে  সংঘর্ষ আহত ৭, আটক ৭




সম্রাট হোসেন, শৈলকুপা( ঝিনাইদহ) সংবাদদাতাঃ

ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উপজেলার  সারুটিয়া গ্রামে বিবাহ ভাঙ্গা নিয়ে দুই দল গ্রামবাসীর ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। সংঘর্ষে ৭ জন আহাত হয়েছে এবং ৭ জনকে পুলিশ আটক করেছে। সংঘর্ষ চলাকালীন সময়ে প্রায় ৩০/৪০ টা ঘরবাড়ি ভাঙ্গচুর করা হয়।শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মতয়ান করা হয়েছে। আহাত দের শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে।

শান্তি পূর্ণভাবে পারিবারিক দ্বন্দ নিরসন চন্দন বর্ম্মন ও রত্নারানী বর্ম্মনের আজ সুখের সংসার সিডিসি,দিনাজপুরের অনবদ্য অবদান

শান্তি পূর্ণভাবে পারিবারিক দ্বন্দ নিরসন চন্দন বর্ম্মন ও রত্নারানী বর্ম্মনের আজ সুখের সংসার সিডিসি,দিনাজপুরের অনবদ্য অবদান




দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ  দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার ৯নং সাতোর ইউনিয়নের লাটভাবড়া গ্রামের সুকানু বর্ম্মনের একমাত্র কম্যা রত্নারানী  বর্ম্মন পলির সাথে এখন থেকে চার বছর আগে পাশ্ববর্তী ১১নং মরিচা ইউনিয়নের দুর্লভপুর গ্রামের ভাদ্রু বর্ম্মনের কনিষ্ঠ ছেলে চন্দন কমনে মাকে যালাতন শাস্ত্রীয় রীতি অনুযায়ী শুভ বিবাহ কার্য সম্পন্ন হয়। বিবাহ জীবনের শুরুতেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক দন্দ-কলহ আর এই সমস্যার মধ্য থেকেই প্রকৃতির নিয়মে তাদের কলে আসে এক ফুটফুটে কন্যা সন্তান। স্বামী-স্ত্রীর অমিমাংসিত দ্বন্দ যেন ব্যপকতায় রুপ নেয়। শুরু হয় পরস্পরের মধ্যে পৃথকীকরন পরিস্থিতি। একে -অপরের দোষারোপ সত্যিই একদিন তারা স্ব-ম্ব জন্মদাতার বাড়ীতে। সন্তানটিও মায়ের সাথে থাকে। 
এমন পারিবারিক দ্বন্দের কারনে পরিবারটি ভাঙ্গা প্রায়। ঠিক তখনই ৫ মার্চ,২০২০ইং তারিখে খবর পায় দৈনিক বাংলা সময়ের দিনাজপুর প্রতিনিধিএবং দিনাজপুর জেলার স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার নির্বাহী পরিচালক,ইয়ুথ ফর হিউম্যান রাইটস্্ ইটারন্যাশনাল ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ, দিনাজপুর জেলা কমিটির সভাপতি যাদব চন্দ্র রায়। ছুটে যায় তিনি তাদের বাড়ীতে এবং উভয় পরিবারকে বুঝিয়ে বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড এ্যান্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট(ব্লাস্ট),দিনাজপুর ইউনিটের সম্বনয়কারী এ্যাডভোকেট সিরাজুম মুনিরার সহযোগিতায় উভয়ের অভিভাবকদের অংশগ্রহনে দীর্ঘ বিরোধ মীমাংসা হয়। 
বর্তমানে চন্দন ও রতœা তাদের একমাত্র কন্যা সন্তানসহ সুখে শান্তিতে ঘড় সংসার করছে। এ সংসার আর কোনদিনও ভাংবেনা, ভাংতে পারেনা। এমনই স্বপ্ন লালন করছে এ ঘটনা নিরসনের সমন্বয়ক, ঘটনার প্রতিবেদক সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী সিডিসি’র নিবার্হী পরিচালক যাদব চন্দ্র রায়।
সবার ঐকার্ত্তিক সহযোগিতায় শানি—পূর্ণভাবে বিরোধ মীমাংসাই আমরা কামনা করি। ১৯৯২-২০২০ মেয়াদে অসংখ্যা বিরোধ মীমাংসা করায় আমরা গর্ভবোধ করি। 
ধন্যবাদান্তে

নীলফামারী কিশোরগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ ২৫ টি পরিবাবের নগদ টাকা ও ঢেউটিন বিতরন

