কিশোরগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদল আহ্বায়ক কমিটি গঠন: সুজন আহ্বায়ক, রাসেল সদস্য সচিব

কিশোরগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদল আহ্বায়ক কমিটি গঠন: সুজন আহ্বায়ক, রাসেল সদস্য সচিব




মো:লাতিফুল  আজম
কিশোরগঞ্জ নীলফামারী প্রতিনিধি:


ইবনে সাঈদ সুজনকে আহ্বায়ক ও সোহেল রানা প্রামানিক রাসেলকে সদস্য সচিব করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট কিশোরগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদল আহ্বায়ক কমিটি গঠন করেছে জেলা ছাত্রদল সৈয়দপুর রাজনৈতিক জেলা শাখা। বৃহস্পতিবার রাতে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি রিজওয়ান আক্তার পাপ্পু ও মোঃ শফিকুল ইসলাম বাবু স্বাক্ষরিক এ কমিটি আজ শুক্রবার হাতে পাওয়ার কথা স্বীকার করেন কমিটির নতুন আহ্বায়ক ইবনে সাঈদ সুজন।


নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদল দীর্ঘ দিন থেকে কমিটিবিহিন ছিল। ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা ছিল নতুন কমিটি। বৃহস্পতিবার রাতে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি রিজওয়ান আক্তার পাপ্পু ও মোঃ শফিকুল ইসলাম বাবু স্বাক্ষর করে নতুন এ কমিটি ঘোষণা দেন।

নতুন কমিটিতে আহ্বায়ক করা হয়েছে ইবনে সাঈদ সুজন, সদস্য সচিব সোহেল রানা প্রামানিক রাসেলকে। এদিকে ২১ বিশিষ্ট নতুন এ কমিটিতে যুগ্ম আহ্বায়ক করা হয়েছে ৫ জনকে ও সদস্য করা হয়েছে ১৪ জনকে। স্বাক্ষরিত কমিটিটি আজ শুক্রবার হাতে পেয়েছে বলে ইবনে সাঈদ সুজন সাংবাদিকদের জানান।

ফলোআপঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামির হামলায় সদর থানা পুলিশের এ.এস.আই এর মৃত্যু

ফলোআপঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামির হামলায় সদর থানা পুলিশের এ.এস.আই এর মৃত্যু





এস.এম অলিউল্লাহ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সদর উপজেলা মাছিহাতা ইউনিয়নের পাগাছন চাঁনপুর এলাকায় গতকাল ১৭ জুলাই সাজাপ্রাপ্ত ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামি গ্রেফতারের সময় আসামির ছুরির আঘাতে সদর থানার এ.এস.আই আমির হোসেন(৩৫) এর মৃত্যু হয়েছে। 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানা সূত্রে জানা যায় গতকাল বিকাল আনুমানিক ৫ ঘটিকার সময় এ.এস.আই আমির হোসেন ও এ.এস.আই মনির সংকর এর নেতৃত্বে সাজাপ্রাপ্ত ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামি মামুন কে গ্রেফতারের জন্য  মাছিহাতা ইউনিয়নের পাঘাছন চাঁনপুর বাজার রেললাইন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানে ঐ এলাকার মাদক ও ডাকাতির মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামি মামুন কে গ্রেফতার করতে গেলে পুলিশের অবস্থান টের পেয়ে মামুনের হাতে থাকা দাড়ালো ছুরি দিয়ে কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই এ.এস.আই আমির হোসেনকে বুকে আঘাত করে আসামি মামুন দ্রুত পালিয়ে যায়। 

সঙ্গে থাকা এ.এস.আই মনির সংকর আমির হোসেন কে উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করে। ফুসফুসে মারাত্মক আঘাত পাওয়ার তার মৃত্যু হয় বলে জানা যায়। 

এ.এস.আই আমির হোসেন এর বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার কোতোয়ালি সদর থানায়। তার বাবার নাম মোনতাজ আলি। আমির হোসেন পুলিশের একজন সৎ আদর্শবান অফিসার ছিলেন বলে তার সহপাঠীরা জানিয়েছেন। তার মৃত্যুতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সকল পুলিশ সদস্য গভীরভাবে শোকাহত। আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারে মাঠে নেমেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া  পুলিশের একাধিক টিম। বিস্তারিত ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে।

ওসি মিজানুর রহমান, এর সাথে ঝিনাইদহে পশু হাট মালিক দের আলোচনা সভা

ওসি মিজানুর রহমান, এর সাথে ঝিনাইদহে পশু হাট মালিক দের আলোচনা সভা







খোন্দকার আব্দুল্লাহ বাশার। 
( ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধি) 


পবিত্র ঈদউল-আযহা উপলক্ষে ১৭ জুলাই শুক্রবার ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ এর অফিস কক্ষে ঝিনাইদহ থানা এলাকার সকল পশু হাটের ইজারাদারদের উপস্থিতিতে পশু হাটের সার্বিক নিরাপত্তার লক্ষে পশু হাটের সকল সেচ্ছাসেবকদের নিদিষ্ট পোষাক পরিধান করা, গলায় সেচ্ছাসেবক পরিচয়পত্র ঝুলিয়ে রাখা, পশু হাটের একটি নিদিষ্ট স্থানে জাল টাকা সনাক্ত করণ মেশিন স্থাপন করা, ক্রেতা-বিক্রেতা উভয় মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করণ, হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা করণ, স্বাস্থ্যবিধি মেনে পশু ক্রয়-বিক্রয়, বাহির থেকে আসা সকল ব্যাপারীদের সার্বিক সহযোগিতা সহ যাতে করে কোন ব্যক্তি কোন প্রতারক বা প্রতারক চক্রের দ্বারা প্রতারিত না হয় সে বিষয়ে আলাপ-আলোচনা করেন জনাব মোঃ মিজানুর রহমান, অফিসার ইন-চার্জ, ঝিনাইদহ থানা, ঝিনাইদহ।

কয়রায় ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপন কর্মসূচি অব্যাহত

কয়রায় ছাত্রলীগের বৃক্ষরোপন কর্মসূচি অব্যাহত




কয়রা প্রতিনিধি :- মুজিববর্ষ উপলক্ষে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি অব্যাহত   রেখেছে কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগ।

শুক্রবার ১৭ জুলাই বিকালে কয়রা উপজেলা মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নের ডিম কে এস এ গিলাবাড়ি পি জি ইউনাইটেড একাডেমী মাঠে  চারা রোপনের মাধ্যমে চতুর্থ ধাপে বৃক্ষ রোপনের উদ্বোধন করা হয়। 

এসময় মাঠের চারপাশে রোপণ করা হয় ফলদ, বনজসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছের চারা।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে দলের প্রত্যেক নেতা কর্মীকে  তিনটি করে গাছ রোপণের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরই অংশ হিসেবে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দিক নির্দেশনায়  এ কর্মসূচির আয়োজন করে কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগ ও মহেশ্বরীপুর ইউনিয়ন  ছাত্রলীগ।

বৃক্ষরোপন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলাম টিংকু বলেন, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা ও জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব থেকে দেশকে বাঁচাতে হলে বৃক্ষরোপণের কোনো বিকল্প নেই। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বানে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সারা দেশে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। সে পরিপ্রেক্ষিতেই শুক্রবার  চতুর্থ  ধাপে মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নে  বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টানে  গাছের চারা রোপণ করা হয়। পরিবেশ বাঁচাতে আমাদের এ কার্যক্রম চলমান থাকবে।বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) আমিনুল হক বাদল, সহ সভাপতি তরিকুল ইসলাম, জেলা ছাত্রলীগ সহ সম্পাদক মাসুদ রানা, ছাত্রলীগ নেতা, রিজভী, বিল্লু,রাজু,  ফেরদাউস, আঃ রহমান, রাজা, জুবায়ের, আশিক মেহেদী, মোস্তাফিজ, শান্ত, নিতিশ,তুহিন, উজ্বল, তুফান, আবু, জাফর, হাসান, সম্রাট,আহসান, মনিরুল, শরিফুল, বিপুল মন্ডল, অর্পন মন্ডল, রাকেশ মন্ডল, রাকেশ, সুমন মন্ডল, মলয় রায়, হাবিবুল্লাহ প্রমূখ।

আশাশুনির রিভারভিউ কেওড়া পার্ক কমিটি গঠন

আশাশুনির রিভারভিউ কেওড়া  পার্ক কমিটি গঠন


 আহসান উল্লাহ বাবলু উপজেলা প্রতিনিধিঃ
আশাশুনি উপজেলার মরিচ্চাপ নদীর চর ভরাটি জমিতে অবস্থিত 
মরিচ্চাপ রিভার ভিউ কেওড়া পার্কের প্রশাসনিক ও উন্নয়ন মূলক কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে অব্যাহত রাখার লক্ষ্যে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।
গত ২ জুলাই সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মহোদয় স্বাক্ষরিত পত্রে জানাগেছে, কমিটির উপদেষ্টা মাননীয় সংসদ সদস্য সাতক্ষীরা-৩, আশাশুনি ও কমিশনার খুলনা বিভাগ খুলনা। সভাপতি জেলা প্রশাসক সাতক্ষীরা, সদস্য উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আশাশুনি, সহকারী কমিশনার (ভূমি), উপজেলা কৃষি অফিসার, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা, উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা, অফিসার ইনচার্জ, উপজেলা প্রকৌশলী, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা, ফরেষ্টার বনবিভাগ আশাশুনি, বুধহাটা ইউপি চেয়ারম্যান, আশাশুনি সদর ইউপি চেয়ারম্যান এবং সদস্য সচিব করা হয়েছে আশাশুনি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে।

প্রতাপনগরে বুয়েট শিক্ষক সমিতির খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

