অপ-সাংবাদিকতা বাদ দিতে হবে___ সেক্রেটরি বাংলাদেশ সাংবাদিক উন্নয়ন সংস্থা ( bjdo )

অপ-সাংবাদিকতা  বাদ দিতে হবে___ সেক্রেটরি বাংলাদেশ সাংবাদিক উন্নয়ন সংস্থা ( bjdo )




কুষ্টিয়া প্রতিনিধি।। 

নবগঠিত বাংলাদেশ সাংবাদিক উন্নয়ন সংস্থা ( bjdo )র কেন্দ্রীয় কমিটির প্রকাশ ও সাংগঠনিক কার্যক্রম শুরু উপলক্ষে  সকল সদস্যদের অভিনন্দন জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় কমিটির সেক্রেটারি মোঃআবির ইসলাম

সাংবাদিকতা একটি মহান পেশা, এ পেশার প্রতি দুর্বলতা রয়েছে অধিকাংশ সচেতন মানুষের। কিন্তু সাংবাদিকতা পেশায় যেমন রয়েছে ঝুঁকি, তেমন রয়েছে সম্মান ও রোমাঞ্চ।

অপসাংবাদিকতা বাদ দিলে এ পেশায় যেটুকু থাকে তার সবটুকুই আত্মতৃপ্তি পাওয়ার জন্য একটি স্বাধীন পেশা হলো সাংবাদিকতা।

আবির ইসলাম বলেন,  সন্দেহ নেই যে সাংবাদিকতা হচ্ছে সবচেয়ে সুন্দর ও সম্মানজনক পেশাগুলোর মধ্যে অন্যতম। এর পেছনে কারণ হিসেবে বলা যায় - যারা সাংবাদিকতার সাথে সম্পৃক্ত, তারা সবার সামনে তথ্য ও সত্যকে তুলে ধরেন। এই তুলে ধরার কাজটা মোটেও সহজ নয়। অবশ্যই তা কঠিন ও ঝুঁকিপূর্ণ।

সাংবাদিকরা এই চ্যালেঞ্জকে মোকাবেলা করেন প্রতিনিয়ত। কিন্তু এত কিছুর পরেও আজ সাংবাদিকরা হতে হচ্ছে সুবিধা বঞ্চিত, অবহেলিত, লাঞ্ছিত।

তবে সময় হয়েছে এখন এইসব লাঞ্ছনা-গঞ্জনার ইতি টানার, প্রতিবাদের ঝড় তুলে নিজেদের অধিকার আদায়, সম্মান অর্জন করে সামনে এগিয়ে যাওয়ার।

বাংলাদেশ সাংবাদিক উন্নয়ন সংস্থার কেন্দ্রীয় কমিটির সেক্রেটারি বলেন বাংলাদেশ সাংবাদিক উন্নয়ন সংস্থার মাধ্যমে ইনশাআল্লাহ্ আমরা সকলে মিলে সাংবাদিকদের উন্নয়নে সাথী হব, সাথে থাকব বলে নিজের অভিব্যক্তি ব্যক্ত করেছেন ।

কয়রায় নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার অনিমেশ বিশ্বাসের যোগদান

কয়রায় নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার অনিমেশ বিশ্বাসের যোগদান





কয়রা(খুলনা)প্রতিনিধিঃ খুলনার কয়রা উপজেলায় নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার অনিমেশ বিশ্বাস  গত ১০ জুলাই কর্মস্থল কয়রায় যোগদান  করেন এবং ১২ জুলাই দায়িত্ব গ্রহন করবেন। যশোর জেলার এ কৃতি সন্তান ইতিমধ্যে ঝিনাইদহ জেলার হরিনাকুন্ড উপজেলায় সহকারী কমিশনার (ভুমি) হিসাবে কর্মরত ছিলেন। ৩৩ তম বিসিএস প্রশাসনের এ কর্মকর্তা পদোন্নতি পেয়ে গত ২ জুলাই কয়রা উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসাবে খুলনা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে যোগদান করেন।  এর আগে তিনি সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলায় সহকারী কমিশনার (ভুমি) হিসাবে সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করেছেন। নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার অনিমেষ বিশ্বাস সরকারি দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে পারে তার জন্য তিনি কয়রার সকল শ্রেনী পেশার মানুষের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

চৌগাছা ছাত্রলীগের ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম,প্রশাসনের সুদৃষ্টি না পেলে কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা!

চৌগাছা ছাত্রলীগের ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম,প্রশাসনের সুদৃষ্টি না পেলে কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা!




স্টাফ রিপোর্টারঃ  
চৌগাছায় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইব্রাহীম হুসাইনের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার পর থেকেই উপজেলা ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতা কর্মীরা চৌগাছা বাজারে একত্রিত হয়ে বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ ও টায়ারে আগুন ধরিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে। নেতা কর্মীরা এসময় শহরের সমস্ত গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দেয়। সকাল থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত বিক্ষোভ করে উপজেলা ছাত্রলীগ।
বিক্ষোভের এক পর্যায়ে চৌগাছা থানার ওসি রিফাত খান রাজীব এসে ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের সাথে কথা বলেন। দোষীদেরকে দ্রুত গ্রেফতার করা হবে বলে তিনি তাদেরকে আশ্বাস দেন।

উপজেলা ছাত্রলীগের চৌগাছা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুজ্জামান রাজুর নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সাদেক হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক রাজু আহমেদ, দপ্তর সম্পাদক হাসেম আলী, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা হাসান রেজা, সৌরভ রহমান বিপুল, সাইফুর রহমান সুমন, পৌর ছাত্রলীগ নেতা, মিনহাজুর রহমান জিসাদ, কাইয়ুম হোসেন, পাভেল হোসেন, অমি, তুষার, সম্রাট, স্বপ্ন, ইমন, সাজু হোসেন, সাগর হোসেন, সোহান রহমান, ধুলিয়ানী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি রেফাউন হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আলামিন হোমেন, দপ্তর সম্পাদক ইমরান হোসেন, পাশাপোল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সবুজ হোসেন, পাশাপোল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সোহাগ, সহ সম্পাদক মোঃ সবুজ হোসেন, ছাত্রনেতা,শান্ত,ছাত্রনেতা  হাসিবুল ইসলাম শান্ত, সহ সম্পাদক মোঃ জামির হোসেন জগদীশপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক ইসতিয়াক আহমেদ অমি, যুগ্ন-আহবায়ক আশরাফুল ইসলাম , সদস্য রুবেল হোসেন, আশরাফ,জিহাদ, চৌগাছা সদর ইউনিয়নের যুগ্ন-আহবায়ক জিহাদ হোসেন, সদস্য সাগর কুমার, পাতিবিলা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক আলমগীর কবির, যুগ্ন-আহবায়ক আকিমুল ইসলাম, সদস্য নাসিম রেজা, আকাশ হোসেন, জহুর ইসলাম, নারায়নপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহবায়ক আমজেদ হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা, অন্তু ইসলাম, আশিক হোসেন,হাকিমপুর ছাত্রলীগ নেতা আরাফাত হোসেন, সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আশিকুজ্জামান রিংকু, সাধারণ সম্পাদক মিকাইল ইসলাম সোহেল, চৌগাছা এবিসিডি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি রাসেদ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক সিপন হোসেনসহ উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা বিক্ষোভে অংশগ্রহন করেন।
বিক্ষোভে মিছিল ও সমাবেশে অংশগ্রহন করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এসএম রেজওয়ার হাবীব আলিফ, আশরাফুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্ররীগের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা যুবলীগের যগ্ম-আহবায়ক শরিফুল ইসলাম,যুবলীগ নেতা আনিছুর দেওয়ান,ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা মিলন, ধূলিয়ানী ইউনিয়নের সাবেক ছাত্রলীগের সভাপতি তৌফিকুজ্জান মিঠু প্রমুখ
বিক্ষোভ সমাবেশে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক রাজু বলেন আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে সভাপতি ইব্রাহীমের উপর হামলাকারিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন ও গ্রেফতার করা না হলে কঠোর আন্দোলনে নামবে উপজেলা ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা।



উল্লেখ্য শুক্রবার রাত ৮ টা দিকে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ইব্রাহীম হুসাইন ও তার সঙ্গী মিঠুন মটর সাইকেলে নিজ বাড়ি বেড়গোবিন্দপুর গ্রামে ফিরে আসার সময় সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন। সন্ত্রাসীরা ইব্রাহীমের দুই পা ভেঙ্গে ফেলে ও এক পায়ের রগ কেটে দেয় এবং সঙ্গী মিঠুনকে মাথা ফাটিয়ে ফেলে। তারা দুজনেই এখন যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতাওে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় ১১ জুলাই ইব্রাহীমের বড় ভাই মিলন বাদী হয়ে ১৩ জনের নামে চৌগাছা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-৬ ।



চৌগাছা থানার ওসি রিফাত খান রাজীব ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন কেউই আইনের উর্ধ্বে না। উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইব্রাহীম ও সঙ্গী মিঠুনের উপর হামলাকারিদেও অচিরেই গ্রেফতার করা হবে। আপনারা আমাদের একটু আসামী ধরার জন্য সহযোগীতা করবেন।

"সিঙ্গাপুরে নতুন ১৭০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত

"সিঙ্গাপুরে নতুন ১৭০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত




মোঃনাইম শেখ, সিঙ্গাপুর প্রতিনিধি 

আজকে ১১ জুলাই (দুপুর ১২ টা পর্যন্ত) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া সর্বশেষ তথ্যমতে,সিঙ্গাপুরে আজকে নতুন ১৭০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয়েছে।সিঙ্গাপুরে এখন পর্যন্ত মোট ৪৫৭৮৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত করা হয়েছে। 

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আজকে আক্রান্তদের মধ্যে ৭ জন সিঙ্গাপুরিয়ান বা পার্মানেন্ট রেসিডেন্স,১৭ জন ওয়ার্ক পাশ হোল্ডার যারা ডরমিটরির বাহিরে বাস করেন। ১ জন বিদেশ ফেরত এবং বাকি সবাই ওয়ার্ক পাশ হোল্ডার যারা ডরমিটরিতে বাস করেন। 

করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে ১০ জুলাই ১৩৫ জন হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন।এই পর্যন্ত মোট ৪১৭৮০ জন হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন৷ 

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এই পর্যন্ত সিঙ্গাপুরে ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। 

২০৩ জন এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন৷ এরমধ্যে ১ জনের অবস্থা গুরুতর। তাদেরকে আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে৷ ৩৬০৪ জনের অবস্থা ক্লিনিক্যালি ভালো কিন্তু পরীক্ষায় করোনাভাইরাস পজিটিভ হওয়ায় তাদেরকে অন্য রোগীদের কাছ থেকে আলাদা রাখা ও যত্নের জন্য অন্যত্র সরিয়ে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে৷

নীলফামারী পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল’র রোগ মুক্তিতে দোয়া

নীলফামারী পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল’র রোগ মুক্তিতে দোয়া






মো:লাতিফুল  আজম
কিশোরগঞ্জ  নীলফামারী  প্রতিনিধি 


নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নীলফামারী পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহম্মেদের রোগ মুক্তি কামনায় কিশোরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ আজ শনিবার দোয়া মাহফিল করেছে। বিকাল ৫ টায় সফি মিয়া মার্কেটে উপজেলা আওয়ামী লীগ অফিসের সামনে এ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোঃ জাকির হোসেন বাবুলের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মশিয়ার রহমান, সাবেক যুবলীগ নেতা ফনি ভুষন মজুমদার, উপজেলা নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম সাজু, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি ফজলে রহমান , উপজেলা জাপা সমন্বয়ক মজিদুল ইসলাম মিন্টু, জনকল্যাণ ফোরামের সাধারণ সম্পাদক একেএম সাইয়েদ হোসেন সাবুল প্রমুখ।
দোয়া পরিচালনা করেন উপজেলা জামে মসজিদের পেশ ইমাম আব্দুল আলিম । সামাজিক দূরত্ব মেনে এ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য দুঃসংবাদ

সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য দুঃসংবাদ




নিজস্ব  প্রতিবেদক

প্রতি বছর আইন অনুযায়ী সরকারি চাকরিজীবীদের ঈদ বোনাস হয়। এতে কোনো জটিলতা থাকে না। কিন্তু এবার জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে ক্যালেন্ডার ও চাঁদ দেখার তারিখ নিয়ে।
অর্থ মন্ত্রণালয়ের আইনে বলা আছে, উৎসব যে মাসে অনুষ্ঠিত হবে এর আগের মাসের আহরিত মূল বেতনের সমান বোনাস পাবেন চাকরিজীবীরা।
ফলে আসন্ন কোরবানির ঈদ ৩১ জুলাই অনুষ্ঠিত হলে ১৩ লাখ সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর পরবর্তী মাসের বেতন বা পেনশন থেকে অতিরিক্ত দেয়া ঈদ বোনাসের অর্থ কেটে নেয়া হবে।
আর যদি ১ আগস্ট ঈদুল আজহা অনুষ্ঠিত হয়, তাহলে বর্ধিত বোনাস কাটা হবে না। এমন শর্তে সরকারি চাকরিজীবীদের ঈদ বোনাস দেয়ার ব্যাপারে মতামত দিয়েছে অর্থ মন্ত্রণালয়।