নীলফামারী কিশোরগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ ২৫ টি পরিবাবের নগদ টাকা ও ঢেউটিন বিতরন






মো:লাতিফুল  আজম
কিশোরগঞ্জ নীলফামারী  প্রতিনিধি:


নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায়  অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত  ২ে৫টি পরিবারের মাঝে  ছয় হাজার টাকার চেক ও দুই বান্ডিল করে ঢেউ টিন বিতরণ করা হয়েছে।   বুধবার সকাল ১১ টার  দিকে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসের আয়োজনে উপজেলা পরিষদের সামনে এসব ঢেউটিন বিতরণ হয়।  এ  সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল কালাম আজাদ,  উপজেলা প্রকৌশলী মজিদুল হক উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসের উপ-সহকারী প্রকৌশলী আবু সাঈদ,  মনোয়ার হোসেন সাংবাদিক প্রমুখ। 
উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসের উপ সহকারী প্রকৌশলী আবু সাইদ জানান, ২০১৮ -১৯ অর্থবছরে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ ২৫টি পরিবারকে বিনামূলে নগদ ৬ হাজার করে টাকার চেক দুই বান্ডিল করে ঢেউটিন বিতরন করা হয়েছে। ২৫ জনের মধো গাড়াগ্রাম ইউনিয়নে ১৭ জন, কিশোরগঞ্জে ৪ জন, মাগুড়ায় ৩জন এবং বাহাগিলিতে ১ জন।

ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সুন্দর পরিবেশ উপহার দেয়ার জন্য বেশী বেশী গাছ লাগাই

ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সুন্দর পরিবেশ উপহার  দেয়ার জন্য বেশী বেশী গাছ লাগাই




দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ একমাত্র গাছই প্রকৃতিক পরিবেশ সুস্থ্য ও সুন্দর রাখতে পারে উল্লেখ করে কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের রংপুর বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা কৃষিবিদ বিশ্বনাথ সরকার বিটু বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশবাসীকে গাছ লাগানোর যে আহবান জানিয়েছেন, আসুন আমরা সকলেই সেই আহবানে সাড়া দেই এবং নিজেদের প্রয়োজনে ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সুন্দর পরিবেশ উপহার দেয়ার জন্য বেশী বেশী গাছ লাগাই। গাছ লাগিয়ে দেশের পরিবেশ রক্ষার পাশাপাশি নিজেরাও লাভবান হই। 
দিনাজপুর সদর উপজেলার করিমুল্যাপুর মাদ্রাসা ও জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহবানে বাংলাদেশ কৃষক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সমির চন্দ্র, সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি’র নির্দেশনায় দিনাজপুর জেলা কৃষক লীগের বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ কৃষক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির রংপুর বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা কৃষিবিদ বিশ্বনাথ সরকার বিটু এ কথা বলেন। তিনি বলেন, কৃষক লীগসহ আওয়ামী লীগের সকল ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতাকর্মীদের অন্তত ৩টি করে গাছ লাগানোর নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। তাই সারা বাংলাদেশে আমাদের যেখানে যত নেতা-কর্মী আছে প্রত্যেককে ৩টি করে গাছ লাগাতে হবে এবং অন্যদের বেশী বেশী গাছ লাগাতে উৎসাহিত করতে হবে। সেটা তার নিজের জায়গায় হোক অথবা নিজের জায়গা না পেলে যেখানেই হোক, রাস্তার পাশে হলেও গাছ লাগাতে হবে। এ সময় তিনি একটি অর্জুন গাছের চারা রোপণ করে দিনাজপুর জেলার কৃষক লীগের বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন। 
দিনাজপুর জেলা কৃষক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আলহাজ্ব মো. আজিজার রহমান এর সভাপতিত্বে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কৃষক লীগ নেতা মো. শওকত আলী, মো. শাহজাহান আলম, মো. আব্দুল মান্নান, মো. আহসান হাবীব, মো. সাখাওয়াত হোসেন, মো. শাহ আজিজুর রহমান (মাস্টার), মো. শাহজাহান লাবু প্রমুখ। ##