প্রতাপনগরে বুয়েট শিক্ষক সমিতির  খাদ্য সামগ্রী বিতরণ



আহসান  উল্লাহ  বাবলু উপজেলা প্রতিনিধিঃ আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগরে অসহায় মানুষের মাঝে বুয়েট শিক্ষক সমিতি খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছে। শুক্রবার সকালে প্রতাপনগর ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে এ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। 
সুপার সাইক্লোন আম্ফানে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ভেড়ী বাঁধ ভেঙ্গে ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ড প্লাবিত হয়ে যায়। সেই থেকে প্লাবিত অসহায় মানুষগুলো মানবেতর জীবন যাপন করছে। এসব অসহায় মানুষের মাঝে পাশে থেকে সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে বুয়েট শিক্ষক সমিতি খাদ্য সামগ্রী প্রেরণ করে। ইউনিয়নের ২০০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করেন, ডেইলি নিউ এজ ও দৈনিক সময়ের খবর সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ। এলজিইডি দেবহাটা উপজেলা কার্যসহকারী আঃ ছালামের তত্ত্বাবধানে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন, প্রতাপনগর ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি শেখ জাকির হোসেন। প্রত্যেককে ১০ কেজি চাল, ২ কেজি আটা, ১ কেজি মশুরীর ডাল, ১ কেজি সোয়াবিন তেল, ২ কেজি আলু প্রদান করা হয়। এসময় স্থানীয় ইউপি সদস্য, গ্রাম পুলিশ, রাজনৈতিক ও গন্যমান্য ব্যক্তি বর্গ উপস্থিত ছিলেন।

কয়রায় বাঁশের স্যাকোর উদ্ধোধন

কয়রায় বাঁশের স্যাকোর উদ্ধোধন




কয়রা(খুলনা)প্রতিনিধিঃ কয়রা সদর ও মহারাজপুর ইউনিয়নের সিমান্তবর্তী শাকবাড়িয়া খালে উত্তরচক কামিল মাদ্রাসার পাশ্ববর্তী এলাকায় সাধারন মানুষের  পারাপারের জন্য বাশের স্যাকো স্থাপন করা হবে। গতকাল ১৭ জুলাই বেলা ১১ টায় এ কাজের উদ্ধোধন করেন কয়রা সদর ইউপি চেয়ারম্যান মোহাঃ হুমায়ুন কবির। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উত্তরচক কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা মোস্তফা  আব্দুল মালেক, সিনিয়র সাংবাদিক সরদার হারুন অর রশিদ,প্রতাপস্মরনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক রনজিত কুমার,ইউপি সদস্য মোঃ লুৎফর রহমান,কয়রা বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মইদুল ইসলাম সানা,  উপজেলা শ্রমীকলীগের সাধারন সম্পাদক আমিরুল ইসলাম,সমাজসেবক কামরুল ইসলাম সানা,আবু সৈয়দ,মিন্টু সানা, বাবু প্রমুখ।

এসময় এলাকাবাসী বলেন কয়রা মহারাজপুরের সংযোগ স্যাকোটি সমস্যা হোয়ায় যাতায়াতের বিঘ্ন হয়। স্যাকোটির নির্মান কাজ শেষ হলে চলাচলের দূর্ভোগ কমবে।

যশোরে সাংবাদিকদের সাথে বাংলাদেশ সাংবাদিক জোটের মতবিনিময় অনুষ্ঠিত

যশোরে সাংবাদিকদের সাথে বাংলাদেশ সাংবাদিক জোটের মতবিনিময় অনুষ্ঠিত



নিজস্ব প্রতিনিধি: যশোরে সর্বস্তরের সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা করেছে সাংবাদিকদের কল্যানে কাজ করে যাওয়া সংগঠন বাংলাদেশ সাংবাদিক জোট।
শুক্রবার সকালে যশোর সদরে এ মতবিনিময় সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।
মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সাংবাদিক জোটের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের সভাপতি মো: মশিউর রহমান, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সাংবাদিক জোটের সহ-সভাপতি জাহিদুল ইসলাম মামুন, সাপ্তাহিক বাংলালোক পত্রিকার সম্পাদক গোলাম সরোয়ার, বজ্রশক্তি পত্রিকার সহ-সম্পাদক মো: সাইফুর রহমান।
প্রধান অতিথি মশিউর রহমান সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে সাংবাদিকদের স্বার্থে কাজ করে যাওয়া বাংলাদেশ সাংবাদিক জোটের কর্মকান্ড ও পরিকল্পনা ও সুবিধা তুলে ধরেন।
এর মধ্যে উল্লেখিত সুবিধা গুলো হলো সদস্যদের ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করা, সদস্যদের সল্প খরচে কিংবা বিনা খরচে চিকিৎসার ব্যবস্থা গ্রহন করা, সাংবাদিক সন্তানদের জন্য সকল পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফুল ফ্রি কিংবা অর্ধেক খরচে অধ্যায়নের ব্যবস্থা করা ও মেধাবী সন্তানদের মাসিক বৃত্তি প্রদান, বিভাগ ভিত্তিক শ্রেষ্ট সাংবাদিকদের আর্থিক পুরস্কার প্রদান, যেকোনো সদস্য মৃত্যু বরন করলে পরিবারকে কমপক্ষ ১ লক্ষ টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান, পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে অঙ্গহানি হলে ৩ লক্ষ টাকা অনুদান প্রদান করা, পেশাগত দায়িত্ব পালনে বাধাগ্রস্থ কিংবা অন্যায়ের শিকার হলে তাকে সম্মিলিতভাবে আইনগত সহায়তা করা, সাংবাদিকদের নবজাতক সন্তানকে এককালীন ২৫ হাজার টাকা আর্থিত সহায়তা প্রদানসহ বেশ কিছু সুবিধা তুলে ধরেন।
অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হিউম্যান ওয়াচ রাইটের প্রতিনিধি আব্দুল কাদের, দৈনিক আমার সংবাদের প্রতিনিধি রেজাউল ইসলাম, জয়যাত্রা টিভির প্রতিনিধি রাশেদ আলী, দৈনিক পূর্বাঞ্চল ও দৈনিক যশোরের প্রতিনিধি আনিসুর রহমান, দৈনিক দেশেরপত্র ও সোনারপত্রের প্রতিনিধি সেলিম রেজা, দৈনিক বজ্রশক্তির প্রতিনিধি সোহেল আহম্মেদ, বাংলাদেশের পত্র ডট কমের প্রতিনিধি ফজলুর রহমান, দৈনিক বজ্রশক্তির স্টাফ রিপোর্টার ফিরোজ মেহেদি, দৈনিক দেশেরপত্রের স্টাফ রিপোর্টার শামসুজ্জামান মিলন, হুমায়ন কবির, আহাদ সাহেদ, রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

কিশোরগঞ্জের হতভাগ্য শ্রমিকের কষ্টেগড়া বাড়ীটি আগুনে পুড়ে ছাই

কিশোরগঞ্জের হতভাগ্য শ্রমিকের কষ্টেগড়া বাড়ীটি আগুনে পুড়ে ছাই




মো:লাতিফুলআজম
কিশোরগঞ্জ নীলফামারী প্রতিনিধি:


নীলফামারীর কিশোরগঞ্জের হতভাগ্য শ্রমিক দেলোয়ারের (৩৫) কষ্টে গড়া টিনের বাড়ীটি আগুনে পুড়ে গেছে। শুক্রবার বিকাল ৫টায় কিশোরগঞ্জ সদর ইউপির ইসমাইল গ্রামে এই অগ্নিকান্ডটি ঘটে।


কিশোরগঞ্জ সদর ইউপির ইসমাইল গ্রামের মৃত ইয়াছিন আলীর ছেলে দেলোয়ারের রান্নাঘরের চুলা থেকে আগুনের সুত্রপাত হয়ে গোটা বাড়ীটি পুড়ে যায়। এতে তার ৩টি ঘরের আসবাবপত্র ও সংসারের অন্যান্য জিনিষপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ক্ষয়ক্ষতির পরিমান প্রায় দু’ লক্ষাধিক টাকা।

কিশোরগঞ্জ থানার  দমকল ইউনিট দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। বৃষ্টিপাতের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারটি খোলা আকাশের নীচেও আর রাতযাপন করতে পারছে না। এ ব্যাপারে সদর ইউপি চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান আনিছের সাথে কথা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা সহ রাতযাপনের ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

নাগরপুরে জুয়ার আসর থেকে ৮ জুয়ারী আটক করলেন নাগরপুর থানা পুলিশ।

নাগরপুরে জুয়ার আসর থেকে ৮ জুয়ারী আটক করলেন নাগরপুর থানা পুলিশ।
,

  হাসান সাদী(টাংগাইল) প্রতিনিধিঃ টাংগাইলের নাগরপুরে জুয়ার আসর থেকে  ৮ জুয়ারীকে আটক করেছে নাগরপুর থানা পুলিশ 

আজ(শুক্রবার) ১৭ জুলাই গভীর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে নাগরপুর থানার এসআই সজল খান,এসআই মামুন মৃধা,এএসআই হাসান,এএসআই কবীর সঙ্গীয় ফোর্স সহ উপজেলার সহবতপুর ইউনিয়ন থেকে জুয়াখেলারত অবস্থায় জুয়ারীদের গ্রেফতার করেন।এ সময় জুয়া খেলার সরঞ্জাম তাস ও ৪৫০০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হল উপজেলার সহবতপুর গ্রামের দুদু মিয়ার ছেলে মানিক মিয়া,মৃত বাদশা মিয়ার ছেলে রাসেল,রমেজ আলী খানের ছেলে কবির খান,ফটিক আলী খানের ছেলে উজ্জল খান,আয়েন আলীর ছেলে আতোয়ার মিয়া,আবুল কাশেমের ছেলে মনির হোসেন,মৃত ছুরমান আলীর ছেলে আবু তালেব,মির্জাপুর থানার পানিশাইল গ্রামের আজগর আলীর ছেলে মনির হোসেন। 

এ বিষয়ে নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)আলম চাঁদ সাংবাদিকদের জানান,আসামিদের বিরুদ্ধে জুয়া আইনে মামলা রজু করে কোর্ট হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সাংবাদিক উন্নয়ন সংস্থার কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন

বাংলাদেশ সাংবাদিক উন্নয়ন সংস্থার কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন


ডা.এম.এ.মান্নান 

টাংগাইল জেলা প্রতিনিধি:
বাংলাদেশ সাংবাদিক উন্নয়ন সংস্থার কেন্দ্রীয় ৫৭ সদস্য বিশিষ্ট একটি কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়েছে।       
                                            