নিয়ম অনুযায়ী ১ আগস্ট ঈদ হলে জুলাইয়ের মূল বেতনের সমান বোনাস পাবেন। কিন্তু ২০১৫ সালে অষ্টম জাতীয় বেতন কাঠামো বাস্তবায়নের পর থেকে প্রতি বছর জুলাই মাসে ৫ শতাংশ হারে ইনক্রিমেন্ট পাচ্ছেন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। ফলে জুলাইয়ে আহরিত মূল বেতন সাধারণত অন্য মাসের তুলনায় বেশি হয়। কারণ এ মাসে মূল বেতন ৫ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। ফলে ১ আগস্ট ঈদুল আজহা অনুষ্ঠিত হলে একজন চাকরিজীবী ইনক্রিমেন্টসহ মূল বেতনের সমান বোনাস পাওয়ার কথা। আর ৩১ জুলাই ঈদ অনুষ্ঠিত হলে বোনাস পাবেন জুনের মূল বেতনের সমান। ফলে ঈদের দিন হিসাব করে বোনাস দেয়া নিয়ে জটিলতায় পড়ে সিএজি কার্যালয়।
অর্থ মন্ত্রণালয়ের সূত্রে জানা যায়, দিন-তারিখের এ জটিলতায় সরকারের বর্ধিত বোনাসে অতিরিক্ত ব্যয় ১৩০ থেকে ১৪০ কোটি টাকা বেশি হবে। তবে বোনাস ইস্যুর পর ৩১ জুলাই ঈদ অনুষ্ঠিত হলে এ টাকা সমন্বয় করা হবে চাকরিজীবীদের হিসাব থেকে

নাটোর বাগাতিপাড়ায় ট্রেনের ধাক্কায় একজন নিহত

নাটোর বাগাতিপাড়ায় ট্রেনের ধাক্কায় একজন নিহত




 
রাজশাহী ব্যুরো
নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলায় ট্রেনের ধাক্কায় এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আজ শনিবার দুপুরে ২৪ নম্বর ধুলাউড়ি ব্রিজের কাছে রংপুর এক্সপ্রেস   ট্রেনের ধাক্কায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তির নাম আইয়ুব আলী। তিনি উপজেলার ধুলাউড়ি গ্রামের মৃত আজির উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা  জানান,
ধুলাউড়ি এলাকায় রেলপথ পার হওয়ার সময় রংপুর এক্সপ্রেসের ট্রেনের ধাক্কা আইয়ুব আলি ছিটকে পরে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি নিহত হন।

লালপুরে কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশনের মানববন্ধন

লালপুরে কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশনের মানববন্ধন





রাজশাহী ব্যুরোঃ 
প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে ক্ষতিগ্রস্থ কিন্ডারগার্টেন ও সমমানের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নিদারুন অর্থকষ্ট লাঘবে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে প্রণোদনা প্রাপ্তির প্রত্যাশায় দেশব্যাপী মানববন্ধনের অংশ হিসেবে নাটোরের লালপুরে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার ( ১১ জুলাই) লালপুর উপজেলা পরিষদের সামনে বাংলাদেশ কিন্ডারগার্টেন ঐক্য পরিষদের ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে লালপুর উপজেলা কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশনের আয়োজনে এ কর্মসুচি পালন করা হয়।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন লালপুর উপজেলা কিন্ডারগার্টেন এসোসিয়েশনের সভাপতি সাইদুজ্জামান লিটন, সাধারন সম্পাদক রাজিব হোসেন, আসলাম হোসেন, সাইফুল ইসলাম, সামসুদ্দিন সুমন প্রমুখ।

মানববন্ধনকালে বক্তারা বলেন, করোনা প্রার্দুভাবের পর থেকে কেজি স্কুল গুলো বন্ধ রয়েছে। শিক্ষক-কর্মচারীরা মানবেতর জীবনযাপন করছেন। মানবতার জননী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আকুল নিবেদন দ্রুত আমাদের শিক্ষক-কর্মচারীদের জন্য প্রণোদনার মাধ্যমে তাদের কষ্ট লাঘবের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য।

বড়দলে জেলে যাচাই বাছাই শুরু

বড়দলে জেলে যাচাই বাছাই শুরু




 আহসান  উল্লাহ  বাবলু, আশাশুনি( সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ
আশাশুনি উপজেলার বড়দলে জেলে যাচাই বাছাই শুরু হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে যাচাই বাছাই কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে।
সরকার জেলেদের সুযোগ সুবিধা সৃষ্টিসহ সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে তাদেরকে সংশ্লিষ্ট করতে জেলেদের তালিকা প্রস্তুত করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন। এরই আওতায় ইতিপূর্বে জেলেদের তালিকা প্রস্তুত করে, যাচাই বাছাই শেষে জেলে কার্ড প্রদান করা হয়। বাদ পড়া জেলেদের তালিকা প্রস্তুতসহ জেলেদের তালিকা যাচাই বাছাই কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। বড়দল ইউনিয়নের ট্যাগ অফিসার উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা মোঃ করিমুল হক যাচাই কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। এসময় স্থানীয় জন প্রতিনিধি ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। শুক্রবার ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের জেলেদের যাচাই কাজ করা হচ্ছে।

শ্রীউলায় ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত

শ্রীউলায় ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত




আহসান উল্লাহ  বাবলু আশাশুনি সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ আশাশুনি উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের মাড়িয়ালায় অসহায় বানভাসী মানুষের স্বাস্থসেবা নিশ্চিত করতে ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল ৯টায় থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত মাড়িয়ালা মোড়স্থ বিসমিল্লাহ চিকিৎসালয়ে এ ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। সাতক্ষীরাস্থ আল নূর হাসপাতালের উদ্যোগে ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্পটির শুভ উদ্বোধন করেন আল নূর হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক গোলাম রহমান। শ্রীউলা এলাকার সকল শ্রেণী পেশার মানুষের এসময় চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন, ঢাকা গাজীপুরস্থ তাইরুন্নেছা মেমোরিয়াল মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের এক্স লেকচারার ডাঃ নাইমুল ইসলাম (এমবিবিএস, ডিওসি, সিসিডি) ও জেনারেল প্রাকটিশনার ডাঃ আহসান উল্লাহ। আল নূর হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা গোলাম রব্বানীর সার্বিক পরিচালনায় ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্পটিতে ২ শতাধিক রোগীকে বিশেষ ক্ষেত্রে ইসিজি ও আরবিএস পরীক্ষাসহ প্রয়োজনীয় ঔষধ ও চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়।  আল নূর হাসপালের স্ট্রাফবৃন্দের সহায়তায় এসময় সুপার সাইক্লোন আম্পানের তান্ডবে সর্বস্ব হারানো শ্রীউলার বানভাসী মানুষ ফ্রী চিকিৎসা সেবা পেয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

বুড়িচং উপজেলায় যুবলীগের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির আয়োজন

বুড়িচং উপজেলায় যুবলীগের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির আয়োজন




মারুফ হোসেন -বুড়িচং(কুমিল্লা) প্রতিনিধিঃ


কুমিল্লা জেলার বুড়িচং উপজেলায় "মুজিব বর্ষের অঙ্গিকার তিনটি করে গাছ লাগান" এ শ্লোগানকে সামনে রেখে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের নির্দেশনায় বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি ২০২০ পালিত হয়। ১১ জুলাই শনিবার বুড়িচং উপজেলার চত্বর, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ইউনিয়ন পরিষদের প্রাঙ্গণে বিভিন্ন প্রজাতির ফুল ও ফলের চারা গাছ রোপণ করা হয়।       

পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় গাছপালা প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। অক্সিজন, জালানি,আসবাবপত্র,বাড়িঘর ফলমূল, খাদ্য সব কিছুর প্রধান উৎস গাছপালা। পরিবেশ রক্ষার একটি অপরিহার্য উপাদান। পর্যাপ্ত পরিমান গাছপালা না থাকলে আমাদের বেঁচে থাকার বিঘ্ন ঘটায়। তারই ধারাবাহিকতায় বুড়িচংয়ে যথাযথভাবে দায়িত্ব নিয়ে চারাগাছ রোপণ করা হয়।          
 
বুড়িচং উপজেলার যুবলীগের সকল নেতাকর্মীরা উপস্থিত থেকে  চারাগাছ লাগানোর জন্য উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে নিজেরা চারাগাছ গুলো রোপন করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন বুড়িচং থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও যুবলীগ নেতা মোঃ জালাল উদ্দীন, ভিক্টোরিয়া কলেজের সাবেক ছাত্র লীগ নেতা,বর্তমান যুবলীগ নেতা প্রভাষক মোঃ ইকবাল হোসেন, বিশিষ্ট ব্যাংকার, সমাজ সেবক ও যুবলীগ নেতা মনিরুল হক হিরু, যুবলীগ নেতা মতিউর রহমান আলী, মোঃ আক্তার হোসেন, মনিরুজ্জামান তুহিন, মোঃ শামীম উদ্দিন, মোঃ জয়নাল আবেদীন, সার্জেন্ট অবসর প্রাপ্ত সাদেকুর রহমান, মিজানুর রহমান রেজবী, জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এনামুল হক, ভিক্টোরিয়া কলেজ ও বুড়িচং উপজেলার সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মেহেদী হাসান মুরাদ, ছাত্রলীগ নেতা মুরসালিন, জিহাদ, হাসান, আঃ রহিম, শাকিব, শাহিন, সিয়াম প্রমুখ। 
বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ ও জননেত্রী শেখ হাসিনার নীতি অনুসরণ ছিল কর্মসূচির মূল অঙ্গীকার

জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে করোনা ও অর্থনৈতিক সংকটের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমরা কাজ করছি : রেজাউল করিম চৌধুরী

জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে করোনা ও অর্থনৈতিক সংকটের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমরা কাজ করছি : রেজাউল করিম চৌধুরী





রিয়াজুল করিম রিজভী প্রতিনিধি চট্টগ্রামঃ-

চট্টগ্রামে কোভিড, নন কোভিড সকল প্রকার রোগীদের চিকিৎসা সেবা সুনিশ্চিত করতে ‘হ্যালো ডাক্তার’ কর্মসূচীর উদ্বোধন করলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও চসিক মেয়র পদপ্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী।

নগরবাসীকে ভ্রাম্যমান চিকিৎসা কেন্দ্রের মাধ্যমে বিনামূল্যে ঘরে ঘরে জরুরী চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দিতে ‘হ্যালো ডাক্তার’ কর্মসূচীতে সার্বিক সহযোগিতা দিচ্ছেন এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী ফাউন্ডেশন ও মোস্তফা হাকিম ফাউন্ডেশন। ০১৮১৯৫১১১৫০ ও ০১৮৬৬১৭১৭১০ নম্বরে কল করেই নগরীর যে কোন প্রান্তের মানুষ পাবেন জরুরী চিকিৎসা সেবা ও হোম সার্ভিস।

১০ জুলাই শুক্রবার ৩২ নং আন্দরকিল্লা ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জহর লাল হাজারীর ব্যবস্থাপনায় ‘হ্যালো ডাক্তার’ কর্মসূচীর উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন ২২ নং এনায়েত বাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর সলিমুল্লাহ বাচ্চু, ২২, ২৩, ৩১ নং ওয়ার্ড সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর নীলু নাগ, ৩৪ নং পাথরঘাটা ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী পুলক খাস্তগীর, ৩১ নং আলকরন ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী আব্দুস সালাম মাসুম, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদপ্রার্থী আন্জুমান আরা, রুমকি সেনগুপ্ত, কোতোয়ালী থানা আওয়ামী লীগ এর সহ সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, রতন আচার্য্য, বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সাধারণ সম্পাদক ডা: সজীব তালুকদার,  মহানগর ছাত্রলীগ এর সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া দস্তগীর প্রমূখ।

জহরলাল হাজারীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ও কর্মসূচীর উদ্বোধক হিসেবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মেয়র প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, বীর চট্টলার মানুষ কখনোই বিনাযুদ্ধে পরাজয় স্বীকার করতে পারেনা। করোনার সংক্রমনের প্রবলতা প্রাপ্তির শুরুতে চিকিৎসা সেবা দিতে বেসরকারী হাসপাতালের গড়িমসির কারনে চট্টগ্রামে চিকিৎসা সেবায় বিপর্যয়ের আশংকা দেখা দিলে চট্টগ্রামের আওয়ামী নেতৃত্ব নাগরিক উদ্যোগের মাধ্যমে সংকট মোকাবেলায় এগিয়ে আসে। সাহসী ও মানবিক ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী ও বিত্তবান অনেকের সহায়তা নিয়ে একটি চিকিৎসা শৃঙ্খলা তৈরী করতে আমরা সক্ষম হয়েছি। তাই, চট্টগ্রামে চিকিৎসা সংকটের সে ভয়াবহতা এখন আর নেই বললেই চলে। সরকারী হাসপাতাল ও করোনা বিশেষায়িত হাসপাতাল সমূহের উপর অতিরিক্ত চাপ কমাতে বিনামূল্যে দিবারাত্র ভ্রাম্যমান চিকিৎসা কার্যক্রম ‘হ্যালো ডাক্তার’ সর্বিশেষ ভূমিকা রাখতে সক্ষমতা দেখাতে পারবে বলে আমি আশাবাদী। 