বাংলাদেশ কিন্ডার গার্ডেন এসোসিয়েশন দিনাজপুর জেলা শাখার উদ্যোগে মাননবন্ধন

বাংলাদেশ কিন্ডার গার্ডেন  এসোসিয়েশন দিনাজপুর জেলা শাখার উদ্যোগে মাননবন্ধন


দিনাজপুর প্রতিনিধি ঃ ৮ জুলাই বুধবার দিনাজপুর প্রেসক্লাব সম্মুখ সড়কে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বাংলাদেশ কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশন দিনাজপুর জেলা শাখার উদ্যোগে “করোনা মহামারীর মহাদুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ কিন্ডারগার্টেন স্কুলগুলোর জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আর্থিক অনুদান/সহজশর্তে ঋণসহ অন্যান্য দাবিতে” মাননবন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশন দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি হাজেরা হাসান, সাধারন সম্পাদক মোঃ মোজাম্মেল হক, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ফাত্তাহুর রহমান, সদস্য মোঃ রহমত উল্লাহ প্রমুখ।

করোনায় দেশে মৃত্যু -৪৬

করোনায় দেশে মৃত্যু -৪৬



নিউজ ডেস্কঃ 
(৮ ই জুলাই) গত ২৪ ঘন্টায়  ১৫৬৭২ নমুনা পরীক্ষায় ৩৪৮৯ জনের করোনা শনাক্ত।
মৃত্যু  ৪৬ জন,এ-ই পর্যন্ত দেশে মোট প্রাণহানি ২১৯৭।
আজ  মৃতদের মধ্যে পুরুষ ৩৮, নারী ৮ জন। নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২২.২৬ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ ২৭৩৬, মোট সুস্থ ৮০৮৩৮ জন।
এই নিয়ে দেশে এ পর্যন্ত ১ লাখ ৭২ হাজার ১৪২ জনের করোনা শনাক্ত।

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় লিও ক্লাবের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় লিও ক্লাবের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন
 



 
নোবি প্রবি প্রতিনিধিঃ
প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষায় অর্ধ শতাধিক গাছের চারা রোপণ করেছে লিও ক্লাব অব নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (নোবিপ্রবি)  রয়েল কিংস।


লায়ন্স জেলা ৩১৫এ১ এর সম্মানিত জেলা গভর্নর; লায়ন মোঃ নজরুল ইসলাম সিকদার পিএমজেএফ এ বছর ডাক দিয়েছেন," সেবার মাধ্যমে বন্ধুত্ব ও নেতৃত্ব " এ ডাকে সাড়া দিয়ে লায়ন্স ক্লাব অব ঢাকা কিংসের স্পন্সরকৃত ষষ্ঠ লিও ক্লাব "নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়" বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্যোগ নিয়েছে।
যা নতুন লায়ন্স বর্ষের একটি শুভ সূচনা হিসেবে ক্লাব সদস্যদের উৎসাহ এবং অনুপ্রেরণা যোগাবে।


 বুধবার (৮ জুলাই, ২০২০) সকালে লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ থানায় অর্ধ-শতাধিক ফলজ, বনজ ও ওষধি গাছের চারা রোপন করেন ক্লাবটির সভাপতি  লিও হাসিব আল আমিন ও ক্লাব সদস্যরা।


সার্বিক সহযোগিতা ও উক্ত প্রোগ্রামটি সম্পূর্ণ স্পন্সর করেছেন লায়ন্স ক্লাব অব ঢাকা কিংস এর সম্মানিত সদস্য লায়ন মোহাম্মদ জাকির হোসাইন। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে লায়ন জাকির হোসাইন জানান, প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষা করা আমাদের সকলের জন্য জরুরি। পরিবেশ সুন্দর থাকলে আমাদের আগামী প্রজন্ম সুন্দরভাবে বেড়ে উঠবে।

এতে সার্বিক তত্বাবধান করেছেন ক্লাবটির লিও ক্লাব এডভাইজর লায়ন আজহার মাহমুদ পিএমজেএফ।

লায়ন আজহার মাহমুদ বলেন,  পরিবেশকে জীবনবান্ধব করে তোলার ক্ষেত্রে গাছ লাগানোর কোনও বিকল্প নেই। গাছ ছাড়া পৃথিবীতে জীবনের অস্তিত্ব কল্পনা করা যায় না। তাই সবাইকে বেশি বেশি গাছ লাগানোর পরামর্শ দেন তিনি।