গত শনিবার,১১ জুলাই ২০২০ খ্রি.সকাল:১০.০০ টায় রাজধানীর গুলশান নিকেতন এলাকায় সংগঠনের সেন্ট্রাল কার্যালয়ে ৫৭ জন বিশিষ্ঠ কমিটি ঘোষনা করা হয়। এতে সভাপতি সাকিব ইরতেজা চৌধুরী (সাকিব সনেট) সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবির হোসেন সহ ৫৭ জন সাংবাদিক প্রতিনিধির নাম আনুষ্ঠানিক ঘোষণা প্রদান করা হয়। এ সময় উপদেষ্টা মন্ডলী ছাড়াও সাবেক ও বর্তমান সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক সহ অন্যান্য সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সাংবাদিকদের এক পতাকা তলে ঐক্যবদ্ধ থেকে স্বাধীনভাবে কাজ করতে ও তাদের উন্নয়নই মূল লক্ষ্যে। এক বছররের জন্য গঠিত এ কমিটির সভাপতি হলেন সাকিব ইরতেজা চৌধুরী ( সাকিব সনেট) এবং সাধারণ সম্পাদক মো. আবির ইসলাম।             
  
                                        সম্পন্ন  কমিটির নাম ও পদবী নিম্মরুপ-
 
সভাপতি – সাকিব ইরতেজা চৌধুরী,
সহ-সভাপতি- রেজাউল আহসান সিকদার,
সাধারণ সম্পাদক – মো. আবির ইসলাম,
যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক – জামিল চৌধুরী,
সাংগঠনিক সম্পাদক – বেলায়েত বাবলু,
সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক – মনসুর আহমেদ,
প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক-তাওহীদুল ইসলাম,
দপ্তর সম্পাদক – মাসুদ রানা চৌধুরী,
অর্থ বিষয়ক সম্পাদক – জি এম পেয়ারু,
পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক – এম ডি আল আনিসুজ্জামান ( চঞ্চল),
সহ-পরিকল্পনা সম্পাদক- মো. বকুল হোসেন,
তথ্য সম্পাদক – সোহাগ চন্দ্র দাস,
সংস্কৃতি সম্পাদক – মো. মোরশেদুল হক,
ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক – আল – আমিন বাপ্পি,
সমাজকল্যাণ বিষয়ক-মমতাজ উদ্দীন আহমদ,
সহ-সমাজকল্যাণ বিষয়ক – সৈকত দেওয়ান,
আইন-বিষয়ক সম্পাদক-সোহেল মোল্লা সাব্বির
আন্তর্জাতিক বিষয়ক- সোহাগ মল্লিক,
মহিলা বিষয়ক সম্পাদক – নাজনীন সুলতানা তুলি, সহ-মহিলা বিষয়ক সম্পাদক – ইসমত জেরিন মিথিলা, সহ-মহিলা বিষয়ক সম্পাদক – ইয়ামুন নাহার। 

কেন্দ্রীয় কার্যকরী সদস্য – মো. রেজাউল করিম রাজ, মো. নূরুল ইসলাম আকাশ, মো. আসিফ বিন মালেক। সদস্য- মো. মামুন সিকদার, মুহতামিম ইসলাম নাঈম, মো. মাসুম বিল্লাহ, প্রদীপ কুমার দেবনাথ, তানজিম হোসেন রাকিব, মো. লুৎফর রহমান, পিকলু দত্ত, মো. আকবর হোসেন, মো. মেহের আহমেদ, কাউসার হামিদ, শাহাদাত হোসেন, রোমান রায়, মো. মাহবুব হোসেন, মিরাজুল ইসলাম, রাজু আনোয়ার, মো. মোজাম্মেল, মো. শফিকুল রহমান, মো. জাকারিয়া হোসেন, মো. হুমায়ুন কবির,
মো. এনায়েত হোসেন, ডা.এম.এ.মান্নান, মাহবুব হোসাইন, মেরাজুল ইসলাম রিক্ত, মোর্শেদ রাজু, আব্দুল হামিদ, আসিব হাসান, জসীমউদ্দিন খোকন, মো. নায়েব হোসে, উজ্জ্বল কুমার দাস, মো. রাকিব শেখ, আজিমূর রহমান, মো. মিসবাহ উদ্দীন খান আসাদ।
 
কমিটি গঠন শেষে সদ্য নির্বাচিত সভাপতি সাকিব ইরতেজা চৌধুরী বলেন, সাংবাদিকতায় শুদ্ধতার চর্চা করতে হবে। সাংবাদিকদের উন্নয়নে সবধরনের সহযোগিতা করা হবে।             

সাধারণ সম্পাদক মো.আবির ইসলাম বলেন, আমরা অপ সাংবাদিতা রুখে দিব।কোন ভাবেই অপ সাংবাদিকতা বরদাস্ত করা হবেনা।

সিরাজগঞ্জে ডিবি পুলিশ ৬০পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ দুই মাদক কারবারিকে আটক

সিরাজগঞ্জে ডিবি পুলিশ ৬০পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ দুই মাদক কারবারিকে আটক



  মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃ পুলিশ সুপার, হাসিবুল আলম, বিপিএম মহোদয়ের দিক নির্দেশনায় ওসি ডিবি মোঃ মিজানুর রহমান এর নেতৃত্বে এসআই/মোঃ নাজমুল হক ও তার সঙ্গীয় অফিসার-ফোর্স সহ সিরাজগঞ্জ সদর থানার ১০নং সয়দাবাদ ইউনিয়নের অন্তর্গত রোড বাঐতারা সুইচগেট ব্রীজে পাকা রাস্তার উপর থেকে ৬০পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ দুই মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে।
বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) রাত অনুমানিক সোয়া ১০ টার দিকে ১নং আসামী মোঃ সোলেমান শেখ (৩৪), পিতা-মৃত করম আলী শেখ, সাং-পূর্ব মোহনপুর, এর নিকট হইতে ৫০ পিস এবং ২নং আসামী মোঃ কামরুল ইসলাম (২৮), পিতা-মৃত খোকন মন্ডল, সাং-হোসেনপুর এর নিকট হইতে ১০পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, উভয় থানা ও জেলা সিরাজগঞ্জদ্বয়ের নিকট হইতে সর্বমোট ৬০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।
এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জ সদর থানায় মামলা দায়ের পূর্বক ধৃত আসামীদ্বয়কে বিজ্ঞ কোটের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জে এনায়েতপুর এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

সিরাজগঞ্জে এনায়েতপুর  এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার




মাসুদ রানা সিরাজগঞ্জ জেলাপ্রতিনিধিঃ
সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর থানার খামারগ্রাম থেকে৩০০ পিস ইয়াবাসহ ১ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১২।
 গতকাল বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই ) ২ টায় গোপন সাংবাদের ভিত্তিতে সদর কোম্পানীরকোম্পানী কমান্ডার, সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ এরশাদুর রহমান এর নেতৃত্বে র‌্যাব-১২ এর সদরকোম্পানীর একটি চৌকষ আভিযানিক দলসিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর থানার ১ নং সোদিয়াচাঁদপুর ইউনিয়ানের  খামারগ্রাম এলাকায় একমাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে ১ জনমাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে।
গ্রেফতারকৃত আসামী সদর উপজেলা কালিয়া হরিপুর গ্রামের  পিতা-মোঃদুলাল প্রামানিক ছেলে মোঃ নুরুন্নবী (৩৫)।
শুক্রবার  বিকেলে র‌্যাব-১২ এর মিডিয়া অফিসার  সহকারী পুলিশসুপার মোŦ এরশাদুর রহমান এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে 
এ তথ্য নিশ্চিতকরেছেন। বৃহস্পতিবার  গোপনসংবাদের ভিত্তিতে সিরাজগঞ্জ জেলারএনায়েতপুর  খামারগ্রাম গ্রামে   বিপুল পরিমানমাদক  ক্রয়-বিক্রয় করছিলো সেখানে  অভিযান  চালিয়ে ৩০০ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেটসহতাকে গ্রেফতার করা হয়।
 গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে সিরাজগঞ্জজেলার এনায়েতপুর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করতঃ উদ্ধারকৃত আলামতসহতাকে উক্ত থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জে হরিনারায়নপুর গ্রামে ১৩ শতক জমি জোরপুর্বক বেদখল দেবার অভিযোগ