মহান মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী আওয়ামী লীগ ও মুজিবাদর্শের সৈনিকেরা যে কোন বিপর্যয়কে চ্যালেঞ্জের সাথে মোকাবেলা করতে জানে। বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে করোনা ও অর্থনৈতিক সংকটের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমরা কাজ করছি। মহান রাব্বুল আল আমিনের রহমতে ও সকলের সহায়তায় আমরা এ চ্যালেঞ্জে নিশ্চয়ই জয়ী হব ইনশ্ আল্লাহ্।

নূরনগর সাংবাদিক ফোরামের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে-হেদায়েতুল্লাহ সভাপতি মনির সম্পাদক

নূরনগর সাংবাদিক ফোরামের  দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে-হেদায়েতুল্লাহ সভাপতি মনির সম্পাদক





এস.এম অলিউল্লাহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার নূরনগর সাংবাদিক ফোরামের দ্বি-বার্ষিক (২০২০-২০২২) মেয়াদে কার্যকরী কমিটি গঠন করা হয়েছে।

চলতি কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে দেশে করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে বিলম্বিত হলেও অাজ ১০ জুলাই শক্রবার বিকালে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে চলতি কমিটির সাধারণ অধিবেশন ডাকা হয় নূরনগর সাংবাদিক ফোরাম কার্যালয়ে।

উক্ত সম্মেলনে নূরনগর সাংবাদিক ফোরামের সকল সদস্যরা উপস্থিত থেকে দেশের এই আপদকালীন সময়ে কমিটি গঠন নিয়ে ব্যাপক পরিসরে প্রস্তুতি না নিয়ে সমন্বয়ের মাধ্যমে গণতান্ত্রিকভাবে একটি শক্তিশালী গ্রহনযোগ্য ও উদার নেতৃত্ব গঠনের উপর জোর প্রস্তুতি গ্রহণ করেন।

এসময় নূরনগর সাংবাদিক ফোরামের সকল সদস্যরা চলমান বিভিন্ন বিষয় বিবেচনা করে সাংগঠনিক কাঠামোতে পরিবর্তন আনতে ঐক্যমত পোষণ করে নূরনগর সাংবাদিক ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি দৈনিক আমার কাগজ পত্রিকার নবীনগর প্রতিনিধি হেদায়েতুল্লাহ কে সভাপতি ও চলতি কমিটির সাধারণ সম্পাদক দৈনিক অালোর জগৎ পত্রিকার ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি একটিভ মনির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে উপস্থিত সদস্যদের মধ্য থেকে প্রস্তাব আনলে সর্বসম্মতিক্রমে তারা নির্বাচিত হয়।

এছাড়াও অন্যান্য পদে সকলের মতামতের ভিত্তিতে নির্বাচিত হয়েছেন সিঃ সহ সভাপতি অাবু সুফি ফতেহ অালী (দৈনিক অালোকিত সকাল), সহ সভাপতি মাসুম মির্জা (দৈনিক গণজাগরণ), যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক খাইরুল এনাম (দৈনিক আজকের প্রভাত),
সহ যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক রুবেল( দৈনিক বিজনেস প্রতিদিন), সাংগঠনিক সম্পাদক সায়্যিদ আহমাদ রাফি (দৈনিক বিশ্ব মানচিত্র), মোঃ মহসীন মোল্লা
অর্থ সম্পাদক জুয়েল রানা(নবীনগর টিভি), তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক মোঃ আনোয়ার হোসেন(সম্পাদক নূরনগর টিভি), দপ্তর সম্পাদক ইকবাল হোসেন মুন্না( দৈনিক মুক্ত আওয়াজ), প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এস এম অলিউল্লাহ (দৈনিক কপোতাক্ষ নিউজ)

কার্যকরী সদস্য মোঃ হেফজুল বাহার(দৈনিক মার্তৃজগৎ), সাজু আক্তার প্রেমা (নূরনগর টিভি), ডা. মোশারফ হোসেন।

নির্বাচন কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন হেফজুল বাহার ও সাজু অাক্তার প্রেমা।

উল্লেখ্য সংগঠনের বৃহত্তর স্বার্থে একতা ও সম্প্রীতির উজ্জ্বল নিদর্শন স্থাপন করে নূরনগর সাংবাদিক ফোরামের সকল সদস্যরা আন্তরিকতা ও সহমর্মিতার বহিঃপ্রকাশ স্বরূপ এমন নজির সৃষ্টি করলেন।

সেখানে সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতিকে কার্যকরী কমিটিতে ফিরিয়ে আনতে সভাপতি ও চলতি কমিটির সাধারণ সম্পাদক কে পূণরায় সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্বশীল ভূমিকা রেখে সাংগঠনিক কাজে তাদের আন্তরিকতা আর একে অপরের প্রতি সম্মান প্রদর্শনের দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

শৈলকুপা উপজেলা বি এন পি নেতার দাদির মৃত্যু

শৈলকুপা উপজেলা বি এন পি নেতার দাদির মৃত্যু




সম্রাট হোসেন, শৈলকুপা ( ঝিনাইদহ) সংবাদদাতাঃ

শৈলকুপা উপজেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এবং বর্তমান উপজেলা বিএনপির যুগ্ন আহবায়ক সাজ্জাদুর রহমান সাজ্জাদের  দাদি ১০৫ বছর বয়াসে তার নিজ গ্রাম ব্রাহিমপুরে দুপুর ২ টার সময় মারা গেছেন। তার মৃত্যুতে গভীর ভাবে শোক প্রকাশ করেছে বাবু জয়ন্ত কুমার কুণ্ড, সহ - সাংগঠনিক সম্পাদক   কেন্দ্রীয় বিএনপি। আরও শোক প্রকাশ করেছেন ঝিনাইদহ -১ শৈলকুপা আসনের সাবেক সাংসদ আলহাজ আব্দুল ওহাব। উল্লেখ্য এই ভদ্র মহিলা গ্রামের সব থেকে বেশি  বয়সী ছিলেন।

শৈলকুপায় স্বামী- স্ত্রী এক সাথে বিষ পান, স্বামীর মৃত্যু

শৈলকুপায় স্বামী- স্ত্রী  এক সাথে বিষ পান, স্বামীর মৃত্যু




সম্রাট হোসেন,শৈলকুপা ( ঝিনাইদহ) সংবাদদাতাঃ

শৈলকুপায় স্বামী স্ত্রীর একসঙ্গে বিষপান এঘটনায় স্বামী সাইফুল ইসলাম (৬৫) এর মৃত্যু হয়েছে।  

মায়ের সাথে পারিবারিক কলহ নিয়ে বাবার ঝগড়া হয়। এরই সুত্র ধরে রাত আনুমানিক রাত ১২টার দিকে বাবা আগে বিষপান করে। পরে বাবার দেখাদেখি মা’ও অভিমান করে বিষপান করে। তাদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে শৈলকুপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে বিষমুক্ত করা অবস্থায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। অপরদিকে স্ত্রী লাইলী বেগম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ জলঢাকার স্বাস্থ্য ও পরিবার কেন্দ্রের ডাঃ শাহিন

বিভাগীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ জলঢাকার স্বাস্থ্য ও পরিবার কেন্দ্রের ডাঃ শাহিন





মোঃ হাবিবুর রহমান শাকিল ডিমলা নীলফামারী প্রতিনিধি:

পরিবার পরিকল্পনা এবং মা ও শিশুস্বাস্থ্য কার্যক্রমে উল্লেখ্যযোগ্য অবদানের জন্য রংপুর বিভাগের শ্রেষ্ঠ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্র হিসেবে নীলফামারী জেলার জলঢাকা উপজেলার গোলনা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান কেন্দ্র নির্বাচিত হয়েছে। আজ শনিবার (১১ জুুলাই)  রংপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উদযাপন উপলক্ষে এক আলোচনা সভা ও পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ঐ কেন্দ্রের উপসহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ শাখাওয়াত হোসেন শাহিনের হাতে এ সন্মাননা সনদ ও ক্রেস্ট তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিভাগীয় কমিশনার কে. এম. তারিকুল ইসলাম। রংপুর বিভাগীয় পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের পরিচালক (যুগ্মসচিব) মাহবুব আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন রংপুর বিভাগীয় পরিচালক স্বাস্থ্য ডাঃ আমিন আহমেদ খান, রংপুর জেলা প্রশাসক আসিব আহসান, রংপুর সিভিল সার্জন হিরম্ব কুমার রায়, পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপপরিচালক ডাঃ শেখ মোঃ সাইদুল ইসলাম প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন রংপুর সদর উপজেলার পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা এটিএম নাজমুল হুদা। ডাঃ শাহিন ২০২০ সালে পুনরায় জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ উপসহকারি কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার নির্বাচিত হয়। এর আগে তিনি ৩ বার জেলা পর্যায়ে ও একাধিকবার উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠকর্মী নির্বাচিত হয়।

ঝিনাইদহে নিখোঁজের ৮ দিন পর গৃহবধূর গলিত লাশ উদ্ধার

ঝিনাইদহে নিখোঁজের ৮ দিন পর গৃহবধূর গলিত লাশ উদ্ধার





খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি। 




ঝিনাইদহের নিখোঁজের আটদিন পর মৌসুমি খাতুন (২৪) নামে এক সন্তানের জননীর লিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত মৌসুমি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার মহারাজপুর ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের সমশের উদ্দীনের মেয়ে। শনিবার বিকাল ৫টার দিকে দক্ষিণ রামনগরের পাশে তেতুল বিল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে। গত ২ জুলাই রাতে তার বাবার বাড়ি থেকে সে নিখোঁজ হয়।
পাঁচ বছর আগে কালীগঞ্জ পৌরসভাধীন খয়েরতলা গ্রামে রোকন উদ্দীনের সাথে বিয়ে হয়েছিল মৌমুমির। নিহত মৌসুমির চার বছরের ছেলে সন্তান রয়েছে। তবে স্বামীর সংসারে বনিবনা না হওয়া দির্ঘদিন ধরে বাবার বাড়িতেই বসবাস করছিল নিহত মৌসুমি। মাঝে মাঝে তার স্বামী সেখানে এসে থাকতো।

নিহতের ভাই সুজন হোসেন জানান, গত ২ জুলাই আমাদের এক আত্মীয় অসুস্থ্য থাকায় আমার মা চার বছরের ভাগ্নেকে নিয়ে সেখানে ছিলেন। এছাড়া বাবাও ব্যবসায়ীক কাজে নোয়াপাড়া ছিলেন। বাড়িতে শুধু আমার বোন ও তার জামাই ছিল। ৩ জুলাই আমার ভগ্নিপতি সকালে প্রতিবেশিদের জানায় রাত তিনটার পর থেকে মৌসুমিকে পাওয়া যাচ্ছে না। আমি ঘুমিয়ে ছিলাম। ঘুম থেকে উঠে দেখি সে কোথায় চলে গেছে। এরপর ওই দিন ভগ্নিপতি রোহন নিজেই ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করে। আমরা সবাই বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি করি। এই সুযোগে আমার ভগ্নিপতি বাড়ির একটি ছাগল বিক্রি করে টাকা নিয়ে চলে যায়। এরপর থেকে তাকেও আর পাওয়া যাচ্ছে না।

শনিবার বিকালে মাঠে কাজ করতে যাওয়া কৃষকরা বিলের পটের নিচে তার মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়।
ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সেখানে লোক পাঠানো হয়েছে। ঘটনাস্থলে না পৌছে বিস্তারিত কিছু বলা যাচ্ছে না।

পানিসারা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ সভাপতির পিতার মৃত্যু, শোক প্রকাশ

পানিসারা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ সভাপতির পিতার মৃত্যু, শোক প্রকাশ




মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত, 
ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ 

বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঝিকরগাছা উপজেলা শাখার অন্তর্গত ৫নং পানিসারা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মোঃ রাজু আহমেদ এর পিতা মোঃ হামজা ১১জুলাই সকাল ১০ঘটিকার সময় নিজ বাস ভবনে ইন্তেকাল করেছেন।
(ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন) 

রাজুর পিতার ইন্তেকালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঝিকরগাছা উপজেলা শাখার সভাপতি এহসানুল হাবিব শিপলু ও সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন গভীর শোক প্রকাশ করেছেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।

মাধবপুরে মটরসাইকেল দূর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন নারায়নগঞ্জের দুই তরুণ-তরুণী

মাধবপুরে মটরসাইকেল দূর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন নারায়নগঞ্জের দুই তরুণ-তরুণী





লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি

হবিগঞ্জের মাধবপুরে মটরসাইকেল দূর্ঘটনায় সড়কে প্রাণ হারালেন নারায়নগঞ্জের দুই তরুণ-তরুণী।শনিবার (১১-জুলাই) সকাল ১২ টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের আল-আমিন সিএনজি ফিলিং ষ্টেশনের পার্শবর্তী (কড্ডা) নামক স্থানে এ দূর্ঘটনাটি ঘটে।
দূর্ঘটনায় নিহতরা হলেন, নারায়নগঞ্জের বেটকা গ্রমির বাসিন্দা ইমন মিয়া (২৬)ও জান্নাত আক্তার (২৫)।

স্থানীয় সূত্রে জানাযায়,শ্রীমঙ্গল এক আত্নীয়র বাসা থেকে নারায়নগঞ্জ ফেরার পথে কড্ডা নামক স্থানে আসলে রাস্তায় জমে থাকা বৃষ্টির পানিতে সিল্প খেয়ে পরে গেলে ঘটনা স্থলেই জান্নাত আক্তার (২৫) মার যায়। আর মটরসাইকেল চালক ইমন মিয়া (২৬) কে উদ্বার করে মাধবপুর স্বাস্থ কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যায়।

শায়েস্থাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, তৌফিকুল ইসলাম তৌফিক ঘটনার সতত্যা নিশ্চিত করেছেন।

মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তারকৃত জবি ছাত্রের মুক্তি মেলেনি ১৫ দিনেও!

মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তারকৃত জবি ছাত্রের মুক্তি মেলেনি ১৫ দিনেও!





জবি প্রতিনিধিঃ শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার ভোলাই মুন্সিকান্দি গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে রিয়াজ মাদবর (১৭) নামে এক কিশোর নিহতের ঘটনায়  জাজিরা থানা পুলিশ বিনা অপরাধে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মুনির হোসেনকে গ্রেপ্তার করে এবং মামলা দিয়ে কোর্টে চালান করে দেয়।



মুনিরের বোন কুহিনুর জানান, মুনির এবং তার পরিবারের কেউ ওই সংঘর্ষে ছিল নাহ, এমনকি তারা কোনো পক্ষেরই সমর্থক ছিলো নাহ। কিন্তু পরের দিন মুনিরের সাথে কথা বলার কথা বলে ঘর থেকে বের করে নিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।



মুনিরের ভাবি বলেন, এ ঘটনা থেকে মুনিরকে ছাড়ানোর কথা বলে গ্রামের চেয়ারম্যান ইসমাইল মোল্লা প্রায় ৩ লক্ষ টাকা নিয়েছে তাদের কাছ থেকে। যদিও টাকা নেয়ার ব্যাপারে জানতে চাইলে চেয়ারম্যান অস্বীকার করে বলেন, আমি কেনো টাকা নিবো, আমি কোনো টাকা নেইনি।



এ ঘটনার প্রায় ১৫ দিন অতিবাহিত হয়ে যাওয়ার পরও মুনিরের জামিনের ব্যাপারে কোনো ধরনের সুস্পষ্ট বক্তব্য পাওয়া যায়নি কোনো পক্ষ থেকে। এ ব্যাপারে শরীয়তপুর জেলা পুলিশের এসপি এস. এম আশরাফুজ্জামান এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, খুব শীগ্রই সে ছাড়া পাবে। এর বাইরে আর কিছু বলা যাবে না।



জাজিরা জেলার ওসি সাহাবুদ্দিন কে এ ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, মামলার মূল আসামী গ্রেপ্তার হয়েছে, আর মুনিরের জামিন আগামী সপ্তাহে হতে পারে,জামিন হলেই তাকে এ মামলা থেকে তাকে প্রত্যাহার করে দেয়া হবে যেহেতু ওর একটা ভবিষ্যত আছে।



বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড.মোস্তফা কামালকে জামিনের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, কোর্টে চালান হওয়ার পরও আমি ওসিকে বলেছি একটু ব্যাপারটা দেখবেন, তারপরও ছেলেটা কেনো ছাড়া পাচ্ছে না বুজতে পারছি না।

শিবগঞ্জে দুর্নীতির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক বহিষ্কার

শিবগঞ্জে দুর্নীতির অভিযোগে প্রধান শিক্ষক বহিষ্কার





শামিম উদ্দিন চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার রানিহাটী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামাল হোসেনের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ ওঠায় তাকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বিদ্যালয়টির পরিচালনা কমিটি।
গত ১১ জুন তাকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। তবে বিষয়টি প্রথম গোপন রাখার চেষ্টা করা হয়। শনিবার (১১ জুলাই) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ওই প্রধান শিক্ষককে সাময়িক বহিষ্কারের বিষয়টি ছড়িয়ে পড়ে।

এদিকে, শনিবার দুপুরে বিষয়টি নিয়ে অভিযুক্ত ওই প্রধান শিক্ষক এবং স্কুল পরিচালনা কমিটি সভাপতির সঙ্গে কথা বললে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া যায়।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটিসহ কর্মরত অন্য শিক্ষকেরা জানিয়েছেন, স্কুলের ভবনের দোকানঘর অবৈধভাবে দখল করে ভাড়ার ৪ লাখ টাকা তহবিলে জমা না দেয়া, সহকারী প্রধান শিক্ষক নিয়োগে বিলম্বের লক্ষ্যে ১ লাখ টাকা ক্ষতিসাধন, দোকানঘর মেরামতের নামে ২ লাখ টাকা ও বিদ্যুৎ বিলের ১ লাখ টাকা আত্মসাতসহ মোট ১৮টি অভিযোগের প্রেক্ষিতে প্রধান শিক্ষক কামাল হোসেনকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

অন্যদিকে, বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলাম জানান, প্রধান শিক্ষক কামাল হোসেনের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাত, শিক্ষকদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ, শিক্ষকদের বেতন-ভাতা আটকে রাখাসহ বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে।

এসব কারণে কিছুদিন পূর্বে ম্যানেজিং কমিটি ও বিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষক তার বিপক্ষে অবস্থান নেন। পরে সভা করে ম্যানেজিং কমিটি জিজ্ঞাসা করলে সঠিক উত্তর দিতে পারেননি ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। এরপর দুই দফায় প্রধান শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হলে তিনি নোটিশ গ্রহণ না করে প্রেরক বরাবর ফেরত দেন।

ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মজিবুর রহমান ০১৭৬৬৫৭২৪২২ নম্বরে মুঠোফোনে জানান, প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন পূর্বেই অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া যায়। পরবর্তীকালে ম্যানেজিং কমিটি ও শিক্ষকেরা সভা করে বেসরকারি মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষকদের চাকুরির শর্ত বিধিমালা ১৯৭৯ এর ২ (এ) ও ১৩ (১) ধারা মতে প্রধান শিক্ষক কামাল হোসেনকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়।

তিনি আরও জানান, বহিষ্কারের অনুলিপি রাজশাহী মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বরাবর প্রেরণ করা হয়। পাশাপাশি বেসরকারি মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষকদের চাকুরির শর্ত বিধিমালা ১৯৮৯ এর ১৪ (২) ধারা অনুসারে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

অভিযোগগুলোর সত্যতা মিললে প্রধান শিক্ষকককে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

তবে প্রধান শিক্ষক কামাল হোসেনের সাথে মুঠোফোনে যোগাযাগ করা হলে তিনি দাবি করেন, ‘আমার বিরুদ্ধে একটি চক্র মিথ্যা অভিযোগ করেছে। এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি।’

অপরদিকে প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) এনামুল হক জানান, সম্প্রতিকালে দায়িত্ব কাঁধে নিয়ে বিদ্যালয়ের সকল কার্যক্রম সুষ্ঠভাবে চালিয়ে আসছেন।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মীর মস্তাফিজুর রহমান জানান, সম্প্রতি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে স্থানীয় সাংসদ, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, প্রধান শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির সমন্বয়ে মিটিং হয়েছে। আশা করি- অতিদ্রুত সমস্যার সমাধান হবে।

কাগজের ফুল বিক্রি করে চলে ফেরিওয়ালা গৌতম মালাকা'র সংসার

কাগজের ফুল বিক্রি করে চলে ফেরিওয়ালা গৌতম মালাকা'র সংসার




মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধি ঃ
কাগজের চরকি দারুণ এক খেলনা। এটা বাতাসের দিকে ধরলেই ঘুরতে থাকে। যন্ত্র ছাড়া কোনো কিছু ভনভন করে ঘুরবে, ভাবা যায়! 
 ফুলকে ভালবাসে না এমন মানুষ হয়তো পাওয়া যাবে না। ফুল ভালবাসার প্রতীক। তাই প্রকৃতি ও ফুল প্রতিটা মানুষকে কাছে টানে। সে কারণে প্রতিটি মানুষ প্রকৃতি ও ফুলের সৌন্দর্য উপভোগ করতে ভালোবাসে।
প্রকৃতি ও সৌন্দর্য পিপাসু প্রতিটি মানুষ তাদের বাড়ির আঙিনা বা ছাদে ফুল চাষ করে থাকেন। কেউ বা আবার ফুলের গাছ টবে লাগিয়ে বাড়ির ছাদ বা বারান্দায় রাখেন। আর শিশুদের খেলনা কিংবা ঘরের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে ঘরে রাখেন কৃত্রিম ফুল। তাছাড়া বিয়ে, জন্মদিনসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে কাগজের ফুলের কদরতো রয়েছেই।
কাগজের এই ফুল শুধু সৌন্দর্যের প্রতীক নয়,  এই কাগজের ফুল তৈরি ও বিক্রি অনেকের জীবিকাও। অনেকের সংসারই চলে এই ফুল বিক্রিতে। কাগজের চরকি ও প্লাস্টিকের  মনকাড়া কৃত্রিম ফুল তৈরি ও বিক্রি করে 
প্রায় ৮- ১০ বছর ধরে জীবিকা নির্বাহ করছেন
কামারখন্দ  উপজেলার ভদ্রঘাট ইউনিয়নের বাজার ভদ্রঘাট  পাড়া গ্রামের গৌতম  মালাকা(৩৫)।গৌতম মালাকা প্রতিদিন ফুলবাড়ী উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের হাট-বাজার,পাড়া-মহল্লার অলিতে গলিতে পথে পথে ঘুরে রঙ্গিন কাগজের ফুল ও প্লাস্টিকের ফুল বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করেন। সারাদিন কাঠফাটা রোদ কিংবা বৃষ্টি উপেক্ষা করে ফুল বিক্রি করেন।
নিজ হাতে তৈরী কাগজের ফুল বিক্রি করাই তো তার অন্ন জোগানোর একমাত্র উৎস। 'ফুল নেবে ফুল', 'লাল-নীল রঙ্গিন কাগজের ফুল'- গ্রামের পথে পথে কাগজের ফুল বিক্রেতার হাঁক শুনলেই গ্রামের ছোট বড় সকলেই ছুটে আসেন ফুল নিতে।শুক্রবার  ১০ জুলাই   বিকালে  সিরাজগঞ্জ  সদর উপজেলার  মালশাপাড়া  মোল্লাবাড়ী এলাকার ক্রসবার-৩  দেখা মেলে কাগজের ফুল বিক্রেতা গৌতম  মালাকার
। ফুল বিক্রি নিয়ে গৌতম  বলেন,আমার  এক ছেলে এক মেয়ে। ছেলেটি ৩য় শ্রেনীতে পড়ে। আর মেয়েটি ছোটো ।  স্ত্রী ও সন্তান  নিয়ে জীবন যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছি। প্রতিদিন সকাল হলেই ফুল বিক্রি করতে চলে যাই পার্শ্ববর্তী উপজেলার বিভিন্ন এলাকায়। প্রতিটি ফুল ১০ টাকায় বিক্রি করে সারাদিনে কমপক্ষে ৩শ থেকে ৪ শ টাকা পর্যন্ত আয় হয়। কোনো  রকমে দিন পাত চলে।করোনার  আগে  মেলা বাজারে ভালো চলতো তখন হাজার -বারো শত  টাকা আয় করা যেতো। কিন্তু বর্তমানে করোনার কারণে স্কুল বন্ধ, এখন আর তেমন জনসমাগম নেই, তাই ফুল তেমন বিক্রি হচ্ছে না, কোনো রকমে সংসার চলে।তিনি আরও বলেন, ব্যবসা যদিও লাভজনক তারপরও জীবনের যথেষ্ট ঝুঁকিও রয়েছে। এভাবেই চলে আমার জীবন জীবিকা।