দিনাজপুর খাদ্য শস্য আড়ৎদার মালিক গ্রুপের নব নির্বাচিত কমিটির দ্বায়িত্ব গ্রহণ

দিনাজপুর খাদ্য শস্য আড়ৎদার মালিক গ্রুপের নব নির্বাচিত কমিটির  দ্বায়িত্ব গ্রহণ




দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ দিনাজপুর খাদ্য শস্য আড়ৎদার মালিক গ্রুপের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে নব নির্বাচিত সভাপতি রনজিত বসাক, সাধারণ সম্পাদক প্রতাপ সাহা পানুসহ কার্য নির্বাহী কমিটির শপথ ও দায়িত্ব গ্রহণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। 
৮ জুলাই বুধবার খাদ্য শস্য আড়ৎদার মালিক গ্রুপের নিজস্ব কার্যালয় মিলনায়তনে দিনাজপুর খাদ্য শস্য আড়ৎদার মালিক গ্রুপের দ্বি-বার্ষিক ২০২০-২০২২ (২৪ মাস মেয়াদী) নির্বাচনে নব নির্বাচিত কার্য নির্বাহী কমিটির শপথ ও দায়িত্ব গ্রহণ অনুষ্ঠানের শুরুতেই বিদায়ী সভাপতি প্রশান্ত সাহা, বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক রক্তিম বসাক নব নির্বাচিত সভাপতি রনজিৎ বসাক ও সাধারণ সম্পাদক প্রতাপ সাহা পানু’র হাতে দায়িত্ব ভার হস্তান্তর করেন। এরপর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চেয়ারম্যান এ্যাড. মো. আশফাক হোসেন নব নির্বাচিত কমিটিকে শপথ বাক্য পাঠ করান। নব নির্বাচিত কমিটির সদস্যরা হলেনঃ সভাপতি-রনজিৎ বসাক, সিনিয়র সহ-সভাপতি নির্মল কুমার আগরওয়ালা, সহ-সভাপতি মো. আব্দুল গফুর, সাধারণ সম্পাদক প্রতাপ সাহা পানু, সহ-সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাজেদুর রহমান ডাবলু, কোষাধ্যক্ষ মো. সানোয়ার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক রাসেশ্বর বসাক, দপ্তর সম্পাদক অভিজিৎ বসাক, কার্য নির্বাহী সদস্য উদ্দীপ ভৌমিক, অঞ্জন দত্ত ও দিলীপ কুন্ডু।

ঝিকরগাছায় বৃক্ষ রোপণের উদ্বোধন

ঝিকরগাছায় বৃক্ষ রোপণের উদ্বোধন




মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত, 
ঝিকরগাছা!(যশোর) প্রতিনিধিঃ

বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী "মুজিব বর্ষ" উদযাপন উপলক্ষে প্রতি উপজেলায় ১০০ টি বৃক্ষের রোপণ কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করা হয়।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ঝিকরগাছার আয়োজনে উক্ত বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করেন ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মনিরুল ইসলাম।

 এসময় উপস্থিত ছিলেন ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুমী মজুমদার, ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ সেলিম রেজা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লুবনা তাক্ষী প্রমুখ।

শৈলকুপা এখন সাপের নগর!

শৈলকুপা এখন সাপের নগর!





সম্রাট হোসেন,শৈলকুপা ( ঝিনাইদহ) সংবাদদাতাঃ

বাংলা পুরানো দিনে ছবি আর রুপ কথার ছবি কেও হার মানালো শৈলকুপা উপজেলার সাপের কাহিনি। শৈলকুপার আনাচে  কানাচে এখন চলছে সাপের নাগিন ড্যান্স আর জলকলী খেলা। এমত অবস্থায় শৈলকুপার সর্বস্থরের সাধারণ মানুষ চরম আতঙ্কের মাঝে দীন কাটছে। আজ ০৮/০৭/২০২০ সকালের ৭ টার  দিকে ঝিনাইদহ জেলার, শৈলকুপা উপজেলায়, শীতলিডাঙ্গা গ্রামে,
আব্দুল মান্নান মন্ডল নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে,  গোখরা সাপের ২৭ টি বাচ্চা উদ্ধার করা হয়।

গ্রামবাসী আতঙ্কে আছে, তাদের কথা অনুযায়ী একই গ্রামে আরো সাপ ও সাপের বাচ্চা আছে। উল্লেখ্য ২ দীন আগে একই উপজেলার মৌকুড়ি গ্রাম থকে ৭০ টি গোখরা সাপের বাচ্চা উদ্ধার করা হয়। ৩০ বাচ্চা মারা গেলেও বাকি ৪০টি সাপের বাচ্চা ও সাপ গুলো একই গ্রামের মাঠের মেহগনি বাগানে উপজেলা বন বিভাগ ছেড়ে দেয়। এমত অবস্থায় শৈলকুপার সাধারণ মানুষ সাপের চরম আতঙ্কে আছে।গত বছর উপজেলায় সাপের কামড়ে ২০ জন মারা যায়।