সিরাজগঞ্জে হরিনারায়নপুর গ্রামে ১৩ শতক জমি জোরপুর্বক বেদখল দেবার অভিযোগ



 সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
বগুড়া সিরাজগঞ্জ সীমান্তবর্তি এলাকা সিরাজগঞ্জ সদর থানার হরিনারায়নপুর গ্রামের রেজিষ্ট্রীমুলে ক্রয়কৃত ৩২ শতকের মধ্যে ১৩ শতক ফসলি জমি একই এলাকার জলিল মন্ডল গংরা সন্ত্রাসী কায়দায় বেদখল দিতে মরিয়া হয়ে উঠার অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে সিরাজগঞ্জ ও ধুনট থানায় অভিযোগ করা হলেও আইনকে বৃদ্ধাঙ্গী দেখাচ্ছে জলিল মন্ডরের পরিবার। অভিযোগে জানা যায়, হরিনারায়ন গ্রামে কালি চন্দ্র পালের ছেলে পলান চন্দ্রের চার ছেলের নিকট থেকে চক ডাকাতিয়া মৌজার ৬৪ শতকের কাতে ৩২ শতক ফসলি জমি রেজিষ্ট্রী মুলে মো. আব্দুল মালেক মন্ডল এর চার ভাইয়ের নামে ক্রয় করেন। ৩২ শতক জমির মধ্যে ১৩ শতক জমি জলিল মন্ডল গংরা সন্ত্রাসী কায়দায় জোরপুর্বক বেদখল দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ঘর তুলে বসবাস করছেন। এর মধ্যে দখলী ১৯ শতক জমির মধ্যে মালেক মন্ডল গংরা বৃক্ষরোপন ও পাট চাষ করলে সেখানেও জলিল মন্ডল গংরা বৃক্ষ ও পাট কেটে ফেলে বাউন্ডারী বেড়া দেবার অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে এলাকায় একাধিকবার রতনকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান মরহুম আঃ মোক্কাদি বকুল ও এমদাদুল হক হীরনসহ তিন গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ শালিসী বৈঠক করে মালেক মন্ডল গংদের পক্ষে রায় দিলে জলিল মন্ডল গংরা কোন সামাজিক ও আইনী ন্যায় বিচারের তোয়াক্কা না করে মালেক মন্ডলের ক্রয়কৃত জমি বেদখল দিতে নানাভাবে হুমকি ধামকি দিয়ে সহজ সরল মালেক মন্ডলের পরিবারের প্রতি নির্যাতন শুরু করেছেন। এ বিষয়ে হরিনারায়নপুর গ্রামের মো. গোলজার(৬৩) ও চান মিয়া(৬০) জানান, জলিল মন্ডল গংরা সামাজিক ও আইনী ন্যায় শাসন মানতে নারাজ। তারা জোর করে অন্যের জমি দখল করে সামাজিক ন্যায় বিচার উপেক্ষা করে জোরপুর্বক মালেক মন্ডলের জমি বেদখল দিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। অভিযোগে আরো জানা যায়, ক্ষুদ্রবয়ড়া গ্রামের জহুরুল ইসলাম (কাজি)’র নেতৃত্বে জলিল মন্ডল গংরা প্রভাব খাটিয়ে মালেক মন্ডলের ক্রয়কৃত জমি বেদখল দিচ্ছে। এ ব্যপারে রতনকান্দি ইউপি সদস্য এমদাদুল হক হীরন জানান, উভয়ের মধ্যে জমিজমা সংক্রান্ত জটিলতা মিমাংশার লক্ষ্যে শালিসী বৈঠক করা হয়েছিল কিন্তু জলিল মন্ডল গং পক্ষদ্বয় শালিসী রায় না মেনে তালবাহানা করছেন। তালেব মন্ডল ও জলিল মন্ডলের মধ্যে বিরাজমান জমি সংক্রান্ত ঘটনা আপোষ মিমাংশা না হলে উভয়ের মধ্যে বড় ধরনের ক্ষতির সম্ভবনা রয়েছে বলে এলাকাবাসি অভিমত পোষন করেছেন। জরুরী ভিত্তিতে বিষয়টি সমঝোতা করতে উর্দ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার।

রাষ্ট্রপতির ভাই আবদুল হাইয়ের মৃত্যুতে সাংবাদিক মিঠুন কুমার রাজের শোক

রাষ্ট্রপতির ভাই আবদুল হাইয়ের মৃত্যুতে সাংবাদিক মিঠুন কুমার রাজের শোক


নিজস্ব প্রতিবেদক: রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের ছোট ভাই আবদুল হাইয়ের মৃত্যুতে গভীর শোক জানিয়েছেন সাংবাদিক মিঠুন কুমার রাজ। 

শুক্রবার (১৭ জুলাই) এক শোকবার্তায় মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান মিঠুন কুমার রাজ।

 করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বৃহস্পতিবার দিনগত রাত পৌনে ২টার দিকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হাই। গত ২ জুলাই আব্দুল হাইয়ের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। ৫ জুলাই তাকে ঢাকা সিএমএইচের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয়।

মাধবপুরে করোনা প্রতিরোধে সেচ্ছাসেবক টিম ও নো থ্যাংকস সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে চেতনতামূলক মাইকিং

মাধবপুরে করোনা প্রতিরোধে সেচ্ছাসেবক টিম ও নো থ্যাংকস সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে চেতনতামূলক মাইকিং





লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি

হবিগঞ্জ জেলা করোনা প্রতিরোধে সেচ্ছাসেবক টিম ও নো থ্যাংকস সামাজিক সংগঠনের উদ্যোগে জনসচেতনতা মূলক মাইকিং করা হয়েছে। শুক্রবার (১৭-জুলাই) দুপুরে মাধবপুর বাজারে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে জনসাধারণের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি লক্ষ্যে মাইকিং করা হয়,

এ সময় উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ করোনা প্রতিরোধে সেচ্ছাসেবক টিমের আহবায়ক ব্যারিষ্টার রুহুল আমিন,ও সদস্য সচিব এডভোকেট আফছার উদ্দিন চৌধুরী এবং সাংবাদিক লিটন পাঠান ও মাধবপুর প্রতিনিধি শেখ আরিয়ান রুবেলসহ মাধবপুর উপজেলার প্রতিনিধি দায়িত্বে স্বেচ্ছাসেবক গন নো থ্যাংকস সামাজিক সংগঠনের উপদেষ্টা টিটু সরকার নাষ্টু রায়,

নো থ্যাংকসে প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক অলক রায়, সভাপতি নয়ন রায়, সাধারণ সম্পাদক পায়েল চৌধুরী সদস্য অর্জুন দাস, নাজমুল হাসান গিরিধন সরকার কামিনী ঋষি নান্ঠু মোদক প্রশান্ত দাসসহ সংগঠনে সকল সদস বিন্দু।

এ সময় হবিগঞ্জ জেলা করোনা প্রতিরোধে সেচ্ছাসেবক টিম এর আহবায়ক ব্যারিষ্টার রুহুল ন বাংলাদেশে করোনা প্রাদুর্ভাব আসার শুরু থেকে হবিগঞ্জ জেলার বাসিন্দাদের করোনা ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা লক্ষ্যে সচেতনতা মূলক কাজ করে আসছেন এবং স্বেচ্ছাসেবক টিমে আবাসিক হোটেলের ব্যবস্থা করা সহ জনগনকে স্বচেতন করার লক্ষে নিয়মিত মাইকিং করা হচ্ছে জেলা ব্যাপি।

নওগাঁয় বন্যার্তদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

নওগাঁয় বন্যার্তদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ





মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
রাজশাহী ব্যুরো

নওগাঁর আত্রাইয়ে বন্যার্তদের মাঝে শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে। কয়েক দিনের প্রবল বর্ষণ এবং উজান থেকে নেমে আসা পানিতে আত্রাই নদীর তিন স্থানে ভেঙ্গে যায়। এর মধ্যে নিম্নাঞ্চলসহ নদী সংলগ্ন ৫০ টি গ্রাম প্লাবিত হয়। ঐসকল গ্রামের মানুষ তাদের জীবন বাঁচাতে বিভিন্ন স্কুলে আশ্রয় নিয়েছে। 
উপজেলা প্রশাসন সুত্রে জানা যায় প্রাথমিক অবস্থায় নৌকাযোগে উপজেলার চারটি ইউনিয়নের ১০ টি গ্রাম এবং ৫ টি আশ্রয় কেন্দ্রে বানভাসি মানুষের মাঝে মুড়ি চিরা গুড় মোমবাতি দেয়াশালায়(ম্যাচ) বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ছানাউল ইসলাম। এসময় এসিল্যান্ড আরিফ মুর্শেদ মিশু, ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম বাবু,ওসি তদন্ত মোজাম্মেল হক, আত্রাই প্রেসক্লাবের সাংবাদিক বৃন্দ, ডা. মঞ্জুর ইসলাম, স্কাউট সদস্যবৃন্দ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ছানাউল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, বন্যায় ৫০ টি গ্রামের ১৪ হাজার পরিবার পানিবন্দী  হয়েছে। জীবন বাঁচাতে ঘর-বাড়ী ছেড়ে বন্যাদুর্গত মানুষ বিভিন্ন স্কুলে গিয়ে উঠেছেন। উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে শুকনো খাবার দেওয়া হচ্ছে। আত্রাই নদীর পানি কমলেও নিম্নাঞ্চলে পানি বাড়ছে। এসময় বন্যা দুর্গত মানুষের সাহাযার্থে সমাজে বৃত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

নওগাঁর আত্রাইয়ে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি

নওগাঁর আত্রাইয়ে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি




 মোঃ ফিরোজ হোসাইন 
  রাজশাহী ব্যুরো

নওগাঁর আত্রাইয়ে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। উজান থেকে আসা পানির ঢলে আত্রাই নদীর পানি বেড়েই চলেছে। বর্তমানে আত্রাই নদীর পানি বিপদসীমার প্রায় ৭০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

গতকাল বুধবার উপজেলার ভরতেঁতুলিয়া ও মধুগুড়নই গ্রামে বেড়ি বাঁধ ভেঙে নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন শিবপুর গ্রামের অর্ধেকাংশ পানির নিয়ে তলিয়ে গেছে। এ ছাড়াও পানিবন্দী হয়ে রয়েছে হাজার হাজার মানুষ। অনেকে ঘরবাড়ি ছেড়ে উঁচু বাঁধের উপর আশ্রয় নিয়েছে।

এদিকে পানিবন্দী প্রায় ১ হাজার ৮০০ পরিবারের মাঝে ত্রাণ হিসেবে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়েছে। নদীর পানি বৃদ্ধির ফলে উপজেলার সব বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ হুমকির সম্মুখিন হয়ে পড়েছে।

আত্রাই-নওগাঁ সড়কের সদুপুর নামক স্থানে সড়কের উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে এবং আত্রাই-পোড়াখালী সড়কের উপর হাঁটু পরিমান হয়েছে ফলে এ সড়ক দিয়ে সকল প্রকার যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এ ছাড়াও কাশিয়াবাড়ি সুইচগেটের উপর দিয়ে এবং আত্রাই- বান্দাইখাড়া সড়কের জাতআমরুল নামক স্থানের সড়কের উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। এদিকে এসব সড়ক ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় আত্রাই-নওগাঁ, আত্রাই- বান্দাইখাড়া, আত্রাই-কালীগঞ্জ এবং আত্রাই-সিংড়া সড়কে ভারি যানবাহন চলাচল নিষিদ্ধ  ঘোষণা করা হয়েছে।

মাধবপুরে ৫ জুয়াড়িকে ভ্রাম্যমান আদালতের জেল

মাধবপুরে ৫ জুয়াড়িকে ভ্রাম্যমান আদালতের জেল




লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি 

হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর থানাধীন কাশিমনগর পুলিশ ফাঁড়ির ইন্সপেক্টর মোরশেদ আলমের নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে উপজেলা আরিছপুর নামক স্থান থেকে শুক্রবার (১৭জুলাই) সকালে ৫ জুয়াড়িকে আটক করা হয়েছে।