সিরাজগঞ্জে ১০০ পিস ইয়াবাসহ দুই জন গ্রেফতার

সিরাজগঞ্জে   ১০০ পিস ইয়াবাসহ  দুই জন  গ্রেফতার



 মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধি ঃ
সারা বিশ্ব জুড়ে বর্তমানে আতঙ্কের আরেক নাম করোনা ভাইরাস। প্রতি মুহূর্তে সারা বিশ্বে এই রোগের আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলেছে সুযোগে  সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ  থানাধীন   সোনাখাড়া ইউনিয়নের  পশ্চিমপাড়ায় এলাকায়  থেমেনি মাদক ব্যবসা শুক্রবার  বিকেলে  ১০০ পিস ইয়াবাসহ  দুই  মাদক  কারাবারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১২।  
শনিবার  (১১ জুলাই ) দুপুরে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য  নিশ্চিত করেছে
র‌্যাব-১২ এর মিডিয়া অফিসার  সহকারী পরিচালক মোঃ এরশাদুর রহমান। 
আটক ব্যক্তিরা হলেন,সিরাজগঞ্জে রায়গঞ্জ  উপজেলার সোনাখাড়া  ইউনিয়নে   বাশাইল গ্রামের  পিতা-মোঃ আবু সাঈদ ছেলে মোঃ শাহিন খাঁ (২৭) এবং  সাতকুরশি উত্তরপাড়া মহল্লার  পিতা-মোঃ আলহাজ্জ প্রামানিক ছেলে মোঃ নয়ন হাসান (১৮)।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব-১২ এর ওই কর্মকর্তা জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১০ জুলাই  বিকালে সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ থানাধীন
সোনাখাড়া ইউনিয়নের সোনাখাড়া -নিমগাছি গামী  তিন রাস্তার মোড়ে পাকা রাস্তার উপর মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয়-বিক্রয় করছে বলে তারা সংবাদ পায়। ওই সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১২ সদস্যরা সেখানে অভিযান চালিয়ে  মাদক  কারবারী  শাহিন ও নয়ন হাসানকে আটক করে।
তাদের দেহ তল্লাশি করে  ১০০ পিস ইয়াবাসহ ২ টি মোবাইল ফোনসহ ৫ টি সীম কার্ড জব্দ করা হয়। গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে সিরাজগঞ্জ জেলার রায়গঞ্জ থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করে এবং উদ্ধারকৃত আলামতসহ তাদেরকে  থানায় হস্তান্তর করেন ।

নির্বাচন কমিশনের কাছে নির্বাচন পেছানোর আইনগত কোন সুযোগ নেই....... প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা

নির্বাচন কমিশনের কাছে নির্বাচন পেছানোর আইনগত কোন সুযোগ নেই....... প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা




মোরশেদ আলম ভ্রাম্যমান (যশোর) প্রতিনিধিঃ
যশোর-৬ কেশবপুর আসনের উপ-নির্বাচন উপলক্ষে আইন শৃঙ্খলা সংক্রান্ত ও প্রার্থীদের সাথে মতবিনিময় সভায়
প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, কোন ব্যক্তি বা দলকে সুবিধা দিতে নয়, সাংবিধানিক কারণেই করোনার মধ্যে উপ-নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের কাছে নির্বাচন পেছানোর আইনগত কোন সুযোগ নেই। তবে মহামান্য রাষ্ট্রপতি বিষয়টি সুপ্রিম কোর্টে নিতে পারেন। আমরা মহামান্য রাষ্ট্রপতির স্মরণাপন্ন হয়েছিলাম,তিনিও বলেছেন নির্বাচন না করার কোন সুযোগ নেই।

শনিবার দুপুরে যশোর-৬ কেশবপুর আসনের উপ-নির্বাচন উপলক্ষে আইন শৃঙ্খলা সংক্রান্ত ও প্রার্থীদের সাথে মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। কেশবপুর আবু শারাফ সাদেক অডিটোরিয়ামে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের উদ্দেশে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, করোনা আছে, আরো অনেকদিন থাকতে পারে,তার জন্য সবকিছু বন্ধ রাখা যাবে না। দৈনন্দিন কাজ ও নির্বাচনের মত কাজ এর মধ্যেই করতে হবে। এজন্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভোটারদের কেন্দ্রে আসতে প্রচারণা চালানোর জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন তিনি। একইসাথে ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের মাস্ক খুলে পরিচয় নিশ্চিত করতে হবে বলে উল্লেখ করেন সিইসি। 

এদিকে প্রার্থীদের সাথে মতবিনিময় সভায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী শাহীন চাকলাদার ও জাতীয় পার্টির প্রার্থী হাবিবুর রহমান বক্তব্য রাখেন। এসময় তারা সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন সম্পন্ন করতে নির্বাচনের সার্বিক সহায়তা দাবি করেন।

জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে সভায় নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) শাহাদাৎ হোসেন চৌধুরী, নির্বাচন কমিশনের অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ, যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহমেদ খান, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার ড. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, ডিআইজি ড. খন্দকার মহিদ উদ্দিন, ডিজি এফ আই যশোরের কর্ণেল জিএম, যশোর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আশরাফ হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

"ফ্রন্টলাইন যোদ্ধা ডাঃ জাকির হোসেনের বাবা না ফেরার দেশে চলে গেলেন

"ফ্রন্টলাইন যোদ্ধা ডাঃ জাকির হোসেনের বাবা না ফেরার দেশে চলে গেলেন




সম্রাট হোসেন, শৈলকুপা (ঝিনাইদহ)  সংবাদদাতাঃ

অত্যন্ত দুঃখের সাথে জানানো যাচ্ছে যে, ঝিনাইদহ জেলা করোনা চিফ কো-অর্ডিনেটর, ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের জুনিঃ কনসালটেন্ট (রেসপিরেটরী মেডিসিন) ডাঃ জাকির হোসেনের পিতা আজ ১১ তারিখ, শনিবার দুপুর ১ টার সময় বার্ধক্যজনিত কারণে ইসলামী হাসপাতালে মৃত্যুবরন করেছেন।  
"ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন"
মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনাসহ শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করছি।
ডাঃ জাকির হোসেন একজন সাহসী করোনা যোদ্ধা। তার বাবার জন্য সবাই দোয়া করবেন।

মাগুরায় শিশুদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া পুষ্টিকর খাদ্য প্রদান

মাগুরায় শিশুদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া পুষ্টিকর খাদ্য প্রদান




মোঃকুতুবুল আলম মহম্মদপুর(মাগুরা) গ্রামীণ শিশুদের পুষ্টি চাহিদা পূরনের লক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার পুষ্টিকর খাদ্য শিশুদের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। ১১ই জুলাই শনিবার সকাল ১০.৩০ মিনিটে মাগুরা সদর উপজেলা পরিষদ চত্বরে  মসজিদ ও মন্দির ভিত্তিক প্রাক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মোট ৮০০ শিশুর জন্য বরাদ্দকৃত এ উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়। প্রত্যেক শিশুর জন্য রয়েছে গুড়া দুধ ৫০০গ্রাম, লাল চিনি ১কেজি, সুজি  ১কেজি এবং ১প্যাকেট পুষ্টিকর বিস্কিট। এ বিষয়ে মাগুরা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু সুফিয়ান জানান, করনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কথা বিবেচনা করে শিশুদেরকে এখানে আসতে দেয়া হয়নি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক প্রেরণকৃত উপহার সামগ্রী সম্মানীত শিক্ষক মন্ডলীর মাধ্যমে যথাযত ভাবে প্রত্যেক শিশুর বাড়ীতে পৌছে দেয়া হবে। উক্ত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মোঃ আবু নাসির বাবলু (চেয়ারম্যান, মাগুরা সদর উপজেলা পরিষদ মাগুরা), মোঃ মাহাবুবুর রহমান (উপ-পরিচালক, স্থানীয় সরকার মাগুরা), মোঃ মনিরুজ্জামান (সহকারী-পরিচালক, ইসলামীক ফাউন্ডেশন মাগুরা), মোঃ মহিউদ্দিন (ফিল্ড সুপারভাইজার, ইসলামীক ফাউন্ডেশন মাগুরা সদর), আম্বিয়া বেগম (উপজেলা প্রকল্প রাস্তবায়ন অফিসার)। 

৫০টি মসজিদ ও ৩০টি মন্দির ভিত্তিক ধর্মীয় উপাসনালয়ের শিশুদের এই পুষ্টিকর খাদ্য দেওয়া হয়।

ঝিনাইদহে মুজিববর্ষ উপলক্ষে সার্কিট হাউস বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত

ঝিনাইদহে মুজিববর্ষ উপলক্ষে  সার্কিট হাউস  বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত





খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার 
( ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি) 




ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসন এর উদ্যোগে সার্কিট হাউস সংলগ্ন চত্তরে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে ১১ জুলাই শনিবার সকালে। এ কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের মাননীয় সিনিয়র সচিব জনাব মোঃ আসাদুল ইসলাম। এ অনুষ্ঠানে  উপস্থিত ছিলেন, ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসনের সুযোগ্য প্রশাসক জনাব সরোজ কুমার নাথ,  ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক,  পৌরসভার সুযোগ্য মেয়র জননেতা জনাব সাইদুল করিম মিন্টু,  আরো উপস্থিত ছিলেন, ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব বদরুদ্দোজা শুভ,  সাংবাদিক সহ জেলা প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারী বিন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আশাশুনিতে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস পালিত

আশাশুনিতে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস পালিত



আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি ( সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ   "মহামারী কোভিড ১৯কে প্রতিরোধ করি, নারী ও কিশোরীর স্বাস্থ্য অধিকার নিশ্চিত করি"এই শ্লোগানকে সামনে রেখে আশাশুনিতে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস পালিত হয়েছে । শনিবার সকালে আশাশুনি বিআরডিবি মিলনায়তনে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসের আয়োজনে এ দিবস পালন করা হয়। আশাশুনি উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর আলমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ও ক্রেস্ট বিতরণ করেন আশাশুনি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবিএম মোস্তাকিম। প্রধান অতিথির বক্তব্যে এবিএম মোস্তাকিম বলেন বর্তমানে বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করেছে আমাদের দেশ অত্যন্ত ঝুঁকির মধ্যে আছে। এ সময় আমাদেরকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাফেরা করতে হবে এবং সকলকে সচেতন থাকতে হবে।করোনাভাইরাস কে ভয় না করে বরং সকলে সচেতন হই। একমাত্র সচেতনতাই পারে এই ভাইরাস থেকে দেশকে রক্ষা করতে।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন উপজেলা পঃ পঃ কর্মকর্তা ডাঃ সুদেষ্ণা সরকার,ডাঃ জয়ব্রত ঘোষ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও রিপোর্টার্স ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ বাচ্চু, সদর ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান শাহিনুর আলম। বিগত এক বছরের কাজের মূল্যায়ন ভিত্তিতে দুটি প্রতিষ্ঠান ও ৪জনকে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। গত এক বছরে গত এক বছরে মূল্যায়নের ভিত্তিতে আশাশুনি ইউনিয়ন পরিষদ কে শ্রেষ্ঠ ইউনিয়ন পরিষদ ও বুধহাটা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্র কে শ্রেষ্ঠ স্বাস্থ্য কেন্দ্র ঘোষণা করা হয়। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন প্রেসক্লাবের সভাপতি জি এম আল ফারুক রিপোর্টার্স ক্লাবের সহ-সভাপতি এম এম সাহেব আলী, দপ্তর সম্পাদক আহসানউল্লাহ বাবলু, পরিবার পরিকল্পনার পরিদর্শক  হাবিবুল্লাহ রহমান, স্বাস্থ্য সহকারী মোক্তারুজ্জামান স্বপন প্রমূখ।

চক্রান্তমুলক সাঁজানো মিথ্যা ও ভিত্তিহীন তথ্য দিয়ে অনলাইন,স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় সংবাদের প্রতিবাদে দিনাজপুরে সংবাদ সম্মেলন

চক্রান্তমুলক সাঁজানো মিথ্যা ও ভিত্তিহীন তথ্য দিয়ে অনলাইন,স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় সংবাদের প্রতিবাদে দিনাজপুরে সংবাদ সম্মেলন




প্রতিনিধি দিনাজপুর : অপসাংবাদিকরা চক্রান্তমুলক সাঁজানো মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বিভ্্রান্তিমুলক তথ্য দিয়ে সংবাদ পরিবেশন করেছে অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করলেন বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউট দিনাজপুরের নিরাপত্তা প্রহরী মামুনুর রশিদ।
শনিবার ( ১১ জুলাই ২০ ) সকাল ১১ টায় দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের নিরাপত্তা প্রহরী মামুনুর রশিদ। 
তিনি বলেন, গত জুন মাসে সাংবাদিক পরিচয়দানকারী কুরবান আলী ও মোস্তফা কামাল  মিথ্যা অভিযোগের ভিক্তিতে আমার বিরুদ্ধে পত্রিকায় সংবাদ মিথ্যা সংবাদ ছাপিয়েছে। উল্লেখ্য,সাংবাদিক পরিচয়দানকারী মোস্তফা কামাল দিনাজপুরের বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে ক্যামেরাম্যান এবং কুরবান আলী স্থানীয় একটি দৈনিক পত্রিকায় সাংবাদিক হিসেবে কাজ করে বলে আমি জেনেছি। আমি এর প্রতিবাদ ছাপানোর জন্যে সাংবাদিক কুরবান আলীর সাথে যোগাযোগ করলে সে আমার কাছে ৮ হাজার ৫ শ টাকা দাবী করে।   
তিনি বলেন,প্রতিবাদ ছাপানোর টাকা না দেয়ায় তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আমার চাকুরীর অসুবিধা সৃষ্টি ও সুনামক্ষুন্যের জন্যে দিনাজপুরের স্থানীয়, জাতীয় ও অনলাইন কয়েকটি পত্রিকায় মিথ্যা,মনগড়া ও ভিত্তিহীন বিভ্্রান্তিুমুলক তথ্য সম্বলিত সংবাদ পরিবেশন করেছে যা কোনভাবেই সত্য নয়। 
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়,আমি নিজেই একজন অসহায় চর্তুথ শ্রেনীর কর্মচারী গম ও ভুট্টা গবেষনা কেন্দ্রের নিরাপত্তা প্রহরী। আমি কাউকে চাকুরী দেয়ার ক্ষমতা রাখিনা এজন্যে কারো কাছে আমি কখনো কোনো টাকা পয়সা নেইনি। অথচ আমার বিরুদ্ধে চাকুরী দেয়ার নাম করে ৩ লাখ ৩০ হাজার টাকা নিয়েছি এবং ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করেছি বলে মিথ্যা অভিযোগ করা হয়েছে। তিনি বলেন,আমি চাকুরী দেয়ার নামে কারো সাথে কোনো চুক্তি কিংবা কোনো ধরনের লেনদেন করি নাই। 
আমার বিরুদ্ধে তারা ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষরের কথা বলছে সেটি সত্য নয় আমি কোনো ষ্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করি নাই,্ জাল স্বাক্ষর করে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে,যদি কেউ এধরনের অপপ্রচার চালায় তবে আগামীতে আমি তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করবো। 
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মামুনুর রশিদ বলেন, ওই পত্রিকাগুলোতে আমার বিরুদ্ধে হত্যাসহ একাধিক মামলা রয়েছে বলে বিভ্্রান্তিকর মিথ্যা অভিযোগ করেছে যার কোনো সত্যতা ও ভিত্তিনেই।