কিডনি রোগে আক্রান্ত সাইফ এবং অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষক সমিতি দেবে একদিনের বেতন

কিডনি রোগে আক্রান্ত সাইফ এবং অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষক সমিতি দেবে একদিনের বেতন





নোবিপ্রবি প্রতিনিধি 

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের(নোবিপ্রবি) শিক্ষকদের ১ (এক) দিনের বেতনের সমপরিমাণ অর্থের অর্ধেক অংশ অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়া প্রদানে সহায়তার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে প্রদান করা হবে এবং বাকি অর্ধেক অংশ জটিল কিডনি রোগে আক্রান্ত শিক্ষার্থী মো. সাইফ উদ্দিনের চিকিৎসায় সহযোগিতার জন্য ব্যয় করা হবে। এ অর্থ আগামী দুই মাসে প্রদেয় বেতন থেকে সমান কিস্তিতে কর্তন করা হবে। নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির কার্যকরী পরিষদ এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। 

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মো. বাহাদুর ও সাধারণ সম্পাদক মো. মজনুর রহমান সবুজ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের(নোবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের আবাসন সংকট থাকায় আমাদের অনেক শিক্ষার্থী নোয়াখালীর বিভিন্ন জায়গায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকেন। বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতিতে সরকারি নির্দেশে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় আমাদের সকল শিক্ষার্থী এখন নিজ নিজ বাড়িতে অবস্থান করছে। এই দুর্যোগের প্রারম্ভে শিক্ষার্থীরা নোয়াখালী জেলার বাইরে অবস্থান করলেও তাদের বাসা ভাড়ার অর্থ প্রদান করার জন্য বাড়ির মালিকরা চাপ প্রদান করছেন। উদ্ভুত এই পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন খুব দ্রুত সংসদ সদস্য, বিশ্ববিদালয় শিক্ষক সমিতি ও নোয়াখালীর স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতায় বাড়ির মালিকদের জুন মাস পর্যন্ত বাসা ভাড়ার জন্য শিক্ষার্থীদের চাপ প্রদান না করার অনুরোধ করেছেন।

সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন প্রদত্ত সময় অতিক্রান্ত হওয়ায় বাড়ির মালিকরা প্রাপ্ত অর্থের জন্য শিক্ষার্থীদের উপর চাপ প্রয়োগ করছে। আমাদের অনেক শিক্ষার্থীর পরিবার আর্থিকভাবে অসচ্ছল হওয়ায় শিক্ষার্থীরা টিউশনি করে তাদের লেখাপড়া ও বাসা ভাড়ার ব্যয় নির্বাহ করতো। বর্তমান পরিস্থিতিতে টিউশনি বন্ধ থাকায় তাদের পক্ষে এই অর্থ প্রদান করা সম্ভবপর নয়। বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের প্রাণ শিক্ষার্থীদের এই দুর্দিনে আমাদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া একান্ত প্রয়োজন। পাশাপাশি স্থানীয় প্রশাসনের সাথে বসে আমাদের শিক্ষার্থীদের এই সমস্যার দ্রুত একটি স্থায়ী সমাধান করার জন্য আমরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে আহ্বান জানাচ্ছি। 

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, নোবিপ্রবির ইনফরমেশন সায়েন্স এন্ড লাইব্রেরি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মোঃ সাইফ উদ্দিন, রোলঃ ASH1824021M জটিল কিডনি রোগে আক্রান্ত হওয়ায় তার দুইটি কিডনি অকেজো হয়ে পড়ে। তার দ্রুত চিকিৎসার জন্য প্রচুর অর্থের প্রয়োজন যা তার পরিবারের পক্ষে বহন করা সম্ভব নয়। তাই সে বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের কাছে আর্থিক সাহায্যের আহ্বান জানিয়েছে। 
উভয় ক্ষেত্র বিবেচনায় নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির কার্যকরী পরিষদ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে যে, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের ১ (এক) দিনের বেতনের সমপরিমাণ অর্থের অর্ধেক অংশ অসচ্ছল শিক্ষার্থীদের মেস ভাড়া প্রদানে সহায়তার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে প্রদান করা হবে এবং বাকি অর্ধেক অংশ জটিল কিডনি রোগে আক্রান্ত শিক্ষার্থী মো. সাইফ উদ্দিনের চিকিৎসায় সহযোগিতার জন্য ব্যয় করা হবে। এ অর্থ আগামী দুই মাসে প্রদেয় বেতন থেকে সমান কিস্তিতে কর্তন করা হবে। 