আটককৃত জুয়াড়িরা হল
ফরিদ মিয়া (৪০) পিতা মৃত নুর হোসেন গ্রাম-রোস্তম পুর মোঃ মাসুক মিয়া (৩০) পিতা-আব্দুল হক গ্রাম-দলগাঁও মোঃ মোঃ জালাল মিয়া (৩৫) পিতা মুছাম উদ্দিন, গ্রাম-আরিছপুর মোঃ আব্দুল খালেক (৫০) পিতা আব্দুল মন্নান গ্রাম হবিবপুর মোঃ সুরুজ মিয়া (৫০) পিতা মৃত আব্দুল হাফিজ গ্রাম আরিছপুর সর্ব ইউনিয়ন বহরা থানা মাধবপুর জেলা হবিগঞ্জ।

পরে দুপুরে জুয়া খেলার অপরাধে ৫ জুয়াড়িকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে মাধবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাশনুভা নাশতারান ১ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

ঘুড়ির নাটায় এখন ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসকের হাতে

ঘুড়ির  নাটায় এখন ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসকের হাতে



সম্রাট হোসেন, স্টাফ রিপোর্টারঃ

করোনা ভাইরাসের জন্য সকল প্রকার খেলা ধুলা বন্ধ, পার্ক বন্ধ   স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় সব কিছুই বন্ধ। তখন সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক জনাব সরজ কুমার নাথ ঝিনাইদহ জেলা স্টেডিয়ামে ঘুড়ি উড়ানো প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।এতে ঝিনাইদহ জেলার ৬টি উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম থেকে প্রায় ১০০ জন  বিভিন্ন ঘুড়ি নিয়ে অংশগ্রহণ করে। এতে ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসকের ঢাকশ ঘুড়িটি সবার উপরে অবস্থান করার জেলা প্রশাসক প্রথম স্থান অধিকার করে। এই সময় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসক বাবু সরজ কুমার নাথ,বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা নিরবাহি অফিসার,  ঝিনাইদহ জেলার প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তা।ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসকের ঘুড়িটি তিনি নিজেই নাটাই ধরে আকাশে উড়ান।

নোয়াখালীতে করোনায় আরো ১ জনের মৃত্যু,নতুন শনাক্ত-২০

নোয়াখালীতে করোনায় আরো ১ জনের মৃত্যু,নতুন শনাক্ত-২০

 
                             
মোঃরুবেল হোসাঈন শুভ, জেলা প্রতিনিধিঃ                                            নোয়াখালীতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আব্দুল ওহাব (৬৫) নামে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে ।তিনি সেনবাগ উপজেলার সেনবাগ পৌরসভার বাবুপুর এলাকার বাসিন্দা ছিলেন ।বুধবার রাতে ঢাকা মুগদা জেনারেল হাসপাতালে তার মৃত্যু হয় ।এদিকে জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরো ২০ শনাক্ত হয়েছে ।শুক্রবার দুপুরে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন মাসুম ইফতেখার ।  শনাক্তদের মধ্যে সদরের পাঁচ জন,হাতিয়ার এক,বেগমগঞ্জের চার,সুবর্ণচরের তিন,সোনাইমুড়ী্র তিন ও কবিরহাট উপজেলার পাঁচ জন ।                                              এ নিয়ে জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছে ২৬৫৮ জন ।যার মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৬৯২ জন ।শনাক্তদের মধ্যে সদরের ৭৭৫, সুবর্ণচরের ১৮৫, হাতিয়ার ৮০, বেগমগঞ্জের ৭১৮, সেনবাগের    ১২২, সোনাইমুড়ীর ১৪৫,  চাটখিলের ১৫১,    কবিরহাটের ৩০২ ও কোম্পানীগঞ্জের ১৮০ জন রয়েছেন । জেলায় এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৫৬ জন ।

কয়রায় আদিবাসী মুন্ডা সম্প্রদায়ের মাঝে মানব কল্যান ইউনিটের ত্রান বিতরণ

কয়রায় আদিবাসী মুন্ডা সম্প্রদায়ের মাঝে মানব কল্যান ইউনিটের   ত্রান বিতরণ






মোহাঃ ফরহাদ হোসেন কয়রা (খুলনা) ,  প্রতিনিধিঃ
দ্রুত ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে মানুষ কর্মহীন হয়ে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকছে, ফলে ভোগান্তি বাড়ছে সমাজের নিন্ম আয়ের মানুষগুলো। অসহায় এসব পরিবার গুলোর মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেছেন মানব কল্যান ইউনিট। এরই ধারাবাহিকতায় খুলনার কয়রা  উপজেলার সুন্দরবন সংলগ্ন  নলপাড়া এবং ৬নং কয়রা গ্রামে ১০০ টি দরিদ্র মুন্ডা পরিবারে খাদ্য সামগ্রী বিতরন কার্যক্রমে সহায়তা করেছে  মানব কল্যান ইউনিট।

খাদ্য তালিকায় ছিল চাউল ৭কেজি, ডাউল   ১কেজি, তেল ১কেজি,  লবন ৫০০ গ্রাম, আলু ২/৫০০,, চিনি ৫০০ গ্রাম,  স্যালাইন৪টা   শুক্রবার (১৭ই জুলাই) সকালে মানব কল্যান ইউনিটের  ত্রান বিতরন কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন মানব কল্যান ইউনিটের সভাপতি আল আমিন ফরহাদ,  আইসিডির প্রতিষ্ঠতা  আশিকুজ্জামান (আশিক) ইউনিটের সাধারন সম্পাদক, জাহানের আলম, সহ সাধারন সম্পাদক ইমরান হোসাইন ও মেহেদী হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক রায়হান কবির সাইফুল ইসলাম, বায়জীদ হাসান সাজ্জাদ,  সহ ইউনিটের সদস্য বৃন্দ! 



মানব কল্যান ইউনিটে সভাপতি আল আমিন ফরহাদ বলেন সকল বর্ণ_বৈষম্যকে_না_বলুন
মানব কল্যাণ ইউনিট এর পক্ষ থেকে মুন্ডা সম্প্রদায়ের ১০০ পরিবারের মাঝে উপহার সমগ্রী বিতারন সম্পন্ন হয়েছে! প্যকেটের বাইরে তাদের জন্য ছিল মনভর ভালবাসা! পক্ষান্তরে আমরা পেয়েছি অসহায় মানুষ গুলোর ঠোটের কোনায় এক টুকরো হাসি! যে হাসি পরবর্তী কার্যক্রমের উৎসাহ এনে দেয়! যে হাসি ভেদাভেদ ভুলে একসাথে বেচে থাকার আহবান জানায়! এবং ভবিষ্যৎ ও তাদের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে যানায়।

কেশবপুরে করোনা আক্রান্ত নারীর মৃত্যু

কেশবপুরে করোনা আক্রান্ত নারীর মৃত্যু





মোরশেদ আলম যশোর ভ্রাম্যমান প্রতিনিধিঃ  
যশোরের কেশবপুরে করোনা আক্রান্ত ৫০ বছর বয়সী এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার মজিদপুর গ্রামের আব্দুল বারিকের স্ত্রী। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পার্শ্ববর্তী সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়া উপজেলার কেড়াগাছি ইউনিয়নের পাচপোতা দমদম বাজার এলাকায় ওই নারীর বাবার বাড়িতে তার মৃত্যু হয়। এ নিয়ে উপজেলা করোনায় আক্রন্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো দুই জনে।

কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আলমগীর হোসেন ওই নারীর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ওই নারী ১৩ জুলাই করোনা উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। ওই দিনই তার নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠানো হয়। 

গত ১৪ জুলাই বিকালে শ্বাস কষ্ট দেখাদিলে যশোর সদর হাসপাতালে স্থানাস্তর করা হয়। তার পরিবারের লোকজন তাকে সেখানে ভর্তি না করে সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়া উপজেলার কেড়াগাছি ইউনিয়নের পাচপোতা দমদম বাজার এলাকায় ওই নারী বাবার বাড়িতে নিয়ে যায় এবং চিকিৎসা না নিয়ে সে সেখানেই অবস্থান করছিল।

 বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সেখানেই তার মৃত্যু হয়। গত কাল (১৫ জুলাই) যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জিনোম সেন্টারের রিপোর্টে তার শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। এ পর্যন্ত উপজেলায় ৬২ জন আক্রান্ত হয়। গত ৬ জুলাই করোনা আক্রান্ত হয়ে অবসরপ্রাপ্ত এক প্রধান শিক্ষকের মৃত্যু হয়। এ নিয়ে উপজেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো দুই জনে।