৮ টাকার ঔষধ ৮০ টাকায় বিক্রি করায় আনোয়ার মেডিকেল স্টোরকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা

৮ টাকার ঔষধ ৮০ টাকায় বিক্রি করায় আনোয়ার মেডিকেল স্টোরকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা





মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি॥ ৮ টাকা ইনজেকশন মূল্যের ঔষধ ৮০ টাকায় বিক্রি করার অপরাধে শহরের আনোয়ার মেডিকেল স্টোরকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। সেই সাথে ভবিষ্যতে এমন অপরাধ না করতে সতর্ক করা হয়। 
ভ্রম্যমান আদালত সুত্রে জানান,জনৈক সাজিজুর রহমান সাজু দু’টি ঔষধ কিনতে শহরের সদর হাসপাতাল মোড়ের আনোয়ার মেডিকেল ষ্টোরে গিয়ে  দুটি  ইনজেকশন  নেন। আনোয়ার মেডিকেল ষ্টোরে তখন থাকা কর্মচারী ওই ঔষধ ক্রেতার নিকট থেকে বিল বাবদ একেকটি ঔষধের দাম ৮০ টাকা করে দুটির দাম ১৬০ টাকা এবং সিরিঞ্জের দাম ৫ টাকাসহ মোট ১৬৫ টাকা নেন। পরে ক্রেতার দাম নিয়ে কিছুটা সন্দেহ দেখা দিলে তিনি টিএন্ডটি রোডের মিজান ফার্মেসীতে গিয়ে একই ঔষধ নিতে চান। দোকানদার তাকে একই ঔষধ দিয়ে বিল ৮টাকা করে ১৬ টাকা টাকা নেন। যার বিল ভাউচারও তিনি গ্রহণ করেন। পরে ঔষধ ক্রেতা সাজু ওই বিল ভাউচার নিয়ে আবারও আনোয়ার মেডিকেল স্টোরে যান। কিন্তু  পরবর্তীতে  গেলে আনোয়ার মেডিকেল স্টোরের প্রোপাইটর  আনোয়ার হোসেন বিষয় টি সুরাহা না করে তিনি কর্মচারীর পক্ষ নিয়ে  খারাপ আচরণ করেন। পরবর্তীতে এ খবর দিনাজপুর জেলা প্রশাসনকে দেয়া হলে রাত ৮টায় দিনাজপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ওয়াজেদ আলী তার ফোর্স নিয়ে আনোয়ার মেডিকেল স্টোরে আসেন। তিনি ঔষধের দাম জিজ্ঞাসা করলে আনোয়ার হোসেন চুপ করে থাকেন। পরে ৮ টাকার ঔষধ ৮০ টাকায় বিক্রির বিষয়টি নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নিশ্চিত হলে তাৎক্ষনিক তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। সেই সাথে ভবিষ্যতে আর এমন অপরাধ না করতে সতর্ক করা হয়।
যেখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠানে কোন দূর্নীতি কিংবা হয়রানীর বিরূদ্ধে জিরো টলারেন্স প্রদর্শন করছেন, সেখানে তার দলের একজন নেতা হয়ে আনোয়ার হোসেন কিভাবে এমন কাজ করতে পারেন সেই প্রশ্ন এলাকাবাসীর মুখে মুখে। উল্লেখ্য, আনোয়ার মেডিকেল স্টোরের স্বত্বাধিকারী আনোয়ার হোসেন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ও কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির সহ-সভাপতি বলে জানা যায়

চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের আরও আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে -হুই ইকবালুর রহিম এমপি

চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের আরও আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে -হুই ইকবালুর রহিম এমপি





মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি ॥ জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের আরও আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে হবে উল্লেখ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করেছে। করোনার এই দুর্যোগে প্রতিটি মানুষ যেন চিকিৎসা সেবা পায় সেজন্য চিকিৎসা সেবায় সর্বোচ্চ বরাদ্দ দিয়েছেন। করোনা যোদ্ধা চিকিৎসকরা করোনার এই মুহুর্তে নিজের জীবনকে বাজি রেখে মহামারির এই রোগকে সেবা দিয়ে যাচ্ছে। তাদের এই অবদান পৃথিবী যতদিন থাকবে ততদিন পর্যন্ত মানুষ ভুলবে না। তিনি বলেন, স্বাস্থ্য খাতে দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কঠোর অবস্থানে রয়েছে। তাই কেউ কোন দুর্নীতি বা অবহেলা করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবে সরকার। এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা রোগীসহ সকল ধরনের রোগী সঠিক ভাবে চিকিৎসা সেবা পায় সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে। 
১১ জুলাই শনিবার এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল দিনাজপুর-এ স্বাস্থ্য সেবা সংক্রান্ত ও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের লক্ষে পর্যালোচনা সভায় এসব কথা বলেন এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি।
এ সময় বক্তব্য রাখেন এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. শিবেস সরকার, হাসপাতালের পরিচালক ডা. নির্মল চন্দ্র দাস, অক্সফার্মের রিজিওনাল ডিরেক্টর আকতারুজ্জামান আখতার, হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডাঃ শাহ্ মোজাহেদুল ইসলাম, সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) ডাঃ নজমুল ইসলাম, ডাঃ মোঃ সিরাজুল ইসলাম, এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. নাদির হোসেন, সহযোগি অধ্যাপক (মেডিসিন) ডা. নুরুজ্জামান, শিশু বিশেষজ্ঞ ডাঃ মশিউর রহমান, ডাঃ শেখ ফরিদ আহমেদ, গাইনি চিকিৎসক ডাঃ জাহানারা মুন্নি, আইসিইউ ইনচার্জ ডাঃ সুশেন রায়, চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাঃ এডিন, ডা. নাহিদ রহমান প্রমুখ।

পাটকল বন্ধের প্রতিবাদসহ রাষ্ট্রীয় শিল্প রক্ষার দাবীতে দিনাজপুরে সিপিবি’র মানববন্ধন

পাটকল বন্ধের প্রতিবাদসহ রাষ্ট্রীয় শিল্প রক্ষার দাবীতে দিনাজপুরে সিপিবি’র মানববন্ধন




মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি ঃ পাটকল বন্ধের প্রতিবাদ, দিনাজপুর টেক্সটাইল মিল পুনরায় চালু, সরকারী চিনিকলসহ রাষ্ট্রীয় শিল্প রক্ষার দাবীতে বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির মানববন্ধর অনুষ্ঠিত।
আজ সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সামনে পাটশিল্প ও পাটচাষী বাঁচাও শ্লোগান নিয়ে একটি মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। এসময় বক্তারা সরকারের পাটকল বন্ধের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে জোর প্রতিবাদ জানান। পাশাপাশি দির্ঘদিন বদ্ধ থাকা দিনাজপুর টেক্সটাইল মিল পূনারায় সচল ও করোনার সময়ে শ্রমিকদের জন্য রেশনিং ব্যবস্থা চালু করার জন্য করার দাবী জানানো হয়।
উক্ত মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি দিনাজপুর জেলা কমিটির সভাপতি এ্যাডভোকেট মেহেরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক বদিউজ্জামান বাদল, শ্রমিক নেতা এস এম চন্দন প্রমূখ।

জীবননগর পৌরসভা ছাত্রলীগের সাবেক সেক্রেটারি মানিক অসুস্থ :ঢাকায় রেফার্ড

জীবননগর পৌরসভা ছাত্রলীগের সাবেক সেক্রেটারি মানিক অসুস্থ :ঢাকায় রেফার্ড



রফিকুল,জিবননগর, চুয়াডাঙ্গা
:
জীবননগর পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সেক্রেটারি নাজমুল আলম মানিক গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় ঢাকা উত্তরা হাইকেয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন আছেন।প্রচণ্ড শ্বাসকষ্ট হওয়ায় গত( ৮জুলাই)  বুধবার তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার ফুসফুসে ইনফেকশন হয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। তবে অবস্থার উন্নতি না হওয়ায়  রাতেই তাকে ঢাকায় রেফার্ড করা হয়।বর্তমানে তিনি উত্তরা হাইকেয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। তার দ্রুত সুস্থতা কামনা করে তার  পরিবারের সদস্য এবং জীবননগর উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন। মানিকের অসুস্থতার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাজমুল আলম মানিকের চাচা জীবননগর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান আবু মোঃ আব্দুল লতিফ অমল।

ঝিনাইদহ মহেশপুরে ফেন্সিডিল সহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক

ঝিনাইদহ মহেশপুরে ফেন্সিডিল সহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক






খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার
( ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি) 



 ঝিনাইদহের মহেশপুর থানা পুলিশের একটি চৌকস দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান পরিচালনাকালে ইং ১০/০৭/২০২০ তারিখ ১৫.২০ ঘটিকার সময় মহেশপুর থানাধীন সলেমানপুর গ্রামস্থ মোঃ শফিকুল ইসলাম, পিতা- মোঃ মতলেব মন্ডল এর বাড়ীর সামনে পাকা রাস্তার উপর হইতে ৭৫(পচাত্তর) বোতল ফেন্সিডিল সহ এক মাদক ব্যবসায়ী কে গ্রেফতার করে।  মাদক ব্যবসায়ী মোঃ আদিল মন্ডল(২৮), পিতা- মোঃ মুছা মন্ডল, সাং-বাঘাডাঙ্গা, থানা- মহেশপুর, জেলা- ঝিনাইদহকে গ্রেফতার করেন।

শের আমিষ খাদ্য চাহিদা মেটাতে অনবদ্য অবদান রাখছে মৎস্য বীজ উৎপাদন খামার খামার ব্যবস্থাপক মুসা কালিমুল্লাহর কারিশমা

শের আমিষ খাদ্য চাহিদা মেটাতে অনবদ্য অবদান রাখছে  মৎস্য বীজ উৎপাদন খামার  খামার ব্যবস্থাপক মুসা কালিমুল্লাহর কারিশমা
দেশের আমিষ খাদ্য চাহিদা মেটাতে অন