অনিবার্যকারণে যদি কেউ এ অর্থ প্রদানে অনিচ্ছুক অথবা অপারগ হন তবে হিসাবপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) (মোবাইল নম্বর: ০১৭১৮১৫৫৪৭৪) বরাবরে আগামী ৯ জুলাই, ২০২০ বৃহস্পতিবারের মধ্যে লিখিতভাবে জানিয়ে অর্থপ্রদান থেকে বিরত থাকতে পারবেন। কেউ যদি ১ (এক) দিনের বেতনের বেশি অর্থপ্রদান করতে চান অথবা প্রশাসনিক দায়িত্বের ভাতাও প্রদান করতে চান, তবে হিসাবপরিচালককে জানিয়ে তাও করতে পারবেন। 

আমাদের এক দিনের বেতন সামান্য হলেও দেশের এই দুর্যোগ মুহূর্তে শিক্ষার্থীদের সহায়তায় অবদান রাখবে বলেই আমরা বিশ্বাস করি। সেই সাথে সকলের নিকট বিনীত অনুরোধ আপনারা স্ব স্ব অবস্থানে থেকে দেশের জন্য অবদান রাখার চেষ্টা অব্যাহত রাখবেন।


হবিগঞ্জে করোনা পরিস্থিতির ৪ মাসে ৩৩ খুন জেলা পুলিশের তথ্য

হবিগঞ্জে করোনা পরিস্থিতির ৪ মাসে ৩৩ খুন জেলা পুলিশের তথ্য




লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি

হবিগঞ্জ জেলায় করোনাকালে ৪ মাসে ৩৩খুন। করোনা আতঙ্কে যখন সারা দেশ কাবু সরকার, প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলাবাহিনী যখন করোনা নিয়ন্ত্রনে হিমশিম খাচ্ছে হবিগঞ্জে ঠিক তখনই মাথা ছাড়া দিয়ে উঠেছে অপরাধ প্রবণতা। ভাইয়ে-ভাইয়ে সংঘাত, পাড়া-প্রতিবেশিদের সংঘাত এমনকি শিশুদের ঝগড়াকে কেন্দ্র করে ঘটেছে খুনের ঘটনা। তাও একটি কিংবা দুটি নয়, করোনা পরিস্থিতির মাত্র চার মাসে হবিগঞ্জ জেলায় ঘটেছে ৩৩টি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা। দেশের অন্যতম ছোট এই জেলায় মাত্র ৪ মাসে ৩৩টি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করছেন সচেতন মহল। পুলিশ বলছে- আইনশৃঙ্খলার কোন অবনতি ঘটেনি। লকডাউনে সবাই ঘরবন্ধি থাকায় এবং দীর্ঘদিন পর অনেকে এলাকায় ফেরার ছোট-খাট বিষয় নিয়ে এসব হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।

জেলা পুলিশের তথ্যমতে- মার্চ থেকে জুন পর্যন্ত চারমাসে ৩৩টি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে মার্চ মাসে ১০টি, এপ্রিল মাসে ৬টি, মে মাসে ১০টি এবং জুন মাসে ৭টি খুনের ঘটনা ঘটেছে। এই চার মাসে হবিগঞ্জ জেলায় সংঘর্ষর ঘটনা ঘটেছে শতাধিক। এসব সংঘর্ষ-সংঘাতে আহত হয়েছে হাজারের উপরে। ব্যপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে অর্থ-সম্পদের। এর মধ্যে জেলার ৯ উপজেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে লাখাই ও মাধবপুর উপজেলায়।

এদিকে, এতো বিশাল সংখ্যক হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় সচেতন মহলের মধ্যে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। অনেকে দাবি করছেন জেলায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। আবার অনেকে বলছেন- এ চারমাস আইনশৃঙ্খলাবাহিনীকে করোনা মোকাবেলায় কাজ করতে হয়েছে। করোনার সার্বিক পরিস্থিতি সামাল দিতে গিয়ে দিনরাত পরিশ্রম করতে হয়েছে তাদের। যার ফলে সহসাই ঘটেছে এসব খুনের ঘটনা।

তবে পুলিশ বলছে ভিন্ন কথা। তাদের দাবি করোনা মোকাবেলায় পুলিশ কাজ করলে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির তেমন অবনতি ঘটেনি। এসব হত্যাকাণ্ডের মধ্যে গ্রাম্য-ধাঙ্গার তেমন কোন ঘটনা নেই। পারিবারিক কলহের জেরেই মূলত এসব খুনের ঘটনা ঘটেছে।

হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা বলেন-হবিগঞ্জ একটি দাঙ্গাপ্রবণ এলাকা। আমি হবিগঞ্জে যোগদানের পর গ্রাম্য দাঙ্গা প্রতিহত করতে লিফলেট বিতরণ করেছি পোস্টার ছাপিয়েছি, উঠান বৈঠক করেছি, স্কুলে স্কুলে বিভিন্ন অনুষ্ঠান করে গ্রাম্য দাঙ্গার কুফল সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সচেতন করেছি। ফলে জেলায় গ্রাম্য দাঙ্গা অনেকটা কমে এসছিল। আর কয়েকমাস সময় ফেলে হবিগঞ্জে দাঙ্গার সংখ্যা শুণ্যের কোটায় নামিয়ে আনতাম।’

তিনি আরো বলেন- করোনার কারণে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থির অবনতি হয়েছে সেটা বলা যাবে না, দাঙ্গার ঘটনায় বলা যায় আমি আমার জেলাকে আইন শৃঙ্খলা শিথিল ও শান্তিপূর্ণ রাখতে কাজ করে চলেছি।

মহম্মদপুরেৱ বিনোদপুরে পানিতে ডুবে শিশুৱ মৃত্যু

মহম্মদপুরেৱ বিনোদপুরে  পানিতে ডুবে শিশুৱ মৃত্যু

 

মোঃকুতুবুল আলম মহম্মদপুর(মাগুরা)
মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার বিনোদপুর  তল্লাবাড়িয়ায়   পুকুরের পানিতে ডুবে ২বছর বয়সি এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (৭ জুলাই) বিকাল  ৫ ঘটিকার সময়  উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের তল্লাবাড়িয়া  গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃত রাহুল বিশ্বাস  (২)  তল্লাবাড়িয়া গ্রামের সালাম বিশ্বাসের  ছেলে। জানা যায় ,  খেলতে খেলতে হঠাৎ করে  পুকুরের পড়ে যায় রাহুল। এবং সেখান থেকে পুকুরের পানিতে পরে যায় এবং একপর্যায়ে পুকুরের পানিতে ডুবে মৃত্যু হয় । পরে শিশুটিকে দেখতে না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা অনেক খোঁজাখুঁজির পর পুকুর থেকে তাকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে।
এ ঘটনায় পরিবারে চলছে শোকের মাতম।

ঝিনাইদহে আরও ১৪ জন করোনায় আক্রান্ত, উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু ২

ঝিনাইদহে আরও ১৪ জন করোনায় আক্রান্ত, উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু ২




সম্রাট হোসেন, শৈলকুপা(ঝিনাইদহ) সংবাদদাতাঃ

৮_৭_২০২০ইংতারিখের কোভিড-১৯ এর আপডেট তথ্য :
অফিসিয়াল ভাবে আমাদের কাছে কুষ্টিয়া_ল্যাব থেকে আরো ৩৯টিনমুনার ফলাফল এসেছে যার ২৫জন_নেগেটিভ এবং ১৪জন_নতুন_আক্রান্ত। 

মোট প্রাপ্ত ফলাফলের সংখ্যা২৩৫৬+৩৯=২৩৯৫
নেগেটিভ_২০৬২
আক্রান্ত_৩১৯+১৪=৩৩৩

মোট_সংগৃহীত_নমুনার_সংখ্যা_২৬৯৭

উপজেলা_ভিত্তিক_আক্রান্তের_মোট_সংখ্যা 
সদর_১০৩+৪=১০৭
শৈলকূপা_৪৯+৩=৫২
হরিনাকুন্ডু_১৬
কালীগন্জ_১০৮+৫=১১৩
কোটচাদপুর_২৩+২=২৫
মহেশপুর_২০

আক্রান্তদের_এলাকা_সমুহ_

ঝিনাইদহ_সদর_৪
১.গীতান্জলী সড়ক ২.খাজুরা ৩.উপশহর পাড়া ২নং ওয়ার্ড ৪.মজমাদার পাড়া 

কালীগন্জ_৫
১.থানা পাড়া ২.আড়পাড়া ৩.আড়পাড়া ৪.উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্টাফ ৫.বড় ধোপাদি, রাখালগাছি