আশাশুনিতে মৎস্য ঘের লুটপাটের অভিযোগ

আশাশুনিতে মৎস্য ঘের লুটপাটের অভিযোগ




আহসান উল্লাহ বাবলু, আশাশুনি( সাতক্ষীরা) প্রতিনিধিঃ  আশাশুনি উপজেলার বড়দল ইউনিয়নে প্রশাসনের নির্দেশনাকে অবজ্ঞা করে দুর্বল জনগোষ্টির ভোগদখলীয় রেকডীয় সম্পত্তি জবর দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই সম্পত্তিতে মালিক পক্ষের মৎস্য ঘেরের বাসা, নেট-পাটা, বাঁশ-খুটি ছিড়ে ছুটে উধাও ও বাঁধ কেটে দিয়ে ৫০ সহ-লক্ষাধিক টাকার মাছ লুটপাট করেছে প্রতিপক্ষ হারুন শেখ গংরা। থানায় লিখিত অভিযোগ ও সরেজমিনে ঘুরে জানাগেছে, উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের ফকরাবাদ মৌজায় সিএস ৬৪৪, ৬৪৫ ও ৬৮২ দাগে মোট ৭.৪৭ একর সম্পত্তির মূল মালিক মুহিম ঢালী। তার মৃত্যুকালে এসএ ১২১ খতিয়ানে একই দাগের সমুদয় সম্পত্তির মালিক হন মুহিম ঢালির ৩ পুত্র বানী কান্ত ঢালী, কান্ত রাম ঢালী ও শান্তি রঞ্জন ঢালী। বানী কান্তর জীবোদ্বশায় ৩ পুত্রের মধ্যে মনোরঞ্জন ঢালী বাদে বাকী দু’ভাই ভারতে বসবাস করতেন এবং পর্যায়ক্রমে ভারতের দু’ভাই মারা যান। ফলে হিন্দু আইন মতে বানী কান্ত ঢালীর দু’পুত্র ভারতে বসবাস করায় এবং দেশের নাগরিক না থাকায় ওই সম্পত্তির মালিক থাকেন একাই মনোরঞ্জন ঢালী। সে মোতাবেক আরএস ৮১২ খতিয়ানে এসএ ৬৮২ দাগের আরএস ২১৪৬, ২১৪৭, ২১৪৮ ও ২৩৯৯ দাগে মোট ৪.৩৩ একর, এসএ ৬৪৪ দাগের আরএস ২১৮১ ও ২১৮২ দাগে মোট ২.৩১ একর এবং এসএ ৬৪৫ দাগের আরএস ২১৫৬ দাগে দশমিক ৭০ একর সর্বমোট পৈত্রিক ৭.৪৭ একর সম্পত্তির মধ্যে ৭.৩৪ একর সম্পত্তি মুহিম ঢালির ওয়ারেশ অনুপাতে মনোরঞ্জনসহ তার শরিকদের নামে রেকর্ড হয়। বাকী ১৩ শতক সম্পত্তি রাস্তা হওয়ায় খাস খতিয়ানে রেকর্ড হয়। কিন্তু, মনোরঞ্জনের অন্যান্য শরিকের লোকজন প্রায় দেশে না থাকায় এবং দূর্বল জনগোষ্টির লোক হওয়ায় পার্শ্ববর্তী বুড়িয়া গ্রামের মুসলিম সম্প্রদায়ের হারুন শেখের নজর পড়ে ওই জমিতে। কাগজ পত্রের ফাক ফোক দিয়ে সাড়ে ৬৯ শতক জমি তার স্ত্রী আফিরোন্নেছার নামে বাংলা ১৪২২ সাল পর্যন্ত ধান্য চাষের শ্রেনী দেখিয়ে ইউনিয়ন সহকারি ভূমি কর্মকর্তা সাথে যোগসাজসে ০২ জুলাই’১৫এ তারিখে কসনা ডিসিআর নেয়। জানতে পেরে মনোরঞ্জসহ তার পরিবার সজাগ দৃষ্টি রেখে অদ্যবদি পর্যন্ত ওই সম্পত্তি ভোগ দখলে থেকে মৎস্য করে আসছে। কিন্তু বিগত ৪/৫ বছর হারুন শেখ কোন ডিসিআর নিতে পারেনি। এরই মধ্যে হারুন শেখ একটি মহলের ইন্দনে পেশী শক্তির ভয় দেখিয়ে মনোরঞ্জনের পরিবারে লোকদের হুমকি ধামকি ও প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে সম্পত্তি জবর দখলের চেষ্টা চালাতে থাকে। এতে মনোরঞ্জনসহ তার পরিবার ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে থানায় হারুন শেখের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। সে মোতাবেক শান্তি শৃঙ্খলা ভঙ্গের আশঙ্কায় থানা অফিসার ইনচার্জ গোলাম কবিরের নির্দেশে আদিষ্ট হয়ে এসআই বেল্লাল হোসেন উভয় পক্ষকে কাগজপত্রান্তে আজ শুক্রবার থানায় শালিশে বসার মৌখিক নোটিস দেন। সে নির্দেশনাকে অজ্ঞা ও বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে গত বুধবার হারুন শেখসহ তার বাহিনী নিয়ে উক্ত সম্পত্তিতে অবৈধভাবে প্রবেশ করে মৎস্য ঘেরের বাসা, বসার বেঞ্চ, ভাংচুর, নেট-পাটা তুলে ও বাঁধ কেটে তছনছ করে ৫০ সহ¯্রাধিক টাকার মাছ ও সম্পদ নষ্ট ও লুটপাট করেছে বলে মনোরঞ্জনের পরিবার জানায়। এ ব্যাপারে মনোরঞ্জনসহ তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছে। তারাসহ তার গোষ্টির লোকজন পুলিশ প্রশাসনের শক্ত হাতের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

ব্রেকিং নিউজ

ব্রেকিং নিউজ
 



নিউজ ডেস্কঃ  
** ২৪ ঘণ্টায় ১৩৪৬০ নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত ৩০৩৪।
** দেশে করোনায় আরও ৫১ জনের মৃত্যু, মোট প্রাণহানি ২৫৪৭।
** করোনায় দেশে মোট আক্রান্ত ১ লাখ ৯৯ হাজার ৩৫৭।
** ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ ১৭৬২ করোনা রোগী, মোট সুস্থ ১,০৮,৭২৫।
** গত ২৪ ঘণ্টায় পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্ত ২২.৫৪ শতাংশ।

সাতক্ষীরার মাধবকাটি এলাকা থেকে গাঁজাসহ আটক-১

সাতক্ষীরার মাধবকাটি এলাকা থেকে গাঁজাসহ আটক-১
আজহারুল ইসলাম সাদী, জেলা প্রতিনিধিঃ
সাতক্ষীরার মাধবকাটি এলাকা থেকে দুই কেজি গাঁজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটেলিয়ন।
আজ শুক্রবার ১৭ জুলাই) ভোরে সাতক্ষীরা সদর  উপজেলার মাধবকাটি অন্যের মোড় নামক স্থানের পাকা রাস্তার উপর থেকে তাকে আটক করা হয়।
আটক মাদক ব্যবসায়ীর নাম শাহিনুর সরদার (৩১)। তিনি সদর উপজেলার বাবুলিয়া কুচপুকুর গ্রামের রেছাতুল্লাহ সরদারের ছেলে।
র‌্যাব জানায়, সদর উপজেলার মাধাবকাটি এলাকায় কতিপয় ব্যক্তি মাদক দ্রব্য ক্রয়-বিক্রয় করার উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তি র‌্যাব-৬ এর সাতক্ষীরা ক্যাম্পের অধিনায়ক সিনিয়র এ.এস.পি বজলুর রশিদের নেতৃত্বে একটি আভিযানিক দল সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় মাধবকাটি অন্যের মোড় নামক স্থানের জনৈক আতাউর মেম্বরের বাড়ির পিছনে পশ্চিম পাশের পাকা রাস্তার উপর থেকে দুই কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী শাহিনুর সরদারকে হাতেনাতে আটক করে।
র‌্যাব সাতক্ষীরা ক্যাম্পের অধিনায়ক সিনিয়র এ.এস.পি বজলুর রশিদ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

হবিগঞ্জে অদৃশ্য দানব করোনা ভাইরাসের থাবায় হাজার ছাড়ালো আক্রান্ত

হবিগঞ্জে অদৃশ্য দানব করোনা ভাইরাসের থাবায় হাজার ছাড়ালো আক্রান্ত
লিটন পাঠান হবিগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ
হবিগঞ্জ জেলায় শতকের অংক পেরিয়ে হাজার ছাড়ালো করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। নতুন আরো একুশ জন সনাক্তের পর জেলায় মোট আক্রান্ত হলেন ১ হাজার ১৭ জন। মৃত্যুর সংখ্যা ৮ ও সুস্থ হয়েছেন ৪৪৭ জন। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে বারোটায় নতুন করে একুশ জন আক্রান্তের কথা জানান হবিগঞ্জের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মুখলিছুর রহমান উজ্জ্বল। এদের মাঝে 

হবিগঞ্জ সদর উপজেলায় ১২ নবীগঞ্জ ৪ মাধবপুর ৩ ও বাহুবল উপজেলার ২ জন ১৪ জুলাই এদের নমুনা প্রেরণ করা হয় সিলেটে। রিপোর্ট এসেছে ৩ দিন পর।
জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের হিসেবে গত ১১ এপ্রিল হবিগঞ্জে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী সনাক্ত হন। এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ১৭ জন। এদের মধ্যে হবিগঞ্জ সদর ও শায়েস্তাগঞ্জসহ ৪১৭ চুনারুঘাট ১৬৩ মাধবপুর ১৪১ নবীগঞ্জ ১১১ বাহুবল ৭১।

লাখাই ৩৯ বানিয়াচং ৪১ ও আজমিরীগঞ্জ উপজেলায় ৩০ জন। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৪৪৭ জন ও মারা গেছেন আটজন। এদিকে প্রথম রোগী সনাক্তের একমাস পর ১১ মে ১০২ জন এবং দ্বিতীয় মাসে ১১ জুন মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ায় ২২৭ জনে। সর্বশেষ ১৭ জুলাই আক্রান্তের সংখ্যা হলো ১ হাজার ১৭ জন। সেই হিসেবে শেষ এক মাস ৫ দিনে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছ প্রায় চারগুণ।

প্রায় ৩ একর সরকারী খাস সম্পত্তিতে থাকা খেলার মাঠ দখলের প্রতিবাদে দিনাজপুরে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করেছে স্থানীয়রা

প্রায় ৩ একর সরকারী খাস সম্পত্তিতে থাকা খেলার  মাঠ দখলের প্রতিবাদে দিনাজপুরে  ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করেছে স্থানীয়রা