দিনাজপুর প্রতিনিধি : ১৭টি লক্ষ নিয়ে যাত্রা শুরু করেছে ঝঁংঃধরহধনষব উবাবষড়ঢ়সবহঃ এড়ধষং- ঝউএ (স্থায়ীত্বশীল উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা) আশা করছি মৎস্য বীজ উৎপাদন খামার, পার্বতীপুর, দিনাজপুর এই ঝউএ কে ১নং- দারিদ্র নিরসন, ২ নং ক্ষুদামুক্তি, ৩নং সু-সাস্থ্য ও কল্যান, ৮নং মর্যাদাপূর্ন কর্মসংস্থান ও প্রবৃদ্ধি, ১৪ নং জলজ সম্পদ সংরক্ষন, ১৭ নং উন্নয়ন ও অংশীদারিত্বর মত ৬টি লক্ষ্যকে সরাসরি ইঙ্গিত করেছে। এটি একটি চিন্তাভিত্তিক বিষয়। দেশের চলমান করোনা ভাইরাস (কোভিড- ১৯) প্রতিরোধে গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার তথা- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ইউনিসেফ, বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচী, জাতীয় পুষ্টি সেবা, জাতিসংঘ খাদ্য কর্মসূচী সংস্থা, স্কেলিং- আপ নিউট্রিশন, সিভিল সোসাইটি এলায়েন্স ফর সান, সিভিক ইঞ্জিনিয়ারিং এলায়েন্স, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রনালয় সহ ইকো কো- অপারেশন এর তথ্যানুযায়ী প্রতিদিন জিংক সমৃদ্ধ খাবার হিসাবে মাছ খাওয়াকে বার্তা পত্রে প্রথমেই গুরুত্বারোপ করেছে এবং এটা সত্য যে, মাছ ভাতে আমরা বাঙ্গালী। 
তাহলে প্রমানীত হয় যে, মৎস্য সম্পদ বৈশ্বিক উন্নয়ন প্রেক্ষাপট তথা মানব স্বাস্থ্যের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আর এ বিষয়টিকে একটি উন্নয়নতর করতে যোগ্যতার মাপকাঠিতে যোগ্যতার ব্যবস্থাপনার আবশ্যকতায় ৩১/১২/২০১৯ তারিখে মৎস্য বীজ উৎপাদন খামার পার্বতীপুর, দিনাজপুরে খামার ব্যবস্থাপক হিসাবে যোগদান করেন মুসা কালিমুল্লাহ। শুধু মাম্য সম্পদেরই উন্নয়নে এই ব্যক্তি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাভিনয় করছেন না করছেন মানব সম্পদ উন্নয়নেরও এতে ঝউএ এর ১২ নং দায়িত্বশীল ভোগ ও উৎপাদন লক্ষ্যকে অর্জিত করছে। মুগ্ধ আতিথেয়তার কথা নাইবা বললাম তবে এটুকু বলা যেতে পারে মহান সৃষ্টিকর্তার নাম তার মুখে অগনিতবার শুনেছি প্রতিবেদন কালনি তথ্য সংগ্রহকালে আর এ অনুপ্রেরনায় যাদের নাম এ অঘোষিত বিশ্ব হ্যাঁচারী ব্যবস্থাপক মুসা কালিমুল্লাহ বার বার বলেছেন তারা হলেন মৎস্য বিভাগের রংপুর বিভাগীয় উপ-পরিচালক ড. মোঃ সাইনার রহমান এবং দিনাজপুর জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ড. এস এম রেজাউল করিম। প্রতিবেদন কালীন সময়ে বর্তমান কুড়িগ্রামে জেলায় দ্বায়িত্ব প্রাপ্ত জেলা মৎস্য কর্মকর্তা দাদা কালীপদ রায়ের সংগে মুঠোফোনে আলাপ কালে এ বিভাগের সকল পদস্থ কর্তাদের যে সমন্বয় ও একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ আর ভালবাসা তারা যেন একই সুতোয় বাধা তার প্রমান পাওয়া যায়। ১৯৯৬ সালে এআইটি, ব্যাংকক, থাইল্যান্ড এ আমার এ বিভাগ থেকে একটি দীর্ঘ মেয়াদে প্রশিক্ষন কার্যক্রমে অংশ নেয়ার বিষয়টি অভিজ্ঞতার আলোকে পর্যালোচিত হলে জ্ঞানভিজ্ঞ খামার ব্যবস্থাপক মুসা কারিমুল্লাহ মহোয়দ অত্যন্ত শ্রদ্ধার সাথে এপ্রেসিয়েট করেন এ জন্য কৃতজ্ঞ। তিনিও তার দেশের বাইরের অভিজ্ঞতার অংশবিশেষ আমাদের জানায়। প্রিয় মুসা কালিমুল্লাহ মহোদয় প্রতিবেদকদের কার্প হ্যাচারী কমপ্লেক্স কার্যক্রম এর আত্ততায় দেশীয় প্রজাতির গুলশা মাছের পোনাক্ষেত্র পরিদর্শন করান। এই মৎস্য খামার এর যোগ্য ব্যবস্থাপনায় রুই জাতীয় মাছ, রেনু, ধানী পোনা ও দেশিয় প্রজাতির মাছের উৎপাদনে অনবদ্য অবদান রেখে উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় এলাকা তথা দেশের মানুষের পুষ্টিমান ও জিংক জাতীয় খাবার চাহিদা পূরনে বিশেষ গরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে তা প্রতীয়মান। প্রতিবেদনকালে বিজনেস বাংলাদেশের ব্যরো চীফ, ওয়াহেদ রহমান, জাতীয় দৈনিক আলোকিত প্রতিদিনের বিশেষ প্রতিনিধি মোঃ মিজানুর রহমান এবং আলোকিত প্রতিদিনের দিনাজপুর জেলা প্রতিনিধি পরিমল চন্দ্র দাস সাথে ছিল। 
আমরা সকলেই এ প্রতিষ্ঠানের উত্তোরত্তর সমৃদ্ধির মাধ্যমে শুধু উত্তর পশ্চিআঞ্চলীয় নয় বরং অঘোষিত বিশ্ব হ্যাচারীকে কার্যকর ভাবে বিশ্ব হ্যাচারীতে দেখার আত্ম- প্রত্যয় ব্যক্ত করছি।

জুলফিকুল সিদ্দিকী স্বরণে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল সম্পন্ন

জুলফিকুল সিদ্দিকী স্বরণে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল সম্পন্ন




মিরসরাই প্রতিনিধি

বৃহত্তর ফেনী নদী বালু ব্যবসায়ী সমিতির পরিচালক, ছাগলনাইয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ও বারইয়ারহাট বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব জুলফিকুল সিদ্দিকী স্বরণে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল বিকেলে ঘোপাল ইউনিয়নের সমিতি বাজার জামে মসজিদে দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন ঘোপাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল হক মানিক। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আশেক এলাহী, সমাজ সেবক ব্যবসায়ী হাজ্বী মহসিন আলী, ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আবু তাহের, যুবলীগ নেতা জামশেদ আলম, ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ তানভীর সহ ছাত্রলীগ, যুবলীগ নেতৃবৃন্দ সহ এলাকার বিশিষ্ট গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।   যুবলীগ নেতা মোহাম্মদ জুবায়ের পারভেজের সার্বিক আয়োজনে দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন ঘোপাল ইউনিয়ন ইমাম সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাওলানা রেজাউল করিম।

চৌগাছা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতির ওপর হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ঝিকরগাছা উপজেলা ছাত্রলীগ

চৌগাছা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতির ওপর হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ঝিকরগাছা উপজেলা ছাত্রলীগ





মোঃ ইকরামুল করিম সৈকত, 
ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ

যশোরের চৌগাছা উপজেলায় দুষ্কৃতীদের হামলায় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ইব্রাহিম হোসেন সহ ২ জন মারাত্মক ভাবে আহত হয়েছে। 

জানা যায় শুক্রবার ১০ জুলাই  আনুমানিক রাত ৮ ঘটিকায় চৌগাছার বেড়গোবিন্দপুর বাওড় ব্রিজের নিকটে এই ঘটনা ঘটে।

আহতদের উন্নত চিকিৎসার জন্য যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

এই পৈশাচিক হত্যা চেষ্টার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ঝিকরগাছা উপজেলা ছাত্রলীগ এবং অতি দ্রুত জড়িতদের আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবি জানিয়েছে ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

দুয়াজানী কলেজ পাড়া ছাত্র কল্যান পরিষদের বর্তমান কমিটি ভেঙ্গে আহবায়ক কমিটি গঠন

দুয়াজানী কলেজ পাড়া ছাত্র কল্যান পরিষদের বর্তমান কমিটি ভেঙ্গে  আহবায়ক কমিটি গঠন



              
 টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি :দুয়াজানী কলেজ পাড়া ছাত্র কল্যান পরিষদের এক জরুরী সভায় প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডা.এম.এ.মান্নানের সভাপতিত্বে ও মহাসচিব হাসান সাদীর পরিচালনায় করোনা প্রতিরোধে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে অনুষ্ঠিত হয় এবং উপদেষ্টা প্যানেল এর সদস্য ইন্জি.তারিকুল ইসলাম এর সাথে পরামর্শ করে বর্তমান কমিটি মেয়াদ শেষ হওয়ায় কমিটি ভেঙ্গে দিয়ে আট সদস্য বিশিষ্ট গঠনতন্ত্রের ১২(ক)২০১৬ ধারায় ক্ষমতা বলে আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়।

আজ শুক্রবার, ১০ জুলাই সন্ধ্যা-৮.০০ টায় দুয়াজানী কলেজ পাড়া ছাত্র কল্যান পরিষদের জরুরী মিটিং এ আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। 

আহবায়ক কমিটি নিম্মরুপ :-

 আহবায়ক-হাসান সাদী
          যুগ্ন আহবায়ক-
শুকুর আলী,শান্ত, ফয়জুল রহমান।    
                  সদস্য
আকাশ,সাব্বির,সুমন(রুবেল),    ইমাম হোসেন।

আহবায়ক কমিটির মেয়াদ ১৫ দিন অথাৎ ৩০ জুলাই ২০২০ পর্যন্ত।

প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডা.এম.এ.মান্নান বলেন-নব আহবায়ক কমিটিকে আমার পক্ষ থেকে অভিনন্দন ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানাই। শত বাধা অতিক্রম করে আহবায়ক  কমিটি আমরা গঠন করতে পেয়ে মহান আল্লাহ দরবারে শুকুরিয়া আদায় করছি, আলহামদুলিল্লাহ। আমি আহবায়ক কমিটিকে আহবান করছি আপনেরা সবাই কে নিয়ে একটা নতুন কমিটি উপহার দিতে। কমিটি হতে হবে সংগঠনের গঠনতন্ত্র মোতাবেক। আহবায়ক কমিটির সকল নেত্ববৃন্দকে করোনা প্রতিরোধে কার্যকর ভুমিকা পালন করার জন্য অনুরোধ করছি । 

উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ইন্জি.তারিকুল ইসলাম বলেন,আমি আশাবাদী দুয়াজানী কলেজ পাড়া ছাত্র কল্যান পরিষদ সব সময় ছাত্রদের পাশে থাকবে এবং সকল ছাত্র সমাজকে ঐক্য রাখার জন্য কাজ করবে। সবাই মিলে একটা নতুন কমিটি উপহার দিবে। এই সংগঠন দেশ ও জাতির কল্যানে অবদান রাখবে।সকল ছাত্রদের মনে রাখতে হবে দুয়াজানী কলেজ পাড়া ছাত্র কল্যান পরিষদ কোন ছাত্র রাজনৈতিক দলের নাম নয়। একটা অরাজনৈতিক সংগঠন। এই সংগঠনের মৃল কাজ হবে মানব কল্যান ও ছাত্র কল্যান।  করোনা প্রতিরোধে সবাই সচেতন থাকুন।

করোনাকে পুজি করে কোন অনিয়ম, দুর্ণীতি ও চাঁদাবাজি হলে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে- হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি

করোনাকে পুজি করে কোন অনিয়ম, দুর্ণীতি ও চাঁদাবাজি হলে তাদের আইনের আওতায় আনা হবে- হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি





মামুনুর রশিদ,প্রতিনিধি দিনাজপুর ঃ জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেন, করোনার এই মহামারির সময় দেশের একটি মানুষ না খেয়ে থাকেনি উল্লেখ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহামারির এর সময় জনগনের দুর্ভোগ লাঘমে সময়েপযোগি পদক্ষেপ গ্রহন করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর পরিকল্পনার কারনে মহামারির এ সময় স্বাস্থ্য সেবা ও খাদ্য  বিতরনের কারনে দেশের কোন মানুষ অভাব বোধ করতে পারে নাই। তিনি বলেন, মনকে পরিস্কার করে মানুষের সেবায় উৎস্বর্গীত করলে করোনার হাত থেকে রেহাই পাবেন। তবে কোন অনিয়ম, দুর্নীতি, ত্রান লুন্ঠন, চাঁদাবাজী, ওষুধের অতিরিক্ত মুল্য আদায়কারীদের ছাড় দেয়া হবে না। মানুষের দুর্ভোগকে পুজি করে কেউ লাভবাান হতে চাইলে তাকে আইনের আওতায় আনা হবে বলে সতর্ক করে দেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তৃনমুল পর্যায়ে অর্থাৎ গ্রামীন অবকাঠামোর উন্নয়নে প্রচুর বরাদ্দ দিয়েছেন। ইতিমধ্যেই গ্রামীন উন্নয়ন কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। কিন্তু করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এ মহামারি ছড়িয়ে পড়ায় উন্নয়ন কার্যক্রমে কিছুটা বাধা গ্রস্থ হয়েছে। তারপরও আমরা বিশ্বাস করি সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে আমাদের গ্রামীণ কার্যক্রম উন্নয়ন অব্যাহত থাকবে। 
দিনাজপুর সদর উপজেলা পরিষদ হলরুমে সদর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে দিনাজপুরে গ্রামীন অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষন কর্মসুচীর আওতায় ৯২টি মসজিদ, মন্দির, বিভিন্ন ধর্মীয় ও সামাজিক প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে ৬২টি লাখ ৫৭ হাজার ৬৬৬ টাকা চেক বিতরন ও এডিপির আওতায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বিভিন্ন সামগ্রী বিতরনকালে হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি উপরোক্ত কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দিনাজপুর সদর-৩ আসন (সদর উপজেলায়) সার্বিক উন্নয়নে বিভিন্ন উন্নয়ন মুলক কাজের অংশ হিসেবে মসজিদ, মন্দির, মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে টিআরএর মাধ্যমে এ অর্থ বরাদ্দ দেয়া হলো। 
অনুষ্ঠানে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাগফুরুল হাসান আব্বাসীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ইমদাদ সরকার, ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর কুমার রায়, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন আরা জো¯œা, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরুপ বকসী বাচ্চু, শহর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রায়হান কবীর সোহাগ, সাধারন সম্পাদক খালেকুজ্জামান রাজু প্রমুখ।