শৈলকূপা_৩
১.কবিরপুর ২.শেখপাড়া ৩.নগর পাড়া 

কোটচাঁদপুর_২
১.টিএন্ডটি পাড়া ২.কুশনা

​মোট_সুস্থতার_সংখ্যা_১১৪+২=১১৬

উপজেলা_ভিত্তিক_সুস্থতার_সংখ্যা

সদর_৩১+২=৩৩
শৈলকূপা_১৬
হরিনাকুন্ডু_৬
কোটচাঁদপুর_১৮
কালীগন্জ_৩৮
মহেশপুর_৫

কোভিড_১৯_হাসপাতালে_ভর্তি_রোগীর_সংখ্যা_৮

মোট_মৃত্যুর_সংখ্যা_৬
শৈলকূপা_৩
কালিগন্জ_৩
উল্লেখ্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে করোনার উপসর্গ নিয়ে দুইজন মারা গেছে। শৈলকুপা উপজেলার মিনগ্রামের রাকিব(৩৪) এবং কালীগঞ্জ উপজেলার ফয়লা গ্রামের দাস পাড়ার রতন মুন্সি   নামের এক যুবক।


কালভার্টে রডের পরিবর্তে বাঁশ ব্যবহার করায় ইউপি সদস্য বরখাস্ত

কালভার্টে রডের পরিবর্তে বাঁশ ব্যবহার করায় ইউপি সদস্য বরখাস্ত




স্টাফ রিপোর্টার, আর.জে মিজানুর রহমান ইমন,

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার ১২ নম্বর আছিম পাটুলি ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বার ইউড্রেইন (কালভার্ট) নির্মাণে রডের পরিবর্তে বাঁশ ব্যাবহার করায় মোহাম্মদ আলী আলম কে (৭ জুলাই) মঙ্গলবার বরখাস্ত করেছে স্থানীয় সরকার বিভাগ । 

জানা গেছে এই ইউপি সদস্য, এলুঙ্গি কান্দানিয়া রাস্তার কালির চালা থেকে পান্নাবাড়ি রাস্তার তালেব আলীর ক্ষেতের পাশে খাপসার খালে  ইউড্রেইন নির্মাণ কাজে রডের ব্যাবহার না করে বাশঁ দিয়ে ঢালাইয়ের কাজ করায় আলম কে বরখাস্ত করা হয়েছে ।

 ইউড্রেইন নির্মাণে অনিয়মের বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে ।

সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের সাথে নবীননগর থানার নব নিযুক্ত ওসির মতবিনিময়

সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের সাথে নবীননগর থানার নব নিযুক্ত ওসির মতবিনিময়



এস.এম অলিউল্লাহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ

সাংবাদিক ঐক্য পরিষদ নবীনগর উপজেলা শাখার সাংবাদিক বৃন্দের সাথে নবীনগর থানার নব নিযুক্ত ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধরের থানা অডিটরিয়ামে মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সেকেন্ড অফিসার জসিম উদ্দিনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সঞ্জয় শীল,  সাধারণ সম্পাদক মো.শরীফ উদ্দিন রনি সহ অন্যানরা।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন মোঃ মাইদুল ইসলাম চৌধুরী, এসএম অলিউল্লাহ, প্রবীর  ভৌমিক শান্ত, মো. আনিছুর রহমান,  মো. মেহেদী হাসান, ডিএমসি রকিব, মো. আব্দুল্লা সহ সংশ্লিষ্টরা।
মত বিনিময় সভায় সাংবাদিকের সাথে পরিচিতি শেষে নবীনগরের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন, এছাড়াও নবীনগরের সার্বিক উন্নয়নের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানিয়েছেন।

সকল অপকর্ম, মাদক ও বিশেষ করে ইয়াবা নামক মরণ নেশার হাত থেকে নবীনগরকে রক্ষা করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন নতুন ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর।
এছাড়াও নবীনগরের উন্নয়নের উদ্দেশ্যে নবীনগরবাসীর সার্বিক সহযোগীতা ও ঐক্যবদ্বতা কামনা করেছেন।

তবে সভার শুরুতেই নতুন ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর নবীনগরবাসীকে আহ্বান জানিয়েছেন, সবাই সবার প্রতি সহানুভূতিশীল হয়ে থাকতে এবং দাঙ্গা হাঙ্গামা থেকে দূরে থাকার জন্য সবাইকে সাহিত্য চর্চা করা ও সাংস্কৃতিমূলক কর্মকাণ্ডে নিজেদের ব্যস্ত রাখতে বলেছেন।
এমন সুন্দর কথা দিয়ে শুরু হওয়া সভাটি বেশ শান্তিপূর্ণ ভাবে অনের আলোচনার মধ্যদিয়ে শেষ হয়।