মামুনুর রশিদ,দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুর সদরের কুঠিবাড়ি চাতরা পাড়া এলাকায় ভুমিদস্যুরা প্রায় ৩ একর সরকারী খাস সম্পত্তিতে থাকা খেলার মাঠ দখলের প্রতিবাদে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করেছে স্থানীয় বাসিন্দারা।
আজ শুক্রবার সকালে সদরের কুঠিবাড়ি চাতরাপাড়া এলাকাবাসীর  আয়োজনে দখল হওয়া মাঠে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে ৩ শতাধিক নারী পুরুষ, যুবক ও শিশুরা অংশ নেয়।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন,শহরের কুঠিবাড়ি চাতরা পাড়া সংলগ্ন পূর্নভবা নদীর পাড়ে কাঞ্চন মৌজার জে এল নং ৬১ এবং ৮৯৬ নং দাগের ২ দশমিক ৩৪ একর সরকারী খাস খতিয়ান ভুক্ত জমিটি দখলের অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে স্থানীয় সংখ্যালুঘু প্রভাবশালী ভুমিদস্যু। 
তারা বলেন,খেলার মাঠ ও সামাজিক কর্মকান্ডে ব্যবহার করা জায়গাটি স্থানীয় মানুষদের উচ্ছেদের মাধ্যমে ভুমিদস্যুরা ধর্মের নাম ব্যবহার করে দখলের মাধ্যমে আর্থিক ফায়দা হাসিলের চেষ্টা করছে, আমরা ইতিমধ্যে মাঠটির প্রয়োজনীয়তার বিভিন্ন যৌতিকতা তুলে ধরে জেলা প্রশাসনের কাছে খেলার মাঠ রক্ষায় লিখিত দাবী করেছি। 
বক্তারা আরো বলেন,সংখ্যালুঘু চতুর প্রভাবশালী ওই ভুমিদস্যু মাঠ দখলে নেয়ার আগেই স্থানীয় বাধ সংলগ্ন মানুষের কাছে বাড়ি ভেঙ্গে দেয়ার ভয় দেখিয়ে আর্থিক ফায়দা নিয়েছে। মাঠ দখলের ব্যাপারে স্থানীয়দের কেউ যদি কোন প্রতিবাদ করে তাহলে তাকে সংখ্যালুঘুদের নির্যাতনসহ যে কোনো মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর ভয়ও দেখিয়ে আসছে ওই ভুমিদস্যু।  
বীর মুক্তিযোদ্ধা জামাল উদ্দীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন চলাকালে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় বাসিন্দা,মো: সজিব হাসান,মো: আইনুল হক,মো: আল আমিন,মো: সাগর আহম্মেদ ও মজিবুর রহমান প্রমুখ।

হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে মুসলমান হলেন এক স্কুল শিক্ষিকা।হেয়পতিপন্নের অভিযোগ পূর্বের স্বামীর বিরুদ্ধে

হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে মুসলমান হলেন এক স্কুল শিক্ষিকা।হেয়পতিপন্নের অভিযোগ পূর্বের স্বামীর বিরুদ্ধে

     

মোঃএরশাদ হোসেন রনি,মোংলা   
মোংলায় হিন্দু ধর্ম ত্যাগকরে ইসলাম ধর্ম গ্রহন করেছেন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক স্কুল শিক্ষিকা শর্মিষ্ঠা মিত্র। বর্তমানে তার নাম রাখা হয়েছে মোসাঃসেজুতি বেগম।হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে মুসলমান হওয়ার কারনে তার পূর্বের স্বামী তাকে সন্মান হানী ও হেয়পতিপন্ন করছে এমন অভিযোগ করেছেন নব মুসলিম মহিলা সেজুতি বেগম। 


   এ সম্পর্কে  সেঁজুতি বেগম  জানান স্কুল  জীবন থেকেই মুসলিম ধর্মের প্রতি আমার দুর্বলতা কাজ করতো।আমার কাছে মুসলমান ধর্মের সকল নিয়ম কানুন আচার আচরণ ভালো লাগতো।কিন্তু হিন্দু পরিবারে জন্ম গ্রহন করায় তখন মুসলমান হওয়ার ইচ্ছা থাকলেও সমাজের কথা ভেবে তা কখনো বাস্তবায়ন করতে পারি নাই।
২০০৮ সালে আমার মোংলার ব্রাম্মনমেঠ গ্রামের সুশান্ত'র সাথে বিয়ে হয়।স্বামীর সংসারে মোটামুটি ভালোই চলছিলো আমার দাম্পত্য  জীবন । কিন্তু কিছুদিন পর হঠাৎ স্বামী সুশান্ত আমার  সাথে বিভিন্ন অযুহাতে খারাপ ব্যবহার শুরু করে।দিন দিন তার খারাপ ব্যাবহারের মাত্রা বেড়ে যেতে থাকে।সে আমাকে শারীরিক নির্যাতন করা ও শুরু করে দেয়। আমি তখন গর্ভবতী হওয়ায় অনাগত সন্তানের কথা ভেবে সব নির্যাতন মেনে নিয়ে সংসার করতে থাকি।এরই মধ্যে আমাদের কোল জুড়ে আসে একটি পুত্র সন্তান। সন্তানের মুখের দিক তাকিয়ে ভেবেছিলাম হয়তো আমার স্বামী ভালো হয়ে যাবে।কিন্তু না তা হলো না উল্টো বেড়ে গেলো নির্যাতন এর মাত্রা।আমি একজন স্কুল শিক্ষিকা তাই সমাজের কথা ভেবে নীরবে সব সহ্য করে যেতাম।     
 সবকিছু স্বাভাবিক ভাবেই চলছিল হঠাৎ একদিন আমি জানতে পারলাম আমার উপর নির্যাতন এর রহস্য।জানলাম আমার স্বামী অন্য এক মেয়ের সাথে পরকীয়ায় আসক্ত,প্রথমে বিশ্বাস করতে পারছিলাম না।পরে যখন দেখলাম ঘটনা আসলেই সত্য তখন আমি রাগ করে আমার বাবার বাড়ি চলে যাই,কিছুদিন বাবার বাড়ি থাকার পর আমার স্বামী সুশান্ত আমার বাবার বাড়ী আসে এবং আমার কাছে তার পূর্বের কৃতকর্মের জন্য ভূল স্বীকার করে।আমিও সন্তানের মুখের দিক তাকিয়ে পিছনের কথা ভূলে গিয়ে ওর কথাই সায় দিয়ে আবার স্বামীর বাড়ি ফিরে আসি।কিছুদিন   যেতে না যেতে আবারও আমাকে মানুষিক ও শারীরিক  ভাবে নির্যাতন শুরু করে আমার স্বামী সুশান্ত।
  আমার  চাকরির বেতনের টাকা পর্যন্ত  নিয়ে যেত সে,এবং টাকা দিতে না চাইলে খারাপ ব্যাবহার করতো,  তারপরও আমি আমার সন্তানের কথা ভেবে সকল যন্ত্রণা সইতে থাকি।একসময় আমি আর সইতে পারছিলাম না।তখন আমি তাকে সেচ্ছায় কোর্টের মাধ্যমে  ডিভোর্স দেই।   
এরপর আমি সেচ্ছায় কোর্টের মাধ্যমে ইসলাম ধর্ম গ্রহন করি।কারন পূর্বে থেকেই আমার ইসলাম ধর্মের প্রতি আলাদা টান ছিলো।মুসলমান ধর্ম পালনের বেশ কিছুদিন পর আমি মুসলমান ধর্মের নিয়ম রীতি অনুযায়ী মুসলমান একটি ছেলেকে বিয়ে করে নতুন জীবন শুরু করি।ভালোই কাটছে আমার বর্তমান সময়।এটা সহ্য করতে পারছে না আমার পূর্বের স্বামী সুশান্ত। সে এখন বিভিন্ন ভাবে সমাজের কাছে আমাকে হেয় করার চেস্টা করছে।আমার নামে নানান রকমের খারাপ কথা রটাচ্ছে।আমি এখন তার কারনে সমাজের কাছে দোষী হয়ে উঠেছি।সমাজের কাছে আমার সন্মান হানি করছে আমার পূর্বের স্বামী সুশান্ত।সে আমাকে হেয় পতিপন্ন করছে সব যায়গায়।

ঝিনাইদহ আরো ২৭ জন করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু-১

ঝিনাইদহ আরো ২৭ জন করোনায় আক্রান্ত, মৃত্যু-১



সম্রাট হোসেন, শৈলকুপা( ঝিনাইদহ) সংবাদদাতাঃ অফিসিয়াল ভাবে আমাদের কাছে কুষ্টিয়া_ল্যাব থেকে আরো ৮৪টি_নমুনার_ফলাফল এসেছে। যার ৫৯জন_নেগেটিভ এবং ২৫জন_নতুন_আক্রান্ত।এবং যশোর থেকে মহেশপুর উপজেলাতে ২জন স্থানান্তর।সুতরাং মোট আক্রান্তের সংখ্যা আজ ২৫+২=২৭ জন। 

মোট প্রাপ্ত ফলাফলের ২৯৫৮+৮৪=৩০৪২
নেগেটিভ_২৪৫৫
আক্রান্ত_৫৬০+২৭=৫৮৭

মোট_সংগৃহীত_নমুনার_সংখ্যা_৩৩৫০

উপজেলা_ভিত্তিক_আক্রান্তের_মোট_সংখ্যা 
সদর_২১৮+১৪=২৩২
শৈলকূপা_৭৩+৩=৭৬
হরিনাকুন্ডু_২৪
কালীগন্জ_১৮৬+৮=১৯৪
কোটচাদপুর_৩১
মহেশপুর_২৮+২=৩০

আক্রান্তদের_এলাকা_সমুহ

সদর_১৪
১.পুলিশ লাইন ঝিনাইদহ
২.পুলিশ লাইন ঝিনাইদহ
৩.পুলিশ লাইন ঝিনাইদহ
৪.মথুরামপুর
৫.শিকারপুর সড়ক নং ২৪
৬. আরাপপুর 
৭.খাপারা,আরাপপুর 
৮.আরাপুর,দুঃখী মাহমুদ সড়ক
৯.RAB ক্যাম্প ঝিনাইদহ
১০.মোল্লা ভবন মডার্ন সড়ক
১১.চাকলাপাড়া
১২.সোনালী ব্যাংক
১৩.আদর্শপাড়া
১৪.গোবিন্দপুর

কালীগঞ্জ_৮
১.ফয়লা
২.কলেজ পাড়া
৩.বেলেদাঙ্গা বারিনগর
৪.গোপালপুর, জামাল
৫.কালীগঞ্জ উপজিলা কোয়ার্টার
৬.মমধুগঞ্জ বাজার
৭.নিশ্চিন্তপুর
৮.থানা পাড়া 