নিরাপদ চিকিৎসা চাই (নিচিচা) দিনাজপর জেলা কমিটি পূণর্গঠন

নিরাপদ চিকিৎসা চাই (নিচিচা) দিনাজপর জেলা কমিটি পূণর্গঠন





দিনাজপর প্রতিনিধিঃ নিরাপদ চিকিৎসা চাই (নিচিচা) কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান যুবরাজ খান এর দিক নির্দেশনায় ও সার্বিক সহযোগিতায় কেন্দ্রীয় সাধারন সম্পাদক উন্মে সালমার পরামর্শক্রমে সিডিসি সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত দিনাজপুর জেলা কমিটি পূর্ণগঠন সভার মাধ্যমে যাদব চন্দ্র রায়ের সভাপতিত্বে ১৫ সদস্য বিশিষ্ঠ নিরাপদ চিকিৎসা চাই (নিচিচা), দিনাজপুর জেলা কমিটি গঠন করা হলে সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী যাদব চন্দ্র রায় সভাপতি এবং সাধারন সম্পাদক পদে সোয়েবা সুলতানা (রিতা) নির্বাচিত হয়। উক্ত কমিটিতে সহ-সভাপতি হিসাবে যথাক্রমে বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী মোঃ রবিউল ইসলাম সোহাগ ও ড. পংকজ কুমার সরকার নির্বাচিত হন। সাংগঠনিক সম্পাদক হাফিজা খাতুন, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মোঃ তোফাজ্জল হোসেন হীরা, প্রচার সম্পাদক সাংবাদিক রনজিৎ সরকার রাজ, দপ্তর সম্পাদক মোঃ ফরিদ আলী, কোষাধ্যক্ষ সাংবাদিক যাদব চক্রবর্তী, নির্বাহী সদস্য সাংবাদিক মোঃ মঞ্জু হোসেন, সন্দীপ রায়, সাংবাদিক সত্যেন্দ্র নাথ রায়, হরি রায়, শারমিন খাতুন এবং রাজেশ রায় নির্বাচিত হয়। ১৫ সদস্য বিশিষ্ঠ এই কমিটি আগামী ৩ (তিন) বছর দ্বায়িত্ব প্রাপ্ত হয়ে নিরাপদ নিকিৎসা চাই (নিচিচা) কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশনা ও পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করবে। উক্ত কমিটিতে উপদেষ্টা হিসাবে বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও এনজিও ব্যক্তিত্ব মোঃ আলমাস শেখ, বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী রশিদুল ইসলামকে কমিটি কর্তৃপক্ষ মনোনীত করেন।

ঝিনাইদহ আরও ১২ জন করোনায় আক্রান্ত

ঝিনাইদহ আরও ১২ জন করোনায় আক্রান্ত




সম্রাট হোসেন, শৈলকুপা ( ঝিনাইদহ) সংবাদদাতাঃ

১১_৭_২০২০ইংতারিখ কোভিড-১৯ এর আপডেট তথ্য :

অফিসিয়াল ভাবে আমাদের কাছে কুষ্টিয়া_ল্যাব থেকে আরো ৩৬টিনমুনার ফলাফল এসেছে। যার ২৪জন_নেগেটিভ এবং ১২জন_নতুন_আক্রান্ত। 

মোট প্রাপ্ত ফলাফলের সংখ্যা২৫২১+২৪=২৫৪৫
নেগেটিভ_২১৫৫
আক্রান্ত_৩৭৮+১২=৩৯০

মোট_সংগৃহীত_নমুনার_সংখ্যা_২৮২৮

উপজেলা_ভিত্তিক_আক্রান্তের_মোট_সংখ্যা 
সদর_১৩৬+১০=১৪৬
শৈলকূপা_৫৬
হরিনাকুন্ডু_১৬
কালীগন্জ_১২৪
কোটচাদপুর_২৫
মহেশপুর_২১+২=২৩

আক্রান্তদের_এলাকা_সমুহ_

সদর_১০
১. পুলিশ লাইন ঝিনাইদহ
২. আদর্শপাড়া
৩. পুলিশ লাইন ঝিনাইদহ
৪. সোনালী ব্যাংক
৫. এইস. এস. এস. সড়ক
৬. এইস. এস. এস. সড়ক
৭. এইস. এস. এস. সড়ক 
৮. শেরে বাংলা সড়ক
৯. শিকারপুর
১০. সদর হসপিটাল ঝিনাইদহ

মহেশপুর_২
১. ধন্য হাড়িয়া
২. খানপাড়া জলিলপুর

​মোট_সুস্থতার_সংখ্যা_১২৮

উপজেলা_ভিত্তিক_সুস্থতার_সংখ্যা

সদর_৪০
শৈলকূপা_১৬
হরিনাকুন্ডু_৬
কোটচাঁদপুর_১৮
কালীগন্জ_৩৮
মহেশপুর_১০

কোভিড_১৯_হাসপাতালে_ভর্তি_রোগীর_সংখ্যা_২০

মোট_মৃত্যুর_সংখ্যা_৯জন 
সদর_২
শৈলকূপা_৪
কালিগন্জ_৩

সিঙ্গাপুরের ক্ষমসীন দল পিপলস অ্যাকশন পার্টি পুনরায় নির্বাচিত

সিঙ্গাপুরের ক্ষমসীন দল পিপলস অ্যাকশন পার্টি পুনরায় নির্বাচিত





মোঃনাইম শেখ, সিঙ্গাপুর প্রতিনিধি 

সিঙ্গাপুরের জনগন পিপলস অ্যাকশন পার্টিকে পুনরায় সরকারে ফিরিয়ে দিয়েছে। তারা ৯৩ টি আসনের মধ্যে ৮৩ টি আসনে জয়ী হয়েছে। 

এটা ছিলো সংকটকালীন নির্বাচন, কোভিড -১৯ এর সমীক্ষায় যা বলা হয়েছিল৷ এই নির্বাচনে পিপলস অ্যাকশন পার্টি ৬১.২৪ ভাগ ভোট পেয়েছে৷ তবে ২০১৫ সালের নির্বাচনে তারা ৬৯.৯ ভাগ ভোট পেয়েছি যা এ বছরের নির্বাচনে ৯ ভাগ কমেছে৷ 

সব মিলিয়ে মহামারীর প্রেক্ষাপটকে সামনে রেখে সিঙ্গাপুরের স্বাধীনতার পর থেকে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হিসাবে বিবেচিত নির্বাচনটি। ১৯৬৫ সাল থেকে সিঙ্গাপুরের ১৪ তম জাতীয় সংসদে বিরোধী দলের উপস্থিতির সংখ্যা দ্বিগুণ দশ জন নির্বাচিত সংসদ সদস্যকে দেখতে পাবে।

বিরোধী দলকে নিশ্চিহ্ন করার ভয়, যা ওয়ার্কার্স পার্টি এবং অন্যরা সতর্ক করেছিল, তা ভিত্তিহীন প্রমাণিত হয়েছিল। পরিবর্তে, বিরোধীরা এখন একটি শক্তিশালী দলে পরিণত হয়েছে৷

ওয়াকার্স পার্টি ভোটারদের কাছে নীতিমালা গঠনের জন্য ক্ষমতাসীন দলকে "ফাঁকা চেক" না দেওয়ার আবেদনটি ভোটারদের দমন করেছে বলে মনে হয়।

তবে কয়েকটি নতুন আসনে ক্লোজ লড়াই চালিয়ে যাওয়া নব্য অগ্রগতি সিঙ্গাপুর পার্টি (পিএসপি) এবং সিঙ্গাপুর ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (এসডিপি) সহ অন্যান্য বিরোধী দলগুলি শূন্য হাতে রাত শেষ করেছে।

নির্বাচনের জন্য নিবন্ধিত ২.৬৫ মিলিয়ন ভোটারদের পিপলস অ্যাকশন পার্টি অনুরোধ করেছিল যাতে তারা চেষ্টা করে-বিশ্বস্ত দলকে ভোট দিতে। তাদের জীবন, চাকরি এবং ভবিষ্যত সুরক্ষিত করে সংকটের মধ্য দিয়ে দেশ পরিচালনার শক্ত ম্যান্ডেট দিতে হবে।

পরিবর্তে, মহামারীটিতে উদ্বেগ ও বেদনা অনুভূত হয়েছে যেহেতু মহামারী সংকট থেকে অর্থনৈতিক প্রভাব তার ক্ষতি গ্রহণ করে, তেমনি একটি শক্তিশালী স্লেট এবং বিরোধী দলের আরও শক্তিশালী অভিযানও ফলাফলটিকে রূপ দিয়েছে।

২০১৫ সালের পিএপি-র ভোটের উচ্চতর স্কোর থেকে তা উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস পেয়েছে৷ যা সিঙ্গাপুরের জন্য একটি জয়ন্তী বছর ছিল এবং সিঙ্গাপুরের প্রতিষ্ঠাতা প্রধানমন্ত্রী লি কুয়ান ইয়ে কেও মৃত্যুবরণ করেছিলেন। যা সিঙ্গাপুরবাসীদের গভীরভাবে সরিয়ে নিয়েছিল এবং পিএপিকে সুরক্ষিত করতে অবদান রেখেছিল সর্বাধিক প্রত্যাশিত চেয়ে ভাল ফলাফল করেছিলো। 

প্রধানমন্ত্রী লি হিশিয়েন লুং যেমন প্রচারের সময় স্বীকার করেছিলেন, ভোটাররা যখন কোনও সংকটের মধ্যে পড়তে পারে তখন এটি "সময়ের চেয়ে সবচেয়ে সুখের বিষয় নয়", কোভিড -১৯ মহামারী থেকে মানুষ অর্থনৈতিক পরিণতিতে ভুগছিল।

তবুও, তিনি এখনই নির্বাচনের ডাক দেওয়া ভাল বলে মনে করেছিলেন, যখন এর প্রাদুর্ভাব স্থিতিশীল পরিস্থিতিতে ছিল এবং সংকট থেকে উদ্ভূত চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সরকার গঠনের সুযোগ দেওয়ার জন্য ভবিষ্যতে কী ঘটেছিল তার অনিশ্চয়তা দেওয়া হয়েছিল।

কুমিল্লার দেবীদ্বারে সড়ক দুর্ঘটনায় স্বামী-স্ত্রী নিহত। আহত ৪

কুমিল্লার দেবীদ্বারে সড়ক দুর্ঘটনায় স্বামী-স্ত্রী নিহত। আহত ৪





শাহ আলম জাহাঙ্গীর
ব্যুরো চিফ, কুমিল্লা

 কুমিল্লা- সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের দেবীদ্বার উপজেলার হোসেনপুর এলাকায় একটি মালবাহী ট্রাকের সাথে সি,এন,জি চালিত অপর একটি অটোরিক্সার মুখমোখী সংঘর্ষে স্বামী-স্ত্রী সহ ২জন ঘটনাস্থলে নিহত এবং চালক সহ অপর ৪ যাত্রী আহত হয়েছেন। সিএনজি চালিত অটোরিক্সার হতাহত সকল যাত্রী দেবীদ্বার উপজেলার অধিবাসী।

 গতকাল শুক্রবার রাত পৌনে ৮টায় কুমিল্লা- সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের দেবীদ্বার উপজেলার হোসেনপুর উইলসন কোল্ড স্টোরেজের কাছে দুর্ঘটনাটি ঘটে।

আহতদের দেবীদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা দিয়ে আশংকাজনক অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিহত আবু তাহের (৬৫) উপজেলার ফতেহাবাদ ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামের মৃত: আফসার উদ্দিনের পুত্র এবং অপর নিহত জোবেদা খাতুন(৬০) একই গ্রামের একই দূর্ঘটনায় নিহত আবু তাহেরের স্ত্রী। নিহত দু’জন সম্পর্কে স্বামী- স্ত্রী ছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছেন।

আহত ৪ জন হলেন,- উপজেলার ডালকরপাড় গ্রামের গোলাম হোসেন’র পুত্র আলাউদ্দিন(২২), গুনাইঘর গ্রামের আয়েত আলীর পুত্র মাছুম মিয়া(২০), সাইচাপাড়া গ্রামের বাচ্চু মিয়ার পুত্র মোঃ ফারুক(৩০), খলিলপুর গ্রামের রনীন্দ্র চন্দ্র রায়ের পুত্র তাপস চন্দ্র রায়(২৫)।

 মীরপুর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুর রব জানান, রাত অানুমানিক পৌনে ৮টায় ৫ যাত্রী ও চালক সহ ৬জন বহনকারী একটি দ্রতগামী সিএনজি চালিত অটোরিক্সা উপজেলার জাফরগঞ্জ ইউনিয়নের পিরুজপুর থেকে উইলসন কোল্ড ষ্টোরেজ’র পশ্চিম পাশের ফাঁড়িরাস্তা থেকে কুমিল্লা- সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কে উঠার সময় কুমিল্লাগামী একটি মালবাহী ট্রাকের সামনে দিয়ে ট্রাকের ভেতরে ঢুকে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।  ঘটনাস্থলে একজন নিহত এবং অপর ৫জনকে দেবীদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক আহত একজন মহিলাকে মৃত ঘোষণা করেন।

হাইওয়ে পুলিশ ঘাতক ট্রাকটি আটক এবং দূর্ঘটনায় কবলিত ধুমড়েমুচড়ে যাওয়া সিএনজি চালিত অটোরিক্সাটি উদ্ধার করে দেবীদ্বার থানায় নিয়ে আসে।