শৈলকূপা_৩
১.বাজার পাড়া
২.হিদাম্পুর মনোহরপুর
৩.ফাজিলপুর

মহেশপুর_২
১ যশোর থেকে স্থানান্তর
২.যশোর থেকে স্থানান্তর 

​মোট_সুস্থতার_সংখ্যা_১৯২+৬=১৯৮

উপজেলা_ভিত্তিক_সুস্থতার_সংখ্যা

সদর_৬০+৬=৬৬
শৈলকূপা_৩৯
হরিনাকুন্ডু_৬
কোটচাঁদপুর_২০
কালীগন্জ_৫৬
মহেশপুর_১১

কোভিড_১৯_হাসপাতালে_ভর্তি_রোগীর_সংখ্যা_২১

মোট_মৃত্যুর_সংখ্যা_১১+১=১২
সদর_৩+১=৪
শৈলকূপা_৪
কালিগন্জ_৪

বিশিষ্ট রাষ্ট্রবিজ্ঞানী অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ আর নেই

বিশিষ্ট রাষ্ট্রবিজ্ঞানী অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ আর নেই

সম্রাট হোসেন, স্টাফ রিপোর্টারঃ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দিন আহমদ মারা গেছেন। বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমাতুল্লাহ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রাত দুইটায় স্ট্রোক করলে অধ্যাপক এমাজউদ্দিনকে রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে নেয়া হয়। ১৭ জুলাই শুক্রবার ভোর ৬টার দিকে মারা যান তিনি। এমাজউদ্দীন আহমদের মেয়ে ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. দিল রওশন জিন্নাত আরা নাজনীন বলেন, বাদ জুমা রাজধানীর কাঁটাবনে মরহুমের বাসভবন সংলগ্ন বাজমে কাদেরিয়া জামে মসজিদে নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে মরহুমের স্ত্রীর পাশে সমাহিত করা হবে অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদকে। ১৯৩২ সালের ১৫ ডিসেম্বর জন্ম নেয়া এমাজউদ্দীন প্রায় আড়াই দশক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পলিটিক্যাল সায়েন্স বিভাগে অধ্যাপনা করেছেন। পাশাপাশি পালন করেছেন প্রতিটি প্রশাসনিক দায়িত্বও। ছিলেন বিভাগীয় প্রধান, মহসিন হলের প্রভোস্ট, প্রক্টর, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর এবং সবশেষে ভাইস চ্যান্সেলর। ১৯৯২ খেকে ১৯৯৬, এই পাঁচ বছর ভাইস চ্যান্সেলর ছিলেন। এরপর ছ’বছরের কর্মবিরতি শেষে ২০০২ সালে যোগ দেন ইউনিভার্সিটি অব ডেভলপমেন্ট অলটারনেটিভের ভাইস চ্যান্সেলর পদে। দীর্ঘ ৪০ বছর ধরে তুলনামূলক রাজনীতি, প্রশাসন-ব্যবস্থা, বাংলাদেশের রাজনীতি, বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতি, দক্ষিণ এশিয়ার সামরিক বাহিনী সম্পর্কে গবেষণা করে চলেছেন। এসব ক্ষেত্রে সমগ্র দক্ষিণ এশিয়ায় তিনি বিশেষজ্ঞ হিসেবেও প্রখ্যাত। তার লিখিত গ্রন্থের সংখ্যা অর্ধশতাধিক। দেশ বিদেশের খ্যাতনামা জার্নালে তার প্রকাশিত গবেষণামূলক প্রবন্ধের সংখ্যা শতাধিক।



বিপদে সর্বদায় মানুষের পাশে এমপি আক্তারুজ্জামান বাবু

বিপদে সর্বদায় মানুষের পাশে এমপি আক্তারুজ্জামান বাবু



কয়রা প্রতিনিধি : সাধারণ মানুষের কাছে মানবতার সেবক হিসাবে পরিচিত খুলনা ০৬ (কয়রা পাইকগাছা) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু এমপি সড়ক দূর্ঘটনায় আহত হয়ে খুলনার সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বটিয়াঘাটার সুরখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক যুবলীগ নেতা মোঃ জাকির হোসেন লিটুকে দেখতে বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) রাতে হাসপাতালে যান।

এ সময় তিনি আওয়ামীলীগ নেতা জাকির হোসেনের আশু সুস্থতা কামনা করেন। এ সময় তিরি তার শয্যা পাশে কিছু সময় কাটান ও তার চিকিৎসার খোজ খবর নেন জাকির হোসেনের চিকিৎসায় কর্তব্যরত ডাক্তার এর কাছ থেকে ।

এ সময় সাংসদ বাবু’র সাথে উপস্থিত ছিলেন জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন বাবু, জেলা যুবলীগ নেতা হারুন আর রশীদ, শামীম সরকার, জলমা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোল্যা মিজানুর রহমান বাবু, বিএল কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি শেখ মোঃ শাকিল, ছাত্রলীগ নেতা শিমুল দেবনাথ, আতিক হাসান প্রমুখ।

জানা যায় এমপি আক্তারুজ্জামান বাবু দলীয় নেতা কর্মী কেউ কোন বিপদে পড়লে ও অসুস্থ থাকলে ছুটে যান তার পাশে তার ও তার পরিবারের খোজ খবর নিতে। নিজের সামর্থ অনুযায়ী বাড়িয়ে দেন সহযোগীতার হাত। বিপদে পাশে পেয়ে নেতা কর্মীরা এমপি বাবুর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

শিবগঞ্জের ১০ জনসহ চাঁপাইনবাবগঞ্জে নতুন করে ১৪ জন পজিটিভ || মোট আক্রান্ত ২৪১

শিবগঞ্জের ১০ জনসহ চাঁপাইনবাবগঞ্জে নতুন করে ১৪ জন পজিটিভ || মোট আক্রান্ত ২৪১



শামিম চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :১৬ জুলাই বৃহস্পতিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলায় ৪ জন ও বাদবাকি ১০ জন শিবগঞ্জ উপজেলার মোট ১৪ জন করোনা ভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সিভিল সার্জন ডাক্তার মো. জাহিদ নজরুল চৌধুরী রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

১৪ জনসহ এখন জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৪১ জন। তবে সুস্থ হয়েছেন এ পর্যন্ত ৯৭ জন করোনা রোগী। বাকীরা হোম কোয়ারেন্টাইন এ থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন, ভাল আছেন।


 
আক্রান্তরা হচ্ছে, মোসা. জোসনা আরা বেগম (৪৫), নুরুন নাহার (৪৯), জাকেরা খাতুন (৫০), আয়েশা বেগম (৪০), নূর নাহার (৩২), সাদিকুল আলম (৬১), জিয়ারুল ইসলাম (৩৫), আরজু মন্ডল (৩০), তুষার আহমেদ (৩১), শফিকুল আলম (৫০), হাসেম আলী (২৭), হাসান ফারুক (৫৬), রেজুয়ানুল ইসলাম (২৮), মশিবুর রহমান (৫৫)।

রাজশাহী ল্যাবে মোট ১৮৬টি করোনা রিপোর্ট আসে বৃহস্পতিবার। যার ভেতর পজিটিভ ৬৮ টি। এই ৬৮ জনের ভেতর ১৪ জন চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা ও শিবগঞ্জ উপজেলার। কাজেই করোনা ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পেতে সরকারি নির্দেশনা মেনে চলার জোর আহবান জানিয়েছেন স্থানীয় প্রশাসন।

কোটচাঁদপুরে পূনর্বাসিত ব্যাক্তিদের মাঝে গরু ও সাইকেল বিতরণ

কোটচাঁদপুরে পূনর্বাসিত ব্যাক্তিদের মাঝে গরু ও সাইকেল বিতরণ



তাহের খান, কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ)  উপজেলা প্রতিনিধিঃ
অদ্য ১৬-০৭-২০২০ এ ডি পি এর অর্থায়নে কোটচাঁদপুর উপজেলায়  বিভিন্ন সেবামূলক কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। 

এই দিন দরিদ্র নৃগোষ্ঠী শিক্ষার্থীদের মাঝে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার এক হাজার(১০০০) টাকা ও সাইকেল দেওয়া হয় ।

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ৩ টি কর বৃক্ষরোপন করা হয়। 

সকল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের মাঝে ১১০০ পিস মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও র্থামো স্কানার দেওয়া হয়। 

এডিপির অর্থায়নে পূনর্বাসিত ব্যাক্তিদের মাঝে গরু বিতরণ করা হয় ।

এছাড়াও এই কর্মসূচির সময় করোনা ভাইরাসের সর্তকর্তা মূলক দিক নির্দেশনা দেওয়া হয় 

উক্ত কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন কোটচাঁদপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জনাবা, শরিফুন্নেছা মিকি  এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও অনান্য কর্মকর্তা গন।

মহামান্য রাষ্ট্রপতি জনাব এডভোকেট মোঃ আব্দুল হামিদ এর ছোট ভাইয়ের মৃত্যুতে দাইয়ানুর রহমান মিষ্টারনুর এর শোক প্রকাশ

মহামান্য রাষ্ট্রপতি জনাব এডভোকেট মোঃ আব্দুল হামিদ এর ছোট ভাইয়ের মৃত্যুতে দাইয়ানুর রহমান মিষ্টারনুর এর শোক প্রকাশ





ডেস্ক রিপোর্টঃ

মহামান্য রাষ্ট্রপতি জনাব এডভোকেট মোঃ আব্দুল হামিদ স্যারব ছোট ভাই ও সহকারী একান্ত সচিব মুক্তিযোদ্ধা জনাব আবদুল হাই স্যার আজ রাত ১:৪৫মিনিটে ঢাকার সিএমএইচে ইন্তেকাল করেছেন।
((ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন))
বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন কুয়েত শাখার পক্ষথেকে ও জননেত্রী শেখ হাসিনা পরিষ কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে গভীর শোক প্রকাশ করছি ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করছি।
মরহুমের বিদায়ী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি। 
আল্লাহ সুবহানাতায়ালা তাকে যেন জান্নাত নসিব করেন (আমীন)
শোকবার্তাঃ
দাইয়ানুর রহমান মিষ্টারনুর
সাধারণ সম্পাদক
বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন, কুয়েত শাখা
সহ-সম্পাদক 
বাংলাদেশ জননেত্রী শেখ হাসিনা পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি।